LatestsNews
# ধর্ষণ মামলার বিচার ৬ মাসের মধ্যে শেষ করতে বিচারকদের নির্দেশ দিয়েছেন উচ্চ আদালত।# নৌ-পথে বাংলাদেশ-ভারত-ভুটান ট্রেডের নবযাত্রা# স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, গতকাল পর্যন্ত রাজধানীতে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন পাঁচ জন।# ঢামেকে প্রথমবারের মতো অ্যালোজেনিক বোনম্যারো ট্রান্সপ্ল্যান্ট# গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার ও মানুষের অধিকার রক্ষায় ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের বিকল্প নেই : মির্জা ফখরুল # সব ধরনের সমুদ্র সম্পদ অর্থনীতিতে কাজে লাগানোর পরামর্শ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা# ঝিনাইদহ থেকে চীনে রপ্তানি হচ্ছে গরুর ভুঁড়ি ও কুঁচে# হাতিয়ায় জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ পালিত# খানজাহান আলী থানা নিসচা’র মতবিনিময় সভা# বন্যা পরিস্থিতির আরও অবনতি ॥ নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত গাইবান্ধায় ট্রেন চলাচল বন্ধ ॥# মৌলভীবাজারে ক্ষতিগ্রস্থ প্রত্যেক ঘর পাকা করে দেওয়া হবে: ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী# কুড়িগ্রামে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি ব্রহ্মপূত্রের ভাঙনে রৌমারী-রাজিবপুর প্লাবিত# শিক্ষা সহায়ক স্বপ্নপূরন সংগঠনের উদ্যোগে দরিদ্র দুই শিক্ষার্থীকে সহায়তা প্রদান # শৈলকুপায় কৃকদের নিকট থেকে ধান কিনছেন ইউএনও# ঝিনাইদহ জেলা জুড়েই পোষ্ট অফিসের কর্মচারী কর্মকর্তাদের চলছে বেহালদশা# খুলনার শিরোমণি বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতাল অচলাবস্থা রোগী ও তাদের স্বজনদের চরম ভোগান্তি# ময়মনসিংহের মুক্তাগাছায় আমবোঝাই ট্রাক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সাথে ধাক্কা নিহত ২# ভারতের গুজরাটে ১৮ বছরের নিচে মোবাইল নিষিদ্ধ# একই পাঞ্জাবির দামে হেরফেরের দায়ে আড়ংয়ে আবারও পাঞ্জাবি কাণ্ড, ফের জরিমানা# যুক্তরাষ্ট্র থেকে এক বাংলাদেশি অভিবাসন ইস্যুতে বহিষ্কার।
আজ শুক্রবার| ১৯ জুলাই ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

বদলগাছীতে স্কুল শিক্ষককে লাঞ্চিত মুক্তিযোদ্ধাদের মানববন্ধন



জয়পুরহাট প্রতিনিধিঃ নিরেন দাস।
 

নওগাঁ জেলার বদলগাছী উপজেলায় লাঞ্চিত স্কুল শিক্ষকরা মুক্তিযোদ্ধার হওয়ায়। স্কুল শিক্ষককে লাঞ্ছিত করার ঘটনাকে কেন্দ্র করে বুধবার সকাল ১০ টা ৩০ মিনিটে বদলগাছী উপজেলায় বীর মুক্তিযোদ্ধারা মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে।

 
উক্ত মানববন্ধন শেষে বদলগাছী উপজেলার কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে মুক্তিযোদ্ধারা অবস্থান করে শিক্ষক লাঞ্চিতকারীদের শাস্তির দাবীতে এক প্রতিবাদ সভাও করেছেন মুক্তিযোদ্ধারা। মুক্তিযোদ্ধাদের সন্তান লাঞ্চিত শিক্ষকরা হওয়ায় তারা তীব্র প্রতিবাদ জানান।

বদলগাছী উপজেলার সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোঃ জবির উদ্দীন এর সভাপতিত্বে, শিক্ষক লাঞ্চিত করাই মানববন্ধন কর্মসূচিতে প্রতিবাদী বক্তব্য রাখেন, বদলগাছী উপজেলার সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার, ডি.এম এনামুল হক ও মোঃ দেওয়ান আবদুুর রহিম বাবুল।
 
মুক্তিযোদ্ধারা বক্তব্যে বলেন, বদলগাছী উপজেলার কোলা ইউপির ঝাঁড়ঘড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের গত শনিবার পঞ্চম শ্রেণির ছাত্র মোঃ রিয়াদ হোসেন গত শনিবার স্কুল চলাকালীন সময়ে একটি কাগজের টুকরায় অশ্লিল কথা লিখে এক ছাত্রীর হাতে দিলে। ছাত্রীটি উক্ত অশ্লীল কথা লেখা কাগজের টুকরাটি বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক, শাহানাজ ফেরদৌস কে দিলে।
 
সহকার শিক্ষক শাহানাজ ফেরদৌস বিষয়টি সঙ্গে সঙ্গে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক, তানজিমা বানু কে অবগত করলে প্রধান শিক্ষক তিনি আবার বিষয়টি বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক মিতা রাণী কে বিষয়টি দেখার জন্য বললে। সহকারী শিক্ষক, মিতা রাণী ছাত্র রিয়াদ হোসেন কে ডেকে অশ্লিল কথা লেখার অপরাধে উপস্থিত ছাত্র-ছাত্রীদের সামনে শিক্ষা গুরু অভিভাবকের অধিকার বলে রিয়াদ কে শাসন করেন।
 
