LatestsNews
# সোনাগাজী পুলিশের কাছে হস্তান্তর ওসি মোয়াজ্জেমকে# নিউইয়র্ক বইমেলার ‘আজীবন সম্মাননা’ পেলেন ফরিদুর রেজা সাগর# পলিথিন ডাক্তার, এইচএসসি পাসে এমবিবিএস চিকিৎসক # এজলাস থেকে হঠাৎ মাটিতে পড়ে গেলেন বিচারক, অতঃপর...# সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের বোন শ্রমিক নির্যাতনের দায়ে কাঠগড়ায়# ভয়াবহ বৈদ্যুতিক বিপর্যয়ের কারণে বিদ্যুৎহীন হয়ে পড়েছেন আর্জেন্টিনা ও উরুগুয়ের ৪ কোটি বাসিন্দা।# বাংলাদেশ পেল বিশ্ব চ্যাম্পিয়নের স্বাদ# তেল ট্যাঙ্কারে হামলা : ইরানকে জড়িয়ে মার্কিন অভিযোগ প্রত্যাখ্যান# বরিশালে প্রশ্নফাঁস চক্রের দুই সদস্য গ্রেফতার# নোয়াখালী সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ইভিএম পদ্ধতিতে পরীক্ষামূলক ভোট গ্রহণ# ঝিনাইদহে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় ৪ জন নিহত, আহত ১# ডিআইজি মিজানকে গ্রেফতার না করায় উদ্বেগ জানিয়েছেন আপিল বিভাগ।# প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের পর নবম ওয়েজবোর্ডের চূড়ান্ত বাস্তবায়ন ঘোষণা করা হবে।# ৭২ ঘণ্টার মধ্যে মানহীন ২২টি পণ্য বাজার থেকে সরানোর নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।# চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানের সামনে রানের পাহাড় দাঁড় করিয়েছে ভারত ৫ উইকেটে তারা করে ৩৩৬ রান।# রাজধানীর ধানমন্ডি পপুলার হাসপাতালের এক চিকিৎসকের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ# নড়াইলে শিক্ষকের ওপর হামলার প্রতিবাদে ছাত্রদের অবস্থান কর্মসূচিতে বাধা, পিস্তল উচিয়ে ভীতি প্রদর্শন# পঞ্চগড়ের বাংলাবান্ধা-ফুলবাড়ি সীমান্ত চেকপোস্ট দিয়ে ভারতে পাচার করা ৬ কিশোরীকে বাংলাদেশে ফেরত# কুড়িগ্রামের উলিপুরে নারী উদ্যোক্তার কারণে ৭শ’ নারী পেল কর্মসংস্থানের সুযোগ# চট্টগ্রাম বন্দরে সংঘর্ষে জোড়া লেগে যাওয়া জাহাজ দু'টির অংশ বিশেষ কেটে আলাদা করা হয়েছে।
আজ সোমবার| ১৭ জুন ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

বিদ্যুৎ বিপর্যয়ে বেনাপোল স্থলবন্দরের কার্যক্রমে স্থবির



শহিদুল ইসলাম,বেনাপোল প্র‌তি‌নি‌ধি।।দেশের সর্ববৃহৎ স্থলবন্দর বেনাপোল সহ শার্শা উপজেলায় আবারও শুরু হয়েছে বিদ্যুৎ বিপর্যয়। অধিকাংশ সময় বিদ্যুৎ না থাকায় দেশের সর্ববৃহৎ স্থলবন্দর বেনাপোলে কার্যক্রমে স্থবিরতা দেখা দিয়েছে।

বিদ্যুতের অভাবে মন্থর হয়ে পড়েছে দেশের প্রধান স্থলবন্দর বেনাপোল। থমকে যাচ্ছে সকল কার্যক্রম। নিয়মিত লোডশেডিংয়ের কবলে পড়ে মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে এখানকার কাস্টমস হাউজ, বন্দর, চেকপোস্ট ইমিগ্রেশন, আবাসিক এলাকা, থানা, পাঁচ শতাধিক সিএন্ডএফ এজেন্ট, অসংখ্য সরকারী বেসরকারী প্রতিষ্ঠান, দোকানপাটসহ নানা ব্যবসায়ী সম্প্রদায়। আগে শুধুমাত্র সন্ধ্যা থেকে গভীর রাত পর্যন্ত লোডশেডিং হলেও বর্তমানে ভোর থেকে শুরু হচ্ছে লোডশেডিং। এছাড়াও স্কুল কলেজের ছাত্রছাত্রীদের পড়াশুনা ব্যাঘাত ঘটছে। ছাত্রছাত্রীরা প্রচন্ড গরম ও বিদ্যুতের অভাবে পড়াশুনা করতে পারছে না।

