LatestsNews
# ব্যাচেলর খ্যাত সালমান খান অবশেষে বিয়ের জন্য নায়িকা পাত্রী খুঁজে পেয়েছেন# সন্ত্রাসীদের অতর্কিত হামলায় ঠাকুরগাঁও প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আহত # নকশা জালিয়াতির অভিযোগে কাসেম ড্রাইসেলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক তাসভীর-উল-ইসলামকে গ্রেফতার।# ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তুচ্ছ বিষয়কে কেন্দ্র করে নার্স ও স্টাফদের সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনা# রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের সুষ্ঠু পরিবেশ নিশ্চিত করতে মিয়ানমারকে আহ্বান জানিয়েছে জাতিসংঘ।# হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের মৃত্যুর পর জাতীয় পার্টির বিভক্তি আরো স্পষ্ট হয়ে উঠছে।# ডেঙ্গু মোকাবিলায় সতর্কতা ও সচেতনতা আরো বাড়ানোর আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা# ঈদের আগে পরে মোট ১৩ দিনে এবার সড়ক, নৌ ও রেল পথে ২৪৪টি দুর্ঘটনায় মোট ২৫৩ জন নিহত ও ৯০৮ জন আহত।# গাইবান্ধা আধুনিক হাসপাতালের বেহাল অবস্থা # ভারতে নিহত মাইনুল ও তানিয়া মরদেহ দেশে আনা হয়েছে# যেভাবে চামড়ার দাম কমানো হয়েছে তা দূরভিসন্ধিমূলক:মসিউর রহমান রাঙ্গা।# বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নে রূপপুরে নির্মাণাধীন পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প দেশের দ্বিতীয় মুক্তিযুদ্ধ।# চলনবিলে পর্যটকের ঢল# চলনবিলে পর্যটকের ঢল# সৌদি আরবে বাংলাদেশি হাজিদের বহনকারী একটি বাস দুর্ঘটনায় একজন নিহত ও বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন# সৌদি আরবে বাংলাদেশি হাজিদের বহনকারী একটি বাস দুর্ঘটনায় একজন নিহত ও বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন# পশ্চিমবঙ্গের কলকাতায় মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন বাংলাদেশের দুজন নাগরিক। # জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে ‘ফ্রেন্ড অব দ্য ওয়ার্ল্ড’ বা ‘বিশ্ববন্ধু’ হিসেবে আখ্যা দেয়া হলো# ডেঙ্গু প্রতিরোধ-সচেতনতায় 'স্টপ ডেঙ্গু' অ্যাপ চালু # অবশেষে টাইগারদের নতুন কোচ হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকার রাসেল ডোমিঙ্গাকে।
আজ রবিবার| ১৮ আগস্ট ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