শাসনের পর ছাত্র রিয়াদ হোসেন বিদ্যালয়ে কাউকে না জানিয়ে স্কুল ত্যাগ করে বাড়িতে গিয়ে অসুস্থ হয়ে পড়ে। তৎক্ষানিক ছাত্র রিয়াদ হোসেনের অসুস্থতার খবর ছড়িয়ে পরলে রিয়াদের ঐ শাসনকারী সহকারী শিক্ষক, মিতা রাণী প্রথমে রিয়াদকে দেখতে গেলে ছাত্র রিয়াদের গ্রামের কিছু লোকজন শিক্ষক মিতা রানীর উপর চড়াও ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে এক পর্যায়ে মিতা রানী লাঞ্ছিত করে তারিয়ে দাই তারা।
 
শিক্ষক মিতা রানী ছাত্র রিয়াদের গ্রামের লোকজনের কাছে লাঞ্চিত হয়ে তিনি সেখান থেকে বিদ্যালয়ে ফিরে প্রধান শিক্ষক, তানজিনা বানু কে সকল বিষয়টি জানালে তিনি সঙ্গে সঙ্গে মিতা রাণী সহ বিদ্যালয়ের আরও অন্যান্য শিক্ষকদের সঙ্গে নিয়ে ছাত্র রিয়াদকে দেখতে তার বাড়িতে গেলে।
 
ছাত্র রিয়াদের বাড়িতে আগে থেকেই উপস্থিত ছিলেন ঝাঁড়ঘড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নির্বাচিত ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি, রফিকুল ইসলাম রয়েল, মোঃ সেলিম ও কোলা ইউপি আওয়ামীলীগ সভাপতি, মোঃ ফজলুর রহমান। তারা রিয়াদের বাড়িতে শিক্ষকদের উপস্থিত দেখা মাত্র তারা সহ গ্রামের বেশ কিছু লোকজন তাদের অশালিন কথাবার্তা বলেন এবং শারীরিক ভাবে লাঞ্ছিত করার চেষ্টাও নাকি করেন।
 
মুক্তিযোদ্ধারা বক্তব্য আরো বলেন এটা সকলেই জানেন সমাজের সকল অভিভাবকরা তাদের সন্তানদের শিক্ষার জন্যই স্কুলে পাঠিয়ে থাকেন আর সেই স্কুলে শিক্ষকরাও বাবা-মা সমতুল্য অভিভাবক অশিকার জনক নয়। এবং কোন ছাত্র বা ছাত্রী সেই স্কুলে লেখা পড়া ছেড়ে দুষ্টামি করলে তাদের শাসন করার অধিকারও রাখেন শিক্ষকরা। আর সেই অভিভাবক সমতুল্য শিক্ষকদের যদি সম্মান না করা হয় তবে ভবিষৎতে কোন ভাবেই শিক্ষিত জাতি তৈরি হবে না।
পক্ষান্তরে শিক্ষকদেরও পরম স্নেহময়ী হয়ে শিশু শিক্ষার্থীদের পাঠ দান করতে হবে। বক্তব্যে বক্তারা মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভার উল্লেখ্য মূল দিক তুলে আরো বলেন, ঝাঁড়ঘড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক, তানজিমা বানু উপজেলার কয়াভবানিপুর গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ সিরাজুল ইসলাম সোনারের মেয়ে ও অপর সহকারী শিক্ষক, মিতা রাণী বদলগাছী উপজেলার জগপাড়া গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা, শ্রী প্রল্লাদের মেয়ে এবং অপর সহকারী শিক্ষক, শরিফ ইকবাল বদলগাছী উপজেলার ভগবানপুর গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা, আহসানুল কবিরের ছেলে।
 
মুক্তিযোদ্ধা বক্তারা বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর ডাকে বাংলা আনাচেকানাচে থেকে বীর সেনা মুক্তিযোদ্ধারা বুকের তাজা রক্ত ঢেলে দিয়ে এই দেশ কে স্বাধীন করেছেন। আর এই স্বাধীন বাংলাদেশে মুক্তিযোদ্ধার সন্তানেরা লাঞ্ছিত হবে তা সহ্য করা হবে না এমন বক্তব্য শেষে। তারা প্রশাসনের কাছে উক্ত ঘটনার সঠিক তদন্ত সহ প্রতিকার দাবি করেন।
 
এবং তারা উল্লেখ্য গত শনিবার উক্ত ঘটনাটি নিয়ে স্থানীয় ভাবে সমাধান না হওয়ায় ওই দিন সন্ধ্যায় ছাত্র রিয়াদের বাবা এনামুল হক ও ওই স্কুলের প্রধান শিক্ষক তানজিমা বানু বাদী হয়ে বদলগাছী থানায় পাল্টা পাল্টি পৃথক দুটি মামলা দায়ের করেছেন। অবশেষে ঘটনার সমাধান সুষ্ঠ সুন্দর আশা ব্যক্ত করেন বীর মুক্তিযোদ্ধারা।


1