LatestsNews
# গুলশান-১ এর ডিএনসিসি মার্কেটে মেয়াদোত্তীর্ণ শিশু খাদ্য # এডিসের লার্ভা ধ্বংসে বাড়ি বাড়ি অভিযানে নগরবাসীর অসহযোগিতার অভিযোগ# চামড়া নিয়ে টানাপোড়েন থামছেই না - নিয়মিত ক্রেতাদের তৎপরতা দেখা যায়নি। # কাশ্মীর ইস্যুতে মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে বিবৃতি প্রকাশ# দাবি-দাওয়া মানলেই মিয়ানমারে ফিরবে রোহিঙ্গারা# ম্যাজিস্ট্রেট ও পুলিশ কর্মকর্তাদের সঙ্গে বিচারকের কক্ষে বিরিয়ানি খান রাজসাক্ষী জজ মিয়া# গাইবান্ধার ঝিনুকের তৈরী চুন উৎপাদনকারি যুগি পরিবারগুলো এখন বিপাকে# শিক্ষা নীতিমালা অনুমোদন করায় মোবারক হোসেন প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়ের অভিনন্দন# এডিস মশার দীর্ঘমেয়াদি সমাধানের জন্য বাংলাদেশ সফরে আসছেন উচ্চ পর্যায়ের বিদেশি বিশেষজ্ঞ প্রতিনিধিদল। # শেখ হাসিনাকে ভারত সফরের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। # মেঘনা নদীর ভাঙন গাফিলতি করা সেই প্রকৌশলীকে কী শাস্তি দেওয়া হয়েছে? : প্রধানমন্ত্রী# সংসদ সদস্য না হয়েও বিলাসবহুল গাড়িতে শুল্কমুক্ত সুবিধা পেলেন মুহিত# দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) দুর্নীতির বস্তাভর্তি টাকাসহ হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা গ্রেপ্তার# নায়াখালীতে সিএনজিচালিত ও ব্যাটারিচালিত অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে নারী-শিশুসহ আহত ১২# পচা মাছ মজুদ ও বিক্রির দায়ে স্বপ্ন এক্সপ্রেস সুপার শপকে জরিমানা# ভারতীয় দলের ওপর হামলার শঙ্কা, পিসিবিকে মেইল# ২০২৩ সালের মধ্যে দেশের ৬৬ হাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দুপুরের খাবার পাবে প্রাথমিকের শিক্ষার্থীরা# মিন্নির জামিন শুনানি, যা বললেন হাইকোর্ট# ভারতের বহুল আলোচিত ইসলামিক বক্তা ডা. জাকির নায়েক এবার মালয়েশিয়ায় নিষেধাজ্ঞার মুখে# নেত্রীকে মুক্ত করতে ব্যর্থ বিএনপি এখন বিদেশিদের কাছে ধরনা দিচ্ছে মন্তব্য : ওবায়দুল কাদের।
আজ বৃহস্পতিবার| ২২ আগস্ট ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# ঝিনাইদহে সেনা সদস্য হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন# নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি :দেশের প্রথম শ্রেণীর অনলাইন টিভি চ্যানেল"চ্যানেল ফোর নিউজ" যা খুব দ্রুতই স্যাটেলাইট টেলিভিশনে রুপান্তরিত হতে যাচ্ছে। উক্ত চ্যানেলের জন্য নিম্ন বর্ণীত বিভাগসমুহে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ১ জন করে ব্যূরো প্রধান এবং বর্ণীত বিভাগগুলোর প্রতি জেলা ও থানাসমুহে ১ জন করে জেলা ও থানা প্রতিনিধি দ্রুত ও জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভাগসমুহ :চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা , রাজশাহী , রংপুর - অাগ্রহীগণকে শিক্ষাগত যোগ্যতা, জাতিয়তা NID, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ১ কপি ছবি ও অভিজ্ঞতার প্রমানপত্রসহ পূর্ণ জীবন বৃত্

মংলা বন্দরে আরও ৪ শ' ৬২টি গাড়ি নিলামে উঠছে



এস.এম. সাইফুল ইসলাম কবির, 4TV : 

