LatestsNews
# কুড়িগ্রামে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় ৬জন গ্রেপ্তার# গাজীরহাট ইউনিয়ন পরিষদের গ্রাম আদালত সাধারণ মানুষের কাছে জনপ্রিয় # শিরোমণি স্পোর্টিং ক্লাব আয়োজিত ৮দলীয় মিনি ফুটবল টুর্ণামেন্টের উদ্বোধন# শৈলকুপায় অর্ধশত বছরেও আলোর মুখ দেখেনি স্বতন্ত্র এবতেদায়ী মাদরাসা!# কালীগঞ্জে পিতা হত্যার দায়ে পুত্রের যাবজ্জীবন কারাদন্ড# ‘আমলাতান্ত্রিক জটিলতায় শিল্প মন্ত্রণালয়ের কাজে মন্থর গতি’# রাজধানীর সদরঘাটে লঞ্চের ধাক্কায় ডিঙি নৌকা ডুবে নিখোঁজ দুই শিশুর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।# ঢাকা-উত্তরবঙ্গ রেলরুটে আন্তঃনগর রংপুর এক্সপ্রেস ট্রেনের বগি লাইনচ্যুত হয়ে সকল প্রকার ট্রেন চলাচল বন্ধ # পলিথিন থেকে জ্বালানি তেল উৎপাদন উদ্ভাবক জামালপুরের তৌহিদুল ইসলাম।# সিলিন্ডার পুনঃপরীক্ষার সনদ ছাড়া গ্যাস মিলবে না গাড়িতে# প্রতিযোগিতায় এগিয়ে রাখতে দেশীয় মোবাইল উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানগুলো প্রস্তাবিত বাজেটে বেশকিছু শুল্ক সুবিধা পাচ্ছে।# প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নতুন ভবন নির্মান বন্ধ রয়েছে গ্রামবাসীদের আবেদন জায়গা পুনঃনির্ধারন# মেহেরপুরের গাংনীতে দু’পক্ষের গোলাগুলিতে মাদক ব্যবসায়ী নিহত# ‘নারী ও কন্যা শিশুর প্রতি সংহতি’ বিষয়ে আলোচনা সভা# পায়রা কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রে দেশীয় শ্রমিকদের ক্ষোভের নেপথ্যে চীনাদের 'অকথ্য নির্যাতন'# চাঁপাইনবাবগঞ্জে মনিরুল হত্যা মামলায় ৯ জনের মৃত্যুদণ্ড# ডিআইজি মিজানের সম্পত্তি বাজেয়াপ্তের নির্দেশ# খুলনা শিরোমণি বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতালের ডাক্তার-ষ্টাফদের দুই দফা দাবীতে লাগাতর কর্মসুচি শুরু# অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টস হারল বাংলাদেশ# দিনাজপুরের হিলিতে দেশের প্রথম লৌহ খনির সন্ধান পাওয়া গেছে।
আজ সোমবার| ২৪ জুন ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

ঈদে বেড়াতে পারেন সুনামগঞ্জের হাওরের প্রাকৃতিক সুর্ন্দযের মাঝে



জাহাঙ্গীর আলম ভুঁইয়া,সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি
