LatestsNews
# আমিরাতে প্রথম বাংলাদেশির গোল্ডেন ভিসা অর্জন# 'মোবাইল রিচার্জে শুল্ক বাড়ানোয় ক্ষতিগ্রস্ত হবে ডিজিটাল বাংলাদেশের অগ্রযাত্রা'# কামারখন্দ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী শহিদুল্লাহ সবুজ নির্বাচিত# লাকসামে স্কুলছাত্রী ধর্ষনের শিকার, ধর্ষনকারী গ্রেপ্তার# দেশে সুষ্ঠু নির্বাচন হওয়া কঠিন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম।# রাজধানীতে বিশৃঙ্খলভাবে দেয়াল লিখন ও গাছে বিজ্ঞাপন লাগালে কঠোর ব্যবস্থা'# পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের শেষ বা পঞ্চম ধাপের ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে এখন চলছে গণনা।# খালেদা জিয়ার মুক্তির বিষয়টি নির্ভর করছে আদালতের ওপর।# রাজধানীর কল্যাণপুরের রাজিয়া পেট্রোল পাম্পে আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে।# সালথায় জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহে বিভিন্ন স্কুল কলেজের ছাত্র শিক্ষকদের মাঝে পুরস্কার বিতরন# ঝিনাইদহে মসজিদের মোয়াজ্জিনকে কুপিয়ে ও গলাকেটে হত্যা !# অবশেষে বড় অংকের অর্থের বিনিময়ে মিশরের ইজিপ্ট এয়ার থেকে লিজ নেয়া নষ্ট দুটি উড়োজাহাজ ফেরত দেয়া হচ্ছে।# শুধু সেমির আশা বাঁচিয়ে রাখার জন্যই নয়, দলের আত্মবিশ্বাস ফিরে পাওয়ার জন্য জয়ই দরকার ছিল# রাজশাহীতে জমে উঠেছে হরেক রকম আমের বেচাকেনা।# রোহিঙ্গা সংকট মোকাবিলায় ব্যর্থ বলে দায় স্বীকার করেছে জাতিসংঘ।# ২৩ উপজেলায় ভোটগ্রহণ চলছে# নোয়াখালী সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রথমবারের মতো ইভিএম পদ্ধতীতে ভোট গ্রহণ # নোয়াখালীর হাতিয়ায় অস্ত্র ও গুলিসহ শীর্ষ জলদস্যু ফরিদ কমান্ডারকে গ্রেপ্তার করেছে কোস্টগার্ড# বেনাপোলে হুন্ডি করে অর্থ পাচারের অভিযোগে ৩ পুলিশ ক্লোজড # নড়াইলে শিক্ষার্থীদের গুলি করে হত্যার হুমকিতে ৪ জনের নামে মামলা দায়ের
আজ বুধবার| ১৯ জুন ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

যশোর আদালতে ছেলের সন্ধানে পুলিশের বিরুদ্ধে মায়ের গুমের মামলা দায়ের



মীর ফারুক শার্শা (যশোর) প্রতিনিধিঃ যশোর জেলার কোতয়ালী থানার ৭ কর্মকর্তা সহ ১৬ পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে গুমের মামলা দায়ের করেছেন এক সন্তান হারা মা। মঙ্গলবার যশোরের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ শাহিনুর রহমানের আদালতে মামলাটি দায়ের হয়। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে যশোরের পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেষ্টিগেশন (পিবিআই) কে তদন্ত প্রতিবেদন দিতে আদেশ দিয়েছে।
গুমের মামলায় আসামীরা হলো কোতয়ালী থানার ১। এসআই মোঃ শহিদুল ইসলাম, ২। এসআই আমির হোসেন, ৩। এসআই হাসানুর রহমান, ৪। এএসআই গাজী রাজন, ৫। এএসআই সেলিম মুন্সী, ৬। এএসআই বিপ্লব হোসেন, ৭। এএসআই সেলিম আহম্মেদ, ৮। কনষ্টেবল মোঃ আরিফুজ্জামান, ৯। মোঃ রফিকুল ইসলাম, ১০। মোঃ হাবিবুর রহমান, ১১। মোঃ আবু বক্কর, ১২। মোঃ মাহমুদুর রহমান, ১৩। মোঃ রাজিবুল ইসলাম, ১৪। মোঃ টোকন হোসেন, ১৫। ড্রাইভার মোঃ রমজান আলী, ও ১৬। মোঃ মিজান শেখ
পুলিশের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরকারী অসহায় মায়ের বাড়ি যশোর সদর শংকরপুর এলাকার তহিদুল ইসলাম খোকনের স্ত্রী মোছাঃ হিরা খাতুন।
এজাহারে বাদী উল্লেখ করেছেন ৫ এপ্রিল সকাল ১০টায় তার ছেলে মোঃ সাঈদ ও তার বন্ধু শাওন পৌর পার্কে বেড়াতে যায়। ঐ দিন বেলা ১২টার দিকে সাক্ষী সাব্বির রহমান ফোন করে বাদী হিরা খাতুন কে জানান তার ছেলে সাঈদ ও তার বন্ধু শাওনকে পুলিশ আটক করেছে। ঘটনাস্থলে গিয়ে তিনি দেখেন পুলিশ ঐ দুজনকে গাড়িতে তুলে নিয়ে যাচ্ছে। বাদীরা থানায় গেলে তাদের কে থানার ভিতরে ঢুকতে দেওয়া হয়নি। তাহারা সন্ধ্যা পর্যন্ত থানার বাইরে অপেক্ষা করার পর সন্ধ্যা ৭টার দিকে ১। আসামী এসআই শহিদুল ইসলাম ২। এসআই আমির হোসেন বাদী ও স্বাক্ষীকে ডেকে ছেলের জন্য ২,০০,০০০/- (দুই লক্ষ) টাকা দাবী করে। স্বাক্ষীরা বাদীকে বোঝান পুলিশকে টাকা দেওয়ার দরকার নেই। আদালতে চালান দিলে সেখান থেকে জামিন নেওয়া যাবে। কিন্তু ৭ এপ্রিল পত্রিকার খবরের মাধ্যমে বাদী হিরা খাতুন জানতে পারেন সাঈদ ও শাওন পুলিশের কাছ থেকে পালিয়েছে। বাদীর ধারণা ঘুষের টাকা না দেওয়ায় আসামীরা ক্ষিপ্ত হয়ে তার ছেলে ও বন্ধুকে হত্যা করে পুলিশ লাশ গুম করেছে। ছেলের কোন সন্ধান না পাওয়ায় বাদী হিরা ৩০ মে যশোর প্রেসক্লাবে সাংবাদিক সম্মেলন করেন বলে জানায়। তাতেও তার সন্তানের কোন সন্ধান মেলেনি।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে কোতয়ালী থানার ওসি আজমল হুদা বলেন, সাঈদ ও শাওন সন্ত্রাসী ছিল। তাদের বিরুদ্ধে থানায় অসংখ্যা মামলা আছে। পুলিশ ভাবমুর্তি ক্ষুন্ন করার জন্য সন্ত্রাসীর মা পুলিশের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দেয়। আটকের পর দুজন পুলিশের কাছ থেকে পালিয়ে গেছে এটাই সত্য। উক্ত ঘটনায় মামলাও রয়েছে। তাদেরকে ধরতে পুলিশ তৎপর রয়েছে।


1