LatestsNews
# খুলনার শিরোমণি বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতাল অচলাবস্থা রোগী ও তাদের স্বজনদের চরম ভোগান্তি# ময়মনসিংহের মুক্তাগাছায় আমবোঝাই ট্রাক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সাথে ধাক্কা নিহত ২# ভারতের গুজরাটে ১৮ বছরের নিচে মোবাইল নিষিদ্ধ# একই পাঞ্জাবির দামে হেরফেরের দায়ে আড়ংয়ে আবারও পাঞ্জাবি কাণ্ড, ফের জরিমানা# যুক্তরাষ্ট্র থেকে এক বাংলাদেশি অভিবাসন ইস্যুতে বহিষ্কার।# রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে বাংলাদেশকে গঠনমূলক সহায়তার আশ্বাস দিয়েছে চীন।# রোহিঙ্গা সংকটের জন্য মিয়ানমার সরকারই দায়ী বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত রবার্ট মিলার।# নরসিংদীতে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে ১৩ দিন লড়াই করে হার মানলেন দগ্ধ ফুলন# নোয়াখালীতে ২ জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড # ঝিনাইদহে প্রভাবশালীরা ঘের ও পুকুর কেটে চলেছেন, অবৈধ পুকুর খননে কৃষকরা হচ্ছে ক্ষতিগ্রস্ত# লোহাগড়ায় ৫’শ পিস ইয়াবাসহ মাদক কারবারী আটক# বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতালের প্রশাসনিক কর্মকর্তা মাহমুদুলকে যোগদানে দিনভর উত্তেজনা # শিরোমনি উত্তরপাড়ায় খেলতে গিয়ে পুকুরে ডুবে দুই শিশুর মর্মান্তিক মৃত্যুঃ এলাকায় শোকের ছায়া# নোয়াখালীর চৌমুহনীতে আধিপত্য বিস্তারের জেরে প্রতিপক্ষ সন্ত্রাসীদের গুলিতে যুবকের মৃত্যু# কুড়িগ্রামে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় ৬জন গ্রেপ্তার# গাজীরহাট ইউনিয়ন পরিষদের গ্রাম আদালত সাধারণ মানুষের কাছে জনপ্রিয় # শিরোমণি স্পোর্টিং ক্লাব আয়োজিত ৮দলীয় মিনি ফুটবল টুর্ণামেন্টের উদ্বোধন# শৈলকুপায় অর্ধশত বছরেও আলোর মুখ দেখেনি স্বতন্ত্র এবতেদায়ী মাদরাসা!# কালীগঞ্জে পিতা হত্যার দায়ে পুত্রের যাবজ্জীবন কারাদন্ড# ‘আমলাতান্ত্রিক জটিলতায় শিল্প মন্ত্রণালয়ের কাজে মন্থর গতি’
আজ বুধবার| ১৭ জুলাই ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

আমেরিকা প্রবাসীর বিয়ের প্রতারণায় গৃহবধূ সর্বশান্ত মিথ্যা মৃত্যুর সংবাদ পাঠিয়ে আতগোপন, ১৫ বছর পর ফেসবুকে মিললো তার খোঁজ



নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

মোবাইলের প্রেমোজ সম্পর্কের সূত্র ধরে বাংলাদেশী বংশভুত আমেরিকা প্রবাসীর বিয়ের প্রতারণায় ঢাকার এক গৃহবধু সর্বশান্ত হয়েছে। ভাইকে দিয়ে মিথ্যা মৃত্যুর সংবাদ পাঠিয়ে অভিনব কৌশলে নিজেকে আতগোপন করেন। দীর্ঘ ১৫ বছর পর ফেসবুকে মিললো সেই প্রতারকের খোঁজ। 

 

