LatestsNews
# এডিস মশার দীর্ঘমেয়াদি সমাধানের জন্য বাংলাদেশ সফরে আসছেন উচ্চ পর্যায়ের বিদেশি বিশেষজ্ঞ প্রতিনিধিদল। # শেখ হাসিনাকে ভারত সফরের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। # মেঘনা নদীর ভাঙন গাফিলতি করা সেই প্রকৌশলীকে কী শাস্তি দেওয়া হয়েছে? : প্রধানমন্ত্রী# সংসদ সদস্য না হয়েও বিলাসবহুল গাড়িতে শুল্কমুক্ত সুবিধা পেলেন মুহিত# দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) দুর্নীতির বস্তাভর্তি টাকাসহ হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা গ্রেপ্তার# নায়াখালীতে সিএনজিচালিত ও ব্যাটারিচালিত অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে নারী-শিশুসহ আহত ১২# পচা মাছ মজুদ ও বিক্রির দায়ে স্বপ্ন এক্সপ্রেস সুপার শপকে জরিমানা# ভারতীয় দলের ওপর হামলার শঙ্কা, পিসিবিকে মেইল# ২০২৩ সালের মধ্যে দেশের ৬৬ হাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দুপুরের খাবার পাবে প্রাথমিকের শিক্ষার্থীরা# মিন্নির জামিন শুনানি, যা বললেন হাইকোর্ট# ভারতের বহুল আলোচিত ইসলামিক বক্তা ডা. জাকির নায়েক এবার মালয়েশিয়ায় নিষেধাজ্ঞার মুখে# নেত্রীকে মুক্ত করতে ব্যর্থ বিএনপি এখন বিদেশিদের কাছে ধরনা দিচ্ছে মন্তব্য : ওবায়দুল কাদের। # ফিল্মি স্টাইলে মেহেদিকে ছিনিয়ে নেয়ার পরিকল্পনা, গ্রেফতার ৪# মুন্সীগঞ্জে প্রতিদিন শাপলা তুলে লাখ টাকা আয় করে কৃষক শ্রেণীর লোকেরা# ব্যাচেলর খ্যাত সালমান খান অবশেষে বিয়ের জন্য নায়িকা পাত্রী খুঁজে পেয়েছেন# সন্ত্রাসীদের অতর্কিত হামলায় ঠাকুরগাঁও প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আহত # নকশা জালিয়াতির অভিযোগে কাসেম ড্রাইসেলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক তাসভীর-উল-ইসলামকে গ্রেফতার।# ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তুচ্ছ বিষয়কে কেন্দ্র করে নার্স ও স্টাফদের সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনা# রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের সুষ্ঠু পরিবেশ নিশ্চিত করতে মিয়ানমারকে আহ্বান জানিয়েছে জাতিসংঘ।# হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের মৃত্যুর পর জাতীয় পার্টির বিভক্তি আরো স্পষ্ট হয়ে উঠছে।
আজ বুধবার| ২১ আগস্ট ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

ঝিনাইদহে উপ-পরিচালক ডাঃ জাহিদের অত্যাচারে পরিবার পরিকল্পনা অফিসের কার্যক্রমের বেহাল দশা



ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ ঝিনাইদহ জেলার পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের ভার প্রাপ্ত উপ-পরিচালক ডাঃ জাহিদ আহমেদ এর বিরুদ্ধে ব্যাপক ঘুষ দূর্নীতি ও নিয়োগ বাণিজ্য সহ নানাবিধ অনৈতিক কার্যকলাপের অভিযোগ পাওয়া গেছে। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ডাঃ জাহিদ নিজ জেলা ঝিনাইদহে ২০১১ সালে মেডিকেল অফিসার থেকে নিজ বেতনে উপ-পরিচালকের দায়িত্ব প্রাপ্ত হন। দায়িত্ব পেয়েই তিনি নগ্ন ভাবে কর্মচারী ব্যাপক ভাবে নির্যাতন, ঘুষ, দূর্নীতি এবং নারী ঘটিত নানাবিধ অপকর্মে লিপ্ত হয়। সরকারি কর্মকর্তাদের একই কর্মস্থলে ০৩(তিন) বছরের বেশী সময় থাকার কথা না থাকলেও তিনি উপর মহলকে ম্যানেজ করে দীর্ঘকাল একই স্থানে তার অবস্থান সুদূঢ় করে রেখেছেন। তার এই দীর্ঘ সময় ঝিনাইদহ অবস্থান কালে ক্ষমতার অপব্যবহার করে বিধি বর্হিভূতভাবে প্রায় ৫০০ (পাঁচশ) এর অধিক বার কর্মকর্তা/কর্মচারীদের মাঝে ডেপুটেশন আদেশ দিয়ে প্রায় কোটি টাকার উর্ধ্বে ঘুষ বানিজ্য করেছেন। অত্র জেলায় ২০১২ সাল থেকে অদ্যাবধি ৩ বার নিয়োগে প্রায় ১ কোটি টাকা ঘুষ নিয়ে নিয়োগ বাণিজ্য করেছেন। তিনি মাঠ পর্যায়ের স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্র থেকে ০৫(পাঁচ) জন আয়া-পিয়নকে নিয়ম নীতি ভঙ্গ ও অগ্রাহ্য করে তুলে এনে নিজ কার্যালয়ে, নিজের বাসায় ফার-ফরমায়েশ খাটার জন্য ডেপুটেশন দিয়েছেন। এ ব্যাপারে যশোরের আঞ্চলিক পত্রিকা দৈনিক সত্যপাঠ ও জাতীয় দৈনিক মাতৃছায়া এবং জাতীয় দৈনিক জরুরী সংবাদ পত্রিকায় গত ২৪/০৯/২০১৭ ইং তারিখে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে। তিনি ঘএঙ দের প্রত্যয়ন প্রদানেও বিপুল অংকের টাকা ঘুষ নিয়ে থাকেন। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কর্মচারীদের নিকট থেকে তিনি ডেপুটেশন এবং বদলী সংক্রান্ত আদেশ দিয়ে ১০ থেকে ৭০,০০০/-(সত্তর হাজার) টাকা পর্যন্ত ঘুষ গ্রহণ করেছেন বলে প্রমাণ রয়েছে। তার অত্যাচারে অত্র জেলায় পরিবার পরিকল্পনা বিভাগে নিরব সন্ত্রাসী কার্যক্রম বিরাজ করছে। তিনি মাঠ পর্যায়ের মহিলা কর্মচারীদের অজ্ঞাত কারণে বিকালে আসতে বলেন যখন অফিসে লোক সমাগম কম থাকে। চাকুরী হারানোর ভয়ে অনেক মহিলাই এ ব্যাপারে মুখ খুলতে সাহস পায় না। তিনি ঝিনাইদহ জেলার ৫ জন পরিবার কল্যাণ পরিদর্শিকার নিকট থেকে ৫৩০০০ = ১,৫০,০০০/- টাকা ঘুষ নিয়ে নিজ বেতনে তাদেরকে সহকারী পরিবার কল্যাণ কর্মকর্তার পদায়নে আবেদন পত্র অগ্রায়ন করেছেন। তিনি অত্র জেলার বেশ কয়েক জন সংবাদিককে ম্যানেজ করে চলেন এবং ঈদ, পূজায় বোনাসের ব্যবস্থা করেন বলেও অভিযোগ রয়েছে। তিনি ঝিনাইদহে তার অবস্থান দীর্ঘায়িত করার জন্য ক্ষমতাশীন দলের উল্লেখ যোগ্য নেতাকর্মীদেরও নিয়মিত ম্যানেজ করে থাকেন। জাহিদ তার সকল অপকর্ম আড়াল করে গত ২০১৬ সালে অত্র জেলার শ্রেষ্ঠ কর্মকর্তার পদক গ্রহণ করেছেন। শুধুতাই নয় পদক গ্রহণের পর সকল উপজেলায় অত্র বিভাগে তাকে সম্বর্ন্ধনা দেওয়ার জন্য কর্মচারীদেরকে বাধ্য করেছিলেন এবং তিনি সংবর্ন্ধনা নেওয়ার পর শান্ত হয়েছিলেন। এলাকাবাসী এই অসৎ, দূর্নীতিবাজ, প্রত্যারক, ভ- কর্মকর্তার কাছ থেকে পদক ফিরিয়ে নেওয়ার জন্য জেলা প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। বিশ্বস্ত সুত্রের তথ্য অনুযায়ী আরো জানা গেছে, যশোরে চাকুরীকালীণ সময়ে তিনি জনৈক মহিলা সহকর্মীকে কুপ্রস্তাব দেওয়ায় উক্ত মহিলা দ্বারা ডাঃ জাহিদ এসিড আক্রান্তের শিকার হয়েছিলেন যার ক্ষত চিহ্ন এখানও তার গলায় দুপাশে দৃশ্যমান। সুযোগ পেলেই তিনি মহিলা কর্মীদের কু-প্রস্তাব দেয়। অচিরেই এই কর্মকর্তার অপকর্মের ব্যাপারে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষ ব্যবস্থা গ্রহণ না করলে পরিবার পরিকল্পনা কার্যক্রম অত্র জেলায় আরও মুখ থুবড়ে পড়ার আশংখা রয়েছে। এ ব্যাপারে ডাঃ জাহিদ আহমেদ সকল অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, কোন বিশেষ মহল সাংবাদিকদের নিকটে আমার বিরুদ্ধে ভুল তথ্য সরবরাহ করেছে।


1