LatestsNews
# গুলশান-১ এর ডিএনসিসি মার্কেটে মেয়াদোত্তীর্ণ শিশু খাদ্য # এডিসের লার্ভা ধ্বংসে বাড়ি বাড়ি অভিযানে নগরবাসীর অসহযোগিতার অভিযোগ# চামড়া নিয়ে টানাপোড়েন থামছেই না - নিয়মিত ক্রেতাদের তৎপরতা দেখা যায়নি। # কাশ্মীর ইস্যুতে মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে বিবৃতি প্রকাশ# দাবি-দাওয়া মানলেই মিয়ানমারে ফিরবে রোহিঙ্গারা# ম্যাজিস্ট্রেট ও পুলিশ কর্মকর্তাদের সঙ্গে বিচারকের কক্ষে বিরিয়ানি খান রাজসাক্ষী জজ মিয়া# গাইবান্ধার ঝিনুকের তৈরী চুন উৎপাদনকারি যুগি পরিবারগুলো এখন বিপাকে# শিক্ষা নীতিমালা অনুমোদন করায় মোবারক হোসেন প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়ের অভিনন্দন# এডিস মশার দীর্ঘমেয়াদি সমাধানের জন্য বাংলাদেশ সফরে আসছেন উচ্চ পর্যায়ের বিদেশি বিশেষজ্ঞ প্রতিনিধিদল। # শেখ হাসিনাকে ভারত সফরের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। # মেঘনা নদীর ভাঙন গাফিলতি করা সেই প্রকৌশলীকে কী শাস্তি দেওয়া হয়েছে? : প্রধানমন্ত্রী# সংসদ সদস্য না হয়েও বিলাসবহুল গাড়িতে শুল্কমুক্ত সুবিধা পেলেন মুহিত# দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) দুর্নীতির বস্তাভর্তি টাকাসহ হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা গ্রেপ্তার# নায়াখালীতে সিএনজিচালিত ও ব্যাটারিচালিত অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে নারী-শিশুসহ আহত ১২# পচা মাছ মজুদ ও বিক্রির দায়ে স্বপ্ন এক্সপ্রেস সুপার শপকে জরিমানা# ভারতীয় দলের ওপর হামলার শঙ্কা, পিসিবিকে মেইল# ২০২৩ সালের মধ্যে দেশের ৬৬ হাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দুপুরের খাবার পাবে প্রাথমিকের শিক্ষার্থীরা# মিন্নির জামিন শুনানি, যা বললেন হাইকোর্ট# ভারতের বহুল আলোচিত ইসলামিক বক্তা ডা. জাকির নায়েক এবার মালয়েশিয়ায় নিষেধাজ্ঞার মুখে# নেত্রীকে মুক্ত করতে ব্যর্থ বিএনপি এখন বিদেশিদের কাছে ধরনা দিচ্ছে মন্তব্য : ওবায়দুল কাদের।
আজ শনিবার| ২৪ আগস্ট ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

দেখার যেন কেউ নেই নিজ জন্মভূমিতে অবহেলা আর বেহাল দশা পড়ে রয়েছে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যটি



গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি : বিশ্ব বরেণ্য রাজনীতিবিদ, বাঙ্গালির হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ সন্তান, বাংলাদেশের স্বাধীনতা ও স্বাধিকারের মহান স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বরণে নির্মিত একটি ভাস্কর্য। গোপালগঞ্জ সরকারী বঙ্গবন্ধু কলেজে এটিই স্থাপিত বঙ্গবন্ধুর একমাত্র ভাস্কর্য। কিন্তু বর্তমানে যতেœর অভাবে এর বেহাল দশা অথচ সরকারী বঙ্গবন্ধু কলেজের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের সামনে অবস্থিত এই প্রতিকৃতিতেই শোক দিবসসহ বিভিন্ন দিবসে আনুষ্ঠানিক ভাবে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান সরকারী বঙ্গবন্ধু কলেজ পরিবারের সদস্যরা।
২০০৯ সালে সরকারী বঙ্গবন্ধু কলেজ ছাত্র-ছাত্রী সংসদের উদ্দ্যোগে সকল সাধারন ছাত্র-ছাত্রী ও শিক্ষক-শিক্ষিকা মন্ডলীর সম্মেলিত প্রচেষ্টায় শ্রদ্ধা ও ভালবাসায় কলেজ প্রাঙ্গণে নির্মিত হয় এই ভাস্কর্যটি। ভাস্কর্যটি ঠিক নিচেই বঙ্গবন্ধুর একটি উদ্বৃতি দিয়ে লেখা রয়েছে, “এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম” “এবারের সংগ্রাম আমাদের স্বাধীনতার সংগ্রাম” জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের এই ভাস্কর্যটি ফলক উন্মোচন করেন গোপালগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাগ্নে শেখ ফজলুল করিম সেলিম এমপি। ভাস্কর্যটি নির্মাণ ও উদ্বোধন বেশ জাকজমকপূর্ন পরিবেশে হলেও বিগত বছর গুলোতে একটি বারও ভাস্কর্যটির রক্ষণাবেক্ষণ বা মেরামত করা হয়নি। ভাস্কর্যটি পা থেকে মাথা পর্যন্ত ফাঁটলসহ মরিচা পূর্ন অবস্থায় রয়েছে। নিজ জন্মস্থানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্যটি এমন অবহেলা আর অযতেœ পড়ে রয়েছে এটা আমাদের লজ্জা পাওয়া উচিৎ বলে মনে করেন অভিজ্ঞ মহল।
এ বিষয়ে বঙ্গবন্ধু কলেজের এক শিক্ষার্থীর সাথে কথা হলে তিনি জানান, প্রতিদিনই বাইরে থেকে ঘুরতে আসা লোকেরা বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতির এই অবস্থা দেখে সরকারী বঙ্গবন্ধু কলেজ প্রশাসনের সমালোচনা করে, হাসি-ঠাট্টা করে এতে করে আমাদের লজ্জায় পড়তে হয়। তিনি অবিলম্বে এই প্রতিকৃতির সংস্কার ও সংরক্ষনের জোর দাবী জানায়।
গোপালগঞ্জ সরকারী বঙ্গবন্ধু কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ মতিয়ার রহমানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমি দায়িত্ব নেওয়ার পরে বিষয়টি নিয়ে স্থানীয় সংসদ সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম স্যারে সাথে কথা বলেছি, কিন্তু এটি সংস্কার বা প্রতিস্থাপন করতে কোন বিভাগের সাথে যোগাযোগ করতে হবে তা আমার জানা নেই। তিনি আরো বলেন, আমি অচিরেই খোজ খবর নিয়ে এর একটি ব্যবস্থা করবো।
অবিলম্বে এই প্রতিকৃতির সংস্কার করে সরকারী বঙ্গবন্ধু কলেজ প্রশাসন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি যথাযথ সম্মানের ব্যবস্থা করবে বলে আশা সাধারণ শিক্ষার্থীদেরসহ অভিজ্ঞ মহলের।


1