দেশের উত্তর-পূর্ব দিগন্তের সীমান্ত ঘেরা হাওরের রাজধানী হিসাবে পরিচিত সুনামগঞ্জ জেলা। শুধু হাওরেই নয় জীব-বৈচিত্র,সুন্দর্যে সমৃদ্ধ হাওর,নদী,পাহাড়,প্রাকৃতিক সৌন্দর্য আর শৈল্পের কারুকার্যে ভরপুর করে দিয়েছেন বিধাতা এ জেলায় নিজের হাতেই। জেলার ১১টি উপজেলা জামালগঞ্জের পাকনার হাওর,হালির হাওর,জগন্নাথপুরের নলুয়ার হাওর,বিশ্বাম্ভরপুর,ধর্মপাশা,দিরাই,শাল্লা ও তাহিরপুরের টাংগুয়ার হাওর,শনির হাওর,মাটিয়ান হাওর সহ গুরুত্বপূর্ন প্রায় ৪শতাধিক(২০একরের উর্ধে) হাওর রয়েছে। এই সব হাওরের রুপ বৈচিত দেখতে প্রতিদিন হাজার হাজার সুন্দর্য পিপাসু দর্শনার্থীদের আগমনে মিলন মেলায় পরিনত হয়েছে হাওর গুলোতে। জানাযায়,হাওরের নীলাভ রুপালী জলরাশি শুধু নয় জলজ ও স্থলজ নানা ধরনের উদ্ভিদের পাশাপাশি এ অঞ্চলে জন্ম নিয়েছে সম্পদে সমৃদ্ধ বাউল,লোককবি,সাধক মরমী কবি হাসন রাজা,রাধরমন,শাহ আব্দুল করিম ও তাদের স্মৃতি বিজরিত স্থান,কিছু নিদর্শন ও তাদের গান। আর তাদের লেখা গান নির্দশন গুলো বিশ্ববাসীর কাছে দিন দিন হয়ে উঠেছে জনপ্রিয় ও আকর্শনীয়। পর্যটকরা টাংগুয়ার হাওর সহ বিভিন্ন হাওরে এসে নীল জররাশি মাঝে নৌকায় বসে,কেউ বা হাওরের পানিতে সাতার কেটে গোসল করে,কেউ বা রাতে হাওরের শীতল হাওয়া ও পূর্নিমার আলোয় রাত্রী যাপন,কেউ বা হাওরে সুর তুলছেন বাউল,মরমী কবি সাধকদের জনপ্রিয় গান গুলো। হাওরের মাছ,অতিথি পাখি,সুন্দর্য আর সোয়াম ফরেষ্টের জন্য বিখ্যাত এ জেলায় হাওরের সৌন্দর্য ভ্রমন পিপাসুদের হাতছানি দিয়ে ডাকলেও প্রচার-প্রচারনা আর সু-ব্যবস্থাপনা না থাকায় এতদিন পর্যটকদের তেমন একটা নজর কাড়তে পারে নি। সেই সাথে পর্যটন শিল্প স্থাপনের প্রতি সরকারের আগ্রহ না থাকায় বিপুল পরিমান রাজস্ব্য আদায় থেকেও বঞ্চিত হচ্ছে সরকার। কিন্তু সুন্দর্য পিপাসু পর্যটক ও দর্শনার্থীরা সুনামগঞ্জের সীমান্ত নদী,পাহাড়,পাহাড়ী ঝর্না,হাওর,বাওরের হিজর,করচ,নলখাগরা বনের প্রাকৃতিক সুন্দর্য,নানান প্রজাতির বনজ,জলজ প্রানী আর হাওর পাড়ের বসবাসকারী মানুষের জীবন-জীবিকা খুজেঁ খুজেঁ বের করে নৈসর্গিক সৌর্ন্দযে মুগ্ধ হচ্ছেন। স্থানীয় বাসীন্দা সাদেক আলী,রফিকুল ইসলাম,তোজাম্মেল হক নাছরুম বলেন,পর্যটন শিল্পের সম্ভাবনা দেশ-বিদেশের ভ্রমন পিপাসুদের সামনে তুলে ধরতে টাংগুয়ার হাওরে গত বছরের ১৬-১৭সেপ্টেম্ভর দু-দিন ব্যাপি টাংগুয়ার হাওরে জল জ্যোৎ¯œা উৎসবের আয়োজন করেছিল তাহিরপুর উপজেলা পরিষদ ও প্রশাসন। ব্যাপক সাড়াও পেয়েছে এ উৎসবের আয়োজকগন। বিশেষ করে তাহিরপুর উপজেলার আর্ন্তজাতিক রামসার সাইট খ্যাত জীব-বৈচিত্র,সম্পদে ও সুন্দর্যে ভরপুর টাংগুয়ার হাওর অনন্য বৈশিষ্ট্য থাকায় দেশ-বিদেশে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছে। জাহাঙ্গীর আলম,সাইদুল,সোহাগ জানান,বর্ষায় হাওরে প্রাকৃতিক ভাবে জন্ম নেয়া