LatestsNews
# চট্টগ্রাম বন্দরে সংঘর্ষে জোড়া লেগে যাওয়া জাহাজ দু'টির অংশ বিশেষ কেটে আলাদা করা হয়েছে।# কারাগারের আড়াইশো বছরের সকালের নাস্তার মেন্যু পরিবর্তন হলো # লোকাল ট্রে‌নের ইঞ্জিন লাইনচ্যুত হ‌য়ে ময়মন‌সিংহ-ভৈরব রু‌টের সব ট্রেন চলাচল বন্ধ# সাবেক ওসি মোয়াজ্জেম গ্রেফতার# মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী, পেশাগত দক্ষতা ও আনুগত্য বিবেচনা করে পদোন্নতি দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।# মৗলভীবাজারে মনু ও ধলাই নদীর পানি দ্রুত বাড়ছে আতংকে জেলাবাসী# ভারতে পাচার ৫ বাংলাদেশীকে বেনাপোলে ফেরত # রোহিঙ্গা সংকটের শান্তিপূর্ণ ও সুষ্ঠু সমাধানে সারা বিশ্বের সহযোগিতা চেয়েছে বাংলাদেশ।# উল্লাপাড়ায় পরিশ্রম আর পরিচর্যায় সফল পটলচাষী ফকির জয়নাল# মাগুরা শ্রীপুরে সাংবাদিকে বৃদ্ধ বাবা সহ ৫ আওয়ামীলীগ নেতা কর্মির নামে মিথ্যা মামলা# বিএনপি-জামায়ত জোটের শাসন আর কোন দিন ফিরে আসবে না# মৌলভীবাজারে দীঘলগিজি স্কুলে একটি রাস্তার কারনে ঝড়ে পড়ছে শতাধিক কোমলমতি শিশু# ২০১৯-২০ সালের অর্থবছরের বাজেট ঘোষণার পরদিনই বেড়ে গেছে সোনার দাম।# ফিফা র‍্যাঙ্কিংয়েও উন্নতি বাংলাদেশের# বিশ্বকাপের ১৯তম ম্যাচে উইন্ডিজকে ৮ উইকেটে হারালো ইংল্যান্ড।# অনির্বাচিত সরকারের বাজেট প্রণয়নের নৈতিক অধিকার নেই :মির্জা ফখরুল# চট্টগ্রামে ১০ হাজার পিস ইয়াবাসহ পুলিশের এসআই আবু বক্কর সিদ্দিককে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব# সাভারে ভয়ংকর লুঙ্গিবাহিনীর ১৭ ডাকাত গ্রেফতার, অস্ত্র ও গুলি উদ্ধর# ২০১৯-২০ অর্থবছরের জন্য প্রস্তাবিত বাজেটে নিম্নবিত্ত ও বিকাশমান মধ্যবিত্তের জন্য তেমন কোনো সুখবর নেই# রেমিটেন্সে প্রণোদনা প্রবাসীদের উৎসাহিত করবে
আজ রবিবার| ১৬ জুন ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের ইমারজেন্সিতে চলছে চিকিৎসা বানিজ্য



মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের ইমার্জেন্সীতে থাকা এমএলএস স্বাস্থ্যসহকারী চিকিৎসকরা চিকিৎসার নামে অর্থ বানিজ্য করে আসছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এতে করে ইমার্জেন্সেীতে থাকা চিকিৎসকরাও অনেকটা অসহায় হয়ে পড়ে এসব স্থানীয় সিন্ডিকেটের কাছে। দায়িত্বপ্রাপ্ত চিকিৎসকরাও এদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করার মত কোন সাহস পাচ্ছেনা। হাসপাতালের ইমার্জেন্সীতে আসা রোগী ও স্বজনদের সূত্রে জানাযায়, মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে এমএলএস আজিম দীর্ঘ ১৩ বছর ধরে মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের ইমার্জেন্সীতে চিকিৎসার নামে অর্থ আদায় করে আসছেন। দীর্ঘদিন একই স্থানে থাকায় গড়ে তুলেছেন একটি শক্তিশালী সিন্ডিকেট।