LatestsNews
# গুলশান-১ এর ডিএনসিসি মার্কেটে মেয়াদোত্তীর্ণ শিশু খাদ্য # এডিসের লার্ভা ধ্বংসে বাড়ি বাড়ি অভিযানে নগরবাসীর অসহযোগিতার অভিযোগ# চামড়া নিয়ে টানাপোড়েন থামছেই না - নিয়মিত ক্রেতাদের তৎপরতা দেখা যায়নি। # কাশ্মীর ইস্যুতে মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে বিবৃতি প্রকাশ# দাবি-দাওয়া মানলেই মিয়ানমারে ফিরবে রোহিঙ্গারা# ম্যাজিস্ট্রেট ও পুলিশ কর্মকর্তাদের সঙ্গে বিচারকের কক্ষে বিরিয়ানি খান রাজসাক্ষী জজ মিয়া# গাইবান্ধার ঝিনুকের তৈরী চুন উৎপাদনকারি যুগি পরিবারগুলো এখন বিপাকে# শিক্ষা নীতিমালা অনুমোদন করায় মোবারক হোসেন প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়ের অভিনন্দন# এডিস মশার দীর্ঘমেয়াদি সমাধানের জন্য বাংলাদেশ সফরে আসছেন উচ্চ পর্যায়ের বিদেশি বিশেষজ্ঞ প্রতিনিধিদল। # শেখ হাসিনাকে ভারত সফরের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। # মেঘনা নদীর ভাঙন গাফিলতি করা সেই প্রকৌশলীকে কী শাস্তি দেওয়া হয়েছে? : প্রধানমন্ত্রী# সংসদ সদস্য না হয়েও বিলাসবহুল গাড়িতে শুল্কমুক্ত সুবিধা পেলেন মুহিত# দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) দুর্নীতির বস্তাভর্তি টাকাসহ হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা গ্রেপ্তার# নায়াখালীতে সিএনজিচালিত ও ব্যাটারিচালিত অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে নারী-শিশুসহ আহত ১২# পচা মাছ মজুদ ও বিক্রির দায়ে স্বপ্ন এক্সপ্রেস সুপার শপকে জরিমানা# ভারতীয় দলের ওপর হামলার শঙ্কা, পিসিবিকে মেইল# ২০২৩ সালের মধ্যে দেশের ৬৬ হাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দুপুরের খাবার পাবে প্রাথমিকের শিক্ষার্থীরা# মিন্নির জামিন শুনানি, যা বললেন হাইকোর্ট# ভারতের বহুল আলোচিত ইসলামিক বক্তা ডা. জাকির নায়েক এবার মালয়েশিয়ায় নিষেধাজ্ঞার মুখে# নেত্রীকে মুক্ত করতে ব্যর্থ বিএনপি এখন বিদেশিদের কাছে ধরনা দিচ্ছে মন্তব্য : ওবায়দুল কাদের।
আজ বৃহস্পতিবার| ২২ আগস্ট ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

ক্ষমতার দাপট দেখাবেন না, ক্ষমতা চিরদিন থাকে না -সেতু মন্ত্রী



আসাদুজ্জামান সাজু, লালমনিরহাট
বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিলবোর্ডে ছবি দিলে নেতা হওয়া যায় না। নেতা হতে হলে জনগনকে খুশি করেন। যার আচরনে জনগন খুশি হবেন, তিনিই নেতা হবেন। ত্যাগী নেতা কর্মীদের মুল্যায়ন করেন। অসুস্থ্য কর্মী ও তাদের পরিবারের খোঁজ খবর রাখেন। মনে রাখবেন ক্ষমতার দাপট দেখাবেন না। ক্ষমতা চিরদিন থাকে না।

