LatestsNews
# এডিস মশার দীর্ঘমেয়াদি সমাধানের জন্য বাংলাদেশ সফরে আসছেন উচ্চ পর্যায়ের বিদেশি বিশেষজ্ঞ প্রতিনিধিদল। # শেখ হাসিনাকে ভারত সফরের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। # মেঘনা নদীর ভাঙন গাফিলতি করা সেই প্রকৌশলীকে কী শাস্তি দেওয়া হয়েছে? : প্রধানমন্ত্রী# সংসদ সদস্য না হয়েও বিলাসবহুল গাড়িতে শুল্কমুক্ত সুবিধা পেলেন মুহিত# দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) দুর্নীতির বস্তাভর্তি টাকাসহ হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা গ্রেপ্তার# নায়াখালীতে সিএনজিচালিত ও ব্যাটারিচালিত অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে নারী-শিশুসহ আহত ১২# পচা মাছ মজুদ ও বিক্রির দায়ে স্বপ্ন এক্সপ্রেস সুপার শপকে জরিমানা# ভারতীয় দলের ওপর হামলার শঙ্কা, পিসিবিকে মেইল# ২০২৩ সালের মধ্যে দেশের ৬৬ হাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দুপুরের খাবার পাবে প্রাথমিকের শিক্ষার্থীরা# মিন্নির জামিন শুনানি, যা বললেন হাইকোর্ট# ভারতের বহুল আলোচিত ইসলামিক বক্তা ডা. জাকির নায়েক এবার মালয়েশিয়ায় নিষেধাজ্ঞার মুখে# নেত্রীকে মুক্ত করতে ব্যর্থ বিএনপি এখন বিদেশিদের কাছে ধরনা দিচ্ছে মন্তব্য : ওবায়দুল কাদের। # ফিল্মি স্টাইলে মেহেদিকে ছিনিয়ে নেয়ার পরিকল্পনা, গ্রেফতার ৪# মুন্সীগঞ্জে প্রতিদিন শাপলা তুলে লাখ টাকা আয় করে কৃষক শ্রেণীর লোকেরা# ব্যাচেলর খ্যাত সালমান খান অবশেষে বিয়ের জন্য নায়িকা পাত্রী খুঁজে পেয়েছেন# সন্ত্রাসীদের অতর্কিত হামলায় ঠাকুরগাঁও প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আহত # নকশা জালিয়াতির অভিযোগে কাসেম ড্রাইসেলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক তাসভীর-উল-ইসলামকে গ্রেফতার।# ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তুচ্ছ বিষয়কে কেন্দ্র করে নার্স ও স্টাফদের সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনা# রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের সুষ্ঠু পরিবেশ নিশ্চিত করতে মিয়ানমারকে আহ্বান জানিয়েছে জাতিসংঘ।# হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের মৃত্যুর পর জাতীয় পার্টির বিভক্তি আরো স্পষ্ট হয়ে উঠছে।
আজ বুধবার| ২১ আগস্ট ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

বেনাপোল বন্দর যেন জলাশয়



শহিদুল ইসলাম,বেনাপোল প্রতিনিধি।। রাতে পানিতে আলোর ঝিলিক দেখলে মনে হবে এটা বিদেশি কোনো সুইমিং পুলের পাশে ক্যান্টিন। কিন্তু আসলে তা না, এটা দেশের সর্ববৃহৎ বেনাপোল স্থলবন্দরের মধ্যকার দূরাবস্থার চিত্র। অপরিকল্পিত উন্নয়ন ও দীর্ঘদিন ধরে বন্দর সড়কে আটকে থাকা জল নিষ্কাশন হতে না পারায় জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়ে এ অবস্থা তৈরি হয়েছে।

বাণিজ্য সংশিষ্টরা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলছেন, এটি দেশের সর্ববৃহৎ বন্দর ও সবচেয়ে বেশি রাজস্ব দাতা হলেও এখানে কর্তৃপক্ষের নজর কম। দীর্ঘদিন ধরে এ হাল থাকলেও অদক্ষ কর্মকর্তা নিয়োগে চলমান অবস্থার খুব একটা পরিবর্তন আসছে না। ফলে হাঁটু-কাদা পানির মধ্যে পণ্য খালাস কার্যক্রমে বারো মাস ধরে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