এ স্থলবন্দরে প্রতিদিন লোড-আনলোড হয় চার থেকে পাঁচ শ’ ট্রাক পণ্য। কাস্টমস হাউজে প্রতিদিন পণ্য খালাসের জন্য জমা হয় প্রায় দুই থেকে আড়াই শ’টি বিল অব এন্ট্রি। এসব নিয়ন্ত্রিত হয় কম্পিউটারের মাধ্যমে। বিদ্যুত বিভ্রাটের কারণে কম্পিউটার বিভাগ অচল হয়ে পড়ছে। প্রতিদিন ১০ হাজারেরও বেশি কাগজপত্র ফটোকপি করতে হয় আমদানি রফতানি সংক্রান্ত। ফলে আমদানি-রফতানিও ব্যাহত হচ্ছে মারাত্মকভাবে। সেই সাথে সরকারের রাজস্ব আদায় ব্যাহত হচ্ছে।
এ পরিস্থিতিতে অন্যতম এ স্থলবন্দরের স্বাভাবিক কার্যক্রম মন্থর হয়ে পড়ছে। এ বন্দরে বিদ্যুৎ সরবরাহ নিশ্চিত করতে না পারলে শুধু আমদানি-রফতানি কার্যক্রমই ব্যাহত হবে না, এর নেতিবাচক প্রভাব গার্মেন্টসসহ বিভিন্ন শিল্প প্রতিষ্ঠানের উপরে পড়বে বলে ব্যবসায়ীরা মনে করছেন। বাংলাদেশের প্রধান স্থলবন্দর বেনাপোল হলেও বন্দরটি অনুন্নত। বিদ্যুতের অভাবে জেনারেটর নির্ভর হয়ে পড়েছে বেনাপোল বন্দর। ১৬০টি জেনারেটর বিদ্যুতের বিকল্প হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে। এর পরেও বিদুতের অভাবে ব্যাহত হচ্ছে অনেক কাজ।

যশোর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর হিসাব অনুযায়ী বেনাপোল বন্দর সাব-স্টেশনের দৈনন্দিন চাহিদা ২০ মেগাওয়াট। সরবরাহ হচ্ছে ৪ থেকে ৬ মেগাওয়াট। তাও দিনে ৭ থেকে ৮ ঘণ্টার বেশি বিদ্যুৎ দিতে পারছে না পল্লীবিদ্যুৎ। অফিস আওয়ারে বেনাপোল বন্দর বিদ্যুৎ পাচ্ছে ৪-৫ ঘণ্টা। বাকি সময় বিদ্যুৎবিহীন। এ অবস্থা মোকাবেলা করছে বন্দর কর্তৃপক্ষের দুটি ও কাস্টমসের তিনটি জেনারেটর। বন্দর কর্তৃপক্ষের ২টি জেনারেটরে ২ মেগওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদিত হয়। তবে জেনারেটরের বিদ্যুৎ দিনের বেলা ব্যবহৃত হয় না। জেনারেটর ব্যবহৃত হয় শুধু রাতে। এর ফলে বিদ্যুতের অভাবে দিনের অনেক কাজ ব্যাহত হয়।

বন্দরের একজন কর্মকর্তা জানান, বন্দরের কাজ কম্পিউটার নির্ভর। বিদ্যুৎ না থাকলে কম্পিউটার বন্ধ থাকে। এতে কাজের জট তৈরি হয়। কাস্টমস কর্তৃপক্ষের জেনারেটর বিদ্যুৎ না থাকলে ব্যবহৃত হয়। এর বাইরে সিএন্ডএফ এজেন্ট ও বাজারের বিভিন্ন দোকানপাট সচল রাখতে ব্যবহৃত হচ্ছে ভাড়া করা জেনারেটর। তাও সরবরাহ করা হচ্ছে সন্ধ্যা থেকে রাতে ১০টা পর্যন্ত। সিএন্ডএফ এজেন্টেরদের অফিসে প্রায় ১৫৫টি জেনারেটর বিদ্যুতের অভাব পূরণ করছে। স্থানীয় সোনালী ব্যাংকে জেনারেটর বসিয়ে কাস্টমস হাউজের ডিউটি সংক্রান্ত চালানসহ ব্যাংকের অন্যান্য কাজ করা হচ্ছে। এতে খরচ বাড়ছে সকলেরই


1