LatestsNews
# বহিষ্কার যেন স্থায়ী হয়: আবরারের বাবা# ফের উত্তপ্ত বুয়েট, নতুন করে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ# ‘আবরার হত্যাকে কেন্দ্র করে ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করতে চায় অশুভ শক্তি’# এজাহারভুক্ত বুয়েটের ১৯ আসামিকে সাময়িক বহিষ্কার করেছে বুয়েট কর্তৃপক্ষ।# ‘পাগলা মিজানে’র বাসা থেকে ৬ কোটি ৭৭ লাখ টাকার চেক উদ্ধার# আবরার হত্যায় কারো সংশ্লিষ্টতা থাকলেই গ্রেফতার# বুয়েটে প্রশাসন সতর্ক থাকলে আবরার হত্যা হতো না : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী# আবরার হত্যা: অমিত-তোহা ৫ দিনের রিমান্ডে# বুয়েটে সব ধরনের রাজনীতি নিষিদ্ধ: উপাচার্য# আবরার হত্যার প্রতিবাদে বিএনপির কর্মসূচি# স্কুলছাত্রী রিশা হত্যায় ওবায়দুলের মৃত্যুদণ্ড# আমি তো অন্যায় করিনি, পদত্যাগ করবো কেন : বুয়েট ভিসি# আবরার হত্যা মামলা দ্রুত নিষ্পত্তি করা হবে : আইনমন্ত্রী# আবরারকে হত্যার কথা স্বীকার করলেন সকাল# আবরারের হত্যাকারীরা উপযুক্ত শাস্তি পাবে: আইনমন্ত্রী# বুয়েটে ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধ চান আনিসুল হক# সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, অপরাধীদের শাস্তি পেতেই হবে। # আবরার হত্যাকে পুঁজি করে সাম্প্রদায়িক রাজনীতি হচ্ছে: শিক্ষা উপমন্ত্রী# সময়মত চিকিৎসা পেলে বেঁচে যেত আবরার !# গ্রামের বাড়িতে নেয়া হয়েছে আবরারের মরদেহ, পারিবারিক কবরস্থানে দাফন আজ
আজ মঙ্গলবার| ১৫ অক্টোবর ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

খিলামু কি, বেঁচলে টেকা পামু



কারিমুল হাসান লিখন, ধুনটঃ বগুড়ার ধুনটে গো খাদ্য হিসেবে খড়ের দাম বৃদ্ধি হওয়ায় খাদ্য সংকটে পড়েছে উপজেলার গ্রাম গঞ্জের সাধারন মানুষ। গরুর খাদ্য চাহিদা মেটানোর জন্য ধান খড়ের দাম ১৬০০ টাকা মন হওয়ায়, ঘাসের দামও বৃদ্ধি পেয়েছে। পাওয়া যাচ্ছেনা ধানের গুড়াও। বন্যা ও সম্প্রতি প্রাকৃতিক দূর্যোগে টানা ১৫দিন বৃষ্টির পর আমন ধানেরও ব্যপক ক্ষতি হয়েছে। উপজেলার অনেক জমি থেকে আমন ধান তো দুরের কথা গরুর খাদ্য হিসেবে ধান খড়ও তেমন একটা ঘরে উঠবেনা বলে মনে করছেন অনেক চাষি। তবুও থেমে নেই ধান চাষের পরিচর্যা। প্রাকৃতিক দূর্যোগের পর ব্যাপক ভাবে গো খাদ্য সংকট হওয়ায় উপজেলার অনেকেই গৃহপালিত পশু কম মুল্যে বিক্রি করতে বাধ্য হচ্ছে। উপজেলার হাঁসখালী সোনামুয়া হাটে খলিলুর রহমান নামের এক গরু বিক্রেতা জানান, গরুক খিলামু কি, খ্যারের দাম বেশি, চাউলের দামও বেশি। গরুক কষ্ট না দিয়্যা হাটত বেঁচলে তাও আমাগেরে ঘরে চাউল কিনার টেকা পামু, ভাতও পামু। বানে ধান খায়্যা গ্যাচে, যেকনা আচিলো তাও বিষ্টিত নষ্ট হচে। হাটত গরুর কম দাম হলেও বেচাই লাগবি, খ্যারের ওবাবে অবলা পশুক কষ্ট দিব্যার পামুনা। গরু বিক্রেতা ভুট্টা প্রামানিক বলেন, যে গরু ১ মাস আগে ৩৫ হাজার টাকা দাম ছিলো, সেই গরু বর্তমান বাজারে ২০-২৫ হাজার টাকার মধ্যে। এক মাসের ব্যবধানে ১০-১২ হাজার টাকা লোকসান গুনছে অনেকেই। ভারাক্রান্ত মনে এমনটাই মন্তব্য করেন গরু বিক্রেতা খলিলুর রহমান। গরুর হাট ঘুরে খলিলের মত আরও লোকের দেখা মিলেছে যারা শুধু গো খাদ্য সংকটের কারনে গরু বিক্রি করতে বাধ্য হচ্ছে। কমদামে গরু বিক্রি করে বেশি দামে চাউল ক্রয় করে সংসার চালানোর ব্যাবস্থাও করছে অনেকেই। 


1