LatestsNews
# টঙ্গীতে বঙ্গবন্ধুর ৪৮ তম শাহাদাৎ বার্ষিকী পালিত।# বাংলাদেশের ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্রের নাক গলানো বেমানান -- ওয়ার্কাস পার্টি# বাংলাদেশের ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্রের নাক গলানো বেমানান-- ওয়ার্কার্স পার্টি# পূবাইল সাংবাদিক ক্লাবের সাথে নবনিযুক্ত ওসি'র শুভেচ্ছা বিনিময় # টঙ্গীতে গাঁজাসহ মাদক কারবারি গ্রেফতার# টঙ্গীতে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল। # টঙ্গীতে হেরোইনসহ ৩ মাদক কারবারি গ্রেফতার# টঙ্গীতে চাঁদা না পেয়ে ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে জখম # গাজীপুরে ফেনসিডিল ও ইনজেকশনসহ ২ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার# গাজীপুরে ইয়াবাসহ ৪ মাদক কারবারি গ্রেফতার।# গাজীপুরে সাংবাদিককে হত্যার ষড়যন্ত্র; ছাত্রদল নেতার অডিও ক্লিপ ভাইরাল। # টঙ্গীতে আই এম সি এইচ ডায়াগনোস্টিকস্ এন্ড কনসালটেশন সেন্টারের শুভ উদ্বোধন। # টঙ্গীতে বিদেশি মদসহ ৭ জন গ্রেপ্তার # টঙ্গীতে যমুনা গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যানের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া মাহফিল# টঙ্গীতে বাসের ধাক্কায় কলেজ ছাত্রের মৃত্যু# বাংলাদেশ রেজিস্ট্রেশন এমপ্লয়ীজ এসোসিয়েশন ভোলা জেলা শাখার নব নির্বাচিত সভাপতি নাহিদা পারভীন# টঙ্গীতে আওয়ামী লীগের ৭৪তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত# গাজীপুরে আওয়ামী লীগ নেতার সংবাদ সম্মেলন # পূবাইলে সাংবাদিক ক্লাবের উদ্দ্যোগে নাদিম হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন# টঙ্গীতে ১১ কেজি গাঁজাসহ গ্রেফতার ২
আজ শনিবার| ২৫ মে ২০২৪
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
# মানুষের কথা মানুষের জন্য-এই শ্লোগানে বাংলাদেশে আমরা প্রতিষ্ঠা করতে চাই (তথ্য,প্রযুক্তি ও বিনোদন ভিওিক ) পূর্ণাঙ্গ IP TV ( CHANNEL 4) - google play store হতে Apps ডাউনলোড করে মুক্তি যুদ্ধের চেতনায় জাতি গঠনে আমাদের আগ্রজাতরায় সামিল হতে পারেন আপনিও ।# আপনার এলাকায় ঘটে যাওয়া যে কোন সংবাদ নিয়ম কিংবা অনিয়মের তথ্য জানিয়ে আমাদের সহযোগিতা করতে পারেন । আমারা আমাদের প্রচার যোগ্য মাধ্যমে আপনার পাঠানো সংবাদের সত্যতা যাচাই করে যথাযথ নিয়মে সংবাদ প্রচার করতে সর্বাত্মক চেষ্টা করে থাকি আমাদের প্রচারিত সংবাদ দেখতে লগইন করতে পারেন www.channel4bd.com এ (4 Media Limited, অফিস : হিরন টাওয়ার,২০/১-বি, সাতাইশ,শরিফ মার্কেট, টঙ্গী,গাজীপুর ১৭১২। রিপোর্টিং : 01911073607, বিজ্ঞাপন :01715467283। ই-মেইল 4tv.4news@gmail.com)# মানুষের কথা মানুষের-জন্য এই শ্লোগানে বাংলাদেশে আমরাই প্রতিষ্ঠা করতে চাই সংবাদ ভিত্তিক পূর্ণাঙ্গ IP TV CHANNEL 4 - google play store App ডাউনলোড করে মুক্তি যুদ্ধের চেতনায় জাতি গঠনে আমাদের আগ্রজাতরায় সামিল হতে পারেন আপনিও ।

টঙ্গীতে বঙ্গবন্ধুর ৪৮ তম শাহাদাৎ বার্ষিকী পালিত।

বি এ রায়হান, গাজীপুর :--- হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৮ তম শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে ৪৮ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ ও সকল সহযোগী সংগঠনের উদ্যোগে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার রাতে টঙ্গীর দত্তপাড়া নিলাচল রোড এলাকায় এই আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। মহানগর মৎস্যজীবী লীগের সভাপতি আসাদুল কবিরের সভাপতিত্বে ও ৪৮ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সদস্য সচিব ফয়েজ আহমেদ মিন্টুর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে মুঠোফোনে সংযুক্ত ছিলেন গাজীপুর দুই আসনের সাংসদ যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল এমপি। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সাবেক সহ সভাপতি ওসমান আলী, টঙ্গী থানা আওয়ামী লীগের সাবেক সদস্য কে এম শাহ আলম, টঙ্গী পূর্ব থানা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি পদপ্রার্থী কাজী মঞ্জুর, ওয়ার্ড যুবলীগের আহবায়ক মোতালেব হোসেন, ওয়ার্ড স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক সাইদুল ইসলাম মৃধা, সহ সভাপতি সজল সরকার, টঙ্গী পূর্ব থানা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী মশিউর হক নাহিন প্রাধানসহ ওয়ার্ড আওয়ামী অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীবৃন্দ।

পূবাইল সাংবাদিক ক্লাবের সাথে নবনিযুক্ত ওসি'র শুভেচ্ছা বিনিময়

গাজীপুর প্রতিনিধিঃ----- পূবাইল মেট্রোপলিটন থানার সুশীল সমাজ ও সর্বসাধারণের চাহিদার প্রেক্ষিতে প্রতিষ্ঠিত পূবাইল সাংবাদিক ক্লাব,পূবাইল মেট্রোপলিটন থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ শফিকুল ইসলাম কে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান পূবাইল সাংবাদিক ক্লাবের নেতৃবৃন্দ। (০৩ আগস্ট) বৃহস্পতিবার রাতে পূবাইল সাংবাদিক ক্লাবের সভাপতি মোঃ রবিউল আলম এর নেতৃত্বে পূবাইল সাংবাদিক ক্লাব এর সদস্যগন এ শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। নবাগত ওসি মোঃ শফিকুল ইসলাম সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘আপনাদের সহযোগিতা পেলে পূবাইল মেট্রোপলিটন থানা থেকে মাদক, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, বাল্যবিবাহ, ইভটিজিং চাঁদাবাজি ও দালাল মুক্ত করব ইনশাল্লাহ।’ ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠায় সর্বাত্মক চেষ্টা চালিয়ে যাওয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করে তিনি সাংবাদিকবৃন্দের সহযোগিতা কামনা করেন এবং পূবাইল থানা এলাকার আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে তথ্য দিয়ে সহায়তা করার জন্য সবার প্রতি আহবান জানান। এসময় উপস্থিত ছিলেন,অত্র ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আল-আমিন সরকার,যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোঃ শাকিল। সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ শাহীন সরকার।কোষাধ্যক্ষ এইচ এম নুরুল হক বাবু। মহিলা সম্পাদিকা কবিতা ইসলাম কার্যনির্বাহী সদস্য রাকিবুল ইসলাম ও আসিফ রায়হান প্রমুখ।

টঙ্গীতে গাঁজাসহ মাদক কারবারি গ্রেফতার

বি এ রায়হান, গাজীপুর :--- গাজীপুরের টঙ্গীতে আধা কেজি (৫০০ গ্রাম) গাঁজাসহ রুবেল দাস (২৪) নামে এক মাদক কারবারিকে গ্রেফতার করেছে টঙ্গী পশ্চিম থানা পুলিশ। বৃহস্পতিবার রাতে স্থানীয় গুটিয়া নর্থ টাউন আবাসিক প্রকল্পের প্রধান ফটক থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এসময় তার কাছ থেকে উক্ত মাদক দ্রব্য গাঁজা উদ্ধার করা হয়। টঙ্গী পশ্চিম থানার অফিসার ইনচার্জ শাহ আলম জানান, টঙ্গী পশ্চিম থানাধীন গুটিয়া নর্থ টাউন আবাসিক প্রকল্পে প্রবেশ করার মেইন গেইট এর উত্তর পাশে রাস্তায় মাদক ব্যবসায়ীরা মাদক বিক্রি করছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে নিষিদ্ধ মাদকদ্রব্য গাঁজাসহ একজনকে গ্রেফতার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় গ্রেফতারকৃত রুবেল গুটিয়া সহ আশপাশের এলাকায় দীর্ঘদিন যাবত মাদক কেনাবেচা করে আসছিল। তার বিরুদ্ধে নিয়মিত আইনে মামলা দায়ের করে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

টঙ্গীতে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল।

বি এ রায়হান, গাজীপুর : ---- বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান ও তার স্ত্রী জুবাইদা রহমানের বিরুদ্ধে জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের মামলায় সাজা ঘোষণার প্রতিবাদে টঙ্গীতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে গাজীপুর মহানগর ছাত্রদল। বুধবার বিকেলে টঙ্গীর বাটা গেট এলাকা থেকে মিছিলটি শুরু হয়ে ঢাকা ময়মনসিংহ মহাসড়কের গুরুত্বপূর্ণ স্থান প্রদক্ষিণ করে টঙ্গী বাজার এলাকায় গিয়ে শেষ হয়। এসময় ঝটিকা বিক্ষোভ মিছিলে উপস্থিত ছিলেন গাজীপুর মহানগর ছাত্রদলের সভাপতি রুকনুজ্জামান শুক্কুর, সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুল হাসান মিরনসহ বিভিন্ন থানা ও ওয়ার্ড ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা। অপরদিকে একই সময়ে টঙ্গীর কলেজগেট এলাকায় ঝটিকা বিক্ষোভ মিছিল করেছে গাজীপুর মহানগর বিএনপি। মিছিলে উপস্থিত ছিলেন গাজীপুর মহানগর বিএনপির সাবেক যুগ্ন আহবায়ক রাকিব উদ্দিন সরকার পাপ্পু, মহানগর যুবদলের সভাপতি সাজেদুল ইসলাম সাজু, টঙ্গী পূর্ব থানা যুবদলের আহবায়ক আকবর হোসেন ফারুক, সদস্য সচিব নাজমুল হোসেন মন্ডল, টঙ্গী পশ্চিম থানা ছাত্রদলের আহবায়ক রেদোয়ানুর রহমান প্রত্যয়সহ টঙ্গী পূর্ব ও পশ্চিম থানা বিএনপি ও সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীবৃন্দ।

টঙ্গীতে হেরোইনসহ ৩ মাদক কারবারি গ্রেফতার

বি এ রায়হান, গাজীপুর:--- গাজীপুরের টঙ্গীতে নিষিদ্ধ মাদক দ্রব্য হেরোইনসহ তিন মাদক কারবারিকে গ্রেফতার করেছে টঙ্গী পশ্চিম থানা পুলিশ। শনিবার দিবাগত রাতে স্থানীয় টঙ্গীবাজার হোন্ডা রোড এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে ২ শত ২০ পুড়িয়া ( ২২ গ্রাম) হেরোইন উদ্ধার করা হয়। গ্রেফতারকৃতারা হলো, নাইম (৩০), রফিকুল ইসলাম (৪০) ও রবিউল ইসলাম (২৭)। তারা সকলে হেরোইনের হাট খ্যাত হাজীর মাজার বস্তি এলাকার বাসিন্দা। পুলিশ জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে টঙ্গীবাজার হোন্ডা রোড এলাকায় অভিযান চালিয়ে তিন মাদক কারবারিকে গ্রেফতার করা হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে শত ২০ পুড়িয়া ( ২২ গ্রাম) হেরোইন উদ্ধার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, গ্রেফতারকৃতরা দীর্ঘদিন যাবত টঙ্গীসহ আশপাশের এলাকায় নিষিদ্ধ মাদকদ্রব্য হিরোইন বেচা কেনা করে আসছিল। টঙ্গী পশ্চিম থানার অফিসার ইনচার্জ শাহ আলম জানান, গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে নিয়মিত আইনে মামলা দায়ের করে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

টঙ্গীতে চাঁদা না পেয়ে ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে জখম

বি এ রায়হান, গাজীপুর: গাজীপুরের টঙ্গীতে চাঁদা না পেয়ে কামরুজ্জামান (৩৫) নামে এক ঔষধ ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে যখম করার অভিযোগ উঠেছে। সোমবার বিকেলে স্থানীয় টঙ্গীবাজার এলাকায় এঘটনা ঘটে। এঘটনায় সোহেল (৩৫) নামে একজনকে অভিযুক্ত করে টঙ্গী পূর্ব থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী ব্যবসায়ী। অভিযুক্ত সোহেল টঙ্গীর মুন্সী পাড়া লাল মিয়া মাদবর রোডের মোঃ নাসিরের ছেলে। অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, টঙ্গীবাজার ভাওয়াল বিপনী বিতান মার্কেটে দীর্ঘদিন যাবৎ ফার্মেসি ব্যবসা করেন কামরুজ্জামান। অভিযুক্ত সোহেল স্থানীয় বখাটে হিসেবে পরিচিত। সেই সুবাদে বিভিন্ন সময় ওক্ত ফার্মেসী সহ বিভিন্ন দোকানে চাঁদাবাজি করতো সে। সোমবার বিকেলে যথারীতি ফার্মেসীতে এসে চাঁদা দাবী করে সোহেল। এসময় ঔষধ ব্যবসায়ী কামরুজ্জামান চাঁদা দিতে অস্বীকার করলে তার উপর ধারালো অস্ত্র দিয়ে হামলা চালায়ি কুপিয়ে যখম করে সোহেল ও তার কয়েকজন সহকারী। এতে গুরুতর আহত হন ভুক্তভোগী ব্যবসায়ী। এসময় তার আত্ম চিৎকারে স্থানীয় ব্যবসায়ীরা এগিয়ে এলে দ্রুত ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায় সে। পরে স্থানীয়রা কামরুজ্জামানকে উদ্ধার করে টঙ্গীর শহীদ আহসান উল্লাহ মাষ্টার জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গিয়ে চিকিৎসার ব্যবস্থা করেন। টঙ্গী পূর্ব থানার অফিসার ইনচার্জ আশরাফুল ইসলাম জানান, এঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

গাজীপুরে ইয়াবাসহ ৪ মাদক কারবারি গ্রেফতার।

বি এ রায়হান, গাজীপুর :-----# গাজীপুরের পশ্চিম ভুরুলিয়া এলাকা থেকে ১৪শত পিস ইয়াবাসহ চার মাদক কারবারিকে গ্রেফতার করেছে গাজীপুর মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) দক্ষিণ বিভাগ। রবিবার রাত নয়টার দিকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতরা হলো, কুষ্টিয়া জেলার দৌলতপুর থানার নজীবপুর গ্রামের মৃত আকবর আলীর ছেলে আয়াতুল আমীন (কনক) (২৯), নারায়গঞ্জের সোনারগাঁও থানার উলুকান্দি গ্রামের মৃত তাইজ উদ্দিনের ছেলে আমান (৩৯), ঢাকার খিলক্ষেত থানার তলনা এলাকার মৃত আবুল কালামের ছেলে সেলিম (৩০) ও ময়মনসিংহ জেলার ফুলপুর থানার রামসোনা গ্রামের সেলিম মিয়ার ছেলে রূপচান মিয়া (মুসা) (৩৪)। তারা গাজীপুরের বিভিন্ন এলাকায় ভাড়া বাসা নিয়ে মাদক ব্যবসা করতো।  পুলিশ জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গাজীপুর মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) দক্ষিণ বিভাগের একটি দল সদর থানাধীন পশ্চিম ভুরুলিয়া এলাকা থেকে ১৪শত পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ চারজনকে গ্রেপ্তার করে। তারা গাজীপুরের বিভিন্ন এলাকায় মাদক বিক্রি করে আসছিল। গ্রেপ্তারকৃতদের বিরুদ্ধে সদর থানায় নিয়মিত মামলা দায়ের করে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। এঘটনায় একজন পলাতক রয়েছে তাঁকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

গাজীপুরে সাংবাদিককে হত্যার ষড়যন্ত্র; ছাত্রদল নেতার অডিও ক্লিপ ভাইরাল।

ডেক্স নিউজ : গাজীপুরে মহানগর ছাত্রদলের সাবেক সহ-সম্পাদক রমজান আলী বাবু ওরফে ৯৯ বাবুর কন্ঠে আনন্দ টেলিভিশনের গাজীপুর মহানগর প্রতিনিধি ও টঙ্গী প্রেস ক্লাবের সদস্য শেখ রাজীব হাসানকে প্রাননাশের উদ্দেশ্যে কথোপকথনের ষড়যন্ত্র মূলক একটি অডিও ক্লিপ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। এ ঘটনায় এলাকায় বেশ উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে। জানাযায়, গত ১৪ই জুলাই শুক্রবার রাত আনুমানিক সাড়ে নয়টায় এরশাদনগর ১নং ব্লক বড় বাজারে মাতাল অবস্থায় প্রবেশ করে এক যুবক। বাজারে প্রবেশ করে প্রথমে ছাত্রলীগ নেতা হায়দার খানের দোকানে ঢুকে হায়দার খান ও সাংবাদিক রাজিব হাসানকে উদ্দেশ্য করে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকে এবং বিভিন্ন হুমকি ধমকি দেয়। পরবর্তীতে বাজারের লোকজন টঙ্গী পূর্ব থানায় খবর দিলে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে আসলে ওই যুবক পালিয়ে যায়। পুলিশে খবর দেওয়ায় ছাত্রদল নেতা বাবু ক্ষিপ্ত হয়ে স্থানীয় সেচ্ছাসেবক লীগ নেতা জাকির হোসেনকে বলেন রাজিব কি এমন সাংবাদিক হইয়া গেছে যে পুলিশ নিয়া আসে। পুলিশ গেলে শালারে পিটামু। বিষয়টি তাৎক্ষনিক জাকির হোসেন সবার সামনে উম্মোচন করলে বাবু জাকির হোসেনের সাথে অশালীন ভাষায় কথা বলে এবং বিভিন্ন তালবাহানা শুরু করে। এসময় সেচ্ছাসেবক লীগ নেতা রায়হান সরদার ঘটনাস্থলে উপস্থিত থেকে ছাত্রদল নেতা রমজান আলী বাবু ওরফে ৯৯ বাবুর অশালীন আচরণের প্রতিবাদ জানায়। ঘটনার বিষয়টি এলাকায় ছড়িয়ে পরলে কেচো খুড়তে সাপ বেড়িয়ে আসে। মহানগর ছাত্রদলের সাবেক সহ-সম্পাদক রমজান আলী বাবুর কন্ঠে সাংবাদিক রাজীব হাসানকে প্রাণনাশ করার উদ্দেশ্যে কথোপকথনের একটি অডিও ক্লিপ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়। পরবর্তীতে অন্যান্য সাংবাদিক ও নিজ পরিবারের সাথে আলোচনা করে ১৫ই জুলাই বেলা সাড়ে ১২টা সময় টঙ্গী পূর্ব থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন ওই সংবাদকর্মী । পরবর্তীতে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে বাবু পালিয়ে যায়। এবিষয়ে টঙ্গী পূর্ব থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করা হয়েছে। প্রসঙ্গত, গত কুরবানি ঈদের কিছুদিন আগে টঙ্গী পশ্চিম থানা এলাকার ৫২ নং ওয়ার্ডর নব নির্বাচিত কাউন্সিলর জাহাঙ্গীর বিচারের মাধ্যমে ৭বছর আগের মাদক সেবনের মাফ করে দেওয়া টাকা এলাকায় শালিশির মাধ্যমে তুলে দেন। এবিষয়ে সাক্ষাৎকার নেওয়ার পর ছাত্রদল নেতা এমন চক্রান্ত করে যা ভাইরাল হওয়া অডিও ক্লিপ শুনে বুঝা যায়। স্থানীয় এলাকাবাসী জানায়, ছাত্রদল নেতা বাবু দীর্ঘদিন যাবত সু-কৌশলে এলাকায় মাদক ব্যাবসা করে আসছে। এছাড়া অনলাইন জুয়া ও সরাসরি জুয়ায় তার রয়েছে বিশাল সিন্ডিকেট। সে নিজেও একজন মাদক সেবী। মাদক ও জুয়ার নেশার সিন্ডিকেট চালাতে অনেকে তাকে মদদ নিয়ে থাকে। একসময় বাড়ি, গাড়ি, দোকান ব্যাবসা থাকলেও জুয়া ও মাদক সেবনের কারণে ধ্বংস হয়েসে সবই। বর্তমানে মাদকের কারবার করে উপার্জিত টাকা জুয়া ও মাদক সেবন করেই উড়িয়ে দেয় বলে জানান স্থানীয়রা। এলাকাবাসী আরো জানায়, সাংবাদিককে নিয়ে যে ষড়যন্ত্র বাবু করেছে তার একটা অডিও আমরা শুনেছি বিএনপি ক্ষমতায় আসার আগেই ছাত্রদল নেতার এমন হুমকি। ক্ষমতায় থাকলে সাংবাদিকদের মারার এমন প্লান করলে সাধারণ জনগনের অবস্থা কি হবে। এবিষয়ে সাংবাদিক রাজীব হাসান জানায়, বেশ কিছুদিন যাবত আমি লোকমুখে জানতে পারি ছাত্রদল নেতা রমজান আলী বাবু ওরফে ৯৯ বাবু আমার ক্ষতি করতে চাইছে। বাবু আমাকে হত্যা করার যে চক্রান্ত সাজিয়েছে তার একটি অডিও ক্লিপ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। রমজান আলী বাবু ১ নং ব্লকের রফিক ওরফে কসাই রফিকের ছেলে। রমজান আলী বাবুর বিরুদ্ধে মাদক সহ থানায় একাধিক অভিযোগ রয়েছে। এছাড়া সে মাদকাসক্ত এবং ওর বিরুদ্ধে মাদকসহ বিভিন্ন অভিযোগ রয়েছে। জীবন স্থানীয় একাধীক মাদক কারবারিদের মাদকের কারবারে সেল্টার দিয়ে থাকে এবং নিজেও সরাসরি এই কারবার করে আসছে। বাবু এলাকায় বিভিন্ন সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের সাথে জড়িত। ওর দ্বারা যে কোন সময় আমার ও আমার পরিবারের যে কোন বড় ধরনের ক্ষতি হতে পারে। আমি আইনের প্রতি অগাত শ্রদ্ধা বিশ্বাস রেখে টঙ্গী পূর্ব থানায় এ বিষয়ে অভিযোগ ও সাধারণ ডায়েরি করেছি। আশা রাখি দ্রুত ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে। এবিষয়ে টঙ্গী পূর্ব থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আশরাফুল ইসলাম জানান, এবিষয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি। রাজীব হাসান সাধারণ ডায়েরী করেছেন। আমরা তদন্ত সাপেক্ষে ব্যাবস্থা গ্রহন করবো।

টঙ্গীতে আই এম সি এইচ ডায়াগনোস্টিকস্ এন্ড কনসালটেশন সেন্টারের শুভ উদ্বোধন।

বি এ রায়হান, গাজীপুর : গাজীপুরের টঙ্গীতে আই এম সি এইচ ডায়াগনোস্টিকস্ এণ্ড কনসালটেশন সেন্টার এর উদ্বোধন করা হয়েছে। শনিবার দুপুরে টঙ্গীর শলিকচূড়া এশিয়া পাম্প সংলগ্ন প্রতিষ্ঠানের হলরুমে এ আয়োজন করা হয়। ইন্টারন্যাশনাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক কর্নেল (অবঃ) ডা. সাজ্জাদ আহম্মেদ এ কে খান জিলানী সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, ইন্টারন্যাশনাল মেডিকেয়ার লিমিটেড এর চেয়ারপারসন ড. আহম্মেদ আল কবির। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, ইন্টারন্যাশনাল মেডিকেয়ার লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম এ মুবিন খান। উপ ব্যবস্থাপনা পরিচালক ওয়াসিম রব, পরিচালক কর্নেল (অবঃ) মোঃ আজিম। এছাড়াও আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উক্ত মেডিকেল কলেজের বিভিন্ন বিভাগের অধ্যাপক, প্রভাষক ও হাসপাতালের ডাক্তার সহ অন্যান্য কলাকৌশলী বৃন্দ। প্রধান অতিথির বক্তব্যে ডা. আহম্মেদ আল কবির বলেন, দীর্ঘ ২৩ বছর যাবৎৎ টঙ্গী তথা গাজীপুর সহ আশেপাশের এলাকার জনগণের সেবা দিয়ে যাচ্ছে ইন্টারন্যাশনাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল। তারি ধারাবাহিকতায় আই এম সি এইচ ডায়াগনস্টিকস্ এন্ড কনসালটেশন সেন্টারের যাত্রা শুরু হল। এই ডায়াগনস্টিক সেন্টারে বিশেষজ্ঞ ডাক্তারদের মাধ্যমে সার্বক্ষণিক চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করা হবে। এছাড়াও সব রকম পরীক্ষার ব্যবস্থা থাকবে। উক্ত ডায়াগনস্টিক সেন্টারে খুব শীঘ্রই রোগীদের জন্য জরুরী বিভাগ ও ট্রমা সেন্টার চালু করা হবে। ভবিষ্যতে আমাদের পরিকল্পনা আছে এই এলাকায় একটি বিশেষায়িত হাসপাতাল তৈরি করা। যেখানে ২৪ ঘন্টা সকল ধরনের সুবিধা পাওয়া যাবে।

টঙ্গীতে বিদেশি মদসহ ৭ জন গ্রেপ্তার

বি এ রায়হান, গাজীপুর:----- গাজীপুরের টঙ্গীতে বিদেশি মদ সহ ৭ জনকে গ্রেপ্তার করেছে টঙ্গী পশ্চিম থানা পুলিশ। বুধবার রাতে টঙ্গী পশ্চিম থানাধীন হোসেন মার্কেট এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে ৭ বোতল বিদেশি মদ উদ্ধার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, মাজাহারুল ইসলাম সুজন @ হাত কাটা সুজন (৩০), রাকিবুর রহমান উল্লাস (৩২), মোঃ রবি (২২), হৃদয় হোসেন আব্দুল্লাহ (২৩) মিরাজ হোসেন অমি (২১),মোঃ সুজন (২১),মোঃ হৃদয় হোসেন (২০)। পুলিশ জানায়, বুধবার রাতে টঙ্গী পশ্চিম থানাধীন হোসেন মার্কেট এলাকায় অভিযুক্ত মাদক কারবারিরা অবৈধ ভাবে আনা ৭ বোতল বিদেশি মদ বিক্রির উদ্দেশ্যে অবস্থান করছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ অভিযান পরিচালনা করে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। টঙ্গী পশ্চিম থানার ওসি শাহ আলম বলেন, অভিযুক্তদের আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

টঙ্গীতে যমুনা গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যানের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া মাহফিল

বি এ রায়হান, গাজীপুর: ----- গাজীপুরের টঙ্গীতে যুগান্তরের স্বপ্নদ্রষ্টা, যমুনা গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলাম এর তৃতীয় মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা, দোয়া মাহফিল ও দুস্থদের মাঝে খাবার বিতরণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে টঙ্গী থানা প্রেসক্লাবের হল রুমে এ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, টঙ্গী থানা প্রেসক্লাবের সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার এম এম হেলাল উদ্দিন। বিশেষ অতিথি টঙ্গী থানা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আলী ভূঁইয়া, ৫০ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সদস্য সচিব কাজী কামরুল। স্বজন সমাবেশ টঙ্গী শাখার সহ সভাপতি শেখ মো. রোমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন যুগান্তরের টঙ্গী শিল্পাঞ্চল প্রতিনিধি মো. আনোয়ার হোসেন। এতে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সাংবাদিক রফিকুল ইসলাম, অমল চন্দ্র ঘোষ, পলাশ প্রধান, আবু সালেহ মুসা, তাওহিদুল ইসলাম, আওলাদ হোসেন, সুজন সারোয়ার, ইফতেখার রায়হান, লিটন মিয়া, জসিম উদ্দিন মাস্টার, বি এ রায়হান, মোস্তাকিম খান, জাহাঙ্গীর আকন্দ, জাহাঙ্গীর মোল্লা, হানিফ হোসেন, মোস্তফা মিয়া, কাজী রোকেয়া কেয়াসহ টঙ্গীর বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকগন ও সুশীল সমাজের নেতৃবৃন্দ।   অনুষ্ঠানে প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলামের সম্মানে ১মিনিট দাঁড়িয়ে নিরবতা পালন শেষে  তাঁর বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করে দোয়া ও বিশেষ মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়। শেষে তবারক বিতরণ করা হয়।

টঙ্গীতে আওয়ামী লীগের ৭৪তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত

বি এ রায়হান, গাজীপুর :-- বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭৪তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে ৪৩নং ওয়ার্ডের নব নির্বাচিত কাউন্সিলর খালেদুর রহমান রাসেল উদ্যোগে কেক কাটা, আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার রাতে টঙ্গীর পাগাড় এলাকায় কাউন্সিলর এর কার্যালয়ে এ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিসেবে উপস্থিত ছিলেন, ৪৩নং ওয়ার্ডের সদ্য নির্বাচিত কাউন্সিলর খালেদুর রহমান রাসেল। প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা হাজী আসগর আলীর সভাপতিত্বে এবং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের যুগ্ন আহবায়ক মোক্তার হোসেন সোহেলের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, ৪৩ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতা সৈয়দ আতিকসহ আওয়ামী লীগ অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীবৃন্দ।   অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাসেল বলেন, আওয়ামীলীগ সরকারের নেতৃত্ব দিচ্ছেন বঙ্গববন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা। তিনি পূর্ণাঙ্গ আধুনিক ও বিজ্ঞানভিত্তিক দেশ গড়ে তুলতে একের পর এক পরিকল্পনা প্রণয়ন ও বাস্তবায়ন করে চলছেন। অনুষ্ঠান শেষে আওয়ামী লীগ ও সহযোগী অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে কেক কাটার মধ্য দিয়ে আওয়ামীলীগের ৭৪তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত হয়।

গাজীপুরে আওয়ামী লীগ নেতার সংবাদ সম্মেলন

বি এ রায়হান, গাজীপুর : ---- গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলায় গত শনিবার আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষের ঘটনায় সংবাদ সম্মেলন করেছেন কালিয়াকৈর উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম তুষার। রবিবার সন্ধ্যায় তার নিজ কার্যালয়ে এই সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এসময় তিনি বলেন, আমি আওয়ামী লীগের একজন ক্ষুদ্র কর্মী, আমার দ্বারা আওয়ামী লীগে সুনাম ক্ষুন্ন হবে এমন কর্মকাণ্ড আমি কখনো করিনি বেঁচে থাকতে কখনোই করব না। গত শনিবার পূর্ব চান্দুরা এলাকায় আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের মধ্যে একটা অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটেছে যেটা কোন ভাবে কাম্য নয়। সেদিন আমি ব্যাক্তিগত কাজে ঢাকায় ছিলাম। নেতা কর্মীদের ফোন ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিষয়টি জানতে পেরে সন্ধ্যায় নিজ এলাকায় এসে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করি এবং আহতদের খোঁজ-খবর নেই। অথচ একটি কুচক্রী মহল ওই ঘটনায় আমাকে জড়ানোর ষড়যন্ত্র করছে। আমাকে জড়িয়ে কালিয়াকৈর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রাসেল যেসব অপপ্রচার চালাচ্ছেন তা সম্পূর্ণ মিথ্যা, ভিত্তিহীন, বানোয়াট ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। ইতিমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে বেশকিছু ছবি ও ভিডিও ফুটেজ ছড়িয়ে পড়েছে সেই ছবি ও ভিডিও ফুটেজে রামদা হাতে ওরা কারা...কার লোক ? মোবাইল ফোন ও সিসি ক্যামেরা ধারণকৃত বেশ কয়েকটি ছবি হাতে নিয়ে রফিকুল ইসলাম তুষার বলেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অস্ত্র হাতে কয়েকজন যুবকের যে ছবি ভাইরাল হয়েছে তার একজনের নাম শরীফ, সে কালিয়াকৈর উপজেলা যুবলীগ নেতা রফিক হত্যা মামলার আসামি। অপর আরেকজনের ইরাক তার বাড়ি হাবিবপুর। এঘটনা যদি পূর্ব পরিকল্পিত না হতো তাহলে তারা দেশীয় এ সকল ধারালো অস্ত্র কোথায় পেল? তিনি আরো বলেন, আমি নিঃসন্দেহে বলতে পারি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রাসেলে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটিয়েছেন। তিনি যে স্থানে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটিয়েছেন সেই স্থানে একজন বিএনপি নেতার বাড়ি। আমার প্রশ্ন তিনি আওয়ামী লীগ নেতা হয়ে বিএনপির নেতার বাড়িতে কি উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড তুলে ধরতে গিয়েছিলেন? প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করে তিনি বলেন, আমি সর্বোপরি আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল দলের প্রতি শ্রদ্ধাশীল আমি প্রশাসনের কাছে অনুরোধ করছি এ ঘটনায় যারা জড়িত তাদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হোক। আমার দলের কাছে অনুরোধ যারা দলের সুনাম ক্ষুন্ন করার অপচেষ্টা চালিয়ে জনমনে আতঙ্ক সৃষ্টি করেছে তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হোক।

পূবাইলে সাংবাদিক ক্লাবের উদ্দ্যোগে নাদিম হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন

গাজীপুর প্রতিনিধি:---- পূবাইল সাংবাদিক ক্লাবের উদ্যোগে জামালপুর বকশীগঞ্জের ৭১ টেলিভিশনের সাংবাদিক গোলাম রাব্বানী নাদিমকে হত্যার প্রতিবাদে গাজীপুর মহানগরীর পূবাইলে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার বিকেলে পূবাইলের মিরের বাজার চৌরাস্তা এলাকায় গাজীপুর ও পূবাইলের বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক্স মিডিয়ার সাংবাদিকদের উপস্থিতিতে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, সাংবাদিকরা সত্য প্রকাশ করবে, ঘটনার মূল রহস্য উদঘাটন করবে এটাই স্বাভাবিক এজন্য কাউকে ভয় পাবে এটা সাংবাদিকতা নয়। ইতিপূর্বে সংগঠিত জামালপুরের বকশীগঞ্জে দুর্নীতিবাজ চেয়ারম্যান বাবু ও তার দোসরা ৭১ টেলিভিশনের সাংবাদিক গোলাম রাব্বানী নাদিমকে যে নির্মমভাবে হত্যা করেছে আমরা সাংবাদিকরা তার তীব্র নিন্দা ও সর্বোচ্চ শাস্তি দাবী জানাই। পূবাইল সাংবাদিক ক্লাবের সভাপতি রবিউল আলম বলেন, আমাদের হাতে যতদিন সত্যের কলম থাকবে ততদিন অন্যায় ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে লিখে যাব, পাশাপাশি গোলাম রাব্বানী নাদিম হত্যাসহ সকল সাংবাদিকদের মিথ্যা হামলা মামলা ও হয়রানির তীব্র নিন্দা জানাই। এ সময় উপস্থিত ছিলেন অত্র পুবাইল সাংবাদিক ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক দৈনিক সোনালী খবর এর আল আমিন সরকার, এশিয়ান টিভির টিটন কুমার ঘোষ, আনন্দ টিভির শাকিল আহমেদ, দৈনিক সন্ধ্যাবাণীর শাহিন সরকার, দৈনিক আজকের বসুন্ধরার এইচএম নুরুল হক বাবু, কালের ছবির আবু সাঈদ চৌধুরী, মাতৃ জগতের রাকিবুল ইসলাম, দৈনিক নাগরিক ভাবনার হাফিজুল ইসলাম, সাপ্তাহিক এশিয়া বার্তার ইসরাইল মিয়া। আনন্দ টেলিভিশন ও দৈনিক আমার প্রাণের বাংলাদেশের রাজন ইসলাম রাজু প্রমুখ।

টঙ্গীতে ১১ কেজি গাঁজাসহ গ্রেফতার ২

বি এ রায়হান, গাজীপুর:---- গাজীপুরের টঙ্গীর নতুন বাজার এলাকা থেকে বিপুল পরিমান গাঁজা ২ মাদক কারবারিকে গ্রেফতার করেছে টঙ্গী পূর্ব থানা পুলিশ। এসময় তাদের কাছ থেকে ১১ কেজি নিষিদ্ধ মাদক দ্রব্য গাঁজা উদ্ধার করা হয়। শুক্রবার রাত নয়টার দিকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। শনিবার দুপুরে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য নিশ্চিত করেন টঙ্গী পূর্ব থানার অফিসার ইনচার্জ আশরাফুল ইসলাম। গ্রেফতারকৃতরা হলো, টঙ্গীর নতুন বাজার রেলওয়ে কলোনির মৃত হানিফ মিয়া ছেলে বিল্লাল হোসেন(৩৩) ও ময়মনসিংহ সদরের মধ্য বাড়েরা মজিদ মার্কেট খাঁ বাড়ি এলাকার আদম আলী(৩২)। তারা উভয়ই নতুন বাজার রেলওয়ে কলোনিতে বসবাস করত। সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরো জানানো হয়, গ্রেফতারকৃত বিল্লাল ও আদম আলী দীর্ঘদিন যাবৎ সীমান্ত এলাকা থেকে নিষিদ্ধ মাদকদ্রব্য গাজা এনে টঙ্গীসহ আশপাশের এলাকায় বিক্রি করতো। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে টঙ্গীর নতুন বাজার এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। টঙ্গী পূর্ব থানার অফিসার ইনচার্জ আশরাফুল ইসলাম জানান, গ্রেফতারকৃত দুই মাদক কারবারের বিরুদ্ধে নিয়মিত আইনে মামলা দায়ের করে বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

টঙ্গীতে ট্রেনের ধাক্কায় নারীর মৃত্যু

বি এ রায়হান, গাজীপুর :--- গাজীপুরের টঙ্গীর বনমালা রোড হায়দারাবাদ ব্রিজের দক্ষিণ পাশের এলাকায় ট্রেনের ধাক্কায় জেসমিন আক্তার শান্তা (৩১) নামে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। বুধবার দুপুরে এঘটনা ঘটে। এসময় ওই নারীর মাথা ও শরীরের বিভিন্ন অঙ্গ থেতলে যায়। নিহত জেসমিন আক্তার শান্তা (৩১) পটুয়াখালী জেলার বাউফল থানার মান্দারবন গ্রামের আজিজ মাষ্টারের মেয়ে। তিনি হায়দারাবাদ দিঘির পার এলাকায় স্বপরিবারে বসবাস করতেন। স্থানীয়দের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, রেল লাইন পার হওয়ার সময় ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা অগ্নিবীনা এক্ষপ্রেস ট্রেনের সাথে ধাক্কা লেগে পড়ে গিয়ে গুরুতর আঘাতপ্রাপ্ত হয়ে ঘটনাস্থলে মৃত্যুবরণ করেন ওই নারী। খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয় লাশটি উদ্ধার করা হয়। টঙ্গী রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির সহকারী উপ-পরিদর্শক কামাল হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, মরদেহ উদ্ধার করে নিহতের স্বজনদের আবেদনের প্রেক্ষিতে তার মায়ের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

