LatestsNews
# গুলশান-১ এর ডিএনসিসি মার্কেটে মেয়াদোত্তীর্ণ শিশু খাদ্য # এডিসের লার্ভা ধ্বংসে বাড়ি বাড়ি অভিযানে নগরবাসীর অসহযোগিতার অভিযোগ# চামড়া নিয়ে টানাপোড়েন থামছেই না - নিয়মিত ক্রেতাদের তৎপরতা দেখা যায়নি। # কাশ্মীর ইস্যুতে মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে বিবৃতি প্রকাশ# দাবি-দাওয়া মানলেই মিয়ানমারে ফিরবে রোহিঙ্গারা# ম্যাজিস্ট্রেট ও পুলিশ কর্মকর্তাদের সঙ্গে বিচারকের কক্ষে বিরিয়ানি খান রাজসাক্ষী জজ মিয়া# গাইবান্ধার ঝিনুকের তৈরী চুন উৎপাদনকারি যুগি পরিবারগুলো এখন বিপাকে# শিক্ষা নীতিমালা অনুমোদন করায় মোবারক হোসেন প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়ের অভিনন্দন# এডিস মশার দীর্ঘমেয়াদি সমাধানের জন্য বাংলাদেশ সফরে আসছেন উচ্চ পর্যায়ের বিদেশি বিশেষজ্ঞ প্রতিনিধিদল। # শেখ হাসিনাকে ভারত সফরের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। # মেঘনা নদীর ভাঙন গাফিলতি করা সেই প্রকৌশলীকে কী শাস্তি দেওয়া হয়েছে? : প্রধানমন্ত্রী# সংসদ সদস্য না হয়েও বিলাসবহুল গাড়িতে শুল্কমুক্ত সুবিধা পেলেন মুহিত# দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) দুর্নীতির বস্তাভর্তি টাকাসহ হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা গ্রেপ্তার# নায়াখালীতে সিএনজিচালিত ও ব্যাটারিচালিত অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে নারী-শিশুসহ আহত ১২# পচা মাছ মজুদ ও বিক্রির দায়ে স্বপ্ন এক্সপ্রেস সুপার শপকে জরিমানা# ভারতীয় দলের ওপর হামলার শঙ্কা, পিসিবিকে মেইল# ২০২৩ সালের মধ্যে দেশের ৬৬ হাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দুপুরের খাবার পাবে প্রাথমিকের শিক্ষার্থীরা# মিন্নির জামিন শুনানি, যা বললেন হাইকোর্ট# ভারতের বহুল আলোচিত ইসলামিক বক্তা ডা. জাকির নায়েক এবার মালয়েশিয়ায় নিষেধাজ্ঞার মুখে# নেত্রীকে মুক্ত করতে ব্যর্থ বিএনপি এখন বিদেশিদের কাছে ধরনা দিচ্ছে মন্তব্য : ওবায়দুল কাদের।
আজ রবিবার| ২৫ আগস্ট ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

