LatestsNews
# মৗলভীবাজারে মনু ও ধলাই নদীর পানি দ্রুত বাড়ছে আতংকে জেলাবাসী# ভারতে পাচার ৫ বাংলাদেশীকে বেনাপোলে ফেরত # রোহিঙ্গা সংকটের শান্তিপূর্ণ ও সুষ্ঠু সমাধানে সারা বিশ্বের সহযোগিতা চেয়েছে বাংলাদেশ।# উল্লাপাড়ায় পরিশ্রম আর পরিচর্যায় সফল পটলচাষী ফকির জয়নাল# মাগুরা শ্রীপুরে সাংবাদিকে বৃদ্ধ বাবা সহ ৫ আওয়ামীলীগ নেতা কর্মির নামে মিথ্যা মামলা# বিএনপি-জামায়ত জোটের শাসন আর কোন দিন ফিরে আসবে না# মৌলভীবাজারে দীঘলগিজি স্কুলে একটি রাস্তার কারনে ঝড়ে পড়ছে শতাধিক কোমলমতি শিশু# ২০১৯-২০ সালের অর্থবছরের বাজেট ঘোষণার পরদিনই বেড়ে গেছে সোনার দাম।# ফিফা র‍্যাঙ্কিংয়েও উন্নতি বাংলাদেশের# বিশ্বকাপের ১৯তম ম্যাচে উইন্ডিজকে ৮ উইকেটে হারালো ইংল্যান্ড।# অনির্বাচিত সরকারের বাজেট প্রণয়নের নৈতিক অধিকার নেই :মির্জা ফখরুল# চট্টগ্রামে ১০ হাজার পিস ইয়াবাসহ পুলিশের এসআই আবু বক্কর সিদ্দিককে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব# সাভারে ভয়ংকর লুঙ্গিবাহিনীর ১৭ ডাকাত গ্রেফতার, অস্ত্র ও গুলি উদ্ধর# ২০১৯-২০ অর্থবছরের জন্য প্রস্তাবিত বাজেটে নিম্নবিত্ত ও বিকাশমান মধ্যবিত্তের জন্য তেমন কোনো সুখবর নেই# রেমিটেন্সে প্রণোদনা প্রবাসীদের উৎসাহিত করবে# রাজধানীতে আজকালের মধ্যে বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।# ২০১৯-২০ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট বিষয়ে সংবাদ সম্মেলন করছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।# উপজেলা নির্বাচন যেন প্রশ্নবিদ্ধ না হয় বললেন নির্বাচন কমিশনার কবিতা খানম# গোবিন্দগঞ্জে বাস ও ট্রাকের মুখোমুখী সংঘর্ষে নিহত-১, আহত-১০# উল্লাপাড়ায় ৮২ কোটি টাকার প্রকল্প রেলওয়ে ওভারপাস নির্মাণ কাজে ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন ও আলোচনা সভা
আজ রবিবার| ১৬ জুন ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

বকেয়া মজুরীর দাবিতে কোষ্টার হেজ শ্রমিকদের এম.এস.টি. মেরিন সার্ভিস এর অফিস ঘেরাও



ওমর ফারুক

বকেয়া বেতনের দাবীতে চট্টগ্রাম বন্দরে কর্মরত চট্টগ্রাম কোষ্টার হেজ শ্রমিক ইউনিয়ন রেজি. নং- ১৪০৫ এর শ্রমিকরা গতকাল দুপুর ১২ টায় আগ্রাবাদ শেখ মুজিব রোডোস্থ সি.এন.এফ. টাওয়ারের চতুর্থ তলায় অবস্থিত এম.এস.টি. মেরিন সার্ভিস এর অফিস ঘেরাও করে।

প্রায় তিনশতাধিক শ্রমিক এক যোগে গিয়ে সি.এন.এফ. টাওয়ারের নিচে অবস্থান নেয়। পরে তাদের সভাপতি জেবল হক, সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির সফি ও সাংগঠনিক সম্পাদক জিয়াউল হক বাবুলের নেতৃত্বে শ্রমিকদের একটি প্রতিনিধি দল এম.এস.টি. মেরিন সার্ভিস এর অফিসে যায়। এসময় এম.এস.টি. মেরিন সার্ভিস এর স্বত্বাধিকারী ও বন্দর লাইটার হেজ ঠিকাদার মালিক সমিতির সহ-সভাপতি অমল বাবু অফিসে উপস্থিত ছিলেন বলে জানা গেছে। মূলত চট্টগ্রাম বন্দর কোষ্টার হেজ শ্রমিক ইউনিয়নের শ্রমিকরা বন্দর লাইটার হেজ ঠিকাদার মালিক সমিতির অধীনে কাজ করে থাকে।