 

আর বন্দর কর্তৃপক্ষ বলছে, চলমান সমস্যা উধ্বর্তন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে, ইতিমধ্যে কিছু উন্নয়ন কাজ শুরু হয়েছে। পর্যায় ক্রমে অনান্য কাজ সমাপ্ত হলে তখন এ অভিযোগ থাকবে না।

 

সোমবার (২৫ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১টার সময় বেনাপোল বন্দর অভ্যন্তরে গিয়ে দেখা যায়, বৃষ্টি না হলেও আগের জমে থাকা পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা না থাকায় অধিকাংশ পণ্যাগারের সামনে হাঁটু পানি-কাদা জমে রয়েছে। পায়ের জুতা খুলে প্যান্ট-লুঙ্গি গুটিয়ে ব্যবসায়ী ও শ্রমিকরা পণ্য খালাসের কাজ করছেন। অপরিকল্পিতভাবে বন্দর উন্নয়নে রাস্তার উপর জমে থাকা পানি গড়িয়ে পণ্যাগারে প্রবেশ করছে। কেমিক্যাল মিশ্রিত কাদা-পানিতে কাজ করতে গিয়ে অনেকে রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন।

 

আমদানিকারক জাহাঙ্গীর হোসেন জানান,কোন ভদ্র মানুষের বন্দরে প্রবেশের পরিবেশ নেই। গত প্রায় এক যুগ ধরে এই দুর্ভোগ তাদের ভোগ করতে হচ্ছে। অবস্থা পরিবর্তনে বন্দর সফরে আসা মন্ত্রী, এমপিরা কথা দিচ্ছেন। কিন্তু উন্নয়ন কাজের গতি নেই বললেই চলে।

 

সিঅ্যান্ডএফ ব্যবসায়ী নেতা আমিনুল হক জানান, দীর্ঘ বিরতি দিয়ে মাঝে মধ্যে বন্দরে কিছুটা উন্নয়ন কাজ হলেও নিম্নমানের সামগ্রী দিয়ে কাজ করায় অল্প সময়েই তা ব্যবহারের অনুপযোগী হয়ে ওঠে। টেকসই উন্নয়ন হলে দুর্ভোগ ভোগ করতে হয় না।

 

পণ্যবাহী ট্রাক চালক আব্বাস  জানান, আমদানি পণ্য লোড, আনলোডের জন্য তিনি দেশের অনেক বন্দরে গেছেন। কিন্তু বেনাপোল বন্দরের মতো এতো বেহাল চিত্র কোথাও তার চোখে পড়েনি। এখানে বন্দরে জমে থাকা কাদা ও গর্তে প্রায়ই ট্রাক আটকে ইঞ্জিন বিকল হয়ে পণ্য পরিবহনে বিলম্ব হচ্ছে।

 

বেনাপোল স্থলবন্দরের উপ-পরিচালক (ট্রাফিক) আমিনুল ইসলাম জানান, তিনি কিছুদিন হলো এখানে যোগদান করেছেন। ইতিমধ্যে বন্দরে চলমান সব সমস্যা নির্ণয় করে তিনি উধ্বর্তন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছেন। অনেক কাজ ইতিমধ্যে শুরু হয়েছে। সবার সহযোগিতায় অল্প কিছু দিনের মধ্যে এ বন্দরকে আধুনিক বন্দরে রুপান্তরিত করা হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

 

বন্দর শ্রমিকদের অভিযোগ, কিছুদিন আগে কাদা-পানিতে পণ্য খালাস করতে গিয়ে এসিডের ড্রাম ফেটে তাদের এক শ্রমিক নিহত হয়েছেন। তাদের ভাগ্য উন্নয়নে এ পর্যন্ত কেউ কথা রাখেনি। ফলে দুর্ভোগের মধ্যেই তাদের কাজ করতে হচ্ছে


1