LatestsNews
# কুড়িগ্রামে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় ৬জন গ্রেপ্তার# গাজীরহাট ইউনিয়ন পরিষদের গ্রাম আদালত সাধারণ মানুষের কাছে জনপ্রিয় # শিরোমণি স্পোর্টিং ক্লাব আয়োজিত ৮দলীয় মিনি ফুটবল টুর্ণামেন্টের উদ্বোধন# শৈলকুপায় অর্ধশত বছরেও আলোর মুখ দেখেনি স্বতন্ত্র এবতেদায়ী মাদরাসা!# কালীগঞ্জে পিতা হত্যার দায়ে পুত্রের যাবজ্জীবন কারাদন্ড# ‘আমলাতান্ত্রিক জটিলতায় শিল্প মন্ত্রণালয়ের কাজে মন্থর গতি’# রাজধানীর সদরঘাটে লঞ্চের ধাক্কায় ডিঙি নৌকা ডুবে নিখোঁজ দুই শিশুর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।# ঢাকা-উত্তরবঙ্গ রেলরুটে আন্তঃনগর রংপুর এক্সপ্রেস ট্রেনের বগি লাইনচ্যুত হয়ে সকল প্রকার ট্রেন চলাচল বন্ধ # পলিথিন থেকে জ্বালানি তেল উৎপাদন উদ্ভাবক জামালপুরের তৌহিদুল ইসলাম।# সিলিন্ডার পুনঃপরীক্ষার সনদ ছাড়া গ্যাস মিলবে না গাড়িতে# প্রতিযোগিতায় এগিয়ে রাখতে দেশীয় মোবাইল উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানগুলো প্রস্তাবিত বাজেটে বেশকিছু শুল্ক সুবিধা পাচ্ছে।# প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নতুন ভবন নির্মান বন্ধ রয়েছে গ্রামবাসীদের আবেদন জায়গা পুনঃনির্ধারন# মেহেরপুরের গাংনীতে দু’পক্ষের গোলাগুলিতে মাদক ব্যবসায়ী নিহত# ‘নারী ও কন্যা শিশুর প্রতি সংহতি’ বিষয়ে আলোচনা সভা# পায়রা কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রে দেশীয় শ্রমিকদের ক্ষোভের নেপথ্যে চীনাদের 'অকথ্য নির্যাতন'# চাঁপাইনবাবগঞ্জে মনিরুল হত্যা মামলায় ৯ জনের মৃত্যুদণ্ড# ডিআইজি মিজানের সম্পত্তি বাজেয়াপ্তের নির্দেশ# খুলনা শিরোমণি বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতালের ডাক্তার-ষ্টাফদের দুই দফা দাবীতে লাগাতর কর্মসুচি শুরু# অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টস হারল বাংলাদেশ# দিনাজপুরের হিলিতে দেশের প্রথম লৌহ খনির সন্ধান পাওয়া গেছে।
আজ মঙ্গলবার| ২৫ জুন ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

