LatestsNews
# গুলশান-১ এর ডিএনসিসি মার্কেটে মেয়াদোত্তীর্ণ শিশু খাদ্য # এডিসের লার্ভা ধ্বংসে বাড়ি বাড়ি অভিযানে নগরবাসীর অসহযোগিতার অভিযোগ# চামড়া নিয়ে টানাপোড়েন থামছেই না - নিয়মিত ক্রেতাদের তৎপরতা দেখা যায়নি। # কাশ্মীর ইস্যুতে মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে বিবৃতি প্রকাশ# দাবি-দাওয়া মানলেই মিয়ানমারে ফিরবে রোহিঙ্গারা# ম্যাজিস্ট্রেট ও পুলিশ কর্মকর্তাদের সঙ্গে বিচারকের কক্ষে বিরিয়ানি খান রাজসাক্ষী জজ মিয়া# গাইবান্ধার ঝিনুকের তৈরী চুন উৎপাদনকারি যুগি পরিবারগুলো এখন বিপাকে# শিক্ষা নীতিমালা অনুমোদন করায় মোবারক হোসেন প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়ের অভিনন্দন# এডিস মশার দীর্ঘমেয়াদি সমাধানের জন্য বাংলাদেশ সফরে আসছেন উচ্চ পর্যায়ের বিদেশি বিশেষজ্ঞ প্রতিনিধিদল। # শেখ হাসিনাকে ভারত সফরের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। # মেঘনা নদীর ভাঙন গাফিলতি করা সেই প্রকৌশলীকে কী শাস্তি দেওয়া হয়েছে? : প্রধানমন্ত্রী# সংসদ সদস্য না হয়েও বিলাসবহুল গাড়িতে শুল্কমুক্ত সুবিধা পেলেন মুহিত# দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) দুর্নীতির বস্তাভর্তি টাকাসহ হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা গ্রেপ্তার# নায়াখালীতে সিএনজিচালিত ও ব্যাটারিচালিত অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে নারী-শিশুসহ আহত ১২# পচা মাছ মজুদ ও বিক্রির দায়ে স্বপ্ন এক্সপ্রেস সুপার শপকে জরিমানা# ভারতীয় দলের ওপর হামলার শঙ্কা, পিসিবিকে মেইল# ২০২৩ সালের মধ্যে দেশের ৬৬ হাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দুপুরের খাবার পাবে প্রাথমিকের শিক্ষার্থীরা# মিন্নির জামিন শুনানি, যা বললেন হাইকোর্ট# ভারতের বহুল আলোচিত ইসলামিক বক্তা ডা. জাকির নায়েক এবার মালয়েশিয়ায় নিষেধাজ্ঞার মুখে# নেত্রীকে মুক্ত করতে ব্যর্থ বিএনপি এখন বিদেশিদের কাছে ধরনা দিচ্ছে মন্তব্য : ওবায়দুল কাদের।
আজ শনিবার| ২৪ আগস্ট ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

