LatestsNews
# খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য নিয়ে চিকিৎসকদের অবাধ ও নিরপেক্ষ প্রতিবেদন দাখিল নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছেন বিএনপি# মুজিববর্ষের (২০২০) অনুষ্ঠানে যোগ দিতে ঢাকা আসবেন মোদি, প্রণব ও সোনিয়া# মহেশপুরের ঐতিহ্যবাহী ইছামতি নদী দখল করে মাছ চাষ # আজ যশোর মুক্ত দিবস# ইনজেকশন দেওয়ার পর প্রসূতির মৃত্যু, স্বজনদের অভিযোগ ভুল চিকিৎসা# প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা বলছে চলতি মাসেই বসছে মেট্রোরেলের লাইন# সব জল্পনার অবসান সৃজিত-মিথিলার বিয়ে সন্ধ্যায়# ভুটানকে ১০ উইকেটে হারাল বাংলাদেশ# সিদ্ধেশ্বরীতে হত্যার শিকার তরুণীর পরিচয় জানা গেছে মিলেছে ধর্ষণের পর হত্যার আলামত# গণধর্ষণের পর পশু চিকিৎসককে নির্মমভাবে পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় অভিযুক্ত চারজনই পুলিশের গুলিতে নিহত । # নোয়াখালী হাতিয়ায় অস্ত্র ও গুলিসহ গ্রেপ্তার-১# অভাবের সঙ্গে যুদ্ধ করে অবহেলিত ফাতেমা এখন স্বাবলম্বী# ঝিনাইদহে অসহায় নারীদের মাঝে সেলাই মেশিন বিতরণ # কালীগঞ্জে আন্তঃজেলা ডাকাত দলের ৮ সদস্য আটক# প্রশিক্ষণ আমাদের জ্ঞান ও কাজের দক্ষতা বাড়ায় - উপসচিব মোহাম্মদ শওকত ওসমান# নোয়াখালীতে এলজি ও দেশীয় অস্ত্রসহ ডাকাত গ্রেফতার# নোয়াখালীতে প্রথমবারের মতো খোলাবাজারে পেঁয়াজ বিক্রি করছে টিসিবি# শ্বাসরুদ্ধকর ও সংকটময় সেই ১২ ঘণ্টা# হলি আর্টিজান মামলার ৮ আসামি আদালতে# ভারতের পুশ ইনের বিষয়টি পত্রিকায় দেখেছি : পররাষ্ট্রমন্ত্রী
আজ শুক্রবার| ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

প্রশংসা রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের গুমের অভিযোগে উদ্বেগ



রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেওয়ায় বাংলাদেশের প্রশংসা করেছে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা হিউম্যান রাইটস ওয়াচ (এইচআরডাব্লিউ)। অন্যদিকে গোপনে আটক, গুম ও বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ডের মতো বিষয়গুলোতে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে।

 

সংস্থাটির ‘ওয়ার্ল্ড রিপোর্ট ২০১৮’-এ বাংলাদেশের মানবাধিকার পরিস্থিতি নিয়ে এমন মন্তব্য উঠে এসেছে।

 

২৮তম সংস্করণের এই প্রতিবেদনটি ৬৪৩ পৃষ্ঠার। যেখানে ৯০ টিরও বেশি দেশের মানবাধিকার পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করেছে সংস্থাটি।

 

বিশ্বের রাজনৈতিক পরিস্থিতি ও মানবাধিকার প্রসঙ্গে প্রতিবেদনটির  প্রারম্ভিক প্রবন্ধে সংস্থার নির্বাহী পরিচালক কেনেথ রোথ লিখেছেন, রাজনৈতিক নেতারা মানবাধিকার নীতির স্বপক্ষে থাকতে চায়। আর এতেই প্রমাণ হয় কর্তৃত্ববাদী, সস্তা জনপ্রিয়তার বিষয়গুলো সীমিত করা সম্ভব। সংহত জনগণ এবং সক্রীয় বহুপক্ষীয় ব্যক্তিদের সমন্বিত পরিবেশ এর মাঝে, এই রাজনৈতিক নেতারাই দেখান যে, মানবাধিকারবিরোধী সরকার আসলে অবধারিত নয়।

 

বাংলাদেশের বিভিন্ন বিষয়ে প্রতিবেদনে তাদের মন্তব্য: গোপনে আটক, গুম এবং বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ডের মতো গুরুতর অভিযোগের যথাযথ প্রতিক্রিয়া জানাতে ব্যর্থ বাংলাদেশ। আর আইনের এমন অপব্যবহার বারবার ঘটছে। অভিযোগগুলো বরাবরই অস্বীকার করছে কর্তৃপক্ষ।