টঙ্গীর তুরাগ তীরে বিআইডব্লিউটিএ'র উচ্ছেদ অভিযান

বি এ রায়হান, গাজীপুর :-- টঙ্গীর তুরাগ তীরে অবৈধভাবে গড়ে ওঠা বিভিন্না স্থাপনা উচ্ছেদ করতে অভিযান চালিয়েছে বিআইডব্লিউটিএ। বুধবার সকাল থেকে শুরু হওয়া এই উচ্ছেদ অভিযানে নেতৃত্ব দেন বিআইডব্লিউটিএ এর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তাসলিমা আক্তার। টঙ্গীর পাগাড় এলাকায় অভিযানে নোমান গ্রুপের মালিকানাধীন জাবের অ্যান্ড জোবায়ের ফ্রেব্রিক্স কারখানার দখলে থাকা প্রায় এক কিলোমিটার বেদখল জায়গা উচ্ছেদ করা হয়। এসময় কারখানার সীমানা প্রাচীর, টিনশেডের চিড়িয়াখানাসহ বহুতল ভবন গুড়িয়ে দেওয়া হয়। তবে কারখানা কর্তৃপক্ষের দাবি, বিনা নোটিশে উচ্ছেদ করেছে বিআইডব্লিউটিএ। এতে কারখানাটির প্রায় ৫০০ কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এসময় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তাসলিমা আক্তার বলেন, নোমান গ্রুপের মালিকানাধীন জাবের এন্ড জুবায়ের ফেব্রিক্স কারখানার সাথে বিআইডব্লিউটিএ'র একটি মামলা গত সাত বছর যাবত আদালতে চলমান ছিল। যার দরুন এই জায়গায় স্টে অর্ডার ছিল। সেই আদেশের সময় শেষ হওয়ার পর হাইকোর্টের রায় নিয়ে আমরা এই অভিযান পরিচালনা করছি। উদ্ধারকৃত এলাকায় জনসাধারণের জন্য ওয়াকওয়ে নির্মাণ করবে বিআইডব্লিউটিএ।

মাদক বিক্রিতে বাঁধা টঙ্গীতে যুবককে কুপিয়ে জখম

বি এ রায়হান, গাজীপুর :-- গাজীপুরের টঙ্গীতে মাদক বিক্রি করতে বাঁধা দেওয়ায় দীপ্ত (২৫) নামে এক যুবকের হত্যার উদ্দেশ্যে কুপিয়ে জখম করেছে স্থানীয় মাদক কারবারিরা। গত ১০ জুন শনিবার দুপুরে টঙ্গী পূর্ব থানাধীন মরকুন পশ্চিম পাড়া এলাকার জনৈক হান্নান মিয়ার মুদি দোকানের সামনে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় (১৩ জুন) মঙ্গলবার রাতে টঙ্গী পূর্ব থানায় ভুক্তভোগীর মা বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়েরের পর ঘটনার সাথে জড়িত একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃত আসামী নাঈম (২৮) ময়মনসিংহ জেলার নান্দাইল থানার সুন্দাইল গ্রামের কাঞ্চন মিয়ার ছেলে। মামলায় অপর আাসামীরা হলেন, টঙ্গী রেলওয়ে বস্তি এলাকার মৃত উজির মিয়ার ছেলে রুবেল (২৮) ও একই এলাকার শুক্কুর আলীর ছেলে বিল্লাহ হোসেন (২৯)। মামলা সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন যাবৎ মামলার বাদী কোহিনুর বেগম বাড়ির পাশে মাদক বেচা কেনা করছিল আসামি রুবেল, বিল্লাল, নাঈম সহ বেশ কয়েকজন মাদক কারবারি। বিষয়টি জানতে পেরে তাদের বাঁধা দেয় বাদীর ছেলে দীপ্ত। এবিষয়ে মাদক কারবারিদের সাথে দীপ্তর একাধিকবার কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে শনিবার দুপুরে স্থানীয় মুদি দোকানের সামনে দীপ্তকে একা পেয়ে তার উপর ধারালো অস্ত্র দিয়ে হামলা চালায় মাদক কারবারিরা। এসময় তারা দীপ্তকে হত্যার উদ্দেশ্যে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে জখম করে। দীপ্তর আত্মচিৎকারে তার মা ও ছোট ভাই এগিয়ে এলে তাদেকেও কুপিয়ে জখম করে সন্ত্রাসীরা। পরে স্থানীয়রা এগিয়ে এসে তাদের উদ্ধার করে টঙ্গীর শহীদ আহসান উল্লাহ মাষ্টার জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক দীপ্তকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের প্রেরণ করেন। টঙ্গী পূর্ব থানার অফিসার ইনচার্জ আশরাফুল ইসলাম জানান, এঘটনায় থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। একজন আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকিদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

গাজীপুর উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যানের সাথে জিইউজে’র মতবিনিময়

গাজীপুর প্রতিনিধি : -- গাজীপুর উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান জননেতা এড. আজমত উল্লা খানের সাথে বুধবার দুপুরে গাজীপুর সাংবাদিক ইউনিয়ন (জিইউজে)’র নেতৃবৃন্দ শুভেচ্ছাসহ মতবিনিময় করেছেন। ওই সময় তিনি গাজীপুরের উন্নয়নে সাংবাদিকসহ সকল মহলের সহযোগিতা চেয়েছেন। মতবিনিময়কালে আজমত উল্লা খান বলেন- আমরা একটি পরিকল্পিত নগরী গড়ে তোলার লক্ষ্যে কাজ করবো। এখানে নকশা বহি:র্ভূত অবৈধভাবে গড়ে উঠা বাড়ি-ঘর চিহ্নিত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। ইতিমধ্যে বিভিন্ন ঘর-বাড়ি চিহ্নিত করে ঘর-বাড়ির মালিকদেরকে নোটিশ প্রদান করা হচ্ছে। তিনি আরো বলেন- গাজীপুর সিটির প্রতিটি ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে কবরস্থান ও ২/৩ ওয়ার্ড মিলে এলাকা ভিত্তিক শ্মশান নির্মাণসহ পার্ক নির্মাণের উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে। এছাড়া সরকারি ও বেসরকারি পুকুরের শ্রী-বৃদ্ধি করে মানুষের ব্যবহারযোগ্য করা হবে। তিনি আরো বলেন- শহরকে সুন্দর করতে হলে, হয়তো আমাকে কঠোর হতে হবে। তাতে অনেকে অনেক আলোচনা-সমালোচনা করবেন। কিন্তু শহরের স্বার্থে মানুষের কল্যাণে আমাকে কাজ করতেই হবে। আজমত উল্লা খান বলেন- গাজীপুর উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ কারো প্রতিপক্ষ নয়। এটি সকলের সাথে সমন্বয় করে কাজ করবে। তবে আমাদের জনবল ও বাজেট তেমন নেই। রাজউক’র সহযোগিতা নিয়েই কাজ চলছে। দ্রুত সকল সমস্যার সমাধান হবে। গাজীপুর সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আতাউর রহমানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন- ইত্তেফাকের সিনিয়র সাব-এডিটর মোঃ আল মামুন, গাজীপুর সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক এম.এ সালাম শান্ত, সহ-সভাপতি মোঃ আলমগীর হোসেন, ইত্তেফাকের গাজীপুর প্রতিনিধি মোঃ মুজিবুর রহমান প্রমুখ। তা ছাড়াও মতবিনিময সভায় বক্তব্য রাখেন- গাজীপুর উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের সচিব মোস্তাফিজুর রহমান। অপরদিকে মতবিনিময় সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন- গাজীপুর সাংবাদিক ইউনিয়নের কোষাধ্যক্ষ মোঃ মনিরুজ্জামান ও সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদ আলী ভূঁইয়াসহ কালীগঞ্জ ইউনিট চিফ আব্দুল গাফ্ফার ও ডেপুটি চিফ মোঃ খোরশেদ আলম, কালিয়াকৈর ইউনিট চিফ মোঃ মাসুদ রানা, জিএমপি সদর থানা ডেপুটি চিফ শেখ মোঃ রাশেদ উল হোসেন কমল, জিএমপি বাসন থানা ইউনিট চিফ মোঃ জাহাঙ্গীর আলমসহ সাংবাদিক ইউনিয়নের সদস্য যথাক্রমে মাহবুবুর রহমান, মোঃ রেজাউল করিম, কাজী শাকিল, মুন্নি খানম ও কালীগঞ্জের মোঃ মজিবুর রহমান প্রমুখ।

পূবাইল সাংবাদিক ক্লাবের সভাপতি রবিউল সম্পাদক আল-আমিন

বি এ রায়হান, গাজীপুর :---- গাজীপুর মহানগর ও পূবাইল মেট্রোপলিটন থানার প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকদের নিয়ে পূবাইল সাংবাদিক ক্লাবের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করা হয়েছে। এতে দৈনিক আমার সংবাদের পূবাইল প্রতিনিধি রবিউল আলমকে সভাপতি এবং দৈনিক সোনালী খবর এর পূবাইল প্রতিনিধি আল আমিন সরকারকে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করে ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কার্যনির্বাহী কমিটি ঘোষণা করা হয়। রবিবার ১১ জুন সন্ধ্যায় মহানগরীর পূবাইল থানার মীরের বাজার ফৌজিয়া সরকার কমার্শিয়াল কমপ্লেক্স এর তৃতীয় তলায় নিজ অফিস প্রাঙ্গনে ক্লাবের সকল সদস্য ও বিশিষ্ট জনদের উপস্থিতিতে এই কমিটি গঠন করা হয়। কমিটির অন্যান্য সদস্যরা হলেন, সিনিয়র সহ-সভাপতি দৈনিক জবাবদিহির সোহেল রানা, সহ-সভাপতি এশিয়ান টিভির পূবাইল প্রতিনিধি টিটন কুমার ঘোষ, সহ-সাধারণ সম্পাদক আনন্দ টিভির টঙ্গী ও পূবাইল প্রতিনিধি শাকিল আহমেদ, সাংগঠনিক সম্পাদক দৈনিক সন্ধ্যা বাণী ও যুগ যুগান্তরের শাহিন সরকার, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক দৈনিক কালের ছবির আবু সাঈদ চৌধুরী, কোষাধ্যক্ষ দৈনিক আজকের বসুন্ধরার এইচ এম নুরুল হক বাবু দপ্তর সম্পাদক ঢাকা রিপোর্টাস ২৪ এর সৌরভ, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক দৈনিক দেশজগতের তুষার সোহাগ, মহিলা সম্পাদিকা দৈনিক আমাদের সংবাদের কবিতা ইসলাম। কার্যনির্বাহী সদস্য দৈনিক নওরোজ ও ঢাকা প্রকাশ এর আবু সাঈদ, দৈনিক নাগরিক ভাবনার হাফিজুল ইসলাম, দৈনিক মাতৃ জগতের রাকিবুল ইসলাম। সাধারণ সদস্যরা হলেন সাপ্তাহিক এশিয়া বার্তা এর ইসরাফিল হোসেন রানা, মুক্তির চেতনায় বাংলাদেশ বাচ্চু তালুকদার, বাংলা খবরের সোহেল রানা। কার্যনির্বাহী কমিটি গঠন অনুষ্ঠানে পূবাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি জাহিদুল ইসলাম সহ বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

ফের গ্রেফতার নারী মাদক কারবারি শিরিন।

বি এ রায়হান, গাজীপুর :--- গাজীপুরের টঙ্গীর আলোচিত নারী মাদক কারবারি শিরিন আক্তারকে গ্রেফতার করেছে টঙ্গী পূর্ব থানা পুলিশ। বুধবার ৭জুন টঙ্গীর মদিনা পাড়া এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এসময় তার কাছ থেকে ১শত ১০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়। এর আগে ২০২২ সালের জুলাই মাসে ২হাজার ৯শত ২৫ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট সহ র‍্যাবের হাতে আটক হয়েছিলেন এই নারী মাদক কারবারি। বছর না ঘুরতেই ২য় বারের মত মাদকসহ গ্রেফতার হলেন তিনি। পুলিশ জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে টঙ্গী পূর্ব থানাধীন আরিচপুর মদিনা পাড়া এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, সে দীর্ঘদিন যাবৎ টঙ্গী ও আশেপাশের এলাকায় নিষিদ্ধ মাদকদ্রব্য ইয়াবা বিক্রি করে আসছিল। টঙ্গী পূর্ব থানার অফিসার ইনচার্জ আশরাফুল ইসলাম জানান, গ্রেপ্তারকৃত আসামির বিরুদ্ধে নিয়মিত আইনে মামলা দায়ের করে বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

গাজীপুরে পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ

বি এ রায়হান, গাজীপুর:---- গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের ট্রাফিক বিভাগের পরিদর্শক আলী আজমের বিরুদ্ধে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণের অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী এক তরুনী। সোমবার মধ্যরাতে টঙ্গীর স্থানীয় একটি হাসপাতালে সাংবাদিকদের কাছে এই অভিযোগ করেন তিনি। এসময় ওই তরুনী বলেন, দুই বছর আগে গাইবান্ধা জেলার সাঘাটা উপজেলায় কর্মরত ছিলেন ট্রাফিক পুলিশের পরিদর্শক আলী আজম। চাকরী সুবাদে পরিচয় হয় গাইবান্ধার ওই তরুনীর সাথে। একপর্যায়ে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ওই তরুনীর সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন আলী আজম। এসময় তরুনীর সাথে শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তোলেন তিনি। এরপর হঠাৎ তার বদলী হয়ে যায় গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশে। কিছুদিন পর তরুনীকে গাজীপুরে নিয়ে এসে টঙ্গীর দত্তপাড়া এলাকায় স্বামী স্ত্রী পরিচয়ে বাসা ভাড়া নেন ওই পুলিশ কর্মকর্তা। অনৈতিক সম্পর্কের বিষয়টি গোপন রাখতে বার বার বাসা পরিবর্তন করতেন তিনি। একপর্যায়ে তার আচরণ বিধি সন্দেহ হলে বিয়ের জন্য চাপ দেন ওই তরুনী। বিভিন্ন তালবাহানায় কালক্ষেপন করতে থাকেন ওই পুলিশ কর্মকর্তা। একপর্যায়ে নিজের স্ত্রী সন্তানের দোহায় দিয়ে তরুণীকে বিয়ে করতে অপারগতা প্রকাশ করেন আলী আজম। এনিয়ে দুজনের মধ্যে দ্বন্দ্ব সৃষ্টি হলে কৌশলে তরুনীকে বাড়ি পাঠিয়ে দিয়ে বাসা পরিবর্তন করেন আলী আজম। বাড়িতে গিয়ে তরুণী তার সাথে যোগাযোগ করতে না পেরে পুনরায় গাজীপুর এসে তার সন্ধান করতে থাকেন। এসময় এক পুলিশ সদস্যের সহায়তায় আজমের বাসার সন্ধান পান তিনি। পরে ওই বাসায় উপস্থিত হলে তরুণীকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন আজম। একপর্যায়ে তরুণীকে বাসা থেকে বের করে দেন পুলিশ কর্মকর্তা। পরে রোববার রাত আটটার দিকে টঙ্গী হোসেন মার্কেট এলাকায় কর্তব্য পালনকালে আজমের মুখোমুখি হন ওই তরুণী। এ সময় তাদের মধ্যে বাকবিতন্ডা হলে স্থানীয় পথচারী ও কয়েকজন গণমাধ্যমকর্মীর দৃষ্টিগোচর হয় বিষয়টি। এসময় অসুস্থতার ভান করে পার্শ্ববর্তী একটি বেসরকারী হাসপাতালে ভর্তি হন পুলিশ পরিদর্শক আলী আজম। পরে ঘটনাটি এরিয়ে যেতে সোমবার ভোরে গোপনে হাসপাতাল ত্যাগ করেন তিনি। সোমবার সকালে ওই তরুণী গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের ট্রাফিক বিভাগের উপ পুলিশ কমিশনার আলমগীর হোসেনের কাছে মোখিক অভিযোগ করেন। অভিযোগের খবর পেয়ে  তরুণীকে কৌশলে ডেকে এনে টঙ্গীর একটি রেস্তোরাঁয় বিষয়টি মিমাংসা করার চেষ্টা করেন আজম। আলোচনাকালে বিয়ে করতে অপারগতা প্রকাশ করলে অসুস্থ হয়ে পরে ওই তরুণী। খবর পেয়ে সংবাদকর্মীরা সেখানে উপস্থিত হলে তরুণীকে নিয়ে দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন ট্রাফিক পরিদর্শক আলী আজম। ভুক্তভোগী তরুণী আরো বলেন, আমি আর দশজন নারীর মতো শরীয়ত মোতাবেক তার সাথে সংসার করতে চাই। তিনি দীর্ঘ দেড় বছর যাবত আমার সাথে স্বামী-স্ত্রীর মতো ছিলেন। আমি বিয়ের জন্য চাপ দেওয়ায় তিনি এখন আমার সাথে দুর্ব্যবহার করছেন। প্রয়োজনে আমি আইনের আশ্রয় নেব। এ বিষয়ে পুলিশ পরিদর্শক আলী আজম এর সাথে একাধিকবার মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি খুদেবার্তা পাঠালেও তিনি কোনো উত্তর দেননি। এ বিষয়ে জানতে চাইলে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের ট্রাফিক বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার আলমগীর হোসেন বলেন, ভুক্তভোগী তরুণী আমাদের কাছে মৌখিকভাবে জানিয়েছেন আমরা তাকে লিখিতভাবে অভিযোগ দেওয়ার পরামর্শ দিয়েছি। লিখিত অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতার প্রতিবাদে মানববন্ধন

বি এ রায়হান, গাজীপুর:---- নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের ৫৭ নং ওয়ার্ডেরসদ্য বিজয়ী কাউন্সিলর গিয়াস উদ্দিন সরকারের অনুসারীদের হামলা, মারধর, লুটপাট, দখলবাজি, বসত ঘর-দোকানপাট তালাবদ্ধ করা ও অব্যাহত হুমকির প্রতিবাদে ও এসব অমানবিক ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের দাবিতে মানববন্ধন করেছে ওই ওয়ার্ডের নির্যাতিত জনগন। বৃহস্পতিবার বিকেলে টঙ্গীর স্টেশন রোড এলাকায় এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় বক্তারা বলেন, সিটি নির্বাচনে আমরা দলীয় প্রতীক নৌকার হয়ে কাজ করেছি পাশাপাশি স্থানীয় কাউন্সিলর পদপ্রার্থী মিষ্টিকুমড়া প্রতিকার শেখ মোঃ নজরুল ইসলামের হয়ে কাজ করি। নির্বাচনে মিষ্টি কুমড়া পথিকের কাউন্সিলর প্রার্থী পরাজিত হলে বিজয়ী কাউন্সিলর প্রার্থী গিয়াস উদ্দিন সরকারের অনুসারীরা নির্বাচনের দিন সন্ধ্যার পর থেকে আমাদের উপর অত্যাচার শুরু করে। তারা আমাদের ঘরবাড়ি দোকানপাট ভাঙচুর চালায় আমাদের মারধর করে আমাদের বাসা বাড়িতে তালা লাগিয়ে দেয়। এখন পর্যন্ত তাদের ভয় শতাধিক লোক এলাকাছাড়া। আমরা এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই সেইসাথে প্রশাসনের কর্তা ব্যক্তিদের কাছে আবেদন জানাই হাজী মাজার বস্তি তথা পুরো ৫৭ নং ওয়ার্ডে যে ভীতিকর পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে তা থেকে আমাদের উত্তরণ করুন। আমরা এ দেশের নাগরিক আমাদের স্বাভাবিক ভাবে বাঁচতে দিন। এসময় ৫৭ নম্বর ওয়ার্ড যুবলী‌গের সাধারন সম্পাদক শাহ আলম, ওয়ার্ড যুবলী‌গের সাংগঠ‌নিক সম্পাদক র‌ফিকুল ইসলাম, সা‌বেক টঙ্গী থানা ছ‌াত্রলী‌গের গণ শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক শাহাদাত হো‌সেন রা‌সেল,ওয়ার্ড যুবলী‌গের সা‌বেক সাধারণ সম্পাদক হারুন অর র‌শিদ, মোহাম্মদ আলী, জাফর সিকদার, আবু তা‌লেব, খোকন,সাঈদ মিয়া, কাজলী বেগম, স‌কিনা, রা‌হেলাসহ হাজী মাজার ব‌স্তির অসহায় লোকজন উপ‌স্থিত ছি‌লেন।

টঙ্গীর ৫৭নং ওয়ার্ডে নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতা; হামলা ভাংচুর

বি এ রায়হান, গাজীপুর: --- গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার পর থেকে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে টঙ্গী শিল্পাঞ্চল। বিভিন্ন ওয়ার্ডে পরাজিত প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকদের উপর দফায় দফায় চলছে হামলা ভাঙচুর। নগরীর ৫৭ নং ওয়ার্ডের টঙ্গী বাজার হাজীর মাজার বস্তি এলাকায় নির্বাচনের পরের দিন সকাল থেকে শনিবার রাত পর্যন্ত পরাজিত কাউন্সিলর প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকদের উপর দফায় দফায় মারধর, হামলা, ভাংচুর ও হুমকির ঘটনা ঘটেছে। হামলার অন্তত ১৫ জন নারী পুরুষ আহত হয়েছেন। আতঙ্কে ঘরছাড়া হয়েছেন অর্ধশতাধিক নারী-পুরুষ। এ ঘটনায় গত দুইদিনে পৃথক নয়টি অভিযোগ হয়েছে টঙ্গী পূর্ব ও পশ্চিম থানায়। বর্তমানে এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে। আহতরা হলেন, মিনারা বেগম (৩০), আবু তালেব (৩৫), আলমগীর (৫৩), মোস্তফা (১৩), সালমা (২৫), রাহেলা (৩০), হনুফা (৪০), আছিয়া (৫০), সবুজা বেগম (৩০), সখিনা বেগম (৫০) ও কাজলী বেগম (৩৫) সহ অন্তত ১৫জন। আহতরা সকলে পরাজিত কাউন্সিলর প্রার্থীর কর্মী সমর্থক। অভিযুক্তরা হলেন, আমিনুল ইসলাম স্বপন (৩৫), ইসমাইল হোসেন সিরাজী (৩৫), নুর মোহাম্মদ (২৮), মোমেন (৫৫), ছিদ্দিকুর রহমান ডুবলী (৫০), সালাম শেখ (৫৫), মদন (৫০), গেদা বাবু (৩০). রুুবেল (৩০), বাবুল ওরফে বোগলা (৩৮). আকলী (৩০), লাইলী (২৮), জুসনী (৩০), জহুরা (২৮) সহ অর্ধশতাধিক। অভিযুক্তরা সকলেই বিজয়ী কাউন্সিলর প্রার্থীর কর্মী সমর্থক। অভিযোগ সূত্রে জানা যায, গাজীপুর মহানগরের ৫৭ নং ওয়ার্ড টঙ্গী বাজার এলাকা। সম্প্রতি অনুষ্ঠিত হওয়া সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে এই ওয়ার্ড থেকে সাধারণ কাউন্সিলর হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন টিফিনক্যারিয়ার প্রতীকে গিয়াস উদ্দিন সরকার ও মিষ্টি কুমড়া প্রতীকে শেখ মো. নজরুল ইসলাম। নির্বাচনে বিজয়ী হন টিফিনক্যারিয়ার প্রতিকের প্রার্থী গিয়াস উদ্দিন সরকার। নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে প্রতিপক্ষের কর্মী সমর্থকদের উপর দফায় দফায় হামলা-ভাঙচুর ও হুমকী ধামকীর অভিযোগ ওঠেছে গিয়াস উদ্দিন সরকারের কর্মীদের বিরুদ্ধে। অভিযুক্তদের হামলায় পরাজিত কাউন্সিলর প্রার্থীর কমপক্ষে ১৫ জন নারী পুরুষ আহত হয়। আহতরা টঙ্গী শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালসহ বিভিন্ন ক্লিনিকে চিকিৎসা নেয়। বস্তির অনেকের ঘরে তালা লাগিয়ে দেয় গিয়াস উদ্দিন সরকারের কর্মীরা। তাদের অব্যাহত হুমকী ও মারধরের ভয়ে বহু নারী পুরুষ পালিয়ে রয়েছে। টঙ্গী পশ্চিম থানার অফিসার ইনচার্জ মো. শাহ আলম বলেন, এ ঘটনায় থানায় একাধিক অভিযোগ হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যাবস্থা নেয়া হবে।

নির্বাচনী প্রচারনায় ঠেলাগাড়ি মার্কার কাউন্সিলর প্রার্থী

গাজীপুর প্রতিনিধি:---- গাজীপুরের টঙ্গীর ৫৫ নং ওয়ার্ডে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ঘুরে নির্বাচনী প্রচারনায় ব্যস্ত সময় পার করছেন ঠেলাগাড়ি মার্কার কাউন্সিলর পদপ্রার্থী আবুল হাসেম। তার নির্বাচনী এলাকার ছিন্নমূল বস্তিবাসীর কাছে ভোট ও দোয়া প্রার্থনা করে জনসংযোগ করছেন তিনি। এসময় স্থানীয় জনগন স্বতঃস্ফূর্তভাবে তার নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নেয়। স্থানীয় ব্যবসায়ী ও সমর্থকদের নিয়ে তার নির্বাচনী এলাকার কোনায় কোনায় ঘুরে বেড়াচ্ছেন কাউন্সিলর পদপ্রার্থী আবুল হাসেম। সোমবার বিকেলে নগরীর ৫৫ নং ওয়ার্ডের মিলগেট অলিম্পিয়া গেট এলাকা থেকে গনমিছিলের আয়োজন করেন তিনি। এসময় মিছিলটি অলিম্পিয়া গেট থেকে শুরু হয়ে মিলগেট, স্টেশন রোড, মাছিমপুর, নামার বাজার, কলাবাগান হয়ে তার নিজ কার্যালয়ে গিয়ে শেষ হয়। সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে কাউন্সিলর প্রার্থী বলেন, বিগত ৪০ বছর যাবৎ এলাকার মানুষের সুখে দুঃখে পাশে থেকেছেন তিনি । গত ৫ বছর কাউন্সিলর হিসেবে সফলভাবে দায়িত্ব পালন করেন তিনি। তারা অসম্পন্ন কাজ গুলো সম্পন্ন করার লক্ষে আগামী ২৫ শে মে নির্বাচনে ভোটারদের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণে পুনরায় নির্বাচিত হবেন বলে আশা ব্যক্ত করেন তিনি।

নৌকার প্রচারণায় মুখরিত টঙ্গী

গাজীপুর প্রতিনিধি: আসন্ন গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রচার-প্রচারণায় ব্যাস্ত সময় পার করছেন মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা। তারই ধারাবাহিকতায় শিল্পনগরী টঙ্গীতে চলছে প্রচার-প্রচারণা। শুক্রবার দুপুর থেকে শনিবার দিনভর নৌকা মার্কায় আওয়ামী লীগের প্রচার-প্রচারণায় চালাচ্ছেন কর্মী-সমর্থকরা। প্রচারণায় অংশ নিতে দেখা যায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, মহিলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় পর্যায়ের বর্তমান ও সাবেক নেতাদের। প্রচারণায় ব্যস্ত ওয়ার্ড ও ইউনিট পর্যায়ের নেতাকর্মীরা। শুক্রবার বিকেলে নগরীর ৫৫ নং ওয়ার্ড মাছিমপুর এলাকা থেকে নৌকার সমর্থনে মিছিল বের করে এলাকার আপমর জনগন। মিছিলে নেতৃত্ব দেন ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সভাপতি দ্বীন মোহাম্মদ নিরব। এসময় মিছিল থেকে নৌকার পক্ষে বিভিন্ন স্লোগান দেওয়া হয় সেই সাথে লিফলেট বিতরণ করে নৌকার পক্ষে ভোট চান কর্মী সমর্থকরা। এসময় উপস্থিত ছিলেন ৫৫নং ওয়ার্ড কৃষকলীগের সভাপতি সুমন আহমেদসহ আওয়ামী অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা। মিছিল শেষে সংক্ষিপ্ত সভায় বক্তব্য রাখেন টঙ্গী থানা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ-সভাপতি মনির আহমেদ, মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক নাজমা হোসেন। এসময় নাজমা হোসেন বলেন, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলাকে স্মার্ট বাংলাদেশের রূপান্তরিত করতে, বাংলাদেশের সফল প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে নৌকার বিকল্প নেই। আগামী ২৫ মে নির্বাচনে উন্নয়নের ধারাকে অব্যাহত রাখতে নৌকা মার্কাকে বিপুল ভোটে বিজয়ী করতে হবে। নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে একটি পক্ষ ষড়যন্ত্র করছে। হামলা মামলার নাটক সাজাচ্ছে। কোন ষড়যন্ত্র নৌকার জোয়ার ঠেকাতে পারবেনা। ভাওয়াল বীর শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার এর পবিত্র জন্মভূমিতে কখনোই ষড়যন্ত্রকারীরা সফল হতে পারবে না।

টঙ্গীতে বিপুল পরিমাণ মাদক সহ নারী মাদক কারবারি গ্রেফতার।

বি এ রায়হান, গাজীপুর:-- গাজীপুরের টঙ্গীতে বিপুল পরিমাণ গাঁজাসহ মনি নাছরিন(৪৩) নামে এক চিহ্নিত মাদক কারবারিকে গ্রেফতার করেছে টঙ্গী পূর্ব থানা পুলিশ। এ সময় তার কাছ থেকে ২৭ কেজি গাঁজা উদ্ধার করা হয়। সোমবার রাতে টঙ্গীর আমতলী এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃত নাসরিন টঙ্গীর আমতলী এলাকার চিহ্নিত মাদক কারবারি শাহজালালের স্ত্রী। সে নিজেও দীর্ঘদিন যাবৎ স্বামীর সাথে মিলে মাদক কারবার করে আসছিল। পুলিশ জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে টঙ্গী পূর্ব থানার উপ-পরিদর্শক সাব্বির হোসেনের নেতৃত্বে আমতলী এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে মনি নাসরিনকে গ্রেফতার করা হয়। পলাতক রয়েছে তার স্বামী চিহ্নিত মাদক কারবারি শাহজালাল। গ্রেপ্তারকৃত নাসরিন তার স্বামীর সহযোগিতায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার আখাউড়া থেকে নিষিদ্ধ মাদকদ্রব্য গাঁজা এনে টঙ্গী অঞ্চলের বিভিন্ন এলাকায় বিক্রি করতো। পলাতক শাহজালালের বিরুদ্ধে টঙ্গী পূর্ব থানা সহ দেশের বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। টঙ্গী পূর্ব থানার অফিসার ইনচার্জ আশরাফুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, গ্রেপ্তারকৃত আসামির বিরুদ্ধে নিয়মিত আইনে মামলা দায়ের করে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

প্রচারণায় এগিয় নাসির, আলোচনায় হেলাল, ট্রাম্প কার্ড আজাদ।

বি এ রায়হান, গাজীপুর:--- আগামী ২৫ ম অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন। ৯ মে প্রতিক বরাদ্দের পর আনুষ্ঠানিক ভাবে প্রচার প্রচারনা শুরু করেছে মেয়র ও কাউন্সিলর পদপ্রার্থীরা। ওয়ার্ড ভিত্তিক চলছে মিছিল ও জনসংযাগ। ভোটারদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে চলছে ভোট প্রার্থনা। দেশের বৃহত্তম এই সিটি কর্পারশন নির্বাচন নিয়ে জনমনে বারছে উত্তেজনা। ব্যাতিক্রম নয় টঙ্গীর ৫৪ নং ওয়ার্ডে। এই ওয়ার্ডের কাউন্সিলর হিসেবে ঠেলাগাড়ী মার্কায় নাসির উদ্দিন মোল্লা, ইঞ্জিনিয়ার এম এম হলাল উদ্দিন লাঠিম, আজাদ হোসন ট্রাক্টর, আওলাদ হাসন ঝুড়ি ও বিল্লাহ হোসেন মোল্লা ঘুড়ি মার্কায় নির্বাচনী মাঠে প্রতিদ্বন্ধীতা করছেন। সরেজমিনে ঘুরে জানা যায়, টঙ্গী অঞ্চলের সৌখিন এলাকা খ্যাত আউচ পাড়া ও খাঁ পাড়া এলাকা নিয়ে গঠিত নগরীর ৫৪নং ওয়ার্ড। প্রায় ৪০ হাজার ভোটার আছেন এই ওয়ার্ড। যার বড় একটি অংশ কর্মসুত্র বিভিন্ন জেলা থেকে এসে এই এলাকায় বসবাস করেন। এইসব ভোটারদের কাছে টানতে তাদের দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন কাউন্সিলর প্রার্থীরা। তাদের মধ্যে প্রচার-প্রচারণায় এগিয় আছেন এই ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর ও বর্তমানে ঠেলাগাড়ী মার্কায় কাউন্সিলর প্রার্থী নাসির উদ্দিন মোল্লা। সাবেক কাউন্সিলর হওয়ায় জনপ্রিয়তায় এগিয়ে আছেন তিনি। তার শাসনামলে যোগাযোগ ব্যবস্থার ব্যাপক উন্নয়ন হওয়ায় সাধারণ মানুষের পচন্দের তালিকায় তার নামটাই শুনা যায়। অপরদিকে এবারের নির্বাচনে এই ওয়ার্ডে আলাচনায় রয়েছেন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ইঞ্জিনিয়ার এম এম হেলাল উদ্দিন। এলাকাবাসীর মতে ৫৪ নং ওয়ার্ডে শিক্ষা কার্যক্রম ও মসজিদ মাদ্রাসা নির্মাণে ব্যাপক ভূমিকা রাখায় কাউন্সিলর হিসেবে তিনিও আলোচনায় রয়েছেন। এছাড়া মোল্লা পরিবারের দ্বন্দ্বের কারণে সাধারণ ভোটারদের একটি বড় অংশ তাকে সমর্থন দিবে বলে মনে করছেন স্থানীয়রা। এই ওয়ার্ডের নির্বাচনে এবার তুরুপের তাস হতে পারেন ট্রাক্টর মার্কা নিয়ে নির্বাচনের মাঠে থাকা প্রার্থী আজাদ হোসেন। পরিবহন মালিক সমিতির নেতা ও বৃহত্তর নোয়াখালীর সন্তান আজাদের রয়েছে নিজস্ব ভোট ব্যাংক। নির্বাচনে বিএনপি অংশ না নেওয়ায় বিএনপি সমর্থিত ভোটাররা তাকেই বেচে নেবেন বলে মনে করছেন এলাকাবাসী। এছাড়া পরিছন্ন সমাজকর্মী হিসাবে এলাকায় সুনাম রয়েছে তার। অপর প্রার্থী বিল্লাল হোসেন মোল্লা ঘুড়ি প্রতিক নিয়ে নির্বাচনের মাঠে প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন। যুব সমাজ তার জনপ্রিয়তা থাকলও বিভিন্ন করনে আলোচিত সমালোচিত ছিলেন এই প্রার্থী। সম্প্রতি একটি পোশাক কারখানায় চাঁদাবাজি ও অপহরণ মামলায় আসামি হয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমের শিরানাম হন তিনি। এর আগেও কিশোর গ্যাংয়ের সম্পক্ততার অভিযাগে বিভিন্ন জাতীয় পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হয় তাঁর বিরুদ্ধে। এছাড়াও ঝুড়ি মার্কা প্রতিক নিয়ে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্ধীতা করছেন আওলাদ হোসন। সাংবাদ কর্মী ও সংস্কৃতিমনা মানুষ হিসাবে রয়েছে তার জনপ্রিয়তা। সুশিল সমাজের দৃষ্টি রয়েছে তার দিকেও।

ঝুড়ি মার্কা নিয়ে নির্বাচনী প্রচারণায় কাউন্সিল প্রার্থী হাসান উদ্দিন

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ--- আগামী ২৫ মে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন। এই নির্বাচনে ৫৫নং ওয়ার্ড থেকে ঝুড়ি মার্কা বরাদ্দ পেয়ে আনুষ্ঠানিক ভাবে প্রচারণা শুরু করেছেন কাউন্সিলর পদপ্রার্থী হাজী হাসান উদ্দিন। বুধবার বিকেলে তার নিজ কার্যালয় থেকে এই প্রচারণা শুরু হয়। প্রচারণার অংশ হিসেবে প্রথম দিন সহস্রাধিক লোক নিয়ে মিছিল করেন এই প্রার্থী। এই সময় মিছিলটি অলিম্পিয়া বর্জিত তুলা মার্কেট থেকে শুরু হয় ঢাকা ময়মনসিংহ মহাসড়কের মেলগেট, স্টেশন রোড, মুন্নু গেট হয়ে ৫৫ নং ওয়ার্ডের বিভিন্ন এলাকা প্রদক্ষিণ করে তার নিজ কার্যালয়ে গিয়ে শেষ হয়। এই সময় হাসান উদ্দিন বলেন, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের ৫৫ নং ওয়ার্ড দীর্ঘদিন যাবৎ একটি অবহেলিত ওয়ার্ড। শিল্প অধ্যুষিত এই ওয়ার্ডে বেশিরভাগ নিন্মআয়ের ছিন্নমূল মানুষের বসবাস। ৬টি বস্তি নিয়ে গঠিত এই ওয়ার্ডে অধিকাংশ এলাকায় নেই নুনতম নাগরিক সুবিধা। এই সব নিন্ম আয়ের মানুষের ভাগ্য উন্নয়নে তাদের নাগরিক সুবিধা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে আমি কাউন্সিলর হিসেবে প্রার্থী হয়েছি। আমি এলাকার সর্বস্তরের জনগণের দোয়া সমর্থন ও মূল্যবান ভোট প্রত্যাশী মূল্যবান ভোট প্রত্যাশী।

টঙ্গীতে নৌকার নির্বাচনী কার্যালয় ভাংচুর

বি এ রায়হান, গাজীপুর:---- গাজীপুরের শিল্পনগরী টঙ্গীতে সিটি নির্বাচন উপলক্ষে ৫৭নং ওয়ার্ডে নৌকার নির্মাণাধীন কার্যালয়ে ভাংচুর চালানোর অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় সাবেক কাউন্সিলর গিয়াস উদ্দিন সরকারের কর্মী সমর্থক ও বিএনপি নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে। সোমবার রাতে হাজীর মাজার বস্তি এলাকার হোন্ডা রোডে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থলে এক নারীসহ দুইজন নৌকার সমর্থক আহত হয়। এসময় আওয়ামী লীগের মনোনীত মেয়র প্রার্থী আজমত উল্লা খানের নির্বাচনী ব্যানার ছিড়ে, কাঠের তৈরী নৌকা প্রতিক ভেঙ্গে ফেলা হয়, চেয়ার ভাংচুর করে এবং কার্যালয়ে লাগানো সামিয়ানা ছিড়ে ফেলে। আহতরা হলেন, মাজার বস্তি এলাকার সাগর (২৪) ও আয়েশা (২০)। আহতদের টঙ্গী শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়। বস্তি এলাকার রফিকুল ইসলাম ও অন্যান্য বাসিন্দারা জানায়, সোমবার রাত দশটার দিকে ওই এলাকায় কাউন্সিলর পদপ্রার্থী গিয়াস উদ্দিন সরকারের কর্মী সমর্থকরা গিয়াস উদ্দিন সরকার ও বিএনপি অনুসারি মেয়র প্রার্থী শাহনুর ইসলাম রনি সরকারের পক্ষে ভোট চেয়ে শ্লোগান দিচ্ছিল। এ নিয়ে নৌকা সমর্থক রফিকের সাথে তাদের কথা কাটাকাটি ও বাকবিতন্ডা হয়। একপর্যায়ে গিয়াস উদ্দিন সরকারের সমর্থক স্থানীয় বিএনপি নেতা সিদ্দিকুর রহমান ডুবলীর নির্দেশে মেহের, খোকন ও আছান নির্মাণাধীন নৌকার নির্বাচনী কার্যালয়ে ভাংচুর চালায় ও দুইজনকে মারধর করে আহত করে। এসময় আমিনুল ইসলাম স্বপন, ইসমাইল হোসেন সিরাজী, নুর মোহাম্মদ, মোমেন, বিল্লাল, রুবেলসহ অজ্ঞাত কয়েকজন ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে আমাদের কয়েকজনকে এলাকা ছাড়া করার হুমকি দিয়ে চলে যায়। আহত আয়শো বলেন, গিয়াস উদ্দিন সরকারের লোকজন আমার ভাই সাগরের উপর হামলা চালায়। বাধা দিতে গেলে তারা আমার উপরও হামলা চালায়। এসময় তারা ধারালো অস্ত্র দিয়ে আমার গলায় ও মাথায় আঘাত করে। স্থানীয় কাউন্সিলর পদপ্রার্থী গিয়াস উদ্দিন সরকার বলেন, তারা আমার লোকজনের ওপর হামলা করে। আমি ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে সকলকে শান্ত থাকার জন্য অনুরোধ করি। যোগাযোগ করা হলে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশেরর টঙ্গী জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার মেহেদী হাসান জানান, থানায় অভিযোগ হয়েছে কিনা বিষয়টি জানা নেই। খোঁজ খবর নিয়ে দেখছি।

