LatestsNews
# গুলশান-১ এর ডিএনসিসি মার্কেটে মেয়াদোত্তীর্ণ শিশু খাদ্য # এডিসের লার্ভা ধ্বংসে বাড়ি বাড়ি অভিযানে নগরবাসীর অসহযোগিতার অভিযোগ# চামড়া নিয়ে টানাপোড়েন থামছেই না - নিয়মিত ক্রেতাদের তৎপরতা দেখা যায়নি। # কাশ্মীর ইস্যুতে মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে বিবৃতি প্রকাশ# দাবি-দাওয়া মানলেই মিয়ানমারে ফিরবে রোহিঙ্গারা# ম্যাজিস্ট্রেট ও পুলিশ কর্মকর্তাদের সঙ্গে বিচারকের কক্ষে বিরিয়ানি খান রাজসাক্ষী জজ মিয়া# গাইবান্ধার ঝিনুকের তৈরী চুন উৎপাদনকারি যুগি পরিবারগুলো এখন বিপাকে# শিক্ষা নীতিমালা অনুমোদন করায় মোবারক হোসেন প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়ের অভিনন্দন# এডিস মশার দীর্ঘমেয়াদি সমাধানের জন্য বাংলাদেশ সফরে আসছেন উচ্চ পর্যায়ের বিদেশি বিশেষজ্ঞ প্রতিনিধিদল। # শেখ হাসিনাকে ভারত সফরের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। # মেঘনা নদীর ভাঙন গাফিলতি করা সেই প্রকৌশলীকে কী শাস্তি দেওয়া হয়েছে? : প্রধানমন্ত্রী# সংসদ সদস্য না হয়েও বিলাসবহুল গাড়িতে শুল্কমুক্ত সুবিধা পেলেন মুহিত# দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) দুর্নীতির বস্তাভর্তি টাকাসহ হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা গ্রেপ্তার# নায়াখালীতে সিএনজিচালিত ও ব্যাটারিচালিত অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে নারী-শিশুসহ আহত ১২# পচা মাছ মজুদ ও বিক্রির দায়ে স্বপ্ন এক্সপ্রেস সুপার শপকে জরিমানা# ভারতীয় দলের ওপর হামলার শঙ্কা, পিসিবিকে মেইল# ২০২৩ সালের মধ্যে দেশের ৬৬ হাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দুপুরের খাবার পাবে প্রাথমিকের শিক্ষার্থীরা# মিন্নির জামিন শুনানি, যা বললেন হাইকোর্ট# ভারতের বহুল আলোচিত ইসলামিক বক্তা ডা. জাকির নায়েক এবার মালয়েশিয়ায় নিষেধাজ্ঞার মুখে# নেত্রীকে মুক্ত করতে ব্যর্থ বিএনপি এখন বিদেশিদের কাছে ধরনা দিচ্ছে মন্তব্য : ওবায়দুল কাদের।
আজ বৃহস্পতিবার| ২২ আগস্ট ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

জাল পরচা তৈরী করে কোটি টাকার জমি রেজিষ্ট্রি খুনোখুনির আশংকা



জাহিদুর রহমান তারেক, ঝিনাইদহঃ

অসৎ উদ্দেশ্যে সরকার নির্ধারিত হারের চেয়ে উচ্চ মুল্যে জমি রেজিষ্ট্রির পর ঝিনাইদহ সদর সাব রেজিষ্ট্রি অফিসে এবার জাল পরচা তৈরী করে অন্যের প্রায় কোটি টাকা মুল্যের জমি অপ্রত্যাহারযোগ্য পাওয়ার অব এ্যাটর্নী দলিল করার অভিযোগ উঠেছে। এই নিয়ে ঝিনাইদহ জেলা রেজিষ্ট্রি অফিসে তোলপাড় শুরু হয়েছে। প্রকৃত জমির মালিকরা প্রতিকার চেয়ে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক), ইন্সপেক্টর জেনারেল অব রেজিষ্ট্রেশন (আইজিআর) ও ঝিনাইদজ জেলা প্রশাসকের কাছে অভিযোগ করেছেন। জাল কাগজে বিক্রিত জমির উপর ঝিনাইদহের একটি আদালত নিষেধাজ্ঞা জারী করেছেন। 

 