 

গত আগস্ট থেকে জাতিগত নিধনের মুখে ৬ লাখ ৫৫ হাজারেরও বেশি রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে আসে। মিয়ানমার সেনাবাহিনীর হাতে ধর্ষণ, অগ্নিকাণ্ড, হত্যা সহ মানবতাবিরোধী অপরাধের শিকার হয় তারা। এর আগে থেকেই কয়েক লাখ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছিলো।

 

এদের মধ্যে প্রায় ৮০ হাজার রোহিঙ্গা বাংলাদেশে প্রবেশ করে ২০১৬ এর শেষ দিক থেকে ২০১৭ সালের শুরুর দিক পর্যন্ত। যদিও অধিকাংশ রোহিঙ্গাদের আনুষ্ঠানিকভাবে শরণার্থী হিসেবে স্বীকৃতি দেয়নি বাংলাদেশ, তবে দেশে প্রবেশ করতে দিয়েছে।

 

হিউম্যান রাইটস ওয়াচের এশিয়া পরিচালক ব্র্যাড অ্যাডামস বলেন, রোহিঙ্গা শরণার্থীদের জোড় করে ফিরিয়ে না দেওয়ার জন্য এবং সীমিত সম্পদ দিয়েও এখন পর্যন্ত যেভাবে তাদের নিরাপত্তা দিয়ে আসছে, তাতে বাংলাদেশ কৃতীত্বের দাবিদার।

 

“যদিও বসবাসের অযোগ্য দ্বীপে তাদের (রোহিঙ্গাদের) স্থানান্তর চিন্তা বা মূল নাগরিক অধিকার ও নিরাপত্তা ছাড়াই রোহিঙ্গাদের বার্মায় ফিরিয়ে দেওয়ার পরিকল্পনা এখনও উদ্বেগের বিষয়।”

 

স্থানীয় মানবাধিকারের কয়েকটি বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে সংস্থাটি বলেছে, দেশটির অনেককে গুমের শিকার হতে হয়েছে। বিরোধী দলীয় সমর্থক ও সন্দেহভাজন জঙ্গি-উভয়কেই টার্গেট করছে আইনশৃঙ্খলাবাহিনী।

 

বিশেষায়িত বিভিন্ন বাহিনীসহ নিরাপত্তা বাহিনীর বিরুদ্ধেও তারা কিছু অভিযোগ তুলেছে।

 

গণমাধ্যমসহ সুশীল সমাজের বিভিন্ন গ্রুপ রাষ্ট্রীয় ও অরাষ্ট্রীয় ‘এ্যাক্টর’ দ্বারা চাপের সম্মুখিন, বলে মন্তব্য করা হয়।  ফেসবুকে সরকার বা রাজনৈতিক নেতৃত্বকে সমালোচনা করে যে অনেককে গ্রেপ্তারের শিকার হতে হয়েছে, তাও উল্লেখ করা হয়।

 

প্রতিবেদনে বলা হয়, বাল্য বিবাহ বন্ধ করতে সরকারের আনুষ্ঠানিক নীতি থাকলেও এক্ষেত্রে একটি বৈপরিত্যমূলক আইন পাশ হয়েছে।২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারিতে পাশ করা সেই আইনে বিশেষ পরিস্থিতিতে ১৮ বছরের কম বয়স্ক মেয়ের বিয়ের অনুমোদন দেয়। এই ব্যতিক্রমে বিয়ের নুন্যতম বয়সকে উপেক্ষা করে।

 

লিঙ্গ ও যৌনতা ভিত্তিক বৈষম্য দূর করতেও সরকার ব্যর্থ বলে মন্তব্য করা হয় প্রতিবেদনে। এখানে উল্লেখ করা হয়, ঢাকার একটি জমায়েতে অভিযান চালিয়ে ২৮ জনকে আটক করার ঘটনা। মে মাসে র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) তাদের আটক করেছিলো।  আটককৃতদের সমকামি অভিহিত করে গণমাধ্যমের সামনে দিয়েই হাঁটিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছিলো। মাদক রাখার অভিযোগও তোলা হয়েছিলো।

 

অ্যাডামস বলেন, গত বছরগুলোতে বাংলাদেশের মানবাধিকার রেকর্ডে শুভ কিছু খুঁজে পাওয়া কষ্টকর। বিশেষ করে যখন দেশটিতে ২০১৯ সালে সাধারণ নির্বাচন হতে চলেছে, এই সময় আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এবং ভিন্নমতকে নীরব করার প্রচেষ্টাও বন্ধ করতে হবে।


1