মুন্সীগঞ্জে নববধুর হত্যা না আত্মহত্যা! স্বামী আটক



মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধিঃ
মুন্সীগঞ্জ বাগবাড়ীর মাদবরবাড়ীর নববধুর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নববধুর নাম হ্যাপী (১৮), স্বামী পারভেজ (২৭) পিতা মৃত্যু আব্দুল মতিন মাদবর। ৭ মাস পূর্বে কলেজ পড়ুয়া মেয়েকে বিবাহ দেয় সুতার মিলের শ্রমিক পারভেজের সাথে। মেয়ের বাবার বাড়ী সৈয়দপুর। মঙ্গলবার বাবার বাড়ী থেকে এসে রান্না করার জন্য তরিতরকারি তৈরী করা হাড়ি দেখা যাচ্ছে ঘরে। অপরদিকে হ্যাপীর শরীরের পুরোটা খাটের উপর হাটু দিয়ে ভর করে রাখা। ডান পাটা পাকার উপর দাঁড়িয়ে থাকার মতোই লাশটা। গলায়যে ওড়নাটা পেঁচানো রয়েছে তাও মাথার উপর। ছবি দেখে কোনভাবে আত্মহত্যা বলা যাবে না। বিষয়টি এখন হত্যা না আত্মহত্যা! পুলিশ মঙ্গলবার রাত ৯টারদিকে হ্যাপীর স্বামীর বাড়ি বাগবাড়ী মাদবরবাড়ী দোতলা বিল্ডিংয়ের নিজ কক্ষ থেকে লাশ উদ্ধার করে। এ সময় আশ পাশে হাজারের উপরে নারী পুরুষ লাশদেখার জন্য ভিড় জমিয়েছে। পরবর্তীতে মেয়ের বাবার বাড়ীর আত্মীয় স্বজন আসে। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশকে খবর দিয়ে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে রাখা হয়েছে।পারভেজের খালাতো ভাই সেলিম যিনি পুলিশের উপস্থিতিতে দরজা লাথি দিয়ে ভাঙ্গার চেষ্টা করেন। পরবর্তীতে সাবল দিয়ে সে চাপ দিয়ে দরজা খুলে ফেলে।  দরজা খুলে লাশ দেখার পরে মেয়ের আত্মীয় স্বজনের আহাজারিতে বাগবাড়ীর আকাশ বাতাশ ভারী হয়ে উঠে।পারভেজের খালাত ভাই যিনি মোক্তারপুর ফাঁড়ির স্টাফ পরিচয়দানকারী সেলিম জানান, মেয়েটা আত্মহত্যাই করেছে। মেয়েটা আমার বাড়ী থেকে তরিতরকারি নিয়েআসছে। তার কাছে তরিতরকারি কাটা রান্নার জন্য প্রস্তুত করা বিষয়ে জানতেচাইলে তিনি বলেন, আপনারা ও পুলিশ দেখছেন না মেয়েটা আত্মহত্যা করেছে।ছবিতে দেখা যায়, প্রথমত যেখানে হ্যাপী আত্মহত্যা করেছে সেখানে সিলিং ফ্যানের সাথে ওড়না বাঁধার জন্য কোন চেয়ার বা দাঁড়িয়ে বাধার জন্য কোন কিছু পাওয়া যায়নি। ফ্যানের সাথে কিভাবে সে ওড়না বাঁধলো এটা ভাবনার বিষয়ে। দ্বিতীয়ত: হ্যাপীর একটি পা খাটের উপর হাটুতে ভর করে আছে। তৃতীয়ত: হ্যাপীর ডান পা পাকার মধ্যে দাঁড়িয়ে থাকার মতো। চতুর্থত: তরকারী রান্নার জন্য তৈরী করে রাখা হাড়িসহ তরকারি। পঞ্চমত গলায় ফাঁস লাগানোর মতো ওড়ঁনা আটকানো না। ষষ্ঠত: তার জিহবা বের হয়নি। সপ্তমত: মলত্যাগের কোন ঘটনা পাওয়া যায়নি।অপরদিকে স্থানীয় মেম্বার গোলাম মাওলা বলেন, হ্যাপীর আত্মহত্যার বিষয়ে আমি কোন মন্তব্য করবো না।উপস্থিত হাজার হাজার নারী পুরুষের মাঝে বলতে শোনা গেছে মেয়েটি কলেজে পড়তে চেয়েছে কিন্তু স্বামী পারভেজ কলেজে পড়াতে নারাজ। তাদের আরো বলতে শোনা গেছে এভাবে আত্মহত্যা করতে পারে না। সামনের দরজা দিয়ে কোন কারিশমা করে হয়ে থাকতে পারে। এক কথায় বিষয়টি হত্যা না আত্ম হত্যা কোন হিসাব মিলাতে পারছেন না উপস্থিত এলাকাবাসী।এ বিষয়ে সদর থানার অফিসার ইনচার্জ আলমগীর হোসেন জানান, জিজ্ঞাসাবাদের জন্য স্বামী পরভেজকে আটক করা হয়েছে। বাকী ময়না তদন্ত শেষে বলা যাবে।


1