LatestsNews
# ব্যাচেলর খ্যাত সালমান খান অবশেষে বিয়ের জন্য নায়িকা পাত্রী খুঁজে পেয়েছেন# সন্ত্রাসীদের অতর্কিত হামলায় ঠাকুরগাঁও প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আহত # নকশা জালিয়াতির অভিযোগে কাসেম ড্রাইসেলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক তাসভীর-উল-ইসলামকে গ্রেফতার।# ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তুচ্ছ বিষয়কে কেন্দ্র করে নার্স ও স্টাফদের সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনা# রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের সুষ্ঠু পরিবেশ নিশ্চিত করতে মিয়ানমারকে আহ্বান জানিয়েছে জাতিসংঘ।# হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের মৃত্যুর পর জাতীয় পার্টির বিভক্তি আরো স্পষ্ট হয়ে উঠছে।# ডেঙ্গু মোকাবিলায় সতর্কতা ও সচেতনতা আরো বাড়ানোর আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা# ঈদের আগে পরে মোট ১৩ দিনে এবার সড়ক, নৌ ও রেল পথে ২৪৪টি দুর্ঘটনায় মোট ২৫৩ জন নিহত ও ৯০৮ জন আহত।# গাইবান্ধা আধুনিক হাসপাতালের বেহাল অবস্থা # ভারতে নিহত মাইনুল ও তানিয়া মরদেহ দেশে আনা হয়েছে# যেভাবে চামড়ার দাম কমানো হয়েছে তা দূরভিসন্ধিমূলক:মসিউর রহমান রাঙ্গা।# বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নে রূপপুরে নির্মাণাধীন পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প দেশের দ্বিতীয় মুক্তিযুদ্ধ।# চলনবিলে পর্যটকের ঢল# চলনবিলে পর্যটকের ঢল# সৌদি আরবে বাংলাদেশি হাজিদের বহনকারী একটি বাস দুর্ঘটনায় একজন নিহত ও বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন# সৌদি আরবে বাংলাদেশি হাজিদের বহনকারী একটি বাস দুর্ঘটনায় একজন নিহত ও বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন# পশ্চিমবঙ্গের কলকাতায় মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন বাংলাদেশের দুজন নাগরিক। # জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে ‘ফ্রেন্ড অব দ্য ওয়ার্ল্ড’ বা ‘বিশ্ববন্ধু’ হিসেবে আখ্যা দেয়া হলো# ডেঙ্গু প্রতিরোধ-সচেতনতায় 'স্টপ ডেঙ্গু' অ্যাপ চালু # অবশেষে টাইগারদের নতুন কোচ হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকার রাসেল ডোমিঙ্গাকে।
আজ সোমবার| ১৯ আগস্ট ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

ভূমিমন্ত্রীর লাগামহীন স্বেচ্চাচারিতায় পাবনা অা'লীগ খন্ড - বিখন্ড : উত্তরণের একমাত্র পথ সৎ নেতৃত্বের মনোনয়ন"



সদরুল অাইন :
 
                   
 অা'লীগের ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত পাবনা জেলা অা'লীগ এখন  দ্বিধা বিভক্ত। এখানে সবায় নেতা, কর্মি নেই, নেই চেইন অব কমান্ড। দলে নেই কোন শৃঙ্খলা।সৎ নেতৃত্বের অবমূল্যায়ণ, রাজনৈতিক বিমুখতা, পরিবারতন্রের গ্যাড়াকলে নির্যাতিত নেতা কর্মিরা এখন দল বিমুখ।ভেস্তে গেছে অা'লীগের ১০ বছরের সকল সাফল্য। অার এসব ঘটেছে পাবনা জেলা অা'লীগের বর্ষীয়ান সভাপতি ও  শেখ হাসিনার মন্ত্রীসভার সব চেয়ে বিতর্কিত অালোচিত  মন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ ডিলুর ক্ষমতা ধরে রাখা এবং কুক্ষিগত করে দলকে পরিবারতন্ত্রে পরিনত করার কারনে।
 
                 
পাবনা জেলা ৫ টি অাসন সংসদীয় অাসন নিয়ে গঠিত। পাবনা -৪ অাসন ব্যতিত অন্য অাসনগুলোতে ক্ষমতার দ্বন্দ্ব থাকলেও তা নিয়ন্ত্রিত। কিন্তু ভূমিমন্ত্রীর নির্বাচনী অাসন পাবনা-৪ তার লাগামহীন অাধিপত্ব স্বেচ্চাচারিতা, পরিবারতন্ত্রে পরিনত করার কারনে  এই জনপদকে ভূমিমন্ত্রী ও তার পপরিবার পরিনত করেছেন দূর্নীতি, অত্যাচার, হত্যা খুন, মাস্তানির স্বর্গ রাজ্যে।
 
