LatestsNews
# খুলনার শিরোমণি বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতাল অচলাবস্থা রোগী ও তাদের স্বজনদের চরম ভোগান্তি# ময়মনসিংহের মুক্তাগাছায় আমবোঝাই ট্রাক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সাথে ধাক্কা নিহত ২# ভারতের গুজরাটে ১৮ বছরের নিচে মোবাইল নিষিদ্ধ# একই পাঞ্জাবির দামে হেরফেরের দায়ে আড়ংয়ে আবারও পাঞ্জাবি কাণ্ড, ফের জরিমানা# যুক্তরাষ্ট্র থেকে এক বাংলাদেশি অভিবাসন ইস্যুতে বহিষ্কার।# রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে বাংলাদেশকে গঠনমূলক সহায়তার আশ্বাস দিয়েছে চীন।# রোহিঙ্গা সংকটের জন্য মিয়ানমার সরকারই দায়ী বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত রবার্ট মিলার।# নরসিংদীতে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে ১৩ দিন লড়াই করে হার মানলেন দগ্ধ ফুলন# নোয়াখালীতে ২ জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড # ঝিনাইদহে প্রভাবশালীরা ঘের ও পুকুর কেটে চলেছেন, অবৈধ পুকুর খননে কৃষকরা হচ্ছে ক্ষতিগ্রস্ত# লোহাগড়ায় ৫’শ পিস ইয়াবাসহ মাদক কারবারী আটক# বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতালের প্রশাসনিক কর্মকর্তা মাহমুদুলকে যোগদানে দিনভর উত্তেজনা # শিরোমনি উত্তরপাড়ায় খেলতে গিয়ে পুকুরে ডুবে দুই শিশুর মর্মান্তিক মৃত্যুঃ এলাকায় শোকের ছায়া# নোয়াখালীর চৌমুহনীতে আধিপত্য বিস্তারের জেরে প্রতিপক্ষ সন্ত্রাসীদের গুলিতে যুবকের মৃত্যু# কুড়িগ্রামে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় ৬জন গ্রেপ্তার# গাজীরহাট ইউনিয়ন পরিষদের গ্রাম আদালত সাধারণ মানুষের কাছে জনপ্রিয় # শিরোমণি স্পোর্টিং ক্লাব আয়োজিত ৮দলীয় মিনি ফুটবল টুর্ণামেন্টের উদ্বোধন# শৈলকুপায় অর্ধশত বছরেও আলোর মুখ দেখেনি স্বতন্ত্র এবতেদায়ী মাদরাসা!# কালীগঞ্জে পিতা হত্যার দায়ে পুত্রের যাবজ্জীবন কারাদন্ড# ‘আমলাতান্ত্রিক জটিলতায় শিল্প মন্ত্রণালয়ের কাজে মন্থর গতি’
আজ বুধবার| ১৭ জুলাই ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

উল্লাপাড়ায় কৃষি জমিতে হচ্ছে বসতবাড়ি গ্রামে বাড়ছে পরিবার সংখ্যা, কমছে আবাদী জমি



সাহারুল হক সাচ্চু, উল্লাপাড়া প্রতিনিধি


সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় কৃষি জমিতে নতুন বসতবাড়ি করা হচ্ছে। যৌথ পরিবার ভেঙ্গে নতুন পরিবার হচ্ছে। বাড়ছে পরিবার সংখ্যা। পুরানো বসত ভিটায় জায়গা সংকটে কৃষি জমিতে গড়া হচ্ছে বসতবাড়ি। বাড়ছে গ্রামের আয়তন। আবাদী জমি কমছে।

শহর ঘেষা গ্রাম এলাকায় বেশি নতুন  বসতবাড়ি হচ্ছে। উল্লাপাড়ায় মোট পরিবার সংখ্যা ১ লাখ ৩৬ হাজার ৭শ ৪৪টি। বেশি সংখ্যক পরিবারের বসবাস গ্রামে। মোট আয়তন ৪১ হাজার ৪শ ৬১ হেক্টর। মোট আয়তনের মধ্যে বসতবাড়ি রাস্তা ঘাট, হাট-বাজার ও অন্যান্য অবকাঠামো মিলে রয়েছে ৮ হাজার ১১ হেক্টর।

এ হিসেবে মোট আয়তনের পাচ ভাগের একভাগ জুড়ে বসতবাড়ি সহ অন্যান্য অবকাঠামো রয়েছে। এদিকে যৌথ পরিবার ভেঙ্গে নতুন পরিবার সংখ্যা প্রতি বছরই বাড়ছে। এসব পরিবার গ্রাম থেকে বেড়িয়ে কৃষি জমিতেই বাড়ি ঘর নির্মান করে বসবাস করছে। গ্রাম্য সড়ক পথের ধারেই কৃষি জমিতেই অনেকেই নতুন বসতবাড়ি নির্মান করছে।

গত দু’দশকে সদর উল্লাপাড়া ইউনিয়নে কম করে হলেও শ’পাচেক নতুন বসতবাড়ি হয়েছে। এমনযে, এক দুটি করে নতুন বাড়ী নিয়ে নতুন পাড়া গঠন হয়েছে। নাগরৌহা গ্রামে নতুন বসতীদের নিয়ে একটি পাড়া গঠন হয়েছে। মুল গ্রাম থেকে প্রায় আধা কিলোমিটার দূরে শৈলাগাড়ীতে কৃষি জমিতে এসব বসতবাড়ি নির্মান করে বসবাস করা হচ্ছে।
   

উল্লাপাড়া পৌর সিমানার মধ্যে অবস্থিত গ্রাম এলাকায় নতুন বসতিও হচ্ছে। গত দেড় দশকে পাচশো’র ভাষা নতুন বসতি পরিবার হয়েছে। খোজ নিয়ে জানা যায়, নতুন বসতি বেশি সংখ্যক পরিবার গ্রাম এলাকা থেকে এসে বসতি হয়েছে। এরা ব্যবসায়ী কিংবা চাকুরীজনিত কারণ ছাড়াও শহর এলাকায় বসবাসের ইচ্ছায় গ্রাম ছেড়ে বসতি গড়ছে। নতুন বতসবাড়ি নির্মানকারী একাধিকজনের বক্তব্যে আগে গ্রামের পুরানো ভিটাতেই বসবাস ছিল।

পুরানো ভিটায় জায়গা সংকটে ও বিভিন্ন সমস্যায় কৃষি জমিতেই বাধ্য হয়ে বসতবাড়ি নির্মান করছেন।


উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. খিজির হোসেন প্রামানিক জানান, একেবারে কৃষি জমি ছাড়াও বিভিন্ন গ্রাম্য সড়কের পাশে কৃষি জমিতে বসতবাড়ি ও বিভিন্ন স্থাপনা নির্মান হচ্ছে। এতে কৃষি জমি কমছে। উল্লাপাড়া অঞ্চল পুরোপুরি কৃষি নির্ভর এলাকা। কৃষি জমিতে বসতবাড়ী নির্মান না করতে তার বিভাগ থেকে নিরুৎসাহিত করা হয়ে থাকে।


উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মো. আরিফুজ্জামান জানান, গ্রাম গুলোয় পুরানো ভিটা বসবাসে প্রয়োজনীয় জায়গা সংকটে নতুন পরিবার হয়তো কৃষি জমিতেই বসতবাড়ি নির্মান করছে। এতে কৃষি জমি যে কমছে বিষয়টি সংশ্লিষ্ট পরিবারকেই গুরত্ব দিয়ে ভেবে দেখার দরকার রয়েছে।


1