হিজল,করছের ডাল গুলো বর্ষার অথৈই জলে ডানা কাটা পরীর মত ভাসমান আর শুষ্ক মৌসুমে পাতা বিহীন ডালাপালা গুলো ভাস্কর্যের রুপ নেয়। আর শীতে মৌসুমে হাজার হাজার দেশী-বিদেশী পাখির মিলন মেলা ও সবুজের সমারোহ চোখ জুরানো সুন্দর্যে মন প্রান খুলে উপভোগ করছেন বেড়াতে আসা সুন্দর্য পিপাসু পর্যটক ও দর্শনার্থীরা। বাদাঘাট বাজার বনিক সমিতির সভাপতি ও যুবলীগ সভাপতি সেলিম হায়দার,বাদাঘাট বাজার বনিক সমিতির সাধারন সম্পাদক ও উত্তর বড়দল ইউনিয়নের যুবলীগ সভাপতি মাসুক মিয়া,ছাত্রলীগ নেতা রাহাদ হায়দার সহ স্থানীয়রা জানান,দেশ-বিদেশের পর্যটকগন এখন একা না এসে তাদের পরিবার পরিজন নিয়ে আসছেন হাওরের সুন্দর্য উপভোগ করতে। জেলার টাংগুয়ার হাওর,বারেকটিলা,যাদুকাটা নদী,হাওলি জমিদার বাড়ি,জয়নাল আবেদিন গার্ডেন(শিমুল বাগান),সীমান্তের আদিবাসি পল্লøী,মেঘালয় পাহাড়ের বুক চিড়ে বয়ে আসা ছোট বড় ২০টি ঝরর্না সহ ৪৬টি দর্শনীয় স্থান রয়েছে। তাই পর্যটন শিল্পের সম্ভাবনা দেশ-বিদেশের ভ্রমন পিপাসুদের সামনে তুলে ধরতে পর্যটন সমৃদ্ধ স্থান গুলো কে নিয়ে বাস্তবমূখী,র্দীঘ মেয়াদী সুচিন্তিত পরিকল্পনার মাধ্যমে হাওর বেষ্টিত সুনামগঞ্জ জেলার একটি আকর্শনীয় পর্যটন কেন্দ্রে রুপান্তরিত করার সর্ব মহলে দাবী উঠেছে। বেড়াতে আসা শিক্ষার্থী মেহেদী হাসান জনমেজর সহ তার বন্ধুরা  জানান-হাওর,নদী,পাহাড়,প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের মাঝে অপরুপ সৌন্দর্যের রুপের রানী যাদুকাটার তুলনা হয় না। এত সুন্দর পাহাড়ী নদীর সম্মিলন খুব একটা দেখা যায় না। হেমন্তে গায়ের বধুরা বালুচড় পাড়ি দিয়ে যাদুকাটার সচছ পানিতে গোসল করে ফেরার পথে বেঁজা গায়ে কলসি কাখে বাড়ি ফিরার সময় রেখে যায় তাদের ভেঁজা পায়ের পদ চিহ্ন। এ যেন কবি মাইকেল মদূসধন দত্তের কপোতাক্ষ নদ।তবে যোগাযোগ ব্যবস্থা,থাকা,খাওয়ার ভাল ব্যবস্থা না থাকার কারনে বেড়াতে আসা লোকজনের কষ্ট হচ্ছে। তাহিরপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান কামরুল জানান,হাওরেই সুনামগঞ্জ জেলা কে তুলে ধরেছে দেশ-বিদেশের সুন্দর্য পিপাসু দর্শনার্থী ও পর্যটকদের কাছে। হাওরের সুন্দর্যই অভিভূত দর্শনার্থী ও পর্যটর্করা তাই হাওর কে কেন্দ্র করে পর্যটন শিল্প স্থাপন করা সময়ের দাবী জনগনের দাবীতে পরিনত হয়েছে। হাওর বাসীর স্বার্থে বর্তমান সরকার ৬বছর পূর্বে তাহিরপুর বাসী কে দেওয়া পর্যটন শিল্প স্থাপনের প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী একটি পর্যটন শিল্প গড়ার দাবী জানাচ্ছি।


1