লিখিত অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে, ১৯৯৯ সালের ১৮ আগষ্ট ৬৪৫৮ নং কোবলায় ঝিনাইদহ পৌরসভাধীন ১৫৬ নং মৌজা কালিকাপুর গ্রামে এস.এ-২৬০ নং খতিয়ানভুক্ত এস.এ ২৯৮ নং দাগে এস.এ মালিক আব্দুল ওয়াহেদের থেকে ১০ শতক জমি খরিদ করেন তিন ভাই মোস্তাফিজুর রহমান, মাহফজুর রহমান ও পারভেজ কবির। খরিদাস্বত্তে¡ স্বত্ববান হয়ে তারা ওই জমির উপর দোকান নির্মাণ করে ভাড়া আদায় করে আসছেন। অথচ মোস্তাফিজুর রহমান গংদের নামে রেকর্ড ও দখলে থাকা জমি ঝিনাইদহের চিহ্নিত ভূমিদস্যু কালিকাপুর গুলশানপাড়ার আব্দুল বারিক মন্ডলের ছেলে মোঃ তোফাজ্জেল হোসেন মান্নান ও একই গ্রামের আত্তাব বিশ্বাসের ছেলে মোঃ আসলাম আলীসহ তিনজন গত ৪ মার্চ এস.এ মালিক কুতুবউদ্দিনের ওয়ারেশ খোন্দকার হাফিজুর রহমান ফারুক, খোন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান ও খোন্দকার মুসফিকুর রহমানের কাছ থেকে জাল পরচা তৈরী করে ০৪ শতক জমি অপ্রত্যাহারযোগ্য পাওয়ার অব এ্যাটর্নী দলিল করার চেষ্টা করে। প্রথম দফায় তাদের সে প্রচেষ্টা ব্যার্থ হয়। 

 

বিষয়টি জানাজানি হয়ে গেলে ঝিনাইদহ সাব রেজিষ্ট্রি অফিসে মোস্তাফিজুর রহমান গংরা অভিযোগপত্র দেন। সাব রেজিষ্ট্রার মৃত্যুঞ্জয় শিকারী উভয় পক্ষের কাগজপত্র দেখে তাদের ভুমি দস্যুদের পরচা জাল হওয়ায় দলিল রেজিষ্ট্রি করেন নি। ঘটনার দিন ভুৃমিদস্যুরা ঝিনাইদহ সাব রেজিষ্ট্রি অফিস একরকম পালিয়ে চলে আসেন। মোস্তাফিজুর রহমান গংদের অভিযোগ ও জমির দলিলাদি সাব-রেজিষ্টার অফিসে জমা থাকার পরও ভুমিদস্যুদের গডফাদার ভুটিয়ারগাতি গ্রামের মহিদুল ইসলামের ছেলে টিপু সুলতান গত ৭ জুন সাব রেজিষ্ট্রার মৃত্যুঞ্জয় শিকারী এবং তার সহকারী শেলি খাতুনকে মোটা অংকের ঘুষ দিয়ে তাদের আর.এস (ডি.পি) ৬৯০ নং খতিয়ানে অন্য নাম বিসিয়ে জাল পরচা তৈরী করে ৫১১৮ নং একখান পাওয়ার অব এ্যাটর্নী দলিল রেজিষ্ট্রি করতে সমর্থ হয়। রেজিষ্ট্রি অফিসের কর্মচারীদের টাকার বিনিময়ে ম্যানেজ করে অফিসে না এসে বাসায় কমিশন দলিল করেন। 

 

 

দলিলে সাক্ষর করেন সাবেক মালিক মৃত খোন্দকার কুতুব উদ্দিনের ওয়ারেশ খোন্দকার হাফিজুর রহমান ফারুক, খোন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান, খোন্দকার মুসফিকুর রহমান, কানিজ খোন্দকার ও হোসনেআরা খোন্দকার। জাল জোচ্চুরীর সাথে দাতা এবং গ্রহীতা উভয়ই জড়িত থাকায় প্রকৃত জমির মালিকরা আদালত ও প্রশাসনের দারস্থ হয়েছে। জাল পরচা তৈরী করে এক জনের জমি অন্যজনের নামে রেজিষ্ট্রি করায় উভয় পক্ষের মধ্যে খুন-খারাপি পর্যায়ে পৌছেছে বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়। বিষয়টি নিয়ে সাব রেজিষ্ট্রার মৃত্যুঞ্জয় শিকারী ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, অধস্তন কর্মচারীদের অসর্তকতার কারণে এ ঘটনা ঘটেছে। ঝিনাইদহ সাব রেজিষ্ট্রি অফিসের অফিস সহকারী শেলি খাতুন বলেন, আমার টেবিলেও এই অভিযোগ রাখা আছে। কিন্তু কি ভাবে যে হলো তা আমার বোধগম্য নয়।

 


1