LatestsNews
# কুড়িগ্রামে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় ৬জন গ্রেপ্তার# গাজীরহাট ইউনিয়ন পরিষদের গ্রাম আদালত সাধারণ মানুষের কাছে জনপ্রিয় # শিরোমণি স্পোর্টিং ক্লাব আয়োজিত ৮দলীয় মিনি ফুটবল টুর্ণামেন্টের উদ্বোধন# শৈলকুপায় অর্ধশত বছরেও আলোর মুখ দেখেনি স্বতন্ত্র এবতেদায়ী মাদরাসা!# কালীগঞ্জে পিতা হত্যার দায়ে পুত্রের যাবজ্জীবন কারাদন্ড# ‘আমলাতান্ত্রিক জটিলতায় শিল্প মন্ত্রণালয়ের কাজে মন্থর গতি’# রাজধানীর সদরঘাটে লঞ্চের ধাক্কায় ডিঙি নৌকা ডুবে নিখোঁজ দুই শিশুর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।# ঢাকা-উত্তরবঙ্গ রেলরুটে আন্তঃনগর রংপুর এক্সপ্রেস ট্রেনের বগি লাইনচ্যুত হয়ে সকল প্রকার ট্রেন চলাচল বন্ধ # পলিথিন থেকে জ্বালানি তেল উৎপাদন উদ্ভাবক জামালপুরের তৌহিদুল ইসলাম।# সিলিন্ডার পুনঃপরীক্ষার সনদ ছাড়া গ্যাস মিলবে না গাড়িতে# প্রতিযোগিতায় এগিয়ে রাখতে দেশীয় মোবাইল উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানগুলো প্রস্তাবিত বাজেটে বেশকিছু শুল্ক সুবিধা পাচ্ছে।# প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নতুন ভবন নির্মান বন্ধ রয়েছে গ্রামবাসীদের আবেদন জায়গা পুনঃনির্ধারন# মেহেরপুরের গাংনীতে দু’পক্ষের গোলাগুলিতে মাদক ব্যবসায়ী নিহত# ‘নারী ও কন্যা শিশুর প্রতি সংহতি’ বিষয়ে আলোচনা সভা# পায়রা কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রে দেশীয় শ্রমিকদের ক্ষোভের নেপথ্যে চীনাদের 'অকথ্য নির্যাতন'# চাঁপাইনবাবগঞ্জে মনিরুল হত্যা মামলায় ৯ জনের মৃত্যুদণ্ড# ডিআইজি মিজানের সম্পত্তি বাজেয়াপ্তের নির্দেশ# খুলনা শিরোমণি বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতালের ডাক্তার-ষ্টাফদের দুই দফা দাবীতে লাগাতর কর্মসুচি শুরু# অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টস হারল বাংলাদেশ# দিনাজপুরের হিলিতে দেশের প্রথম লৌহ খনির সন্ধান পাওয়া গেছে।
আজ মঙ্গলবার| ২৫ জুন ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

রাজশাহী-১ আসন: বিভক্তিতে ক্ষুদ্ধ তৃণমূল



নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহী- (গোদাগাড়ী-তানোর) আসনটি গত দুই সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দখলে। এবার সেটি হাত ছাড়া হওয়ার আশঙ্কা। আর নেপথ্যে রয়েছেন একই দলের সাত নেতা। বর্তমান এমপি ওমর ফারুক চৌধুরীর বিরোধীতায় নেমেছেন তারা। স্থানীয়ভাবে এই সাত নেতার জোটকেসেভেন স্টারহিসেবে আখ্যা দিয়েছেন আওয়ামী লীগ নেতারা। নিয়ে স্পষ্ট ভাঙ্গনে রূপ নিয়েছে জেলার গোদাগাড়ী তানোর উপজেলা আওয়ামী লীগ। নিয়ে ক্ষুদ্ধ দলের তৃণমূলের নেতাকর্মীরা

দলীয় এমপির বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে মাঠে নেমেছেন সাবেক অতিরিক্ত আইজিপি মতিউর রহমান, তানোর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুণ্ডুমালা পৌরসভার মেয়র গোলাম রাব্বানী, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বদরুজ্জামান রবু মিয়া, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মকবুল হোসেন, প্রচার সম্পাদক গোদাগাড়ী পৌরসভার মেয়র মনিরুল ইসলাম বাবু, গোদাগাড়ী উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আতাউর রহমান এবং জেলা কৃষক লীগের সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট আবদুল ওহাব জেমস

