LatestsNews
# বহিষ্কার যেন স্থায়ী হয়: আবরারের বাবা# ফের উত্তপ্ত বুয়েট, নতুন করে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ# ‘আবরার হত্যাকে কেন্দ্র করে ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করতে চায় অশুভ শক্তি’# এজাহারভুক্ত বুয়েটের ১৯ আসামিকে সাময়িক বহিষ্কার করেছে বুয়েট কর্তৃপক্ষ।# ‘পাগলা মিজানে’র বাসা থেকে ৬ কোটি ৭৭ লাখ টাকার চেক উদ্ধার# আবরার হত্যায় কারো সংশ্লিষ্টতা থাকলেই গ্রেফতার# বুয়েটে প্রশাসন সতর্ক থাকলে আবরার হত্যা হতো না : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী# আবরার হত্যা: অমিত-তোহা ৫ দিনের রিমান্ডে# বুয়েটে সব ধরনের রাজনীতি নিষিদ্ধ: উপাচার্য# আবরার হত্যার প্রতিবাদে বিএনপির কর্মসূচি# স্কুলছাত্রী রিশা হত্যায় ওবায়দুলের মৃত্যুদণ্ড# আমি তো অন্যায় করিনি, পদত্যাগ করবো কেন : বুয়েট ভিসি# আবরার হত্যা মামলা দ্রুত নিষ্পত্তি করা হবে : আইনমন্ত্রী# আবরারকে হত্যার কথা স্বীকার করলেন সকাল# আবরারের হত্যাকারীরা উপযুক্ত শাস্তি পাবে: আইনমন্ত্রী# বুয়েটে ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধ চান আনিসুল হক# সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, অপরাধীদের শাস্তি পেতেই হবে। # আবরার হত্যাকে পুঁজি করে সাম্প্রদায়িক রাজনীতি হচ্ছে: শিক্ষা উপমন্ত্রী# সময়মত চিকিৎসা পেলে বেঁচে যেত আবরার !# গ্রামের বাড়িতে নেয়া হয়েছে আবরারের মরদেহ, পারিবারিক কবরস্থানে দাফন আজ
আজ মঙ্গলবার| ১৫ অক্টোবর ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

সিরাজগঞ্জের সলঙ্গা থানার আমশড়ার শাখা পোস্ট অফিস নানা সমস্যায় জর্জরিত



সলঙ্গা( সিরাজগঞ্জ)
 
সিরাজগঞ্জের সলঙ্গা থানার আমশড়া শাখা পোস্ট অফিস নানা সমস্যায় জর্জরিত।
 
জানাযায়, সিরাজগঞ্জ জেলার সলঙ্গা থানার ৩নং ধুবিল ইউপির ২নং ওয়ার্ডের আমশড়া গ্রামের শাখা পোস্ট অফিস ত্রক সময়ে সিরাজগঞ্জ তথা সলঙ্গাতে যখন কোথাও তেমন কোন শাখা পোস্ট অফিস ছিলনা।
 
তখন থেকেই সিরাজগঞ্জের সলঙ্গা থানার ৩নং ধুবিল ইউপি ২নং ওয়ার্ডে আমশড়া গ্রামের শাখা পোস্ট অফিস ছিল। আমশড়া গ্রামের শাখা পোস্ট অফিসের পিয়ন মুজহার আলী২৫ বছর ধরে এই অফিসে চাকরী করে আসছেন।
 
তিনি বলেন, আমি এক সময়ে এই পোস্ট অফিস থেকে প্রতিদিন হাজার হাজার চিঠিপত্র দিয়ে আসতাম যে সব এলাকা তাহা হলো। তাড়াশ ও সলঙ্গা দুই থানা মিলে আমশড়া,আগুরপুর, খুদ্দর্শিমল, কালিকাপুুর,ভিকমপুর, মাধুবপুর, মথুরাপুর,ঝুরঝুরি,লক্ষিপুর,চকনিহাল, রহিমাবাদ,বেতুয়া,চুনিয়াখাড়া, মাধারজানি, নইপাড়া,মালতিনগর,মাধাইনগর,সাতকুর্শি ইছিদহ,শ্যামিরঘণ,সোরাপুরসহ বিভিন্ন গ্রামে বন্যার মধ্যে অনেক কষ্ট করে চিঠি সবার ঘরে ঘরে পৌছিয়ে দিয়েএসেছি।
 
এখন সলঙ্গা, রৌহদহ,তাড়াশসহ বিভিন্ন জায়গায় শাখা পোস্ট অফিস হলেও। সলঙ্গা থানার ৩নং ধুবিল ইউপি ২নং ওয়ার্ডের আমশড়া শাখা পোস্ট অফিসের ভাগ্যের কোন পরির্বতন ঘটনি।
নাম প্রকাশের অনইচ্ছুক একদিক ব্যাক্তি জানান,আমশড়া শাখা পোস্ট অফিসের নামে নিজস্ব কোন জমি নেই।
 
পোস্ট অফিসে সরকারি বিধান উনুযায়ী ৩জন চাকরী করার কথা থাকলেও মাত্র একজন পিয়ন দিয়ে অফিস চলে পোস্ট মাষ্টার হামিদা বেগম নিয়মিত অফিস করেন না। অনেকেই এসে পোস্ট কার্ড ও ইনভেলাপ না পেয়ে ফেরত চলে যান। রানার থেকেই নেই। রানার কোনদিন পোস্ট অফিসের বারান্দায় এসেছে কি না তাহা কেহ দেখেনি।
 
এই সব অফিসিয়াল কাজগুলি অনেক সময় অফিসের পিয়নকে দিয়ে চলেছে। এই পোস্ট অফিসটি সে কি না পারিবারিক অফিসে পরিনিত হয়েছে মনে করেন অনেকে।
 
