LatestsNews
# দেশে পর্যাপ্ত ত্রাণ সামগ্রীর মজুদ রয়েছে যোগাযোগ ব্যবস্থা বিঘ্ন হওয়ায় পৌঁছাতে সময় লাগছে।# অস্ত্রধারীদের হামলায় ঢাবিতে ছাত্রলীগ নেতা গুলিবিদ্ধ হয়েছেন।# রওশন এরশাদের বাসায় গিয়ে তার দোয়া নিলে এলেন জি এম কাদের।# এবারের সিরিজ অনেক বেশি চ্যালেঞ্জিং: তামিম# বড় দুর্নীতিবাজদের ধরতে না পারার ব্যর্থতা স্বীকার করে নিয়েছেন দুর্নীতি দমন কমিশনের চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ।# ‘উপন্যাসের কাহিনী চুরি করেছে’ ক্ষোভ থেকে জাপানে স্টুডিওতে আগুন# সন্তানকে ভর্তির জন্য স্কুলে খোঁজ নিতে গিয়ে ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনিতে প্রাণ হারিয়েছেন এক মা।# নারায়ণগঞ্জে গণপিটুনিতে নিহত যুবকের পরিচয় শনাক্ত# ঈদকে সামনে রেখে জমে উঠেছে পশুহাট, রয়েছে মেডিসিন প্রয়োগে মোটা তাঁজা করনের ব্যাপক অভিযোগ # নোয়াখালীতে ছাত্রীদের যৌন হয়রানি, প্রধান শিক্ষক আটক# সামান্য তর্কের জেরে প্রাণ হারালো এক কারখানা শ্রমিক। # উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবেই প্রিয়া সাহা অসত্য বক্তব্য দিয়েছেন দেশে ফিরলেই তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।# দেশদ্রোহী বক্তব্যের জন্য প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতেই হবে : কাদের# বেনাপোল সীমান্তে ভারতীয় রুপিসহ আটক ১ # কুষ্টিয়ায় বন্দুকযুদ্ধে এক মাদক ব্যবসায়ী নিহত অস্ত্র,গুলি ও মাদকদ্রব্য উদ্ধার # বৃষ্টিতে না ভিজতে গাছতলায় আশ্রয়, বজ্রপাতে ৮ শিশুর মৃত্যু# ডিজিটাল গরু' ফেসবুকে ভাইরাল হবিগঞ্জের ‘শিক্ষিত গরু’! # অস্ট্রিয়ায় বিমান বিধ্বস্তে ৩ জনের মৃত্যু# ই মিটিশন চালু হওয়ায় পাল্টে যাচ্ছে গাংনী ভুমি অফিসের চিত্র# নেত্রকোনায় ব্যাগ থেকে শিশুর মাথা উদ্ধারের ঘটনাটি হত্যাকাণ্ড।
আজ রবিবার| ২১ জুলাই ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

নীলফামারী পৌরসভা বদলে যাচ্ছে উন্নয়নের ছোঁয়া



শাহ মো: জিয়াউর রহমান,নীলফামারী : নীলফামারী পৌরসভা উন্নয়নের ছোঁয়ায় বদলে যেতে শুরু করেছে । সুপার মার্কেট থেকে উন্নত ড্রেনেজ ব্যবস্থা, পাড়া-মহল্লার অলি-গলির সব সড়কে লাগছে উন্নয়নের ছোঁয়া। এছাড়া বেশ কয়েকটি কালভার্ট নির্মাণ, সড়কবাতি ,স্টিলের ডাষ্টবিন স্থাপন, বস্তি উন্নয়ন সহ আধুনিক পৌরসভায় রূপান্তর করতে যা যা করা দরকার সবই করা হচ্ছে। এশিয়া উন্নয়ন ব্যাংকের(এডিবি) অর্থায়নে বেশ কয়েকটি মেগাপ্রকল্প ছাড়াও ছোট-খাটো অসংখ্য প্রকল্পের কাজ একসঙ্গে শুরু হওয়ায় পৌরবাসী বেশ খুশি। শহরের সড়কগুলোর ফুটপাত গুলোতে টাইলস বসানো হচ্ছে। এদিকে দ্বিতীয় ও তৃতীয় নগর পরিচালনা ও অবকাঠামো উন্নতিকরণ (সেক্টর) প্রকল্পের (ইউজিআইআইপি) এর (মিউনিসিপাল) ও ১৯ শহর প্রকল্প ও জলবায়ু প্রকল্পের তত্ত্বাবধানে গত ৭ বছরে প্রায় ৬৯ কোটি ১৭ লাখ টাকার প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হয়েছে এবং হচ্ছে।