LatestsNews
# গুলশান-১ এর ডিএনসিসি মার্কেটে মেয়াদোত্তীর্ণ শিশু খাদ্য # এডিসের লার্ভা ধ্বংসে বাড়ি বাড়ি অভিযানে নগরবাসীর অসহযোগিতার অভিযোগ# চামড়া নিয়ে টানাপোড়েন থামছেই না - নিয়মিত ক্রেতাদের তৎপরতা দেখা যায়নি। # কাশ্মীর ইস্যুতে মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে বিবৃতি প্রকাশ# দাবি-দাওয়া মানলেই মিয়ানমারে ফিরবে রোহিঙ্গারা# ম্যাজিস্ট্রেট ও পুলিশ কর্মকর্তাদের সঙ্গে বিচারকের কক্ষে বিরিয়ানি খান রাজসাক্ষী জজ মিয়া# গাইবান্ধার ঝিনুকের তৈরী চুন উৎপাদনকারি যুগি পরিবারগুলো এখন বিপাকে# শিক্ষা নীতিমালা অনুমোদন করায় মোবারক হোসেন প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়ের অভিনন্দন# এডিস মশার দীর্ঘমেয়াদি সমাধানের জন্য বাংলাদেশ সফরে আসছেন উচ্চ পর্যায়ের বিদেশি বিশেষজ্ঞ প্রতিনিধিদল। # শেখ হাসিনাকে ভারত সফরের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। # মেঘনা নদীর ভাঙন গাফিলতি করা সেই প্রকৌশলীকে কী শাস্তি দেওয়া হয়েছে? : প্রধানমন্ত্রী# সংসদ সদস্য না হয়েও বিলাসবহুল গাড়িতে শুল্কমুক্ত সুবিধা পেলেন মুহিত# দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) দুর্নীতির বস্তাভর্তি টাকাসহ হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা গ্রেপ্তার# নায়াখালীতে সিএনজিচালিত ও ব্যাটারিচালিত অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে নারী-শিশুসহ আহত ১২# পচা মাছ মজুদ ও বিক্রির দায়ে স্বপ্ন এক্সপ্রেস সুপার শপকে জরিমানা# ভারতীয় দলের ওপর হামলার শঙ্কা, পিসিবিকে মেইল# ২০২৩ সালের মধ্যে দেশের ৬৬ হাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দুপুরের খাবার পাবে প্রাথমিকের শিক্ষার্থীরা# মিন্নির জামিন শুনানি, যা বললেন হাইকোর্ট# ভারতের বহুল আলোচিত ইসলামিক বক্তা ডা. জাকির নায়েক এবার মালয়েশিয়ায় নিষেধাজ্ঞার মুখে# নেত্রীকে মুক্ত করতে ব্যর্থ বিএনপি এখন বিদেশিদের কাছে ধরনা দিচ্ছে মন্তব্য : ওবায়দুল কাদের।
আজ রবিবার| ২৫ আগস্ট ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

‘নাশকতা চালানোর সক্ষমতা হারিয়েছে নব্য জেএমবি’



পুলিশের অব্যাহত অভিযানে নিহত হওয়া কিংবা গ্রেফতার, নতুন কর্মী সংগ্রহে ভাটাপড়া, দলীয় কোন্দলসহ নানা কারণে বড় ধরণের নাশকতা চালানোর সক্ষমতা নব্য জেএমবির এখন আর নেই। এমন দাবি করে পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের প্রধান বলছেন, এরপরও নজরদারি অব্যাহত রেখেছেন তারা। কিন্তু বৃহত্তর পরিসরে জঙ্গিবাদ নিয়ে ভাবেন এমন ব্যক্তিদের মতে, সাময়িক অভিযানে সীমাবদ্ধ না থেকে জঙ্গিবাদের মূল উৎপাটনে আদর্শের পরিবর্তন করাতে হবে।

গুলশান হলি আর্টিজান হামলার পর দেশ জুড়ে যখন জঙ্গি আতঙ্ক চরমে ঠিক তখন গেল বছর ২৬ জুলাই কল্যাণপুরে পরিচালিত অভিযানে মারা যায় নয় জঙ্গি। গ্রেফতার হয় একজন। এর এক মাসের মাথায় নারায়ণগঞ্জে আরেকটি অভিযানে নব্য জেএমবির শীর্ষ নেতা তামিম চৌধুরীসহ তিনজনের মৃত্যু হয়। এরপর বিভিন্ন সময় তানভির কাদেরি, অবসরপ্রাপ্ত মেজর জাহিদ, সারোয়ার জাহান মানিক, মারজান, সাদ্দাম, বাশারুজ্জামান চকলেটসহ নব্য জেএমবির বেশকজন নিহত হয় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অভিযানে। গ্রেফতার হয় রাজিব গান্ধী, সোহেল মাহফুজ, আসলাম হোসেন রাশেদ ওরফে র‌্যাশসহ আরো কয়েকজন। এই প্রেক্ষাপটে নব্য জেএমবি সক্ষমতা হারিয়েছে দাবি করছে পুলিশ।

কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট অতিরিক্ত কমিশনার মনিরুল ইসলাম বলেন, ‘নব্য জেএমবির যে সাংগঠনিক কাঠামো সেটি ভেঙ্গে গেছে। পাশাপাশি তাদের যে অপারেশন ক্যাপাসিটি এখন সেটি সর্বনিম্ন পর্যায়ে আছে। হামলা করার জন্য তাদের যেসব অস্ত্র দরকার তাদের কাছে নেই।’

রিসার্চ ফেলো বাংলাদেশে ইন্সটিটিউট অব ইন্টারন্যাশনাল স্ট্রাটিজিক স্টাডিজ এম আশিক রহমান বলেন, ‘জঙ্গিবাদ আসলে একটি আদর্শগত ব্যাপার এতে আদর্শিক বিষয় আছে। আর জঙ্গিবাদ দমনের ক্ষেত্রে এই আদর্শটাকে নিয়ন্ত্রণের বিষয়টাও ক্ন্তিু গুরুত্ব সহকারে দেখা উচিত।’

এছাড়া নেতৃত্বের কোন্দলে নব্য জেএমবি আরো ক্ষয়িষ্ণু হয়েছে বলে দাবি পুলিশের। তবে নিরাপত্তা বিশ্লেষকদের মতে, নিজেদের দ্বন্দ্বের কারণে জঙ্গিরা ক্ষয়িষ্ণু হবে নাকি চোরাগোপ্তা হামলা বাড়তে পারে সে ব্যাপারে এখনই মন্তব্য করা যাবেনা।

তবে তাদের মতে, আইন প্রয়োগের পাশাপাশি জঙ্গিবাদের আদর্শ থেকে উদ্বুদ্ধ হওয়া বন্ধে প্রয়োজন আরো জোরালো পদক্ষেপ।


1