LatestsNews
# কুড়িগ্রামে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় ৬জন গ্রেপ্তার# গাজীরহাট ইউনিয়ন পরিষদের গ্রাম আদালত সাধারণ মানুষের কাছে জনপ্রিয় # শিরোমণি স্পোর্টিং ক্লাব আয়োজিত ৮দলীয় মিনি ফুটবল টুর্ণামেন্টের উদ্বোধন# শৈলকুপায় অর্ধশত বছরেও আলোর মুখ দেখেনি স্বতন্ত্র এবতেদায়ী মাদরাসা!# কালীগঞ্জে পিতা হত্যার দায়ে পুত্রের যাবজ্জীবন কারাদন্ড# ‘আমলাতান্ত্রিক জটিলতায় শিল্প মন্ত্রণালয়ের কাজে মন্থর গতি’# রাজধানীর সদরঘাটে লঞ্চের ধাক্কায় ডিঙি নৌকা ডুবে নিখোঁজ দুই শিশুর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।# ঢাকা-উত্তরবঙ্গ রেলরুটে আন্তঃনগর রংপুর এক্সপ্রেস ট্রেনের বগি লাইনচ্যুত হয়ে সকল প্রকার ট্রেন চলাচল বন্ধ # পলিথিন থেকে জ্বালানি তেল উৎপাদন উদ্ভাবক জামালপুরের তৌহিদুল ইসলাম।# সিলিন্ডার পুনঃপরীক্ষার সনদ ছাড়া গ্যাস মিলবে না গাড়িতে# প্রতিযোগিতায় এগিয়ে রাখতে দেশীয় মোবাইল উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানগুলো প্রস্তাবিত বাজেটে বেশকিছু শুল্ক সুবিধা পাচ্ছে।# প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নতুন ভবন নির্মান বন্ধ রয়েছে গ্রামবাসীদের আবেদন জায়গা পুনঃনির্ধারন# মেহেরপুরের গাংনীতে দু’পক্ষের গোলাগুলিতে মাদক ব্যবসায়ী নিহত# ‘নারী ও কন্যা শিশুর প্রতি সংহতি’ বিষয়ে আলোচনা সভা# পায়রা কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রে দেশীয় শ্রমিকদের ক্ষোভের নেপথ্যে চীনাদের 'অকথ্য নির্যাতন'# চাঁপাইনবাবগঞ্জে মনিরুল হত্যা মামলায় ৯ জনের মৃত্যুদণ্ড# ডিআইজি মিজানের সম্পত্তি বাজেয়াপ্তের নির্দেশ# খুলনা শিরোমণি বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতালের ডাক্তার-ষ্টাফদের দুই দফা দাবীতে লাগাতর কর্মসুচি শুরু# অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টস হারল বাংলাদেশ# দিনাজপুরের হিলিতে দেশের প্রথম লৌহ খনির সন্ধান পাওয়া গেছে।
আজ বুধবার| ২৬ জুন ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

সৎ বাবা ও প্রতিবেশীর লালসায় ধর্ষণের শিকার ১৫ বছরের কিশোরী



গাইবান্ধার সাদুল্লাপুরে সৎ বাবার লালসার শিকার হয়ে গর্ভধারণ করলো মেয়ে অতঃপর কৌশলে গর্ভপাতের পর পূনরায় গর্ভধারণ। এলাকায় সবার মুখে মুখে আলোচানা, সমালোচানা ও নিন্দার ঝড়ে তোলপাড়।

পুনরায় গর্ভধারণ করলে ১৫ বছরের কিশোরের কাঁধে দায় চাপাতে গিয়ে মেয়ের স্বীকারোক্তিতে ওসি'র বিচক্ষণতায় ফেঁসে গেলো সৎ বাবা।

এ ঘটনায় থানায় দু'টি মামলা দায়েরসহঅভিযুক্তদের আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে থানা পুলিশ।

এলাকাবাসী ও মামলা সুত্রে প্রকাশ,গাইবান্ধা জেলার সাদুল্লাপুর উপজেলার ৮ নং ভাতগ্রাম ইউনিয়নের ইউপি সদস্য ইদ্রিস আলী ওরফে চেংটু(৪৮) গত ২০১৮ সালের প্রথম দিকে শিউলী নামের এক মহিলাকে ২য় বিয়ে (নিকাহ) করে।