পোস্ট মাষ্টার হামিদা বেগমের সাথে এই বিষয়ে মুঠো ফোনে যোগাযোগ করা হলে পোস্ট মাষ্টার হামিদা বেগমের স্বামী সাবেক পোস্ট মাস্টার জনাব দুলাল মাষ্টার জানান, পোস্ট অফিসের নামে ৩ -৪ শতক জমি আমি দিয়েছি তাতে কোন ঘর তৈরি করা হয়নি। ভবিষৎতে ভবন নির্মান করার পরিকল্পনা আছে।
 
তিনি আরো বলেন, পোস্ট মাস্টার, রানার ও পিয়ন তিন জনমিলেইতো তারা কাজ করেন আমার জানা মতে, এখানে কোন সমস্য নেই।
 
 
নাম প্রকাশের অনইচ্ছুক আরো একজন বলেন, সাবেক পোস্ট মাষ্টার দুলাল আহমেদ তার নিজিস্ব পরিত্যক্ত বাড়িকে পারিবারিক পোস্ট অফিস বানিয়েছেন।
 
ভাড়াটিয়া অস্থায়ী ওই পোস্ট অফিসের করুণ দশা খুরিয়ে খুরিয়ে চলে পোস্ট অফিসের কাজ। টিনের চালদিয়ে বৃষ্টির পানি পড়ে মূল্যবান কাগজপত্র নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। অফিসে আসবাবপত্র নেইবললে চলে। যা আছে তাও নষ্ট হয়ে যাচ্ছে।
 
পোস্ট অফিসের টিনসেড ঘরের খামখুটি পোচে নষ্ট হয়ে খোসে পড়ছে। যেকোন সময় টিনসেট ঘরটি ধসে পড়ে প্রাণহানি ঘটতে পারে। সিরাজগঞ্জ জেলার সলঙ্গা থানার ৩ নং ধুবিল ইউপি ২নং ওয়ার্ডের আমশড়া শাখা পোস্ট অফিস দীর্ঘদিন যাবৎ সংস্কার না করায় জরাজীর্ণ ভবনে পরিণত হয়েছে।
 
এলাকাবাসির বর্তমান সরকারের কাছে প্রাণের দাবি জরাজীর্ণ টিনসেট ঘরটি ভেঙ্গে নিজস্ব জায়গার উপর একটি ভবন নির্মাণ করে পোস্ট অফিসের উত্তর উত্তর ও কাজের গতি ফিরে আসুক তাদের এই কামনা।
 
এছাড়া অত্র পোস্ট অফিসের নিয়োজিত পোস্ট মাস্টার এই প্রতিনিধিকে জানান, আমি ঊধর্বতন কর্তৃপক্ষ বরাবর, এ বিষয়ে অবগত করার পরেও বরাদ্দ না পাওয়ায় পোস্ট অফিসগুলো সংস্কার করা সম্ভব হচ্ছে না।
 
পোস্ট অফিসগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য ও জনগুরুত্বপূর্ণ পোস্ট অফিস হচ্ছে সলঙ্গা থানার ৩নং ধুবিল ইউপি ২নং ওয়ার্ডের আমশড়া গ্রামের শাখা পোস্ট অফিসটি ১৯৬২ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে।
 
পোস্ট অফিসের প্রতিষ্ঠাতা সাবেক ৩নং ধুবিল ইউপির চেয়াম্যান সাবেক পোস্ট মাস্টার প্রেয়াতো নেতা আমজাদ হোসেন অফিসটি আমশড়া হাট খোলায় প্রতিষ্ঠিত করেছিলেন।
 
পরে তার মৃত্যর পর সাবেক পোস্ট মাস্টার দুলাল আহমেদ আমশড়া উত্তরপাড়া তার নিজ বাড়ির নিয়ে এসে তার টিনসেট ভবনের দক্ষিণ পার্শ্বে একটি কক্ষ পোস্ট অফিস ব্যবহারের জন্য ছেড়ে দেন।
 
তখন থেকে ওই কক্ষ পোস্ট অফিসের কাজে ব্যবহৃত
হয়ে আসছে। পোস্ট অফিসটি ঘিরে চারদিগে স্কুল,কলেজ,মাদ্রাসা,কয়েকটি সরকারি প্রথমিক বিদ্যালয়, কয়েকটি ইটভাটা, কয়েকটি হাফিজিয়া মাদ্রাসা, কয়েকটি কমিউনিটি হাসপাতাল, অনেক গুলিমিলকারখানা ও ধানের চাতাল রয়েছে
 
এখানে প্রতিদিন শত শত চিঠিপত্র ও দেশী বিদেশী মানি অর্ডার আসে লাখ লাখ টাকা লেনদেন হয় ও পোস্ট অফিস থেকে। দীর্ঘ প্রায় ৫৯ বছর আগে প্রতিষ্ঠিত প্রতিষ্ঠানে নানা সমস্যায় জরর্জীত নেই ভবণ,আছবাবপত্র, লেটার বকবস, সাইনবোর্ডের কালার,৩-৪ শতক অফিসের নামে কথিত জায়গা থাকলেও নেই কোন ভবন।
 
অফিস আছে, থাকেনা পোস্ট মাস্টার। পোস্ট মাস্টার মহিলা হওয়ায় সে স্বামীর সাথে তার বাসা ছেড়ে সলঙ্গা বাসা ভাড়া করে থাকেন বলে জানা যায়। জনগুরুত্বপূর্ণ পোস্ট অফিসের ভবণসহ সকল অভকাঠামোর প্রতি সরকারের কাছে যথাযথ শুদৃষ্টি কামনা করছেন সংশ্লিষ্ঠ কর্তিপক্ষ।


1