গাসিক নির্বাচনে তিন পদের বিপরীতে লড়বেন ৩২৪ জন প্রার্থী।

বি এ রায়হান, গাজীপুর:-- আগামী ২৫ মে তৃতীয় বারের মতো অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন। এ নির্বাচনে মেয়র, কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে মোট ৩২৪ জন প্রার্থী লড়াই করবেন। সোমবার মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিন মেয়র পদে একজন ও কাউন্সিলর পদে ৩৬জন প্রার্থী মনোনয়ন প্রত্যাহার করে নেন। সর্বশেষ মেয়র পদে ৮জন, সংরক্ষিত ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদে ৭৭জন ও সাধারণ ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদে ২৩৯জন প্রার্থী মূল লড়াইয়ে রয়েছেন। আগামীকাল মঙ্গলবার তাদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্ধ দেয়া হলে আনুষ্ঠানিক ভাবে প্রচার প্রচারণা শুরু হবে। গাজীপুর সিটি নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা ফরিদুল ইসলাম বলেন, নির্বাচনে মেয়র পদে ১২জন প্রার্থী মনোনয়ন পত্র দাখিল করেছিল। এর মধ্যে যাচাই বাছাইয়ে তিন জনের মনোনয়ন বাতিল হয়, একজন প্রত্যাহার করে নেন। অপরদিক, সাধারণ ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদে ২৮৯জন প্রার্থী মনোনয়ন পত্র দাখিল করেন, নির্বাচন কমিশন ১৭জনের প্রার্থীতা বাতিল করলেও আপিলে ফিরে এসেছিলেন ৩জন। প্রত্যাহারের শেষ দিনে ৩৬জন তাদের মনোনয়ন প্রত্যাহার করে নেন। সংরক্ষিত ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদে ৮২জন মনানয়ন পত্র দাখিল করলেও ৬জনের বাতিল হয়েছিল, পরে আপিলে ১জন ফিরে আসে। তিনি আরও জানান, ৫৭টি ওয়ার্ডের গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনে মোট ভোটার ১১লাখ ৭৯হাজার ৪৭৬জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৫ লাখ ৯২হাজার ৭৬২জন, মহিলা ভোটার ৫লাখ ৮৬হাজার ৬৯৬জন। এছাড়াও বিপরীত লিঙ্গের (হিজড়া) ভোটার আছে ১৮জন। ৪৮০টি ভোট কেন্দ্র ভোট গ্রহণের জন্য তৈরী করা হয়েছে।

শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার এর ১৯ তম মৃত্যুবার্ষিকীতে আলোচনা সভা।

বি এ রায়হান, গাজীপুর: -- মরণোত্তর স্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত মৃত্যুঞ্জয়ী ভাওয়াল বীর শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টারের ১৯ তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার দুপুরে টঙ্গীর নোয়াগাঁও এম এ মজিদ মিয়া উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি মন্ডলীর সদস্য মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টারের সুযোগ্য সন্তান যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল এমপি। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার স্নেহের ছোট ভাই গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মতিউর রহমান মতি, মহানগর আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ইলিয়াস আহমেদ, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক বিল্লাল হোসেন। টঙ্গী থানা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা ফজলুল হক। স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর নুরুল ইসলাম নুরু প্রমূখ। এ সময় বক্তারা শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার এর হত্যাকারীদের দ্রুত সময়ের মধ্যে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান। প্রধান অতিথির বক্তব্যে মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বলেন আসন্ন গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন ও জাতীয় নির্বাচনে দ্বিতীয় গোপালগঞ্জ খ্যাত গাজীপুর থেকে নৌকার প্রার্থীদের বিপুল ভোটে বিজয়ী করতে হবে সেই লক্ষ্যে আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে। তিনি আরো বলেন, আওয়ামী লীগ যাকে কাছে টানে সে হিরো হয়ে যায় যাকে বিতারিত করে সে হয়ে যায় বিগ জিরো। দলের বিরুদ্ধে অবস্থান নিলে কারো পরিনতি ভাল হবে না।

টঙ্গীতে শহীদ আহসান উল্লাহ মাষ্টারের মৃত্যুবার্ষিকী পালিত।

বি এ রায়হান, গাজীপুর:-- গাজীপুরের টঙ্গীতে মরনোত্তর স্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত মৃত্যুঞ্জয়ী ভাওয়াল বীর শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার এর ১৯ তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। রবিবার বিকেলে ৫৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদপ্রার্থী হাজী হাসান উদ্দিন এর উদ্যোগে ৫৫ নং ওয়ার্ডের বিভিন্ন মসজিদ ও মাদ্রাসায় দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। সময় বালবির শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার এর আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। ৫৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদপ্রার্থী হাজী হাসান উদ্দিন বলেন, শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার শুধু একটি নাম নয়। শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার একটি আদর্শ যতদিন বেঁচে থাকব শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার এর আদর্শ নিয়ে বেঁচে থাকব। দীর্ঘ উনিশ বছর পেরিয়ে গেলেও শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার এর হত্যাকারীদের বিচারকার্য এখন পর্যন্ত সম্পন্ন হয়নি। আমরা টঙ্গী বাশি তথা গাজীপুরের সর্বস্তরের জনগণ ওই নরপিশাচ হায়নাদের দ্রুত বিচারের দাবি জানাচ্ছি।

টঙ্গীতে পোস্টার লাগাতে গিয়ে নির্মাণ শ্রমিকের মৃত্যু।

ডেক্স নিউজ ---- গাজীপুরের টঙ্গীতে একটি মাদ্রাসার পোস্টার লাগাতে গিয়ে সাদিকুল ইসলাম (২৫) নামে এক নির্মাণ শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে টঙ্গী পশ্চিম থানাধীন সাতাইশ শরীফ মার্কেট এলাকা এঘটনা ঘটে। নিহত সাদিকুল ইসলাম নেত্রকোনা জেলার দুর্গাপুর থানার মধ্যবাগান গ্রামের হাসান আলীর ছেলে। জানা গেছে, শুক্রবার দুপুরের দিকে নিহত সাদিকুলসহ কয়েকজন নির্মাণ শ্রমিক মারকাযুল কুরআন ওয়াস সুন্নাহ মাদ্রাসার পোস্টার লাগাতে সাতাইশ শরীফ মার্কেট এলাকার জনৈক ফিরোজ খানের ভবনে উঠে। ভবনের পশ্চিম ও উত্তর পাশের অংশের পোস্টার স্বাচ্ছন্দে লাগাতে সক্ষম হলেও ভবনের মাঝের অংশে পোস্টার লাগাতে এসে বাধে-বিপত্তি। বৈদ্যুতিক ৩৩ হাজার ভোল্টের তারের সাথে জড়িয়ে পড়ে সাদিকুল। বেশ কিছু সময় বৈদ্যুতিক তারে ঝলসে নিচে পড়ে যায় ওই যুবক। এসময় ঘটনাস্থলে তার মৃত্যু হয়। টঙ্গী পশ্চিম থানা ওসি শাহ আলম জানান, লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

পূবাইলে রিসোর্টের পুকুরে ডুবে দুই স্কুল ছাত্রের মৃত্যু

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুর মহানগরীর পূবাইলে একটি রিসোর্টের পুকুরে ডুবে দুই স্কুল ছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। বুধবার (৩মে) দুপুর দেড়টার দিকে পূবাইল থানার মেঘডুবি এলাকার সাবরিনা ড্রিম রিসোর্ট এন্ড পার্কে এই ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন- টঙ্গীর মধ্য আরিচপুর এলাকার লিটন মিয়ার ছেলে রুমান (১৫) ও একই এলাকার আজিজুল হকের ছেলে হামিম (১৫)। তারা দুজনেই স্থানীয় একটি স্কুলে নবম শ্রেণিতে পড়তো। গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের পূবাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ জাহিদুল ইসলাম জানান, মেঘডুবি এলাকায় সাবরিনা ড্রিম রিসোর্ট অ্যান্ড পার্কে বেড়াতে যায় রুমান ও হামিমসহ ৪জন। এক পর্যায়ে দুপুরে তারা ওই পার্কের একটি পুকুরে গোসল করতে নামে। এসময় রুমান ও হামিম ডুবে যায়। খবর পেয়ে পুলিশ ও স্থানীয়রা ঘটনাস্থলে গিয়ে পুকুর থেকে মৃত অবস্থায় রুমান ও হামিমকে উদ্ধার করে। পরে ময়নাতদন্ত ছাড়াই মরদেহ নিহতের স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন আছে।

গাজীপুরে হামলাকারীদের গ্রেফতারের দাবীতে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা

বি এ রায়হান, গাজীপুর: গাজীপুর সদর থানা শেখ রাসেল জাতীয় শিশু কিশোর পরিষদের সাবেক সভাপতি তরুন সমাজ সেবক জাহাঙ্গীর আলম জিকুর উপর জামাত বিএনপির এজেন্ট রফিকুজ্জামান রফিকের নেতৃত্বে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় আাসামীদের গ্রেফতারের দাবীতে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার বিকেলে স্থানীয় ৩১নং ওয়ার্ড এলাকাবাসীর উদ্যোগে ভারারুল জামতলা এলাকায় এই সভা অনুষ্ঠিত হয়। এসময় জাহাঙ্গীর আলম জিকুর উপর হামলাকারীদের দ্রুত গ্রেফতার ও বিচারের দাবীতে বিভিন্ন শ্লোগান দেন এলাকাবাসী। প্রতিবাদ সভায় বক্তারা বলেন, পবিত্র ঈদুল ফিতরের দিন সন্ধ্যায় জামাত বিএনপির এজেন্ট সাবেক কাউন্সিলর রফিকুজ্জামান রফিকের নেতৃত্বে তার সন্ত্রাসীরা বাহিনী অযাচিত ভাবে যে অতর্কিত হামলা চালিয়েছে তা খুবই লজ্জাজনক। জাহাঙ্গীর আলম জিকু একজন দানবীর তরুন সমাজ সেবক এলাকার সর্বস্থরের মানুষের আস্থা ও ভালাবাসার মানুষ। তার উপর এমন সন্ত্রাসী হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। সেই সাথে হামলার ঘটনায় জড়িত সন্ত্রাসীদের দ্রুত আইনের আওতায় আনার দাবী জানান তারা। হামলার শিকার জাহাঙ্গীর আলম জিকু বলেন, আমার উপার্জনের একটি বড় অংশ আমি সাধারন মানুষের প্রয়োজনে ব্যায় করে থাকি। সবসময় তাদের সুখে দূঃখে পাশে থাকার চেষ্টা করি। যেহেতু সামনে সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন আমি স্থানীয় কাউন্সিলর পদপ্রার্থী আলমাস মোল্লার সমর্থনে নির্বাচনী প্রচারনা করছিলাম। পবিত্র ঈদুল ফিতরের দিন সন্ধ্যায় আমি এলাকাবাসীর সাথে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় ও প্রচারনা চালানোর সময় সাবেক কাউন্সিলর রফিকুজ্জামান রফিকের নেতৃত্বে সন্ত্রাসী ইকবাল হোসেন, জান্নাত, সাইদুল ইসলাম, হারুন, শাহিন পারভেজ, জাকির হোসেন, বিল্লাল হোসেন, রানা মিয়া, নবীন রানা, লিটন মিয়াসহ অজ্ঞাত ১৫/২০ জন সন্ত্রাসী দেশী বিদেশী অস্ত্র নিয়ে আমার উপর হামলা চালায়। এসময় তাদের ধাড়ালো অস্ত্রের আঘাতে আমি গুরুতর আহত হই। পরে স্থানীয়দের সহায়তায় আমি হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নেই এবং তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করি। এই ঘটনায় জড়িতদের দ্রুত আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যাবস্থা করতে প্রশাসনের কাছে জোর দাবী জানাচ্ছি। এসময় উপস্থিত ছিলেন, স্থানীয় মুরব্বী হাজী আব্দুল বারেক, অধ্যাপক কাজী নজরুল ইসলাম, তারা মিয়া, মাহাবুব আলম, আয়ুব আলী, মকবুল হোসেন, আয়নাল হক, মতিন ভান্ডারী, দুলাল মিয়া, জালাল মিয়া, বীর মুক্তিযোদ্ধা সুরুজ মিয়া, সুন্দর আলী, ইসরাফিল হোসেনসহ এলাকার মা বোন ও সর্বস্থরের জনগন উপস্থিত ছিলেন।

শাসক নয় সেবক হিসেবে কাজ করতে চাই - ইঞ্জিঃ এম এম হেলাল উদ্দিন।

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ--- আসন্ন গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ৫৪ নং ওয়ার্ড থেকে কাউন্সিলর পদে প্রার্থী হয়েছেন বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী ও সমাজসেবক ইঞ্জিঃ এম এম হেলাল উদ্দিন। এলাকাবাসীকে নিয়ে পরিচ্ছন্ন ওয়ার্ড ঘটন করতে সকলের সহযোগীতা ও দোয়া চেয়েছেন এই শিক্ষানুরাগী। তিনি বলেছেন শাসক নয় সেবক হিসেবে ওয়ার্ডবাসীর জন্য কাজ করতে চাই। সকলের সহযোগীতা, ভালবাসা ও সমর্থন নিয়ে একটি মাদক, সন্ত্রাস, চাঁদাবাজ মুক্ত, পরিচ্ছন্ন স্মার্ট ওয়ার্ড ঘটন করতে চাই। ইঞ্জিঃ এম এম হেলাল উদ্দিন স্থানীয় ৫৪নং ওয়ার্ডের সভ্রান্ত মুসলিম পরিবারের বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী ও সমাজসেবক প্রয়াত হাজী কছিমউদ্দিন মিয়ার কনিষ্ঠ পুত্র। তার বড় ভাই আলাউদ্দিন মিয়া টঙ্গীর ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান টঙ্গী পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় এন্ড গার্লস কলেজের অধ্যক্ষ। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে একটি শিক্ষিত সমাজ গঠনের লক্ষে ইঞ্জিঃ এম এম হেলাল উদ্দিন প্রতিষ্ঠা করেছেন হাজী কছিমউদ্দিন পাবলিক স্কুল, হাজী কছিমউদ্দিন কমার্স কলেজ, উজানভানু কওমি মাদরাসা, গাজীপুর পাবলিক মহিলা কলেজ, গাজীপুর টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ এবং নর্দান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ইন্সটিটিউট। এছাড়াও তিনি টঙ্গীস্থ বিভিন্ন মসজিদ, মাদ্রাসা ও এতিমখান প্রতিষ্ঠার্থে সক্রিয় ভূমিকা পালন করে আসছেন। জনকল্যাণের জন্য তিনি প্রতিষ্ঠা করেছেন হাজী কছিমউদ্দিন ফাউন্ডেশন। বর্তমানে তিনি টঙ্গী থানা প্রেসক্লাবের সভাপতি ও বাংলাদেশের সাংবাদিকদের শীর্ষ সংগঠন জাতীয় প্রেসক্লাবের সদস্য। করোনাকালীন সময়ে ইঞ্জিঃ এম এম হেলাল উদ্দিনের নেতৃত্বে হাজী কছিমউদ্দিন ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে ৩৫ জনের একটি সেচ্ছাসেবক দল নিয়ে আর্ত মানবতার সেবায় এগিয়ে গিয়েছিলেন। টঙ্গী অঞ্চলের অসংখ্য অসহায়-দারিদ্র্য ও করোনায় ক্ষতিগ্রস্থ মানুষের দুয়ারে দুয়ারে পৌঁছে দিয়েছেন ত্রাণ, ঔষধ ও সেবা। মৃত্যু ভয়কে উপেক্ষা করে একঝাক নিবেদিত স্বেচ্ছাসেবককে সাথে নিয়ে করোনায় মৃত্যু হয়েছে এমন ১৩জনকে তিনি দাফনের ব্যবস্থা করেছেন। তাদের করোনা জয়ের উদ্যোগ টঙ্গীর সর্বস্তরের মানুষের কাছে প্রশংসিত হয়েছিল। এম এম হেলাল উদ্দিন সফল করোনা যোদ্ধা হিসাবে সকলের স্বীকৃতি লাভ করেছেন। ইঞ্জিঃ এম এম হেলাল উদ্দিন আরো বলেন, কথায় নয় কাজে বাস্তবায়ন করতে চায়। মাদক, সন্ত্রাস ও অনিয়মের বিরুদ্ধে অঙ্গীকার নিয়েছি। এলাকায় দলীয় নেতাকর্মীসহ সর্বসাধারণের কাছে দোয়া ও সমর্থন চাই। তাদের মূল্যবান ভোটে যদি কাউন্সিলর হিসেবে নির্বাচিত হই তাহলে সফল রাষ্ট্রনায়ক বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নয়নের ধারাকে অব্যাহত রাখার মাধ্যমে ৫৪নং ওয়ার্ডে মাদক, সন্ত্রাস ও দূর্নীতি মুক্ত সমাজে গড়ে তুলবো ইনশাআল্লাহ।

নির্মাণাধীন ড্রেনে পড়ে বৃদ্ধের মৃত্যু।

গাজীপুর প্রতিনিধিঃ গাজীপুরের টঙ্গীতে সিটি কর্পোরেশনের নির্মাণাধীন ড্রেনে পরে নুরুজ্জামান নামে ৮০ বছর বয়সী এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে স্থানীয় মিলগেট নামার বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয়দের দাবী ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের অবহেলা ও স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলরের তদারকির অভাবে এ ধরনের দুর্ঘটনা ঘটছে। এ বিষয়ে সিটি কর্পোরেশনে কর্মকর্তারা ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান নাম বলতে অপরাগতা প্রকাশ করেন। এ বিষয়ে ৫৪ নং ওয়াড কাউন্সিলর নাসির উদ্দীন মোল্লা বলেন আমি বিষয়টা শুনে রওনা দিয়ে ছিলাম। তার আগে লাশ মসজিদে নিয়ে গেছে। আমি রাস্তা থেকে চলে আসছি তবে আমার ওয়ার্ড না ৫৫ নং ওয়ার্ড আমি বলতে পারছি না স্থানীয় মানুষের কাছে জিজ্ঞাসা করলে জানা যাবে। ৫৫ নং ওয়াড কাউন্সিলর আবুল হাসেম বলেন, ওই লোক বসবাস করে আমার ওয়ার্ডে কিন্ত দূর্ঘটনাস্থলটা  ৫৪ নং ওয়ার্ডে। এ বিষয়ে টঙ্গী পশ্চিম থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ শাহ আলম বলেন, এলাকাবাসীর মাধ্যমে বিষয়টি শুনেছি এখন ও কোন অভিযোগ পাইনি।

টঙ্গীতে ডাস্টবিন অপসারণের দাবীতে বিক্ষোভ

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ -- গাজীপুরের টঙ্গীর এরশাদ নগর এলাকার ৩নং ব্লক এলাকায় দুর্গন্ধময় ডাস্টবিন অপসারণের দাবিতে বিক্ষোভ করেছে এলাকাবাসী। সোমবার দুপুরে স্থানীয়বাসীন্দারা এ কর্মসূচি পালন করেন। এসময় দুর্গন্ধময় ডাস্টবিনের কারনে সৃষ্ট দূর্ভোগ থেকে বাঁচতে সরকারের যথাযথ কতৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষন পূর্বক দ্রুত এ সমষ্যা সমাধানের দাবী জানান। জানা যায়, গত বছর সেপ্টেম্বরে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি ও সিটি কর্পোরেশনের যৌথ উদ্যোগে ওই এলাকার ময়লা আবর্জনা থেকে জৈব সার প্রস্তুতকরন প্রক্রিয়া শুরু করতে এরশাদ নগর ম্যাটেরিয়াল রিকভারি ফেসেলিটি সেন্টার চালু করা হয়। স্থাপিত ডাস্টবিনের উৎকট দুর্গন্ধে আশপাশের লোকজনের জীবনযাপন দূর্বিসহ হয়ে পরেছে। এই ভোগান্তি নিরসনের দাবী করে গাজীপুর সিটি করপোরেশন কর্তৃপক্ষ ও বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি বরাবর আবেদন করেও ফল হয়নি বলে অভিযোগ করেন স্থানীয়রা। স্থানীয় মোরশেদ বেগম বলেন, এরশাদ নগর ৩নং ব্লকের এই অংশে কয়েক হাজার মানুষের বসবাস। এখানে ময়লা আবর্জনা থেকে জৈব সার তৈরি করা হয়। সার তৈরীতে ময়লা আবর্জনা পঁচানো হয় এতে দুর্গন্ধ ছড়িয়ে পড়ে। দুর্গন্ধে নিজ ঘরে থাকা যায় না। বাসিন্দা সুজন বলেন, ময়লার কারনে সৃষ্ট দুর্গন্ধে আমরা অতিষ্ট হয়ে পরেছি। পরিবেশ সম্মতভাবে খাবার গ্রহন করাও সম্ভব হয় না। বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি প্রজেক্ট ম্যানেজার (এরশাদ নগর এলাকার) মোসলেম উদ্দিন বলেন, আমি আমার কতৃপক্ষের আদেশ ছাড়া কোন বক্তব্যে দিতে পারবো না। গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের ৪৯ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ফারুক আহমেদ বলেন, এরশাদ নগর এলাকার বিভিন্ন স্থানে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা ময়লা আবর্জনা বর্তমানে ওই ডাস্টবিনে রাখা হয়।পচনশীল ময়লা থেকে জৈব সার তৈরি করে বিক্রির করা হচ্ছে।তবে স্থান না থাকায় ৩নং বøকের ওই জায়গাটা ব্যবহার করা হয়েছে। দূর্গন্ধ না ছড়াতে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের সহকারী প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা আরিফুর রহমান বলেন, দুর্গন্ধে পরিবেশ দূষণ যাতে অসহনীয় না হয়, সেজন্য প্রতিদিন সেখান থেকে ময়লা অপসারণের পর ব্লিসিং পাউডার ছিটানো হয়। এরপরও যদি সমস্যা সৃষ্টি হয় তাহলে সেই বিষয়ে প্রদক্ষেপ নিতে রেড ক্রিসেন্ট কর্তৃপক্ষকে বলা হবে।

টঙ্গীতে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে ৮ কিশোর গ্যাং সদস্য গ্রেফতার।

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ-- গাজীপুরের টঙ্গীর খরতৈল এলাকায় ডাকাতির প্রস্তুতিকালে  ধারালো অস্ত্রসহ কিশোর গ্যাংয়ের ৮ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে টঙ্গী পশ্চিম থানা পুলিশ। মঙ্গলবার দিবাগত রাতে টঙ্গী পশ্চিম থানাধীন ৫১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর কার্যালয়ের সামনে থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে চারটি সুইচগিয়ার জব্দ করা হয়েছে। টঙ্গী পশ্চিম থানার অফিসার ইনচার্জ শাহ আলম তাদের গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, সংঘবদ্ধ ডাকাত দলটি প্রায় ডাকাতি করে আসছিলো। বুধবার রাত সাড়ে ৯ টায় খরতৈল এলাকায় ধারালো অস্ত্রসহ ডাকাতি প্রস্তুতি নিচ্ছিলো। পরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ তাদের গ্রেফতার করে। গ্রেফতাকৃতরা হলো, শাকিল (১৯), সজীব (২০), রঞ্জু (৩২), কিশোর সোহাগ (১৭), নাবিল (১৭), সাজেদুল ইসলাম রনি (১৬), জীবন ওরফে রাব্বি (১৬), রাজন (১৫)। তাদের বিরুদ্ধে টঙ্গী পশ্চিম থানার মামলা করা হয়েছে। এলাকাবাসী সূত্র জানায়, গ্রেফতাকৃতরা কিশোর গ্যাংয়ের সদস্য। দিনে তারা বিভিন্ন পেশায় থাকলেও রাতে তারা ছিনতাই, ডাকাতিসহ বিভিন্ন অপরাদের সঙ্গে জড়িত। এলাকায় ইভটিজিং, মারামারি ও দলবদ্ধ হয়ে ধারালো অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে মহড়া দেয়। তাদের উৎপাতে অতিষ্ঠ হয়ে উঠছে এলাকাবাসী। টঙ্গী পশ্চিম থানার ওসি মো. শাহ আলম আরও জানান, গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে তিনজনকে বৃহস্পতিবার আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হবে। ওপর ৫ জন অপ্রাপ্তবয়স্ক হওয়ায় তাদের কিশোর সংশোধনাগারে পাঠানো হবে।

টঙ্গীতে গাঁজাসহ চিহ্নিত মাদক সম্রাজ্ঞী শারমিন গ্রেফতার।

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ---- গাজীপুরের টঙ্গীর মাদক সম্রাজ্য খ্যাত এরশাদ নগর এলাকা থেকে চিহ্নিত মাদক সম্রাজ্ঞী শারমিন ও তার তিন সহযোগীকে গ্রেফতার করেছে টঙ্গী পূর্ব থানা পুলিশ। এসময় তাদের কাছ থেকে  এক কেজি পরিমান অবৈধ মাদকদ্রব্য গাঁজা উদ্ধার করা হয়। সোমবার রাতে এরশাদ নগর ১নং ব্লক এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলো, টঙ্গীর এরশাদ নগর এলাকার ১নং ব্লকের মিজানুর রহমানের স্ত্রী শারমিন আক্তার (৩২), একই এলাকার ৫ নং ব্লকের মিন্টু মিয়ার ছেলে ইব্রাহীম হাসান বাবু (১৯), সামসুর ছেলে সোহেল (২০) ও ৩ নং ব্লকের নুর আলমের ছেলে সিদ্দিক (২০)। টঙ্গী পূর্ব থানার উপ পরিদর্শক মনির হোসেন জানান,  এরশাদ নগর ১নং ব্লক এলাকায় মাদক কেনাবেচা হচ্ছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে টঙ্গী পূর্ব থানার অফিসার ইনচার্জ আশরাফুল ইসলামের নির্দেশনায় সঙ্গীয় অফিসার উপ পরিদর্শক আশরাফুল আলম, সহকারী উপ পরিদর্শক নাজমুল হক ও মহিলা পুলিশ সদস্য প্রিয়াংকা সরকারসহ উক্ত এলাকায় অভিযান চালিয়ে চিহ্নিত মাদক কারবারি শারমিন ও তার তিন সহযোগীকে অবৈধ মাদক দ্রব্য গাঁজাসহ গ্রেপ্তার করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে নিয়মিত আইনে মামলা দায়ের করে বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

টঙ্গীতে সাহায্যের হাত ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ।

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ --- পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষে গাজীপুরের টঙ্গীতে হতদরিদ্রদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেছে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন সাহায্যের হাত ফাউন্ডেশন। সোমবার বিকেলে টঙ্গীর বউ বাজার এলাকায় অর্ধশতাধিক দুঃস্থ, অসহায়, হতদরিদ্রদের মানুষের মাঝে ত্রানসামগ্রী বিতরন করা হয়। সাহায্যের হাত ফাউন্ডেশন এর সভাপতি বি. এম. সোহেল রানা আরিফ এর সভাপতিত্বে ও সাধারন সম্পাদক সেলিম দেওয়ানের সঞ্চালনা অনুষ্ঠানে অর্ধশতাধিক পরিবারের মাঝে তিন কেজি চাল, তিন কেজি আলু, তিন কেজি পেঁয়াজ, এক কেজি সয়াবিন তেল, এক কেজি মুড়ি, এক কেজি লবণ, আধা কেজি চিনি, আধা কেজি ডাল , আধা কেজি ছোলা সহ মোট ১৪ কেজি পরিমাণের ত্রাণের প্যাকেজ বিতরণ করা হয়। সাহায্যের হাত ফাউন্ডেশন এর সভাপতি বি.এম সোহেল রানা আরিফ জানান, মাদকমুক্ত যুব সমাজ গঠনের লক্ষে গত চার বছর আগে থেকে আমাদের এই সংগঠনের কার্যক্রম শুরু হয়েছে। যুবসমাজকে  সামাজিক কাজে আগ্রহী করে তোলার পাশাপাশি দেশের দুঃস্থ, অসহায়, হতদরিদ্রদের মানুষের পাশে দাড়িয়ে তাদের জীবন মান উন্নয়ন করা আমাদের মূল লক্ষ্য। বর্তমানে সাহায্যের হাত ফাউন্ডেশন সারা মাসব্যাপী তাদের সংগঠনের সদস্যদের স্বেচ্ছায় মাসিক চাঁদার সমন্বয়ে গরিবদের মাঝে এ সমস্ত বিভিন্ন অনুদান বিতরণ করে আসছে। সাংগঠনিক সম্পাদক রবিউল ইসলাম রবিন এর পরিচালনায় এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন হাফিজুল ইসলাম খোকন , আবু হানিফ, হুমায়ুন কবির,  তুহিন, সোলেমান পাঠান ,।আব্দুর রহমান সানি, শাহ আলম, আসলাম, রুবেল খান, মোহাম্মদ হেলাল খান, ফরহাদ হোসেন পলাশ, দেলোয়ার, জহিরুল ইসলাম, রুবেল মিয়া ,সেলিম বেপারী, আলী শেখ, মামুন হোসেন, মিলন সরকার, রাসেল মিয়া, টিটু, জাফর খান ,শফিকুল ইসলাম, শহিদুল ইসলাম ,হানিফ হাওলাদার ,আবু সিদ্দিক,বি.এম.আকরাম ,মোহাম্মদ শামসুদ্দিন হাসান, মোঃ ভাসানী ,শাহরিয়ার আহমেদ, শায়লা আক্তার, বিউটি আক্তার,মোঃ আলম,শেখ আরিফ, নূর মোহাম্মদসহ আরো অনেকেই।

টঙ্গীতে কলেজ সংসদে ঢুকিয়ে নির্যাতনের অভিযোগ ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ--- টঙ্গী সরকারি কলেজের ছাত্র সংসদে ঢুকিয়ে রাকিব (১৭) নামে এক ছাত্রকে বেধরক মারধোরের অভিযোগ উঠেছে কলেজ ছাত্রলীগের যুগ্ন আহবায়ক মিরাজুর রহমান রায়হানের বিরুদ্ধে। গত বুধবার বিকেলে কলেজ ছাত্র সংসদে এ ঘটনা ঘটে। ভুক্তভোগী রাকিব পার্শ্ববর্তী একটি কলেজের অধ্যায়নরত আছেন। ভুক্তভোগী ছাত্র রাকিব জানায়, পারিবারিক শত্রুতার জের ধরে বুধবার বিকেল টঙ্গী সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মিরাজুল রহমান রায়হানের নেতৃত্বে রবিউল, নিশান, শান্ত, নাঈম, মাজাহারুল, সিয়ামসহ আরো অজ্ঞাত ১০/১৫ জন সন্ত্রাসী সফিউদ্দিন একাডেমীর সামনে থেকে তাকে জোড় করে টঙ্গী কলেজের ছাত্র সংসদে নিয়ে যায়। এসময় ছাত্র সংসদের বাহির থেকে তালা বন্ধ করে দেয় তারা। পরে সংসদের ভিতরে লাঠি ও লোহার রড দিয়ে বেধরক মারধর করে মিরাজ ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী। পরবর্তীতে গুরুতর আহত অবস্থায় আমাকে কলেজ থেকে বের করে দেয় মিরাজ। পরে সহপাঠীদের সহয়াতায় টঙ্গীর শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালে গিয়ে চিকিৎসা গ্রহন করি। এর আগেও স্বাধীন নামে এক শিক্ষার্থীকে শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ রয়েছে ছাত্রলীগ নেতা মিরাজুর রহমান রায়হানের বিরুদ্ধে। একক আধিপত্য বিস্তারের জন্য বিভিন্ন সময় নানা অপকর্মে জড়িয়ে আলোচনায় ছিলেন এই ছাত্রলীগ নেতা। এবিষয়ে যোগাযোগ করা হলে, টঙ্গী সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মিরাজুর রহমান রায়হান উত্তেজিত কন্ঠে বলেন, সে একজন ছিনতাইকারী ছিনতাইকালে ছোট ভাইরা মেরেছে আমি মারি নাই। এবিষয়ে যোগাযোগ করা হলে টঙ্গী সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের আহ্বায়ক সেলিম খান বলেন, টঙ্গী সরকারি কলেজের ছাত্র সংসদ কারো ব্যক্তিগত সম্পত্তি নয়। ইচ্ছে করলেই কেউ টর্চার সেল তৈরি করতে পারবে না। টঙ্গী সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের আহ্বায়ক কমিটি তদন্ত শুরু করেছে। তদন্তে মিরাজুর রহমান রায়হান যদি দোষী সাব্যস্ত হয় তাহলে অবশ্যই আমরা তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করব।

গাজীপুরে শহীদ আহসান উল্লাহ মাষ্টারের ম্যুরাল উদ্বোধন

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ -- গাজীপুরের গাছার ঐতিহাসিক বটতলা এলাকায় মরনোত্তর স্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত বীর মুক্তিযোদ্ধা ভাওয়াল বীর শহীদ আহসান উল্লাহ মাষ্টার এমপি’র ম্যুরাল উদ্বোধন করা হয়েছে। বুধবার রাতে নগরীর ৩৩ নং ওয়ার্ড উত্তর খাইলকুর এলাকায় এই ম্যুরাল উদ্বোধন করা হয়। গাছা থানা যুবলীগের সভাপতি পদপ্রার্থী আমিন উদ্দিন সরকারের সাবির্ক ব্যবস্থাপনায় ম্যুরাল উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্টানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল এমপি। ৩৩নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের আহবায়ক আব্দুল মজিদ সরকারের  সভাপতিত্বে ও ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি পদপ্রার্থী আব্দুর রশিদ মোল্লার সঞ্চালনায় অনুষ্টানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের অপরাধ দক্ষিণ বিভাগের উপ কমিশনার মাহবুব উজ জামান, গাছা থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যক্ষ মহিউদ্দিন আহম্মেদ মহি, সাধারণ সম্পাদক হাজী আহসান হাবিব আদম আলী, ৩২ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর রফিকুল ইসলাম, গাছা থানা আওয়ামীলীগ নেতা লিটন মোল্লা, মশিউর রহমান মশি, গাছা থানা কৃষক লীগের সভাপতি শাহজালাল তরুণ, সাধারণ সম্পাদক মনিরউজ্জামান লিটন, গাছা থানা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি পদপ্রার্থী বিল্লাল হোসেন, ৩৮ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদপ্রার্থী এম এম সোহেল রানা, গাছা থানা শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা, ৩৪ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের আহবায়ক আফজাল হোসেন খান, ৩৩ নং ওয়ার্ডের সদস্য সচিব আব্দুর রশিদ ভূইয়া, গাজীপুর মহানগর যুবলীগ নেতা রেজাউল মেহেদী স্বপন, গাছা থানা যুবলীগ নেতা হুমায়ুন কবির প্রমূখ। প্রধান অতিথির বক্তব্যে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ডের কথা তুলে ধরেন এবং ভাওয়াল বীর শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার এমপির আত্মজীবনীর খন্ডিত অংশ তুলে ধরেন। এছাড়াও  শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার এমপির ম্যুরাল স্থাপন করায় গাছা থানা যুবলীগের সভাপতি পদপ্রার্থী আমিন উদ্দিন সরকারের প্রতি বিশেষ ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন।

স্মার্ট সিটি গড়তে চান মেয়র প্রার্থী মেজবাহ উদ্দিন সরকার রুবেল।

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ--- আসন্ন গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদপ্রার্থী হিসাবে নাম ঘোষণা করে সাংবাদিকদের সাথে নির্বাচনী প্রচারণা সংক্রান্ত মত বিনিময় সভা করেছেন মোহাম্মদ আলী সরকার ফাউন্ডেশন (আরএসবি গ্রুপ) এর চেয়ারম্যান মেজবাহ্ উদ্দিন সরকার রুবেল। বুধবার সকালে টঙ্গীর একটি কমিউনিটি সেন্টারে এই মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন পেলে গাজীপুর সিটিতে নৌকা প্রতিক নিয়ে নির্বাচন করতে চান তিনি। মত বিনিময় সভায় গাজীপুর সিটিকে স্মার্ট সিটিতে রুপান্তর করতে ১১টি ইস্তেহার ঘোষনা করেন এই মেয়র প্রার্থী। এক প্রশ্নের জবাবে মেয়র প্রার্থী মেজবাহ্ উদ্দিন সরকার রুবেল বলেন, গাজীপুর সিটি একটি আধুনিক নগরীর রূপ ধারণ করা, স্মার্ট সিটি গড়া, পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন একটি আধুনিক নগর গড়া, প্রতিটি ওয়ার্ডে ওয়ান ওয়ে রোড সিস্টেম চালু করা, প্রতিটি ওয়ার্ডে ময়লা ফেলার জন্য ডাম্পিং স্টেশন স্থাপন করা, খেলার মাঠ ও গাজীপুর সিটির ৮টি জোনে বিনোদনের জন্য পার্ক স্থাপন করা, নগরজুড়ে বিশুদ্ধ পানি সরবরাহের ব্যবস্থা করা, সাংবাদিকদের জন্য আবাসনের ব্যবস্থা ও মুক্তিযোদ্ধাদের হোল্ডিং ট্যাক্স মওকুফ করা, ড্রেন, রাস্তা নির্মাণ ও পয়: নিস্কাশনে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা, মশা নিধক ও স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিতসহ নাগরিক সেবা প্রদানে  ডিজিটাল (অনলাইন) সিস্টেম চালু রাখা, অনলাইনের মাধ্যমে বাড়ি হোল্ডিং টেক্স ও ব্যবসায়ীদের ট্রেড লাইসেন্স ২৪ ঘন্টার মধ্যে সেবা নিশ্চিত করা, নগর জুড়ে নতুন নতুন মসজিদ মাদ্রাসা ও কবরস্থান স্থাপন করাসহ স্মার্ট গাজীপুর সিটি করা আমার প্রদান লক্ষ্য। এসময় গাজীপুরে কর্মরত বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক্স মিডিয়ার সংবাদকর্মী এবং স্থানীয় ব্যবসায়ীরা উপস্থিত ছিলেন।