সদ্য বিবাহিত শিউলী বেগমের পূর্বের স্বামীর ঘরের ১৫ বছর বয়সের একটি কন্যা সন্তান ছিলো। শিউলী ও চেংটু উভয়ে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হলে,শিউলীর পূর্বের স্বামীর ঘরে জন্ম নেয়া ১৫ বছর বয়সের মেয়েকে নিয়ে সদ্য বিয়ে করা স্বামী চেংটু মিয়ার বাড়ি টিয়াগাছা গ্রামে বসবাস করতে থাকে। এই সুযোগে লম্পট চেংটু মেম্বার (সৎ বাবা) তার সদ্য বিবাহিত স্ত্রীর পূর্বের স্বামীর ঘরে জন্ম নেওয়া ১৫ বছর বয়সী মেয়ের প্রতি লোলুপ দৃষ্টি পড়ে।

মেয়েটি সৎ বাবার লালসার শিকার হয়ে দিনেরপর দিন হুমকি ধামকীর মুখে ধর্ষিত হতে থাকে। এতে করে মেয়েটি ২ মাসের গর্ভবতী হয়ে পড়ে। প্রায় তিন মাস আগে লম্পট চেংটু সুকৌশলে বিভিন্ন কবিরাজ ও চিকিৎসকের সহোযোগিতায় গাছ-গাছান্তসহ বিভিন্ন ঔষধ খাইয়ে মেয়েটির গর্ভাপাত ঘটায়।

এরপরে মেয়েটির উপর লোলুপ দৃষ্টি পরে দক্ষিণ সনতলা গ্রামের আবুল হোসনের ছেলে লম্পট মাসুদ মিয়ার(১৬)। সে ইদ্রিস আলী চেংটু মেম্বার ও দুজনে মেয়েটিকে ব্লাকমেইল করে বিভিন্ন প্রলোভন,ভয়ভীতি ও হুমকি দিয়ে মেয়েটির সাথে দিনের পরে দিন দৈহিক মেলামেশায় মিলিত হয়। এতে করে চেংটু ও মাসুদ দ্বারা ধর্ষণের শিকার হয়ে মেয়েটি পুনরায় গর্ভবতী হয়ে পড়ে।

আর এই সুযোগকে কাজে লাগানোর জন্য চেংটু মেম্বার নিজের অপরাধের কথা গোপন করে গত ০৩/০৫/১৯ ইং তারিখে মেয়েটিকে সঙ্গে নিয়ে সাদুল্লাপুর থানায় মাছুদকে আসামী করে মামলা দায়ের করতে যায়।

এ সময় সাদুল্লাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ভিকটিমের সাথে কথপোকথনকালে বেড়িয়ে আসে এসব নানা চাঞ্চল্যকর তথ্য। মেয়েটি নিজের সাথে ঘটে যাওয়া সকল সত্য ঘটনা অকপটে স্বীকার করে ওসি'র কাছে ।

এতে করে সৎ মেয়েকে নিয়ে ধর্ষনের অভিযোগ করতে এসে ফেঁসে যায় (সৎ বাবা) ইদ্রিস আলী চেংটু মেম্বারসহ অপর লম্পট ধর্ষণকারী মাসুদ মিয়া।

এ ব্যাপারে একই দিনে সাদুল্লাপুর থানায় ধর্ষণের শিকার মেয়েটি বাদী হয়ে দুটি পৃথক মামলা দায়ের করে।

সৎ বাবাকে আসামী করে যে মামলা দায়ের করা হয় তা হলো মামলা নং ১, তাং ০৩/০৫/১৯,ধারা ২০০০ সালে নারী ও শিশু নির্যাতন আইন ৯(১) তথ্য সহ ৩১৩।
অপর ধর্ষনকারী মাছুদকে আসামী করে যে মামলা করা হয়, তা হলো মামলা নং ২, তাং ০৩/০৫/১৯,ধারা ২০০০ সালে নারী ও শিশু নির্যাতন আইন ৯(১)।

সাদুল্লাপুর থানার ওসি আরশেদুল হক ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন,মেয়েটি স্বীকার করেছে এই ন্যাক্কারজনক ঘটনায় সৎ বাবা চেংটু ও মাছুদ জড়িত । তাই তাদের বিরুদ্ধে থানায় পৃথক পৃথক দু'টি মামলা দায়ের করে তাদেরকে আটকপূর্বক জেল হাজতে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে ।


1