LatestsNews
# ভবিষ্যতে দেশের সব নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহার করা হবে বলে জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নুরুল হুদা।# দক্ষিণ আফ্রিকাকে জিততে দিলেন না উইলিয়ামসন# খুলনার শিরোমণি বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতালের ডাক্তার-ষ্টাফদের দুই দফা দাবীতে অবস্থান ধর্মঘট পালিত# নড়াইলে শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার প্রতিবাদে লোহাগড়ায় মানববন্ধন# নওগাঁয় ২ লাখ ৩২ হাজার জাল টাকা উদ্ধার, গ্রেফতার-১# দিনাজপুর বিরলে দেওয়ানজীদিঘী পুকুরে পোনা মাছ অবমুক্তকরণ # শার্শায় অস্ত্র-গুলিসহ আটক ১ # গাজীপুর শ্রীপুরে পল্লী বিদ্যুতের প্রিপেইড মিটার বন্ধের দাবীতে মানববন্ধন# নোয়াখালীতে ভুয়া চিকিৎসককে আদালতের নির্দেশে কারাগারে প্রেরণ# জমি সংক্রান্ত পূর্ব শত্রুতার জের ধরে প্রতিপক্ষের বাড়ি ভাংচুর সহ গাছকর্তন # বেনাপোলে সড়ক দুর্ঘটনায় ট্রান্সপোর্ট ব্যবসায়ী নিহত# এবছর শিক্ষা খাতে বাজেটের আকার বাড়লেও তা শতাংশে কমেছে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।# পায়রা তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে বাংলাদেশি ও চীনা শ্রমিকদের মধ্যে সংঘর্ষে ৮ চীনা শ্রমিক আহত হয়েছেন।# দেশে ফলের উৎপাদন বাড়াতে প্রতিনিয়ত চলছে নানা গবেষণা- কৃষকদের উৎসাহিত করতে যত আয়োজন# মোবাইল ফোনে বাংলায় এসএমএস (মেসেজ) পাঠালে খরচ অর্ধেক ছাড় দেয়া হবে।# বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য হলেন সেলিমা ও টুকু# মানুষের খাদ্য তালিকার প্রাণীর এসব খাবার এ যেন মানুষ মারার কারখানা# রাজধানীর বায়তুল মোকাররম মার্কেটে আগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে।# আমিরাতে প্রথম বাংলাদেশির গোল্ডেন ভিসা অর্জন# 'মোবাইল রিচার্জে শুল্ক বাড়ানোয় ক্ষতিগ্রস্ত হবে ডিজিটাল বাংলাদেশের অগ্রযাত্রা'
আজ বৃহস্পতিবার| ২০ জুন ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