লিখিত অভিযোগে জানা গেছে, মোবাইলের মাধ্যমে ৪ মাস প্রেমোজ সম্পর্কের সূত্র ধরে গত ২০০২ সালের আগষ্ট মাসে রাঘরির গুফতা টুটুল নামে বাংলাদেশের মুন্সিগঞ্জ জেলার এক আমেরিকা প্রবাসী বাংলাদেশে আসে। রাঘবির ওই প্রেমিকা স্কুল শিক্ষিকা অপরাজিতা দে মুক্তির পরিবারের সাথে দেখা করে তাকে বিয়ে করার প্রস্তাব দেয়। টুটুলের প্রথম স্ত্রীর সাথে ডিভোর্জসহ সে ঘরে একটি সন্তান থাকায় মুক্তির পরিবার তার সাথে বিয়ে দিতে রাজি ছিলো না। তখন সুচতুর টুটুল তার আমেরিকায় গাড়ি, বাড়ি, ব্যবসা ও অনেক অর্থের প্রাচুর্যের প্রলোভন দেখিয়ে মুক্তিকে এক প্রকার জোর করে ২৫ আগষ্ট ২০০২ সালে আমেরিকা প্রবাসী ভারজেনিয়া এলাকার এ্যালেক্স আন্দিরা এয়ারলিংটন শহরের সিবানন্দ গুফতা’র ছেলে রাঘবির গুফতা টুটুল (৬২)’র সাথে ঢাকার খিঁলগাও এলাকার সুনিল কুমার দে’র মেয়ে ও মহিলা সমিতি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক অপরাজিতা দে মুক্তি (৪৪)’র সাথে ঢাকায় ঢাকেশ^রী মন্দির ও নোটারি পাবলিক কর্মকর্তার মাধ্যমে পারিবারিক ভাবে বিয়ে হয়। বিয়ের ১৫ দিনের পর প্রবাসী স্বামী টুটুল আমেরিকায় পাড়ি জমায়। যাওয়ার আগে স্ত্রী’র পরিবারের কাছ থেকে মুক্তির জন্য আমেরিকায় পোশাকের দোকান দিয়ে দেওয়ার কথা বলে ৩ লক্ষ টাকা নিয়ে নেয়। তাছাড়া স্ত্রী মুক্তিকে তাড়াতাড়ি আমেরিকা ভিসা করে নিয়ে যাওয়ার কথা বলে মুক্তির কাছ থেকে আরো ২০ ভরি স্বর্ণ নিয়ে যায়। পরে মুক্তিকে আমেরিকা নিয়ে যাওয়ার জন্য গত ১৯ অক্টোবর ২০০২ সালে একটি পাসপোর্ট তৈরী করায়। যাওয়ার ৬ মাস পর টুটুলের বড় ভাই রাজা গুফতা মুক্তির বাসায় এসে টুটুল আমেরিকাতে রোড এ্যাকসিডেন্ট করে মারা যাওয়ার খবর দেয়। তাছাড়া টুটুলের মা পারুল গুফতা কলকাতার বেহালা থেকে তার ছেলে টুটুল মরে যাওয়ার খবর টেলিফোনের মাধ্যমে মুক্তি ও আমার পরিবারকে জানায়। এ খবরে মুক্তির মাথায় আকাশ ভেঙ্গে পড়ে। নিমিসে স্বপ্ন ভেঙ্গে নিঃস্ব হয়ে পড়েন তিনি। নিঃসঙ্গতার মধ্যে জীবনের দীর্ঘ সময় অতিবাহিত হলেও সম্প্রতি স্বামীর সম্মান ও স্মৃতি রক্ষার্থে মুক্তি খিলগাঁয়ে একটি পোশাকের দোকান দিয়ে একাকিত্ব ও মানবেতর জীবন যাপন করছে। ১৫ বছর পর গত ১০ অক্টোবর মুক্তির বান্ধবীর মাধ্যমে ফেসবুকে ধূরন্ধর ও প্রতারক টুটুলের সন্ধান পায়। টুটুলের বন্ধুর মাধ্যমে নিশ্চিত হওয়া গেছে যে সে মরে নি। শুধু প্রতারণা করার জন্য এ নাটক করেছে। হতবাক হয়ে যায় মুক্তিসহ গোটা পরিবার। তবুও মুক্তি আশায় বুক বেঁধে টুটুলের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়। মুক্তি এ রকম প্রতারক ও জীবন নষ্ঠকারী ঠকের উচিৎ শিক্ষা ও শাস্তি দাবি করেছেন।

 


1