LatestsNews
# মৌলভীবাজারে ক্ষতিগ্রস্থ প্রত্যেক ঘর পাকা করে দেওয়া হবে: ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী# কুড়িগ্রামে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি ব্রহ্মপূত্রের ভাঙনে রৌমারী-রাজিবপুর প্লাবিত# শিক্ষা সহায়ক স্বপ্নপূরন সংগঠনের উদ্যোগে দরিদ্র দুই শিক্ষার্থীকে সহায়তা প্রদান # শৈলকুপায় কৃকদের নিকট থেকে ধান কিনছেন ইউএনও# ঝিনাইদহ জেলা জুড়েই পোষ্ট অফিসের কর্মচারী কর্মকর্তাদের চলছে বেহালদশা# খুলনার শিরোমণি বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতাল অচলাবস্থা রোগী ও তাদের স্বজনদের চরম ভোগান্তি# ময়মনসিংহের মুক্তাগাছায় আমবোঝাই ট্রাক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সাথে ধাক্কা নিহত ২# ভারতের গুজরাটে ১৮ বছরের নিচে মোবাইল নিষিদ্ধ# একই পাঞ্জাবির দামে হেরফেরের দায়ে আড়ংয়ে আবারও পাঞ্জাবি কাণ্ড, ফের জরিমানা# যুক্তরাষ্ট্র থেকে এক বাংলাদেশি অভিবাসন ইস্যুতে বহিষ্কার।# রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে বাংলাদেশকে গঠনমূলক সহায়তার আশ্বাস দিয়েছে চীন।# রোহিঙ্গা সংকটের জন্য মিয়ানমার সরকারই দায়ী বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত রবার্ট মিলার।# নরসিংদীতে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে ১৩ দিন লড়াই করে হার মানলেন দগ্ধ ফুলন# নোয়াখালীতে ২ জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড # ঝিনাইদহে প্রভাবশালীরা ঘের ও পুকুর কেটে চলেছেন, অবৈধ পুকুর খননে কৃষকরা হচ্ছে ক্ষতিগ্রস্ত# লোহাগড়ায় ৫’শ পিস ইয়াবাসহ মাদক কারবারী আটক# বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতালের প্রশাসনিক কর্মকর্তা মাহমুদুলকে যোগদানে দিনভর উত্তেজনা # শিরোমনি উত্তরপাড়ায় খেলতে গিয়ে পুকুরে ডুবে দুই শিশুর মর্মান্তিক মৃত্যুঃ এলাকায় শোকের ছায়া# নোয়াখালীর চৌমুহনীতে আধিপত্য বিস্তারের জেরে প্রতিপক্ষ সন্ত্রাসীদের গুলিতে যুবকের মৃত্যু# কুড়িগ্রামে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় ৬জন গ্রেপ্তার
আজ বৃহস্পতিবার| ১৮ জুলাই ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

