LatestsNews
# মৗলভীবাজারে মনু ও ধলাই নদীর পানি দ্রুত বাড়ছে আতংকে জেলাবাসী# ভারতে পাচার ৫ বাংলাদেশীকে বেনাপোলে ফেরত # রোহিঙ্গা সংকটের শান্তিপূর্ণ ও সুষ্ঠু সমাধানে সারা বিশ্বের সহযোগিতা চেয়েছে বাংলাদেশ।# উল্লাপাড়ায় পরিশ্রম আর পরিচর্যায় সফল পটলচাষী ফকির জয়নাল# মাগুরা শ্রীপুরে সাংবাদিকে বৃদ্ধ বাবা সহ ৫ আওয়ামীলীগ নেতা কর্মির নামে মিথ্যা মামলা# বিএনপি-জামায়ত জোটের শাসন আর কোন দিন ফিরে আসবে না# মৌলভীবাজারে দীঘলগিজি স্কুলে একটি রাস্তার কারনে ঝড়ে পড়ছে শতাধিক কোমলমতি শিশু# ২০১৯-২০ সালের অর্থবছরের বাজেট ঘোষণার পরদিনই বেড়ে গেছে সোনার দাম।# ফিফা র‍্যাঙ্কিংয়েও উন্নতি বাংলাদেশের# বিশ্বকাপের ১৯তম ম্যাচে উইন্ডিজকে ৮ উইকেটে হারালো ইংল্যান্ড।# অনির্বাচিত সরকারের বাজেট প্রণয়নের নৈতিক অধিকার নেই :মির্জা ফখরুল# চট্টগ্রামে ১০ হাজার পিস ইয়াবাসহ পুলিশের এসআই আবু বক্কর সিদ্দিককে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব# সাভারে ভয়ংকর লুঙ্গিবাহিনীর ১৭ ডাকাত গ্রেফতার, অস্ত্র ও গুলি উদ্ধর# ২০১৯-২০ অর্থবছরের জন্য প্রস্তাবিত বাজেটে নিম্নবিত্ত ও বিকাশমান মধ্যবিত্তের জন্য তেমন কোনো সুখবর নেই# রেমিটেন্সে প্রণোদনা প্রবাসীদের উৎসাহিত করবে# রাজধানীতে আজকালের মধ্যে বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।# ২০১৯-২০ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট বিষয়ে সংবাদ সম্মেলন করছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।# উপজেলা নির্বাচন যেন প্রশ্নবিদ্ধ না হয় বললেন নির্বাচন কমিশনার কবিতা খানম# গোবিন্দগঞ্জে বাস ও ট্রাকের মুখোমুখী সংঘর্ষে নিহত-১, আহত-১০# উল্লাপাড়ায় ৮২ কোটি টাকার প্রকল্প রেলওয়ে ওভারপাস নির্মাণ কাজে ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন ও আলোচনা সভা
আজ রবিবার| ১৬ জুন ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

বিরল রোগে আক্রান্ত মেহেদী হাসান স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে চায়



রাণীনগর (নওগাঁ) প্রতিনিধি 4TV 

নওগাঁর রাণীনগরের গোনা ইউনিয়নের ভবানীপুর মন্ডলপাড়া গ্রামে আবুল কালাম আজাদের ছেলে মেহেদী হাসান (১০) জন্মের মাত্র ৭ দিনের মাথাই পুরো শরীরে ভাইরাসের সংক্রমনে আক্রান্ত হয়ে হাত-পা সাদা-সাদা হয়ে চামড়া ফাটতে শুরু করে। বিরল এই রোগে আক্রান্ত হয়ে প্রায় দিন রাত সব সময় প্রচন্ড ব্যাথা আর শরীর ফেটে রক্ত ঝড়ায় অধিকাংশ সময় যন্ত্রনা সহ্য করতে না পেরে কেঁদে কেঁদে দূর্বিষ জীবন-যাপন করছে এমন সংবাদ ২০১৬ইং সালের ডিসেম্বর মাসে দৈনিক করতোয়ায় প্রকাশিত হলে স্থানীয় সংসদ সদস্য মো: ইসরাফিল আলম ও তৎকালীন সময়ের নওগাঁর জেলা প্রশাসক ড. আমিনুর রহমান উন্নত চিকিৎসার ব্যবস্থা ও সার্বিক সহযোগীতার জন্য মেহেদীর পরিবারের পাশে দাঁড়ান। তাদের পরামর্শে সমাজ সেবা অফিসে আবেদন করা হলে ওই বছরই তাদের সহযোগীতায় প্রথমে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজে ভর্তি করা হলে ৪ দিন পর চিকিৎসকের পরামর্শে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

