LatestsNews
# ‘পদ্মা সেতুর নির্মাণকাজে শিশুদের মাথা লাগবে’ এমন গুজবে দুই সপ্তাহ ধরে গুজবে ২১ গণপিটুনি : ৫ জনকে হত্যা# বাংলাদেশের উন্নয়নের স্বার্থে ইউরোপে কূটনৈতিক তৎপরতা বাড়ানোর নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর# আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ না দিয়ে প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে কোনো আইনি ব্যবস্থা নেবে না সরকার : কাদের# প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে করা ব্যারিস্টার সুমনের মামলা খারিজ# মিন্নির মা-বাবাকে আইনের আওতায় এনে বিচারের দাবি জানিয়ে সংবাদ সম্মেলন# উল্লাপাড়ায় বন্যা কবলিত ৪০ প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের উপস্থিতির হার কম# দেশে পর্যাপ্ত ত্রাণ সামগ্রীর মজুদ রয়েছে যোগাযোগ ব্যবস্থা বিঘ্ন হওয়ায় পৌঁছাতে সময় লাগছে।# অস্ত্রধারীদের হামলায় ঢাবিতে ছাত্রলীগ নেতা গুলিবিদ্ধ হয়েছেন।# রওশন এরশাদের বাসায় গিয়ে তার দোয়া নিলে এলেন জি এম কাদের।# এবারের সিরিজ অনেক বেশি চ্যালেঞ্জিং: তামিম# বড় দুর্নীতিবাজদের ধরতে না পারার ব্যর্থতা স্বীকার করে নিয়েছেন দুর্নীতি দমন কমিশনের চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ।# ‘উপন্যাসের কাহিনী চুরি করেছে’ ক্ষোভ থেকে জাপানে স্টুডিওতে আগুন# সন্তানকে ভর্তির জন্য স্কুলে খোঁজ নিতে গিয়ে ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনিতে প্রাণ হারিয়েছেন এক মা।# নারায়ণগঞ্জে গণপিটুনিতে নিহত যুবকের পরিচয় শনাক্ত# ঈদকে সামনে রেখে জমে উঠেছে পশুহাট, রয়েছে মেডিসিন প্রয়োগে মোটা তাঁজা করনের ব্যাপক অভিযোগ # নোয়াখালীতে ছাত্রীদের যৌন হয়রানি, প্রধান শিক্ষক আটক# সামান্য তর্কের জেরে প্রাণ হারালো এক কারখানা শ্রমিক। # উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবেই প্রিয়া সাহা অসত্য বক্তব্য দিয়েছেন দেশে ফিরলেই তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।# দেশদ্রোহী বক্তব্যের জন্য প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতেই হবে : কাদের# বেনাপোল সীমান্তে ভারতীয় রুপিসহ আটক ১
আজ মঙ্গলবার| ২৩ জুলাই ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

শৈলকুপা প্রেসক্লাবের অনুদানের ৫ লাখ টাকা গায়েব



স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহ Channel 4TV :
ঝিনাইদহের ঐতিহ্যবাহী শৈলকুপা প্রেসক্লাবের তহবিল তসরুপের অভিযোগ উঠেছে। গত এক বছরে ক্লাবের অনুদানের প্রায় ৫ লাখ টাকা গায়েব করে দেয়া হয়েছে। এছাড়া বিজয় মেলা থেকে অর্জিত আরো ৪ লাখ টাকার কোন হিসাব নেই। দীর্ঘ কয়েক বছর পরিশ্রম করে স্থানীয় সাংবাদিকরা ক্লাবের নিজস্ব ভবন তৈরির কাজ শুরু করেছেন। এক তলা ভবনের কাজ প্রায় সম্পন্ন হয়েছে গত ২ বছরে।

তবে অভিযোগ উঠেছে কবিরপুরে ক্লাবের নিজস্ব ভবনের নামে বর্তমানে প্রায় ৫ লাখ টাকা অনুদান নেয়া হয়েছে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান, দানশীল ব্যক্তি ও শিল্পপতিদের কাছ থেকে। এসব টাকা ক্লাবের ব্যাংক একাউন্টে যথাযথ ভাবে রাখা হয়নি। ক্লাবের একাউন্টে মাত্র ১ হাজার টাকা রাখা হয়েছে। বাকী সবটাকা পকেটস্থ করা হয়েছে। বর্তমান কমিটির কয়েকজন এসব টাকা ভাগবাটোয়ারা করে পকেটে তুলেছে।

