LatestsNews
# গুলশান-১ এর ডিএনসিসি মার্কেটে মেয়াদোত্তীর্ণ শিশু খাদ্য # এডিসের লার্ভা ধ্বংসে বাড়ি বাড়ি অভিযানে নগরবাসীর অসহযোগিতার অভিযোগ# চামড়া নিয়ে টানাপোড়েন থামছেই না - নিয়মিত ক্রেতাদের তৎপরতা দেখা যায়নি। # কাশ্মীর ইস্যুতে মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে বিবৃতি প্রকাশ# দাবি-দাওয়া মানলেই মিয়ানমারে ফিরবে রোহিঙ্গারা# ম্যাজিস্ট্রেট ও পুলিশ কর্মকর্তাদের সঙ্গে বিচারকের কক্ষে বিরিয়ানি খান রাজসাক্ষী জজ মিয়া# গাইবান্ধার ঝিনুকের তৈরী চুন উৎপাদনকারি যুগি পরিবারগুলো এখন বিপাকে# শিক্ষা নীতিমালা অনুমোদন করায় মোবারক হোসেন প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়ের অভিনন্দন# এডিস মশার দীর্ঘমেয়াদি সমাধানের জন্য বাংলাদেশ সফরে আসছেন উচ্চ পর্যায়ের বিদেশি বিশেষজ্ঞ প্রতিনিধিদল। # শেখ হাসিনাকে ভারত সফরের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। # মেঘনা নদীর ভাঙন গাফিলতি করা সেই প্রকৌশলীকে কী শাস্তি দেওয়া হয়েছে? : প্রধানমন্ত্রী# সংসদ সদস্য না হয়েও বিলাসবহুল গাড়িতে শুল্কমুক্ত সুবিধা পেলেন মুহিত# দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) দুর্নীতির বস্তাভর্তি টাকাসহ হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা গ্রেপ্তার# নায়াখালীতে সিএনজিচালিত ও ব্যাটারিচালিত অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে নারী-শিশুসহ আহত ১২# পচা মাছ মজুদ ও বিক্রির দায়ে স্বপ্ন এক্সপ্রেস সুপার শপকে জরিমানা# ভারতীয় দলের ওপর হামলার শঙ্কা, পিসিবিকে মেইল# ২০২৩ সালের মধ্যে দেশের ৬৬ হাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দুপুরের খাবার পাবে প্রাথমিকের শিক্ষার্থীরা# মিন্নির জামিন শুনানি, যা বললেন হাইকোর্ট# ভারতের বহুল আলোচিত ইসলামিক বক্তা ডা. জাকির নায়েক এবার মালয়েশিয়ায় নিষেধাজ্ঞার মুখে# নেত্রীকে মুক্ত করতে ব্যর্থ বিএনপি এখন বিদেশিদের কাছে ধরনা দিচ্ছে মন্তব্য : ওবায়দুল কাদের।
আজ বৃহস্পতিবার| ২২ আগস্ট ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