খালাস না করায় নিলামে উঠছে বাগেরহাটের মংলা বন্দরে পড়ে থাকা ৪শ' ৬২ টি রিকন্ডিশন গাড়ি। আজ ২৮ জুন খুলনা-মংলা কাষ্টম হাউসে এসব গাড়ী নিলামে তোলা হবে বলে জানায় কাষ্টমস। মংলা কাষ্টম হাউসের ডেপুটি কমিশনার মোঃ হাবিবুর রহমান একথা নিশ্চিত করে জানান, আমদানিকারকরা সরকারী নিয়োম অনুযায়ী ৩০ দিনের মধ্যে খালাস না করায় দীর্ঘদিন মংলা বন্দরের শেডে ৪৬২টি গাড়ি পড়ে ছিল। এ অবস্থায় কাষ্টমস কর্তৃপক্ষ গাড়িগুলো নিলামে বিক্রির উদ্যোগ নেয়। তিনি আরো জানান, এজন্য চলতি মাসের ১৪ জুন এর দরপত্র (সিডিউল) বিক্রয় শুরু করা হয়। সবকিছু ঠিক ঠাক রেখে কাষ্টমস আইন মেনে গতকাল বুধবার ২৭ জুন এসব গাড়ি নিলামে তোলা হয়েছে। তবে নিলামে ওঠা ৪৬২ টি গাড়ির আমদানিকারক প্রতিষ্ঠানের নাম বলতে চাননি এ কাষ্টমস কর্মকর্তা। এবিষয় কাষ্টমসের নিয়োগকৃত প্রতিষ্ঠান এক্্রপো ট্রেডার্স খুলনার ব্যাবস্থাপক মোঃ দোলোয়ার হোসেন বলেন,মংলা বন্দরে প্রায় ৫০টিরও বেশী আমদানী কারক কোম্পানীর অনুমান ৪ থেকে ৫ হাজার গাড়ী রয়েছে। এখান থেকে আমদানী নিষিদ্ধ, আমদানীকৃত গাড়ী সময় মত না নেয়া ও শুল্ক জটিলতার কারনে অনেক গাড়ী এখানে রয়েগেছে। সেগুলোকে মুলত সরকারী ও কাষ্টমসের আইন অনুযায়ী নিলামের উঠানো হয়েছে। তবে সর্বাচ্ছ দরদাতারই এ নিলামের অংশিদারিত্ব হবে।

এ উলক্ষে গত ১৪ জুন বিজ্ঞপ্রি মাধ্যমে গাড়ীর নিলাম ডাকা ও দরপত্র আহবান করে কাষ্টমস কর্তৃপক্ষ। গত ১৯জুন থেকে এ নিলামের দরপত্র ও ক্যাটালক বিক্রি করা চলে ২৬ জুন পর্যন্ত। আর ২৪ জুণ থেকে ২৬ জুন বিকাল পর্যন্ত যারা এ নিলামে অংশ গ্রহন করবে তারা বন্দর কর্তৃপক্ষের সেডে এ গাড়ী গুলো ঘুড়ে দেখছে বলেও জানায় এ কর্মবকর্তা।
মংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের সহকারী পরিচালক (ট্রাফিক) মোঃ সোহাগ মাহমুদ জানান, ২০১৫ সাল থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত আমদানিকারকরা মংলা বন্দর দিয়ে কয়েক হাজার গাড়ি আমদানি করে। এর মধ্যে ৪৬২ টি গাড়ি সময়মত খালাস করতে না পারায় নিয়মানুযায়ী বন্দর কর্তৃপক্ষ কাষ্টমস কর্তৃপক্ষকে নিলামে তোলার জন্য সুপারিশ করে। মুলত আমদানী কারকরা তাদের আমদানীকৃত গাড়ী এ বন্দর থেকে না নেয়া ও শুল্ক জটিলতা দুর করাই হচ্ছে মুল কারন। এছাড়াও সরকারের রাজস্ব আদায় করার জন্যই হচ্ছে এ গাড়ীগুলো নিলামের প্রক্রিয়ায় আনা হয়েছে। এসব গাড়ির মধ্যে টয়োটা, নিশান, নোয়া, এক্সজিও, প্রোবক্স, প্রিমিও,লেক্্রাস,পাজেরো, পিকাপ, ডামট্রাক,এলিয়ান ও মার্সিডিসসহ বিলাশবহুল দামি গাড়ী রয়েছে। কাস্টম আইন মেনেই এসব গাড়ি নিলামে উঠানো হয়েছে বলেও তিনি জানান। এদিকে অভিযোগ রয়েছে, কর ফাঁকি দিতেই এতদিন পেরিয়ে গেলেও এগুলো খালাস করেননি আমদানিকারকরা। আর এখন কৌশলে নামে বেনামে তারাই নিলামের কিনে নিবে এসকল বিলাশবহুল দামি গাড়ীগুলো।*ছবি দেয়া আছে 


1