LatestsNews
# গুলশান-১ এর ডিএনসিসি মার্কেটে মেয়াদোত্তীর্ণ শিশু খাদ্য # এডিসের লার্ভা ধ্বংসে বাড়ি বাড়ি অভিযানে নগরবাসীর অসহযোগিতার অভিযোগ# চামড়া নিয়ে টানাপোড়েন থামছেই না - নিয়মিত ক্রেতাদের তৎপরতা দেখা যায়নি। # কাশ্মীর ইস্যুতে মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে বিবৃতি প্রকাশ# দাবি-দাওয়া মানলেই মিয়ানমারে ফিরবে রোহিঙ্গারা# ম্যাজিস্ট্রেট ও পুলিশ কর্মকর্তাদের সঙ্গে বিচারকের কক্ষে বিরিয়ানি খান রাজসাক্ষী জজ মিয়া# গাইবান্ধার ঝিনুকের তৈরী চুন উৎপাদনকারি যুগি পরিবারগুলো এখন বিপাকে# শিক্ষা নীতিমালা অনুমোদন করায় মোবারক হোসেন প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়ের অভিনন্দন# এডিস মশার দীর্ঘমেয়াদি সমাধানের জন্য বাংলাদেশ সফরে আসছেন উচ্চ পর্যায়ের বিদেশি বিশেষজ্ঞ প্রতিনিধিদল। # শেখ হাসিনাকে ভারত সফরের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। # মেঘনা নদীর ভাঙন গাফিলতি করা সেই প্রকৌশলীকে কী শাস্তি দেওয়া হয়েছে? : প্রধানমন্ত্রী# সংসদ সদস্য না হয়েও বিলাসবহুল গাড়িতে শুল্কমুক্ত সুবিধা পেলেন মুহিত# দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) দুর্নীতির বস্তাভর্তি টাকাসহ হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা গ্রেপ্তার# নায়াখালীতে সিএনজিচালিত ও ব্যাটারিচালিত অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে নারী-শিশুসহ আহত ১২# পচা মাছ মজুদ ও বিক্রির দায়ে স্বপ্ন এক্সপ্রেস সুপার শপকে জরিমানা# ভারতীয় দলের ওপর হামলার শঙ্কা, পিসিবিকে মেইল# ২০২৩ সালের মধ্যে দেশের ৬৬ হাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দুপুরের খাবার পাবে প্রাথমিকের শিক্ষার্থীরা# মিন্নির জামিন শুনানি, যা বললেন হাইকোর্ট# ভারতের বহুল আলোচিত ইসলামিক বক্তা ডা. জাকির নায়েক এবার মালয়েশিয়ায় নিষেধাজ্ঞার মুখে# নেত্রীকে মুক্ত করতে ব্যর্থ বিএনপি এখন বিদেশিদের কাছে ধরনা দিচ্ছে মন্তব্য : ওবায়দুল কাদের।
আজ রবিবার| ২৫ আগস্ট ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

বাংলাদেশ ইপিজেড শ্রম আইন ২০১৯ এর খসড়ায় নীতিগত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা।



বাংলাদেশ ইপিজেড শ্রম আইন ২০১৯ এর খসড়ায় নীতিগত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা।

সোমবার প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে তার কার্যালয়ে এ অনুমোদন দেয়া হয়।

পরে সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মো.শফিউল আলম সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানান।

এছাড়া বাংলাদেশ পতাকাবাহী জাহাজ সংরক্ষণ আইন ২০১৯ এর খসড়ায় নীতিগত অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

আইনে পরিবর্তন আনা হয়েছে, বিদেশি পণ্য পরিবহনে যত জাহাজ চলছে বৈদেশিক পণ্য পরিবহনে শিপিং করপোরেশন আগে ছিল ৪০% বহন করতো সেটা ৫০% করা হয়েছে।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব জানান, আওয়ামী লীগ সরকারের গত মেয়াদের শেষ সময়ে বাংলাদেশ ইপিজেড শ্রম আইন-২০১৯ এর খসড়াটি মন্ত্রিসভায় উপস্থাপিত হয়েছিল। তবে সেটি আইন হিসেবে পাস করার জন্য যথেষ্ট সময় ছিল না। তাই নতুন মেয়াদে সরকার গঠনের পর প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে মন্ত্রিসভা এই আইনটির খসড়ায় চূড়ান্ত ও নীতিগত অনুমোদন দিয়েছে এর ফলে এই আইনটি পাস করার জন্য এখন সংসদে উত্থাপিত হবে।

তিনি জানান, এছাড়াও মন্ত্রিসভায় বাংলাদেশের পতাকাবাহী জাহাজ (সুরক্ষা) আইন-২০১৯ এর খসড়ায় নীতিগত অনুমোদন দেয়া হয়েছে। মূলত এটি ছিল ১৯৮২ সালে তদানীন্তন সামরিক সরকারের জারি করা অধ্যাদেশ। তবে আদালতের নির্দেশ রয়েছে অধ্যাদেশগুলোকে আইনে পরিণত করতে হবে ও বাংলা ভাষায় রূপান্তরিত করতে হবে। সেই বাধ্যবাধকতা থেকেই আগের অধ্যাদেশের সব কাঠামো ঠিক রেখে সামান্য পরিবর্তন করে আইনে পরিণত করার জন্য এর খসড়া উপস্থাপিত হয়েছে মন্ত্রিসভায়। মন্ত্রিসভা এই আইনের খসড়ায় অনুমোদন দিয়েছে। এতে যে সামান্য পরিবর্তন আনা হয়েছে তা হচ্ছে, এই আইনের ফলে সরকার যেসব পণ্য আমদানির সিদ্ধান্ত নেবে তার ৫০ শতাংশ বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশনের জাহাজে আনতে হবে। আইনের বিধান লঙ্ঘন করে কোনও পণ্য পরিবহন করা হলে পাঁচ লাখ টাকা জরিমানার বিধান রাখা হয়েছে। আগের অধ্যাদেশে সরকারিভাবে আমদানির চল্লিশ শতাংশ বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশনের জাহাজে আনার বিধান ছিল।

সরকারিভাবে বছরে যত পণ্য আমদানি করা হয় তার ৫০ শতাংশ পণ্য পরিবহনের মতো জাহাজ বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশনের আছে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, অবশ্যই প্রথমে বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশনের যেসব জাহাজ আছে তা ব্যবহার করতে হবে। এরপরও যদি লাগে তখন প্রয়োজনে অন্য প্রতিষ্ঠানের জাহাজ ব্যবহার করা যাবে।

এছাড়াও মন্ত্রিসভায় ২০১৮ সালের চতুর্থ ত্রৈমাসিক (অক্টোবর-ডিসেম্বর) প্রতিবেদন উপস্থাপন করা হয়। এ প্রসঙ্গে মন্ত্রিপরিষদ সচিব জানান, তিন মাসে মন্ত্রিসভার বৈঠক হয়েছে ৯টি। সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে ৮৩টি। বাস্তবায়ন হয়েছে ৫৬টি। বাস্তবায়নাধীন সিদ্ধান্ত হচ্ছে ২৭টি। অনুমোদিত নীতি ও কৌশল নেওয়া হয়েছে ৭টি। এমওইউ স্বাক্ষর হয়েছে ৫টি এবং সংসদে আইন পাস হয়েছে ১৯টি।


1