LatestsNews
# বহিষ্কার যেন স্থায়ী হয়: আবরারের বাবা# ফের উত্তপ্ত বুয়েট, নতুন করে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ# ‘আবরার হত্যাকে কেন্দ্র করে ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করতে চায় অশুভ শক্তি’# এজাহারভুক্ত বুয়েটের ১৯ আসামিকে সাময়িক বহিষ্কার করেছে বুয়েট কর্তৃপক্ষ।# ‘পাগলা মিজানে’র বাসা থেকে ৬ কোটি ৭৭ লাখ টাকার চেক উদ্ধার# আবরার হত্যায় কারো সংশ্লিষ্টতা থাকলেই গ্রেফতার# বুয়েটে প্রশাসন সতর্ক থাকলে আবরার হত্যা হতো না : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী# আবরার হত্যা: অমিত-তোহা ৫ দিনের রিমান্ডে# বুয়েটে সব ধরনের রাজনীতি নিষিদ্ধ: উপাচার্য# আবরার হত্যার প্রতিবাদে বিএনপির কর্মসূচি# স্কুলছাত্রী রিশা হত্যায় ওবায়দুলের মৃত্যুদণ্ড# আমি তো অন্যায় করিনি, পদত্যাগ করবো কেন : বুয়েট ভিসি# আবরার হত্যা মামলা দ্রুত নিষ্পত্তি করা হবে : আইনমন্ত্রী# আবরারকে হত্যার কথা স্বীকার করলেন সকাল# আবরারের হত্যাকারীরা উপযুক্ত শাস্তি পাবে: আইনমন্ত্রী# বুয়েটে ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধ চান আনিসুল হক# সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, অপরাধীদের শাস্তি পেতেই হবে। # আবরার হত্যাকে পুঁজি করে সাম্প্রদায়িক রাজনীতি হচ্ছে: শিক্ষা উপমন্ত্রী# সময়মত চিকিৎসা পেলে বেঁচে যেত আবরার !# গ্রামের বাড়িতে নেয়া হয়েছে আবরারের মরদেহ, পারিবারিক কবরস্থানে দাফন আজ
আজ সোমবার| ১৪ অক্টোবর ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

উল্লাপাড়ায় কেউ মানছে না ভুমি শ্রেণি পরিবর্তন বিধান বেশি হচ্ছে পুকুর খনন



সাহারুল হক সাচ্চু, উল্লাপাড়া (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি 


সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় ভুমি শ্রেণি পরিবর্তন সরকারি বিধি বিধান কেউ মানছে না। সরকারি কোন অনুমতি না নিয়েই যে যার ইচ্ছে মতো ভুমির শ্রেণি পরিবর্তন করছে। কৃষি জমি বদলে হচ্ছে অকৃষি, জলাশয় কিংবা পরিত্যাক্ত ভুমি হচ্ছে। উল্লাপাড়ায় ইট ভাটা গুলো কৃষি জমির সবচেয়ে বেশি ক্ষতি করছে বলে অভিযোগ রয়েছে।


উল্লাপাড়া উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে, গোটা উপজেলায় মোট কৃষি জমির পরিমান ৩২ হাজার ৫শ ৮৫ হেক্টর। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি দু’ফসলী জমির পরিমান ১৮ হাজার ৫শ ৬৫ হেক্টর। তিন ফসলী জমির পরিমান ১১ হাজার ৯শ ৯০ হেক্টর। এক ফসলি জমির পরিমান ২ হাজার ৩০ হেক্টর। ভুমির শ্রেণিতে মোট ৩২ হাজার ৫শ ৮৫ হেক্টরের মধ্যে একেবারে উচু জমির পরিমান ৪ হাজার ৬শ ৯০ হেক্টর। মাঝারি উচ জমির পরিমান ১৪ হাজার ৬শ ১০ হেক্টর, মাঝারি নিচু জমির পরিমান ৫ হাজার ৮শ ৬৯ হেক্টর, নিচু জমির পরিমান ৬ হাজার ১শ ৪৫ হেক্টর ও অতি নিচু জমির পরিমান ১ হাজার ২শ ৭১ হেক্টর। গড় হিসেবে নিচু জমির পরিমান ১৩ হাজার ২শ ৭৫ হেক্টর, মাঝারি জমির পরিমান ১৪ হাজার ৬শ ১০ হেক্টর। মোট জমির ১৩ শতাংশ হলো উচ শ্রেণির জমি।