            এই অাসনের ত্যাগী নেতারা বিগত বছরগুলোতে দলবিমুখ ও কোনঠাঁসাই থাকেনি ভূমিমন্ত্রী ও তার পরিবারের পোষ্য সন্ত্রাসী বাহিনীর কাছে ছিল জিম্মি। মন্ত্রীপুত্র ও তার পরিবারের সদস্যরা দলের সব শীর্ষ পদ দখল করে দলের যে অংশের নেতা কর্মিরা ভূমিমন্ত্রী বিরোধী তাদের উপর চালিয়েছে অত্যাচারের স্টীমরোলার।মন্ত্রী পরিবারের অত্যাচার ও নির্যাতনে অা'লীগের অাবাসভূমি পাবনা-৪ অাসন হয়েছে খন্ড -বিখন্ড।সাধারন মানুষ হয়েছে অা'লীগ বিমুখ। প্রতিকার না পেয়ে তারা অপেক্ষা করে অাছে মনোনয়ন পরিবর্তনের, সৎ নেতৃত্বের অাগমনের। 
 
এখানেও মন্ত্রী পরিবার চালাচ্ছে বিভাজনের রাজনীতি।বিশেষ করে জামাত শিবিরের সাথে মন্ত্রী পরিবারের সখ্যতা, ফায়দা লুটা, প্রশাসনকে ব্যবহার, রুপপুর পারমানবিক কেন্দ্র মন্ত্রী পরিবারের চাঁদাবাজিতে বন্ধ হওয়ার উপক্রম হওয়ার মত ঘটনা এবং প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ করার মত ঘটনা ঘটেছে বারবার।
 
পরিবারের সদস্যদের বেপরোয়া কর্মকাণ্ডের কারণে ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফের দীর্ঘদিনের রাজনৈতিক ক্যারিয়ার এখন প্রশ্নের সম্মুখীন। নিজ দলের সমালোচকরা বলছেন, ব্যক্তিস্বার্থে মন্ত্রীর চাপিয়ে দেয়া পরিবারতন্ত্র ও স্বজনপ্রীতিই ঈশ্বরদী আওয়ামী লীগকে ডুবিয়েছে।
 
অা'লীগের মন্ত্রীসভাকে ভূমিমন্ত্রী ডিলু কলংকিত করেছেন বলে পাবনাবাসি মনে করে। এমন একজন বিতর্কিত মানুষ কি করে শেখ হাসিনার মন্ত্রীসভায় বহাল অাছেন তা নিয়ে পাবনার সাধারন মানুষসহ খোদ দলের মধ্যেই প্রশ্ন রয়েছে দীর্ঘদিন। কিন্তু এখানকার মানুষের প্রত্যাশার প্রতিফলন ঘটায়নি শেখ হাসিনার সরকার।
 
           
ভূমিমন্ত্রী ডিলু পাবনা জেলা অা'লীগকে শুধু পরিবারতন্ত্রেই পরিনত করেননি, দলের ত্যাগী নেতা কর্মিদের পদ পদবি থেকে বঞ্চিত করে বিগত বছরগুলোতে তার পদলেহনকারিদের দিয়ে চালিয়েছেন অত্যাচারের নির্মম স্টীম রোলার।দলটি ভেঙে টুকরো টুকরো করে বিএনপি প্রার্থির জন্য সহজলভ্য অভয়-অরণ্যে পরিনত করেছেন।
 
কিভাবে ভূমি মন্ত্রী  পাবনাকে পরিবারতন্রে পরিনত করেছেন তা পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হল:
 
 ১/ পাবনা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ভূমিমন্ত্রী নিজেই।
 
২/  স্ত্রী কামরুন্নাহার শরীফ ঈশ্বরদী উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী।
 
৩/  ছেলে শিরহান শরীফ তমাল  উপজেলা যুবলীগের সভাপতি।
 
৪/  মেয়ে মাহজেবিন শিরিন পিয়া পৌর মহিলা লীগের সভানেত্রী।
 
৫/  জামাতা আবুল কালাম আজাদ মিন্টু পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি।
 
৬/ ভগ্নিপতি গোলাম মোস্তফা চান্না পৌর আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহসভাপতি।
 
৭/ ছোট ভাই আনিসুর রহমান শরীফ লক্ষ্মীকুণ্ডা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান। 
 
 দলীয় রাজনীতিকে এভাবে পরিবারতন্ত্রের মধ্যে কব্জাই শুধু করেননি স্থানীয় নিয়োগ, বদলি পোস্টিং থেকে শুরু করে নানা রকম সরকারি বরাদ্দ ও ঠিকাদারি কাজে ভাগ বসানো নিয়েও রয়েছে বিস্তর অভিযোগ।
 
 পাবনা-ঈশ্বরদীতে সরকারি দল আওয়ামী লীগকে এভাবে গৃহবন্দি করে বছরের পর বছর ফায়দা লুটেছেন মন্ত্রী ও তার দূর্নীতিগ্রস্থ পরিবার।
 
 এ কারনে এ অাসনের জনন্দিত নেতা, সাবেক সাংসদ পাঞ্জাব বিশ্বাস পাবনা-৪ অাসনকে  ‘হিরোশিমার পোড়া মাটির’ সঙ্গে তুলনা করেছেন।
 