জেলা শহরের প্রধান এই হাসপাতালটিতে প্রতিদিন শত শত রোগী চিকিৎসা নিতে আসেন ইমার্জেন্সেীতে । বিশেষ করে রোড এক্সিডেন্ট, মারামারি, বিষ খাওয়া ও কাঁটাছেড়া রোগীদের নিয়ে ইমার্জেন্সীতে চলে রমরমা অর্থ আদায় বানিজ্য। সেখানে একজন কাঁটাছেড়া রোগী নিয়ে গেলে এম এল এস ও ওয়ার্ড বয়রা রোগীর স্বজনদের দিয়ে  ২-৩ জন রোগীর প্রয়োজনীয় ইনজেক্সন, শেলাই (স্ট্রেচ)সূতো কিনে আনেন। আর রোগীকে শেলাই ও ড্রেসিং করে বকশিশের নামে আদায় করেন ৩০০-৪০০ টাকা। না দিলে রোগীকে তেমন একটা গুরুত্বও দেওয়া হয়না। আর বেঁচে যাওয়া শেলাই  স্ট্রেচ) সূতো আর ইঞ্জেকশন অন্য রোগীর কাজে ব্যবহার করে আদায় করেন দ্বিগুন টাকা। সেখানে থাকা কর্তব্যরত ডাক্তারগন শুধু রোগীর প্রেসক্রিপশন লিখেন আর বাকী কাজগুলো এম এল এসরাই করে থাকেন। গ্রামের দূরদুরান্ত থেকে আসা রোগীরা তেমন একটা সচেতন না হওয়ার সুযোগটাই কাজে লাগাচ্ছেন ইমার্জেন্সেীতে থাকা এম এল এস ও ওয়ার্ডবয়রা। এমনটাই মনে করছেন সুশীল সমাজ । রয়েছে ছেলেদের সুন্নতে খাৎনা করিয়ে মোটা অঙ্কের টাকা আদায়।
রোগীর স্বজন সেলিম মিয়া অভিযোগ করে বলেন,বৃহস্পতিবার বিকাল ৫টার দিকে সিরিয়া বেগম (৭৫) বছরের এক বৃদ্ধ পড়ে গিয়ে মাথা ফেটে গেলে তাকে মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের ইমার্জেন্সীতে নিয়ে যাওয়া হয়।  পরে সেখানে এম এল এস আজিম এবং আরিফ রোগীকে শেলাই এবং ড্রেসিং করে বলে শেলাই সুঁতো আর আনুসাঙ্কিক জিনিসপত্র বাহির থেকে কিনে আনতে হয়েছে অযুহাত দেখিয়ে ৩০০ টাকা দাবি করেন। অথচ রোগীকে সরকারী হাসপাতালের সর্বরাহ করা আনুসাঙ্কিক জিনিসই ব্যবহার করা হয়েছিল। পরে ইমার্জেন্সীতে দায়িত্ব প্রাপ্ত চিকিৎসকের কাছে নালিশ দেন তিনি।
এ বিষয়ে জানতে চেয়ে এম এল এস আজিমকে ফোন করিলে তিনি বলেন, আমাদের সহকর্মীদের কাছে থাকা ভারতীয় শেলাই (স্ট্রেচ) সুতা দিয়ে কাজ করে বলেছি এটা বাহির থেকে কিনে আনলে আপনার ৩০০ টাকা লাগিত আপনি এখন ৩০০ টাকার একটু কম দিলেই চলবে। এ সময় রোগীর স্বজনরা রেগে গিয়ে চিকিৎসকের কাছে বিচার দিয়ে চলে যান।
এ বিষয়ে সিভিল সার্জন ডা: সিদ্দিকুর রহমান বলেন, বিষয়টি আমি জানার পর তাৎক্ষনিকভাবে অভিযুক্ত এম এল এস আজিমকে হাসপাতালের দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দিয়েছি। টাকা পয়সা লেনদেনের বিষয়টি তদন্ত করে পরবর্তী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।


1