আশ্রিত রোহিঙ্গারা নিজ দেশে ফিরতে চায়-এস ই ইসলাম



লেখক আশ্রিত রোহিঙ্গাদের পরিদর্শনকালে দেখতে পান দুর্বল হয়ে আসছে রোহিঙ্গা নারী-শিশুরা। নবজাতক থেকে ১০ বছর বয়সী শিশুদের মধ্যে এ প্রবণতা বেশি। এমনিতেই স্মরণার্থীদের মধ্যে পুষ্টিহীন শিশুর সংখ্যা বেশি। নবজাতকদের মধ্যে বেশির ভাগ শিশুই মাতৃদুগ্ধ পাচ্ছে না। আবার অপুষ্টির শিকার হয়ে অনেক মা এখন মৃত্যু শয্যায়। এর সাথে যোগ হয়েছে সময় মতো খাবার না পাওয়া। ত্রাণের অপ্রতুল্যতা। স্বাস্থ্যকর ও পুষ্টিমান সম্পন্ন খাদ্যের অভাব। পরিবেশগত বিষয় তো আছেই। স্বজন হারানোর যন্ত্রণা, নির্যাতন আর বীভৎসতা রাতদিন কুরে-কুরে খাচ্ছে অনেক নারীকে। সব মিলিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গা কেহই ভালো নাই। দুঃখ, কষ্ট, আর যন্ত্রণায় তাদের প্রতিদিনের সূর্যাস্ত হয়। যদিও বাংলাদেশে সেনাবাহিনীর হস্তক্ষেপ ও সেনা তৎপরতার সুফল পাচ্ছে রোহিঙ্গারা। রোহিঙ্গাদের মানবিক সহায়তায় সেনাবাহিনী মোতায়েন পর শৃঙ্খলা আনায়ন ত্রাণ তৎপরতা ও আশ্রয়ের ক্ষেত্রে দ্রুত সুফল আসছে। উখিয়া ও টেকনাফের রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সুষ্ঠ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ বিতরণে সেনাবাহিনীর তৎপরতা শুরু না হলে পরিস্থিতি কি অবনতি হতো তা চিন্তা করা যায় না।
সেনাবাহিনীর পাশাপাশি স্থানীয় জন প্রতিনিধি সরকারী কর্মকর্তা, এনজিও, দেশি-বিদেশী দাতা সংস্থা ও বিভিন্ন সংগঠনেরÑসেচ্ছা সেবকরা দিবা রাত রোহিঙ্গাদের জন্য সার্বিক সহায়তা দিয়ে যাচ্ছেন। এদিকে, ঢাকায় সফররত জাপানের উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইয়াং হরি বলেছেন, ‘রোহিঙ্গা শরণার্থী নিয়ে সৃষ্ট কঠিন সমস্যা সমাধানে বাংলাদেশের প্রতি টোকিও’র  পূর্ণ সমর্থন রয়েছে’। বুধবার রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলমের সঙ্গে বৈঠকের পর জাপানের মন্ত্রী সাংবাদিকদের এ কথা বলেন। তিনি বলেন, বিষয়টি (রোহিঙ্গা) জাপানের জন্যও উৎকন্ঠার। আমরা বাংলাদেশের জন্য সহায়তাও দিচ্ছি। জাপান শুরু থেকেই বাংলাদেশের পাশে আছে, থাকবে। সর্বশেষ ৫ লক্ষাধিক রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ‘বিশ্ব মানবতার বাতিঘর’ হিসাবে স্বীকৃতি পাচ্ছেন বিশ্ব নেতাদের কাছ থেকে। ৩৬ বছরের দীর্ঘ রাজনৈতিক পথ পরিক্রমায় শেখ হাসিনা কেবল সেই মহান নেতার কন্যা তাঁর রাজনৈতিক উত্তর সূরি হিসাবে গণ মানুষের প্রধান নেতার আসনে স্থান পাননি। তিনি জেল, জুলুম, মামলা-হামলা, হত্যা প্রচেষ্টাসহ স্বজন হারানো ও হুমকির মুখে অটল থেকে নেতৃত্বের অগ্নিপরীক্ষায় উর্ত্তীণ হয়েছেন।
গণতান্ত্রিক রাজনীতিতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সাহসী নেতৃত্ব জনগণের কাছে আদর্শের ও অনুপ্রেরণার প্রতীক হয়ে আছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনিই আজ মহান কাজে বিভিন্ন সম্মাননায় ভূষিত হচ্ছেন। তাঁর মত একজন সাহসী নারীর পক্ষেই সম্ভব হয়েছে রোহিঙ্গা আশ্রয় দেওয়ার সিদ্ধান্তটি। তিনি বলেছেন, আমার যতটুকু আছে তা দিয়েই আমি এই নির্যাতিত রোহিঙ্গাদের পাশে দাঁড়িয়েছি। যদিও অনেক দেশ রোহিঙ্গাদের নিয়ে ভাবছে এবং সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন।
পরিশেষে, তাদের (রহিঙ্গাদের) সাথে আলাপ কালে জানতে পারলাম যে, তারা নিজ দেশে ফিরতে চায়। নিরাপদ আশ্রয় হোক তাদের। বাসযোগ্য পৃথিবী তাদের একান্তকাম্য।


1