LatestsNews
# মৌলভীবাজারে ক্ষতিগ্রস্থ প্রত্যেক ঘর পাকা করে দেওয়া হবে: ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী# কুড়িগ্রামে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি ব্রহ্মপূত্রের ভাঙনে রৌমারী-রাজিবপুর প্লাবিত# শিক্ষা সহায়ক স্বপ্নপূরন সংগঠনের উদ্যোগে দরিদ্র দুই শিক্ষার্থীকে সহায়তা প্রদান # শৈলকুপায় কৃকদের নিকট থেকে ধান কিনছেন ইউএনও# ঝিনাইদহ জেলা জুড়েই পোষ্ট অফিসের কর্মচারী কর্মকর্তাদের চলছে বেহালদশা# খুলনার শিরোমণি বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতাল অচলাবস্থা রোগী ও তাদের স্বজনদের চরম ভোগান্তি# ময়মনসিংহের মুক্তাগাছায় আমবোঝাই ট্রাক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সাথে ধাক্কা নিহত ২# ভারতের গুজরাটে ১৮ বছরের নিচে মোবাইল নিষিদ্ধ# একই পাঞ্জাবির দামে হেরফেরের দায়ে আড়ংয়ে আবারও পাঞ্জাবি কাণ্ড, ফের জরিমানা# যুক্তরাষ্ট্র থেকে এক বাংলাদেশি অভিবাসন ইস্যুতে বহিষ্কার।# রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে বাংলাদেশকে গঠনমূলক সহায়তার আশ্বাস দিয়েছে চীন।# রোহিঙ্গা সংকটের জন্য মিয়ানমার সরকারই দায়ী বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত রবার্ট মিলার।# নরসিংদীতে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে ১৩ দিন লড়াই করে হার মানলেন দগ্ধ ফুলন# নোয়াখালীতে ২ জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড # ঝিনাইদহে প্রভাবশালীরা ঘের ও পুকুর কেটে চলেছেন, অবৈধ পুকুর খননে কৃষকরা হচ্ছে ক্ষতিগ্রস্ত# লোহাগড়ায় ৫’শ পিস ইয়াবাসহ মাদক কারবারী আটক# বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতালের প্রশাসনিক কর্মকর্তা মাহমুদুলকে যোগদানে দিনভর উত্তেজনা # শিরোমনি উত্তরপাড়ায় খেলতে গিয়ে পুকুরে ডুবে দুই শিশুর মর্মান্তিক মৃত্যুঃ এলাকায় শোকের ছায়া# নোয়াখালীর চৌমুহনীতে আধিপত্য বিস্তারের জেরে প্রতিপক্ষ সন্ত্রাসীদের গুলিতে যুবকের মৃত্যু# কুড়িগ্রামে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় ৬জন গ্রেপ্তার
আজ বৃহস্পতিবার| ১৮ জুলাই ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

রোহিঙ্গা সংকট: আমরা যুদ্ধ চাইনা শান্তি চাই



রোহিঙ্গা সংকট নিরসনে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের কার্যকরি ব্যবস্থা দেখতে চায় বাংলাদেশ।

বুধবার দুপুরে নিরাপত্তা পরিষদের সদস্য নয় রাষ্ট্রের দূতদের সঙ্গে বৈঠকে সুপারিশ তুলে ধরা হয় বাংলাদেশের পক্ষ থেকে।

বৈঠক শেষে পররাষ্ট্র মন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী সংবাদ ব্রিফিংয়ে বলেন, আমরা যুদ্ধ চাইনা শান্তি চাই।

বাংলাদেশের প্রত্যাশা আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নেবে মিয়ানমার—এ কথা জানিয়ে তিনি আরও বলেন, আগামী কাল অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকে রোহিঙ্গা ইস্যুতে জোরালো সিদ্ধান্ত আসবে।

রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে উদ্ভুদ্ধ পরিস্থিতিতে বুধবার দুপুরে রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের ৯ সদস্য দেশের রাষ্ট্রদূতদের সঙ্গে বৈঠক করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী। বৈঠকে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, রাশিয়া, চীন, সুইডেন, ইতালি, মিসর ও জাপানের রাষ্ট্রদূত ও কূটনীতিকরা অংশ নেন। এসময় তিনি রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের অবস্থান তুলে ধরেন তাদের কাছে।

প্রায় দুই ঘণ্টার বৈঠক শেষে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম, পররাষ্ট্র সচিব শহিদুল হককে সঙ্গে নিয়ে ব্রিফ করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ রোহিঙ্গা ইস্যুতে মিয়ানমারের সঙ্গে কোনও বিবাদে জড়াতে চায় না শান্তি চায় বাংলাদেশ আর এরজন্য জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের সহযোগিতা দরকার।

মন্ত্রী বলেন, নিরাপত্তা পরিষদের সকল সদস্যই রোহিঙ্গাদের প্রতি সহানুভূতিশীল ও বাংলাদেশকে সমর্থন দিচ্ছে।

এদিকে, রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে বৃহস্পতিবার জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ আবার বৈঠকে বসছে। সেখানে রাখাইন পরিস্থিতি নিয়ে প্রকাশ্যে আলোচনা হবে। জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস সে বৈঠকে ব্রিফ করেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সেখানে যাতে এমন কোনও সিদ্ধান্ত আসে যেন নির্বিঘ্নে রোহিঙ্গারা দেশে ফিরে যেতে পারে। সরকারের একমাত্র উদ্দেশ্য- এসব শরণার্থীকে নিজ দেশে ফেরৎ পাঠানো।

তিনি আরও বলেন, অক্টোবরের প্রথম সপ্তাহেই মিয়ানমারের নেত্রী অং সান সু চির দফতরের ইউনিয়ন মন্ত্রী ইয়ো টিন্ট সোয়ের ঢাকা সফরে আসবেন। তবে তিনি যদি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা করতে চান তবে তারিখ পিছিয়েও যেতে পারে।

এদিকে, এ পর্যন্ত মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশে আসা রোহিঙ্গার সংখ্যা সাড়ে চার লাখে পৌঁছেছে।

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গত ২১ সেপ্টেম্বর জাতিসংঘ সাধারণ অধিবেশনে রোহিঙ্গা সঙ্কটের মূল কারণগুলো তুলে ধরে এর নিরসনে পাঁচ দফা প্রস্তাব বিশ্ব নেতাদের সামনে তুলে ধরেন।

প্রস্তাব:

১. অনতিবিলম্বে এবং চিরতরে মিয়ানমারে সহিংসতা ও ‘জাতিগত নিধন’ নিঃশর্তে বন্ধ করা

২. অনতিবিলম্বে মিয়ানমারে জাতিসংঘের মহাসচিবের নিজস্ব একটি অনুসন্ধানী দল প্রেরণ করা

৩. জাতি-ধর্ম নির্বিশেষে সকল সাধারণ নাগরিকের নিরাপত্তা বিধান করা এবং এ লক্ষ্যে মিয়ানমারের অভ্যন্তরে জাতিসংঘের তত্ত্বাবধানে সুরক্ষা বলয় গড়ে তোলা

৪. রাখাইন রাজ্য হতে জোরপূর্বক বিতাড়িত সকল রোহিঙ্গাকে মিয়ানমারে তাদের নিজ ঘরবাড়িতে প্রত্যাবর্তন ও পুনর্বাসন নিশ্চিত করা

৫. কফি আনান কমিশনের সুপারিশমালার নিঃশর্ত, পূর্ণ এবং দ্রুত বাস্তবায়ন নিশ্চিত করা।


1