LatestsNews
# কুড়িগ্রামে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় ৬জন গ্রেপ্তার# গাজীরহাট ইউনিয়ন পরিষদের গ্রাম আদালত সাধারণ মানুষের কাছে জনপ্রিয় # শিরোমণি স্পোর্টিং ক্লাব আয়োজিত ৮দলীয় মিনি ফুটবল টুর্ণামেন্টের উদ্বোধন# শৈলকুপায় অর্ধশত বছরেও আলোর মুখ দেখেনি স্বতন্ত্র এবতেদায়ী মাদরাসা!# কালীগঞ্জে পিতা হত্যার দায়ে পুত্রের যাবজ্জীবন কারাদন্ড# ‘আমলাতান্ত্রিক জটিলতায় শিল্প মন্ত্রণালয়ের কাজে মন্থর গতি’# রাজধানীর সদরঘাটে লঞ্চের ধাক্কায় ডিঙি নৌকা ডুবে নিখোঁজ দুই শিশুর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।# ঢাকা-উত্তরবঙ্গ রেলরুটে আন্তঃনগর রংপুর এক্সপ্রেস ট্রেনের বগি লাইনচ্যুত হয়ে সকল প্রকার ট্রেন চলাচল বন্ধ # পলিথিন থেকে জ্বালানি তেল উৎপাদন উদ্ভাবক জামালপুরের তৌহিদুল ইসলাম।# সিলিন্ডার পুনঃপরীক্ষার সনদ ছাড়া গ্যাস মিলবে না গাড়িতে# প্রতিযোগিতায় এগিয়ে রাখতে দেশীয় মোবাইল উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানগুলো প্রস্তাবিত বাজেটে বেশকিছু শুল্ক সুবিধা পাচ্ছে।# প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নতুন ভবন নির্মান বন্ধ রয়েছে গ্রামবাসীদের আবেদন জায়গা পুনঃনির্ধারন# মেহেরপুরের গাংনীতে দু’পক্ষের গোলাগুলিতে মাদক ব্যবসায়ী নিহত# ‘নারী ও কন্যা শিশুর প্রতি সংহতি’ বিষয়ে আলোচনা সভা# পায়রা কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রে দেশীয় শ্রমিকদের ক্ষোভের নেপথ্যে চীনাদের 'অকথ্য নির্যাতন'# চাঁপাইনবাবগঞ্জে মনিরুল হত্যা মামলায় ৯ জনের মৃত্যুদণ্ড# ডিআইজি মিজানের সম্পত্তি বাজেয়াপ্তের নির্দেশ# খুলনা শিরোমণি বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতালের ডাক্তার-ষ্টাফদের দুই দফা দাবীতে লাগাতর কর্মসুচি শুরু# অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টস হারল বাংলাদেশ# দিনাজপুরের হিলিতে দেশের প্রথম লৌহ খনির সন্ধান পাওয়া গেছে।
আজ মঙ্গলবার| ২৫ জুন ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

ছোট বড় বাধা জয় করে চামড়াজাত পণ্য উৎপাদনে এগিয়ে আসছেন নবীন ক্ষুদ্র উদ্যোক্তারা।



ছোট বড় বাধা জয় করে চামড়াজাত পণ্য উৎপাদনে এগিয়ে আসছেন নবীন ক্ষুদ্র উদ্যোক্তারা। অপার সম্ভাবনা থাকায় দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম এই রপ্তানি খাতে বিনিয়োগ করছে কিছু বড় শিল্প গ্রুপও। তবে সাভারে ট্যানারিগুলো পুরোদমে উৎপাদন শুরু না করায় চামড়া ও মানসম্মত এক্সেসরিজের অভাবে ব্যাহত হচ্ছে পণ্য উৎপাদন। ফলে বাধাগ্রস্ত হচ্ছে বিনিয়োগ। অন্যদিকে কাঁচামাল আমদানিতে উচ্চ শুল্ক ও মূলধন সংকটেও পিছিয়ে পড়ছেন নবীন উদ্যোক্তারা।

হাজারীবাগের স্থানান্তরিত ট্যানারি পল্লীর অব্যবহৃত জায়গায় গড়ে উঠেছে ছোট -বড় চামড়া পণ্যের কারখানা। ক্রেতাদের বাড়তি চাহিদা পূরণে এসব কারখানায় তৈরি ওয়ালেট, স্যান্ডেলসহ রকমারি চামড়াজাত পণ্য কিনছে দেশীয় বিভিন্ন ব্র্যান্ড। সীমিত পরিসরে অনেকে রপ্তানিও করছেন। তবে অনেক ব্র্যান্ড এসব ক্ষুদ্র উদ্যোক্তা থেকে পণ্য কিনলেও পাওনা আটকে রাখায় পুঁজি সংকটে হিমশিম খাচ্ছে তারা। প্রক্রিয়াগত জটিলতায় মিলছেনা ব্যাংক ঋণও।

উদ্যোক্তারা বলেন, 'যেভাবে পেমেন্ট করা হ্য় তাতে দেখা গেছে একটা সময় ঘুরাতে ঘুরাতে তারা ঠিকমত দেয়া না। তাতে আমাদের জন্যে অনেক সমস্যা হয়। আমরা ঠিকমত টাকা না পেলে সব কিছু আটকে যায়।'

এদিকে কাগজ কলমে হাজারীবাগ থেকে সাভারে চামড়া শিল্প নগরী স্থানান্তরিত হলেও এখনো অধিকাংশ কারখানা উৎপাদনে যেতে পারেনি। সেই সঙ্গে রয়েছে মানসম্মত সহায়ক কাঁচামালের অভাব। ফলে হাতছাড়া হচ্ছে অনেক বিদেশী অর্ডার।

উদ্যোক্তারা বলেন, 'শীপমেন্ট ডেট থাকে। তখন চামড়া যদি আমরা দেরি করে পায় তাহলে কিভাবে সম্ভব। তাতে আমরা কাস্টোমার হারাই। এর ফলে কি হচ্ছে মার্কেটটা ভিয়েতনাম ধরে ফেলছে।'

এরপরেও চামড়াজাত পণ্যের বিশাল বাজার থাকায় কিছু শিল্প গ্রুপ সাহস করে এ খাতে বিপুল অর্থ বিনিয়োগ করেছে। তবে রপ্তানির বিশাল বাজার ধরতে পৃথক এক্সেসরিজ জোন গড়ে তোলার আহবান সংশ্লিষ্টদের।

উদ্যোক্তারা বলছেন, চীনা পণ্যের দাম বেশি হওয়ায় এইচএনএমসহ খ্যাতনামা অনেক আন্তর্জাতিক ব্র্যান্ড বাংলাদেশ থেকে পণ্য নিতে আগ্রহী। এজন্য বিদেশী ক্রেতাদের চাহিদা মোতাবেক চামড়া কারখানাগুলোর পরিবেশবান্ধব কর্মপরিবেশ নিশ্চিত করা জরুরী।

 


1