পূবাইলে কেয়ার টেকারকে প্রাণনাশের হুমকি

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুর মহানগরীর পূবাইল থানাধীন ৪০নং ওয়ার্ডের মেঘডুবী খোরাইদ এলাকায় অবস্থিত লতা হারবাল এগ্রো ফার্মের কেয়ারটেকার অজিউল্লা ও তার পরিবারকে প্রাননাশের হুমকি দেওয়ার উঠেছে একই এলাকার কিছু সন্ত্রাসীর বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় পুবাইল থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন ভুক্তভোগী। অভিযুক্তরা হলেন,খোরাইদ গ্রামের ফিরোজ মিয়ার ছেলে মিজান (২১) মেঘডুবি (শেখ বাড়ি) শহর আলী ছেলে রাকিব (২৪) ও শেখ হারেজ আলীর ছেলে সরোয়ার(২৩)। অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, লতা হারবাল এগ্রো ফার্মের দীর্ঘদিনের বিশ্বস্ত কেয়ারটেকার অজিউল্লা (৬২) গত মঙ্গলবার (১৪ মার্চ) রাতে কর্মরত অবস্থায় থাকাকালীন অভিযুক্ত আসামিরা অনধিকার প্রবেশ করে অজিউল্লাহকে গালিগালাজ করে তিনজন মিলে  টেনে হিচড়ে পার্শ্ববর্তী অফিস কক্ষে নিয়ে দরজা আটকে এলোপাথারী কিল ঘুষি মারতে থাকে। এক পর্যায়ে রাকিব তাকে হত্যার উদ্দেশ্যে কেয়ারটেকারের গলায় টিপে ধরে, সরোয়ার তার রুমে রাখা কৃষি কাজের জন্য ব্যবহারিত দা কেয়ারটেকার অজিউল্লাহ এর ঘাড়ে ধরে রাখে পরবর্তীতে মিজান মিয়া তার সাথে থাকা এিশ  হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয় এবং এক পর্যায়ে কেয়ারটেকার কে খুন করে ঘুম করে ফেলবে বলে প্রাননাশের হুমকি দিয়ে চলে যায়। এবিষয়ে এগ্রো ফার্মের দায়িত্বরত কর্মকর্তা সাংবাদিকদের বলেন,কিছু সন্ত্রাসী  প্রকৃতির লোক তারা এলাকায় বিভিন্ন প্রকার অপকর্ম করে বেরায় প্রায়ই সময় এগ্রো প্রজেক্টের ভিতরে এসে নেশা করে ও আড্ডা দেয়। ফার্মের পুকুরে মাছ গাড়ীর ব্যাটারি ও প্রয়োজনীয় মূল্যবান জিনিসপত্র চুরি করতে না পাড়ায় এই কাজ টা করেছে বলে মনে হচ্ছে আমাদের। তারা তার নিকট হতে নগদ অর্থ ও ওনাকে এবং ওনার পরিবারকে প্রাননাশের হুমকিও দিয়ে গেছে। উনি এবং ওনার পরিবার নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে তাই থানায় অভিযোগ করেছি, আমাদের  কাছে সিসি ক্যামেরা ফুটেজ আছে আমরা বিষয় টা আমাদের এগ্রো ফার্মের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা কে জানিয়েছি ওনারা বিষয় টা দেখছে। এ বিষয়ে পূবাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) মোহাম্মদ জাহিদুল ইসলাম বলেন, এ বিষয়ে থানায় মামলা হয়েছে আসামি গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

মানহানিকর বক্তব্যের প্রতিবাদে কাউন্সিলরের সংবাদ সম্মেলন।

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ --- গাজীপুর সিটি করপোরেশন বরখাস্তকৃত মেয়র জাহাঙ্গীর আলমের দেওয়া মানহানিকর বক্তব্যের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর দবির উদ্দিন সরকার। রোববার (১৯ মার্চ) বিকেলে কাশিমপুর সূরাবাড়ী এলাকায় তার নিজ কার্যালয়ে এই সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন,গত শনিবার (১৮ মার্চ)  জহুরা বেগম স্কুলে বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দিতে গিয়ে বরখাস্তকৃত মেয়র জাহাঙ্গীর আলম আমার পরিবার ও আমাকে নিয়ে এবং আওয়ামী পরিবারের সম্মানিত ব্যক্তিদেরকে নিয়ে বিভিন্ন রকমের বাজে মন্তব্য করে বক্তব্য দিয়েছেন। যা আমার পরিবার ও আমার দৃষ্টি গোচর হয়েছে এবং আমার পরিবারের সম্মানহানি হয়েছে। যদি তার দেওয়া বক্তব্য প্রত্যাহার করা না হয় তাহলে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। লিখিত বক্তব্যে তিনি আরো বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও মহান মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে বাজে মন্তব্য করার অপরাধে গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক পদ থেকে বহিষ্কার ও গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র পদ থেকে সাময়িক বরখাস্ত হয়েছেন সেই বরখাস্তকৃত মেয়র জাহাঙ্গীর আলম গাজীপুর বিভিন্ন অনুষ্ঠানে গিয়ে আওয়ামী পরিবারের সম্মানিত ব্যক্তিদের সম্মানহানি করে বক্তব্য দিচ্ছেন এটা দু:খ জনক। তিনি বলেন, আমার দাদা মরহুম সবেদ আলী সরকার দীর্ঘ দিন কাশিমপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ছিলেন এবং সাভার থানা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ছিলেন এবং আমার বাবা মরহুম গিয়াস উদ্দিন সরকার কাশিমপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ছিলেন এবং বঙ্গবন্ধুর অত্যান্ত ঘনিষ্ঠ ছিলেন। আমার বড় ভাই শওকত হোসেন সরকার কাশিমপুর ইউনিয়ন পরিষদের ১১ বছর চেয়ারম্যান হিসাবে দায়িত্ব পালন করেছেন। আমার ছোট ভাই কবির হোসেন সরকার আশুলিয়া থানা আওয়ামী যুব লীগের আহবায়ক হিসাবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন এবং আমি দবির সরকার গাজীপুর মহানগর ৫ নং ওয়ার্ডের পর পর দুই বার নির্বাচিত কাউন্সিলর এবং কাশিমপুর থানা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক হিসাবে দায়িত্ব পালন করে আসছি। সংবাদ সম্মেলনে উল্টো জাহাঙ্গীর আলমকে প্রশ্ন ছুড়ে দিয়ে কাউন্সিলর বলেন, আপনার দাদা কি ছিলেন? আপনার বাবা কি ছিলেন? আপনি মেয়র হওয়ার আগে কি ছিলেন? আপনার বংশের পরিচয় কি? আপনার সৎ সাহস থাকলে মিডিয়ার সামনে আপনার পরিচয় তুলে ধরবেন। আমরা গাজীপুর বাসী জানি আপনার বাবার বাড়ী কালীগঞ্জ। আপনার বাবা কানাইয়া গ্রামে ঘর জামাই ছিলেন। আপনি মামার বাড়ী আশ্রিত ছিলেন । আপনার বাবা মরহুম মিজানুর রহমান ও আপনি নিজে কানাইয়া বাজারে ঠোঙ্গা বিক্রেতা ছিলেন। সেসময় আপনি ঠোঙ্গা জাহাঙ্গীর নামে পরিচিত ছিলেন। আপনি জাহাঙ্গীর আলম উল্কা সিনেমা হলে টিকিট কালোবাজারি করতেন। চৌরাস্তা আরিফ ইলেকট্রনিক্স দোকানে কর্মচারী হিসাবে ছিলেন। এছাড়াও ৯ কেজি গান পাউডার নিয়ে জিএমবি মামলায় জেল খেটেছেন। জুট ব্যবসার নামে ফ্যাক্টরির দামি দামি জিনিসপত্র চুরি করে অনেক ফ্যাক্টরি ধ্বংস করে দিয়ে কোটি কোটি টাকার মালিক হয়েছেন। তার বাস্তব উদাহরন কোনাবাড়ীর এনটিকেসি ফ্যাক্টরি। তারপর আপনি মানুষের সাথে বাটপারি করে এবং অসহায় মানুষকে ধ্বংসের পথে ঠেলে দিয়ে কোটি কোটি টাকার মালিক হয়েছেন। তারপর আপনি মানুষের আত্নসাৎ এর টাকা দিয়ে নির্বাচন করে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র হয়েছেন। মেয়র হয়ে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের ব্যাপক অনিয়ম ও দুর্নীতি করে মানুষের কাছে সমালোচনার পাত্র হয়েছেন এবং আপনার নামে মামলা চলমান রয়েছে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও মহান মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে কুটুক্তি করে দল থেকে বহিষ্কৃত হয়েছেন এবং অনিয়মের কারনে মেয়র পদ হারিয়েছেন।  সবকিছু হাড়িয়ে এখন আপনি উন্মাদের মত আবোল তাবোল বলছেন। যেখানে সেখানে গিয়ে সম্মানিত লোকদের অস্মান করে কথা বার্তা বলে আপনি যে আগে ঠোঙ্গা জাহাঙ্গীর বা টোকাই জাহাঙ্গীর নামে পরিচিত ছিলেন সেই পরিচয় আবার নিজেই তুলে ধরছেন। আপনি  শান্তিপ্রিয় গাজীপুর বাসীকে অশান্ত করার মিশনে নেমেছেন। পরিশেষে তিনি বলেন, অনতিলম্বে পরিবারের উপর বাজে মন্তব্য করে যে বক্তব্য দিয়েছেন তাহা প্রত্যাহার করে ক্ষমা না চাইলে আমি আপনার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিতে বাধ্য হবো। সংবাদ সম্নেলনে বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক্স মিডিয়ার সংবাদ কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

পূবাইলে আমার সংবাদ পত্রিকার প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী অনুষ্ঠিত

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুর মহানগরীর পূবাইলে জাতীয় দৈনিক আমার সংবাদ পত্রিকার ১১তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৬ মার্চ) সন্ধ্যায় পূবাইল মিরের বাজার শহীদুল্লাহ সরকার মার্কেটে আমার সংবাদ পূবাইল প্রতিনিধির অফিস হল রুমে আলোচনা, দোয়া ও কেক কাটার মধ্য দিয়ে এ আয়োজন অনুষ্ঠিত হয়। দৈনিক আমার সংবাদ পত্রিকার পূবাইল প্রতিনিধি মো: রবিউল আলম এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পূবাইল থানা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন এর ৪০নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আলহাজ্ব আজিজুর রহমান শিরিষ। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,পুবাইল থানা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের (সংরক্ষিত)মহিলা কাউন্সিলর জোসনা বেগম, সাবেক পূবাইল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ন আহবায়ক হাজী মোহাম্মদ আলী। সাবেক পূবাইল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ন আহবায়ক মো: আবুল হোসেন। ৪২ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদপ্রার্থী অ্যাডভোকেট মুজিবুর রহমান মজিব।সাবেক পূবালী ইউনিয়নের মেম্বার রহম আলী খন্দকার। পূবাইল থানা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রুমা আক্তার। গাজীপুর মহানগর আওয়ামী যুবলীগের আহবায়ক সদস্য রাজিবুল হাসান রাজীব। মহিলা শ্রমিক লীগের সভাপতি ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদপ্রার্থী মাহফুজা খন্দকার মায়া। প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন,ঢাকা টাইমস পত্রিকার টঙ্গী ও পূবাইল প্রতিনিধি মো:রাজিব হোসেন। এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন, দৈনিক সংবাদ মোহনার পূবাইল প্রতিনিধি মো: লিটন মিয়া, এশিয়ান টিভির পূবাইল প্রতিনিধি মোঃ জুয়েল পাঠান, দৈনিক আমার সংবাদ পত্রিকার টঙ্গী প্রতিনিধি টিটন কুমার ঘোষ, দৈনিক যুগ যুগান্তর ও সন্ধ্যা বানী পত্রিকার পূবাইল প্রতিনিধি শাহীন সরকার, দৈনিক আমার সংবাদ পত্রিকার উত্তরা প্রতিনিধি মিরাজ শিকদার।দৈনিক মাতৃজগত পত্রিকার গাজীপুর জেলা প্রতিনিধি রাকিব ইসলাম, মোঃ শাহীন মোল্লা প্রমুখ। এসময় অতিথিরা বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশে দৈনিক আমার সংবাদ পত্রিকার ভূমিকা তুলে ধরার পাশাপাশি পত্রিকার উত্তরোত্তর সাফল্য কামনা করেন।

গাজীপুরে সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মামলা

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ -- গাজীপুরে মনগড়া সংবাদ প্রকাশ করে মানহানী এবং চাঁদাবাজীর অভিযোগে মাসুদুল ইসলাম সুমন নামে এক সাংবাদিকের বিরুদ্ধে গাজীপুর চীফ মেট্রোপলিটন আদালতে পৃথক ৩টি  মামলা করেছেন টঙ্গীর ছাত্রলীগ নেতা আসাদ সিকদার।মাসুদুল ইসলাম সুমন বেসরকারি স্যাটেলাইট টেলিভিশন চ্যানেল মোহনা টিভিতে কর্মরত। মামলায় তার বিরুদ্ধে ৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবি ও সর্বমোট ১৫ কোটি টাকার মানহানির অভিযোগ করা হয়েছে। মামলা সূত্রে জানা যায়, গত ২৪শে ফেব্রুয়ারি টঙ্গীর মরকুন বাসিন্দা ছাত্রলীগ নেতা আসাদ সিকদারকে জড়িয়ে মাদক বিক্রির টাকায় কোটি টাকার সম্পদ শিরোনামে একটি সংবাদ প্রচারিত হয় মোহনা টেলিভিশনে। যার প্রতিবেদক ছিলেন মাসুদুল ইসলাম সুমন। প্রতিবেদনে ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে ত্রুটিপূর্ণ ভূল এবং মিথ্যা তথ্য তুলে ধরার অভিযোগ আনা হয়। প্রতিবেদনটি প্রকাশের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেন ওই ছাত্রলীগ নেতা। পরে গত ৬ মার্চ বিজ্ঞ আদালতে ৫ লাখ টাকা চাঁদাবাজির একটি ও ৯ মার্চ ৫ কোটি টাকার মানহানীর একটি মামলা করেন তিনি। এরপর গত ১২ ফেব্রুয়ারি ‍'দুর্নীতি তুলে ধরায় মামলার শিকার মোহনা টিভির সাংবাদিক' শিরোনামে আরো একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেন সাংবাদিক মাসুদুল ইসলাম সুমন। এরপর পুনরায় ১৪ মার্চ আরো একটি ১০ কোটি টাকার মানহানির মামলা করেন ওই ছাত্রলীগ নেতা। এই নিয়ে মোহনা টিভির প্রতিবেদক মাসুদুল ইসলাম সুমনের নামে গাজীপুর বিজ্ঞ আদালতে পৃথক তিনটি মামলা করা হয়েছে। এবিষয়ে সাংবাদিক মাসুদুল ইসলাম সুমন চাঁদাদাবীর বিষয়টি অস্বিকার করে বলেন, তথ্যের প্রয়োজনে আসাদ সিকদারের সাথে আমার দুইবার মুঠোফোনে কথা হয়েছিলো। এখন পর্যন্ত তার সাথে দেখা হয়নি। আদালতের প্রতি আমি আস্থাশীল ও ন্যায় বিচার প্রত্যাশী। তদন্তে আমি দোষী হলে আদালত যা ব্যবস্থা নেবেন আমি তা অবশ্যই মেনে নেবো। এব্যাপারে ছাত্রলীগ নেতা আসাদ শিকদার জানান, আমাকে জড়িয়ে ওই প্রতিবেদক মনগড়া মিথ্যা এবং উদ্দ্যেষ্যমূলক প্রতিবেদন পপ্রকাশ করেছেন। প্রতিবেদনে আমাকে কিশোরগ্যাং এর প্রধান এবং মাদক ব্যবসায়ী আখ্যা দেয়া হয়েছে। এসব করে আমি নাকি কোটি কোটি টাকার মালিক। এসব আদৌ সত্য নয়, এখানে আমার মান সর্ন্মান হানী করা হয়েছে। তিনি আমার কাছে চাঁদা দাবী করেছেন। তাই আমি ন্যায় বিচার পেতেই বিজ্ঞ আদালতের দ্বারস্থ হয়েছি।

টঙ্গীতে পুলিশি বাধায় বিএনপির পদযাত্রা

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ-- গনতন্ত্র পুনরুদ্ধার, দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রন ও দলের চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াসহ সকল নেতাকর্মীদের মুক্তির দাবীতে কেন্দ্রীয় কর্মসুচীর অংশ হিসেবে টঙ্গীতে নিরব পদযাত্রা করেছে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি টঙ্গী পশ্চিম থানা শাখা ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা। শনিবার সকালে স্থানীয় সুর তরঙ্গ রোড এলাকায় এই পদযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়। এসময় পদযাত্রা নিয়ে নেতাকর্মীরা ঢাকা ময়মনসিংহ মহাসড়কে উঠার চেষ্টা করলে পুলিশি বাধার সম্মূখীন হয়ে সুর তরঙ্গ রোডের মুখে এসে শেষ হয়। টঙ্গী পশ্চিম থানা বিএনপির আহবায়ক প্রভাষক বসির উদ্দিন ও সদস্য সচিব আসাদুজ্জামান নূরের নেতৃত্বে পদযাত্রায় উপস্থিত ছিলেন, যুগ্ন আহবায়ক জাহাঙ্গীর আলম, মহানগর বিএনপির আহবায়ক সদস্য মাহাবুব আলম শুক্কুর, গাজীপুর মহানগর ছাত্রদলের সাধারন সম্পাদক মাহমুদুল হাসান মিরন, টঙ্গী পশ্চিম থানা যুবদলের ভারপ্রাপ্ত সদস্য সচিব সেলিম কাজল, স্বেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক আবু বকর, সদস্য সচিব রাতুল ভুঁইয়া, টঙ্গী পশ্চিম থানা ছাত্রদলের আহবায়ক রেদোয়ানুর রহমান প্রত্যয় ব্যাপারী, সদস্য সচিব আরিফিন সিদ্দিক বুলবুল, টঙ্গী সরকারি কলেজ ছাত্রদলের সদস্য সচিব কাউসার হোসেন, যুগ্ন অহবায়ক আরিফ আরিফসহ বিভিন্ন ওয়ার্ড ও থানা বিএনপি অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীবৃন্দ।

ভাড়াটিয়া গৃহবধুর নগ্ন ভিডিও ধারন; বাড়িওয়ালা গ্রেফতার।

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ---- গাজীপুরের টঙ্গীতে ভাড়াটিয়া গৃহবধুর নগ্ন ভিডিও ধারন করে টাকা দাবী করার অপরাধে আব্বাস উদ্দিন(৩৩) নামে এক বাড়িওয়ালাকে গ্রেফতার করেছে টঙ্গী পশ্চিম থানা পুলিশ। শুক্রবার রাতে টঙ্গীর মিলগেট লাল মসজিদ বস্তি থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত আব্বাস ভোলা জেলার লাল মোহন থানার ধুলিগুর নগর গ্রামের ফারুকের ছেলে। সে মিলগেট কলা বাগান বস্তিতে বাড়ি কিনে বসবাস করতো। এজহার সুত্রে জানা যায়, স্থানীয় একটি পোষাক কারখানায় চাকরির সুবাদে স্বামীসহ আব্বাসের বাড়িতে ভাড়া থাকতেন ভুক্তভোগী নারী। গত ২৮ ফেব্রুয়ারী সন্ধ্যায় অফিস থেকে বাসায় ফিরে পোষাক পরিবর্তনের সময় বাইরে থেকে তার গোপনে নগ্ন ভিডিও ধারন করে বাড়িওয়ালা আব্বাস। পরে অনলাইনে ভুক্তভোগীর স্বামীর কাছে ভিডিও পাঠিয়ে দুই লাখ টাকা দাবী করেন বাড়িওয়ালা আব্বাস। বিষয়টি জানাজানি হলে সরকার দলীয় নেতাদের মাধ্যমে স্থানীয়ভাবে সমঝোতার চেষ্টা করে সে। এসময় স্থানীয় এক নেতার বাড়িতে বসানো হয়  বৈঠক। একপর্যায়ে ভুক্তভোগী নারী থানা পুলিশের শরণাপন্ন হলে সালিশ থেকে আসামীকে গ্রেফতার করে পুলিশ। টঙ্গী পশ্চিম থানার অফিসার্স ইনচার্জ শাহ আলম জানান, অভিযুক্তকে গ্রেফতারপূর্বক সংশ্লিষ্ট আইনে মামলা রুজু শেষে গাজীপুর জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

টঙ্গীতে সাহাজ উদ্দিন সরকার স্কুল এন্ড কলেজে নবীনবরণ অনুষ্ঠিত

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ --- গাজীপুরের টঙ্গীর ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সাহাজ উদ্দিন সরকার স্কুল এন্ড কলেজের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা, নবীনবরণ, পুরস্কার বিতরন ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার সকাল থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত বিদ্যালয়ের মাঠ প্রাঙ্গনে চলা এ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মতিউর রহমান মতি। প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ দেলোয়ার হোসেনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল এমপি। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা এডঃ আজমত উল্লাহ খান। গাজীপুর সিটি করপোরেশনের ৪৬নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর নুরুল ইসলাম নুরু, বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির অভিবাবক সদস্য জাহাঙ্গীর আলম, গাজীপুর মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক রোটারীয়ান বিল্লাল হোসেন, মহানগর মৎস্যজীবী লীগের সভাপতি আসাদুল কবির, টঙ্গীস্থ বৃহত্তর ফরিদপুর জন কল্যাণ সমিতির সভাপতি কে এম শাহ আলম, সাহাজ উদ্দিন সরকার স্কুল এন্ড কলেজ সহকারী প্রধান শিক্ষক সহিদুর ইসলাম সহিদসহ বিদ্যালয়ের সকল শিক্ষক শিক্ষিকাবৃন্দ। আলোচনা সভা শেষে নবীন বরন ও বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় বিজয়ী ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে পুরষ্কার বিতরন করা হয়। পরে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে।

টঙ্গীর পাগাড় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের উদ্যোগে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ --- টঙ্গীর পাগাড় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের উদ্যোগে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার সকালে অত্র প্রতিষ্ঠানের প্রাঙ্গণে এ অনুষ্ঠান আয়োজন করেন পাগাড় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি খালেদুর রহমান রাসেলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের ভারপ্রাপ্ত মেয়র আসাদুর রহমান কিরন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, গাজীপুর জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মোফাজ্জল হোসেন, ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের ৪৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর জাইদুল ইসলাম মোল্লা, জাতীয় পর্যায় স্বর্ণপদক প্রাপ্ত শ্রেষ্ঠ সমবায় সংগঠক আগষ্টিন পিউরিফিকেশন ও সিনিয়র সাংবাদিক সৈয়দ আতিকসহ অত্র প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক, শিক্ষীকাবৃন্দ। অনুষ্ঠান শেষে ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহনকারী ছাত্র/ছাত্রীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করে অতিথিবৃন্দরা।

টঙ্গীতে কোমলমতি শিশুদের মাঝে ক্রীড়া সামগ্রী বিতরন

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ-- গাজীপুরের টঙ্গীতে কোমলমতি শিশু কিশোরদের মাঝে ফুটবল ক্রিকেটসহ বিভিন্ন ক্রীড়া সামগ্রী বিতরন করা হয়েছে। মঙ্গলবার বিকেলে টঙ্গীর মিলগেট কলাবাগান মহল্লায় ৫৫নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদপ্রার্থী হাজী হাসান উদ্দিনের উদ্যোগে এসব ক্রীড়া সামগ্রী বিতরন করা হয়। ক্রীড়া সামগ্রী গুলো হলো, ফুটবল, ক্রিকেট ব্যাট, ক্রিকেট স্টাম্প, টেনিস বলসহ ও অন্যান্য ক্রীড়া সামগ্রী। এসময় হাজী হাসান উদ্দিন বলেন, আজকে শিশু আগামী দিনের ভবিষ্যৎ। তাদের নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে শিশুদের মৌলিক অধিকার নিশ্চিত করতে হবে। শিশুদের মৌলিক অধিকার গুলোর মধ্যে অন্যতম একটি বিনোদন ও খেলাধুলা। শিক্ষার পাশাপাশি বিনোদনমূলক কর্মকান্ডের সাথে শিশুরা না জড়ালে তাদের মানসিক বিকাশ ঘটবে না। এছাড়াও তারা মাদকাসক্ত ও বিপদগামী হয়ে যেতে পারে। তাদের মাদকমুক্ত রাখতে আমার এই ক্ষুদ্র প্রয়াস। ভবিষ্যৎ প্রজন্মের বাংলাদেশ গড়তে শিশুদের মানসিক এবং শারীরিক বিকাশের বিকল্প নেই । এদেরকে সঠিকভাবে দিকনির্দেশনা দিলে এরাই একদিন বাংলাদেশকে সারা বিশ্বের কাছে তুলে ধরবে ইনশাআল্লাহ।

টঙ্গীতে আওয়ামী লীগের শান্তি সমাবেশ মিছিল

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ-- দেশব্যাপী বিএনপি-জামাতের সন্ত্রাস ও নৈরাজ্যের প্রতিবাদে কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসাবে গাজীপুরের টঙ্গীতে শান্তি সমাবেশ ও মিছিল করেছে আওয়ামীলীগ। শনিবার বিকেলে গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মতিউর রহমান মতির নেতৃত্বে টঙ্গীর নতুন বাজার আওয়ামীলীগের দলীয় কার্যালয়ে থেকে মিছিলটি বের হয়ে ঢাকা ময়মনসিংহ মহাসড়কের বিভিন্ন স্থান পদক্ষিন করে পুনরায় দলীয় কার্যালয়ে গিয়ে শেষ হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন, গাজীপুর মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারন সম্পাদক বিল্লাল হোসেন, মহানগর মৎস্যজীবী লীগের সভাপতি আসাদুল কবির, মহিলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নাজমা হোসেন, ৪৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর নুরুল ইসলাম নুরু, মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি মোশিউর রহমান সরকার বাবু, টঙ্গী সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের আহবায়ক সেলিম খান, ৪৬ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের যুগ্ন আহবায়ক জাহাঙ্গীর আলম, যুবলীগ নেতা জসিম মাদবর, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা কাজী মঞ্জুর, হুমায়ুন কবির বাপ্পি, ৫৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদপ্রার্থী হাজী হাসান উদ্দিনসহ আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

বস্তা পঁচা রাজনীতি করে শেখ হাসিনার জনপ্রিয়তা কমানো যাবে না -- রাসেল সরকার

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ -- গাজীপুর মহানগর যুবলীগের আহ্বায়ক ও গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র পদপ্রার্থী কামরুল আহসান সরকার রাসেল বলেছেন, বাংলাদেশের মানুষের যে কোন দুর্যোগ দুর্বিপাকে সব সময় যে দলটি পাশে থাকে সেটি হল বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। আর যে মানুষটি পাশে থাকে সে হচ্ছে জনদরদী নেতা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জনপ্রিয়তা কমানোর লক্ষ্যে যে অপপ্রচার ও গুজব বিএনপি জামাতের এজেন্টরা ছড়াচ্ছে এগুলো হচ্ছে বস্তা পঁচা রাজনীতি। বস্তা পঁচা রাজনীতি করে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জনপ্রিয়তা কমানো যাবে না। এদেশের মানুষ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিঃস্বার্থভাবে ভালোবাসে। শনিবার সকালে গাজীপুর মহানগরীর চান্দনা চৌরাস্তা এলাকার ঈদগাঁও মাঠে দেশব্যাপী বিএনপি - জামাতের সন্ত্রাস ও নৈরাজ্যের প্রতিবাদে আয়োজিত  শান্তি সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন,গাজীপুর মহানগর যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক সুমন আহম্মেদ শান্ত বাবু,আহ্বায়ক কমিটির সদস্য খোরশেদ আলম সরকার,আমান উদ্দিন সরকার,কাইয়ুম সরকার, রাজিবুল হাসান রাজিব,ডা. এ বি এম কাশেম মন্ডল,মহানগর যুবলীগ নেতা আতিকুর রহমান খান রাহাত, আফজাল হোসেন সরকার পাপেল, আব্দুল হালিম মন্ডল, হারুন অর রশিদ সহ গাজীপুর মহানগরীর বিভিন্ন থানা ও ওয়ার্ডের নেতাকর্মীরা । এসময় তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স্বপরিবারে হত্যার মাধ্যমে মেজর জিয়াউর রহমান হত্যার রাজনীতি শুরু করেছে। এরপর থেকে জামায়াতের দোসররা একের পর এক হত্যাকান্ড ঘটিয়ে যাচ্ছে। ২০০১ সালে বিএনপি ভোট চুরি মাধ্যমে ক্ষমতায় আসার পর থেকেই হত্যার রাজত্ব কায়েম করতে ব্যাপক তাণ্ডব চালায়। ২০০৪ সালে ভাওয়াল বীর শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার এমপি কে তার বাড়ির সামনে নৃশংসভাবে ব্রাশ ফায়ার করে হত্যা করেছিল বিএনপির ঘাতকরা। অর্থমন্ত্রী শাহ এম এস কিবরিয়া, খুলনার মনজুর ইমাম সহ বিভিন্ন পর্যায়ে নেতাকর্মী ও সাংবাদিক কে খুন করেন তারা। ২১আগষ্ট রাজধানীতে আজকের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শান্তিপূর্ন সমাবেশ করার সময় বোমা হামলা চালিয়ে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে। সেদিন শেখ হাসিনা মারা না গেলেও আইভী রহমানসহ অনেক নেতাকর্মীকে তারা হত্যা করেছে। শুধু তাই নয়, ২০১৩-১৪ সালেও ক্ষমতার লোভে দেশে আবারও আগুন সন্ত্রাসের রাজনীতি প্রতিষ্ঠা করার লক্ষ্যে নীল নকশা পরিকল্পনা মোতাবেক এদেশের জনগণের জান মালের উপর হামলা চালান তারা। তারা আবারও চায় হত্যাসহ সন্ত্রাস নৈরাজ্য করে ক্ষমতায় আসতে কিন্ত যুবলীগ তা করতে দিবে না। রাসেল সরকার আরো বলেন, বিএনপি অতীতে দেশে গুম খুন ও দুর্নীতির রাজনীতি পরিচালনা করে দেশকে উন্নত বিশ্বের কাছে একটি দুর্নীতিতে চ্যাম্পিয়ন রাষ্ট্র হিসেবে পরিচয় করিয়ে দিয়েছিলো। সেই ব্যর্থ রাষ্ট্র থেকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার দূরদর্শিতায় উন্নত রাষ্ট্র হিসেবে বিশ্বের কাছ থেকে বাংলাদেশকে স্বীকৃতি এনে দিয়েছে। বিএনপি জামাত ক্ষমতায় আসলে আবারো দেশকে ব্যর্থ রাষ্ট্র হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে মরিয়া হয়ে উঠবে তারা। তাই আগামী সিটি নির্বাচন ও জাতীয় নির্বাচনে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী হাতকে শক্তিশালী করার লক্ষ্যে নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে উন্নয়ন ধারাকে অব্যাহত রাখার জন্য সকলকে অনুরোধ করছি।

গাজীপুরে শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টারের ম্যুরালের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ--- গাজীপুর মহানগরীর গাছা থানাধীন ৩৩ নং ওয়ার্ডের বটতলা মোর এলাকায় ভাওয়াল বীর শহীদ আহসান উল্লাহ মাষ্টার এমপির ম্যুরাল এর  ভিত্তিপ্রস্থ স্থাপন করা হয়েছে। শুক্রবার সকালে যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সদস্য ও  গাছা থানা যুবলীগ সভাপতি পদপ্রার্থী মো. আমিন উদ্দিন সরকার এই ম্যুরালের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করে। এসময় উপস্থিত ছিলেন, ৩৩ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক আলহাজ্ব আব্দুল মজিদ সরকার, বটতলা করম আলী কেন্দ্রীয় মসজিদের মোতায়াওয়াল্লী হাজী শাহজাহান মিয়া, মাওলানা মনির হোসেন আব্বাসী, প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা হাজী ফিরোজ মিয়া, ৩৩ নং ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি পদপ্রার্থী মোঃ  আব্দুর রশিদ মোল্লা প্রমুখ। বটতলা মোড় এলাকায় প্রয়াত সংসদ ও জাতীয় শ্রমিক নেতা শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টারের ম্যুরাল স্থাপন করায় স্থানীয়রা কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন। তারা বলেন, ভাওয়াল বীর শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার এই এলাকাবাসীর জীবন মান উন্নয়নের জন্য ব্যাপক ভূমিকা রেখেছিলেন। যেহেতু ভাওয়াল বীরের জন্ম পার্শ্ববর্তী পুবাইল এলাকায় ছিলো সেই সুবাদে এই এলাকায় তার পদচারণা ছিল ব্যাপক। তার স্মৃতি ধরে রাখার এ চেষ্টা করায় সাবেক কেন্দ্রীয় যুবলীগের সদস্য ও গাছা থানা যুবলীগের সভাপতি পদপ্রার্থী মোঃ আমিন উদ্দিন সরকার কে বিশেষ ধন্যবাদ জানান তারা। ম্যুরালের ভিত্তি প্রস্তুত স্থাপন অনুষ্ঠানে সাবেক কেন্দ্রীয় যুবলীগের সদস্য ও গাছা থানা যুবলীগের সভাপতি  পদপ্রার্থী মোঃ  আমিন উদ্দিন সরকার বলেন, ভাওয়াল বীর শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার ছিলেন বাংলার এক কিংবদন্তি নেতা। শেখ মুজিবুর রহমান ও জাতীয় চার নেতার মতোই তিনিও অসহায় মেহনতি মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে রাতদিন পরিশ্রম করতেন। তিনি নিজের জীবন উৎসর্গ করেছেন আত্ম মানবতায়। ২০০৪ সালে ঘাতকরা তাকে গুলি করে হত্যা করতে পারলেও প্রিয় স্যারের কর্মকাণ্ডে তিনি এখনো বেঁচে আছেন হাজারো মানুষের হৃদয়ে। প্রিয় স্যারের রাজনৈতিক জীবন সম্পর্কে বর্তমান প্রজন্ম কে অবগত করতেই আমাদের এই প্রয়াস।

গাজীপুর জেলা সাংবাদিক ঐক্য পরিষদের নতুন কমিটি ঘোষণা।

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ--- বিপুল উৎসাহ উদ্দিপনার মধ্য দিয়ে পারস্পরিক আলোচনার ভিত্তিতে গাজীপুর জেলা সাংবাদিক ঐক্য পরিষদের নতুন কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। এক বছর মেয়াদী এই কমিটিতে উপদেষ্টা মন্ডলীর নেতৃত্বে অধ্যাপক আবুল হোসেন চৌধুরীকে সভাপতি ও মুছা খান রানাকে সাধারণ সম্পাদক করে ৩০ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি ঘোষনা করা হয়। গাজীপুরের হোতাপাড়া এলাকার শ্যামলী রিসোর্ট ও পিকনিক স্পটে সোমবার দিনব্যাপী গাজীপুর জেলা সাংবাদিক ঐক্য পরিষদের উদ্যোগে আয়োজিত বনভোজন ও ফ্যামিলি ডে অনুষ্ঠানে এই কমিটি ঘোষনা করা হয়। গাজীপুর জেলা সাংবাদিক ঐক্য পরিষদের সভাপতি অধ্যাপক আবুল হোসেন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সংগঠনের উপদেষ্টা আব্দুস সালাম শান্ত, সাধারণ সম্পাদক মুছা খান রানা, সাংগঠনিক সম্পাদক সানাউল্লাহ নুরী প্রমূখ। এসময় উপস্থিত ছিলেন উপদেষ্টা মণ্ডলীর সদস্য মোহাম্মদ আলী ভূঁইয়া, অধ্যাপক শামসুল হুদা লিটন, সঞ্জীব কুমার দাস, সেলিম ভূঁইয়া, অধ্যাপক মুখলেছুর রহমান, আব্দুল মালেক, জামাল উদ্দিন। নতুন কমিটির নেতৃত্ব দেবেন, সভাপতি অধ্যাপক আবুল হোসেন চৌধুরী, সিনিয়র সহ সভাপতি জাকির হোসেন  কামাল, সহ-সভাপতি ইব্রাহিম খন্দকার, নাজিম উদ্দিন, মৃনাল কান্তি চৌধুরী সৈকত, সালাম রানা, জসিম উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক মুছা খান রানা, যুগ্ন সম্পাদক আল আমিন দেওয়ান, মোহাম্মদ বেলায়েত হোসেন, শামীম মনির হোসেন মন্ডল, শহিদুল ইসলাম, মাসুদ রানা, সাংগঠনিক সম্পাদক সানাউল্লা নুরী, দপ্তর সম্পাদক নাসির উদ্দিন, কোষাধক্ষ্য আল আমিন হোসেন, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক রাশেদ উল হোসেন, ক্রিয়া সম্পাদক এস এম রানা, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মহিদুল আলম চঞ্চল, আইন বিষয়ক সম্পাদক মানিক মিয়া, মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা মরিয়ম আক্তার। কার্যনির্বাহী সদস্য মোহাম্মদ আব্দুল কাসেম, হাজী সাইফুল ইসলাম, রফিকুল ইসলাম, সাইফুল ইসলাম মানিক, আমিনা খাতুন মুনমুন, জাকির হোসেন লিটন, সেলিম শেখ, জাকারিয়া আল মামুন, হাজী কামাল চৌধুরী ও কাজী শাকিল। অপরদিকে বনভোজন ফ্যামিলি ডে অনুষ্ঠানে বিভিন্ন আয়োজনে আনন্দঘন মুহূর্ত উপভোগ করেছেন সংগঠনটির সদস্য সাংবাদিক ও তাদের পরিবারবর্গ। দিনের শুরুতে সাংবাদিকদের সন্তানদের নিয়ে অনুষ্ঠিত হয় ক্রীড়া প্রতিযোগিতা। নারী সাংবাদিক ও সাংবাদিকদের সহধর্মীনিদের নিয়ে ছিল ভিন্ন আয়োজন। দিন শেষে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও রাফেল ড্র এর মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠান শেষ হয়।

লতা গ্রুপ অব কোম্পানির চেয়ারম্যানকে বিশেষ সম্মাননা।

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ --- বিভিন্ন সামাজিক ও মানবিক কর্মকাণ্ডে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখায় লতা গ্রুপ অব কোম্পানির চেয়ারম্যান বিশিষ্ট শিল্পপতি আইউব আলী ফাহিমকে বিশেষ সম্মাননায় ভূষিত করেছে নবম বিসিএস ব্যাচ ফোরাম। গাজীপুরের পুবাইলের আপন ভূবন পিকনিক ও শুটিং স্পটে শুক্রবার নবম বিসিএস ব্যাচ ফোরাম কর্তৃক আয়োজিত বার্ষিক সম্মেলন ও পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে এই সংবর্ধনা দেয়া হয়। এ সময় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব তোফাজ্জল হোসেন মিয়া, সিনিয়র কাষ্টমস কমিশনার ড. মতিউর রহমান, গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মোল্যা নজরুল ইসলাম সহ নবম বিসিএস থেকে বাংলাদেশ সরকারের বিভিন্ন দপ্তরে নিয়োজিত সচিবগণ এবং অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ। অনুষ্ঠানের ইভেন্ট ম্যনেজমেন্ট এর দায়িত্বে ছিল মাটি কমনিকেশন লিমিটেড ও টাইটেল স্পন্সার ছিল লতা হারবাল বিডি লিমিটেড।