এরই মধ্যে ইউজিআইআইপি ২ প্রকল্পে ১৮ কোটি ৭৯ লাখ, ১৯ শহর প্রকল্পে ১৭ কোটি,জলবায়ু প্রকল্পে এক কোটি। ইউজিআইআইপি-৩ প্রকল্পে ৩২ কোটি ৩৮ লাখ টাকা নির্মান কাজ চলমান রয়েছে। গত ২১ আগষ্ট হতে দুই দিন ধরে নীলফামারী পৌরসভার এই সব কাজের উন্নয়ন দেখতে এলাকা ঘুরে গেলেন এডিপির একটি প্রতিনিধিদল । নীলফামারী পৌর মেয়র জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি দেওয়ান কামাল আহমেদের আমন্ত্রনে তারা নীলফামারী পৌরসভা এলাকার উন্নয়নে বদলে যাওয়া সমাপ্ত ও চলমান কাজ পরিদর্শন করে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। এ ছাড়া পৌরসভা এলাকায় সম্প্রতিকালের বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ্য এলাকা ঘুরে ঘুরে দেখেন। এই প্রতিনিধি দলে ছিলেন এডিবির মিশন প্রধান আলেকজান্ডার ভোগল, এলজিইডির আরবান ম্যানেজম্যান্টের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী শফিকুল ইসলাম আকন্দ, ইউজিআইআইপি-থ্রি প্রকল্পের পরিচালক এ,কে,এম রেজাউল ইসলাম, সিনিয়র প্রকল্প কর্মকর্তা সহিদুল আলম, প্রকল্পের বিশেষজ্ঞ স্বাসওয়াতী বেলীআপ্পা,এডিবির বিশেষজ্ঞ সুসান ফ্রান্সিসকো,নিনেত্তে পাজারিল্লেইজা, স্যোসাল উন্নয়ন অফিসার(জেন্ডার) নাসিবা সেলিম,এডিবি বিশেষজ্ঞ এ্যানিক আজমেরা, মিগুয়েল দিয়েঞ্জন, আরবান উন্নয়ন প্রকল্পের বিশেষঝ্হ মোঃ রফিকুল ইসলাম,মোঃ রোকনউদ্দিন আহম্মেদ, সুরাইয়া জেবীন। এই সফলে প্রতিনিধি দল তৃতীয় নগর পরিচালনা ও অবকাঠামো উন্নতিকরণ (সেক্টর) প্রকল্পের নীলফামারী পৌরসভা নগর সমন্বয় কমিটির সদস্যদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন। মতবিনিময়কালে পৌরসভার প্রতিটি ওয়ার্ডের সদস্যরা নীলফামারী পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডের উন্নয়ন ও বস্তি উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরেন । পাশাপাশি পৌর এলাকায় চিত্তবিনোদনের জন্য দ্রুত একটি শিশু পার্ক স্থাপনের দাবি করে।