আলোচনার এক পর্যায়ে অমল বাবু বন্দর লাইটার হেজ ঠিকাদার মালিক সমিতির অন্যান্য নেতৃবৃন্দের সাথে মোবাইল ফোনে আলাপ করে শ্রমিক নেতৃবৃন্দকে এক লক্ষ টাকা নগদ প্রদান করেন এবং অবশিষ্ট টাকা প্রদানের ব্যাপারে চট্টগ্রাম কোষ্টার হেজ শ্রমিক ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দের সাথে আগামী ১৪ই অক্টোবর রবিবার বৈঠকের দিন ধার্য করেন। ইতি মধ্যে খবর পেয়ে যে কোনো প্রকার বিশৃঙ্খলা এড়াতে ডবলমুরিং থানারা এস.আই. সালাম পুলিশের একটি দল নিয়ে সি.এন.এফ. টাওয়ারের সামনে অবস্থান নেন। পরবর্তিতে মালিক পক্ষের আসা ব্যঞ্জক প্রতিশ্রæতির পরিপ্রেক্ষিতে দুপুর দেড়টার দিকে শ্রমিকরা সি.এন.এফ. টাওয়ার এলাকা থেকে চলে যায়।

এব্যাপারে ডবলমুরিং থানার এস.আই. সালামের সাথে তার মুঠো ফোনে জানতে চাইলে তিনি বলেন চট্টগ্রাম কোষ্টার হেজ শ্রমিক ইউনিয়নের শ্রমিকরা তাদের বকেয়া মজুরির দাবিতে সি.এন.এফ. টাওয়ারের সামনে অবস্থান নিয়েছিল। পরে বকেয়া বেতন প্রদানের ব্যাপারে মালিক পক্ষের আগামী রবিবার বৈঠকের প্রতিশ্রæতির পরিপ্রেক্ষিতে শ্রমিকরা শৃঙ্খলার সাথে স্থান ত্যাগ করে। বন্দর লাইটার হেজ ঠিকাদার মালিক সমিতির সহ-সভাপতি অমল বাবুর নিকট তার মুঠোফোনে জানতে চাইলে তিনি ঘটনার সত্বতা স্বীকার করেন এবং আগামী রবিবার শ্রমিক নেতৃবৃন্দের সাতে তাদের বকেয়া বিল প্রদানের ব্যপারে বৈঠক করা হবে বলে জানান।

চট্টগ্রাম বন্দর কোষ্টার হেজ শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি জেবল হকের নিকট তার মুঠোফোনে এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি ঘটনার সত্ততা স্বীকার করেন এবং আগামী রবিবার মালিক পক্ষের সাথে  বৈঠক হবে বলে জনান। তিনি বলেন চট্টগ্রাম লাইটার হেজ ঠিকাদার মালিক সমিতির কাছে ২০১৭ইং সাল থেকে এই পর্যন্ত প্রয় দেড় কোটি টাকা বকেয়া রয়েছে । অথচ আজ শ্রমিকরা কাজ করে বেতন পাচ্ছে না।

ফলে তাদেরকে অনাহারে অর্ধাহারে মানবেতর জীবন যাপন করতে হচ্ছে। অথচ আমাদের সংগঠন চট্টগ্রাম বন্দরের বৈধ ও নিবন্ধিত সংগঠন। আমাদের পক্ষে মহামান্য হাইকোর্ট ও সুপ্রিম কোর্টের রায়ও রয়েছে। তার পরও কেন আমাদের বুকিং ও পাওনা টাকা দিতে এত তালবাহানা করা হচ্ছে? কেন আজ আমাদের এত ভোগান্তি? আমি আশা করি মালিক পক্ষ শ্রমিকদের দুঃখ-দুর্দশা অনধাবন করে বুকিং ও বকেয়া মজুরি প্রদানের ব্যাপারে যথাযথ পদক্ষেক গ্রহণ করবেন।


1