LatestsNews
# কুড়িগ্রামে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় ৬জন গ্রেপ্তার# গাজীরহাট ইউনিয়ন পরিষদের গ্রাম আদালত সাধারণ মানুষের কাছে জনপ্রিয় # শিরোমণি স্পোর্টিং ক্লাব আয়োজিত ৮দলীয় মিনি ফুটবল টুর্ণামেন্টের উদ্বোধন# শৈলকুপায় অর্ধশত বছরেও আলোর মুখ দেখেনি স্বতন্ত্র এবতেদায়ী মাদরাসা!# কালীগঞ্জে পিতা হত্যার দায়ে পুত্রের যাবজ্জীবন কারাদন্ড# ‘আমলাতান্ত্রিক জটিলতায় শিল্প মন্ত্রণালয়ের কাজে মন্থর গতি’# রাজধানীর সদরঘাটে লঞ্চের ধাক্কায় ডিঙি নৌকা ডুবে নিখোঁজ দুই শিশুর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।# ঢাকা-উত্তরবঙ্গ রেলরুটে আন্তঃনগর রংপুর এক্সপ্রেস ট্রেনের বগি লাইনচ্যুত হয়ে সকল প্রকার ট্রেন চলাচল বন্ধ # পলিথিন থেকে জ্বালানি তেল উৎপাদন উদ্ভাবক জামালপুরের তৌহিদুল ইসলাম।# সিলিন্ডার পুনঃপরীক্ষার সনদ ছাড়া গ্যাস মিলবে না গাড়িতে# প্রতিযোগিতায় এগিয়ে রাখতে দেশীয় মোবাইল উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানগুলো প্রস্তাবিত বাজেটে বেশকিছু শুল্ক সুবিধা পাচ্ছে।# প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নতুন ভবন নির্মান বন্ধ রয়েছে গ্রামবাসীদের আবেদন জায়গা পুনঃনির্ধারন# মেহেরপুরের গাংনীতে দু’পক্ষের গোলাগুলিতে মাদক ব্যবসায়ী নিহত# ‘নারী ও কন্যা শিশুর প্রতি সংহতি’ বিষয়ে আলোচনা সভা# পায়রা কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রে দেশীয় শ্রমিকদের ক্ষোভের নেপথ্যে চীনাদের 'অকথ্য নির্যাতন'# চাঁপাইনবাবগঞ্জে মনিরুল হত্যা মামলায় ৯ জনের মৃত্যুদণ্ড# ডিআইজি মিজানের সম্পত্তি বাজেয়াপ্তের নির্দেশ# খুলনা শিরোমণি বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতালের ডাক্তার-ষ্টাফদের দুই দফা দাবীতে লাগাতর কর্মসুচি শুরু# অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টস হারল বাংলাদেশ# দিনাজপুরের হিলিতে দেশের প্রথম লৌহ খনির সন্ধান পাওয়া গেছে।
আজ সোমবার| ২৪ জুন ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

যুদ্ধাপরাধী এবং খুনিরা যেন কোনদিন ক্ষমতায় আসতে না পারে সে ব্যাপারে সবাইকে সজাগ এবং ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে :প্রধানমন্ত্রী



ইতিহাস কাউকে ক্ষমা করে না উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন: যুদ্ধাপরাধী এবং খুনিরা যেন কোনদিন ক্ষমতায় আসতে না পারে সে ব্যাপারে সবাইকে সজাগ এবং ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে।

বুধবার ৭ মার্চ উপলক্ষে আয়োজিত জনসভায় সভাপতির বক্তব্যে আওয়ামী লীগ প্রধান বলেন: আপনারাই বিবেচনা করেন কাকে ভোট দেবেন। যারা এতিমের টাকা চুরি করে, আগুন দিয়ে মানুষ পোড়ায়, দেশের টকা পাচার করে, যারা স্বাধীনতা বিরোধী যুদ্ধাপরাধীদের পুনর্বাসন করে তাদের ভোট দেবেন নাকি যারা উন্নয়ন করে তাদের।

বিএনপি-জামায়াতের আমলে দেশ নরকে পরিণত হয়েছিল অভিযোগ করে করে শেখ হাসিনা বলেন: ওই সময় আমাদের হাজার হাজার নেতাকর্মীকেই শুধু হত্যা করেনি, গর্ভবতী নারী এমনকি সন্তান প্রসবের দু’দিন পরেও নারীদের ধর্ষণ করা হয়েছে। যুদ্ধাপরাধীদের পুনর্বাসন করা হয়েছে, তাদের গাড়িতে পতাকা তুলে দেওয়া হয়েছে।