টঙ্গীতে ব্যাবসায়ীর উপর যুবদল নেতার সন্ত্রাসী হামলা

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ -- গাজীপুরের টঙ্গীতে ট্রাক আটকিয়ে হুমায়ুন কবির(৪০)নামে এক ব্যবসায়ী ও ট্রাক হেলপারকে মারধর করার অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় যুবদল নেতা টুটুলের বিরুদ্ধে। এঘটনায় ব্যবসায়ী হুমায়ূন কবির বাদী হয়ে টঙ্গী পূর্ব থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, টঙ্গীর দত্তপাড়া এলাকায় টুটুলের বাড়ির সামনে ট্রাক রেখে মালামালের লোড করাচ্ছিল গাড়ি চালক এরশাদ ও হেলপার হাসান। এসময় পাশ দিয়ে যাচ্ছিল টুটুলের ছেলে। নিরাপত্তার স্বার্থে হেলপার হাসান টুটুলের ছেলেকে একটু দুরত্ব রেখে যেতে বলে। এ খবর জানতে পেরে টুটুল তার ৪/৫ জন সাঙ্গপাঙ্গ নিয়ে ঘটনাস্থলে এসে ট্রাক হেলপার হাসানকে বেধরক মারধর করে এবং ট্রাকটি আটক করে রাখে। খবর পেয়ে হুমায়ুন ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে হেলপারকে মারার ও গাড়ি আটক করার কারন জানতে চাইলে টুটুল হুমায়ুনের সাথে দূর্ব্যবহার করতে থাকে। হুমায়ুন প্রতিবাদ করলে সাঙ্গুপাঙ্গু নিয়ে তার উপর হামলা চালায় ওই যুবদল নেতা। এসময় হুমায়ুনকে বেধরক মারধর করে তারা। একপর্যায়ে গাড়ির ব্যবসা বন্ধ করে দেয়ার হুমকিও দেয় তারা। পরে স্থানীয় এলাকাবাসী ও ট্রাক চালকরা তাদের উদ্ধার করে টঙ্গীর শহীদ আহসান উল্লাহ মাষ্টার জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা দেন। টঙ্গী পূর্ব থানার অফিসার ইনচার্জ আশরাফুল ইসলাম বলেন, এঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

টঙ্গীতে ব্যবসায়ী উপর সন্ত্রাসী হামলা

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরের টঙ্গীর বনমালা এলাকায় শামীম হোসেন রিপন (৩৫) নামে এক ব্যবসায়ির উপর হামলার অভিযোগ উঠেছে আওয়ামী লীগ নেতার ছেলে ও ভাইয়ের বিরুদ্ধে। এঘটনায় বুধবার রাতে পূবাইল থানায় লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে। অভিযুক্তরা হলেন, সাবেক কাউন্সিলর ও মহানগরের ৩৯ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সদস্য সচিব বিল্লাল হোসেনের ছেলে রিবেল ওরফে রিয়েল (২২) ও তার ভাই কামাল হোসেন (৪২)। অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, গত ১৪ জানুয়ারি সন্ধ্যায় বনমালা ব্রিজ সংলগ্ন এলাকায় ফুচকা খেতে যান ভুক্তভোগী রিপন। এসময় রিয়েল ও কামালের নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী রিপনের উপর অতর্কিত হামলা চালায়। একপর্যায়ে তারা রিপনকে তুলে নিয়ে পুবাইলের সুকুন্দিরবাগ এলাকায় আওয়ামীলীগ নেতা বিল্লাল হোসেনের অফিসে নিয়ে যায়। সেখানে দীর্ঘসময় পর্যন্ত তার উপর শারীরিক নির্যাতন চালায়। এসময় তারা দা, লোহার রড ও ইট দিয়ে মাথা, মূখসহ শরীরের বিভিন্ন জায়গা থেতলে দিয়ে গুরুতর জখম করে। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে টঙ্গীর শহীদ আহসান উল্লাহ মাষ্টার জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। ভুক্তভোগী রিপন জানান, কোন কারন ছাড়াই আমার উপরে হামলা করেছে আওয়ামী লীগ নেতার ছেলে ও তার ভাই। আমি কারণ জানতে চাইলে নেতার ভাই কামাল বলেন, আমাকে হত্যা করার নির্দেশ দিয়েছে তার বড় ভাই। মাথা, কিডনি ও পায়ে গুরুতর যখম পেয়ে প্রতিনিয়ত মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছি। আমি এই ঘটনার সুষ্ঠ বিচার চাই। অভিযুক্তরা জানান, বাকবিতন্ডার জেরে রিপন আমাদের মারতে আসলে এলাকাবাসী তাকে মারধর করে। পুবাইল থানার অফিসার ইনচার্জ জাহিদুল ইসলাম জানান, এই ঘটনায় থানায় অভিযোগ হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

টঙ্গী‌তে বৃদ্ধের অর্ধগ‌লিত লাশ উদ্ধার

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ --- গাজীপু‌রের টঙ্গী‌তে বোরহান উ‌দ্দিন আহ‌ম্মেদ (৬০) না‌মে এক ব‌্যক্তির অর্ধগ‌লিত লাশ উদ্ধার ক‌রে‌ছে পু‌লিশ। শুক্রবার রাত পো‌নে ৯টায় দত্তপাড়া ক‌ফিল উ‌দ্দিন সড়কের (খ‌লিল গেট) সা‌বেরুল ইসলা‌মের বা‌ড়ির দুতলা রু‌মের দরজা ভে‌ঙ্গে তার লাশ উদ্ধার ক‌রে পু‌লিশ। নিহ‌তের নাম ছাড়া আর কোন প‌রিচয় পাওয়া যায়‌নি। বা‌ড়ির মা‌লিক সা‌বেরুল ইসলাম জানান, এক থে‌কে দেড় বছর আ‌গে তার বাাড়‌তে দুতলার এক‌টি ফ্লাট ভাড়া নেয়। ফ্লা‌টে সে একাই থাক‌তো। মৃত ব‌্যক্তি কা‌রো সা‌থে কথা বল‌তোনা। একাই চল‌ফেরা কর‌তো। গত ক‌য়ে‌ক‌দিন ধ‌রে তার রু‌মের দরজা ভিতর থে‌কে বন্ধ রয়ে‌ছে। শুক্রবার সকাল থে‌কে গন্ধ বের হ‌চ্ছে। বা‌ড়ির মা‌লিক আরো জানায়, ভাব‌ছিলাম বাসার ময়লা থে‌কে এমন গন্ধ বের হ‌চ্ছে। প‌রে পা‌শের বা‌ড়ি থে‌কে ওই রু‌মের ভিত‌রে জানালা দি‌য়ে টর্চ লাইটের আ‌লো দি‌য়ে দেখা যায় ভিত‌রে সে মশারীর ভিত‌রে শো‌য়ে আ‌ছে এবং পচা গন্ধ বের হ‌চ্ছে। প‌রে পু‌লিশ‌কে খবর দেওয়া হয়। টঙ্গী পুর্ব থানার এসআই সুমন খান ব‌লেন, বা‌ড়ির মা‌লিক ও স্থানীয়‌দের কাছ থে‌কে খবর পে‌য়ে লাশ উদ্ধার ক‌রে থানায় নি‌য়ে যাই।

মাদকাসক্তি নিরাময় কেন্দ্রে প্রান গেল ছেলের পরিবারের দাবী অবহেলায় মৃত্যু।

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ ষোল বছরের টগবগে কিশোর আফিফ ইশফাক আপন। বাবা মার আদরের সন্তান দুই ভাই বোনের মধ্যে বড় সে। লেখাপড়া করতো রাজধানীর স্বনামধন্য একটি স্কুলে। সঙ্গ দোষে কিছুটা বিপথগামী হওয়ায় কিশোর ছেলেকে সুস্থ করতে গাজীপুর সদরের আলোর জীবন মাদকাসক্তি নিরাময় কেন্দ্রে পাঠিয়েছিলেন বাবা আমিরুল ইসলাম। মধ্যরাতে নিরাময় কেন্দ্রে পাঠালেও সকাল বেলা খবর পান তার ছেলে গলায় গামছা পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছে। ঘটনা শুনে বিশ্বাস না করলেও সরেজমিনে উপস্থিত হয়ে ছেলের ঝুলন্ত মরদেহ দেখে হত বিহ্বল হয়ে পড়েন বাবা আমিরুল ইসলাম। তিনি বলেন আমার ছেলে আত্মহত্যা প্রবন ছিল না। সবসময় বিনোদনপ্রেমী ছিল। বন্ধুদের সাথে আড্ডা, খেলাধুলা নিয়ে মেতে থাকতো সে। এমন ছেলে আত্মহত্যা করতে পারে না। মাদকাসক্তি নিরাময় কেন্দ্রে কেন এমন বড় গামছা থাকবে যাতে অন্যের ক্ষতিসাধন হয়? এটা সম্পূর্ণ বেআইনি। তাছাড়া কয়েক মাস যাবৎ ওই প্রতিষ্ঠানের সিসি ক্যামেরা বিকল। অথচ নিয়ম হচ্ছে ২৪ ঘন্টা সকল রোগীকে নজরদারিতে রাখতে হয়। মাদকাসক্তি নিরাময় কেন্দ্রে মানুষ চিকিৎসা সেবা ও পুনর্বাসনের জন্য আসে এখানেই যদি নিরাপত্তা না থাকে তাহলে মানুষ যাবে কোথায়? আজ আমার বুক খালি হয়েছে এভাবে চলতে থাকলে ভবিষ্যতে আরো অনেক মা বাবার বুক খালি হয়ে যাবে। নিরাময় কেন্দ্র গুলোর এ ধরনের অবহেলা বন্ধে সরকারি সংস্থাগুলোর নজরদারির দাবি জানাচ্ছি। গত ২৩ ডিসেম্বর সকালে গাজীপুর সদরের বড় হাজীবাগ এলাকার আলোর জীবন মাদকাসক্তি নিরাময় কেন্দ্রে এঘটনা ঘটে। নিহত আফিফ ইশফাক আপন (১৭) গাজীপুরের কালিয়াকৈর পূর্ব মৌচাক এলাকার মো. আমিরুল ইসলামের সন্তান। তারা পরিবারসহ নগরীর ছায়াবিথী এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকতেন। এবিষয়ে জানতে চাইলে আলোর জীবন মাদকাসক্তি নিরাময় কেন্দ্রের পরিচালক মো. সুমন কর্তব্যে অবহেলার কথা শিকার করে বলেন, গত ২৩ ডিসেম্বর সকালে নিহত আপন ক্লাস রুমের ফ্যান লাগানোর হুকের সাথে গামছা পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছে। যেহেতু আমার প্রতিষ্ঠানের ভিতরে এই ঘটনা ঘটেছে তাই এর দায় আমার উপরেও বর্তায়। তিনি আরো বলেন সিসি ক্যামেরা বিকল থাকায় আসল ঘটনা কি ঘটেছিল তা আমরা নিশ্চিত হতে পারিনি। তাছাড়া দিনটি শুক্রবার হওয়ায় সবাই একটু দেরীতে ঘুম থেকে উঠে।   গাজীপুর সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ জিয়াউল ইসলাম বলেন, এ বিষয়ে তদন্ত চলছে। নিহতের ময়নাতদন্ত রিপোর্ট হাতে আসলে বিস্তারিত জানা যাবে। প্রাথমিক ভাবে থামায় একটি অপমৃত্যু মামলা রুজু হয়েছে। গাজীপুর মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মো. মেহেদী হাসান বলেন, আলোর জীবন মাদকাসক্তি নিরাময় কেন্দ্রে ঘটনার বিষয়ে আমরা তদন্ত করছি। কিছু বিষয় ইতিমধ্যে সামনে এসেছে। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন হাতে পেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

গাজীপুর কসমিক কলেজের উদ্যোগে পিঠা উৎসব

টঙ্গী প্রতিনিধি:--- গাজীপুর কসমিক কলেজের উদ্যোগে পিঠা উৎসব গতকাল শুক্রবার অনুষ্ঠিত হয়েছে। পিঠা উৎসব উদ্বোধন করেন ১৯নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সদস্য সচিব মোঃ আলমগীর হোসেন মাষ্টার। অন্যান্যের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন, গাজীপুর কসমিক কলেজের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক এমারত হোসেন চৌধুরী, গাজীপুর কসমিক কলেজের প্রিন্সিপাল আতাউর রহমান সরকার প্রমুখ। এ সময় বক্তারা বলেন, বাঙালির লোকজ সংস্কৃতিকে সমুন্নত করতে চিরায়ত পিঠা উৎসব। এ ঐতিহ্য ধরে রাখতে আয়োজকদের আহ্বান জানান।

ফুল দিয়ে কলেজ ছাত্রলীগের ইংরেজি বর্ষবরণ

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ ইংরেজি নববর্ষকে স্বাগত জানাতে ভিন্নধর্মী এক আয়োজন করে টঙ্গী সরকারি কলেজ ছাত্রলীগ। নতুন বছরে কলেজ শুরুর প্রথম দিনে সকল শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের ফুল দিয়ে বরণ করেছে নবগঠিত টঙ্গী সরকারি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের আহবায়ক কমিটি। সোমবার সকালে কলেজ ক্যাম্পাসে উপস্থিত হওয়া সকল শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের ইংরেজি নববর্ষ উপলক্ষে ফুল ও শিক্ষা উপকরণ দিয়ে বরণ করে নেওয়া হয়। এসময় পুরো ক্যাম্পাস জুড়ে আনন্দঘন পরিবেশ সৃষ্টি হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন টঙ্গী সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের আহবায়ক সেলিম খান, যুগ্ন আহবায়ক মেহেদী হাসান শিশির, মিরাজুর রহমান রায়হানসহ কলেজ ছাত্রলীগের নেতাকর্মী বৃন্দ। এর আগে সকালে টঙ্গী সরকারী কলেজের অধ্যক্ষ মো:রফিকুল ইসলামের সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন ছাত্রলীগের নেতা কর্মীরা। টঙ্গী সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের আহ্বায়ক সেলিম খান বলেন, ডিসেম্বর মাস কলেজ বন্ধ ছিল। দীর্ঘদিন পর আজ থেকে কলেজ শুরু হয়েছে নতুন বছরে কলেজ শুরুর প্রথম দিনে শ্রদ্ধেয় শিক্ষকবৃন্দ ও সকল শিক্ষার্থী ভাই-বোনদের সাথে কলেজ ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে  ইংরেজি নববর্ষের শুভেচ্ছা বিনিময় করেছি। ভবিষ্যতেও কলেজের সাধারণ শিক্ষার্থীদের সাথে নিয়ে শিক্ষা ব্যবস্থা বেগবান করার লক্ষ্যে কাজ করে যাব।

আড়াই ঘণ্টা পর নিয়ন্ত্রণে গাজীপুরের কাপড়ের মার্কেটের আগুন।

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ - গাজীপুরের চান্দনা চৌরাস্তা এলাকার একটি পাইকারি কাপড়ের মার্কেটে লাগা আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে। ফায়ার সার্ভিসের ছয়টি ইউনিট প্রায় আড়াই ঘন্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে । রোববার (২৫ ডিসেম্বর) রাত সোয়া ৯টার দিকে হাজী আব্দুর রহিম পাইকারি কাপড়ের মার্কেটে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। আগুন লাগার কারন ও হতাহতের কোন খবর পাওয়া যায়নি। তবে আগুনে পুড়ে গেছে কোটি টাকার তৈরী পোষাক সহ বিভিন্ন মালামাল। হাজী আব্দুর রহিম মার্কেটের পাইকারি ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান রংধনু ফ্যাশনের ম্যানেজার রমজান আলী জানান, রাত সোয়া ৯টার দিকে মার্কেটে আগুন দেখতে পেয়ে দৌড়াদৌড়ি শুরু করেন মানুষ। মুহূর্তেই আগুন তার দোকানে ছড়িয়ে পড়ে। এ সময় দোকান থেকে কোনো কিছু বের করে নিতে পারেননি। তিনি বলেছেন, ‘দোকানে ৩০ লাখ টাকার মালামাল ছিল। চোখের সামনে লাখ লাখ টাকার মালামার পুড়ে গেল, দাঁড়িয়ে দেখা ছাড়া আর কিছুই করার ছিল না।’ অপর পাইকারি দোকান আজিজ হাউজের মালিক আব্দুল আজিজ জানান, তার দোকানে ৬০ লাখ টাকার মালামাল ছিল। আগুনে সব পুড়ে গেছে। তিনি জানান, অনেক দোকানদাররা কোনো কিছুই বের করে নিতে পারেননি। পাইকারি মার্কেটটির মার্কেট ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি হাজী আব্দুল মতিন জানান, প্রায় ২০০ দোকান ও ৩০০ ভিট ভাড়া নিয়ে এ মার্কেটে ছোট বড় মিলে ৫০০-৬০০ জন ব্যবসায়ী ব্যবসা পরিচালনা করতেন। শীতের বিভিন্ন ধরনের কাপড় ছাড়াও শাড়ি, লুঙ্গি, থ্রিপিস, ওড়না, কম্বলসহ সব দোকানই মালামালে পরিপূর্ণ ছিল। সারাদিন টুকটাক কাস্টমার থাকলেও সন্ধ্যার পর মার্কেটে প্রচুর ভীড় হয়। রোববার রাত ৯টার কিছু সময় পর হঠাৎই মার্কেটের দক্ষিণ পাশ থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। মুহুর্তেই আগুন আশপাশের দোকান গুলোতে ছড়িয়ে পড়ে। এসময় পাশের হোসেন মার্কেটেও আগুন ছড়িয়ে পড়ে। সেখানে থাকা ২০-২৫টি দোকানের মালামাল পুড়ে যায়। গাজীপুর ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারি পরিচালক আব্দুল্লাহ আল আরেফীন জানান,  খবর পেয়ে গাজীপুর ফায়ার সার্ভিসের চারটি ও টঙ্গী থেকে আরো দু’টি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা চালায়। মার্কেটের রাস্তা খুব সরু হওয়ায় ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি প্রবেশ এবং আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার কাজ শেষ করতে বেশ বেগ পেতে হয়েছে। ফায়ার সার্ভিসের ছয়টি ইউনিটের আড়াই ঘন্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে। আগুন লাগার কারণ ও ক্ষয় ক্ষতির পরিমাণ তদন্ত করে জানা যাবে।

গাজীপুরে কাপড়ের মার্কেটে আগ্নিকান্ড, নিয়ন্ত্রণে ৬ ইউনিট

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরের চান্দনা চৌরাস্তা এলাকার একটি পাইকারি কাপড়ের মার্কেটে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। আগুন নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিসের ৬টি ইউনিট কাজ করছে। রোববার (২৫ ডিসেম্বর) রাত সোয়া ৯টার দিকে আগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। তবে এখনো কোনো হতাহতের খবর, আগুন লাগার কারণ ও ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ জানা যায়নি। গাজীপুর ফায়ার সার্ভিসের কর্তব্যরত ডিউটি অফিসার খলিলুর রহমান বলেন, গাজীপুরের চান্দনা চৌরাস্তায় এলাকার একটি পাইকারি কাপড়ের মার্কেটে আগুনের খবর পেয়ে গাজীপুর ফায়ার সার্ভিসের চারটি ইউনিট রাত ৯টা ৪০ মিনিটে ঘটনাস্থলের উদ্দেশ্যে রওনা হয়। পরে পরিস্থিতি বিবেচনায় টঙ্গী থেকে আরো দুইটি ইউনিট যুক্ত হয়ে মোট ছয়টি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করে যাচ্ছে। তবে আগুনটি অনেক বড়। ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে আছেন। পরিস্থিতি বিবেচনা করে প্রয়োজন হলে আরও ইউনিট বাড়ানো হবে।

টঙ্গী রেল সেতুতে ট্রেনের বগি লাইনচ্যুত; পাঁচ ঘন্টা পর উদ্ধার

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ -- গাজীপুরের টঙ্গীর তুরাগ নদীর ওপর রেল সেতুতে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা চট্টগ্রামগামী মালবাহী ট্রেন লাইনচ্যুত হয়েছে। মালবাহী ট্রেন সাড়ে পাঁচ ঘন্টা পর উদ্ধার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২২ ডিসেম্বর) দুপুর দুইটায় ঢাকা-চট্টগ্রাম-ময়মনসিংহ রেল সড়কের আপ লাইনে এ দুর্ঘটনা ঘটে দুর্ঘটনার ফলে ঢাকা থেকে বের হওয়া আপ লাইনে ট্রেন চলাচল দীর্ঘ সময় বন্ধ ছিল এবং ঢাকায় প্রবেশের ডাউন লাইনে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক ছিল। এতে কয়েকটি ট্রেন সিডিউল বিপর্যয়ে পড়েছিল বলে জানিয়েছেন টঙ্গী রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার রাকিবুর রহমান। পাঁচ ঘন্টা পর সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় বগি উদ্ধার এবং ট্রেন চলাচল শুরু হয়। টঙ্গী রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার রাকিবুর রহমান জানান, ঢাকা থেকে চট্টগ্রামগামী একটি মালবাহী ট্রেন তুরাগ নদীর ওপর টঙ্গী রেল ব্রিজ পাড় হওয়ার সময় পেছনের দিকের একটি বগির ছয়টি চাকা রেল ব্রিজের ওপর লাইনচ্যুত হয়। পরে সামনে থাকা ইঞ্জিন ও বগিগুলো কেটে টঙ্গী স্টেশনে রাখা হয়েছিল। লাইনচ্যুত বগিসহ অন্য দুই বগি রেল ব্রিজের ওপরেই ছিল। দুর্ঘটনাস্থলটি সেতুর ওপরে থাকায় বগি উদ্ধারে কিছুটা ঝুঁকি ছিল বিধায় খুব সতর্কতার সাথে বগিগুলো উদ্ধার করেছে উদ্ধারকারী সদস্যরা। সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় কিছু সময় পর লাইনচ্যুত বগি টঙ্গী স্টেশনে আনা হয়েছে। ট্রেনটি অন্যান্য যান্ত্রিক সমস্যা আছে কি না পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হচ্ছে। তিনি আরও জানান, মহান বিজয় দিবস উপলক্ষ্যে জাতীয় প্যারেড গ্রাউন্ডে বাংলাদেশ নৌবাহিনী সাজোয়া যান, ট্যাঙ্কার, রকেট লাঞ্চার, নৌকা, জাহাজসহ প্রদর্শনীর জন্য আনা কিছু ডামি চট্টগ্রাম নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। সেগুলো ট্রেনযোগে চট্টগ্রামে ফিরিয়ে নেওয়ার পথেই টঙ্গীর তুরাগ নদীর রেল সেতুতে বগি লাইনচ্যুত হয়।

টঙ্গী পূর্ব থানা আঃ লীগের সাধারণ সম্পাদক পদে জনপ্রিয়তার শীর্ষে নুরুল ইসলাম নুরু।

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ-- আগামীকাল ২ ডিসেম্বর টঙ্গী পূর্ব ও পশ্চিম থানা আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। সম্মেলনকে কেন্দ্র করে ব্যাপক প্রচার-প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন দলীয় নেতা-কর্মীরা। ওই সম্মেলনে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা, বর্তমান টঙ্গী থানা আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক, বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের নির্বাচিত সদস্য ও ৪৬নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর নুরুল ইসলাম নুরুকে টঙ্গী পূর্ব থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দেখতে চায় টঙ্গীর তৃনমুল পর্যায়ের নেতাকর্মীরা। এই সম্মেলনে থানা কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদ নিয়ে নেতাকর্মীদের আগ্রহের শেষ নেই। বিশেষ করে সাধারণ সম্পাদক পদ নিয়ে চলছে নানা বিশ্লেষণ। কে হচ্ছেন টঙ্গী পূর্ব থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এ প্রশ্ন এখন সর্বমহলে? এ বিষয়ে টঙ্গী অঞ্চলের আ.লীগের নেতাকর্মীদের সঙ্গে আলোচনায় কয়েক জনের নাম সামনে এসেছে। যাকে নিয়ে সবচেয়ে বেশি আলোচনা হচ্ছে তিনি হলেন নুরুল ইসলাম নুরু। তিনি টঙ্গী সরকারি বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ শাখার ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও টঙ্গী থানা আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক, বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের নির্বাচিত সদস্য দায়িত্ব পালন করেছেন। বর্তমানে তিনি গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন ৪৬ নং ওয়ার্ড থেকে বারবার নির্বাচিত সফল কাউন্সিলর হিসেবে দায়িত্বে আছেন। নুরুল ইসলাম নুরু বেশকিছু কারণে সাধারণ সম্পাদক হওয়ার দৌড়ে সবার থেকে এগিয়ে আছেন। ছাত্র রাজনীতি থেকে উঠে আসা, আওয়ামী লীগের দুর্দিনের পরীক্ষিত নেতা, থানা পর্যায়ে নিজস্ব কর্মী বলয় এবং স্বচ্ছ ইমেজের কারণে বেশ গ্রহণযোগ্যতা রয়েছে। এছাড়া তিনি খুব ভালো বক্তা এবং অনুষ্ঠান পরিচালনায় খুবই দক্ষ। এসব কারণে নেতাকর্মীদের মাঝে সাধারণ সম্পাদক হিসেবে তার নামই সবচেয়ে বেশি আলোচিত হচ্ছে। আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী নুরুল ইসলাম নুরু বলেন,  টঙ্গী পূর্ব  থানা আওয়ামী লীগের সৎ যোগ্য নেতৃত্ব এখন সময়ের দাবি। আমি দলে অনুপ্রবেশকারী নই। ছাত্রজীবন থেকে সত্যতার সঙ্গে রাজনীতি করে যোগ্যতার পরিচয় দিয়েছি। টেন্ডারবাজি, চাঁদাবাজি, মাদক এবং কোন অপরাধের সাথেও কোনদিন জড়িত ছিলাম না।

টঙ্গীতে গণ-ধর্ষণ; আসামী ধরতে গিয়ে পুলিশের উপর হামলা গ্রেফতার-৫

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ-- টঙ্গীর মরকুন কবরস্থান এলাকায় গণ ধর্ষণ ঘটনায় গত মঙ্গলবার টঙ্গী পূর্ব থানায় দায়েরকৃত মামলার ভিত্তিতে আসামি ধরতে গেলে আসামী পক্ষের সাথে পুলিশের মারামারির ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে থানায় আরো একটি মামলা দায়ের করেছে। এসব ঘটনায় দুইজন ধর্ষণকারীসহ ৫ জনকে গ্রেফতার করে গতকাল বুধবার আদালতের মাধ্যমে জেলে প্রেরণ করা হয়েছে। এজাহার সুত্রে জানা যায়, পোশাক কর্মী ধর্ষিতার সাথে ৭মাস পূর্বে মরকুন এলাকার যুবক আসাদুজ্জামান শাওনের (২৮) মুঠোফোনে ফেসবুকে পরিচয় হয়। তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গভীর হলে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে লাগাতার ধর্ষণ করে শাওন। এর ধারাবাহিকতায় গত ২৯ তারিখ ধর্ষিতাকে প্রেমিকের বাসায় আসতে বললে সে রাজি হয়নি। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে শাওন তার বন্ধুরা মোবাইল ফোনে ধর্ষিতাকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। প্রাণ বাচাঁতে একই দিন গভির রাত দেড়টার দিকে সে প্রেমিকের বাসায় যাওয়ার পথে মরকুন গণ কবরস্থান এলাকায় পৌছলে পূর্ব থেকে উৎপেতে থাকা শাওন, তার বন্ধু বাবুল হোসেন বাবু (২৭) ও রিপন মিয়া (৩০) মুখ চেপে ধরে কবরস্থানের ভিতরে নিয়ে যায়। পরে তাকে পালাক্রমে রাতভর ধর্ষণ করে। রাত শেষের দিকে সে ডাক চিৎকার শুরু করলে আশপাশের লোকজন এসে তাকে উদ্ধার করে ঘটনাস্থলের পাশে একটি বাড়িতে নিয়ে যায়। উদ্ধারকারীরা জাতীয় জরুরী সেবা ৯৯৯- এ অবহিত করলে পুলিশ ঘটনাস্থল গিয়ে ধর্ষক বাবুকে গ্রেফতার করে। তার দেওয়া তথ্যমতে অন্য আসামীদের ধরতে গেলে আসামীর পক্ষের লোকজন পুলিশের ওপর চড়াও হয়। এতে পুলিশ সদস্য আমজাদ শরিফ গুরুতর আহত হয়। তাকে টঙ্গীর শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এঘটনায় ১২ জনকে এজাহারভুক্ত ও ১০/১২ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামী করে থানায় পৃথক আরো একটি মামলা করা হয়। পুলিশ এ মামলায় ধর্ষণকারী শাওন, তার পিতা লুৎফর রহমান কালু তার দুই স্ত্রী ফাতেমা বেগম ও সনি বেগমকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে। এবিষয়ে টঙ্গী পূর্ব থানার অফিসার ইনচার্জ আশরাফুল ইসলাম বলেন, গণ ধর্ষণ ও হামলার ঘটনায় থানায় পৃথক দুই মামলা দায়ের করে দুজন ধর্ষণকারীসহ পাচঁজনকে গ্রেফতার করে আদালতে প্রেরণ করেছি। বাকিদের ধরার অভিযান অব্যাহত আছে।

হাজী কছিমউদ্দিন পাবলিক স্কুলে শ্রেণী উৎসব

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ--   গাজীপুরের টঙ্গীর দক্ষিণ আউচপাড়া হাজী কছিমউদ্দিন পাবলিক স্কুলে পিঠা ও শ্রেণী উৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার দুপুরে এক আনন্দঘন পরিবেশে কোমলমতি শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের  মাঝে বিভিন্ন ধরনের পিঠা পুলি, ফুচকা-চটপটি, পপকর্ণ, কেক, হাওয়াই মিঠাই ও ঝালমুড়ি বিতরণ করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন হাজী কছিমউদ্দিন ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ও প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা প্রধান শিক্ষক ইঞ্জিনিয়ার এম এম হেলাল উদ্দিন। প্রতিষ্ঠানের সহকারি প্রধান শিক্ষক এস কে এম নজরুল ইসলামের সঞ্চালনায় এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাংবদিক পীরজাদা নোয়াব আলী, আওয়ামী লীগ নেতা আবুল কাশেম, লিয়াকত আলী খাজা, আবুল কালাম আজাদ, জহিরুল ইসলাম জোহান, সৈকত পাঠান, ফরহাদ হোসেন বাবু মুন্সী, সোহেল আরমান। এতে অন্যান্যের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সিনিয়র শিক্ষক বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল বারী, শিফট-ইন-চার্জ নাজমুল আলম, আব্দুল সাত্তার, শাহাদাৎ হোসেন, মাসুদুর রহমান, সিদ্দিকুর রহমান, জাকির হোসেন, আসাদুজ্জামান, কাজী নূর মোহাম্মদ চঞ্চল, সোহেল রানা, বিপুল কুমার, মেহেদুল হক, রাজিয়া খাতুন, মাওলানা নাসির উদ্দিন তাহসিন, ইমরান খান, জান্নাতুল ফেরদৌস শিখা, জিন্নাতারা নিপা, শারমিন আক্তার, মাহমুদা নাসরিন, শাবনূর আক্তার পপি, হালিমা খাতুন ও আব্দুল কাদের প্রমুখ।  পরে এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

টঙ্গীতে নিউ মন্নু ফাইন কটন মিলস-এর বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ- গাজীপুরের টঙ্গী নিউ মন্নু ফাইন কটন মিলস-এর ২১তম বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল রোববার দুপুরে মিলগেটের মন্নু মিলস প্রাঙ্গণে তা অনুষ্ঠিত হয়। এসময় উপস্থিত শেয়ার হোল্ডারদের মাঝে গত একবছরে প্রতিষ্টানের আয়-ব্যয়ের লিখিত হিসাব পাঠ করে শোনানো হয়। নিউ মন্নু ফাইন কটন মিলসের চেয়ারম্যান হারুন-অর-রশিদের সভাপতিত্বে ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক হাজী মো. মিজানুর রহমানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন নিউ অলিম্পিয়া টেক্সটাইল মিলসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মতিউর রহমান বি.কম, টঙ্গী পশ্চিম থানার ওসি মো. শাহ আলম, মনির আহমেদ। পরে বীর মুক্তিযোদ্ধা হাজী মফিজ উদ্দিন, সাইফুল ইসলাম, হাজী নাসির উদ্দিন, আওলাদ হোসেন ও আব্দুস সালামকে নিউ মন্নু ফাইন কটন মিলস-এর পরিচালক পদে নির্বাচিত করা হয়।

টঙ্গীতে পুলিশের উদ্যোগে সচেতনতামূলক কর্মশালা অনুষ্ঠিত

বি এ রায়হান, গাজীপুর :- “সচেতন প্রজন্ম, উন্নত ভবিষ্যত” এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের নিয়ে মাদক, বাল্যবিবাহ, ইভটিজিং, কিশোরগ্যাং বিষয়ক সচেতনতামূলক আলোচনা সভা ও কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার সকালে টঙ্গীর এরশাদনগর টিডিএইচ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠ প্রাঙ্গণে প্রায় ২৫টি স্কুলের শিক্ষার্থীদের নিয়ে এ অনুষ্ঠান আয়োজন করেন টঙ্গী পূর্ব থানার পুলিশ এবং সরকারি ও বেসরকারি স্কুল ঐক্য পরিষদ। টঙ্গী পূর্ব থানার অফিসার ইনচার্জ আশরাফুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে ও বেসরকারি স্কুল ঐক্য পরিষদ টঙ্গী শাখার সাধারণ সম্পাদক কামরুল হাসান দীপুর সঞ্চালনায় এবং কাউন্সিলর ফারুক আহম্মেদ এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, জিএমপি অপরাধ (দক্ষিন) বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার মাহবুব-উজ-জামান। আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাষাবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ও চেয়ারম্যান ড. মুহাম্মদ আসাদুজ্জামান। বিশেষ বক্তা টঙ্গী সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর রফিকুল ইসলাম, জিএমপি অপরাধ (দক্ষিন) বিভাগের অতিরিক্ত পুলিশ উপ-কমিশনার হাফিজুল ইসলাম, টঙ্গী জোনের সহকারি পুলিশ কমিশনার মেহেদী হাসান দীপু, থানা শিক্ষা অফিসার শিখা বিশ্বাস, ৪৯নম্বর ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সভাপতি জুয়েল হোসাইন জয়, সাধারণ সম্পাদক রোমান দেওয়ান প্রমুখ। অনুষ্ঠান শেষে কৃতি শিক্ষার্থীদের মাঝে সংবর্ধনা ক্রেস্ট প্রদান করেন অতিথিবৃন্দ।

টঙ্গীতে অস্ত্রসহ মাদক কারবারি গ্রেফতার

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ ---- গাজীপুরের টঙ্গীতে অস্ত্র, মাদক ও জাল টাকাসহ এক মাদক কারবারিকে গ্রেফতার করেছে আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন (এপিবিএন)। মঙ্গলবার রাতে টঙ্গী বাজার কালভার্ট রোডের মুন্সিপাড়া থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত অমিত হাসান শেখ (২৪) মুন্সিগঞ্জ জেলার লৌহজং থানার কমলা গ্রামের জামাল শেখের ছেলে। সে মুন্সিপাড়া জনৈক জাহাঙ্গীর খানের বাড়ীর ভাড়াটিয়া। এঘটনায় অমিতের স্ত্রী রিয়া আক্তার বৃষ্টি (২০), সোহেল ওরফে গ্যারেজ সোহেল (৩২) ও জরিপ ওরফে কালা জরিপসহ (৪০) পলাতক তিনজনকে অভিযুক্ত করে থানায় মামলা দায়ের করেছে। আর্মড পুলিশ ব্যাটেলিয়ন (এপিবিএন) এর উপ-পরিদর্শক মোহাম্মদ হানিফ জানান, মঙ্গলবার রাতে টঙ্গী বাজার কালভার্ট রোড মুন্সিপাড়া এলাকায় মাদকদ্রব্য বেচাকেনা হচ্ছে। এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন উত্তরার একটি দল ঐ এলাকায় অভিযান চালিয়ে অমিতকে গ্রেফতার করে। এসময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে অন্যরা পালিয়ে যায়। পরে তার দেহ তল্লাশি চালিয়ে ১টি রিভলবার, ২ রাউন্ড তাজা গুলি, ১টি গুলির খোসা, ২শত ২২পিছ ইয়াবা টেবলেট, ২৯ বোতল ফেনসিডিল ও ১ হাজার টাকার দুইটি জাল নোট জব্দ করা হয়। এবিষয়ে টঙ্গী পূর্ব থানার অফিসার ইনচার্জ মো.আশরাফুল ইসলাম বলেন, আর্মড পুলিশের পক্ষ থেকে মামলা দায়ের শেষে অমিতসহ সকল আসামীকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

শহীদ আহসান উল্লাহ মাষ্টারের জন্মদিন উপলক্ষে প্রতিবন্ধীদের মাঝে খাবার বিতরণ

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ----- স্বাধীনতা পদক প্রাপ্ত জাতীয় বীর, গাজীপুরের মাটিও মানুষের নেতা ভাওয়াল বীর শহীদ আহসান উল্লাহ মাষ্টারের ৭২তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে কুরআন তেলাওয়াত, এতিম শিশু প্রতিবন্ধীদের মাঝে খাবার বিতরণ ও দোয়া মাহফিল আয়োজন করেন টঙ্গীর ৫৫ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদপ্রার্থী হাজী মোঃ হাসান উদ্দিন। বুধবার (৯ নভেম্বর) দুপুরে স্থানীয় নুরে মদিনা মাদ্রাসায় এই দোয়া মাহাফিল অনুষ্ঠিত হয়। এসময় নুরে মদিনা মাদ্রাসার খতিবসহ এলাকার গন্যমান্য ব্যাক্তি ও মুরব্বীগন উপস্থিত ছিলেন। এসময় তিন শতাধিক এতিম, প্রতিবন্ধী ও অসহায় মানুষের মাঝে খাবার বিতরণ করেন। কাউন্সিলর পদপ্রার্থী হাজী মোঃ হাসান উদ্দিন বলেন, শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার স্যার ছিলেন সাদামাটা মনের মানুষ। ক্ষমতা বা আর্থিক লোভ কখনোই তার ছিল না। সব সময় ছিল কর্মীবান্ধব নেতা। ২০০৪ সালের ৭মে তৎকালীন বিএনপি-জামায়াত শাসনামলে নোয়াগাঁও এম এ মজিদ মিয়া উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে এক জনসভায় একদল সন্ত্রাসী শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার স্যারকে গুলি করে হত্যা করে। গাজীপুরবাসী অতিদ্রুত শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার স্যারের হত্যা মামলার রায় কার্যকরের দাবি জানায়। শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার নোয়াগাঁও এম.এ মজিদ মিয়া হাইস্কুলে শিক্ষকতার পাশাপাশি শ্রমজীবী মানুষের সংগঠন জাতীয় শ্রমিক লীগের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। জাতীয় শ্রমিক লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক ও কার্যকরী সভাপতি ছিলেন। তিনি দুইবার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, একবার উপজেলা চেয়ারম্যান এবং দুইবার জাতীয় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। এছাড়া তিনি বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব লেবার স্টাডিজসহ (বিলস) শ্রম বিষয়ক জাতীয় ও আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। ১৯৫০ সালের ৯ নভেম্বর গাজীপুর মহানগরের হায়দরাবাদ গ্রামে আহসান উল্লাহ মাস্টার এমপি জন্মগ্রহণ করেন।

