LatestsNews
# পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অনিয়ম ,রাষ্ট্রদূত সামিনার বিরুদ্ধে অভিযোগের পাহাড়, ক্ষমতার উৎস কী?# ধর্ষণ মামলার বিচার ৬ মাসের মধ্যে শেষ করতে বিচারকদের নির্দেশ দিয়েছেন উচ্চ আদালত।# নৌ-পথে বাংলাদেশ-ভারত-ভুটান ট্রেডের নবযাত্রা# স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, গতকাল পর্যন্ত রাজধানীতে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন পাঁচ জন।# ঢামেকে প্রথমবারের মতো অ্যালোজেনিক বোনম্যারো ট্রান্সপ্ল্যান্ট# গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার ও মানুষের অধিকার রক্ষায় ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের বিকল্প নেই : মির্জা ফখরুল # সব ধরনের সমুদ্র সম্পদ অর্থনীতিতে কাজে লাগানোর পরামর্শ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা# ঝিনাইদহ থেকে চীনে রপ্তানি হচ্ছে গরুর ভুঁড়ি ও কুঁচে# হাতিয়ায় জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ পালিত# খানজাহান আলী থানা নিসচা’র মতবিনিময় সভা# বন্যা পরিস্থিতির আরও অবনতি ॥ নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত গাইবান্ধায় ট্রেন চলাচল বন্ধ ॥# মৌলভীবাজারে ক্ষতিগ্রস্থ প্রত্যেক ঘর পাকা করে দেওয়া হবে: ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী# কুড়িগ্রামে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি ব্রহ্মপূত্রের ভাঙনে রৌমারী-রাজিবপুর প্লাবিত# শিক্ষা সহায়ক স্বপ্নপূরন সংগঠনের উদ্যোগে দরিদ্র দুই শিক্ষার্থীকে সহায়তা প্রদান # শৈলকুপায় কৃকদের নিকট থেকে ধান কিনছেন ইউএনও# ঝিনাইদহ জেলা জুড়েই পোষ্ট অফিসের কর্মচারী কর্মকর্তাদের চলছে বেহালদশা# খুলনার শিরোমণি বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতাল অচলাবস্থা রোগী ও তাদের স্বজনদের চরম ভোগান্তি# ময়মনসিংহের মুক্তাগাছায় আমবোঝাই ট্রাক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সাথে ধাক্কা নিহত ২# ভারতের গুজরাটে ১৮ বছরের নিচে মোবাইল নিষিদ্ধ# একই পাঞ্জাবির দামে হেরফেরের দায়ে আড়ংয়ে আবারও পাঞ্জাবি কাণ্ড, ফের জরিমানা
আজ শুক্রবার| ১৯ জুলাই ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

বেগুন ক্ষেতে ফলন বেশ ভালো কৃষকের মুখে হাসি



শাহিনুর ইসলাম প্রান্ত,লালমনিরহাট প্রতিনিধি,

দুই দফা বন্যার পর এই প্রথম লালমনিরহাটে চাষীদের মুখ হাসি এনে দিয়েছে বেগুনের দাম। বাজারে নয়, ক্ষেতেই প্রতি মণ বেগুন বিক্রি হচ্ছে এক হাজার দুইশ’ টাকায়। ক্ষেতে ফলনও বেশ ভালো হচ্ছে। সব মিলে কৃষকরা এবার বেগুন চাষে ভীষণ খুশি। বেগুন চাষে কর্মসংস্থান বৃদ্ধি পাওয়ার পাশাপাশি জেলার মানুষের আয়ও বেড়েছে। ভাগ্যের পরিবর্তনও করে নিয়েছেন অনেকেই।

 

কিছুদিন আগেও যাদের পেটের ভাত জোটানো নিয়ে চিন্তা ছিল, তারাও এখন সচ্ছল। পাল্টে গেছে জীবন-যাত্রার মানও। জেলার হাট-বাজার গুলো ঘুরে দেখা যায়, গত সপ্তাহে প্রতি মণ বেগুন বিক্রি হয়েছে আটশ’ টাকা থেকে এক হাজার টাকায়। প্রচুর আমদানী হওয়ার পরও এক সপ্তাহে তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে এক হাজার দুইশ’ টাকায়।

 

লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলার বড় কমলাবাড়ি গ্রামে সরে জমিনে গিয়ে দেখা যায়, মাঠের পর মাঠ সবজি ক্ষেতের সমারোহ। যার মধ্যে বেগুন ও মুলা বেশি। এ বছর জেলার বাইরে চাহিদা প্রচুর থাকায় বিক্রিতে যেমন ঝামেলা নেই চাষীদের, তেমনি অনেক বেশি মুনাফাও। যেনো বেগুনের গুণে হাসি ফুটেছে চাষিদের মুখে মুখে। তাদের পাশাপাশি কাজে ব্যস্ত দিনমজুর কৃষি শ্রমিকরাও।

 

জেলার কৃষকদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, গত তিন বছর ধরে টানা বৃষ্টিতে অকালে গাছ মরে যাওয়ায় বেগুন চাষাবাদে কিছুটা লোকসান গুণতে হলেও এ বছর তা পুষিয়ে লাভবান হচ্ছেন তারা। লালমনিরহাট জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর জানায়, এ বছর ১১০ হেক্টর জমিতে আগাম জাতের বেগুনের চাষ হয়েছে। মৌসুম চলমান থাকায় রোপণ চলবে আগামী বছরের এপ্রিল পর্যন্ত।

 

গত বছর এ জেলার এক হাজার ৪৭০ হেক্টর জমিতে চাষ করে ২৬ হাজার ৪৬০ মেট্রিক টন বেগুন উৎপাদিত হয়েছে। কাচাঁমাল ব্যবসায়ীদের সাথে কথা বলে জানা যায়, তারা ক্ষেত থেকেই কিনে সারা দেশে বিক্রি করছেন। প্রতিদিন গ্রামে ঘুরে বেগুন কিনে ট্রাকে ভরে বিভিন্ন জেলায় পাঠিয়ে দিচ্ছেন।

 

বড় কমলাবাড়ি গ্রামের বেগুনচাষি মাজেদ আলী বলেন, গত বছর দেড় বিঘা জমিতে চাষ করেছিলাম। কিন্ত ঘনবৃষ্টিতে গাছ মরে যাওয়ায় লোকসান হয়েছে। এ বছর দুই বিঘা জমিতে বেগুন চাষ করেছি। ফলনও ভালো হচ্ছে। প্রতি ৫/৭ দিন পর পর বেগুন উঠছে।

 

স্থানীয় ব্যবসায়ী নাসির উদ্দিন বলেন, সারাদিন গ্রাম ঘুরে বেগুন কিনে ট্রাকে ভরে রাতে রাজধানী ঢাকার বিভিন্ন বাজারে পাঠাই। পরদিন সকালে বেগুন বিক্রি হয়ে ট্রাক চালকের মাধ্যমেই টাকা চলে আসে। কোনো ঝামেলা ছাড়াই এ বছর ব্যবসা করছি।

 

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক বিধূ ভুষণ রায় জানান, আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় বাম্পার ফলনের পাশাপাশি জেলার বাইরে প্রচুর চাহিদা ও দাম বাড়ায় বেশ লাভবান হচ্ছেন চাষিরা। গত তিন বছরের ক্ষতি এবার পুষিয়েও নিতে পারছে কৃষকরা।


1