LatestsNews
# ভিসা ছাড়াই ব্রাজিল যেতে পারবেন চার দেশের পর্যটক# এমপি হারুনের স্ত্রীর প্লট বাতিল নিয়ে সংসদে হাসির রোল# বগুড়ায় জালিয়াতি করতে ইভিএমে ভোট নিতে চায় কমিশন: রিজভী# বাজেট যথাযথভাবে প্রণয়ন ও বাস্তবায়ন হয়েছে বলেই বাংলাদেশ সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে যাচ্ছে।# ওসি মোয়াজ্জেমকে হত্যা মামলার আসামি করার আবেদন করা হবে’# খাওয়ার মসলা দিয়ে তৈরি হচ্ছে হার্টের ব্যথানাশক ক্যাপসুল!# নোয়াখালী উপজেলা নির্বাচন, ১৩১ কেন্দ্রেই হবে ইভিএম-এ ভোট, # ভারতে কারাভোগ শেষে দেশে ফিরল ৬ তরুনী# চুনারুঘাটে করাঙ্গী নদীর বাধঁ ভেঙ্গে সাত / আটটি গ্রাম প্লাবিত# যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫৫ কোটি ৭২ লাখ টাকার বাজেট ঘোষণা# বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা উন্নয়ন ও শান্তির প্রতীক মোহাম্মদ নাসিম# সোনাগাজী পুলিশের কাছে হস্তান্তর ওসি মোয়াজ্জেমকে# নিউইয়র্ক বইমেলার ‘আজীবন সম্মাননা’ পেলেন ফরিদুর রেজা সাগর# পলিথিন ডাক্তার, এইচএসসি পাসে এমবিবিএস চিকিৎসক # এজলাস থেকে হঠাৎ মাটিতে পড়ে গেলেন বিচারক, অতঃপর...# সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের বোন শ্রমিক নির্যাতনের দায়ে কাঠগড়ায়# ভয়াবহ বৈদ্যুতিক বিপর্যয়ের কারণে বিদ্যুৎহীন হয়ে পড়েছেন আর্জেন্টিনা ও উরুগুয়ের ৪ কোটি বাসিন্দা।# বাংলাদেশ পেল বিশ্ব চ্যাম্পিয়নের স্বাদ# তেল ট্যাঙ্কারে হামলা : ইরানকে জড়িয়ে মার্কিন অভিযোগ প্রত্যাখ্যান# বরিশালে প্রশ্নফাঁস চক্রের দুই সদস্য গ্রেফতার
আজ মঙ্গলবার| ১৮ জুন ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

মহান মুক্তিযুদ্ধসহ বাঙালীর ইতিহাস সংরক্ষণে আধুনিক সব ব্যবস্থাপনা রেখে তৈরি হয়েছে মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর।



মহান মুক্তিযুদ্ধসহ বাঙালীর ইতিহাস সংরক্ষণে আধুনিক সব ব্যবস্থাপনা রেখে তৈরি হয়েছে মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর। শুধু প্রদর্শনই নয়, চাইলে শত বছর পরেও যেন ভবিষ্যত প্রজন্ম মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে গবেষণা করতে পারে সেব্যবস্থাও করেছে জাদুঘরটি।

১৯৯৬ সালের ২২ মার্চ ব্যক্তিগত পর্যায়ের উদ্যোগে রাজধানীর সেগুনবাগিচার ভাড়া বাড়িতে যে মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর যাত্রা শুরু করেছিলো তা এখন আগাঁরগাওয়ে নিজস্ব সুউচ্চ ভবনে। নতুন ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০১৭ সালের ১৬ এপ্রিল মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের নয়তলা ভবনটির উদ্বোধনও করেন।

জাদুঘরটির ৩য় ও ৪র্থ তলায় রয়েছে মূল ৪টি গ্যালারি। ‘আমাদের ঐতিহ্য, আমাদের সংগ্রাম’ নামের প্রথম গ্যালারিতে রয়েছে প্রাগৈতিহাসিক কাল থেকে ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলন, ৫২ এর ভাষা আন্দোলন থেকে ৭০ এর নির্বাচন পর্যন্ত ইতিহাস সমৃদ্ধ বিভিন্ন নিদর্শন ও ছবি। এই গ্যালারিতেই রয়েছে, বঙ্গবন্ধুর পোশাক ছাড়াও জাতির জনকের ব্যবহার্য বিভিন্ন জিনিস।

একজন দর্শক সরাসরি মুক্তিযুদ্ধ পর্বে ঢুকে পড়েন দ্বিতীয় গ্যালারিতে প্রবেশের সঙ্গে সঙ্গে। শুরুতেই বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণ। এখানেই রয়েছে, বাংলাদেশের প্রথম পতাকা ও স্বাধীনতার ঘোষণা পত্র। ২৫ মার্চ কালরাতে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর নির্যাতনের চিত্রও ফুটিয়ে তোলা হয়েছে এখানে। আছে মেহেরপুরে বাংলাদেশের প্রথম সরকার গঠনের বিভিন্ন নিদর্শন। রয়েছে জাতীয় ৪ নেতার ব্যবহৃত বিভিন্ন জিনিসপত্র।

‘আমাদের যুদ্ধ, আমাদের মিত্র’ নামের ৩য় গ্যালারিতে রয়েছে, ভারতে আশ্রয় নেওয়া শরণার্থীদের জীবনযাত্রা, বিদেশী গণমাধ্যমে প্রচারিত সংবাদ মাধ্যমের ছবি, মুক্তিযোদ্ধাদের প্রশিক্ষণ, রাজাকারদের তৎপরতা, গেরিলা যুদ্ধের বিভিন্ন নিদর্শন। সাথে রয়েছে, বিদেশী বন্ধুদের বিভিন্ন উদ্যোগের ছবি।

‘আমাদের জয়, আমাদের মূল্যবোধ’ নামের শেষ গ্যালারিতে রয়েছে মুক্তিযুদ্ধে ব্যবহৃত বিভিন্ন অস্ত্র, ফরিদপুরের বাখুন্ডা সেতু ধ্বংস করতে ব্যবহৃত নৌকা, বিলোনিয়ার যুদ্ধের বিভিন্ন স্মৃতিচিহ্ন।  রয়েছে, মিত্রবাহিনীর ছত্রীসেনাদের আক্রমণ, বাংলাদেশ বিমান বাহিনী গঠন ও তাদের আক্রমণের বিভিন্ন ছবি।

মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের প্রথম তলার ছাদে টানানো রয়েছে, মুক্তিযুদ্ধে ব্যবহৃত ভারতের দেওয়া একটি হেলিকপ্টার ও একটি যুদ্ধ বিমান। এখানেই রয়েছে, সকল শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানো শিখা অম্লান।


1