টঙ্গীতে ইয়াবাসহ ২জন গ্রেফতার

বি এ রায়হান, গাজীপুর : গাজীপুরের টঙ্গীতে বিপুল পরিমান ইয়াবা সহ ২ মাদক কারবারিকে গ্রেফতার করেছে টঙ্গী পশ্চিম থানা পুলিশ। শুক্রবার দিবাগত রাতে স্থানীয় স্কুইব রোডের পার্লপ্রিন্স গার্মেন্টসের সামনে থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে ১হাজার ২০পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলো, চট্টগ্রামের আনোয়ারা থানার হাজীগাঁও গ্রামের জসিম উদ্দিনের ছেলে শহিদুল ইসলাম (৩১) ও নওগাঁ জেলার পত্নিতলা থানার শান্তি পাড়া গ্রামের আব্দুর রউফের ছেলে নাহিদ হাসান (২৩)। পুলিশ জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে চেরাগ আলী এলাকায় স্কুইব রোডের পার্লপ্রিন্স গার্মেন্টস এর সামনে অভিযান পরিচালনা করে তাদের গ্রেফতার করা হয়। টঙ্গী পশ্চিম থানার অফিসার ইনচার্জ শাহ আলম জানান, গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে মাদক আইনে মামলা দায়ের করে বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

ট্রাফিক টিএসআই এর বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির অভিযোগ

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ  - গাজীপুরের সাইনবোর্ড এলাকায় গাড়ী থামিয়ে চাঁদাবাজি করার অভিযোগ উঠে ট্রাফিক দক্ষিন জোনের টিএসআই হাকিম মোল্লার বিরুদ্ধে। বৃহস্পতিবার সকালে সাইনবোর্ড এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে। এসময় একাধিক পরিবহন থেকে মামলার ভয় দেখিয়ে চাঁদা আদায় করেন বলে অভিযোগ করেন ভুক্তভোগীরা। সরেজমিনে ঘুরে জানা যায়, গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের ট্রাফিক দক্ষিন জোনের টিএসআই হাকিম মোল্লা সাইনবোর্ড এলাকায় বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টায় ডিউটি করা অবস্থায় কাগজপত্র দেখার অজুহাতে বিভিন্ন গাড়ী রাস্তার উপর থামিয়ে রাখেন। এই গাড়ীগুলো থামানোর কারণে রাস্তায় যানযটের সৃষ্টি হয়। একপর্যায়ে (ঢাকা মেট্রো ন-১৩-৭২১৪) নম্বরের একটি মিনি ট্রাক আটক করেন টিএসআই হাকিম মোল্লা। গাড়িটির কাগজপত্র ঠিক থাকা সত্যেও রেকার লাগানোর ভয় দেখানো হয় ড্রইভারকে। পরে মোটা অংকের টাকার বিনিময় গাড়ীটি ছেড়ে দেয় টিএসআই হাকিম মোল্লা। এবিষয়ে ভোক্তভোগী ড্রাইভার জুয়েল বলেন, সকালে ভিআইপি যাওয়ার ভয় দেখিয়ে আমার গাড়ীটি আটক করেন টিএসআই হাকিম মোল্লা। গাড়ীর কাগজপত্র ঠিক থাকা সত্যেও টাকা নিয়ে তারপর গাড়ীটি ছেড়ে দিয়েছে। এবিষয়ে ট্রাফিক দক্ষিন জোনের টিএসআই হাকিম মোল্লার সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, বেশকিছু গাড়ী আটক করে মামলা দিয়েছি। এবিষয়ে বোর্ড বাজার এলাকার কর্মরত টিআই সাইদুর রহমান বলেন, টিএসআই হাকিম মোল্লার বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

রাজনীতির মাঠে দুই বন্ধুর লড়াই

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ - বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সহযোগী সংগঠন আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের টঙ্গী পূর্ব ও পশ্চিম থানার আসন্ন সম্মেলনকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে টঙ্গী অঞ্চলের রাজনৈতিক অঙ্গন। সামাজিক যোগাযোগ থেকে শুরু করে চায়ের দোকান পর্যন্ত চলছে আলোচনা সমালোচনা। কে হবেন আগামীর সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক  এনিয়ে চলছে ব্যাপক জল্পনা কল্পনা। এই আলোচনায় নতুন মাত্রা যোগ হলো কলেজ জীবনের ঘনিষ্ঠ দুই বন্ধু সাবেক ও বর্তমান দুই ছাত্র নেতার প্রার্থীতা ঘোষনার পর। আগের কমিটির নেতাদের সাথে পাল্লা দিয়ে প্রচারণা ও লবিং চালিয়ে যাচ্ছেন দুই ছাত্রনেতার কর্মী ও সমর্থকরা। আসন্ন সম্মেলনকে সামনে রেখে টঙ্গীর দুই থানায় সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক পদে প্রার্থী হয়েছেন একাধিক হেভিওয়েট ও তরুন নেতা। তাদের মধ্যে অন্যতম হলেন টঙ্গী থানা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক রুহুল আমিন সরকার মনি, হাজী হাসান উদ্দিন, মামুন মোল্লা, লিটন প্রধান, মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক সহ সভাপতি হুমায়ুন কবির বাপ্পি, টঙ্গী সরকারী কলেজ ছাত্রলীগের বর্তমান সভাপতি কাজী মুনজুর। এদের মধ্যে হুমায়ুন কবির বাপ্পি ও কাজী মনজুর কলেজ জীবন থেকে ঘনিষ্ঠ বন্ধু ও রাজপথের সহযোদ্ধা হিসাবে পরিচিত। দুজনই টঙ্গী পূর্ব থানা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি পদপ্রার্থী।  এছাড়াও বেশ কয়েকজন প্রার্থী দৌড়ঝাঁপ করছেন পদ পদবী আশায়। প্রবীন রাজনৈতিক নেতাদের মতে, তরুণরা রাজনীতির মাঠে নেতৃত্ব দিতে আগ্রহী হচ্ছে এটা ভালো দিক। আগামী সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন ও জাতীয় নির্বাচনকে সামনে সাংগঠনিক কার্যক্রম চাঙ্গা করতে এবং দলকে গতিশীল করতে কমিটি ঘোষনার বিকল্প নেই। নবীন ও প্রবীনদের সমন্নয়ে কমিটি ঘোষনা করলে সাংগঠনিক কার্যক্রম বেগবান হবে। এবিষয়ে কথা হলে সভাপতি পদপ্রার্থী হুমায়ুন কবির বাপ্পি বলেন, রাজনীতির মাঠে যেকেউ প্রার্থী হতে পারে হাই কমান্ড যাদের যোগ্য মনে করবে তাদেরকে দায়িত্ব দেবেন। রাজনৈতিক ভাবে কারো সাথে প্রতিদ্বন্দ্বীতা থাকলেও ব্যাক্তিগত সম্পর্কে তার কোন প্রভাব পরবে না। উপর সভাপতি প্রার্থী কাজী মনজুর বলেন, প্রতিদ্বন্দ্বিতা না থাকলে রাজনীতির মাঠ চাঙ্গা হয় না। রাজনীতির মাঠে আমরা প্রতিদ্বন্দ্বি হলেও ব্যক্তিগত জীবনে আমরা বন্ধু ছিলাম বন্ধু থাকবো।

শিক্ষক দিবসে শহীদ আহসান উল্লাহ মাষ্টারের প্রতিকৃতিতে ফুলের শ্রদ্ধা।

গাজীপুর প্রতিনিধি : জাতীয় শিক্ষক দিবস উপলক্ষে জাতীয় বীর শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার এমপির প্রতিকৃতিতে ফুলেল শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার ইসলামী গ্রন্থাগার এর প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান সমন্বয়ক মোঃ রেজাউল করিম । বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় টঙ্গীর এম এ মজিদ মিয়া উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে স্থাপিত প্রতিকৃতিতে এ শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন, শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার ইসলামী গ্রন্থাগার এর সভাপতি রফিকুল হাসান মিঠু, সাধারণ সম্পাদক নুর মোহাম্মদ শ্যামল, আবু সাঈদ টুটুল, বাবলু সরকার, জুনাইদ খান বাবু , রাসেল মিয়া, ইমরান হামিদ , সেলিম খান, নুর নবী, মীর আলামিন, মীর জামিল , রনি, শাহরিয়ার জিতু, রমজান, বাবু, রাজিব, নাহিন , ইয়াসিন হাওলাদার এলেক্স, জুবায়ের, স্বাধীন বেপারীসহ গ্রন্থাগারের সদস্য ও শুভানুধ্যায়ীবৃন্দ। প্রধান সমন্বয়ক রেজাউল করিম বলেন, শহীদ আহসান উল্লাহ মাষ্টার আমার শিক্ষক, আমার ভালবাসা, আমার আদর্শ তাই দিবসটি উপলক্ষে প্রিয় স্যারের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেছি।

গাজীপুর জেলা রিপোর্টার্স ক্লাবের কার্যনির্বাহী কমিটির শপথবাক্য পাঠ অনুষ্ঠিত

গাজীপুর প্রতিনিধি ঃ  ঐতিহ্যবাহী গাজীপুর জেলা রিপোর্টার্স ক্লাবের ২০২২-২৩ ইং নির্বাচনে ২৭ জনের নব নির্বাচিত কমিটির শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে। মঙ্গলবার (২৫ অক্টোবর ২০২২) গাজীপুর জেলা শহরের রাজবাড়ি রোডস্থ ফুড পার্কে দিনব্যাপী উৎসবমূখর পরিবেশে এ অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়। গাজীপুর জেলা জজ কোর্টের এপিপি ও ক্লাবের উপদেষ্টা আতাউর রহমান আকাশের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে শপথবাক্য পাঠ করান বঙ্গবন্ধু গবেষণা পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি এবং গাজীপুর জেলা রিপোর্টার্স ক্লাবের প্রধান উপদেষ্টা লায়ন মোঃ গনি মিয়া বাবুল। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কবি আবু নাসির খান তপন সহ সংগঠনের সদস্য শুভানুধ্যায়ীরা। ২০২২-২৩ ইং নব নির্বাচিত কার্য নির্বাহী কমিটির শপথ গ্রহণ করেন সভাপতি পদে আকরাম হোসেন, কার্যকরী সভাপতি আবুল বাশার পলাশ, সিনিয়র সহ-সভাপতি তারেক রহমান জাহাঙ্গীর, সহ-সভাপতি মনির হোসেন সরকার, হাজী রুহুল আমিন দেওয়ান, শারমীন সুলতানা মিতু ও মোঃ সাইফুল ইসলাম মানিক, সাধারণ সম্পাদক এম.এ ফরিদ, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক নুরুজ্জামান শেখ ও জহিরুল হক, সাংগঠনিক সম্পাদক বিল্লাল হোসেন, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনির, অর্থ সম্পাদক আলী শিকদার, দপ্তর সম্পাদক সৈয়দা রোকসানা পারভিন রুবি, সমাজ কল্যাণ সম্পাদক বিলকিছ আক্তার রুবি, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক নাসিমা আক্তার রেনু, ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক নাশিদ আহমেদ তুষার, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক মাওঃ নেছার আহমেদ, নির্বাহী সদস্য ছফুর উদ্দিন ছফু, জান্নাতুল ফেরদৌস বীথি, হাজী বাবলু হোসেন, তমিজ উদ্দিন তমু। বৈরী আবহাওয়ার কারণে যে সকল কার্যনির্বাহী কমিটির নেতৃবৃন্দ উপস্থিত হতে পারে নাই তাদের পরবরর্তীতে শপথ বাক্য পাঠ করানো হবে বলে নিশ্চিত করেন সংগঠনের সাধারন সম্পাদক এম এ ফরিদ।

টঙ্গীতে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে গ্রেফতার ১৩

বি এ রায়হান, গাজীপুর: ## গাজীপুরের টঙ্গীতে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে ১৩ ডাকাত দলের সদস্যকে গ্রেফতার করেছে টঙ্গী পশ্চিম থানা পুলিশ। শনিবার দিবাগত রাতে স্থানীয় স্টেশন রোড ও হাজীর মাজার বস্তি এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে বিপুল পরিমান দেশীয় অস্ত্র ও ছিনতাইকৃত মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়। রবিবার দুপুরে প্রেসব্রিফিংয়ে এসব তথ্য নিশ্চিত করেন গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের টঙ্গী জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার মেহেদী হাসান। গ্রেফতাকৃতরা হলো, সঞ্জিত দাস (২০), মানিক(২০), সাকিব(২৪), আবু কালাম(২৮),  আরিফ (২৫),  সাব্বির (২০), মধু মিয়া(২৮), রিয়াজ(১৯), স্বপন মিয়া(১৯), জিহাদুল (২৪), সুমন মিয়া (২৬), নাঈম (২০) ও রাফি (১৮)। টঙ্গী পশ্চিম থানার অফিসার ইনচার্জ শাহ আলম জানায়, গোপন সূত্রের ভিত্তিতে অভিযান পরিচালনা করে টঙ্গীর চিহ্নিত ডাকাত দলের ১৩জন সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এসময় তাদের কাছ থেকে ১০টি চাকু, ১টি দা, ১টি শাবল, ১টি রেঞ্জ, ৯টি বিভিন্ন ব্রান্ডের চোরাইকৃত মোবাইল জব্দ করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতদের বিরুদ্ধে চুরি, ডাকাতি, ছিনতাই সহ একাধিক মামলা বিচারাধীন রয়েছে। আসামীদের বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ (টঙ্গী জোন) এর সহকারী পুলিশ কমিশনার মেহেদী হাসান বলেন, মাদক ও সন্ত্রাস বিরোধী অভিযানে টঙ্গীর চিহ্নিত ছিনতাইকারী ও ডাকাত দলের সদস্যদের গ্রেফতার করা হয়েছে। মাদক ও সন্ত্রাস নিয়ন্ত্রণে এ ধারা অব্যাহত থাকবে।

টঙ্গীতে দৃষ্টি প্রতিবন্ধীদের মাঝে সাদাছড়ি বিতরণ

বি এ রায়হান, গাজীপুর:### গাজীপুরের টঙ্গীতে দৃষ্টি প্রতিবন্ধীদের মাঝে সাদাছড়ি বিতরণ করেছেন ৫৬নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের যুগ্ন আহবায়ক ময়না বেগম।  রোববার দুপুরে টঙ্গীর ৫৬নম্বর ওয়ার্ড ব্যাংক মাঠ কলোনীতে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।  এসময় ৫০জন দৃষ্টি প্রতিবন্ধীদের মাঝে সাদাছড়ি বিতরণ করা হয় এবং উপস্থিত সকলের জন্য গনভোজের আয়োজন করেন। ৫৬নম্বর ওয়ার্ড মহিলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন আহবায়ক ময়না বেগম বলেন, আমার বাবা মরহুম সিদ্দিকুর রহমান একজন দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ছিলেন। সেই সুবাদে ৫০জন দৃষ্টি প্রতিবন্ধীদের মাঝ সাদাছড়ি বিতরণ করেছি। দোয়া করবেন আমি যে সব সময় তাদের এই সহযোগিতা করতে পারি। এসময় উপস্থিত ছিলেন, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী শাহিনুর পলাশ,  বিশাল, সুমাইয়া,  সায়মা, টুটুল, জাহিদ, নাসির, মিলন, দেলোয়ারা, তানজিনা, সুমাইয়া আক্তার, সাইমন প্রমুখ।

টঙ্গীতে ১১ ছিনতাইকারী গ্রেফতার

বি এ রায়হান, গাজীপুর : ## গাজীপুরের টঙ্গীতে চলমান ছিনতাই বিরোধী অভিযানে ১১ জন চিহ্নিত ছিনতাইকারীকে গ্রেফতার করেছে টঙ্গী পূর্ব থানা পুলিশ। শনিবার দিবাগত রাতে টঙ্গী ব্রীজ সংলগ্ন এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে ৫টি চাকু ৪টি চাপাতি ও ১টি খুর উদ্ধার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলো, ফকির(৪০), রানা(২৯), পারভেজ(২০), জসিম(২৯), আব্দুর রব(২৫), সুরুজ(৩০), আছর আলী(২৮) বিপ্লব(১৮), বিনোমহন ত্রিপুরা(২০), মারুফ(১৮) ও আলিফ(১৬)। পুলিশ জানায় চলমান ছিনতাই বিরোধী অভিযানের অংশ হিসাবে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে টঙ্গী ব্রীজ সংলগ্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে তাদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা আব্দুল্লাহপুর থেকে স্টেশন রোড এলাকায় ঢাকা ময়মনসিংহ মহাসড়কে বিভিন্ন সময় টাকা পয়সা, স্বর্ণালঙ্কার, মোবাইল ফোন চুরি ছিনতাই করতো। তাদের বিরুদ্ধে টঙ্গী সহ দেশের বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা বিচারাধীন রয়েছে। টঙ্গী পূর্ব থানার অফিসার ইনচার্জ আশরাফুল ইসলাম জানান, গ্রেফতারকৃতরা এলাকার চিহ্নত ছিনতাইকারী। আসামীদের বিজ্ঞ আদলতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়েছে।

গাজীপুরে আওয়ামীলীগ নেতার অনৈতিক ভিডিও ভাইরাল!

গাজীপুর প্রতিনিধি: ## গাজীপুরের কোনাবাড়ি থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি পদপ্রার্থী এ্যাড.আবদুর রহমান মাস্টারে সঙ্গে একজন নারীর অশ্লীল ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। গত কয়েক দিন ধরে গাজীপুর মহানগরীর বিভিন্ন এলাকার সাধারণ মানুষের মোবাইলে, ম্যাসেঞ্জারে, ইমো ও ফেসবুকে আপত্তিকর এ ভিডিওটি ছরিয়ে পরে । ভাইরাল হওয়ার পর থেকে ওই ভিডিওটি নিয়ে সাধারণ মানুষের মধ্যে আলোচনা সমালোচনার ঝড় বইছে। ভাইরাল হওয়া ভিডিওটিতে উপস্থিত পুরুষটি কোনাবাড়ী থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি পদপ্রার্থী এ্যাড.আবদুর রহমান মাস্টারের বলে নিশ্চিত করেছেন কোনাবাড়ি থানা আওয়ামী লীগের একাধিক প্রবীণ নেতাকর্মী। ভিডিওতে দেখা যায়, কোনাবাড়ী থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি পদপ্রার্থী এ্যাড. আবদুর রহমান মাস্টার, একটি কক্ষে এক নারীর সাথে কিছুক্ষণ কথোপকথন চালাচ্ছেন। কথোপকথনে একপর্যায়ে ওই নারীকে আলিঙ্গন করছেন। তার কয়েক মুহুর্ত পরেই ওই নারীকে বিবস্ত্র করে অনৈতিক কর্মকাণ্ডে লিপ্ত হয়েছেন। ২০ মিনিটের ওই ভিডিওটির পুরোটাই অশ্লীল কথোপকথন আর অনৈতিক কর্মকাণ্ডে ভরপুর। জানা যায়, কোনাবাড়ী থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি পদপ্রার্থী এ্যাড.আবদুর রহমান মাস্টার কোনাবাড়ি এম এ কুদ্দুস উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষকতা করাকালীন সময় এক ছাত্রীকে শ্লীলতাহানির অভিযোগে বেশ কয়েকদিন সাময়িক বরখাস্ত ছিলেন। এরপর ২০১২ সালে কোনাবাড়ী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের কর্মীসভার অনুষ্ঠানে বর্তমান মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ.ক.ম মুজাম্মেল হক এমপির সামনে শ্লীলতাহানীর অভিযোগে জুতাপেটা করেন এক নারী। ভাইরাল হওয়ার ভিডিওর বিষয় কোনাবাড়ি থানা আওয়ামী লীগের কয়েকজন নেতাকর্মী বলেন, এমন অনৈতিক কাজ কোনোভাবেই মেনে নেওয়া যায় না। তবে ব্যক্তি আবদুর রহমান অনৈতিক কর্মকাণ্ডের দায় আওয়ামীলীগ নেবে না। এর দায় অভিযুক্ত ব্যক্তিকেই নিতে হবে। এবিষয়ে কোনাবাড়ি থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি পদপ্রার্থী এ্যাড.আবদুর রহমান মাস্টারের ব্যবহৃত মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।  এ বিষয়ে গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট আজমত উল্লা খান বলেন, অশ্লীল এই ভিডিওগুলো কারা এই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়ালো আর কি উদ্দেশ্যে ছড়ালো এবিষয়ে গুলো আগে খতিয়ে দেখা হবে। এ বিষয় দলীয় ফোরামে আলোচনা করা হবে।  আলোচনার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী এ বিষয় তদন্ত কমিটি গঠন করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আর যারা ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল করে দলীয় ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করেছে তারা যদি দলের হয় তাদের বিরুদ্ধে কঠোর সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। কোনাবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ আবু সিদ্দিক, বিষয়টি আপনাদের কাছ থেকে শুনেছি। তবে কেউ অভিযোগ করলে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

ট্ঙ্গীতে চাঞ্চল্যকর জান্নাতি হত্যাকাণ্ড মূল আসামী গ্রেফতার।

বি এ রায়হান, গাজীপুর: টঙ্গীর শৈলারগাতি এলাকার চাঞ্চল্যকর গৃহবধূ জান্নাতি হত্যা মামলা মূল আসামী আব্দুল জব্বার মোল্লাকে (৩৩) গ্রেফতার করেছে টঙ্গী পূর্ব থানা পুলিশ। বুধবার দিবাগত রাতে সাভারের আমিন বাজার বড়দেশী এলাকায় আসামীর বোনের বাসা থেকে তাকে গ্রেফতার করা করা হয়। গ্রেফতারকৃত আব্দুল জব্বার ফরিদপুর জেলার বোয়ালমারী থানার খরসুতী গ্রামের আব্দুল হালিম মোল্লার ছেলে। সে নিহত জান্নাতি খাতুনের স্বামী। টঙ্গী পূর্ব থানার উপ পরিদর্শক সুমন খান জানায়, দাম্পত্য কলহের জের ধরে নিহত জান্নাতিকে শ্বাস রোধ করে হত্যা করে তার স্বামী আব্দুল জব্বার মোল্লা। পরে লাশ শয়নকক্ষে ফেলে পালিয়ে যায় সে। লাশ উদ্ধারের পর আসামী গ্রেফতারে মাঠে নামে পুলিশ। পরবর্তীতে তথ্য প্রযুক্তির সহায়তা ও গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সাভারের আমিন বাজার এলাকা থেকে আসামীকে গ্রেফতার করা হয়। টঙ্গী পূর্ব থানার অফিসার ইনচার্জ আশরাফুল ইসলাম জানান, গ্রেফতারকৃত আসামীকে বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক মোকসেদ আলমকে দল থেকে অব্যহতি

গাজীপুর প্রতিনিধিঃ== গাজীপুর জেলা পরিষদ নির্বাচনে দলের মনোনীত প্রার্থীর বিরুদ্ধে প্রার্থী হয়ে নির্বাচন অংশ নেয়ায় মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক এস এম মোকসেদ আলমকে দলের সব ধরনের পদ থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট আজমত উল্যাহ খান সাংবাদিকদের এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। জেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী কৃষক লীগের সাবেক সভাপতি মোতাহার হোসেন মোল্লা। আজমত উল্যাহ খান বলেন, মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক এস এম মোকসেদ আলম দলীয় নির্দেশনা অমান্য করে প্রার্থী হয়ে প্রচারণ চালিয়ে যাচ্ছেন। কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের নির্দেশনা অনুযায়ী আমরা ইতি মধ্যে মহানগর আওয়ামী লীগ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছি। যেহেতু তিনি দলের সিদ্ধান্ত অমান্য করেছেন। আওয়ামী লীগের গঠনতন্ত্রের ৪৭ ধারার এর ১১ উপধারার বিধান মতে তাকে দলের সকল পদ থেকে অব্যহতি দেয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আতাউল্লা মন্ডল স্বাক্ষরিত একটি চিঠি দলের সাধারণ সম্পাদকের নিকট প্রেরণ করা হয়েছে তাকে প্রাথমিক সদস্য পদ থেকে বহিস্কারের জন্য। অপর দিকে মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক এস এম মোকসেদ আলম দলীয় নির্দেশনা অমান্য করে প্রচার প্রচারণ চালানোর অভিযোগ তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা আওয়ামীলীগ থেকে বহিষ্কারের চিঠির কপি তার বাসায় পৌঁছে দেয়া হয়েছে। তিনি আরো বলেন, গঠনতন্ত্রের ৪৭ ধারার  এর  উপধারা ১১ এ স্পষ্টভাবে বলা হয়েছে কেউ যদি জাতীয় এবং স্থানীয় নির্বাচনে দলের প্রার্থীর বিরুদ্ধে প্রতিদ্বন্দ্বীতা বা নির্বাচন করেন তবে অটমেটিক দল থেকে বহিস্কার হয়ে যাবেন। উল্লেখ্য, আগামী ১৭ অক্টোবর অনুষ্ঠিতব্য গাজীপুর জেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৩ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তারা হলেন- আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী বাংলাদেশ কৃষক লীগের সাবেক সভাপতি ও কাপাসিয়া উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মোতাহার হোসেন মোল্লা, মহানগর আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক এসএম মোকসেদ আলম ও বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ সামসুল হক।

টঙ্গীতে ভোক্তা অধিকারের অভিযান

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরের টঙ্গীর দত্তপাড়া এলাকার বঙ্গ-সি ফুড প্রোডাক্টস নামক একটি শিশু খাদ্য প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানকে অবৈধভাবে উৎপাদন, প্রক্রিয়াকরণ, বাজারজাত করাসহ বিভিন্ন অপরাধে ৫ লাখ টাকা জরিমানা করেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। বৃহস্পতিবার দুপুরে এ অভিযান পরিচালনা করেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক আব্দুল জব্বার মন্ডল। এসময় উপস্থিত ছিলেন, জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের প্রচার শাখার সহকারী পরিচালক শাহ আলমসহ অত্র প্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন কর্মকর্তা, স্থাণীয় পুলিশ ও গনমাধ্যম কর্মীরা। আব্দুল জব্বার মন্ডল বলেন, মহাপরিচালক মহোদয়ের নির্দেশনায় দেশব্যাপী ভেজাল বিরোধী অভিযানের অংশ হিসেবে গাজীপুর জেলার টঙ্গী দত্তপাড়া এলাকার বঙ্গ-সি ফুড প্রোডাক্টস নামক একটি শিশু খাদ্য প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানকে রবিনহুড ড্রিংকস, মিস্টার এডিবল জেল, আচারসহ শিশু খাদ্য, মুড়ি, সরিষার তেল, টোস্ট বিস্কুট, হলুদ গুঁড়া, মরিচ গুঁড়া, মাংসের মসলা বিএসটিআই কর্তৃক প্রদত্ত লাইসেন্স ছাড়াই বিএসটিআই এর লোগো ব্যবহার করে অবৈধভাবে এসব খাদ্য সামগ্রী উৎপাদন ও প্রক্রিয়াকরণসহ বাজারজাত করা, শিশু খাদ্য তৈরিতে মেয়াদোত্তীর্ণ ফ্লেভার ব্যবহার করা, ওজনে কম দেয়া, বিভিন্ন কেমিক্যাল যথাযথ তাপমাত্রায় সংরক্ষণ না করা, ল্যাবের ফ্রিজে বিভিন্ন রিএজেন্টের সাথে পঁচা কাঁচা মরিচ ও গুড়া সংরক্ষণ করা ইত্যাদি অপরাধে বঙ্গ সি ফুড প্রডাক্টসকে ৫ লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয়। জনস্বার্থে এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

টঙ্গীতে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরের টঙ্গীতে ২১ বছর বয়সী এক তরুণীকে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে।  এঘটনায় বুধবার সন্ধ্যায় টঙ্গী পূর্ব থানায় মামলা দায়ের করেছেন ভুক্তভোগী তরুণী। ধর্ষক ও তার সহযোগীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা হলো, মাদারীপুর জেলা সদরের ঘটকচর গ্রামের মৃত আব্দুল খালেক ঢালীর ছেলে সোহাগ (২৩) ও ময়মনসিংহ জেলার ত্রিশাল থানার সেনবাড়ী এলাকার রফিকুল ইসলামের ছেলে মামুন (১৯)। তাড়া উভয়ে টঙ্গীবাজার গরু হাটা এলাকায় বসবাস করতো। আসামী সোহাগ টঙ্গী থানা স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা রুহুল আমিন মনি সরকারের ঘনিষ্ট অনুসারী। অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, পূর্ব পরিচয়ের সুত্র ধরে গত ২৭ সেপ্টেম্বর রাত নয়টার দিকে আসামী সোহাগ ও মামুন তরুনীকে ডেকে নিয়ে টঙ্গী বাজার গরু হাটা এলাকার সোহাগের বাসায় নিয়ে যায়। এসময় সোহাগ ও ভুক্তভোগী তরুণীকে বাসার ভেতরে রেখে বাইরে থেকে দরজা বন্ধ করে দেয় সহযোগী মামুন। পরে আসমী সোহাগ ভুক্তভোগী তরুনীকে বন্ধ ঘরের ভিতর জোর পূর্বক ধর্ষন করে। একপর্যায় রাত এগারোটার দিকে মামুন বাইরে থেকে দরজা খুলে দিলে ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন ওই ভুক্তভোগী।  টঙ্গী পূর্ব থানার উপ-পরিদর্শক সুমন খান জানায়, থানায় অভিযোগের ভিত্তিতে উর্ধতন কর্মকর্তার  নির্দেশে বুধবার রাতে ঘটনার সাথে জড়িত দুই আসামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। টঙ্গী পূর্ব থানার অফিসার ইনচার্জ আশরাফুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করেছেন ভুক্তভোগী তরুণী। ঘটনার সাথে জড়িত দুই আসামীকে গ্রেফতার করে বিজ্ঞ আদলতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়েছে।

গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের উদ্যোগে প্রধানমন্ত্রী’র ৭৬তম জন্মবার্ষিকী পালিত

গাজীপুর প্রতিনিধি : গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন এর উদ্যোগে মাদার অব হিউম্যানিটিন, গনতন্ত্রের মানসকন্যা, জাতিসংঘ কর্তৃক সদ্য স্বীকৃত বিশ্বের ২য় সেরা প্রধানমন্ত্রী দেশরতœ শেখ হাসিনা'র ৭৬তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা, দোয়া ও কেক কাটা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। বুধবার দুপুরে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন এর সম্মেলন কক্ষে এ অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের সচিব আব্দুল হান্নান এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন এর মেয়র (ভারপ্রাপ্ত) আসাদুর রহমান কিরন। অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন, প্যানেল মেয়র ৩ আয়শা আক্তার, কাউন্সিলর আবু বক্কর সিদ্দিক, কাউন্সিলর আবুল হোসেন, শাহজাহান মিয়া সাজু, আমজাদ হোসেন প্রমুখ। অনুষ্ঠান শেষে বিশেষ দোয়া ও কেক কাটা হয়।

টঙ্গীতে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল

গাজীপুর প্রতিনিধি : ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নবগঠিত নেতৃবৃন্দের উপর ছাত্রলীগের হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল করেছে গাজীপুর মহানগর ছাত্রদল। বুধবার দুপুরে গাজীপুর মহানগর ছাত্রদল এর সহ সভাপতি মাহমুদুল হাসান মিরন এর নেতৃত্বে মিছিলটি টঙ্গী কলেজ গেট থেকে শুরু হয়ে ঢাকা ময়মনসিংহ মহাসড়ক এর গুরুত্বপূর্ণ স্থান প্রদক্ষিন করে চেরাগ আলীতে গিয়ে শেষ হয়। মিছিলে উপস্থিত ছিলেন, পুবাইল থানা ছাত্রদলের আহবায়ক রাজিব মিয়া, টঙ্গী পূর্ব থানা ছাত্রদলের সদস্য সচিব আসাদুজ্জামান মামুন, টঙ্গী পশ্চিম থানা ছাত্রদলের সদস্য সচিব আরেফিন সিদ্দিক বুলবুল, টঙ্গী সরকারি কলেজ ছাত্রদল এর সদস্য সচিব কাউছার হোসেনসহ গাজীপুর মহানগর ছাত্রদল ও বিভিন্ন থানা, কলেজ, ওয়ার্ড ও ইউনিট এর নেতৃবৃন্দ।

টঙ্গীতে মালবাহী ট্রেনের বগি লাইনচ্যুত

গাজীপুর প্রতিনিধি : টঙ্গীর মধুমিতা রেললাইন এলাকায় মালবাহী ট্রেনের একটি কন্টেইনার বগির লাইনচ্যুত হয়েছে। বুধবার ভোরে টঙ্গীর মধুমিতা রেললাইন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। কন্টেইনার বগির লাইনচ্যুত হওয়ার পরে আপ লাইন বন্ধ হয়ে যায়। কিছুক্ষন পর অপর লাইন দিয়ে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক করে দেয় রেল কর্তৃপক্ষ। তবে বিলম্বে ট্রেন চলাচল করায় শিডিউল বিপর্যয় দেখা দিয়েছে। এতে বিপাকে পড়েছেন বিভিন্ন স্টেশনে অপেক্ষমান অফিসগামী যাত্রীরা। টঙ্গী রেলওয়ে জংশনের স্টেশন মাস্টার রাকিবুল ইসলাম জানান, ভোরে মধুমিতা এলাকায় ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা চট্টগ্রামগামী মালবাহী কন্টেইনারের একটি বগি লাইনচ্যুত হয়। এতে আপ লাইনে ট্রেন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। তবে অপর এক লাইন দিয়ে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক রাখা হয়েছে। এতে ট্রেন চলাচলে কিছুটা বিলম্ব হচ্ছে। ঢাকা থেকে উদ্ধারকারী রিলিফ ট্রেন দুপুর ১২টা ঘটনাস্থলে এসে উদ্ধার কাজ শুরু করে। পরে দুপুর ২টার দিকে উদ্ধার কাজ শেষ হলে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হয়। অপরদিকে কন্টেইনার বগি লাইনচ্যুতের ঘটনায় বিভাগীয় পরিবহন কর্মকর্তা খায়রুল ইসলামকে প্রধান করে পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

টঙ্গীতে ইয়াবাসহ ৮ মাদক কারবারি গ্রেফতার

গাজীপুর প্রতিনিধিঃ টঙ্গী পশ্চিম থানার ওসি শাহ্ আলমের তথ্যের ভিত্তিতে জিএমপি উপ-পুলিশ কমিশনার অপরাধ দক্ষিণ বিভাগের মাহবুব-উজ-জামান, পিপিএম এর দিক নির্দেশনায় রবিবার রাতে বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ১২শ ১০পিস ইয়াবা ট্যাবলেট ও নগদ ৮হাজার টাকাসহ ৮জন মাদক কারবারিকে গ্রেফতার করেছে টঙ্গী পশ্চিম থানা পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, টঙ্গীর মৃত্তিবাড়ী বটতলা এলাকার কালা মানিক(৩২),দেওড়ার রাসেল(২৫), আকরাম (৩২), নয়ন(১৯), আরমান(৩০), হীরা খান(২৫), সাইদুল (৩৪), ফারুক(৩২)। এই ৮জন মাদক কারবারি টঙ্গী পশ্চিম থানা এলাকার বসবাসকারী। টঙ্গী পশ্চিম থানার ওসি শাহ্ আলম জানায়, গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা রুজু করে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। ওসি আরো জানায়, মাদক ব্যবসায়ীদের জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, টঙ্গী পশ্চিম থানা এলাকার সাইফুল ইসলাম বিপ্লব (৩৭), জসিম (৩৫) ও টঙ্গী এরশাদ নগর ৩নম্বর ব্লকের সেলিম মুন্সির ছেলে আল আমিন ওরফে মুরগি আল-আমিন (২৪) দীর্ঘদিন যাবৎ ইয়াবা ট্যাবলেট কিনে টঙ্গী পূর্ব ও পশ্চিমের বিভিন্ন সুবিধাজনক জায়গায় গ্রেফতারকৃতরাসহ অন্যান্য মাদক ব্যবসায়ী এবং মাদকসেবিদের নিকট বিক্রি করে। পলাতক আসামীদের গ্রেফতার অভিযান অব্যহত রয়েছে।

টঙ্গীতে ইয়াবাসহ ৮ মাদক কারবারি গ্রেফতার

গাজীপুর প্রতিনিধিঃ টঙ্গী পশ্চিম থানার ওসি শাহ্ আলমের তথ্যের ভিত্তিতে জিএমপি উপ-পুলিশ কমিশনার অপরাধ দক্ষিণ বিভাগের মাহবুব-উজ-জামান, পিপিএম এর দিক নির্দেশনায় রবিবার রাতে বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ১২শ ১০পিস ইয়াবা ট্যাবলেট ও নগদ ৮হাজার টাকাসহ ৮জন মাদক কারবারিকে গ্রেফতার করেছে টঙ্গী পশ্চিম থানা পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, টঙ্গীর মৃত্তিবাড়ী বটতলা এলাকার কালা মানিক(৩২),দেওড়ার রাসেল(২৫), আকরাম (৩২), নয়ন(১৯), আরমান(৩০), হীরা খান(২৫), সাইদুল (৩৪), ফারুক(৩২)। এই ৮জন মাদক কারবারি টঙ্গী পশ্চিম থানা এলাকার বসবাসকারী। টঙ্গী পশ্চিম থানার ওসি শাহ্ আলম জানায়, গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা রুজু করে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। ওসি আরো জানায়, মাদক ব্যবসায়ীদের জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, টঙ্গী পশ্চিম থানা এলাকার সাইফুল ইসলাম বিপ্লব (৩৭), জসিম (৩৫) ও টঙ্গী এরশাদ নগর ৩নম্বর ব্লকের সেলিম মুন্সির ছেলে আল আমিন ওরফে মুরগি আল-আমিন (২৪) দীর্ঘদিন যাবৎ ইয়াবা ট্যাবলেট কিনে টঙ্গী পূর্ব ও পশ্চিমের বিভিন্ন সুবিধাজনক জায়গায় গ্রেফতারকৃতরাসহ অন্যান্য মাদক ব্যবসায়ী এবং মাদকসেবিদের নিকট বিক্রি করে। পলাতক আসামীদের গ্রেফতার অভিযান অব্যহত রয়েছে।