সাংবাদিকদের অভিযোগ, প্রিয়াঙ্কা গ্রুপের চেয়ারম্যান শিল্পপতি সাইদুর রহমান সজল ১ লাখ টাকা ক্লাবের ভবন উন্নয়নে দিয়েছেন। বিশ্বাস বিল্ডার্সের চেয়ারম্যান দুলাল বিশ্বাস কয়েক দফা অর্থ বরাদ্দ দিয়েছেন, যার পরিমাণ লক্ষাধিক টাকা। ওয়াসা’র সাবেক চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফা ১০ হাজার টাকা দিয়েছেন। এভাবে বিভিন্ন মানুষ, প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে ক্লাবের নামে অর্থ নেয়া হয়েছে। ঝিনাইদহ-১ (শৈলকুপা) আব্দুল হাই জেলা পরিষদের মাধ্যমে সরকারী বরাদ্দ দিয়েছেন।

শৈলকুপা পৌর মেয়র কাজী আশরাফুল আজম ক্লাবের ভবন নির্মাণে বরাদ্দ দিয়েছেন। শৈলকুপা উপজেলা চেয়ারম্যান শিকদার মোশাররফ হোসেন সোনার ছেলে শিকদার ওয়াহেদুজ্জামান ইকু ভবন নির্মাণে ব্যক্তি উদ্যোগে ৩০ ব্যাগ সিমেন্ট দিয়েছেন। শৈলকুপা পিআইও অফিস প্রায় ৫০ হাজার টাকার বরাদ্দ দিয়েছে। শৈলকুপা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পক্ষে ড. বাবর আলী প্রায় ৫ হাজার টাকা দিয়েছেন। অনুদান দিয়েছে শৈলকুপা কৃষি অফিসও। এভাবে লাখ লাখ টাকার অনুদান এসেছে ক্লাবটিতে।

শৈলকুপা প্রেসক্লাবের অর্থ সম্পাদক মাসুদুর রহমান জানান, ক্লাবের সভাপতি এম হাসান মুসা, সাধারণ সম্পাদক শামীম আহমেদ সহ নির্বাহী কমিটির কয়েক সদস্য এসব টাকার কোন হিসাব রাখেননি। এসব অনুদান অর্থের সবটাই প্রায় লোপাট হয়েছে। তিনি জানান, শৈলকুপা প্রেসক্লাবের ভবন নির্মাণে বিজয় মেলার আয়োজন করা হয়, সেখান থেকে ৪ লক্ষাধিক টাকা আয় হলেও এক টাকারও হিসাব ক্লাবে দেয়া হয়নি। সে টাকা ব্যাংক এ্যাকাউন্টেও রাখা হয়নি। এমনভাবে আয়-ব্যয়ের কোন কাগজ সংরক্ষণ করা হয়নি। তিনি বলেন, এসব কারণে সাংবাদিকদের মধ্যে ক্ষোভ বিরাজ করছে।

অভিযোগ উঠেছে, গত এক বছরে প্রেস ক্লাবের অনেক সদস্যকে ইচ্ছামতো বাদ দেয়া হয়েছে। আবার যারা সাংবাদিকতায় জড়িত নয় এমন অনেককে সদস্য করা হয়েছে, পদ-পদবী টিকিয়ে রাখার জন্য। ক্লাবটিকে রাজনীতিকরণ করা হয়েছে, এতে প্রকৃত সংবাদকর্মীদের মধ্যে অসন্তোষ বিরাজ করছে। কমিটির মেয়াদ শেষের পথে হওয়ায় দাবি উঠেছে ক্লাবের আয়-ব্যয়ের হিসাব দিয়ে তারপর নতুন করে ভবনের বাকী কাজ শুরু করার। আয়-ব্যয় সঠিক না থাকলে তা লুট-পাটের খাতে চলে যাবে বলে আশঙ্কা করছেন শৈলকুপার সাংবাদিকরা।

তবে প্রেসক্লাবের সভাপতি এম হাসান মুসা বলেছেন, প্রেসক্লাবের উন্নয়নে নিয়মের মধ্যেই হিসেব রেখে অর্থ ব্যয় করা হচ্ছে। এখানে কোন অনিয়ম হয়নি। সামনে প্রেসক্লাব নির্বাচনকে সামনে রেখে একটি মহল অপপ্রচারে নেমেছে।


1