তাহিরপুরে মুঘল আমলের পন্যের মূল্যে তালিকা দিয়ে টেন্ডার পেলেন দাদা এন্টারপ্রাইজ



সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি
সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি থাকা রোগীর খাবার সরবরাহের টেন্ডারের তালিকায় পণ্যের বাজার দরের সাথে আকাশ-পাতাল ফাঁড়াক। সেই প্রাচীন মুঘল আমলের শেষ সুবেদার শায়েস্তা খাঁর সময়ে পণ্যের মুল্য তালিকা দিয়ে হাসপাতালে ভর্তি থাকা রোগীদের খাবার সরবরাহের টেন্ডার সর্ব নিন্ম দর দাতা হিসাবে হাতিয়ে নিয়েছেন ঠিকাদার দাদা এন্টারপ্রাইজ। এর পেছনে আসলে রহস্য টা কি ? এরপরও বড় কথা আকাশ-পাতাল ফাঁড়াক থাকার পর কতৃপক্ষই বা কি ভাবে এমন অসম্ভব কে সম্ভব করে ঐ ঠিকাদারকেই ঠিকাদেরর দায়িত্ব দিলেন। এ নিয়ে ব্যাপক আলোচনা সমালোচনার ঝড় বইছে। এ খবর প্রকাশ হবার পর পর স্থানীয় সচেতন জনগণসহ সবাই জানতে ও দেখতে অধির আগ্রহ নিয়ে অপক্ষো করছেন কে এই বাংলার নতুন জনদরদী নতুন শায়েস্থা খাঁ ? এব্যাপারে দরপত্রে অংশ গ্রহনকারীদের মধ্যে সানি এন্টারপ্রাইজের স্বত্বাধিকারী হাবিবুর রহমান খেলু মিয়া গত ১৫জানুয়ারী তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের একাধিক সূত্রে জানাযায়,হাসপাতালে ভর্তি থাকা রোগীদের খাবার সরবহরাহের ঠিকাদার হিসাবে নিয়োগ পেতে দরপত্র জমা দেয় ৯টি প্রতিষ্টান। এর মধ্যে দরপত্র যাচাই করে ঠিকাদার হিসাবে দায়িত্ব পায় পাশ্বভর্তি বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার খাদ্য সরবরাহকারী ঠিকাদার দাদা এন্টারপ্রাইজের প্রোপাইটর নবী হোসেন। ওই প্রতিষ্টানের দরপত্রের খাবার তালিকার ২৮টি পন্যের দামের মধ্যে একটিরও বর্তমান বাজার দরের সাথে মিল নেই। মিল আছে মুঘল আমলের সাথে। পন্যের তালিকা ও মূল্য দরপত্রে যা উল্লেখ্য করা হয়েছে-তরল দুধের বাজার দর প্রতি লিটার ৮০টাকা হলেও দেওয়া হয়েছে ৫টাকা। মার্কস গুড়ো দুধ প্রতি কেজির বাজার দর ৬শত টাকা হলেও-গাভীর দুধের লিটার ৫টাকা,কিচমিচের কেজি ৫টাকা,মার্কস গুড়ো দুধ কেজি ৫টাকা,লাচ্ছি সেমাই (বনফুল) ৫টাকা,কই,মাগুড়,শিং ও টেংরা কেজি ১৪০টাকা। ১৫শত টাকা কেজি এলাচির দাম উল্লেখ করা হয়েছে ৮৫টাকা। এমনি ভাবে প্রতি কেজি কৈ,শিং,মাগুরের স্থানীয় বাজার দর কেজি প্রতি ৫শত টাকা হলেও দরপত্রে লিখা হয়েছে ১৫০টাকা। দেশী মুরগীর (পা,মাথা,গিলা,কলিজা ও নাড়ীভুড়ি ছাড়া) প্রতি কেজি মাংসের বাজার দর কমপক্ষে ৬শত টাকা হলেও ২৬০টাকা। দরপত্রে উল্লেখ করা রাধূনীর হলুদ,শুকনা মরিচ,ধনিয়াসহ বিভিন্ন মসলার দামও দেওয়া হয়েছে বাজার দরের চেয়ে অর্ধেক। খাদ্য তালিকায় উল্লেখ করা অধিকাংশ পণ্যই রোগীদের দেওয়া হয় না। রোগীরা বেশীর ভাগই বাইরের খাবার কিনে খান। এভাবেই যুগ যুগ ধরেই খাবারের এ রকম সর্ব নিন্ম মূল্য তালিকা দিয়েই ঠিকাদারী পেয়ে খাবার সরবহরাহ করে আসছেন ঠিকাদাররা। সানী এন্টারপ্রাইজের স্বত্বাধিকারী হাবিবুর রহমান খেলু মিয়া,সহ স্থানীয় এলাকাবাসী ক্ষোবের সাথে জানান,মুঘল আমলের শেষ সুবেদার শায়েস্থা খাঁর আমলে টাকায় আট মন চাল পাওয়া যেত। কিন্তু বর্তমানে এক কেজি চালের সর্ব নিন্ম দাম ৪২টাকা। তাহলে ঐ ঠিকাদার কি ভাবে এমন অবাস্তব মূল্য দিয়ে রোগীদের খাওয়াবে। এভাবে খাওয়াতে ঐঠিকাদারে বাবার জমি বেচেঁও খাওয়াতে পারবে না। আর এত কম মূল্য থাকার পরও সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষই বা কেন থাকেই নির্বাচন করলেন কোন খাতিরে। আসল ঘটনা কি। এ বিষয়ে হাসপাতালে খাবার সরবরাহের দায়িত্ব পাওয়া দাদা এন্টারপ্রাইজের ঠিকাদার নবী হোসেন এর সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্ঠা করলে খোঁজ পাওয়া যায় নি। জানা যায়,তিনি একটি মামলায় বর্তমানে কারাগারে রয়েছেন। বাজার দরের সাথে সম্পুর্ন অসামঞ্জস্য প্রতিটি পন্যের দাম স্বীকার করে তাহিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সর স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোহাম্মদ ইকবাল হোসেন বলেন,দরপত্র রেডি করে নিয়ম অনুযায়ী আমরা সুনামগঞ্জ প্রেরন করি। তারপর এগুলো সিভিল সার্জন অনুমোদন করেন। তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার পূর্নেন্দু দেব জানান,আমি এ বিষয়ে একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। অভিযোগের ভিত্তিতে বিষয়টি তর্দন্ত করা হচ্ছে। পরে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। জেলা সিভিল সার্জন আশুতোশ দাস জানান,টেন্ডরে সর্ব নি¤œ দরদাতা হিসাবে তাদের দেওয়া হয়েছে। এই দরে খাবার সরবরাহ করতে না পারলে তাদের বিরোদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আর না হয় তারা সেলেন্ডার করবে।


1