LatestsNews
# শার্শার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পৌছে গেছে নতুন বই# খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য নিয়ে চিকিৎসকদের অবাধ ও নিরপেক্ষ প্রতিবেদন দাখিল নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছেন বিএনপি# মুজিববর্ষের (২০২০) অনুষ্ঠানে যোগ দিতে ঢাকা আসবেন মোদি, প্রণব ও সোনিয়া# মহেশপুরের ঐতিহ্যবাহী ইছামতি নদী দখল করে মাছ চাষ # আজ যশোর মুক্ত দিবস# ইনজেকশন দেওয়ার পর প্রসূতির মৃত্যু, স্বজনদের অভিযোগ ভুল চিকিৎসা# প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা বলছে চলতি মাসেই বসছে মেট্রোরেলের লাইন# সব জল্পনার অবসান সৃজিত-মিথিলার বিয়ে সন্ধ্যায়# ভুটানকে ১০ উইকেটে হারাল বাংলাদেশ# সিদ্ধেশ্বরীতে হত্যার শিকার তরুণীর পরিচয় জানা গেছে মিলেছে ধর্ষণের পর হত্যার আলামত# গণধর্ষণের পর পশু চিকিৎসককে নির্মমভাবে পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় অভিযুক্ত চারজনই পুলিশের গুলিতে নিহত । # নোয়াখালী হাতিয়ায় অস্ত্র ও গুলিসহ গ্রেপ্তার-১# অভাবের সঙ্গে যুদ্ধ করে অবহেলিত ফাতেমা এখন স্বাবলম্বী# ঝিনাইদহে অসহায় নারীদের মাঝে সেলাই মেশিন বিতরণ # কালীগঞ্জে আন্তঃজেলা ডাকাত দলের ৮ সদস্য আটক# প্রশিক্ষণ আমাদের জ্ঞান ও কাজের দক্ষতা বাড়ায় - উপসচিব মোহাম্মদ শওকত ওসমান# নোয়াখালীতে এলজি ও দেশীয় অস্ত্রসহ ডাকাত গ্রেফতার# নোয়াখালীতে প্রথমবারের মতো খোলাবাজারে পেঁয়াজ বিক্রি করছে টিসিবি# শ্বাসরুদ্ধকর ও সংকটময় সেই ১২ ঘণ্টা# হলি আর্টিজান মামলার ৮ আসামি আদালতে
আজ শুক্রবার| ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

শোকাবহ ১৫ আগস্ট



৪২ বছর আগে ১৯৭৫ সালের এ দিনে বঙ্গবন্ধু ভবনে ঘটেছিল সভ্যতার জঘন্যতম নির্মমতা। সেনাবাহিনীর একটি পথভ্রষ্ট ঘাতকচক্র মুক্তিযুদ্ধে পরাজিত রাজনৈতিক প্রতিক্রিয়াশীলদের চক্রান্তে নৃশংসভাবে হত্যা করে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ তার পরিবারের প্রায় সব সদস্যকে।

স্বাধীনতা অর্জনের মাত্র সাড়ে তিন বছরের মাথায়, এমন ঘটনা স্তব্ধ করে দিয়েছিলো বিশ্ববাসীকে। হোঁচট খেয়েছিল সদ্য স্বাধীন দেশের অগ্রযাত্রা। শুরু হয়েছিল নীলনকশা আর হত্যা-ক্যু'র রাজনীতি। মাথাচাড়া দিয়ে ওঠে সাম্প্রদায়িকতা। শুরু হয় রাষ্ট্রকে পেছনের দিকে টেনে নিয়ে যাওয়ার প্রক্রিয়া।

বাঙালি মুক্তির প্রতিটি আন্দোলন-সংগ্রামের প্রাণপুরুষ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। ১৯২০ সালের ১৭ মার্চ থেকে '৭৫ এর ১৫ আগষ্ট-৫৫ বছরের টান টান এক কিংবদন্তি। জীবনের পড়তে পড়তে শুধু লড়াই আর সংগ্রাম। এদেশের মানুষের অধিকার আদায়ে তার কণ্ঠ এতুটুকুনও কাঁপেনি কোনোদিন।

যে মানুষটি জীবনের বেশিরভাগ সময় জেলে কাটিয়ে, মৃত্যুর হুলিয়া মাথায় নিয়ে দেশকে শত্রুমুক্ত করার লড়াইয়ে নেতৃত্ব দিয়েছেন, যার নামে পরিচালিত হয়েছে মুক্তিযুদ্ধ, বিজয়ের মাত্র সাড়ে তিন বছরের মাথায় তাকেই হতে হয় নির্মম হত্যাকাণ্ডের শিকার।

কতিপয় রাজনৈতিক কুচক্রীর যোগসাজসে, সেনাবাহিনীতে ঘাপটি মেরে থাকা একটি ষড়যন্ত্রী গোষ্ঠী শুধু জাতির পিতাকেই হত্যা করে থেমে থাকেনি। নির্বংশ করে দিতে চেয়েছে বঙ্গবন্ধু পরিবারকে। শুধু সেদিন দেশে না থাকায় প্রাণে বেঁচে যান তাঁর দুই কন্যা শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা।

১৫ আগস্ট, ভিত কেঁপে গিয়েছিল বাংলাদেশের। রাতারাতি পাল্টে যায় রাষ্ট্রযন্ত্র। মুখ থুবড়ে পড়ে গণতন্ত্র। প্রগতির পথে চেপে বসে সাম্প্রদায়িকতা। এ হত্যাকাণ্ডের তাৎক্ষনিকভাবে সারাদেশে কোন প্রতিক্রিয়া না হওয়াটা, আজও আত্মজিজ্ঞাসার জায়গা, বলছেন বিশ্লেষকরা।

বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের বিচারকাজে অনেক ষড়যন্ত্রীর মুখোশ উন্মোচিত হলেও আজও রাষ্ট্রীয়ভাবে এ ব্যাপারে কোন তথ্যানুসন্ধান হয়নি। তেমনভাবে উঠে আসেনি এর পেছনে বিদেশী রাষ্ট্রগুলোর ভূমিকার কথা।

দেশ গড়ার নতুন সংগ্রাম শুরু হতে না হতেই, ষড়যন্ত্রকারীরা মোড় ঘুরিয়ে দেয় মুক্ত স্বদেশের। উঁকি মারে পরাজিত প্রেতাত্মা। কুচক্রীদের সঙ্গীনে নি:শেষ হন জাতির জনক। তবুও অনিঃশেষ বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ...


1