LatestsNews
# আবরার ফাহাদ হত্যা মামলা বিচারের জন্য প্রস্তুত# আবুধাবির ‘সাসটেইনেবিলিটি অ্যাওয়ার্ড’ বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী# আশুলিয়ার গোকুলনগরে জঙ্গি আস্তানা ঘিরে রেখেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী# আমেরিকা যাচ্ছেন শাকিব খান # হাতে ১৪টি সেলাই নিয়েই খেলতেমাঠে নেমেছেন মাশরাফি# ইরানের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের তীব্র উত্তেজনা# পোশাক খাতের বাইরে সম্ভাবনাময় অন্যখাতে সরকারি পৃষ্ঠপোষকতায় ঘাটতি আছে।# ঢাকার বিদায় বিপিএল থেকে# ঢাকা সিটি নির্বাচনে সরকার হস্তক্ষেপ করবে না : সেতুমন্ত্রী# মধ্যপ্রাচ্য বা পশ্চিম এশিয়ায় কোনও ধরনের সংঘাত হলে বিশ্বের জন্য একটা বিপর্যয়কর অবস্থা অপেক্ষাকরছে : পুতিন# চট্টগ্রাম-৮ আসনের উপ-নির্বাচনের ভোটগ্রহণ চলছে# ড. ইউনূসকে আদালতে হাজিরের নির্দেশ# সিটি করপোরোশন নির্বাচনে মন্ত্রী-এমপিদের প্রচার নিষিদ্ধ করতে পরিপত্র জারির দাবি জানিয়ে ইউও নোট লিখেছেন নির্বাচন কমিশনার# সিঁড়ি দিয়ে হেঁটে ওঠা-নামার উপকারিতা# ফরম পূরণে অতিরিক্ত টাকা নেয়ার অভিযোগ ভিকারুননিসায়# জীবন বাঁচাতে সাগরে ঝাঁপিয়ে পড়লেন অস্কারজয়ী অভিনেতা লিওনার্দো ডি–ক্যাপ্রিও# এখনই আর্নেস্তো ভালভার্দেকে বিদায় করছে না বার্সেলোনা কর্তৃপক্ষ# উত্তেজনার বিষবাষ্প ছড়িয়ে পড়ে মধ্যপ্রাচ্যজুড়ে# ২০২০ সালে প্রবৃদ্ধি হবে আড়াই শতাংশ : বিশ্বব্যাংক# ইশরাক হোসেনের বাসায় গিয়ে নৌকায় ভোট চাইলেন আওয়ামী লীগের সমর্থিত মেয়র প্রার্থী ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস
আজ শনিবার| ১৮ জানুয়ারী ২০২০
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

প্লাস্টিক ক্রোকারিজ, খেলনা, হাওয়াই চপ্পল ও পাদুকার উপর ভ্যাটের চাপ



 

বাংলাদেশ প্লাস্টিক দ্রব্য প্রস্তুতকারক ও রপ্তানিকারক এসোসিয়েশনের (বিপিজিএমইএ) সভাপতি মো. জসিম উদ্দিন জানিয়েছেন, প্রস্তাবিত বাজেটে ভ্যাট আরোপের ফলে বিভিন্ন পণ্যের দাম বেড়ে যাবে। চাপ বাড়বে ভোক্তা পর্যায়ে। এক কথায় বলতে গেলে, এই বাজেট ভোক্তার বিপরীতে গেছে।

সোমবার রাজধানীর পল্টনে বিপিজিএমইএর কার্যালয়ে ২০১৭-১৮ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, গ্রামগঞ্জ ও নিম্ন আয়ের মানুষ ক্রোকারিজ পণ্য, রাবারের হাওয়াই চপ্পল ও প্লাস্টিকের পাদুকা ব্যবহার করে থাকে। প্রস্তাবিত বাজেটে এসব পণ্যের ভ্যাট অব্যাহতি প্রত্যাহারের কথা বলা হয়েছে। এর বাস্তবায়ন হলে পণ্য মূল্য বৃদ্ধি পাবে; চাপে পড়বে ভোক্তারা।

তাই এসব পণ্য ও প্লাস্টিক রি-সাইক্লিং খাতে ভ্যাট অব্যাহতি সুবিধা বহাল এবং প্লাস্টিক শিল্পের উৎসে কর দুই বছরের জন্য শূন্য করার দাবি জানান তিনি।

লিখিত বক্তব্যে বিপিজিএমইএর সভাপতি বলেন, ২০১৭-১৮ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে প্লাস্টিক খাতের কিছু প্রস্তাব উপেক্ষিত হয়েছে। ফলে প্লাস্টিক খাতের অর্থনৈতিক বিনিয়োগ ও কর্মসংস্থান ঝুঁকির মধ্যে পড়বে। বিপুল সম্ভাবনাময় দেশীয় খেলনা শিল্পে ১৫ শতাংশ মূসক আরোপের ফলে প্রতিযোগিতায় পিছিয়ে পড়বে বাংলাদেশ।