উল্লাপাড়ায় সবচেয়ে বেশি পরিমান জমিতে রবি ফসলের আবাদ হয়। সরকারি বিধি বিধানে যেকোন ভুমির শ্রেণি পরিবর্তনে সরকারি অনুমোদন নেয়া দরকার রয়েছে বলে জানা যায়। একজন জমির মালিককে ভুমির শ্রেণি পরিবর্তনে অর্থ্যাৎ সমতল ভুমির মাটি কাটা, কোন জলাশয় কিংবা পুকুর খনন, বসতবাড়ি নির্মানে নিজ ইউনিয়ন পর্যায়ে ভুমি অফিসের মাধ্যমে উপজেলা পর্যায়ে ভুমি অফিস ও জেলা পর্যালয়ে আবেদন করার বিধান রয়েছে বলে জানা যায়। এ আবেদনের প্রেক্ষিতে ইউনিয়ন ভুমি অফিসের দায়িত্ব প্রাপ্ত কর্মকর্তা সরেজমিনে তদন্ত শেষে এর প্রতিবেদন উপজেলা ভুমি অফিসে পাঠানোর নিয়ম আছে।

সেখানে উল্লাপাড়ায় ভুমির শ্রেণি পরিবর্তনে কোন বিধি বিধান মানা হচ্ছে না। জমির মালিকেরা তাদের ইচ্ছে মতো শ্রেণি পরিবর্তন করছে। সরকারের ভুমি ব্যবহার নীতিমালায় কৃষি জমির টপসয়েল নষ্ট করা যাবে না। এছাড়া কোন কৃষি জমিতে ইট ভাটা স্থাপন করা যাবে না। কৃষি জমি কৃষি হিসেবেই রাখতে হবে। ভুমির শ্রেণি সহজেই পরিবর্তন করা যাবে না।


উপজেলার রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়নে সবচেয়ে বেশি ভুমির শ্রেণি পরিবর্তন করা হচ্ছে। সেখানে ফসলি জমি মাটি কেটে খনন করা হচ্ছে পুকুর। যার বেশির ভাগই অনুমতি না নিয়েই করা হচ্ছে বলে অভিযোগ রয়েছে। একই ইউনিয়নের চৈত্রহাটি পূর্বপাড়ায় সরকারি কোন অনুমতি ছাড়াই ইসমাইল হোসেন তার কৃষি জমির শ্রেণি পরিবর্তন করে পুকুর খনন কালে স্থানীয় ইউনিয়ন ভুমি অফিস থেকে তা বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা আব্দুল কাইয়ুম জানান, অনুমতি না নিয়েই পুকুর খনন ও ইট ভাটায় মাটি বিক্রির বিষয়ে বেশ ক’টি অভিযোগ পাওয়া গেছে। এসব বিষয়ে উপজেলা ভুমি অফিসে জানানো হয়েছে।


উল্লাপাড়ায় কৃষি জমির মাটি ইট ভাটায় বিক্রি করে দেয়া হচ্ছে। কৃষকেরা বিভিন্ন প্রলোভনে তা বিক্রি করছে। উল্লাপাড়ার তেলকুপি, পাগলা, গোজা, শ্রীকোলা, ঘিয়ালা, রাজমান, বড়হর, বোয়ালিয়া, চড়ুইমুড়ি, চালাসহ বিভিন্ন এলাকার কৃষি জমি মাটি ব্যাপক হারে ইট ভাটায় কেটে নেয়া হচ্ছে।
উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোঃ খিজির হোসেন প্রামানিক বলেন, ভুমি শ্রেণি পরিবতন করে পুকুর খনন, ইট ভাটায় মাটি বিক্রি করায় কৃষি জমির পরিমান কমে যাচ্ছে। এর রোধে কৃষি অফিসের আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার কোন ক্ষমতা নেই। তবে মৌখিক ভাবে কৃষি জমির ভুমি শ্রেণি পরিবর্তন না করার বিষয়ে তার বিভাগ থেকে পরামর্শ দেয়া হয়ে থাকে।


উল্লাপাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আরিফুজ্জামান জানান, কৃষি জমি শ্রেণি পরিবর্তন করতে হলে অবশ্যই নিয়ম বিধান মানতে হবে। কেউ শ্রেণি পরিবর্তন করছে এমন সুনির্দিষ্ট অভিযোগ পেলে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়া হবে।


1