LatestsNews
# গুলশান-১ এর ডিএনসিসি মার্কেটে মেয়াদোত্তীর্ণ শিশু খাদ্য # এডিসের লার্ভা ধ্বংসে বাড়ি বাড়ি অভিযানে নগরবাসীর অসহযোগিতার অভিযোগ# চামড়া নিয়ে টানাপোড়েন থামছেই না - নিয়মিত ক্রেতাদের তৎপরতা দেখা যায়নি। # কাশ্মীর ইস্যুতে মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে বিবৃতি প্রকাশ# দাবি-দাওয়া মানলেই মিয়ানমারে ফিরবে রোহিঙ্গারা# ম্যাজিস্ট্রেট ও পুলিশ কর্মকর্তাদের সঙ্গে বিচারকের কক্ষে বিরিয়ানি খান রাজসাক্ষী জজ মিয়া# গাইবান্ধার ঝিনুকের তৈরী চুন উৎপাদনকারি যুগি পরিবারগুলো এখন বিপাকে# শিক্ষা নীতিমালা অনুমোদন করায় মোবারক হোসেন প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়ের অভিনন্দন# এডিস মশার দীর্ঘমেয়াদি সমাধানের জন্য বাংলাদেশ সফরে আসছেন উচ্চ পর্যায়ের বিদেশি বিশেষজ্ঞ প্রতিনিধিদল। # শেখ হাসিনাকে ভারত সফরের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। # মেঘনা নদীর ভাঙন গাফিলতি করা সেই প্রকৌশলীকে কী শাস্তি দেওয়া হয়েছে? : প্রধানমন্ত্রী# সংসদ সদস্য না হয়েও বিলাসবহুল গাড়িতে শুল্কমুক্ত সুবিধা পেলেন মুহিত# দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) দুর্নীতির বস্তাভর্তি টাকাসহ হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা গ্রেপ্তার# নায়াখালীতে সিএনজিচালিত ও ব্যাটারিচালিত অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে নারী-শিশুসহ আহত ১২# পচা মাছ মজুদ ও বিক্রির দায়ে স্বপ্ন এক্সপ্রেস সুপার শপকে জরিমানা# ভারতীয় দলের ওপর হামলার শঙ্কা, পিসিবিকে মেইল# ২০২৩ সালের মধ্যে দেশের ৬৬ হাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দুপুরের খাবার পাবে প্রাথমিকের শিক্ষার্থীরা# মিন্নির জামিন শুনানি, যা বললেন হাইকোর্ট# ভারতের বহুল আলোচিত ইসলামিক বক্তা ডা. জাকির নায়েক এবার মালয়েশিয়ায় নিষেধাজ্ঞার মুখে# নেত্রীকে মুক্ত করতে ব্যর্থ বিএনপি এখন বিদেশিদের কাছে ধরনা দিচ্ছে মন্তব্য : ওবায়দুল কাদের।
আজ শনিবার| ২৪ আগস্ট ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

গোপালগঞ্জ বিআরটিএ অফিস এখন দুর্নীতির স্বর্গরাজ্য: ঘুষ ছাড়া মেলেনা কোন কাজ



এম শিমুল খান, গোপালগঞ্জ :

গোপালগঞ্জে বিআরটিএ অফিসের দুর্নীতি চরম আকার ধারন করেছে বলে একাধিক অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘুষ ছাড়া মটরযান রেজিস্ট্রেশন ও ড্রাইভিং লাইসেন্স পাওয়া যায় না এ অফিসে। জেলার বিভিন্ন অভ্যন্তরীন রুটে চলাচলকারি শতাধিক আনফিট গাড়িকে মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে ফিটনেস সার্টিফিকেট প্রদান করা হয়ে থাকে।

গাড়ীর রেজিস্ট্রেশন ও ড্রাইভিং লাইসেন্সে করতে আসা সাধারন মানুষের কাছ থেকে অবৈধ ভাবে অর্থ হাতিয়ে নেওয়া হয়। এ ব্যাপারে কেউ মোটা অংকের টাকা দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে নানান হয়রানির শিকার হতে হয় তাকে এমন অভিযোগ রয়েছে ওই অফিসের বিরুদ্ধে।


এ ছাড়াও বিভিন্ন অযুহাত দেখিয়ে গাড়ীর রেজিস্ট্রেশন ও ড্রাইভিং লাইসেন্সে করতে আসা সাধারন মানুষ হয়রানির শিকার হচ্ছে প্রতিদিন। ওই সকল সাধারন মানুষের কাছ থেকে অবৈধ ভাবে অর্থ হাতিয়ে নেওয়া হয় বলে অভিযোগ রয়েছে বিআরটিএ কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের বিরুদ্ধে। ফলে দিন দিন সাধারন মানুষের ভোগান্তি বেড়েই চলছে গোপালগঞ্জ বিআরটিএ অফিসে।


