LatestsNews
# ময়মনসিংহের মুক্তাগাছায় আমবোঝাই ট্রাক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সাথে ধাক্কা নিহত ২# ভারতের গুজরাটে ১৮ বছরের নিচে মোবাইল নিষিদ্ধ# একই পাঞ্জাবির দামে হেরফেরের দায়ে আড়ংয়ে আবারও পাঞ্জাবি কাণ্ড, ফের জরিমানা# যুক্তরাষ্ট্র থেকে এক বাংলাদেশি অভিবাসন ইস্যুতে বহিষ্কার।# রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে বাংলাদেশকে গঠনমূলক সহায়তার আশ্বাস দিয়েছে চীন।# রোহিঙ্গা সংকটের জন্য মিয়ানমার সরকারই দায়ী বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত রবার্ট মিলার।# নরসিংদীতে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে ১৩ দিন লড়াই করে হার মানলেন দগ্ধ ফুলন# নোয়াখালীতে ২ জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড # ঝিনাইদহে প্রভাবশালীরা ঘের ও পুকুর কেটে চলেছেন, অবৈধ পুকুর খননে কৃষকরা হচ্ছে ক্ষতিগ্রস্ত# লোহাগড়ায় ৫’শ পিস ইয়াবাসহ মাদক কারবারী আটক# বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতালের প্রশাসনিক কর্মকর্তা মাহমুদুলকে যোগদানে দিনভর উত্তেজনা # শিরোমনি উত্তরপাড়ায় খেলতে গিয়ে পুকুরে ডুবে দুই শিশুর মর্মান্তিক মৃত্যুঃ এলাকায় শোকের ছায়া# নোয়াখালীর চৌমুহনীতে আধিপত্য বিস্তারের জেরে প্রতিপক্ষ সন্ত্রাসীদের গুলিতে যুবকের মৃত্যু# কুড়িগ্রামে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় ৬জন গ্রেপ্তার# গাজীরহাট ইউনিয়ন পরিষদের গ্রাম আদালত সাধারণ মানুষের কাছে জনপ্রিয় # শিরোমণি স্পোর্টিং ক্লাব আয়োজিত ৮দলীয় মিনি ফুটবল টুর্ণামেন্টের উদ্বোধন# শৈলকুপায় অর্ধশত বছরেও আলোর মুখ দেখেনি স্বতন্ত্র এবতেদায়ী মাদরাসা!# কালীগঞ্জে পিতা হত্যার দায়ে পুত্রের যাবজ্জীবন কারাদন্ড# ‘আমলাতান্ত্রিক জটিলতায় শিল্প মন্ত্রণালয়ের কাজে মন্থর গতি’# রাজধানীর সদরঘাটে লঞ্চের ধাক্কায় ডিঙি নৌকা ডুবে নিখোঁজ দুই শিশুর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।
আজ বুধবার| ২৬ জুন ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

দেশীয় পদ্ধতিতে গরু মোটা তাজা করণে ব্যাস্ত মুন্সীগঞ্জের খামারীরা



রুবেল মাদববর মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি :
আসন্ন কুরবানির ঈদকে সামনে রেখে ব্যাস্ত হয়ে পড়েছে মুন্সীগঞ্জের গরুর খামারীরা। দেশীয় পদ্ধতিতে গরু মোটা তাজা করণে ব্যাস্ত সময় পার করছে জেলার অসংখ্য খামারী। দেশীয় পদ্ধতিতে এ অঞ্চলের গবাদী পশুর মোটা তাজা করণ করায় কোরবানির হাটে চাহিদাও থাকে অনেক বেশী। তাই বরাবরের মতো এবারও এ খানকার খামারীরা বলছে এবার ভারত থেকে গরু আসা বন্ধ থাকলে লাভবান হবেন বলে আশা রাখেন। 
মুন্সীরহাট, পঞ্চসার ও মিরকাদিম পৌরসভা এলাকার বেশ কয়েকটি গরুর খামারে গিয়ে দেখা যায়, পরম যতেœ গরুগুলো দেখ ভাল করছেন খামরীরা। তারা গরুর সুঠাম দেহ আর সৌন্দর্য্য বৃদ্ধিতে ব্যাস্ত সময় পার করছেন। তার কারণ হিসাবে খামারীরা বলেন, গরু দেখতে যতো আকর্ষনীয় হবে, তার দাম হবে তত বেশী। তাই গরুর খাদ্য তালিকা বেশ সমৃদ্ধ। তবে কিছু অসাধু ব্যবসায়ীরা কৃত্রিম উপায়ে গরু মোটা তাজা করছে।
মিরকাদিম পৌর এলাকার বাসিন্ধারা বলছেন, এ অঞ্চলের বেশির ভাগ খামরীরা দেশীয় পদ্ধতিতে গবাদী পশু মোটা তাজা করছেন। ইনজেকশন  ও মোটা তাজা করণে ট্যাবলেট পরিহার করে ঘাস খড়ের পাশাপাশি কৈল গুড়া, ভূষি খাদ্য হিসাবে খায়োনো হচ্ছে। আর বেশির ভাগ খামারে রয়েছে দেশীয় গরু। বাজারে দেশীয় গরুর ব্যাপক চাহিদা থাকায়  ছোট বড় খামারের পাশাপাশি প্রতিটি কৃষক পরিবারে ঈদকে সামনে রেখে গরু মোটা তাজা করেছে। কৃষক পরিবারের যারা গরু লালন পালন করেন তারাও দেশী পদ্ধতিতে মোটা তাজা করে ব্যাস্ত সময় পার করছেন। 
মুন্সীগঞ্জে সদর উপজেলার খামারী জাকির হোসেন বলেন, বর্তমানে আমার খামারে ৫০টি গরু রয়েছে। এর মধ্যে ৪০টি গরু আসনন্ন কোরবানির হাটে বিক্রির উদ্দেশ্যে যতœ নেওয়া হচ্ছে। ঈদের আর মাত্র কয়েকদিন বাকি। তাই এখন থেকে গরুর বেশি যতœ নিচ্ছি। যাতে ভালো দামে বিক্র করতে পারি।
স্থানীয় খামারীরা প্রিয়.কম-কে বলেন, গো খাদ্যের দাম বেড়ে যাওয়ায় এবার কুরবানির হাটে দেশী গরুর দাম তুলনা মূলক বৃদ্ধি পাবে। কিছু অসাধু ব্যবসায়ী গরু মোটা তাজা করণে ডেকাসন, পিকটিম জাতীয় এ ধরনের ঔষধ ব্যবহার করছেন বেশি লাভের আশায়। 
খামারী জালাল হোসেন জানান, গরুর পেছনে দৈনিক তিন’শ টাকা খরচ লাগছে। আগে যেভাবে ঈদকে সামনে রেখে গরুর খামারগুলোতে গবাদী পশু লালন পালনে প্রতিযোগতিা শুরু হতো তা এখন আর নেই। অনেকেই গরু লালন পালনে খরচ বেড়ে যাওয়ায় এই পেশা ছেড়ে সরে দাঁড়াচ্ছেন। তাছাড়া আগের মতো গরু লালন পালন করার জন্য রাখালও পাওয়া যাচ্ছেনা।
জেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডা. মো. ফজলুল হক শেখ জানান, খামারী ও কৃষকরা যাতে বিষাক্ত কোন রাসানিক ব্যবহার না করে সে জন্য নানা রকম পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে । পাশাপাশি তাদের গরুর সঠিক চিকিৎসা দেওয়া জন্য আমরা খোঁজ নিচ্ছি


1