তিনি বলেন, গ্রামগঞ্জের দরিদ্র মানুষ প্লাস্টিকের ক্রোকারিজ পণ্য ব্যবহার করে। এসব পণ্য উৎপাদন, সরবরাহকারী ও ভোক্তা শ্রেণি প্রত্যেকেই নিম্ন আয়ের অতি দরিদ্র ও স্বল্প শিক্ষিত জনগোষ্ঠী। ভ্যাটের হিসাব সংরক্ষণের জন্য ইসিআর মেশিন ব্যবহারের দক্ষতাও তাদের নেই। এই শিল্পে মূসক নেওয়া হলে ভোক্তারা ক্ষতিগ্রস্ত হবে। বিনিয়োগ বাধাগ্রস্ত হয়ে ক্ষুদ্র প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ হয়ে যাবে। বিদেশি নিম্নমানের পণ্য দেশে সয়লাব ও দেশীয় শিল্প ধ্বংস হবে।

রি-সাইক্লিং খাতে ভ্যাট অব্যাহতি সুবিধা বহাল রাখার প্রস্তাব করে বিপিজিএমইএ’র লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, প্লাস্টিক রি-সাইক্লিং এখনও ডেভেলপ করতে পারেনি বাংলাদেশ। এরপরও টোকাই, ভাঙ্গারির দোকানের মাধ্যমে রাস্তার আর্বজনা থেকে প্লাস্টিক বর্জ্য কুড়িয়ে ৭০ শতাংশ রি-সাইক্লিং করে এই শিল্পের পণ্য তৈরি হয়। রি-সাইক্লিং পণ্যের কারণে প্রচুর বৈদেশিক মুদ্রা সাশ্রয় ওপরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা হচ্ছে। প্রস্তাবিত বাজেটে রি-সাইক্লিং থেকে ভ্যাট অব্যাহতি সুবিধা প্রত্যাহার করা হয়েছে। অথচ অচেনা ও অপ্রয়োজনীয় অনেক পণ্যকে ভ্যাট অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

এছাড়া উচ্চ মধ্যবিত্ত ও উচ্চ আয়ের মানুষের ব্যবহৃত রেফ্রিজারেটর, ফ্রিজ, এয়ার কন্ডিশনার সরবরাহকারীকে ভ্যাট অব্যাহতির তালিকায় রাখা হয়েছে। কিন্তু নিম্ন আয়ের মানুষের ব্যবহার্য প্লাস্টিক রি-সাইক্লিংয়ে মূসক ধার্য হয়েছে বলে অভিযোগ করা হয়।

বিপিজিএমইএ সভাপতি বলেন, দেশীয় কাঁচামাল, মেশিন, নিজস্ব মেধা ও প্রযুক্তির মাধ্যমে তৈরি প্লাস্টিক ও রাবারের হাওয়াই চপ্পল ও প্লাস্টিক পাদুকায় ১২০ টাকার ওপর ভ্যাট অব্যাহতি সুবিধা বাজেটে প্রত্যাহার করা হয়েছে। হাওয়াই চপ্পল, পাদুকা (জুতা, স্যান্ডেল, সোল) শ্রমজীবী ও গরীব মানুষ ব্যবহার করেন। অনুপযোগী পরিত্যক্ত প্লাস্টিক ও রাবারের ছেড়া জুতা, স্যান্ডেলের ফিতা ও অন্যান্য প্লাস্টিক সামগ্রী রি-সাইক্লিং করে কাঁচামাল হিসেবে ব্যবহার করে এই পাদুকা তৈরি হয়। পরিত্যক্ত প্লাস্টিক ও রাবারের রি-সাইক্লিং না হলে ড্রেন, নর্দমা ভরাট হতো; কৃষিকাজ, বৃক্ষরোপন ব্যাহত হতো।

তিনি বলেন, আগে খেলনা জাতীয় পণ্য আমদানি নির্ভর ছিল। কিন্তু বর্তমানে দেশে উৎপাদিত খেলনা পণ্য দেশের চাহিদা মিটিয়ে স্বল্পহারে রপ্তানি হচ্ছে। প্রস্তাবিত বাজেটে খেলনা শিল্পে ১৫ শতাংশ মূসক আরোপ করা হয়েছে। এর ফলে চীন, তাইওয়ান ও ভিয়েতনামের নিম্নমানের পণ্য বাংলাদেশের খেলনার বাজার দখল করতে পারে।

এছাড়া ক্রোকারিজ পণ্যে নতুন ভ্যাট আইনে মূসক অব্যাহতি আরও ৫ বছর বহাল রাখা, প্লাস্টিক শিল্প সুরক্ষায় পোশাক খাতের মতো কর্পোরেট ট্যাক্স কমানো, ভ্যাটমুক্ত টার্নওভার সীমা ৫ কোটি টাকা নির্ধারণ, টার্নওভার কর ৩ শতাংশ করা, ব্যাংক আমানতে আবগারি শুল্ক প্রত্যাহারের সুপারিশ করেন মো. জসিম উদ্দিন।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, বিপিজিএমইএর সাবেক সভাপতি মো. ইউসুফ আশরাফ, এ.এস.এম. কামাল উদ্দিন, ফেরদেৌস ওয়াহিদ, শাহেদুল ইসলাম হেলাল, সিনিয়র সহ-সভাপতি গিয়াস উদ্দিন আহমেদ, মো. গোলাম কিবরিয়া প্রমুখ।


1