বিএনপি জামায়াত জনগনের উন্নয়ন না করে কেবল নিজেদের আখের গুছিয়েছে বলে অভিযোগ করে তিনি বলেন: ২০১৪ সালের নির্বাচন বানচাল করার জন্য তারা ৩ হাজার ৩৫ জনকে মানুষকে পুড়িয়ে দিয়েছে। ৫০০ মানুষকে পুড়িয়ে হত্যা করেছে। সাড়ে তিন হাজার যানবাহন পুড়িয়ে দেশব্যাপী এক ভীতিকর অবস্থার সৃষ্টি করেছে।

এর বিপরীতে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসেই জনগণের উন্নয়নের জন্য কাজ করছে দাবি করে প্রধানমন্ত্রী বলেন: আমরা ক্ষমতায় এসেই জনগণের উন্নয়নের জন্য কাজ শুরু করি। কারণ আমাদের রাজনীতির মূলমন্ত্রই হচ্ছে জনগনের কল্যাণ।

সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকাণ্ড তুলে ধরে তিনি বলেন: ৪ কোটি ৩৫ লাখ শিক্ষার্থীদের ৩৫ কোটিরও বেশি বই বিনামূল্যে বিতরণ করা হচ্ছে, বিভিন্ন স্তরে শিক্ষাবৃত্তি দেওয়া হচ্ছে। ১ কোটি ৩০ লাখ স্কুল শিক্ষার্থীর নামে তার মায়ের মোবাইল ফোনে টাকা পাঠানো হচ্ছে। প্রায় ৩০ লাখ মায়ের মোবাইল ছিল না। আমরা তাদের মোবাইল ফোন কিনে দিয়েছি। প্রায় প্রতিটি জেলায়ই সরকারি/বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে।

তথ্য-প্রযুক্তি খাতের উন্নতির চিত্র তুলে ধরে তিনি বলেন: ইন্টারনেট গ্রাহক এখন ৮ কোটি, ১৩ কোটি মোবাইল সিম ব্যবহার করা হচ্ছে, ৪জি চালু হয়েছে। মাল্টিমিডিয়া ক্লাসরুম এবং কম্পিউটার ল্যাব সমৃদ্ধ আধুনিক ক্লাসরুম করে দেওয়া হচ্ছে। ট্রেনিং দেওয়া হচ্ছে আউটসোর্সিংয়ে। শিক্ষাগ্রহণ করো, উপার্জন করো এই নীতিতে যুবকদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে। সাড়ে ৫ হাজার পোস্ট অফিসকে ডিজিটাল করা হচ্ছে। তথ্য বাতায়ন করে দিয়েছি। এছাড়া আগামী মাসেই বঙ্গবন্ধু স্যালেলাইট উৎক্ষেপণ করা হবে।

খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জনে সাফল্যে তুলে ধরে শেখ হাসিনা বলেন: মাছ উৎপাদনে আমরা বিশ্বে ৪র্থ, সবজিতে ৩য়, চাল উৎপাদনে ৪র্থ। এভাবে বিভিন্ন ক্ষেত্রে আমরা আরও উন্নয়নের চেষ্টা করছি যাতে বাংলাদেশ কারও কাছে ভিক্ষা করে না চলে।

যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নতি তুলে ধরে তিনি বলেন, ২৬ হাজার কিমি রাস্তা করে দেওয়া হয়েছে। ৪৯ টি নতুন সেতু নির্মাণ করা হয়েছে।

৪ লাখ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণার ব্যাপারটিকে অর্থনৈতিক সক্ষমতার পরিচায়ক হিসেবে উল্লেখ করে তিনি বলেন: প্রবৃদ্ধি অর্জনে আমরা বিশ্বের সেরা পাঁচ দেশের একটি যা অব্যশই আমাদের জন্য গর্বের।

আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের উদ্দেশে তিনি বলেন: আপনারা গ্রামে গ্রামে সরকারের উন্নয়ন এবং ভবিষ্যত উন্নয়ন পরিকল্পনা তুলে ধরুন। যাতে জনগণ বুঝতে পারে।

বুধবার সকাল থেকেই সমাবেশস্থল লক্ষ্য করে হেঁটে, বাসে, ট্রাকে, খণ্ড খণ্ড মিছিল করে আসতে শুরু করে নেতাকর্মীরা। দিনটি ঘিরে সকাল থেকেই ছিল আওয়ামী লীগের নানা কর্মসূচি। যার স্রোত গিয়ে মেশে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে।

এসব মিছিলে ছিল সভা উপলক্ষে তৈরি নানা প্রতিকৃতি ও পোস্টার। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবিবাহী পোস্টার ও প্রতিকৃতি ছিল অনেকের হাতে।


1