বৃহস্পতিবার দুপুরে লালমনিরহাট জেলা পারিষদ অডিটরিয়াম মাঠে জেলা আওয়ামীলীগ আয়োজিত কর্মী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপিকে নালিশ পার্টি উল্লেখ করে আওয়ামীলীগ সাধারন সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, বেগম জিয়া ঈদের আগে আন্দোলনের ডাক দেন আর আন্দোলনকে ভ্যানিটি ব্যাগে ভড়ায়ে লন্ডনে চলে যান। কারন তারা জানে জনগন তাদের সাথে নেই। হাওয়া ভবনের লুটপাটের কথা বাংলার মানুষ ভুলে নেই। তাদের সময় দেশ রক্ত গঙ্গায় ভেসেছে। দেশের মানুষ জানে তারা (বিএনপি) ক্ষমতায় এলে আবারো দেশ রক্তগঙ্গায় পরিনত হবে। আন্দোলনে ব্যর্থ হয়ে বিএনপি এখন শিক্ষা নিয়ে রাজনীতি করার চেষ্টা করছে। দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলো অচল করে দেয়ার পায়তারা করছে বিএনপি

দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে সেতুমন্ত্রী বলেন, বাসায় বসে থেকে সদস্য সংগ্রহ অভিযান করবেন না। ঘরে ঘরে গিয়ে প্রধানমন্ত্রীর উন্নয়ন ও প্রতিশ্রুতি কথা বলে সদস্য সংগ্রহ করুন। সুযোগ পেলে শীতের অতিথি পাখিরা নৌকায় ভিড়বে, সুযোগ শেষে আবার চলে যাবে। তাই সাবধান থাকুন। চিহ্ন সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ ও সাম্প্রদায়িক অপশক্তির কেউ আওয়ামীলীগের সদস্য হতে পারবে না। ত্যাগী নেতাদের বাদ দিবেন না।

সরকারের উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরে সেতু মন্ত্রী বলেন, দেশের প্রতিটা মানুষের হাতে মোবাইল ফোন পৌছে দিয়েছে সরকার। দেশের মানুষ আজ শান্তিতে রয়েছে। মঙ্গা শব্দটি এখন জাদুঘরে রয়েছে। সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনীর মাধ্যমে বয়স্ক, বিধবা, প্রতিবন্ধি, মাতৃত্ব ও মুক্তিযোদ্ধা ভাতার ব্যবস্থা করা হয়েছে। মহিলাদের ঘরে রেখে উন্নয়ন সম্বব নয় জেনে শেখ হাসিনা সরকার মহিলাদের মর্যাদা বৃদ্ধি করেছেন। নারীরা আজ সচিব, ডিসি, এসপি হয়েছেন। তাই আগামী নির্বাচনে মহিলারাই প্রধান হাতিয়ার বলে মন্তব্য করেন তিনি।

আগামী নির্বাচনে মনোনায়ন প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, বড় বড় ছবি ছাপিয়ে প্রার্থী হয়েছেন অনেকেই। প্রতিযোগিতা থাকা ভাল। প্রার্থী হন কিন্তু সিট নষ্ট করবেন না। দলের নেত্রীর হাতে সকলের গোপন তথ্য রয়েছে। যারা জনগনের ভালবাসা পাচ্ছেন এবং জয়লাভের পথে। সব কিছু যাচাই বাচাই করে মনোনায়ন দেয়া হবে।

জেলা আয়ামীলীগের সভাপতি ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী মোতাহার হোসেন এমপি’র সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন আওয়ামীলীগের যুগ্ন সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক এমপি।

কর্মী সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক এমপি,  খালিদ মাহমুদ চৌধুরী এমপি, সমাজ কল্যান প্রতিমন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদ, লালমনিরহাট-৩ আসনের সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার আবু সাঈদ দুলাল, সংরক্ষিত নারী সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট সফুরা বেগম রুমী, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক অ্যাডভোকেট মতিয়ার রহমান, হাতীবান্ধা উপজেলা চেয়ারম্যান লিয়াকত হোসেন বাচ্চু ও হাতীবান্ধা উপজেলা আওয়ামীলীগের সম্পাদক মাহমুদুল হাসান সোহাগ।


1