LatestsNews
# গুলশান-১ এর ডিএনসিসি মার্কেটে মেয়াদোত্তীর্ণ শিশু খাদ্য # এডিসের লার্ভা ধ্বংসে বাড়ি বাড়ি অভিযানে নগরবাসীর অসহযোগিতার অভিযোগ# চামড়া নিয়ে টানাপোড়েন থামছেই না - নিয়মিত ক্রেতাদের তৎপরতা দেখা যায়নি। # কাশ্মীর ইস্যুতে মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে বিবৃতি প্রকাশ# দাবি-দাওয়া মানলেই মিয়ানমারে ফিরবে রোহিঙ্গারা# ম্যাজিস্ট্রেট ও পুলিশ কর্মকর্তাদের সঙ্গে বিচারকের কক্ষে বিরিয়ানি খান রাজসাক্ষী জজ মিয়া# গাইবান্ধার ঝিনুকের তৈরী চুন উৎপাদনকারি যুগি পরিবারগুলো এখন বিপাকে# শিক্ষা নীতিমালা অনুমোদন করায় মোবারক হোসেন প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়ের অভিনন্দন# এডিস মশার দীর্ঘমেয়াদি সমাধানের জন্য বাংলাদেশ সফরে আসছেন উচ্চ পর্যায়ের বিদেশি বিশেষজ্ঞ প্রতিনিধিদল। # শেখ হাসিনাকে ভারত সফরের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। # মেঘনা নদীর ভাঙন গাফিলতি করা সেই প্রকৌশলীকে কী শাস্তি দেওয়া হয়েছে? : প্রধানমন্ত্রী# সংসদ সদস্য না হয়েও বিলাসবহুল গাড়িতে শুল্কমুক্ত সুবিধা পেলেন মুহিত# দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) দুর্নীতির বস্তাভর্তি টাকাসহ হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা গ্রেপ্তার# নায়াখালীতে সিএনজিচালিত ও ব্যাটারিচালিত অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে নারী-শিশুসহ আহত ১২# পচা মাছ মজুদ ও বিক্রির দায়ে স্বপ্ন এক্সপ্রেস সুপার শপকে জরিমানা# ভারতীয় দলের ওপর হামলার শঙ্কা, পিসিবিকে মেইল# ২০২৩ সালের মধ্যে দেশের ৬৬ হাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দুপুরের খাবার পাবে প্রাথমিকের শিক্ষার্থীরা# মিন্নির জামিন শুনানি, যা বললেন হাইকোর্ট# ভারতের বহুল আলোচিত ইসলামিক বক্তা ডা. জাকির নায়েক এবার মালয়েশিয়ায় নিষেধাজ্ঞার মুখে# নেত্রীকে মুক্ত করতে ব্যর্থ বিএনপি এখন বিদেশিদের কাছে ধরনা দিচ্ছে মন্তব্য : ওবায়দুল কাদের।
আজ বৃহস্পতিবার| ২২ আগস্ট ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

গোপালগঞ্জে এসেনশিয়াল ড্রাগস লিমিটেড আগামী এপ্রিলেই উৎপাদনে যাচ্ছে



আগামী এপ্রিলেই উৎপাদনে যাচ্ছে এসেনশিয়াল ড্রাগস্ লিমিটেডের গোপালগঞ্জ প্রকল্প (তৃতীয় প্রকল্প)। প্রকল্পটি উৎপাদনে গেলে দেশের ৭শ’ ৭৮ জন ব্যক্তির কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে। ইতিমধ্যে প্রকল্পের ৮০ ভাগ কাজ সম্পন্ন হয়েছে। প্রকল্পের অভ্যন্তরে মাটি ভরাট, ভবন গুলোর সাজসজ্জা, মেশিনারি মালামাল স্থাপন ও জনবল নিয়োগ সম্পন্ন করেই উৎপাদনে যাবে প্রকল্পটি। প্রকল্পটি চালু হলে একদিকে কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে, অন্যদিকে এ প্রকল্পের উৎপাদিত উন্নত মানের ওষুধ দেশের চাহিদা মিটিয়ে বিদেশেও রফতানি করার চিন্তা ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছেন, সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাগণ।

ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার ঘোনাপাড়া নামক স্থানে ১০ একর জায়গার উপর শুরু হয় এসেনশিয়াল ড্রাগস্ লিমিটেডের গোপালগঞ্জ প্রকল্প (তৃতীয় প্রকল্প) কাজ। এ প্রকল্পে ব্যয় নির্ধারণ করা হয়েছে ৫শ’ ৯৮ কোটি টাকা। প্রকল্পটি চালু হলে একদিকে দেশের বেকার সমস্যা দূর হবে, পাশাপাশি গোপালগঞ্জবাসীর দীর্ঘ দিনের স্বপ্ন বাস্তবে রুপ নেবে। এসেনশিয়াল ড্রাগস্ লিমিটেড জরুরি কিছু ওষুধ উৎপাদন করে থাকে। তারা এ সব ওষুধ নাম মাত্র মূল্যে সরকারি বিভিন্ন হাসপাতালে সরবরাহ করে থাকে। ফলে দেশের গরিব-অস্বচ্ছল রোগীরা উপকৃত হয়। এসেনশিয়াল ড্রাগস্ লিমিটেড তাদের উৎপাদন সক্ষমতা বাড়াতে দেশের আনাচে কানাচে তাদের সেবা সম্প্রসারণ করতে কারখানা তৈরি করছে। গোপালগঞ্জে এই কারখানাটি চালু হলে সেখানে প্রায় হাজার মানুষের কর্মসংস্থান হবে। এতে ওই এলাকায় বেকারত্ব কমবে। পাশাপাশি বাড়বে মানুষের সেবা।

জানা গেছে, প্রকল্পের মোট কাজের ৮০ ভাগ ইতি মধ্যেই সম্পন্ন হয়েছে। বাংলাদেশ ফাউন্ডারি অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং ওয়ার্কস্ লি: নামের একটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের দ্বারা চলমান এ কাজ ইডিসিএল ঢাকা অফিসের ২৪ জন কর্মকর্তা সার্বক্ষণিক তদারকি করছেন। পরামর্শক প্রতিষ্ঠানেরও দুইজন কর্মকর্তা এ কাজের নিয়মিত দেখা শোনা করছেন। প্রকল্পটিতে ৪টি ইউনিট থাকবে, যার একটিতে তৈরি হবে পেনিসিলিন, অপরটিতে হরমোন ইনজেকশন ও জন্ম নিয়ন্ত্রণ বড়ি। তৃতীয়টিতে স্যালাইন ও অন্যটিতে আয়রন ট্যাবলেট। এ গুলো এ অঞ্চল ছাড়িয়ে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের ছড়িয়ে পড়বে।

প্রকল্পের উপ-প্রকল্প ব্যবস্থাপক ও সাইড ইনচার্জ মফিজুর রহমান শেখ জানান, আমিসহ ইডিসিএল এর ২৪ জন কর্মকর্তা-কর্মচারী সার্বক্ষনিক তদারকীর মাধ্যমে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের কাজ বুঝে নিচ্ছি। আমাদের পাশাপাশি পরামর্শক প্রতিষ্ঠানের দুইজন কর্মকর্তা সার্বক্ষণিক কাজের গুনগত মান পরীক্ষা-নিরীক্ষা করছেন। আশা করছি এখান কার সব কিছু কর্তৃপক্ষের সন্তোষ জনক হবে। যথাযথ নিয়মে এখানকার সব কর্মকান্ড এগিয়ে চলছে।

বিষয়টি নিয়ে কথা বললে গোপালগঞ্জ তৃতীয় প্রকল্পের প্রকল্প ব্যাবস্থাপক ইমাম হাসান জানান, আশা করছি আগামী ২০১৮ সালের এপ্রিলের মধ্যে অন্তত একটি ইউনিটে উৎপাদন কাজ আনুষ্ঠানিক ভাবে উদ্ভোধন করা হবে। পর্যায় ক্রমে বাকি তিনটি ইউনিটও উৎপাদনে যাবে। প্রকল্পের অভ্যন্তরে মাটি ভরাট, ভবন গুলোর সাজসজ্জা, বিদেশ থেকে আমদানি করা উন্নত মানের মেশিনারি মালামাল স্থাপন ও জনবল নিয়োগ সম্পন্ন করেই উৎপাদনে যাবে প্রকল্পটি।

 


1