শনির হাত থেকে শেষ রক্ষা হল না শনির হাওরের



জাহাঙ্গীর আলম ভূঁইয়া,সুনামগঞ্জ Channel 4TV :
সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলায় সর্ব শেষ শনির হাওরটি গত শনিবার (২২এপ্রিল) দিনগত রাতে মধ্য রাতে লালুগোয়লা ও আহমখালি বাঁধে কয়েকটি বুরুংগা বড় (পানি প্রবাহের ছোট ছিদ্র) হয়ে বৃষ্টির পানির চাপে বাঁধ ভেঙ্গে তীব্র গতিতে হাওরে প্রবেশ করছে পাহাড়ী ঢলের পানি। রাতে হাওরের পাহাড়ায় থাকা লোকজন এ হাওরটি রক্ষায় সবাতর্œক চেষ্টা করেও কোন লাভ হয় নি। কৃষকের সব স্বপ্ন ভেঙ্গে দিল পাহাড়ী ঢলের পানি। ভাসিয়ে দিল উপজেলার সর্ব শেষ শনির হাওরটিও। র্দীঘ ২৫দিন ধরেই ঝড়-বৃষ্টি-ব্রজপাত উপেক্ষা করে দিন-রাত হাজার হাজার শ্রমিক সেচ্ছা শ্রমে হাওরটি রক্ষায় বাঁেধ কাজ করছিল। বাঁধ রাত জেগে পাহাড়ায় ছিল আরেক দল। একের পর এক হাওরের বাঁধ ভেঙ্গে যাওয়ার পরও উপজেলা বাসীর একটাই সর্বশেষ চাওয়া ছিল শনির হাওর রক্ষা। তাই শেষ সম্পদ জীবন বাচাঁর একমাত্র হাতিয়ার এ হাওরটি রক্ষায়। নিজেদের জীবন বাজিঁ রেখেই যুদ্ধ করছিল হাওরবাসী হাওরের বাধেঁ পাহাড়ী ঢলের পানি আর বৈরী আবহাওয়ার সাথে। এই হাওরটি শেষ রক্ষা করতে না পেরে বুকভড়া দীর্ঘ শ্বাস যেন হাওরপাড়ের আকাশ ভারী হয়ে ঊঠেছে। জানাযায়,বোরো উৎপাদন সমৃদ্ধ বৃহত্তর এ হাওরে তাহিরপুর উপজেলার সাড়ে ৬হাজার হেক্টর ও পাশ্ব ভর্তি জামালগঞ্জ উপজেলার ৩হাজার হেক্টরের অধিক জমিতে কৃষকরা বোরো ধানের চাষাবাদ করেছে। হাওর ডুবায় হতাশায় ভেঙ্গে গেছে সবার মন কারন এই বাঁধ ভাঙ্গার ফলে শনি হাওর আর রক্ষা আর কোন উপায় থাকল না। খবর পেয়ে বাঁধে ছুঠে যান তাহিরপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সহ হাওর পাড়ের কৃষকগন। নিমেশেই হাওর যেন পানিতে কানায় কানায় পূর্ন হয়ে উঠছে পাহাড়ী ঢলের পানিতে। বাদল,সাইদুল,নাসরুম,সোহাগ,সাদেক আলী সহ স্থানীয় কৃষকরা জানান,যে ভাবে হাওরে পানি ডুকছে সন্ধ্যার মধ্যে শনির হাওরের আধা পাকা ও কাচাঁ বোরো ধান পানির নিচে ডুবে যাবে। তাই এখন কাটছি কিছু করার নাই। তারা আরো অভিযোগ করে বলেন,গত ২৮শে ফেব্রুয়ারীর মধ্যে এই উপজেলার ২৩টি হাওরের ১৮টি বেরী বাঁধ নির্মাণ কাজ শেষ করার সরকারি নির্দেশ থাকলেও ৪০ভাগ কাজও শেষ করে নি পানি উন্নয়ন বোর্ডের ঠিকাদার ও পিআইসিগন। নিজেদের খেয়াল খুশি মত,দায় সারা ভাবে বাঁধ নির্মান করায় একের পর এক হাওর ডুবে এ উপজেলার ৯০ভাগ বোরো ধানের ক্ষতি হয়েছে। বাঁধ রক্ষায় ফাঠল ও দেবে যাওয়া অংশে সংস্কারের কাজ করেছে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান কামরুল সহ হাওর পাড়ে কৃষকগন দিন-রাত সেচ্ছা শ্রমে। আর এই ফসল ফলাতে কৃষকরা এনজিও,ব্যাংক ও মহাজনের কাছ থেকে ছড়া সুদে নেওয়া ঋন নেওয়ায় এখন ফসল হানির কারনে পরিশোধ নিয়ে হতাশায় দিন পার করছে হাওর পাড়ের কৃষকরা।  
উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানাযায়-তাহিরপুর উপজেলার এ বছর উপজেলায় ১৮,৩০০হেক্টর জমিতে বিভিন্ন জাতের ধান চাষবাদ করা হয়েছে। শনি হাওর হাওর ডুবে প্রায় সাড়ে ৬হাজার হেক্টর কাঁচা,আধা পাকা বোরো জমি পানিতে তলিয়ে গেছে। পানিতে তলিয়ে যাওয়া হাওরের কাচাঁ ও পাশ্ব ভর্তি জামালগঞ্জ উপজেলার ৩হাজার হেক্টর বেশি আধা পাকা ধান কাটছে এখন কৃষকগন। উপজেলার ছোট বড় ২৩টি হাওরে উৎপাদিত ২শ কোটি টাকার ফসলের উপর নির্ভর করেই জীবন জীবিকা চলে হাজার হাজার কৃষক পরিবারের। এবছর ৯০ভাগ বোরো ধান পানিতে তলিয়ে গেছে।
তাহিরপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আব্দুস ছালাম জানান-রাত সাড়ে খবর আসে শনি হাওরের লালু গোয়ালা বাঁধ ভেঙ্গে গেছে। ফলে সাড়ে ৯হাজার হেক্টরের বোরো জমির আধা কাচা-পাকা ধান বেশির ভাগ পানিতে ডুবে যাচ্ছে। এ বছর হাওরের ক্ষতির পরিমান অন্যান্য বছরের চেয়ে অনেক বেশি।  
তাহিরপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান কামরুল বলেন-শনি হাওরের বাঁধটি রক্ষায় আমি সহ হাজার হাজার কৃষক সহ সবাই ২৫দিন ধরে অবস্থান করছিলাম কিন্তু শেষ পর্যন্ত বাঁধটির শেষ রক্ষা করতে পারলাম না লালুরগোয়লা বাঁধ ভেঙ্গে ও সাহেব নগড় আপর দিয়ে পাহাড়ী ঢলের পানি এখন শনির হাওরে তীব্রগতিবে ডুকছে। এবার কৃষকের কষ্টের শেষ নেই। সঠিক ভাবে বাঁধ নির্মাণ না করার কারণে একের পর এক হাওর ডুবছে। বাঁধ নির্মানে দূর্নীতিবাজদের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবী ও কৃষকের সহযোগীতার দাবী জানাই।  
তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাইফুল ইুসলাম জানান-শনি হাওরের বাঁধ রক্ষায় চেষ্টা করে যাচ্ছিল হাজার শ্রমিক সেচ্ছা শ্রমেগন কিন্তু গত শনিবার দিন গত মধ্য রাতে খবর পেলাম যে লালুরগোয়ালা বাঁধ ভেঙ্গে গেছে যার ফলে শনি হাওর রক্ষা করা সম্ভব হল না।


1