বিডিএস এর সহযোগিতায় গলাচিপার করুনা আজ স্বাবলম্বী।



বিশেষ প্রতিবেদক,মু.নজরুল ইসলাম Channel 4TV :
গ্রাম্য বধু নাসরিন জাহান করুনা(৪০)একজন সমাজ উন্নয়নকর্মী হিসেবে দায়িত্ব পালন করে স্বাবলম্বী হয়েছেন। কঠোর পরিশ্রম আর মেধা মানুষের ভাগ্যের চাকা ঘুড়িয়ে দিয়েছে এমনই একটা দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন পটুয়াখালীর গলাচিপা উপজেলার উত্তর পানপট্টি গ্রামের নাসরিন জাহান করুনা(৪০)। শ্রম ছাড়া জীবন স্বার্থক হয় না এরই প্রমান দিয়েছেন করুনা। বিডিএস এর সদস্য লাভ করে এ সংস্থার সহযোগিতায় করুনা মুরগীর খামারটি ছোট থেকে বড় খামারে উন্নতি করেন। তিনি একজন সফল নারী যা পটুয়াখালী জেলার মধ্যে মডেল হিসেবে খ্যাতিমান। এমন কোন দিন নেই তার খামারটি দেখতে নারী পুরুষ না আসে। একবার দেখলে অনেকে অভিভূত হয়ে যায় কিভাবে এতবড় খামার তৈরি করল। তিনি এলাকায় একজন মডেল হিসেবে খ্যাতি অর্জন করেছে। তার অনুকরণে এলাকায় অনেক নারী সফলতার মুখ দেখতে শুরু করেছে। উপজেলা প্রানিসম্পদ অফিস থেকে জানা গেছে, গলাচিপা উপজেলার পৌরসভাসহ ১২টি ইউনিয়নে তিন শত মুরগী খামার রয়েছে। এর মধ্যে বয়লার ২৭০টি, সোনালী ২০টি ও লেয়ার ১০টি প্রকল্প রয়েছে। তবে মাকসুদুল হাসান মুকুলের (৫০)স্ত্রী নাসরিন জাহান করুনার প্রকল্পটি উপজেলার মধ্যে সবচেয়ে বড়।
সূত্র জানায়, গলাচিপা উপজেলার পানপট্টি ইউনিয়নে উত্তর পানপট্টি গ্রামের মাকসুদুল হাসান মুকুলের স্ত্রী নাসরিন জাহান করুনা ২০১১সালে প্রথমে মাত্র ১শতটি লেয়ার মুরগী নিয়ে তার খামার প্রকল্প শুরু করেন। তাতেই তিনি আশার আলো দেখতে পায়। করুনা ২০১৪ সালের ৮জুলাই গলাচিপা শাখার বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট সোসাইটি (বিডিএস)এর বনফুল মহিলা সমিতির সদস্য পদ লাভ করে। এর পর ২২জুলাই পনের হাজার টাকা ও ২০১৫ সালের ২০জানুয়ারী ৫০হাজার টাকা ঋণ গ্রহন করেন। ঋণের টাকা দিয়ে তার খামারে ২০১৪ সালে ৬শত মুরগী আর ২০১৫ সালে ২হাজার মুরগীতে উন্নীত করেন। ৩য় দফায় একই বছরে ১৬ জুলাই ১ লাখ টাকা পেয়ে খামারটিতে ৪ হাজার  মুরগী উত্তোলন করেন। ৪র্থ বারের মতো ২০১৬ সালের ১৭ এপ্রিল ২লাখ টাকা ও ৫ম বারের মতো ২০১৭ সালের ১০ এপ্রিল ৩ লাখ টাকা লোন নিয়ে খামার প্রকল্পটি সম্প্রসারন করেন। এছাড়া তার বৃহৎ আকারের একটি মাছের ঘের রয়েছে। লভ্যাংশ থেকে তিনি নিয়মিত লোনের কিস্তি পরিশোধ করেন।বর্তমানে তার খামারে লেয়ার জাতের সাদা মুরগী ৪ হাজার এবং ২ হাজার লাল মুরগী রয়েছে। দৈনিক গড়ে তিনি ৫হাজার ২শত থেকে ৫হাজার ৪শত ডিম পান। মুরগী পালনের জন্য উপযুক্ত পরিবেশে বড় ধরনের ৫টি ঘর রয়েছে। এ ছাড়াও খাবার, ডিম ও শ্রমিক থাকার জন্য আলাদা ২টি ঘর রয়েছে। মুরগীর পরিচর্যা করার জন্য স্থানীয় তিন জন শ্রমিক নিয়োজিত আছেন করুনার খামারে। শ্রমিকরা হলেন দেলোয়ার হোসেন, মিজানুর রহমান ও সবুজ মিয়া। পরিচর্যাকারী মো: দেলোয়ার হোসেন জানান, তিনজনকে আলাদা আলাদা বেতন দিচ্ছেন। খামারটিতে সুন্দর মতো পরিচর্যা করছি। রোগ বালাই যাতে না আসে সে ব্যাপারে মালিকসহ সবাই যত্নবান। এদিকে, নাসরিন জাহান করুনার মাছ এবং মুরগীর ডিম তার পরিবার আমিষ ও প্রোটিনের চাহিদা পূরনের পাশাপাশি স্থানীয় বাজার ,উপজেলা ও জেলায় রপ্তানি করে। যা দেশের আমিষের চাহিদা পূরণ করে থাকে । করুনার এক ছেলে ও এক মেয়ে নিয়ে সুখে স্বাচ্ছন্দ্যে জীবন যাপন করছে এমন কি ভালো বিদ্যাপীঠে পড়া শুনা করছে।
উপজেলা প্রানিসম্পদ কর্মকর্তা ইমরুল ইসলাম জানান, গলাচিপায় মুরগীর খামার গুলো আগের চেয়ে বৃদ্ধি পাচ্ছে। টেকনিক্যাল সাপোর্ট, পরামর্শ ও টিকা এ অধিদপ্তর থেকে দেয়া হয়ে থাকে।এতে দেশের প্রোটিনের চাহিদা পূরণ হয়। আবার আর্থিক ভাবে লাভবান হওয়া যায়।
বিডিএস গলাচিপা শাখার শাখা ম্যানেজার মো: মোস্তফা বিশ্বাস জানান, গলাচিপা উপজেলায় বিডিএস এর ৭০১ জন সদস্য রয়েছে।  সততা, নিষ্ঠা ও কঠোর পরিশ্রম ভাগ্যের চাকা ঘুরিয়ে করুনা দম্পতিকে আজকের এ অবস্থানে নিয়ে এসেছে। এ উপজেলায় অনেক সদস্য ক্ষুদ্র  লোন নিয়ে  সফলতার মুখ দেখছেন।


1