মুন্সীগঞ্জে সরকারি খাল ভরাট করে বাড়িঘর নির্মাণ



মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি Channel 4TV : মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলার চন্দধূল রোডের পেছন দিয়ে প্রবাহিত সরকারি খাল দখল করে বাড়ি তৈরি করেছে স্থানীয় প্রভাবশালীরা। শুক্রবার বেলা ১১টায় ওই এলাকার দেলোয়ার মৃধার বাড়ির পাশে রাস্তায় গিয়ে দেখা যায়,সরকারি খাল ভরাট করে বাঁশবেড়ার দেয়াল করা হয়েছে। কাঠ, বাঁশ বালু ভরাটকারী ব্যক্তি তারলোকজন নিয়ে সরকারি খালের জায়গা ভরাট করছে। প্রভাবশালীদের ভয়েবাধা দেয়ার কেউ নেই।জানা যায়, বিগত কয়েক বছরে খালের ওপর মাটি ভরাট করে নির্মাণ করা হয়েছে ঘরবাড়ি। ঘরবাড়ি তৈরির উদ্দেশ্যে খালের একটি স্থানেসম্পূর্ণ মাটি ভরাট করে পানিপ্রবাহের রাস্তা বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। এতে গত কয়েক দিনের বৃষ্টিতে জমে থাকা পানিতে স্থানীয় কৃষকদের শতাধিক হেক্টর জমির বোরো ধানসহ মৎস্যচাষীদের পুকুরগুলো তলিয়ে যাওয়ার অবস্থায় রয়েছে। এ ঘটনায় স্থানীয় কৃষকদের মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। ভুক্তভোগী কৃষকরা Channel 4TV কে বলেন, এ এলাকার পশ্চিম চন্দনধূল, মধ্য চন্দনধূল, কুসুমপুর, আবিরপাড়াসহ অন্যান্য গ্রামের পানি প্রবাহিত হয় এ খালের মধ্য দিয়ে।প্রাচীনকাল থেকে স্থানীয় মানুষের কাছে খালটি হোতার চকের খাল হিসেবে পরিচিত। প্রায় ৫০-৭০ হাত প্রশস্থ এ খাল দিয়ে এক সময় নৌকার মাধ্যমে পণ্য আমদানি-রফতানি হতো। কিন্তু গত মুন্সীগঞ্জ জেলা সাবেক যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন মৃধার বাড়ির এলাকা থেকে হোতার চক চন্দনধূল ব্রিজ পর্যন্ত খালের ওপর বাড়িঘর তৈরি করায় ও ময়লা-আর্বজনা ফেলায় এটি একটি ছোট্ট ড্রেনে পরিণত হয়েছে। এতে গত ১০-১৫ বছর ধরে উল্লেখিত এলাকায় প্রতি বছর বর্ষাকালে স্থায়ী জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়। পাশাপাশি বোরো ফসল বিনষ্টসহ মানুষের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। চন্দনধূল গ্রামের রমজান মৃধা, দেলোয়ার হোসেন মৃধা, জাফরুল হাসান স্বপনসহ অনেকেই বলেন, ইতিমধ্যে এ খালটির পানিপ্রবাহের রাস্তা সম্পূর্ণভাবে মাটি ভরাট করে বন্ধ করায় স্থানীয় মানুষের মাঝে বন্যা আতঙ্ক বিরাজ করছে। বর্তমানে যেভাবে বৃষ্টি হচ্ছে এতে বিভিন্ন ফসল ডুবো ডুবো অবস্থায় রয়েছে। খালের পানি না সরাতে পারলে পানিতে তলিয়ে গিয়ে অনেক ফসল বিনষ্ট হয়ে যাবে। কৃষকরা সমস্যা সমাধানে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন।খাল দখলকারী মৃত মাহবুব বেপারীর ছেলে মামুন বেপারী জানান, এখানে কোনো খাল নাই, এগুলো সব ব্যক্তি মালিকানাধীন জমি। আমি খালের জায়গা দখল করে বাড়িঘরও তৈরি করি নাই। খাল খালের জায়গায়ই রয়েছে। ইছাপুরা ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা অনন্ত প্রসাদ মিত্র জানান, চন্দনধূল গ্রামের পেছনে কোনো খাল আছে কিনা দেখে বলতে হবে। যদি থাকে তাহলে অবশ্যই খালটি সরকারি। আমরা আগামী সপ্তাহে সরকারি সার্ভেয়ারসহ খালটির খোঁজখবর নিতেযাব। স্থানীয় কৃষকরা ক্ষোভ প্রকাশ করে জানান, সরকারি খাল ভরাটকারী মামুন বেপারী, নুরু ইসলাম শেখ, নাজমূল বেপারী, নয়ন প্রভাবশালী হওয়ার কারণে আমরা কিছু বলতে পারিনি। ইউপি নির্বাচনের সময় বর্তমান চেয়ারম্যানের পক্ষে খাল ভরাটকারীরা কাজ করায় চেয়ারম্যান জোরালো প্রতিবাদ না করায় ওই সুযোগে খাল ভরাটকারী মামুন বেপারী, নুরু ইসলাম শেখ, নাজমূল বেপারী, নয়ন বাঁশ দিয়ে বেড়া দিয়ে খাল ও বাড়ি ভরাট করেন। আমাদের জমিগুলো জলাবদ্ধ হওয়ার কারণে এখন আমরা বেকার হয়ে পড়েছি!


1