টঙ্গীতে জাতীয় পার্টির দুই গ্রুপের পাল্টাপাল্টি সমাবেশের ডাক পুলিশের নিষেধাজ্ঞা।

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরের টঙ্গীতে জাতীয় পার্টির জিএম কাদের সমর্থিত ও বিদিশা এরশাদ সমর্থিত দুই পক্ষের একই স্থানে কর্মীসভা আহবানকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা সৃষ্টি হলে দুই সভা বন্ধ করে দিয়েছে টঙ্গী পূর্ব থানা পুলিশ। শনিবার বিকেলে স্থানীয় টিএন্ডটি বাজার এলাকায় একই স্থানে কর্মীসভা আহবান করে দুই পক্ষ। সরেজমিনে সভা স্থল ঘুরে জানা যায়, টিএন্ডটি বাজার ইলিয়াস মার্কেট এলাকায় শুক্রবার সন্ধ্যার পর থেকে স্টেজ নির্মাণ করতে প্রস্তুতি নেয় উভয় পক্ষ। সেই সাথে স্থানীয় থানায় লিখিত ভাবে অবহিত করে দুইপক্ষ। এরপর দফায় দফায় উভয় পক্ষের সাথে আলোচনা করে স্থানীয় প্রশাসন। পরে এক পর্যায়ে উভয়পক্ষকে কর্মীসভা না করতে নিষেধাজ্ঞা দেয় পুলিশ। এবিষয়ে জানতে চাইলে জিএম কাদেরপন্থী জাতীয় পার্টি টঙ্গী পূর্ব থানার সভাপতি সাইফুল ইসলাম খান বলেন, সাংগঠনিক কার্যক্রম তরান্বিত করার লক্ষে পূর্ব নির্ধারিত কর্মসুচীর অংশ হিসাবে ২৪ তারিখ বিকেলে টিএন্ডটি বাজার এলাকায় কর্মীসভা আহবান করা হয়। শুক্রবার মধ্যরাতে প্রশাসনের কর্তা ব্যাক্তিরা ফোন করে সভা বন্ধ রাখার কথা বলেন এবং সভাস্থলে তৈরী করা মঞ্চ খুলে নিয়ে যান। পুলিশের নির্দেশনা অনুযায়ী আজকের কর্মী সভা স্থগিত করা হয়েছে। বিদিশা এরশাদপন্থী জাতীয় পার্টি টঙ্গী পূর্ব থানার আহবায়ক ফজলুল হক বলেন, পূর্ব নির্ধারিত কর্মসুচীর অংশ হিসাবে আগামী ২৬ নভেম্বর জাতীয়পার্টির সম্মেলন উপলক্ষে টিএন্ডটি বাজার এলাকায় কর্মী সভা আহ্বান করা হয়। শনিবার সকালে টঙ্গী পূর্ব থানা পুলিশ একই স্থানে দুটি সভা নিষিদ্ধ করলে আমরা আইনের প্রতি শ্রদ্ধা রেখে আজকের কর্মসূচি স্থগিত করেছি। আগামীতে দিনক্ষণ নির্ধারণ করে এই কর্মসূচি পালন করা হবে ইনশাল্লাহ। টঙ্গী পূর্ব থানার অফিসার ইনচার্জ আশরাফুল ইসলাম বলেন, জাতীয় পার্টির দুই গ্রুপ একই স্থানে একই সময় পাল্টাপাল্টি কর্মসূচি দেওয়ায় আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি হওয়ার আশঙ্কায় উভয়পক্ষের কর্মসুচী বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

টঙ্গীতে যৌন হয়রানির অভিযোগে চিকিৎসক গ্রেফতার

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরের টঙ্গীতে নারী রোগীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে হাসিবুল ইসলাম(৩৭) নামে এক চিকিৎসককে গ্রেফতার করেছে জিএমপির টঙ্গী পশ্চিম থানা পুলিশ। শনিবার রাতে টঙ্গীর আউচপাড়া আল কারীম ইসলামী হাসপাতালে এঘটনা ঘটে। উক্ত ঘটনায় ভুক্তভোগী বাদী হয়ে টঙ্গী পশ্চিম থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। গ্রেফতারকৃত হাসিবুল ইসলাম ফরিদপুর জেলার মধুখালী থানার নিশ্চিন্তপুর গ্রামের আতিয়ার রহমানের ছেলে। অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন যাবৎ হৃদরোগে ভুগছিলেন ভুক্তভোগী নারী। শনিবার সন্ধ্যায় মা ও মামাত ভাইকে নিয়ে চিকিৎসার উদ্দেশ্যে টঙ্গীর হোসেন মার্কেট আল কারীম ইসলামী হাসপাতালে ডাঃ হাসিবুল ইসলামের চেম্বারে গেলে তিনি বিভিন্ন কৌশলে মামাত ভাই ও ডাক্তারের সহকারীকে চেম্বার থেকে বের করে দিয়ে ওনার রুমে থাকা রুগীর বেডে শুয়ে পরতে বলেন। এসময় পরনে থাকা বোরকা ও টিশার্ট খুলে চিকিৎসার নামে শরীরের বিভিন্ন স্পর্শকাতর স্থানে হাত দিয়ে যৌন হয়রানি করেন। একপর্যায়ে ভুক্তভোগীর আত্মচিৎকারে হাসপাতালে উপস্থিত সকলে এগিয়ে এসে ভুক্তভোগীকে উদ্ধার করেন। অভিযুক্ত চিকিৎসককে পুলিশের হাতে সোপর্দ করেন। এবিষয়ে টঙ্গী পশ্চিম থানার অফিসার ইনচার্জ মো. শাহ আলম বলেন, এঘটনায় একটি মামলা দায়ের করেছে ভোক্তভোগী। অভিযুক্ত চিকিৎসককে গ্রেফতার করে বিজ্ঞ আদালতের প্রেরণ করা হয়েছে।

টঙ্গীতে চোরাই মোবাইল চোরচক্রের ৯ সদস্য গ্রেফতার

গাজীপুর প্রতিনিধিঃ গাজীপুর মহানগর টঙ্গীর বউ বাজার এলাকা থেকে মোবাইল চোর চক্রের ৯ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে জিএমপির টঙ্গী পূর্ব থানা পুলিশ। এ অভিযানে বিপুল পরিমাণ চোরাই মোবাইল ও নগদ টাকা উদ্ধার করা হয়। রোববার দুপুরে টঙ্গী পূর্ব থানার কনফারেন্সের মাধ্যমে গাজীপুর মেট্রোপলিটন অপরাধ (দক্ষিণ) বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার মো. মাহবুব-উজ-জামান বিষয়টি নিশ্চিত করেন। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, ওয়াসিম(৩৬), বিপ্লব (২৭), রফিকুল ইসলাম(৫০), মিজানুর রহমান (২৯), সাদিকুল ইসলাম (৩৫), শাহবুদ্দিন(২৮), নাঈমুল হক(২০), হাবিব (২০) ও কামরুল হাসান(৪২)। এসয়ম উপস্থিত ছিলেন, জিএমপির অপরাধ (দক্ষিণ) বিভাগের অতিরিক্ত উপ পুলিশ কমিশনার হাসিবুল আলম, টঙ্গী পূর্ব থানার ওসি আশরাফুল ইসলাম, ওসি (তদন্ত) মনিরুজ্জামান, এসআই কায়সার হাসান প্রমুখ। উপ-পুলিশ কমিশনার মাহবুব-উজ-জামান বলেন, পুলিশ গোয়েন্দা সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে যে, মোবাইল চোর সিন্ডিকেট চক্র গাজীপুর ও টঙ্গীর বউ বাজারসহ বিভিন্ন এলাকায় দীর্ঘদিন ধরেই অবৈধ মোবাইল কেনা-বেচার বানিজ্য নিয়ে তৎপর। তারা এসব মোবাইল ফোন বিভিন্ন মার্কেটের সামনে ভাসমান দোকানে গোপনে বিক্রি করে আসছে। এছাড়াও বিভিন্ন স্থান থেকে চুরি এবং ছিনতাইকৃত মোবাইল ফোনের ছিনতাইকারী চক্র সুকৌশলে নানা সিন্ডিকেট হোতার সঙ্গে যোগসাজশে এসব চোরাই মুঠোফোন কেনা-বেচায় জড়িত রয়েছে। তিনি আরো বলেন, এরই ধারাবাহিকতায় শনিবার সকাল থেকে অভিযান পরিচালনা করে মোবাইল চোরচক্রের ৯ সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়। অভিযানে গ্রেফতারকৃত আসামিদের কাছ থেকে এন্ড্রোয়েড মোবাইল ১৪৩টি, বাটন মোবাইল ১১৭টি এবং নগদ ৩২ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়।

টঙ্গীতে কিশোর গ্যাং ‘দাদা ভাই’ গ্রুপের মূল হোতাসহ গ্রেফতার ৬

গাজীপুর প্রতিনিধি: গাজীপুরের টঙ্গীতে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে কিশোর গ্যাং ‘দাদা ভাই’ গ্রুপের মূল হোতাসহ ৬ জন সক্রিয় সদস্যকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১ এর সদস্যরা। বৃহস্পতিবার রাতে স্থানীয় পূর্ব আরিচপুর এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। শনিবার সন্ধ্যায় র‍্যাব-১ এর সহকারী পরিচালক (মিডিয়া অফিসার) নোমান আহমদ স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য নিশ্চিত করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলো, মূল হোতা আবু তালহা (১৯), সহযোগী নয়ন সিকদার (১৯), আব্দুর রহিম (১৮), কাজী নজরুল ইসলাম (১৮), আরিফুল ইসলাম (১৮) ও সায়েত্তম (১৮)। র‌্যাব প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, কিশোর গ্যাং ‘দাদা ভাই’ গ্রুপের একদল সদস্য দেশীয় অস্ত্রসস্ত্রে সজ্জিত হয়ে ডাকাতি করার প্রস্তুতি নিচ্ছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রাত ৯টার দিকে ওই এলাকায় একটি অভিযান পরিচালনা করে র‌্যাব। এ সময় উল্লেখিত ৬ কিশোর গ্যাং সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়। র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে তাদের সহযোগি অন্যরা পালিয়ে যায়। পরে তাদের হেফাজত থেকে ৩টি ধারালো চাকু, ২ টি রামদা, ১ টি লোহার রড ও ৪টি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়। ধৃতরা র‌্যাবের জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, তারা ‘দাদা ভাই’ কিশোর গ্যাং গ্রুপের সক্রিয় সদস্য। তারা দীর্ঘদিন যাবত টঙ্গী এলাকায় আধিপত্য বিস্তার করত: মাদক সেবন, স্কুল-কলেজে বুলিং, র‌্যাগিং, ইভটিজিং, ছিনতাই, ডাকাতি, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অশ্লীল ভিডিও শেয়ারসহ নানাবিধ অনৈতিক কাজে লিপ্ত ছিল। গ্রেফতারকৃতদের টঙ্গী পূর্ব থানায় সোপর্দ করা হলে সংশ্লিষ্ট আইনে মামলা রুজু শেষে শনিবার গাজীপুর জেল হাজতে প্রেরণ করে পুলিশ।

কাশিমপুর কারাগারে হাজতির মৃত্যু

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরের কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার-১ এ আফাজ উদ্দিন নামে এক হাজতির মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে ওই হাজতি অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত  চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। মৃত আফাজ উদ্দিন (৪০) গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার দক্ষিণ ধনুয়া গ্রামের হোসেন আলীর ছেলে। কারাগারে তার হাজতি নং- ১৩৩২/২২। তার নামে ময়মনসিংহের মুক্তাগাছা থানায় একটি ও গাজীপুরের শ্রীপুর থানায় চারটি মাদক মামলা রয়েছে। কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার-১ এর ভারপ্রাপ্ত সিনিয়র জেল সুপার মোঃ নুরুন্নবী ভুইঁয়া বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে আটটার দিকে হাজতি আফাজ উদ্দিন অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে প্রথমে কারা হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে দ্রুত গাজীপুরে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে রাত পৌনে ১০টার দিকে মৃত ঘোষণা করেন। গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক মো. রফিকুল ইসলাম বলেন, তাকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়েছিল। কারা কর্তৃপক্ষ জানায় শুক্রবার ময়না তদন্তের পর আইনী প্রক্রিয়া শেষে লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

টঙ্গীতে জাল টাকাসহ মাদক সম্রাজ্ঞী মোমেলা গ্রেফতার।

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরের টঙ্গীতে বিপুল পরিমান হেরোইন, ইয়াবা এবং জাল টাকাসহ আলোচিত মাদক কারবারি মোমেলা বেগম(৩৮) ও তার সহযোগী সোহরাবকে(৩৩) গ্রেফতার করেছে টঙ্গী পূর্ব থানা পুলিশ। রোববার সকালে স্থানীয় নতুন বাজার ব্যাংক মাঠ বস্তিতে অভিযান পরিচালনা করে তাদের গ্রেফতার করা হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে ১হাজার পুড়িয়া হেরোইন, ১শত পিস ইয়াবা ও ৫০ হাজার টাকার জাল নোট উদ্ধার করা হয়। পুলিশ জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান পরিচালনা করে মাদক ও জাল টাকাসহ তাদের গ্রেফতার করা হয়। চিহ্নিত এই মাদক সম্রাজ্ঞী ও তার সহযোগীর বিরুদ্ধে থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। তারা সিমান্ত এলাকা থেকে মাদক এনে টঙ্গী ও আশপাশের এলাকায় বিক্রি করে আসছিল। তাদের বিরুদ্ধে জাল টাকা ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে পৃথক দুটি মামলা দায়ের করে বিজ্ঞ   আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

টঙ্গীতে অস্ত্রসহ মাদক কারবারি গ্রেপ্তার

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরের টঙ্গীতে ১৫শত পিস ইয়াবা ও একটি রিভলবারসহ নুরুল ইসলাম (৩৪) নামে এক মাদক কারবারিকে গ্রেফতার করেছে টঙ্গী পশ্চিম থানা পুলিশ। শনিবার দিবাগত রাতে স্থানীয় হাজীর মাজার বস্তি এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত নুরুল ইসলাম টঙ্গী পশ্চিম থানাধীন হাজীর মাজার বস্তি এলাকার হারুন মিয়ার ছেলে। পুলিশ জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে হাজীর মাজার বস্তি এলাকায় অভিযান চালিয়ে ১৫শত পিস ইয়াবাসহ নুরুল ইসলামকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে তার বাসা থেকে একটি রিভলবার উদ্ধার করা হয়। টঙ্গী পশ্চিম থানার অফিসার ইনচার্জ শাহ আলম জানান, গ্রেফতারকৃত আসামি নুরুল ইসলামের বিরুদ্ধে রাজধানীসহ বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। তার বিরুদ্ধে অবৈধ আগ্নেয়াস্ত্র ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে পৃথক দুটি মামলা দায়ের করে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

টঙ্গীতে জাতীয় পার্টির আলোচনা সভা ও কমিটি গঠন

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুর মহানগর জাতীয় পার্টি পুনর্গঠন প্রক্রিয়ার উদ্যোগে টঙ্গী পশ্চিম থানা জাতীয় পার্টির নেতৃবৃন্দের সাথে আলোচনা সভা ও কমিটি গঠন অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার বিকেলে টঙ্গীর মিলগেট শহীদ সুন্দর আলী রোড এলাকায় এ অনুষ্ঠান আয়োজন করেন গাজীপুর মহানগর জাতীয় পার্টি। গাজীপুর মহানগর জাতীয় পার্টির সিনিয়র সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন মহানগর জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল সিকদার সবুজ। অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন, জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য নুরজাহান বেগম নুরী, মহানগর জাতীয় পার্টির সহ-সভাপতি এমরান হোসেন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নূরুল ইসলাম, সোহেল রানা, আরিফ হাওলাদার, টঙ্গী পূর্ব থানা কমিটির আহ্বায়ক ফজলুল হক, যুগ্ম সদস্য সচিব জাহিদুজ্জামান জাহিদ প্রমুখ। অনুষ্ঠান শেষে টঙ্গী পশ্চিম থানা আহ্বায়ক কমিটি ঘোষনা করা হয়। এতে এমরান হোসেনকে আহ্বায়ক ও জাহাঙ্গীর আলমকে সদস্য সচিব করা হয়। আহ্বায়ক কমিটি ঘোষনা করেন মহানগর জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল সিকদার সবুজ। আশরাফুল সিকদার সবুজ বলেন, আগামী ২৬শে নভেম্বর কাউন্সিল ঘোষনা করেন জাতীয় পার্টি বিরোধী দলের নেত্রী বেগম রওশন এরশাদ। মহানগর জাতীয় পার্টির পক্ষ থেকে আমরা সাধুবাদ জানাই। সেই সাথে পল্লী জননী বিদিশা এরশাদের নির্দেশনায় কাউন্সিল সফল করার লক্ষ্যে প্রতিটি থানা ও ওয়ার্ডে কার্যক্রম শুরু করে দিয়েছি আমরা।

টঙ্গীতে বিএনপির ৪৪তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ  গাজীপুরের টঙ্গীতে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির ৪৪তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে আনন্দ র‍্যালী অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার বিকেলে টঙ্গীর কলেজগেট এলাকা থেকে র‍্যালীটি শুরু হয়ে ঢাকা ময়মনসিংহ মহাসড়কের গুরুত্বপূর্ণ স্থান প্রদক্ষিণ করে চেরাগ আলী মার্কেটে গিয়ে শেষ হয়। জাতীয় শ্রমিক দল কেন্দ্রীয় কমিটির কার্যকরি সভাপতি সালাউদ্দিন সরকারের নেতৃত্বে মিছিলে উপস্থিত ছিলেন টঙ্গী পূর্ব, পশ্চিম থানা বিএনপি, যুবদল, ছাত্রদল, স্বেচ্ছাসেবক দলসহ বিভিন্ন অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীবৃন্দ।

টঙ্গীতে বাসা ছাড়তে হুমকি দিল পুলিশ!

গাজীপুর প্রতিনিধিঃ গাজীপুরের টঙ্গীতে লোকমান হোসেন নামে এক ব্যাক্তিকে বাসা ছেড়ে দেওয়ার হুমকি প্রদান করার অভিযোগ উঠেছে টঙ্গী পূর্ব থানার উপ পরিদর্শক অহিদ মিয়ার বিরুদ্ধে। এঘটনায় ৩০ আগস্ট মঙ্গলবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব (জন নিরাপত্তা বিভাগ) আখতার হোসেন এর বরাবর লিখিত অভিযোগ প্রদান করেছেন ভোক্তভোগী লোকমান। লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, টঙ্গীর ৫৬নং ওয়ার্ড আমজাদ আলী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় সংলগ্ন কানাডা প্রবাসী বড় ভাই মোতালেব হোসেনের বাড়ীতে দীর্ঘ ৩০ বছর যাবত বসবাস করছিলেন লোকমান। বেশ কিছু দিন আগে টিনসেড বাড়ীটি ভেঙ্গে বহুতল ভবন নির্মাণ করা হয়। নির্মাণ কাজ ও পরবর্তীতে বাড়ী ভাড়াসহ সার্বিক তত্তাবধানে ছিলেন তিনি। নির্মাণ কাজ চলাকালীন সময় স্বজনদের উপস্থিতিতে বড় ভাই কতৃক ৮শত বর্গফুটের একটি ফ্লাট দেওয়ার প্রতিশ্রæতিতে ফ্লাট নির্মাণ বাবদ তিন কিস্তিতে সর্বমোট ২১ লাখ ৬০ হাজার টাকা পরিশোধ করা হয়। ভবন নির্মাণের পর দীর্ঘ ১০বছর যাবত এই বাড়ীতে বসবাস করে ভাড়া উত্তলোন করে বড় ভাই এর ব্যাংক একাউন্টে জমা করে আসছিলেন লোকমান। গত ২৩ আগস্ট মঙ্গলবার হঠাৎ করে টঙ্গী পূর্ব থানার উপ পরিদর্শক অহিদ মিয়া মুঠো ফোনে লোকমানকে থানায় ডেকে নিয়ে ৩ঘন্টা বসিয়ে রেখে বিভিন্ন প্রকার ভয়ভীতি দেখিয়ে ১ সেপ্টম্বরের মধ্যে বাড়ী ছেড়ে যাওয়ার হুমকি প্রদান করেন। অন্যথায় টঙ্গী ব্রীজ থেকে তুরাগ নদীতে ফেলে দেওয়ারও হুমকি দেন। এবিষয়ে টঙ্গী পূর্ব থানার উপ পরিদর্শক অহিদ মিয়া বলেন, বাড়ী মালিকের ভাই এর ছেলের লিখিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে লোকমান হোসেনকে থানায় ডাকা হয়। তাকে কোন প্রকার হুমকি দেওয়া হয়নি। গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের দক্ষিণ জোনের অতিরিক্ত উপ পুলিশ কমিশনার হাসিবুল আলম বলেন, এধরনের কোন অভিযোগ আমরা পাইনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

সাফারী পার্ক বেলকলির কোলে জন্ম নিলো আনারকলি

গাজীপুর প্রতিনিধিঃ গাজীপুরের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব রহমান সাফারী পার্কের মা হাতি বেলকলি আবারও শাবকের জন্ম দিয়েছে। সাফারি পার্কে নতুন জন্ম নেয়া মাদী হাতি শাবকটির নাম রাখা হয়েছে আনারকলি। গত ৮আগষ্ট সকালে দ্বিতীয় বারের মতো পার্কের প্রাকৃতিক পরিবেশে শাবকের জন্ম হলেও বিভিন্ন দিক বিবেচনাকরে গণমাধ্যমে বিষয়টি জানাননি পার্ক কর্তৃপক্ষ। সাফারী পার্কের প্রকল্প পরিচালক ইমরান আহমেদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।জন্মের পর মা ও শাবক সুস্থ রয়েছে। ২০১৮সালের ৫জুন এই বেলকলিই পার্কের প্রাকৃতিক পরিবেশে আরো একটি হাতি শাবকের জন্ম দিয়েছিল। তার নাম রাখা হয়েছিল ফুলকলি। সে এখন পরিণত হয়ে উঠছে। এ নিয়ে পার্কে এখন হাতির সংখ্যা ৯টিতে পৌঁছলো। এর মধ্যে ৭টি পুরুষ ও ২টি মাদি।শাবকটির প্রসবকালীন সময়ে ওজন ছিল প্রায় ৬০ কেজি। একটি পূর্ণবয়স্ক হাতি সাধারণত চার হাজার থেকে পাঁচ হাজার কেজি পর্যন্ত ওজন হয়ে থাকে। ১৮-২০ বছরে হাতি প্রজনন সক্ষম হয়। এদের গর্ভকালীন সময় ২০-২২মাস। সাধারণত একটি হাতি ৩-৫বছর পর পর একটি করে শাবকের জন্ম দেয়। হাতি শাবক সাধারণত সাড়ে তিন বছর থেকে চার বছর পর্যন্ত মায়ের দুধ পান করে। হাতির গড় আয়ু ১০০বছর। পার্ক কর্তৃপক্ষ জানায়, বাচ্চা সহ মা হাতিটি আলাদা করে রাখা হয়েছে। বাচ্চাটি মায়ের তত্ত্বাবধানে রয়েছে। মায়ের সাথে ঘুরে বেড়াচ্ছে। নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করে সেখানে পর্যটকদের যাতায়াত সীমিত রাখা হয়েছে। মা হাতিটিকে প্রতিদিন ২০কেজি কলাগাছ, ৫০কেজি মিষ্টি কুমড়া, ৫ কেজি আখ, ১০ কেজি গাজর ও ভাতের জাউসহ তৃণ জাতীয় খাবার দেওয়া হচ্ছে বলে পার্কের একটি সূত্র নিশ্চিত করেছে। সাফারী পার্কের প্রকল্প পরিচালক ইমরান আহমেদ বলেন, আমাদের দেশে হাতির সংখ্যা কমার মধ্যে সাফারী পার্কের প্রাকৃতিক পরিবেশে হাতি শাবক জন্ম হওয়া সত্যিই আনন্দের। জন্মের পর মা ও শাবকের নিরাপত্তায় বিশেষ ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। ইতিপূর্বেও এ পার্কে দেশে প্রথমবারের মতো প্রাকৃতিক পরিবেশে আরো একটি শাবকের জন্ম হয়েছিল। সেও এখন পরিণত হচ্ছে।

গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন জাহাঙ্গীরগংদের হাতে জিম্মি ছিলো- মেয়র কিরণ

গাজীপুর প্রতিনিধিঃ গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন জাহাঙ্গীর, রানা, মনির গংদের হাতে জিম্মি ছিলো। তাদের অনিয়ম, স্বেচ্ছাচারীতায় কোণঠাসা হয়ে পরেছিলো পুরো গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন। আমরা জানি কোন রেজুলেশন পাশ করতে হলে সকল কাউন্সিলর দের সাথে মাসিক সম্মেলনে সেই রেজুলেশন পাশ করাতে হয়। কিন্তু কাউলতিয়া এলাকায় মাসিক সম্মেলনে বিলের খাতায় সকল কাউন্সিলরের  স্বাক্ষর থাকলেও সেখানে নেই কত টাকার প্রকল্প ব্যায় তার নির্দিষ্ট কোনো তথ্য। পরবর্তীতে টেন্ডার খাতায় ৪০কোটি ২৫লক্ষ  টাকার বিল দেখিয়ে ২০ কোটি টাকারও অধিক উত্তোলন দেখানো হয়েছে। এমন দূর্নীতির হিসেবে এটি মাত্র একটি এলাকার শুধু টঙ্গী ব্যাতিত গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের আওতাধীন সব জায়গায় এমন দূর্নীতির প্রমান ফুটে উঠেছে। গতকাল বৃহস্পতিবার গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা যুগ্ম সচিব এস এম শফিউল আলম এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য কালে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের ভারপ্রাপ্ত মেয়র আসাদুর রহমান কিরণ এসব কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, বহিস্কৃত মেয়র জাহাঙ্গীর  আলম ৫টি কোম্পানি থেকে হোল্ডিং ট্যাক্স প্লান বাবদ ২কোটি ৬০লক্ষ টাকা আদায় করেন এবং সেই টাকা কোনাবাড়ির শাখার একটি ব্যাংকে জমা রাখেন। পরবর্তীতে তিনি নিজে এবং তার বাড়ির কর্মচারীদের দিয়ে ওই টাকা উত্তোলন করে আত্মসাৎ করেছেন। এমন ২৪টি দুর্নীতির তথ্য প্রমাণ তদন্ত কমিটির হাতে। খুব শিগগিরী বহিস্কৃত মেয়র জাহাঙ্গীর আলম এর বিচারিক কার্যক্রম শুরু হবে। গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনকে ৮হাজার কোটি টাকার বরাদ্দ মননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দিয়েছেন। কিন্তু এই টাকার সুষম বন্টন সিটি কর্পোরেশনের ৫৭টি ওয়ার্ডে করা হয়নি। যেখানে ড্রেনর কাজ ১০ বছর পরে করলেও নগরী কোন সমস্যা হতো না সেই সকল জায়গার কাজ তিনি শুরু করেছেন। যদি সেই টাকার সুষম বন্টন করা হতো তাহলে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন  আরো দ্রুত আধুনিক নগরীতে পরিনত হতো। গাজীপুরের জনগণকে বহিষ্কৃত মেয়র মানুষ হিসেবে গণ্য করেনি। ইতিমধ্যে তার সামাজিক বিচার হয়ে গেছে। বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কটুক্তিকারিকে কখনোই জাতি ক্ষমা করবে না। বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে যে কটুক্তি কথা তিনি বলেছে আমি সাধারণ নাগরিক হিসবে তার রাষ্ট্রয়ী বিচার শুরু করার দাবি জানাচ্ছি এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য বেগম শামসুন্নাহার ভূইয়া, গাজীপুর মহানগর আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি আফজাল হোসেন সরকার রিপন, গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সদস্য আবুল কাশেম ,প্যানেল মেয়র এডঃ আয়েশা আক্তার, কাউন্সিল হাজী আব্দুল কাদির মন্ডল, শাহজাহান মিয়া সাজু, কাজী আবু বক্কর সিদ্দিক, আবুল হোসেন রফিকুল ইসলাম রফিক, খোরশেদ আলম সরকার প্রমুখ। আলোচনা সভা শেষে ১৫ আগস্টে নিহত সকল শহীদদের রুহের মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়।

টঙ্গীতে ডাকাতির প্রস্তুতি কালে গ্রেফতার ৬

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ   গাজীপুরের টঙ্গীতে ডাকাতির প্রস্তুতি কালে ধারালো অস্ত্রসহ ছয় ডাকাতকে গ্রেফতার করেছে টঙ্গী পশ্চিম থানা পুলিশ। শুক্রবার ভোররাতে স্থানীয় দেওড়া বেক্সিমকো রোড এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে ২টি চাপাতি ০১টি সুইচ গিয়ার ০৩টি ছোরা ও ০৬টি ছিনতাইকৃত মোবাইল উদ্ধার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলো, টঙ্গীর মিলগেট কো -অপারেটিভ মার্কেটের মৃত আব্দুস সোবহানের ছেলে রমজান আলী রাজু(২৭), পাবনা জেলার আটঘরিয়া থানার নজরুল ইসলামের ছেলে খুরশেদ আলম(৩৬), টঙ্গীর বড় দেওড়া পরান মন্ডলের টেক এলাকার জালাল বেপারীর ছেলে বুলু ওরফে জুয়েল (২০), একই এলাকার শরিফুল ইসলামের ছেলে সাগর মিয়া(২৫), রাজধানীর তুরাগ থানার রানাভোলা এলাকার হাফিজুর রহমানের ছেলে আরাফাত রহমান সৈকত(১৯), টঙ্গীর আউচপাড়া মোল্লা বাড়ি এলাকার হেলাল মিয়ার ছেলে ফয়সাল(২০)। পুলিশ জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে টঙ্গীর বড় দেওরা বেক্সিমকোর এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে ছয়জনকে গ্রেফতার করা হয় এসময় তাদের কাছ থেকে একাধিক ধারালো অস্ত্র ও ৬টি ছিনতাইকৃত মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়। দ টঙ্গী পশ্চিম থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ শাহ আলম জানান, গ্রেফতারকৃত আসামিদের বিরুদ্ধে টঙ্গী পশ্চিম থানা সহ বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। আসামিদের বিরুদ্ধে নিয়মিত আইনে মামলা দায়ের করে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

টঙ্গীতে ফেনসিডিলসহ গ্রেফতার ৩

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরের টঙ্গীতে ৫১ পিস ফেনসিডিলসহ তিন মাদক কারবারিকে গ্রেফতার করেছে টঙ্গী পূর্ব থানা পুলিশ। সোমবার সন্ধ্যায় পূর্ব আরিচপুর জামাই বাজার এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়। এসময় মাদক পরিবহনের ব্যবহৃত একটি মোটরসাইকেল জব্দ করে পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা হলো, টঙ্গীর পূর্ব আরিচপুর মদিনা পাড়া রফিকুল ইসলামের ছেলে মাসুদ রানা(৩০) একই এলাকার সফিকুল ইসলামের ছেলে মামুন মোল্লা ও জামাই বাজার এলাকার মৃত খালেক আহম্মেদের ছেলে নুর আলম ওরফে নুরা(৩০)। টঙ্গী পূর্ব থানার উপ পরিদর্শক সাব্বির হোসেন জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পূর্ব আরিচপুর জামাই বাজার এলাকায় অভিযান চালিয়ে দুই মাদক কারবারিকে গ্রেফতার করা হয়। এসময় তল্লাশি চালিয়ে মোটরসাইকেলের ট্যাংকি ও সিটের নিচ থেকে ৪০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়। পরে তাদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে বিসিক লিলি ফুড মোড় থেকে আরো ১১বোতল ফেনসিডিলসহ অপর আসামীকে গ্রেফতার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, তারা দীর্ঘদিন যাবত ব্রাহ্মণবাড়িয়াজেলার আখাউড়া এবং কসবা সীমান্ত এলাকা থেকে ফেনসিডিল এনে টঙ্গী এবং আশপাশের এলাকায় বিক্রয় করে থাকে। তাদের তাদের বিরুদ্ধে নিয়মিত আইনে মামলা দায়ের করে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

গাজীপুরে সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

গাজীপুর প্রতিনিধিঃ গাজীপুরের মাজুখান উত্তরপাড়া এলাকায় নুরুল ইসলাম খান গং কর্তৃক টাকা আত্মসাৎ, লুটপাট ভাংচুর, সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছে এক ভুক্তভোগী পরিবার। শনিবার দুপুরে তার নিজ বাস ভবনে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে ইয়াসমিন আক্তার লিখিত বক্তব্য বলেন, দীর্ঘ ১৬ বছর যাবত আমার বড় বোন পারভিন আক্তার ও তার স্বামী নুরুল ইসলাম খানের বাড়ীতে স্বামী ও ছেলে/মেয়ে নিয়ে সুখে শান্তিতে বসবাস করে আসছি। ওই সময় আমি ও আমার স্বামী জমি ক্রয় করার ইচ্ছা পোষন করলে আমার বোন জামাই নুরুল ইসলাম বলে, আমার বাসায় থাকো এবং আমি আমার জমি থেকে তোমাকে ৫ কাঠা জমি লিখে দেই, তুমি আস্তে আস্তে টাকা পরিশোধ করে দিবে। আমি বিভিন্ন সময় আমার দুলাভাইকে ২৩ লাখ ৩৭ হাজার টাকা দিয়ে থাকি। পরবর্তীতে আমি জমি রেজিস্ট্রি করে দিতে বলায় বিভিন্ন তাল বাহানা ও লোক মারফতে হুমকি ধামকি দিতে থাকে আমার দুলাভাই সেই সাথে আমার বাসার বিদ্যুৎ সংযোগও বিচ্ছিন্ন করে দেয়া হয়। সম্প্রতি নুরুল ইসলামের সন্ত্রাসী লোকজন আমার বাসায় প্রবেশ করে ঘরের আসবাপত্র ভাংচুর করে এবং ঘরের ভিতরের থাকা টাকা ও স্বর্ণালকার লুট করে নিয়ে যায়। আমার শিশু বাচ্চার উপরও হামলা চালায় তারা। আমি এ বিষয়ে পূবাইল থানায় অভিযোগ করতে গেলে তারা মামলা নেয়নি। আমি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। আমার পরিবারের নিরাপত্তা ও সঠিক বিচারের জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও আইনশৃঙ্খলা বাহিণীর হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

গাজীপুরে বঙ্গবন্ধু আন্তঃমহানগর বিতর্ক উৎসবের শুভ উদ্বোধন।

গাজীপুর প্রতিনিধিঃ "যুক্তিই হোক মুক্তির পথ " এই স্লোগানকে সামনে রেখে গাজীপুর ইয়ুথ ক্লাবের সার্বিক সহযোগিতায় ইয়ুথ ডিবেটিং সোসাইটির আয়োজনে টঙ্গী পাইলট স্কুল এন্ড গার্লস কলেজে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আন্তঃমহানগর "বিতর্ক উৎসব ২০২২" প্রতিযোগিতার উদ্বোধনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার ১২ই আগস্ট সকালে ইয়থ ডিবেটিং সোসাইটির আয়োজনে টঙ্গী পাইলট স্কুল এন্ড গার্লস কলেজের অডিটোরিয়ামে ১৬টি কলেজের ছাত্র-ছাত্রীদের অংশগ্রহণে বিতর্ক উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। গাজীপুর ইয়ুথ ক্লাবের সভাপতি তৌহিদুল ইসলাম দ্বীপের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের অপরাধ দক্ষিণের উপ পুলিশ কমিশনার ইলতুৎ মিশ। বিতর্ক উৎসবের উদ্বোধন করেন গাজীপুর মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি মোশিউর রহমান সরকার বাবু। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পাইলট স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ আলাউদ্দিন মিয়া, উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা মোহাম্মদ মনজুরুল ইসলাম মিলন, আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন টঙ্গী পশ্চিম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহ আলম, টঙ্গী প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক কালিমুল্লাহ ইকবাল বিভিন্ন কলেজের শিক্ষক মন্ডলী প্রমুখ। প্রধান অতিথির বক্তব্যে ইলতুৎ মিশ বলেন, যারা বিতর্ক প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে তারা মূলত নিজেকে বিতার্কিক হিসেবে তৈরি করছে, বড় হলে কর্মময় জীবনে তারা কথার প্রতি উত্তরে সঠিক উপস্থাপন করতে পারবে সুন্দর ভাবে। একজন বিতার্কিক কে হিংসাত্মক মনোভাব পরিহার করে উদার মানসিকতার এবং সুন্দর ও আচরণের মানবিক মানুষ হতে হবে। পুণ্যের পথে থাকতে হবে পুন্যের কাজ করার আহ্বান জানাতে হবে। সভাপতি তার বক্তব্যে বলেন আমাদের স্বপ্ন গাজীপুর মহানগরের প্রতিটি স্কুল ও কলেজে গাজিপুর ইয়ুথ ক্লাবের শাখা গড়ে তুলবো, ২০১৫ সাল থেকে ধারাবাহিকভাবে আমরা কাজ করে যাচ্ছি সামনে এগিয়ে যেতে সকলের আন্তরিক সহযোগিতা চাই।

রেলের ভাড়া সমন্বয় করা হবে- রেলমন্ত্রী

‌বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ    চলতি বছরের ডিসেম্বরের মধ্যে টঙ্গী থেকে জয়দেবপুর পর্যন্ত ডাবল রেল লাইন চালু হবে বলে জানিয়েছেন রেলপথমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন । জ্বালানির দাম বৃদ্ধির কারণে অন্যান্য পরিবহনের পাশাপাশি শীঘ্রই রেলের ভাড়াও সমন্বয় করার কথাও জানান, ‌তি‌নি । মঙ্গলবার দুপু‌রে চলমান ড‌াবল রেল লাইন নির্মাণ কাজ প‌রিদর্শ‌ন ‌শে‌ষে গাজীপুর জংশ‌নে সাংবাদিকদের একথা জানান রেলমন্ত্রী। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, রেল চলাকালীন সম‌য়ে রেলপথ এলাকায় ১৪৪ ধারা বলবৎ থা‌কে । কেউ য‌দি রেল লাই‌নে এ‌সে দুর্ঘটনায় প‌ড়ে এর জন‌্য রেল মন্ত্রনালয় দায় নে‌বে না ব‌লেও জানান, রেলপথ মন্ত্রী । জানা যায়, জয়দেবপুর থেকে টঙ্গী পর্যন্ত ১১ কিলোমিটার ডাবল রেলপথ  নির্মাণ প্রক‌ল্পের কাজ ২০১৯ সালের ডি‌সেম্ব‌রে শুরু হয়। ভারতীয় প্রতিষ্ঠান অ‌্যাফকন্স ও কল্পতরু পাওয়ার ট্রান্স‌মিশন লি‌মি‌টেড (‌কে‌পি‌টিএল) যৌথভা‌বে এর নির্মাণ কাজ কর‌ছে।

গাজীপুরে সন্ত্রাসীদের হামলায় সাংবাদিক আহত

গাজীপুর প্রতিনিধিঃ    গাজীপুরে বাল্য বিবাহের তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়ে সন্ত্রাসীদের হামলার শিকার হয়েছেন মোঃমহসিন মোল্লা (৪৭) নামে এক সাংবাদিক। তিনি দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার পত্রিকা এর সিনিয়র রিপোর্টার হিসাবে কর্মরত আছেন। গত ০৮ আগষ্ট সোমবার সন্ধায় কালিয়াকৈর উপজেলার পূর্ব চান্দরা বোর্ড মিল এলাকায় এঘটনা ঘটে। আহত মহসিন বলেন, বাল্য বিবাহের তথ্য সংগ্রহ করতে গেলে পেশাগত দায়িত্ব পালনে বাধা দিয়ে মোঃলিয়াকত আলী অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করে। এসময় প্রতিবাদ করায় লিয়াকত আলীর নেতৃত্বে নাবির হোসেন, আফজাল মুন্সি, জসিম মুন্সি, মিরাজ মুন্সি, জাকির হোসেন, আব্দুল হাই, আলমাছ মুন্সি, আবুল কালাম, আঃরাজ্জাক শেখ সহ অজ্ঞাত আরও ৮/১০ জন ব্যাক্তি মহসিন ও সহকর্মী সাহাজদ্দিন সরকারকে এলোপাতাড়ি মারধর করে। এসময় মহসিনের পত্রিকার আইডি কার্ড ও ক্যামেরা ছিনিয়ে নেয়। পরে স্থানীয় লোকজন ও সাংবাদিকদের সহায়তায় মহসিনকে উদ্ধার করে কালিয়াকৈর থানা হেলথ কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। পরে তাঁকে উন্নত চিকিৎসার জন্য গাজীপুর শহিদ তাজ উদ্দিন আহমদ মেডিকেল কলেজ  হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। এবিষয়ে সাংবাদিক মহসিন বাদি হয়ে কালিয়াকৈর থানায়  লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

