LatestsNews
# ‘পদ্মা সেতুর নির্মাণকাজে শিশুদের মাথা লাগবে’ এমন গুজবে দুই সপ্তাহ ধরে গুজবে ২১ গণপিটুনি : ৫ জনকে হত্যা# বাংলাদেশের উন্নয়নের স্বার্থে ইউরোপে কূটনৈতিক তৎপরতা বাড়ানোর নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর# আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ না দিয়ে প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে কোনো আইনি ব্যবস্থা নেবে না সরকার : কাদের# প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে করা ব্যারিস্টার সুমনের মামলা খারিজ# মিন্নির মা-বাবাকে আইনের আওতায় এনে বিচারের দাবি জানিয়ে সংবাদ সম্মেলন# উল্লাপাড়ায় বন্যা কবলিত ৪০ প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের উপস্থিতির হার কম# দেশে পর্যাপ্ত ত্রাণ সামগ্রীর মজুদ রয়েছে যোগাযোগ ব্যবস্থা বিঘ্ন হওয়ায় পৌঁছাতে সময় লাগছে।# অস্ত্রধারীদের হামলায় ঢাবিতে ছাত্রলীগ নেতা গুলিবিদ্ধ হয়েছেন।# রওশন এরশাদের বাসায় গিয়ে তার দোয়া নিলে এলেন জি এম কাদের।# এবারের সিরিজ অনেক বেশি চ্যালেঞ্জিং: তামিম# বড় দুর্নীতিবাজদের ধরতে না পারার ব্যর্থতা স্বীকার করে নিয়েছেন দুর্নীতি দমন কমিশনের চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ।# ‘উপন্যাসের কাহিনী চুরি করেছে’ ক্ষোভ থেকে জাপানে স্টুডিওতে আগুন# সন্তানকে ভর্তির জন্য স্কুলে খোঁজ নিতে গিয়ে ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনিতে প্রাণ হারিয়েছেন এক মা।# নারায়ণগঞ্জে গণপিটুনিতে নিহত যুবকের পরিচয় শনাক্ত# ঈদকে সামনে রেখে জমে উঠেছে পশুহাট, রয়েছে মেডিসিন প্রয়োগে মোটা তাঁজা করনের ব্যাপক অভিযোগ # নোয়াখালীতে ছাত্রীদের যৌন হয়রানি, প্রধান শিক্ষক আটক# সামান্য তর্কের জেরে প্রাণ হারালো এক কারখানা শ্রমিক। # উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবেই প্রিয়া সাহা অসত্য বক্তব্য দিয়েছেন দেশে ফিরলেই তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।# দেশদ্রোহী বক্তব্যের জন্য প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতেই হবে : কাদের# বেনাপোল সীমান্তে ভারতীয় রুপিসহ আটক ১
আজ মঙ্গলবার| ২৩ জুলাই ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

উল্লাপাড়ায় পরিশ্রম আর পরিচর্যায় সফল পটলচাষী ফকির জয়নাল



সাহারুল হক সাচ্চু, উল্লাপাড়া (সিরাজগঞ্জ) 

এইতো বছর দেড়েক আগে হিসেব কষে দেয়া হয়েছিল লোকসান হবে। খরচের এক টাকাও তার ঘরে আসবে না। ফকির জয়নাল কোন ফকিরিতেও সফলতা মেলাতে পারবেনা এমন সব কথা লোক মুখেই থেকেছে। যারাই বলেছে তারাই হেরেছে। কৃষক ফকির জয়নালের পটল চাষে সফলতা মেলায় এখন লাভের টাকা প্রতিদিনই ঘরে আসছে। তার সফলতা এখন অন্য কৃষকদেরকেও আগ্রহী করে তুলছে। 

উল্লাপাড়া উপজেলার নাগরৌহা গ্রামের প্রায় ষাট বছর বয়সী কৃষক ফকির জয়নাল মিয়া নিজ থেকেই পটল চাষে আগ্রহী হন। তিনি ধান পাটের পাশাপাশি বিভিন্ন সবজি ফসলের আবাদ করে থাকেন। তার আর কোন জমি না থাকায় নাগরৌহা মাঠেই পটল চাষে বাৎসরিক চুক্তিতে ২৫ শতক জমি লীজ নেন। তিনি জানান, ২৫ শতক জমি বাবদ প্রতি বছর ১০ হাজার টাকা জমির মালিকের সাথে চুক্তি করেছেন। প্রায় দেড় বছর আগে নাটোরের আড়ানী এলাকা থেকে পটলের কান্ড এনে এ চাষে নামেন।

নাগরৌহা মাঠ সহ আসে পাশের মাঠ গুলোর মধ্যে তিনি প্রথম এর চাষ শুরু করেছেন। তার ফসলের চাষ দেখে এলাকার কৃষক শ্রেণির লোকজন নানা মন্তব্য করতে থাকেন। এর আবাদে লাভতো দুরের কথা খরচের একটি টাকাও তার ঘরে আসবে না এমন চ্যালেঞ্জও নাকি দু’একজন দিয়েছিলেন বলে জানান।

এ প্রতিবেদকের সাথে আলাপকালে ফকির জয়নাল আরো জানান, কেউ তাকে উৎসাহ দেয়নি। যে যাই বলুক তিনি সব কিছুই মুখ বুঝে সহে এর পিছনে কঠোর পরিশ্রম আর পরিচর্যা করেছেন। এর আবাদে তিনি সফল হয়েছেন। জমি লীজের টাকা বাদে পরিচর্যা, দিন মজুরীর দাম ও অন্যান্য খাতে প্রায় ১৫ হাজার টাকা খরচ হয়েছে।

গত মাস ছয়েক হলো তিনি প্রায় দিনই পটল তুলে স্থানীয় বাজারে বিক্রি করছেন। এখন প্রতিদিন তিনি ২০ থেকে ২৫ কেজি করে পটল তুলছেন। তার কাছে এখন অন্য কৃষকরা এর আবাদে সহযোগিতা চাইছেন বলে জানান।

উপজেলা সিনিয়র কৃষি কর্মকর্তা মোঃ খিজির হোসেন প্রামানিক জানান, পটল ফসলের রোগ বালাই কম হওয়ায় কীটনাশক জাতীয় ঔষধের পিছনে খরচ খুবই কম হয়। একবার পটলের চারা লাগানোর পর টানা দীর্ঘদিন ফসল মেলে। তার বিভাগ থেকে মাঠ পর্যায়ে গিয়ে পটল চাষীদের বিভিন্ন পরামর্শ ও সহযোগিতা দেয়া হয়। এছাড়া বিভিন্ন সময়ে প্রশিক্ষণও দেয়া হয়ে থাকে।


1