গোপালগঞ্জ বিআরটিএ অফিসে সরেজমিন অনুসন্ধানকালে মটরযান রেজিস্ট্রেশন করতে আসা একাধিক ব্যক্তির সাথে কথা বলে জানা যায়, প্রত্যেকটি মটরযান রেজিস্ট্রেশনের সময় সরকারি ফিস ছাড়াও অতিরিক্ত দুই থেকে পাচ হাজার টাকা এবং ক্ষেত্র বিশেষ আরো বেশী টাকা নেওয়া হয়ে থাকে। অফিসের কর্মকর্তা থেকে শুরু করে সকল কর্মচারী ওই অবৈধ আর্থিক লেনদেনের সাথে জড়িত। তারা সিন্ডিকেট করে লাখ লাখ টাকা অবাধে ঘুষ বানিজ্য চালিয়ে যাচ্ছে। অফিসের বাইরের গাড়ীর শো-রুমের লোকজনও এ বানিজ্যের সাথে জড়িয়ে পড়েছে।


জেলার মুকসুদপুরের ব্যাবসায়ী সোহেল রানা সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ করে বলেন, কয়েক মাস আগে তিনি তার একটি মটর সাইকেলের রেজিস্ট্রিশনের জন্য গোপালগঞ্জ বিআরটিএ অফিসে যান। প্রয়োজনীয় কাগজপত্র জমা দেয়া হলেও বিভিন্ন অযুহাতে রেজিস্ট্রেশন দিতে তালবাহানা করা হয়।

পরে তিনি বিআরটিএ অফিসের সহকারী পরিচালক সুবীর কুমার সাহার ব্যক্তিগত লোক (দালাল) হিসেবে পরিচিত শহরের একটি মটর সাইকেল শো রুমের ম্যানেজার তরিকুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করলে চার হাজার টাকার বিনিময়ে  তিনি তার মটর সাইকেলের রেজিস্ট্রেশন করতে সমর্থ হন।
মটর সাইকেল শো-রুমের ম্যানেজার তরিকুল ইসলামের সাথে এ ব্যাপারে কথা বললে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, আমি গোাপলগঞ্জ বিআরটিএর সহকারী পরিচালকের বিশ্বস্ত লোক হিসেবে এ কাজ গুলো করে আসছি। এতে আমি কিছু পারসেন্টটেজ পাই।


লার্নার ও ড্রাইভিং লাইসেন্স করতে গেলেও সরকার নির্ধারিত টাকার বাইরেও বিআরটিএ অফিসের লোকজনকে টাকা দিতে হয়। চাহিদা অনুযায়ি টাকা না দিলে লাইসেন্স পাওয়া দুস্কর হয়ে পড়ে বলে অভিযোগ করছেন বে-সরকারী ঔষধ কোম্পানীর প্রতিনিধি মিজানুর রহমান।


গোপালগঞ্জ বিআরটিএ অফিসের একজন কর্মচারী নাম প্রকাশ না করার শর্তে অভিযোগ করে বলেন, মটরযান চালকদের পেশাদারিত্ব ও দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য  বিশেষ প্রশিক্ষণ ও ওরিয়েন্টেশন বাবদ প্রতি বছর ৩ থেকে ৪ লাখ টাকা সরকারী ভাবে বরাদ্দ দেয়া হলেও কোন প্রশিক্ষণ ও ওরিয়েন্টেশন করা হয় না। ভুয়া বিল ভাউচার করে সহকারী পরিচালক সুবীর কুমার সাহা তা আত্মসাৎ করেন। এনিয়ে অফিসার ও কর্মচারীদের মধ্যে চলছে টানাপোড়েন।


শহরের নবীনবাগ এলাকার বাসিন্দা মোহাম্মদ সুলায়মান মিয়া বলেন, গোপালগঞ্জ বিআরটিএ অফিস জেলার বিভিন্ন অভ্যন্তরীন রুটে চলাচলকারি শতাধিক আনফিট গাড়িকে মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে ফিটনেস সার্টিফিকেট প্রদান করার কারনে গোপালগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনা বেড়ে গেছে এবং সেই সাথে সাধারন মানুষের জীবন হানি ঘটছে।


এ ব্যাপারে গোপালগঞ্জ বিআরটিএ অফিসের সহকারী পরিচালক (ইঞ্জি:) সুবীর কুমার সাহা তার বিরুদ্ধে সকল অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, আমার অফিসের মধ্যে একটি চক্র আমার বিরুদ্ধে এ সব অপপ্রচার করছে। আমি এখান থেকে বদলি হওয়ার জোর চেষ্টা করছি।


1