 বর্তমান সরকারের দ্বিতীয় মেয়াদে এ পর্যন্ত অনেকবার সংবাদপত্রের গুরুত্বপূর্ণ শিরোনাম হয়েছে ঈশ্বরদী। এই শিরোনাম হওয়ার নেপথ্য নায়ক ভূমিমন্ত্রী, তার সন্ত্রাসীপুত্র তমাল এবং তার দূর্নীতিগ্রস্থ পরিবার।
 
ভূমিমন্ত্রীর লাগামহীন দৌরাত্মে দেশের একমাত্র ও মেগা প্রকল্প হিসেবে খ্যাত রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পকেন্দ্রিক কাজ বন্ধের একাধিক ঘটনা, পাঁচটি রাজনৈতিক খুন, শতাধিক দলীয় নেতাকর্মীর নামে মামলা, ১১ জন কর্মীর পঙ্গুত্ববরণের মতো ঘটনায় দলের অনেক ত্যাগী নেতাকর্মী এখন চরম অভিমানে রাজনীতি থেকে দূরে সরে আছেন।তারা একাদশ সংসদ নির্বাচনে প্রার্থি পরিবর্তনের ঘোষনার জন্য অপেক্ষা করছেন।
 
তবে ভূমিমন্ত্রীর পরিবারের সদস্যদের লাগামছাড়া কর্মকাণ্ডে মন্ত্রী নিজেই এখন জনবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছেন। অনেক নেতাকর্মীর নামে মামলা, পাঁচটি রাজনৈতিক হত্যাকাণ্ড, অনেকের পঙ্গুত্ববরণে কর্মীদের মধ্যে তীব্র ক্ষোভ-অসন্তোষ থাকায় মন্ত্রী ও তার পরিবার এখন কোনঠাঁসা। শেষ প্রচেষ্টা হিসেবে মন্ত্রী পরিবার নমিনেশনের মিথ্যে গুজব ছড়িয়ে দলের নেতা কর্মিদের মনোবলে ফাটলই শুধু ধরাচ্ছেন না, দলের মধ্যে বিভাজন সৃষ্টি করে বিএনপি প্রার্থির জন্য নির্বাচনী ক্ষেত্র প্রস্তুত করছেন।
 
এবার এই অাসন থেকে মনোনয়নপ্রত্যাশী আ্যাডভোকেট রবিউল আলম বুদু, প্রকৌশলী আবদুল আলিম ও মিজানুর রহমান স্বপন। তবে তারা স্থানীয় রাজনীতিতে কিছুটা পরিচিত মুখ হলেও মনোনয়ন পাওয়ার মত জনভিত্তি নেই।এই অাসনে মনোনয়ন দৌড়ে এবং ১২ টি জনমত জরিপে এগিয়ে অাছেন সাবেক এমপি পাঞ্জাব বিশ্বাস। ভূমিমন্ত্রীর সাথে পাঞ্জাব বিশ্বাসের মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে কেন্দ্রে নৌকার টিকেট পেতে।
 
 ঈশ্বরদী সরকারি কলেজের অধ্যক্ষকে লাঞ্ছিতের মামলায় উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রাকিবুল হাসান রকি, আলম হত্যা মামলায় উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক রাজীব সরকারসহ ছাত্রলীগ-যুবলীগের কয়েকজন নেতা গ্রেফতার হওয়ায় জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ভূমিমন্ত্রীর  অনুসারীদের দৌরাত্মে ভাটা পড়েছে।
 
জানা গেছে, গত তিন বছরে অভ্যন্তরীণ কোন্দলে নিজ দলের কর্মী হত্যা থেকে শুরু করে হাট-ঘাট-মাঠ দখল ও আর্থিক সুবিধার জায়গাগুলোয় আধিপত্য বিস্তারে বলপ্রয়োগের ঘটনা এখানে দলকে জনগণের কাছ থেকে অনেক দূরে নিয়ে গেছে। জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফের ছেলে তমাল  দু’বার গ্রেফতার ও কারাগারে যাওয়ার ঘটনা দলকে বিব্রত করেছে। মন্ত্রীর ব্যক্তিগত কর্মকর্তার ভূমিদস্যূতা, দুদকের মামলা, গ্রেফতার,ফাইল গায়েব করার ঘটনা শেখ হাসিনা কাছে দৃশ্যমান।
 
           
ভূমিমন্ত্রীর এসব অত্যাচার নির্যাতন,জনসমর্থন হারানো এবং সৎ ও যোগ্য প্রার্থি মনোনয়ন দেওয়ার ব্যাপারে সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন,মন্ত্রী এমপিদের অামলনামা অামাদের কাছে অাছে। অসৎ ও জনসমর্থন হারানো কোন নেতৃত্বই মনোনয়ন পাবেন না একাদশ সংসদ নির্বাচনে।কেবল প্রকৃত সৎ জনপ্রিয় নেতৃত্বকেই এবার মনোনয়ন দেবে অা'লীগ।কে কতবার এমপি মন্ত্রী ছিলেন, কে কোন পদে ছিলেন অতিতে, তা কোনভাবেই বিবেচনা করা হবে না।
 


1