LatestsNews
# আমিরাতে প্রথম বাংলাদেশির গোল্ডেন ভিসা অর্জন# 'মোবাইল রিচার্জে শুল্ক বাড়ানোয় ক্ষতিগ্রস্ত হবে ডিজিটাল বাংলাদেশের অগ্রযাত্রা'# কামারখন্দ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী শহিদুল্লাহ সবুজ নির্বাচিত# লাকসামে স্কুলছাত্রী ধর্ষনের শিকার, ধর্ষনকারী গ্রেপ্তার# দেশে সুষ্ঠু নির্বাচন হওয়া কঠিন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম।# রাজধানীতে বিশৃঙ্খলভাবে দেয়াল লিখন ও গাছে বিজ্ঞাপন লাগালে কঠোর ব্যবস্থা'# পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের শেষ বা পঞ্চম ধাপের ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে এখন চলছে গণনা।# খালেদা জিয়ার মুক্তির বিষয়টি নির্ভর করছে আদালতের ওপর।# রাজধানীর কল্যাণপুরের রাজিয়া পেট্রোল পাম্পে আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে।# সালথায় জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহে বিভিন্ন স্কুল কলেজের ছাত্র শিক্ষকদের মাঝে পুরস্কার বিতরন# ঝিনাইদহে মসজিদের মোয়াজ্জিনকে কুপিয়ে ও গলাকেটে হত্যা !# অবশেষে বড় অংকের অর্থের বিনিময়ে মিশরের ইজিপ্ট এয়ার থেকে লিজ নেয়া নষ্ট দুটি উড়োজাহাজ ফেরত দেয়া হচ্ছে।# শুধু সেমির আশা বাঁচিয়ে রাখার জন্যই নয়, দলের আত্মবিশ্বাস ফিরে পাওয়ার জন্য জয়ই দরকার ছিল# রাজশাহীতে জমে উঠেছে হরেক রকম আমের বেচাকেনা।# রোহিঙ্গা সংকট মোকাবিলায় ব্যর্থ বলে দায় স্বীকার করেছে জাতিসংঘ।# ২৩ উপজেলায় ভোটগ্রহণ চলছে# নোয়াখালী সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রথমবারের মতো ইভিএম পদ্ধতীতে ভোট গ্রহণ # নোয়াখালীর হাতিয়ায় অস্ত্র ও গুলিসহ শীর্ষ জলদস্যু ফরিদ কমান্ডারকে গ্রেপ্তার করেছে কোস্টগার্ড# বেনাপোলে হুন্ডি করে অর্থ পাচারের অভিযোগে ৩ পুলিশ ক্লোজড # নড়াইলে শিক্ষার্থীদের গুলি করে হত্যার হুমকিতে ৪ জনের নামে মামলা দায়ের
আজ বুধবার| ১৯ জুন ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

এলজিইডির অজ্ঞতায় সড়কে ভাঙ্গন, ঝুঁকি নিয়ে যানচলাচল!



এম.তাজুল ইসলাম, সারিয়াকান্দি (বগুড়া) প্রতিনিধি 4TV

সম্প্রতি বগুড়ার সারিয়াকান্দিতে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি) অজ্ঞতায় সড়কে ভাঙ্গন দিনদিন বৃদ্ধি পেয়েছে। সৃষ্টি হয়েছে বড়-বড় গর্তের। ফলে ঝুঁকিনিয়েই করছে যানচলাচল।

যাত্রীসাধারণ ও ভুক্তভোগী মহল দাবি করছেন সড়কগুলো যথাসময়ে মেরামত করা না হলে যেকোন সময় বড় ধরণের দুর্ঘটনা গটতে পারে।


সরেজমিনে দেখা গেছে, সারিয়াকান্দি-ধুনটের কড়িতলা-বগুড়াগ্রামীর সড়কের গুলারতাইড় গোলের বাড়ী নামক স্থানে ছোট কালর্ভাটটি আঁট সালের ভয়বহ বন্যায় দেবে গিয়ে যানচলাচল বন্ধ হয়ে যায়। পরে সরকারি উদ্যোগে দেবে যাওয়া কালর্ভাটের উপরে মাটি দিয়ে যানচলাচলের উপযোগী করা হয়। কিন্তু বর্তমানে সড়কটি নিচু থাকায় সামন্য বৃষ্টির পানিতেই গাড়ী চলাচলে সমস্যার সৃষ্টি হচ্ছে। বিকল হচ্ছে গাড়ী যান্ত্রাংস।


এদিকে ধুনট-সারিয়াকান্দিগামী সড়কের সোনাপুর তিনমাথা নামক এলাকায় পানি নিস্কাশন ব্যবস্থা না থাকায় পানি পারাপারে সড়কের পশ্চিম পার্শ্বে বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। দিনদিন তা যেন মরণফাঁদে রূপ নিচ্ছে। সম্প্রতি উপজেলা প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি) কর্তৃক জোড়গাছা বীরমুক্তিযোদ্ধা গিয়াস উদ্দীন, জোড়গাছা বাজার গণি ডাক্তার দোকানের সামনে ও জোড়গাছা পূর্বপাড়া হাফেজিয়া মাদ্রাসা ও লিল্লাহ বোডিং এর সামনে পানি নিস্কাশনের ব্যবস্থা করা হলেও যথাস্থানে তা না দেওয়ায় সমস্যা থেকেই যায়। দেখা দিয়েছে পূণরায় ভাঙ্গন। বিশেষ করে হান্নান কাজীবাড়ী সলগ্ন ও নয়া মিঞার সুতার দোকানের কাছে বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য।


অপরদিকে জোড়গাছা বাজার চারমাথার সমস্ত পানি দুলু সরকারের বাড়ী সংলগ্ন ছোট কালর্ভাটের পাশ দিয়ে নেমে যাওয়ায় গত বছরের ন্যায় সড়কের অর্ধেকাংশ পুকুরে বিলীন হয়ে গেছে। গত বছর স্থানীয় চেয়ারম্যান রুবেল উদ্দীনের উদ্যোগে মেরামত করা হলেও এ বছর তা করা হয়নি। নেয়নি এলজিইডি কর্মকর্তা খোঁজ খবর। এছাড়াও নতুন পাড়া মফিজ উদ্দীনের বাড়ী মোড়ে পানি নিস্কাশন ব্যবস্থা না থাকায় নাসির উদ্দীনের বাড়ী সংলগ্ন সড়ক পুকুরে বিলীন হয়ে যাচ্ছে।

বিশেষ সূত্র জানিয়েছে, বেশ কয়েকদিন আগে পাট বোঝাই ট্রাক গাড়ী ব্রীজ পারাপারে দুর্ঘটনার আশঙ্কা এড়াতে স্থানীয় গাড়ী শ্রমিকর (কুলি) ব্রীজের পার্শ্বে বস্তা দিয়ে গাড়ী পার করে।
শুধু তাই নয় জোড়গাছা পশ্চিমপাড়া বাঙ্গালী নদীর ব্রীজের পূর্বপার্শ্বের আংশিক সড়ক নদীতে বিলীন হয়ে যাচ্ছে।

এলাকাবাসী, যাত্রীসাধারণ ও চালকদের দাবি এভাবে সড়কের ভাঙ্গন রোধ না করা হলে যেকোন সময় বড় আকার ধারণ করবে। ঘটবে বড় ধরণের দুর্ঘটনা। তাই চি‎িহ্নত স্থানগুলোতে পানি নিস্কাশন ব্যবস্থা চেয়ে স্থানীয় সরকার প্রকৌশলীর কাছে জোড় দাবি জানিয়েছেন ভুক্তভোগী মহল।


1