মুন্সীগঞ্জে নববধুর হত্যা না আত্মহত্যা! স্বামী আটক



মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধিঃ
মুন্সীগঞ্জ বাগবাড়ীর মাদবরবাড়ীর নববধুর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নববধুর নাম হ্যাপী (১৮), স্বামী পারভেজ (২৭) পিতা মৃত্যু আব্দুল মতিন মাদবর। ৭ মাস পূর্বে কলেজ পড়ুয়া মেয়েকে বিবাহ দেয় সুতার মিলের শ্রমিক পারভেজের সাথে। মেয়ের বাবার বাড়ী সৈয়দপুর। মঙ্গলবার বাবার বাড়ী থেকে এসে রান্না করার জন্য তরিতরকারি তৈরী করা হাড়ি দেখা যাচ্ছে ঘরে। অপরদিকে হ্যাপীর শরীরের পুরোটা খাটের উপর হাটু দিয়ে ভর করে রাখা। ডান পাটা পাকার উপর দাঁড়িয়ে থাকার মতোই লাশটা। গলায়যে ওড়নাটা পেঁচানো রয়েছে তাও মাথার উপর। ছবি দেখে কোনভাবে আত্মহত্যা বলা যাবে না। বিষয়টি এখন হত্যা না আত্মহত্যা! পুলিশ মঙ্গলবার রাত ৯টারদিকে হ্যাপীর স্বামীর বাড়ি বাগবাড়ী মাদবরবাড়ী দোতলা বিল্ডিংয়ের নিজ কক্ষ থেকে লাশ উদ্ধার করে। এ সময় আশ পাশে হাজারের উপরে নারী পুরুষ লাশদেখার জন্য ভিড় জমিয়েছে। পরবর্তীতে মেয়ের বাবার বাড়ীর আত্মীয় স্বজন আসে। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশকে খবর দিয়ে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে রাখা হয়েছে।পারভেজের খালাতো ভাই সেলিম যিনি পুলিশের উপস্থিতিতে দরজা লাথি দিয়ে ভাঙ্গার চেষ্টা করেন। পরবর্তীতে সাবল দিয়ে সে চাপ দিয়ে দরজা খুলে ফেলে।  দরজা খুলে লাশ দেখার পরে মেয়ের আত্মীয় স্বজনের আহাজারিতে বাগবাড়ীর আকাশ বাতাশ ভারী হয়ে উঠে।পারভেজের খালাত ভাই যিনি মোক্তারপুর ফাঁড়ির স্টাফ পরিচয়দানকারী সেলিম জানান, মেয়েটা আত্মহত্যাই করেছে। মেয়েটা আমার বাড়ী থেকে তরিতরকারি নিয়েআসছে। তার কাছে তরিতরকারি কাটা রান্নার জন্য প্রস্তুত করা বিষয়ে জানতেচাইলে তিনি বলেন, আপনারা ও পুলিশ দেখছেন না মেয়েটা আত্মহত্যা করেছে।ছবিতে দেখা যায়, প্রথমত যেখানে হ্যাপী আত্মহত্যা করেছে সেখানে সিলিং ফ্যানের সাথে ওড়না বাঁধার জন্য কোন চেয়ার বা দাঁড়িয়ে বাধার জন্য কোন কিছু পাওয়া যায়নি। ফ্যানের সাথে কিভাবে সে ওড়না বাঁধলো এটা ভাবনার বিষয়ে। দ্বিতীয়ত: হ্যাপীর একটি পা খাটের উপর হাটুতে ভর করে আছে। তৃতীয়ত: হ্যাপীর ডান পা পাকার মধ্যে দাঁড়িয়ে থাকার মতো। চতুর্থত: তরকারী রান্নার জন্য তৈরী করে রাখা হাড়িসহ তরকারি। পঞ্চমত গলায় ফাঁস লাগানোর মতো ওড়ঁনা আটকানো না। ষষ্ঠত: তার জিহবা বের হয়নি। সপ্তমত: মলত্যাগের কোন ঘটনা পাওয়া যায়নি।অপরদিকে স্থানীয় মেম্বার গোলাম মাওলা বলেন, হ্যাপীর আত্মহত্যার বিষয়ে আমি কোন মন্তব্য করবো না।উপস্থিত হাজার হাজার নারী পুরুষের মাঝে বলতে শোনা গেছে মেয়েটি কলেজে পড়তে চেয়েছে কিন্তু স্বামী পারভেজ কলেজে পড়াতে নারাজ। তাদের আরো বলতে শোনা গেছে এভাবে আত্মহত্যা করতে পারে না। সামনের দরজা দিয়ে কোন কারিশমা করে হয়ে থাকতে পারে। এক কথায় বিষয়টি হত্যা না আত্ম হত্যা কোন হিসাব মিলাতে পারছেন না উপস্থিত এলাকাবাসী।এ বিষয়ে সদর থানার অফিসার ইনচার্জ আলমগীর হোসেন জানান, জিজ্ঞাসাবাদের জন্য স্বামী পরভেজকে আটক করা হয়েছে। বাকী ময়না তদন্ত শেষে বলা যাবে।


1