LatestsNews
# গাইবান্ধা আধুনিক হাসপাতালের বেহাল অবস্থা # ভারতে নিহত মাইনুল ও তানিয়া মরদেহ দেশে আনা হয়েছে# যেভাবে চামড়ার দাম কমানো হয়েছে তা দূরভিসন্ধিমূলক:মসিউর রহমান রাঙ্গা।# বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নে রূপপুরে নির্মাণাধীন পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প দেশের দ্বিতীয় মুক্তিযুদ্ধ।# চলনবিলে পর্যটকের ঢল# চলনবিলে পর্যটকের ঢল# সৌদি আরবে বাংলাদেশি হাজিদের বহনকারী একটি বাস দুর্ঘটনায় একজন নিহত ও বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন# সৌদি আরবে বাংলাদেশি হাজিদের বহনকারী একটি বাস দুর্ঘটনায় একজন নিহত ও বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন# পশ্চিমবঙ্গের কলকাতায় মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন বাংলাদেশের দুজন নাগরিক। # জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে ‘ফ্রেন্ড অব দ্য ওয়ার্ল্ড’ বা ‘বিশ্ববন্ধু’ হিসেবে আখ্যা দেয়া হলো# ডেঙ্গু প্রতিরোধ-সচেতনতায় 'স্টপ ডেঙ্গু' অ্যাপ চালু # অবশেষে টাইগারদের নতুন কোচ হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকার রাসেল ডোমিঙ্গাকে।# পশ্চিমবঙ্গে বজ্রপাতে ৬ বাংলাদেশিসহ আহত ২৪, নিহত ৭# রাজধানীর মিরপুরে চলন্তিকা মোড়ের বস্তির আগুন নিয়ন্ত্রণে# বিশ্বের গুরুত্বপূর্ণ আট শহরে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বর্ষ উদযাপন করার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে।# ময়মনসিংহের গৌরীপুরে বাসের চাপায় প্রাণ গেল একই পরিবারের ৫ জনের# মসজিদে সন্ত্রাসী হামলা কারি নিউজিল্যান্ডের সেই খুনি জেলে বসেই অস্ত্র চাইলেন# বেনাপোল -বর্ডার ভোগান্তি টাকা টাকা খেলা নিরাপত্তা দেবে যারা, তারাই তো লুটেরা ?# জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে নোয়াখালীতে রেডক্রিসেন্ট সোসাইটির উদ্যোগে স্বোচ্ছায় রক্তদান# নড়াইলে দুদক কমিশনার প্রাইমারি স্কুলের ভিত্তি প্রস্তর উদ্বোধন করলেন
আজ রবিবার| ১৮ আগস্ট ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

যুদ্ধ-সহিংসতা-নিপীড়নের মুখে ৬ কোটি ৮৫ লাখ মানুষ বাস্তুচ্যুত



বিশ্ব শরণার্থী দিবস আজ—বুধবার। যুদ্ধ-সহিংসতা এবং নিপীড়নের মুখে ৬ কোটি ৮৫ লাখ মানুষ নিজেদের বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যেতে বাধ্য হয়েছে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ।

গতকাল জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা-ইউএনএইচিসআরের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে।

প্রতিবেদনে আরো বলা হয়েছে, বিশ্বজুড়ে বাস্তুচ্যুত মানুষের সংখ্যা থাইল্যান্ডের জনসংখ্যার সমান। তাদের মধ্যে অর্ধেকের বয়স ১৮ বছরের নিচে। আর বেশিরভাগই সিরিয়া, আফগানিস্তান, দক্ষিণ সুদান, মিয়ানমার এবং সোমালিয়ার শরণার্থী।

গতবছর ২০১৭ সালের শেষ নাগাদ বাস্তুচ্যুত মানুষের সংখ্যা এর আগের বছরের তুলনায় প্রায় ৩০ লাখ বেশি। গত এক দশক আগে বিশ্বজুড়ে বস্তুহারার সংখ্যা ছিল প্রায় চার কোটি ২৭ লাখ।

দুই যুগের বেশি সময় পার হলেও সমাধান হয়নি রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন সমস্যা। কক্সবাজারে অনিয়ন্ত্রিতভাবে রোহিঙ্গাদের বসবাসের ফলে নানা সমস্যায় ভুগছেন স্থানীয়রা।

তবে রোহিঙ্গারা চান, সম্মানজনকভাবে নিজ দেশ মিয়ানমারে প্রত্যাবাসন।

আর রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠাতে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়ার দাবি স্থানীয়দের।

বিভিন্ন সংস্থার তথ্য অনুযায়ী ১৯৭৮ সালের শুরুর দিকে মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশে শরণার্থী প্রবেশ শুরু হয়। নতুন-পুরাতন মিলিয়ে কক্সবাজারের উখিয়া ও টেকনাফে রোহিঙ্গাদের সংখ্যা ১১ লাখ ছাড়িয়ে গেছে। যার ফলে আর্থসামাজিক, অর্থনৈতিক, আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতিসহ নানাভাবে ক্ষয়ক্ষতির সম্মুখীন স্থানীয়রা। তাই তারা চান, দ্রুত রোহিঙ্গাদের যেন নিজ দেশে ফেরত পাঠানো হয়।

এদিকে, মিয়ানমার থেকে পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গারা বলছেন, সম্মানজনক প্রত্যাবাসন হলে নিজ দেশে ফিরে যেতে চান তারা।

এক্ষেত্রে আন্তর্জাতিক সংগঠনগুলোর ভূমিকা প্রশ্নবিদ্ধ উল্লেখ করে রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠাতে কূটনৈতিক তৎপরতা বাড়ানোর দাবি জানিয়েছে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন সংগ্রাম পরিষদ।


1