জানা যায় শিশু পার্ক স্থাপনে ১০ একর জমির প্রয়োজন। কিন্তু জমির ব্যবস্থা না থাকায় শিশুপার্কটি স্থাপন করা সম্ভব হচ্ছেনা। সদস্যরা অচিরেই ভুমি অধিগ্রহনের মাধ্যমে শিশু পার্ক স্থাপনের বিষয়টি গুরুত্বরোপ করে। একসময় নীলফামারী পৌরসভা প্রতিষ্ঠিত হয় ১৯৭২ সালে “গ” শ্রেণী হিসেবে। “গ” শ্রেনীর পৌরসভা থেকে “খ” শ্রেনীর পৌরসভার মর্যাদা লাভ করে ১৯৯৬ সালে। ২৩ মার্চ ২০০৮ সালে “ক” শ্রেনীর পৌরসভার মর্যাদা লাভ করে। একটানা তিনবারের চেয়ারম্যান ও তিন মেয়াদের মেয়র হিসাবে নির্বাচিত হয়ে দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন দেওয়ান কামাল আহমেদ।নীলফামারী অতি দ্রুত উন্নত থেকে উন্নততর হচ্ছে।এক সময়কার অবহেলিত এ জনপদ আজ কোন কিছু দিক দিয়েই পিছিয়ে নেই। নীলফামারী পৌরসভা 'ক' শ্রেণির মর্যাদা লাভের পর এ এলাকার উন্নয়নের গতিও বেড়েছে কয়েকগুণ।বড় বড় শহরের সাথে তাল মেলাতে নীলফামারী ও বদ্ধ পরিকর।বর্তমানে এই পৌরসভা ৯টি ওয়ার্ড থেকে ১৫টি ওয়ার্ডে উন্নত করণ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। সীমানা জটিলতায় এই বিষয় নিয়ে উচ্চ আদালতে মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। মামলাটির নিস্পক্তি হলে পৌরসভার পরিধি আরো বৃদ্ধি পাবে। মেয়র দেওয়ান কামাল আহমেদ জানান নীলফামারী পৌরসভায় প্রায় ৬৯ কোটি ১৭ লাখ টাকার প্রকল্প বাস্তবায়নের উন্নয়ন কাজের মধ্যে সুপার মার্কেট নির্মান সহ সমাপ্ত হয়েছে ৩৬ কোটি ৭৯ লাখ টাকার কাজ। বাকী ৩২ কোটি ৩৮ লাখ টাকার কাজ এগিয়ে চলছে।এতে পৌরসভাটি ঢেলে সাজানো সম্ভব হবে। তবে সম্প্রতিকালের ভয়াবহ বন্যায় ৩০ হাজার ৬০০ মিটার সড়ক ও কালভার্ট কাজের ১২ কোটি ৭ লাখ টাকার মতো ক্ষতি হয়েছে।এই ক্ষতি পুষিয়ে নিতে নতুনভাবে সড়ক ও ব্রীজ কালর্ভাট নির্মান ও সংস্কার করা হবে। তিনি আরো জানান চৌরঙ্গী হতে পাঁচ মাথা মোড় পর্যন্ত সড়কের ফুটপাতে টাইলস স্থাপনের কাজ এগিয়ে চলছে। শহরজুড়ে ষ্টিলের ডাষ্টবিন স্থাপন করা হয়েছে। উন্নত ড্রেনেজ ব্যবস্থা করা হয়েছে। সড়কগুলো পাকা ও নতুন ভাবে তৈরী করা হয়।তিনি শহরে শিশু পার্ক স্থাপনের বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে বলেন জমি অধিগ্রহনের জটিলতায় শিশুপার্ক নির্মান করা সম্ভব হচ্ছেনা। সরকারীভাবে জমি অধিগ্রহনে সহয়তা পেলে শিশু পার্কটি স্থাপনে বড় সহায়ক হবে। নীলফামারী পৌরসভার স্থায়ী বাসিন্দা নীলফামারী সরকারী কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ লেঃ কর্ণেল(অবঃ) প্রভেসর মোঃ মোশারফ হোসেন বলেন, নীলফামারী জেলা শহর এখন অনেক উন্নত। রাজধানীসহ অন্যান্য সিটি কর্পোরেশনের সাথে পাল্লা দিয়ে এগিয়ে চলছে আমাদের প্রিয় শহর নীলফামারী। উন্নয়নে বদলে যাচ্ছে নীলফামারী পৌরসভা নিয়ে মন্তব্য করেছেন সাবেক চেম্বার সভাপতি ওয়াহেদ সরকার তিনি বলেন অল্প কিছুদিনের মধ্যেই আমাদের প্রিয় শহর নীলফামারীর সড়কগুলোতে সোডিয়াম বাতি জ্বলে উঠবে।


1