এই সাত নেতা যেকোনো মূল্যে এমপি ফারুক চৌধুরীকে নির্বাচনের মাঠে প্রতিহতের ঘোষণা দিয়েছেন। তাদের অভিযোগ, ফারুক চৌধুরী দলের ত্যাগী আদর্শবান নেতাকর্মীদের দূরে ঠেলে দিয়েছেন। তার কাছে এখন ভিড় করেছেনবসন্তের কোকিলরা জামায়াত-বিএনপি থেকে আওয়ামী লীগে আগতদের ভিড়ে হারিয়ে গেছেন এক সময় দলের জন্য জীবনবাজি রাখা নেতাকর্মীরা। এখন তারা মান, অভিমান আর ক্ষোভে নিজেদের গুটিয়ে নিয়েছেন। সামনে নির্বাচনে এর প্রভাব পড়বে। এমপি ফারুক চৌধুরীকে এর চড়া মূল্য দিতে হবে

এছাড়া সম্প্রতি ক্রিকেট টুর্নামেন্টেকে কেন্দ্র করে এমপি ফারুক চৌধুরী গোদাগাড়ী পৌরসভার মেয়র মনিরুল ইসলাম বাবুর সমর্থকরা একে অপরের বিরুদ্ধে অবস্থান নেন। সর্বশেষ ১৪৪ ধারা জারি করে স্থানীয় প্রশাসন পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। মূলত কাঁকনহাটে এমপি বিরোধী সাত মনোনয়ন প্রত্যাশী একাট্টা হওয়ার পর থেকে উভয়পক্ষ মুখোমুখী অবস্থানে আছে। তবে এই সাত নেতার দাবি তাদের মধ্যে যে পাবেন নৌকা তারা তাদের পক্ষেই থাকবেন

এদিকে এই সাত নেতার কর্মকাণ্ডে দলের অবস্থান খারাপ হচ্ছে বলে মনে করেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বদিউজ্জামান। তিনি বলেন, সামনে নির্বাচন। এর আগে দলের কিছু নেতার এমন অবস্থানের কারণে বিএনপি-জামায়াত সুবিধা পাবে। এখন থেকেই বিএনপি-জামায়াত সেই সুযোগ নিচ্ছে। দলের নেতা হিসেবে অনেকেই মনোনয়ন চাইতে পারেন, কিন্তু দলের কর্মসূচির বিরুদ্ধে অবস্থান নেওয়াটা ঠিক নয়। ক্ষমতাবান (এমপি) মানুষের ওপর অনেকেরই ক্ষোভ অভিমান থাকে। মানসিক চাপ সৃষ্টি করার জন্য কিছু নেতাকর্মী এমপির বিরুদ্ধে বলছেন। এমপি বিরোধী নেতাকর্মীদের সঙ্গে দূরত্ব কমানোর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে

তানোর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, দলের ভেতরে যে ঐক্য ছিল, এই সাত নেতা তা ভাঙার চেষ্টা করছেন। দলের বিরুদ্ধে তারা অবস্থান নিচ্ছেন। দলের মনোনয়ন চাইতে হলে, দলীয় শৃংঙ্খলা মেনে কর্মসূচি পালন করা উচিত। কিন্তু ওই সাত নেতা ইচ্ছামতো দলের বিরুদ্ধে কর্মসূচি দিচ্ছেন। এতে দলের তৃণমূলের নেতাকর্মীরা ক্ষুদ্ধ। ফলে আগামীতে এর প্রভাব পড়বে বলেও মনে করেন তিনি

আওয়ামী লীগ নেতা মনিরুল ইসলাম বাবুর দাবি, ২০১২ সালের সেপ্টেম্বরে আওয়ামী লীগের প্রথম দফার মেয়াদকালের শেষ পর্যায়ে শিল্প প্রতিমন্ত্রী হন ওমর ফারুক চৌধুরী। ২০১৪ সালের জানুয়ারির নির্বাচন বিএনপি বর্জন করলে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ওমর ফারুক চৌধুরী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় দ্বিতীয়বার এমপি নির্বাচিত হন। দ্বিতীয় দফা ফারুক চৌধুরী এমপি নির্বাচিত হওয়ার পর তিনি প্রবীণ নেতাকর্মীদের মূল্যায়ন না করে নতুনদের গুরুত্ব দেন। এছাড়াও বিএনপি বিভিন্ন বাম সংগঠন থেকে আসা নেতাকর্মীদের গুরুত্বপূর্ণ পদও দেন তিনি। ফলে তারা ঐক্যবব্ধভাবে ফারুক চৌধুরীর বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছেন

আর এমপি ওমর ফারুক চৌধুরী বলেন, বড় দল হিসেবে অনেকেই মনোনয়ন প্রত্যাশা করতে পারেন। কিন্তু তার একটা পদ্ধতি আছে। কেন্দ্র যাকে মনোনয়ন দেবে, তিনিই নির্বাচন করবেন। কিন্তু ওই সাত নেতা কর্মীদের বিভক্ত করছেন


1