LatestsNews
# ভবিষ্যতে দেশের সব নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহার করা হবে বলে জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নুরুল হুদা।# দক্ষিণ আফ্রিকাকে জিততে দিলেন না উইলিয়ামসন# খুলনার শিরোমণি বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতালের ডাক্তার-ষ্টাফদের দুই দফা দাবীতে অবস্থান ধর্মঘট পালিত# নড়াইলে শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার প্রতিবাদে লোহাগড়ায় মানববন্ধন# নওগাঁয় ২ লাখ ৩২ হাজার জাল টাকা উদ্ধার, গ্রেফতার-১# দিনাজপুর বিরলে দেওয়ানজীদিঘী পুকুরে পোনা মাছ অবমুক্তকরণ # শার্শায় অস্ত্র-গুলিসহ আটক ১ # গাজীপুর শ্রীপুরে পল্লী বিদ্যুতের প্রিপেইড মিটার বন্ধের দাবীতে মানববন্ধন# নোয়াখালীতে ভুয়া চিকিৎসককে আদালতের নির্দেশে কারাগারে প্রেরণ# জমি সংক্রান্ত পূর্ব শত্রুতার জের ধরে প্রতিপক্ষের বাড়ি ভাংচুর সহ গাছকর্তন # বেনাপোলে সড়ক দুর্ঘটনায় ট্রান্সপোর্ট ব্যবসায়ী নিহত# এবছর শিক্ষা খাতে বাজেটের আকার বাড়লেও তা শতাংশে কমেছে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।# পায়রা তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে বাংলাদেশি ও চীনা শ্রমিকদের মধ্যে সংঘর্ষে ৮ চীনা শ্রমিক আহত হয়েছেন।# দেশে ফলের উৎপাদন বাড়াতে প্রতিনিয়ত চলছে নানা গবেষণা- কৃষকদের উৎসাহিত করতে যত আয়োজন# মোবাইল ফোনে বাংলায় এসএমএস (মেসেজ) পাঠালে খরচ অর্ধেক ছাড় দেয়া হবে।# বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য হলেন সেলিমা ও টুকু# মানুষের খাদ্য তালিকার প্রাণীর এসব খাবার এ যেন মানুষ মারার কারখানা# রাজধানীর বায়তুল মোকাররম মার্কেটে আগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে।# আমিরাতে প্রথম বাংলাদেশির গোল্ডেন ভিসা অর্জন# 'মোবাইল রিচার্জে শুল্ক বাড়ানোয় ক্ষতিগ্রস্ত হবে ডিজিটাল বাংলাদেশের অগ্রযাত্রা'
আজ বৃহস্পতিবার| ২০ জুন ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

পর্যটন শিল্পকে ‘হুমকির মুখে ফেলবে’ রোহিঙ্গা শরণার্থীরা



মিয়ানমারে সহিংসতার শিকার হয়ে পালিয়ে আসা অনেক রোহিঙ্গা ঢুকে পড়েছে কক্সবাজার শহরে। এসব রোহিঙ্গা আশ্রয় নিচ্ছে সৈকতের ঝাউ বাগান হোটেল, মোটেল জোনসহ বিভিন্ন পর্যটন স্পটে। তারা এভাবে ছড়িয়ে পড়লে কক্সবাজারের পর্যটন শিল্প হুমকির মুখে পড়বে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা। তবে, পর্যটন স্পটে রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ ঠেকাতে নজরদারি বাড়ানোর কথা জানিয়েছে ট্যুরিস্ট পুলিশ।

দেশ ও বিদেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে প্রতিদিনই কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত দেখতে যান পর্যটকরা। এই সৈকত বাদেও পর্যটকদের তালিকায় রয়েছে হিমছড়ি, ইনানি বিচ, টেকনাফ সৈকত ও মেরিন রাইডসহ কোরাল দ্বীপ সেন্ট মার্টিন। তবে সম্প্রতি মিয়ানমারে রোহিঙ্গা নিপীড়ন শুরু হওয়ার পর অনেক রোহিঙ্গা নির্দিষ্ট স্থানের বাইরে টেকনাফ ও কক্সবাজারের বিভিন্ন পয়েন্টে স্থান নিচ্ছে। এতে দুশ্চিন্তায় পড়েছেন কক্সবাজারে ঘুরে আসা দর্শনার্থী ও পর্যটন সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা।

দর্শনার্থীদের কয়েকজন সময় নিউজকে বলেন, আমরা একটু রিলাক্সের জন্য এখানে এসেছি। আর রোহিঙ্গারা এসে এখানে ঝামেলা করছেন। তারা কী ধরনের ঝামেলার সম্মুখীন হচ্ছেন এমন প্রশ্নের জবাবে একজন বলেন, অনেকেই ভিক্ষাবৃত্তির জন্য এখানে আসছেন। অনেকে পিছু ছাড়ছেন না।

এক হোটেল কর্মকর্তা সময় নিউজকে বলেন, রোহিঙ্গাদের অনেকেই বিচে বসতি গড়ছেন। এমনটা চলতে থাকলে আমাদের ব্যবসা ক্ষতিগ্রস্ত হবে। একই সঙ্গে হুমকির মুখে পড়বে পর্যটন শিল্প।

রোহিঙ্গা সমস্যাকে অনেক পুরনো বলে উল্লেখ করে কক্সবাজারের হোটেল মোটেল ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের মুখপাত্র মো. সাখাওয়াত হোসেন সময় নিউজকে বলেন, জনপ্রতিনিধি ও প্রশাসনের কাছে আমাদের অনুরোধ সকল রোহিঙ্গাকে যেন একটি নির্দিষ্ট জায়গাতে আবদ্ধ করে রাখা হয়।

পর্যটন স্থানগুলোতে রোহিঙ্গা প্রবেশে বেশকিছু পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে বলে উল্লেখ করে কক্সবাজার ট্যুরিস্ট পুলিশের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার হোসাইন মো. রায়হান কাজেমী বলেন,  রোহিঙ্গারা যাতে পর্যটন স্থানগুলোতে প্রবেশ করতে না পারেন সেজন্য এরই মধ্যে টহল বৃদ্ধি করা হয়েছে। ২৪ ঘণ্টাই আমরা এসব স্থানকে নজরদারির মধ্যে রাখছি।


1