সেখানে প্রায় ৯ মাস চিকিৎসা শেষে শারীরিক কিছুটা উন্নতি হলে চিকিৎসকের পরামর্শে গত ৪ মাস আগে ছাড়পত্র নিয়ে বাড়িতে আসে। তবে হাসপাতাল থেকে বাড়িতে আসার আগে মেহেদীর স্বজনকে বলা হয়েছিল, আগামী সপ্তাহ খানেকের মধ্যে তার চিকিৎসা পুন:রায় শুরু করা হবে। সে ক্ষেত্রে যে পরিমাণ খরচ হবে তার অর্ধেক ব্যয় আপনাদেরকে বহন করতে হবে। মেহেদীর বাবা হতদরিদ্র ভ্যান চালক আবুল কালাম আজাদ ও মা গৃহিনী জাহানারা বেগম ছেলের উপযুক্ত চিকিৎসা করার অর্থ জোগার করতে না পারাই প্রায় ৪ মাস ধরে চিকিৎসা বিহীন অবস্থায় বাড়ি রয়েছে মেহেদী। ফলে তার শারীরিক অবস্থা দিনদিন আগের মতই অবনতি হচ্ছে। ছেলেকে বাঁচাতে সমাজের বিত্তবান, দানবীরসহ সরকারের কাছে সহযোগিতা চেয়েছেন।

জানা গেছে, মেহেদী হাসান ২৮ মে ২০০৭ সালে রাণীনগর উপজেলার ৩নং গোনা ইউনিয়নের ভবানীপুর মন্ডলপাড়া গ্রামের আবুল কালামের ঘরে জন্ম নেয়। জন্মের পর থেকেই মেহেদীর শরীর ধবধবে সাদা। তখন চিকিৎসকের কাছে গেলে ‘রক্ত শূণ্যতা’ রোগে আক্রান্ত বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন। মা জাহানারা বেগম বলেন, দিন দিন মেহেদীর বয়স বাড়ার সাথে সাথে বাড়তে থাকে তার শরীর নানান স্থানে ফেটে যাওয়া। সাধ্যের মধ্যে ঢাকাসহ বিভিন্ন স্থানে ছেলের চিকিৎসা করানো হয়। কিন্তু রোগটি অজানাই থেকে যায়। একা খেতে পারে না। কিছু ধরতেও পারে না। কারে সাথে খেলাধুলা করতে এমনকি ঠিক মতো শুয়ে থাকতে পারে না। তার সেবা যতœ নিজেকে করতে হয়। তবে শীতের সময় বেশি সমস্যা হয়। গায়ে জামা কাপড় পরে থাকলে খুবই অসুবিধা হয়। শরীরের বিভিন্ন অংশ ফেটে রক্ত বের হয়ে জামা-কাপড় নষ্ট হয়ে কিছুটা দূর্গন্ধ ছড়ায়। যার কারণে কেউ তার সেবা যতœ করতে চাই না। মেহেদী হাসান জানায়, সে অন্য ছেলে-মেয়ের মতো খেলতে, পড়তে, বাঁচতে চায়। সে ভবানীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণীতে পড়ছে। তবে সেখানেও রয়েছে কিছুটা বিড়ম্বনা, তাকে দেখে সহপাঠীরা এরিয়ে চলে। স্কুল কর্তৃপক্ষ গতকাল শনিবার মেহেদীকে একটি স্কুল ড্রেস পড়িয়ে দেয়। প্রধান শিক্ষিকা সাহানা ফেরদৌস জানান, সে নিয়মিত স্কুলে আসে কিন্তু অসুস্থ্যতা আর বেশি গরমের কারণে সে বেশিক্ষন থাকতে চায় না। উপবৃত্তিসহ সরকারি সকল সুযোগ-সুবিধা তাকে দেওয়া হবে।

মেহেদীর বাবা আবুল কালাম আজাদ জানান, তার বাড়ীর জায়গা ছাড়া কিছুই নেই। ভ্যান চালিয়ে সংসারের খরচ চালাতে হিমসিম খেতে হচ্ছে। অর্থ যোগারের অভাবে প্রায় ৪ ধরে আমার ছেলেকে চিকিৎসার জন্য আর ঢাকা নিতে পারিনি। তাই আমি সকল বিত্তবানদের সহযোগীতা কামনা করছি।

উপজেলার ৩নং গোনা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল হাসনাত খান হাসান জানান, মেহেদীর বাবা আবুল কালাম আজাদ হতদরিদ্র মানুষ। আমার পরিষদের পক্ষ থেকে শুরুতেই কিছু সহযোগীতা করেছি। পরে মিডিয়ার বদৌলতে শেষ পর্যন্ত মেহেদী ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রায় ৯ মাস চিকিৎসা নিয়েছে। হাসপাতাল থেকে বলা হয়েছে পুন:রায় চিকিৎসার জন্য অর্ধেক খরচ আবুল কালামের বহন করতে হবে। এতো টাকা যোগার করার সামর্থ তার নেই। তাই ছেলেটি আগের মতই দিনদিন অসুস্থ্য হয়ে পড়ছে।


1