গাজীপুরে পানিতে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যু 

বি এ রায়হান, গাজীপুর:   গাজীপুর সিটি করপোরেশনের বাসন থানাধীন কড্ডা খোয়ারপাড়া এলাকায় তুরাগ নদে গোসল করতে গিয়ে পানিতে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার (৯ আগস্ট) দুপুরে এ ঘটনা ঘটেছে।  নিহতরা হলো- গাজীপুর সিটি করপোরেশনের বাসন থানার কড্ডা খোয়ারপাড়া এলাকার আলী আকবরের ছেলে সাঈম হোসেন (১৩) ও একই এলাকার মঞ্জু মিয়ার ছেলে শিশির (১২)।  এলাকাবাসী জানায়, কড্ডা খোয়ারপাড়া মসজিদের পাশে তুরাগ নদে তিন শিশু গোসল করতে যায়। গোসলের একপর্যায়ে সাঈম ও শিশির পানিতে ডুবে যায়। এসময় অপর এক শিশু ডাক চিৎকার শুরু করে। পরে আশেপাশের লোকজন গিয়ে সাঈম ও শিশিরকে উদ্ধার করে। পরে তাদের গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করে। জিএমপি বাসন থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মালেক খসরু খান জানান, পানিতে ডুবে দুই শিশু নিহত হয়েছে। পরে আবেদনের প্রেক্ষিতে স্বজনদের কাছে মরদেহ হস্তান্তর করা হয়েছে। 

টঙ্গীতে হেরোইনসহ তিন মাদক কারবারি গ্রেফতার

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ   গাজীপুরের টঙ্গীতে ৪শত পুড়িয়া (৪০ গ্রাম) হেরোইনসহ ৩ মাদক কারবারিকে গ্রেফতার করেছে টঙ্গী পশ্চিম থানা পুলিশ। সোমবার রাতে টঙ্গীবাজার হাজীর মাজার বস্তি থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলো, টঙ্গীর হাজীর মাজার বস্তি এলাকার চান মিয়ার ছেলে নাসির উদ্দিন (২৭), একই এলাকার কালু মিয়ার ছেলে আনোয়ার ওরফে গেল্লা(৩২) ও আনসার আলীর ছেলে রুবেল(২৬)। টঙ্গী পশ্চিম থানার উপপরিদর্শক মেহেদী হাসান জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে টঙ্গী বাজার হাজী মাজার বস্তিতে অভিযান চালিয়ে তিন মাদক কারবারিকে গ্রেফতার করা হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে তল্লাশি চালিয়ে ৪শত পুড়িয়া(৪০ গ্রাম) হিরোইন সদৃশ মাদক উদ্ধার করা হয়। টঙ্গী পশ্চিম থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ শাহ্ আলম জানান, গ্রেফতারকৃত আসামিদের বিরুদ্ধে নিয়মিত আইনে মামলা দায়ের করে বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

টঙ্গীতে গাঁজাসহ দুই মাদক কারবারি গ্রেফতার

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরের টঙ্গীতে বিপুল পরিমান গাঁজাসহ দুই মাদক কারবারিকে গ্রেফতার করেছে টঙ্গী পূর্ব থানা পুলিশ। রবিবার দিবাগত রাতে টঙ্গীর এরশাদনগর ৫নং ব্লক এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে ৬ কেজি গাঁজা উদ্ধার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলো, টঙ্গীর এরশাদনগর এলাকার সামছু মিয়ার ছেলে ইউসুব(২৮) ও একই এলাকার শান্তি মিয়ার ছেলে আনাস(২৫)। টঙ্গী পূর্ব থানার উপ-পরিদর্শক কাজী নেওয়াজ জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে টঙ্গীর এরশাদনগর এলাকায় অভিযান চালিয়ে চার কেজি গাঁজাসহ দুই মাদক কারবারিকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তাদের দেওয়া তথ্য মতে পলাতক আসামী শান্তি মিয়ার বাড়ি শান্তি ভিলার নিচে পরিত্যাক্ত রুম থেকে আরো দুই কেজি গাঁজা উদ্ধার করা হয়। টঙ্গী পূর্ব থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মনিরুজ্জামান বলেন গ্রেপ্তারকৃত আসামিদের বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

টঙ্গীতে ভোক্তা অধিকারের অভিযান

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরের টঙ্গী স্টেশন রোড এলাকায় আল আমিন সুইটস এন্ড বেকারি কারখানায় অভিযান পরিচালনা করেছে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। এসময় বিএসটিআই অনুমোদন না থাকা ও ওজনে কারচুপির অপরাধে প্রতিষ্ঠানটিকে ১লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়া টঙ্গী বাজার এলাকায় টঙ্গী ড্রাগ হাউস নামে একটি ফার্মেসীকে মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষধ রাখার অপরাধে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক আব্দুল জব্বার মন্ডলের নেতৃত্বে সোমবার দুপুরে এ অভিযান পরিচালিত হয়। অভিযানে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের ঢাকা বিভাগীয় সহকারি পরিচালক মাকফুর রহমানসহ প্রতিষ্ঠানটির কর্মকর্তাবৃন্দ।

টঙ্গীতে ভোক্তা অধিকারের অভিযান

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরের টঙ্গী স্টেশন রোড এলাকায় আল আমিন সুইটস এন্ড বেকারি কারখানায় অভিযান পরিচালনা করেছে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। এসময় বিএসটিআই অনুমোদন না থাকা ও ওজনে কারচুপির অপরাধে প্রতিষ্ঠানটিকে ১লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়া টঙ্গী বাজার এলাকায় টঙ্গী ড্রাগ হাউস নামে একটি ফার্মেসীকে মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষধ রাখার অপরাধে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক আব্দুল জব্বার মন্ডলের নেতৃত্বে সোমবার দুপুরে এ অভিযান পরিচালিত হয়। অভিযানে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের ঢাকা বিভাগীয় সহকারি পরিচালক মাকফুর রহমানসহ প্রতিষ্ঠানটির কর্মকর্তাবৃন্দ।

টঙ্গীতে ভোক্তা অধিকারের অভিযান

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরের টঙ্গী স্টেশন রোড এলাকায় আল আমিন সুইটস এন্ড বেকারি কারখানায় অভিযান পরিচালনা করেছে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। এসময় বিএসটিআই অনুমোদন না থাকা ও ওজনে কারচুপির অপরাধে প্রতিষ্ঠানটিকে ১লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়া টঙ্গী বাজার এলাকায় টঙ্গী ড্রাগ হাউস নামে একটি ফার্মেসীকে মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষধ রাখার অপরাধে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক আব্দুল জব্বার মন্ডলের নেতৃত্বে সোমবার দুপুরে এ অভিযান পরিচালিত হয়। অভিযানে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের ঢাকা বিভাগীয় সহকারি পরিচালক মাকফুর রহমানসহ প্রতিষ্ঠানটির কর্মকর্তাবৃন্দ।

টঙ্গীতে ভোক্তা অধিকারের অভিযান

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরের টঙ্গী স্টেশন রোড এলাকায় আল আমিন সুইটস এন্ড বেকারি কারখানায় অভিযান পরিচালনা করেছে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। এসময় বিএসটিআই অনুমোদন না থাকা ও ওজনে কারচুপির অপরাধে প্রতিষ্ঠানটিকে ১লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়া টঙ্গী বাজার এলাকায় টঙ্গী ড্রাগ হাউস নামে একটি ফার্মেসীকে মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষধ রাখার অপরাধে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক আব্দুল জব্বার মন্ডলের নেতৃত্বে সোমবার দুপুরে এ অভিযান পরিচালিত হয়। অভিযানে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের ঢাকা বিভাগীয় সহকারি পরিচালক মাকফুর রহমানসহ প্রতিষ্ঠানটির কর্মকর্তাবৃন্দ।

টঙ্গীতে ভোক্তা অধিকারের অভিযান দুই প্রতিষ্টানে জরিমানা।

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরের টঙ্গী স্টেশন রোড এলাকায় আল আমিন সুইটস এন্ড বেকারি কারখানায় অভিযান পরিচালনা করেছে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। এসময় বিএসটিআই অনুমোদন না থাকা ও ওজনে কারচুপির অপরাধে প্রতিষ্ঠানটিকে ১লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়া টঙ্গী বাজার এলাকায় টঙ্গী ড্রাগ হাউস নামে একটি ফার্মেসীকে মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষধ রাখার অপরাধে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক আব্দুল জব্বার মন্ডলের নেতৃত্বে সোমবার দুপুরে এ অভিযান পরিচালিত হয়। অভিযানে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের ঢাকা বিভাগীয় সহকারি পরিচালক মাকফুর রহমানসহ প্রতিষ্ঠানটির কর্মকর্তাবৃন্দ।

টঙ্গীতে হেরোইনসহ গ্রেফতার ৩

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ  গাজীপুরের টঙ্গীতে ১শত গ্রাম হেরোইনসহ তিন মাদক কারবারিকে গ্রেফতার করেছে টঙ্গী পূর্ব থানা পুলিশ। শুক্রবার দিবাগত রাতে টঙ্গীর এরশাদনগর ও স্টেশন রোড এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, টঙ্গীর এরশাদনগর ১নং ব্লকের মৃত জসিমের ছেলে কামাল হোসেন (৩০), রাজশাহী জেলার দুর্গাপুর থানার আলিপুর গ্রামের ইউসুফ মিয়ার ছেলে আলামিন(২৫) ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা সদরের ফাটা পাড়া গ্রামের একরামুল হকের ছেলে শরিফ উদ্দিন (২৯)। পুলিশ জানায়, গোপন সংবাদের বিত্তিতে টঙ্গীর এরশাদনগর এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৫০গ্রাম হেরোইনসহ দুই মাদক কারবারিকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তাদের দেওয়া তথ্য মতে টঙ্গী স্টেশন রোড এলাকা থেকে আরো ৫০গ্রাম হেরোইনসহ আরেক আসামীকে গ্রেফতার করা হয়। টঙ্গী পূর্ব থানার পরিদর্শক তদন্ত মনিরুজ্জামান জানান, আসামীদের বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়েছে।

জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধি ; পাম্পে কৃত্রিম সংকট

বি এ রায়হান, বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশন (বিপিসি), ইস্টার্ন রিফাইনারি লিমিটেড (ইআরএল)-এ পরিশোধিত এবং আমদানি/ক্রয়কৃত ডিজেল, কেরোসিন, অকটেন ও পেট্রোলের মূল্য সমন্বয় করে ভোক্তা পর্যায়ে পুনর্নির্ধারণ করা হয়েছে। আজ (৫ আগস্ট) রাত ১২ টার পর থেকে ডিপোর ৪০ কিলোমিটারের ভিতর ভোক্তা পর্যায়ে খুচরা মূল্য ডিজেল ১১৪ টাকা/ লিটার, কেরোসিন ১১৪ টাকা/ লিটার, অকটেন ১৩৫  টাকা/লিটার ও পেট্রোল ১৩০ টাকা/ লিটার হবে। বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের উপপ্রধান তথ্য অফিসার মীর মোহাম্মদ আসলাম উদ্দিনের সই করা সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। অপর দিকে রাত পৌনে এগারোটার দিকে এই খবর ছড়িয়ে পরলে পেট্রোলপাম্প গুলোতে  কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করা হয়। এতে ভোগান্তিতে পড়েন পরিবহন সংশ্লিষ্টরা। অনেক স্থানে মোটরসাইকেল চালকরা মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন। পরে রাত বারটার পর নতুন নির্ধারিত দামে তেল বিক্রি শুরু হলে বাড়তি দামে তেল কিনে বাড়ি ফেরেন পরিবহন চালকরা।

গাজীপুরে মাদক সম্রাজ্ঞী মধু সপরিবারে গ্রেপ্তার

গাজীপুর প্রতিনিধিঃ গাজীপুর সদর এলাকা থেকে কুখ্যাত মাদক সম্রাজ্ঞী মধুসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ।  সোমবার (১ আগস্ট) নগরীর লক্ষীপুরা এলাকায় অভিযান চালিয়ে মধু (৪৫), তার স্বামী হাশেম (৫৬) ও মেয়ের জামাই কফিল উদ্দিনকে (৩০) গ্রেপ্তার করা হয়। তবে এসময় পালিয়ে যায় মধুর ছেলে সজীব (৩০)। এসময় সজীবের ব্যবহৃত কাঠের তালাবদ্ধ ড্রয়ার থেকে পাঁচ রাউন্ড পিস্তলের গুলি ও মাদক বিক্রির নগদ ৭৬ হাজার ২০০ টাকা উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় জিএমপির সদর থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ জানায়, রোববার (৩১ জুলাই) লক্ষীপুরা এলাকা থেকে মধুর মেয়ে আশাকে (৩০) দুই গ্রাম হেরোইনসহ গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে মধু, হাশেম ও কফিল উদ্দিনকে ২০ গ্রাম হেরোইনসহ গ্রেপ্তার করে পুলিশ।  জিএমপির উপ-কমিশনার জাকির হাসান জানান, প্রাথমিক তদন্তে জানা গেছে কুখ্যাত মাদক সম্রাজ্ঞী মধুর বিরুদ্ধে জয়দেবপুর, বাসন ও সদর থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে চারটি মামলা রয়েছে। তার স্বামী হাশেম আলীর বিরুদ্ধে জয়দেবপুর ও সদর থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে দুইটি এবং তার ছেলে সজীবের বিরুদ্ধে সদর থানায় তিনটি মামলা রয়েছে।  তিনি আরও জানান, এই মাদক ব্যবসায়ী পরিবার মাদক ব্যবসার মাধ্যমে তিনটি বাড়ি তৈরি করে এবং বিপুল পরিমাণ অর্থ উপার্জন করে। এলাকায় প্রভাব বিস্তার করা মাদক চক্রটির বিরুদ্ধে দীর্ঘদিন যাবৎ সাধারণ জনগণের বিভিন্ন ধরনের অভিযোগ রয়েছে।  গ্রেপ্তারকৃত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন বলেও জানান এই কর্মকর্তা।

গাজীপুরে ভোক্তা অধিকারের অভিযান

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরের হোতাপাড়া এলাকায় হুয়া থাই টাইলস নামক একটি টাইলস কারখানায় অভিযান পরিচালনা করেছে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। এসময় বিভিন্ন অপরাধে প্রতিষ্ঠানটিকে নগদ অর্থদন্ড করা হয়। জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক আব্দুল জব্বার মন্ডলের নেতৃত্বে পরিচালিত সোমবার দুপুরে এ অভিযান পরিচালিত হয়। এসময় আব্দুল জব্বার মন্ডল বলেন, হুয়া থাই টাইলস এ অভিনব প্রতারণার প্রমাণ পাওয়া গেছে। প্রতিষ্ঠানটির টাইলস তৈরির জন্য বিএসটিআই প্রদত্ত লাইসেন্স এর মেয়াদ শেষ হয়েছে ৩০ জুন ২০২০। পূর্বেকার লাইসেন্স অনুযায়ী ৩ পরিমাপের টাইলস তৈরির বিধান থাকলেও প্রতিষ্ঠানটি ৫ পরিমাপের টাইলস তৈরি করছে এবং প্রতিটি টাইলসে পরিমাপে কারচুপি করছে। ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ অনুযায়ী প্রতিষ্ঠানটিকে ২ লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয় এবং কেন প্রতিষ্ঠানটির এমডি/ প্রোপ্রাইটর এর বিরুদ্ধে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে না তার ব্যাখ্যা চেয়ে আগামীকাল অফিসে তলব করা হয়েছে। জনস্বার্থে এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানান তিনি।

টঙ্গীতে ভ্রাম্যমান আদালতের জরিমানা

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ   গাজীপুরের টঙ্গীর ষ্টেশন রোড এলাকায় সোমবার দুপুরে অবৈধ পলিথিন কারখানায় ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালিত হয়েছে। র‌্যাব সদর দপ্তরের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মাজহারুল ইসলামের নেতৃত্বে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় অবৈধ পলিথিন উৎপাদন ও মজুদ রাখার অপরাধে দু’টি প্রতিষ্ঠানকে নগদ অর্থ জরিমানা করা হয় এবং বিপুল পরিমান পলিথিন ও পলিথিন তৈরীর কাচাঁমাল জব্দ করা হয়। র‌্যাব সূত্রে জানা যায়, দুপুর ১২ টার দিকে স্থানীয় মাছিমপুর এলাকায় এম এন প্যাকেজিং ও এস এন ট্রেড নামক দু’টি পলিথিন কারখানায় র‌্যাবের ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালিত হয়। এ সময় কারখানা দু’টিতে অবৈধ পলিথিন উৎপাদন করার দায়ে ২ লাখ টাকা করে মোট ৪ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। সেই সাথে ৮৭৩ কেজি পলিথিন শপিং ব্যাগ ও ১৬২৫ কেজি কাঁচামাল জব্দ করা হয়। কারখানা ২ টি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

টঙ্গীতে দৃষ্টি প্রতিবন্ধীদের মাঝে নগদ অর্থ ও খাবার বিতরণ

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরের টঙ্গীর কো অপারেটিভ ব্যাংক মাঠ কলোনীতে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ও অসহায় ব্যাক্তিদের মাঝে রান্না করা খাবার ও নগদ অর্থ বিতরণ করা হয়েছে। সোমবার দুপুরে টঙ্গীর ৫৬ নং ওয়ার্ড মহিলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহবায়ক ময়না বেগমের উদ্যোগে এ আয়োজন করা হয়। এসময়ে প্রায় শতাধিক দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ও অসহায়ের মাঝে রান্না করা খাবার ও নগদ অর্থ বিতরণ করা হয়। এবিষয়ে কথা হলে ময়না বেগম বলেন, আবার বাবা মরহুম সিদ্দিকুর রহমান একজন দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ছিলেন। তাই আমি প্রতি বছর আমার বাবার স্মরণে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ও অসহায় ব্যক্তিদের মাঝে রান্না করা খাবার ও নগদ অর্থ বিতরণ করে থাকি। যতদিন বেঁচে থাকবো এসব দৃষ্টি প্রতিবন্ধিদের পাশে থাকবো ইনশাল্লাহ।

গাজীপুরে জামায়াতের ১৭ নেতাকর্মী গ্রেপ্তার

গাজীপুর প্রতিনিধিঃ গ্যাস-বিদ্যুতের বিপর্যয়ের প্রতিবাদে গাজীপুর মহানগরের বাসন ও গাছা থানা এলাকায় সড়ক অবরোধ করে রাষ্ট্রবিরোধী বিভিন্ন স্লোগান দেয়ার অভিযোগে জামায়াতের ১৭ নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। রোববার দিবাগত রাতে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। সোমবার দুপুরে মহানগর পুলিশ সদর দপ্তরের সম্মেলন কক্ষে এক সাংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানায় পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃতদের মধ্যে টঙ্গী পূর্ব থানা জামায়াতের আমির গাজীপুর মহানগরের ৪৯ নম্বর (দক্ষিণ) ওয়ার্ডের আমির আবু সুফিয়ান, টঙ্গী পূর্ব থানা জামায়াতের আমির ৪৯ নম্বর (উত্তর) ওয়ার্ডের আমির মো. রহমত উল্লাহ, টঙ্গী পূর্ব থানা জামায়াতের আইন বিষয়ক সম্পাদক তাজুল ইসলাম, তামিরুল মিল্লাতের বিজ্ঞান শিক্ষক মো. আশরাফুল আলম, মো. সিরাজুল ইসলাম, গাজীপুর মহানগর জামায়াতের রোকন মো. সানাউল্লাহর নামও রয়েছে। সাংবাদ সম্মেলনে মহানগর পুলিশের উপ কমিশনার মো. জাকির হাসান বলেন, ‘গত ৩০ জুলাই ও ৩১ জুলাই বাসন থানাধীন ভোগড়া বাইপাস এলাকায় ও জামায়াতে ইসলামের গাছা থানার সাইনবোর্ড এলাকায় কয়েকশ উচ্ছৃঙ্খল নেতাকর্মী ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ করে রাষ্ট্রবিরোধী বিভিন্ন স্লোগান ও জনমনে আতঙ্ক সৃষ্টি করে। এ সময় পুলিশ ভোগড়া এলাকা থেকে ৮ জন এবং সাইনবোর্ড এলাকা থেকে আরও ৯ জন উচ্ছৃঙ্খল নেতাকর্মীকে আটক করা হলে বাকিরা পালিয়ে গেছে। পরে তাদের নামে দ্রুতবিচার আইনে গাছা থানায় এবং বিশেষ ক্ষমতা আইনে বাসন থানায় দুইটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এদিকে সংবাদ সম্মেলন শেষে গ্রেপ্তারকৃতদের আদালতে পাঠানো হয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে গাজীপুর সদর সার্কেলের সহকারী পুলিশ কমিশনার রিপন চন্দ্র সরকার, সহকারী কমিশনার (গোয়েন্দা) আবু সায়েম নয়ন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

কুলখানিতে সন্ত্রাসী হামলা মুক্তিযোদ্ধাসহ আহত ৬

টংগী প্রতিনিধিঃ গাজীপুর টংগীর এরশাদনগর এলাকায় কুলখানি অনুষ্ঠান চলাকালীন বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজ মিয়া সহ ৬ জনের উপর সন্ত্রাসী হামলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। শুক্রবার দুপুর ৩ টার দিকে ২নং ব্লক এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এঘটনায় ৫ জনকে অভিযুক্ত করে টঙ্গী পূর্ব থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। অভিযুক্তরা হলেন, ৩নং ব্লকের মঞ্জু (২৩), ২নং ব্লকের জাহিদ (২৪), ৫নং ব্লকের ইমন (২৩), ৩নং ব্লকের অপু(২৩), ও ১নং ব্লকের আমির হোসেনের ছেলে সোহাগ(২২)। অভিযোগ সূত্রে জানা যায় ২ নং ব্লক এলাকায় রাস্তা উপর কুলখানির একটি অনুষ্ঠান চলাকালীন সময় অভিযুক্ত মঞ্জু রিক্সা দিয়ে ওই পথে যাচ্ছিল। এ সময় ফুলমতি নামের এক মহিলা তাকে অন্য রাস্তা ব্যবহার করতে বললে সে ক্ষিপ্ত হয়ে বকবিতন্ডায় জরায়। পরে মঞ্জু সশস্ত্র সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে এসে কুলখানির অনুষ্ঠানে অতর্কিত হামলা চালায় এতে একজন মুক্তিযোদ্ধাসহ বেশ কয়েকজন আহত হয়। পরে এলাকাবাসী ক্ষুব্ধ হয়ে হামলাকারী কয়েক জনকে আটক করে গণপিটুনি দেয়। স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, মঞ্জু ওয়ার্ড যুবদলের সভাপতি আনোয়ার উরফে টিভি আনোয়ারের ভাগিনা এবং পুলিশের সাথে বন্দুক যুদ্ধে নিহত শীর্ষ সন্ত্রাসী কাউসারের ঘনিষ্ঠ সহচর। তার নামে রাসেল হত্যাসহ একাধিক মামলা রয়েছে, এক সময়কার শীর্ষ সন্ত্রাসী মঞ্জু প্রশাসনের ভয়ে বিদেশ পাড়ি দিয়ে গা ঢাকা দেয়। দীর্ঘদিন বিদেশ থাকার পরে সম্প্রতি আবার দেশে ফিরে সন্ত্রাসের সাম্রাজ্য তৈরীর পায়তারা চালাচ্ছে। এলাকায় প্রকাশ্যে অস্ত্রশস্ত্রসহ প্রায়ই মহড়া দিতে দেখা যায় তাকে। এতে আতঙ্কিত হয়ে পড়েছে স্থানীয়রা। প্রশাসনের হস্তক্ষেপে দীর্ঘদিন এলাকা  সন্ত্রাসমুক্ত থাকলেও মঞ্জুর আগমনে আবারো সন্ত্রাসী সাম্রাজ্য কায়েম হয়েছে। এসব সন্ত্রাসীদের হাত থেকে এরশাদনগর এলাকাকে মুক্ত করতে প্রশাসনের কঠোর নজরদারির দাবি জানান তারা। টংগী পূর্ব থানার অফিসার ইনচার্জ জাভেদ মাসুদ জানান এ ঘটনায় থানায় লিখত অভিযোগ দায়ের হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

মসজিদ মার্কেটে বিটিএমসি’র অবৈধ হস্তক্ষেপ বন্ধের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

গাজীপুর প্রতিনিধিঃ গাজীপুরের টঙ্গীর মিলগেট অলিম্পিয়া মতি মসজিদ মার্কেটে বিটিএমসি’র অবৈধ হস্তক্ষেপ বন্ধের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেছেন মসজিদ পরিচালনা কমিটি ও এলাকার মুসুল্লিরা। শুক্রবার বাদ জুমা মসজিদ প্রাঙ্গণে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন মসজিদ কমিটির সভাপতি ও স্থানীয় কাউন্সিলর আবুল হাসেম, দপ্তর সম্পাদক হাসানুজ্জামান মল্লিক, কোষাধ্যক্ষ একেএম শাহাবুদ্দিন মজুমদার, মাছিমপুর কো অপারেটিভ মার্কেটের সভাপতি আবু সাকের, অলিম্পিয়া বর্জিত তুলা মার্কেটর সভাপতি জাকির হোসেন, শরিয়ত উল্লাহ গুরু, হারুন-অর-রশিদ, আব্দুল জলিল, জামাল উদ্দিন, নূরুজ্জামান, আব্দুর রহমান বাবু, নাসির উদ্দিন, আব্দুর রহিমসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও মুসুল্লিগণ। লিখিত বক্তব্যে মসজিদ পরিচালনা কমিটি জানান, অলিম্পিয়া টেক্সটাইল মিলের তৎকালীন পশ্চিম পাকিস্তানের মালিক ষাটের দশকের শুরুতে ৮০ শতাংশ জমির ওপর মসজিদটি প্রতিষ্ঠা করেন। প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই মসজিদটি অলিম্পিয়া টেক্সটাইল মিলের তত্ত্বাবধানে ছিল। মিলটি জাতীয়করণের পর বাংলাদেশ টেক্সটাইল মিলস করপোরেশন (বিটিএমসি) মসজিদ পরিচালনার দায়িত্ব নেয়। মসজিদের ইমাম, খতিব, মোয়াজ্জিন, খাদেমদের বেতন বিটিএমসি পরিচালিত অলিম্পিয়া টেক্সটাইল মিল থেকেই পরিশোধ করা হতো এবং মসজিদ মার্কেটের ভাড়া মিল কর্তৃপক্ষ উত্তোলন করতো। বিগত ২০০১ সালের ২১ মার্চ অলিম্পিয়া টেক্সটাইল মিলসহ রাষ্ট্রায়ত্ব ৯টি বৃহৎ বস্ত্রকল শ্রমিক মালিকানায় হস্তান্তর করা হয়। পরবর্তীতে সরকারের বিরাষ্ট্রীয়করণ নীতিমালার আলোকে প্রাইভেটাইজেশন কমিশন মিলের উদ্বৃত্ত জমি প্লট আকারে বিভিন্ন শিল্পোদ্যোক্তার কাছে হস্তান্তর করে। উদ্বৃত্ত জমি হস্তান্তরকালে অলিম্পিয়া মসজিদ মার্কেটের ২৭টি দোকানের মধ্যে ১৭টি দোকানই হস্তান্তরিত নতুন প্লটের ভেতর পড়ায় ভেঙ্গে দেয়া হয়। মসজিদের নিজস্ব জমির ওপর বাকি ১০টি দোকানই বর্তমানে অত্র মসজিদের একমাত্র আয়ের উৎস। কিন্তু মসজিদ মার্কেটের দোকান ভাড়া বিটিএমসি সম্পূর্ণ অবৈধ ও এখতিয়ার বহির্ভূতভাবে উত্তোলন করে নিয়ে যাচ্ছে। এতে একমাত্র আয়ের উৎসটি বন্ধ হওয়ায় আর্থিক সংকটে ঐতিহ্যবাহী মসজিদটি রক্ষণাবেক্ষণ ও সঠিক পরিচালনার অভাবে জরাজীর্ণ হয়ে পড়ছে। তাই মসজিদ মার্কেটের আয়ের অংশ মসজিদ পরিচালনা ফান্ডে জমা দেয়ার জন্য শংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট জোড়ালো দাবি জানিয়েছেন মসজিদ কমিটি।

টঙ্গীতে ইলেকট্রনিকস মার্কেটে ভোক্তা অধিকারের অভিযান

গাজীপুর প্রতিনিধিঃ গাজীপুরের টঙ্গীতে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের নাম ব্যবহার করে নকল ইলেকট্রনিকস পণ্য বিক্রি ও অতিরিক্ত দামে চার্জার লাইট এবং ফ্যান বিক্রির অভিযোগে ৪টি প্রতিষ্ঠানকে ৫ লাখ টাকা জরিমানা করেছে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। গতকাল বুধবার দুপুরে টঙ্গী বাজার ইলেকট্রনিকস মার্কেটে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক আব্দুল জব্বার মন্ডল এ অভিযান পরিচালনা করেন। এসময় বিভিন্ন ব্র্যান্ডের নকল পণ্য বিক্রি ও জালিয়াতি করে টেলিভিশনের সফটওয়্যার পরিবর্তন করার অভিযোগে মা মনি ইলেকট্রনিক্সকে ২ লাখ টাকা জরিমানা করা হয় ও সাত দিনের জন্য বিপনন কার্যক্রম বন্ধ করা হয়। এছাড়াও বিসমিল্লাহ ইলেকট্রনিক্সকে ২লাখ টাকাসহ ৪টি প্রতিষ্ঠানকে মোট ৫ লাখ টাকা জরিমানা ও আদায় করা হয়। পরে উৎপাদন, মেয়াদউত্তীর্ণ ও তারিখ জালিয়াতি করে বেকারি পণ্য বিক্রির অপরাধে আল এ্যারাবিয়ান কেক অ্যান্ড সুইটসকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর।

টঙ্গীতে জমি সংক্রান্ত বিরোধে বড় ভাইকে মারধর

গাজীপুর প্রতিনিধিঃ গাজীপুরের টঙ্গীতে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে বড় ভাই গিয়াস উদ্দিনের উপর হামলা চালিয়েছে তারই আপন ছোট ভাই নাইম ও ভাতিজা ছাকিবসহ তাদের দলবল। এঘটনা পাঁচজনকে অভিযুক্ত করে টঙ্গী পশ্চিম থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করছেন ভুক্তভোগী বড় ভাই। অভিযুক্তরা হলেন, গাজীপুরের টঙ্গীর দেওড়া এলাকার আঃ মান্নানের ছেলে ছাকিব, একই এলাকার আমজাদ আলী ফকিরের ছেলে নাগর আলী উরফে বুক্কাইনা, নুরুল ইসলামের ছেলে নাইম ও তার ভাই সাহাবউদ্দিন, এবং সাহাবউদ্দিনের স্ত্রী মরিয়ম বেগম। অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, ছোট ভাই সাহাবউদ্দিনের সাথে দীর্ঘদিন যাবৎ পৈতৃক সম্পদ নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল বড় ভাই গিয়াস উদ্দিনের সাথে। এই সংক্রন্ত একটি মামলায় আদালত থেকে গত ১১ এপ্রিল রায় পান তিনি। আদালতের রায়কে অমান্য করে অভিযুক্তরা দীর্ঘদিন যাবৎ তার পরিবারের সাথে বিরোধ করে আসছিল। গত ২৩ জুলাই দুপুরে অভিযুক্তরা অতর্কিত তার বাসায় ডুকে হামলা চালায়। এসময় তারা তার বসতঘরে ব্যাপক ভাঙচুর চালায়। এতে বাধা দিতে গেলে তারা গিয়াস উদ্দিনের উপর হামলা চালিয়ে তাকে গুরুতর আহত করেন। টঙ্গী পশ্চিম থানার অফিসার ইনচার্জ শাহ আলম জানান, এ ঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

গাজীপুরে পুকুরে ভাসছিল হাত-পা বাঁধা নারীর মরদেহ

গাজীপুর প্রতিনিধিঃ গাজীপুরের শ্রীপুরের টেপিরবাড়ি এলাকায় একটি পুকুর থেকে হাত-পা ও কোমরে ইট বাঁধা এক নারীর অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার (২৫জুলাই) বেলা ১২টায় উপজেলার টেপিরবাড়ি গ্রামের মৃত ইদ্রিস আলীর মালিকানাধীন পুকুরে ভাসমান অবস্থায় অজ্ঞাত ওই নারীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। শ্রীপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মাহফুজ ইমতিয়াজ ভুঁইয়া জানান, পুকুরে মরদেহ ভেসে থাকার খবরে সোমবার বেলা ১২টায় ঘটনাস্থলে যায় পুলিশ। পরে ঘটনাস্থলে থেকে মরদেহ উদ্ধার কর হয়। মরদেহের দুটি হাত-পা বাঁধা, কোমরে তিনটি ইট বাঁধা অবস্থায় ছিল। ধারনা করা হচ্ছে অন্য কোথাও হত্যা করে মরদেহ পুকুরে এনে ফেলে রেখেছে। হত্যাকান্ডের রহস্য উদঘাটনে পুলিশ কাজ শুরু করেছে। এছাড়াও পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) নারীর পরিচয় শনাক্তে কাজ শুরু করেছে।

টঙ্গীতে পোশাক কারখানার ভিতরে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে শ্রমিক নিহত

গাজীপুর প্রতিনিধিঃ গাজীপুরের টঙ্গীর সিংবাড়ী এলাকায় পাটোয়ারী ফ্যাশন লিঃ নামক একটি পোষাক কারখানায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে সাকিব (২০) নামে এক শ্রমিক নিহত হয়েছেন। রবিবার সকাল দশটার দিকে কারখানার ৩য় তলার কাটিং সেকশনে এ ঘটনা ঘটে। নিহত সাকিব গাজীপুর জেলার টঙ্গী পশ্চিম থানা বড় দেওড়া চন্ডীতলা এলাকার জাকির মিয়ার ছেলে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রবিবার সকালে প্রতিদিনের ন্যায় কারখানায় কাজ করছিলেন সাকিবসহ উপস্থিত শ্রমিকরা। এসময় হঠাৎ করে ৩য় তলার জানালার থাই গ্লাস খুলে ভবনের বাইরে থাকা বিদ্যুৎ লাইনের উপর পরে যায়। নিহত সাকিব কারখানার ভিতর থেকে জানলা দিয়ে সেই থাই গ্লাসটি উঠানোর চেষ্টা করলে সাথে সাথে  বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। পরে খবর পেয়ে টঙ্গী পশ্চিম থানার অফিসার ইনচার্জ ও ফায়ার সার্ভিসের উদ্ধারকারী দল ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয় মরদেহ উদ্ধার করে  পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে। পাটোয়ারী ফ্যাশন লিঃ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক জাকির পাটোয়ারী বলেন, অপ্রত্যাশিত ভাবে একটি দূর্ঘটনা ঘটে গেছে। নিহত পরিবারকে আমরা ক্ষতি পূরণ দেওয়ার চেস্টা করবো। সকলের সহগোগিতা চাই। টঙ্গী পশ্চিম থানার অফিসার ইনচার্জ মো. শাহ আলম জানান, প্রয়োজনীয় ব্যবস্থার গ্রহন করার লক্ষ্যে লাশ উদ্ধার করে শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়।

মিথ্যা মামলার প্রতিবাদে টঙ্গীতে ছাত্রদলের বিক্ষোভ।

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি কাজী রওনকুল ইসলাম শ্রাবণ ও সাধারণ সম্পাদক সাইফ মাহমুদ জুয়েলসহ কেন্দ্রীয় বিএনপি ও ছাত্রদলের নেতৃবৃন্দের বিরুদ্ধে  মিথ্যা মামলার প্রতিবাদে গাজীপুরের টঙ্গীতে  বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার বিকেলে ঢাকা ময়মনসিংহ মহাসড়কের চেরাগ আলী মার্কেট এলাকা থেকে মিছিলটি শুরু হয়ে গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট প্রদক্ষিণ করে কলেজ গেট এলাকায় গিয়ে শেষ হয়। গাজীপুর মহানগর ছাত্রদলের সহ-সভাপতি মাহমুদুল হাসান মিরন এর নেতৃত্ব মিছিলে উপস্থিত ছিলেন পুবাইল থানা ছাত্রদলের আহবায়ক রাজিব মিয়া, পূর্ব থানা ছাত্রদলের সদস্য সচিব আসাদুজ্জামান মামুন, টংগী পশ্চিম থানা ছাত্রদলের সদস্য সচিব আরেফিন সিদ্দিক বুলবুল, টংগী সরকারি কলেজ ছাত্রদল এর সদস্য সচিব কাউছার হোসেন, যুগ্ন আহবায়ক মেহেদি হাসান আরিফ, গাজীপুর মহানগর ছাত্রদল সহ সভাপতি সেলিম হোসেন, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফুল ইসলাম সাবু, পারভেজ মারুফ, সহ সাধারন সম্পাদক রমজান হোসেন, রাকিব, সম্পাদক মন্ডলী রায়হান,পলাশ, জেনিস, মিথুন, জাহাঙ্গীর, নাঈম, রাসেদ, রায়হান ঢালি সহ বিভিন্ন ওয়ার্ড ও ইউনিট এর নেতৃবৃন্দ।

টঙ্গীতে আলোচিত মাদক কারবারি শিরিনসহ গ্রেফতার ৩

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরের টঙ্গী থেকে ২৯২৫ পিস ইয়াবাসহ আলোচিত মাদক কারবারি শিরিন আক্তারসহ ৩ মাদক কারবারিকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব ৩ এর সদস্যরা। বুধবার সকালে টঙ্গীর উত্তর আরিচপুর হাফিজ উদ্দিন ব্যাপারী রোডের এডঃ আব্দুস সাত্তারের বাড়ি থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, শরীয়তপুর জেলার গোসারহাট থানার গোসাইপাট্রি গ্রামের মৃত মঙ্গল সরদারের মেয়ে শিরিন আক্তার(৪০), কক্সবাজার জেলার রামু থানার উখিয়ার ঘোনা গ্রামের আব্দুর রহিমের ছেলে রুবেল (৩২) ও একই জেলার ঈদগাঁও থানার দক্ষিন মাইজপাড়া গ্রামের আমির হোসেনের ছেলে সোহেল (৩১)। র‍্যাব জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‍্যাব ৩ এর একটি অভিযানিক দল টঙ্গীর উত্তর আরিচপুর হাফিজ উদ্দিন ব্যাপারী রোডের এডঃ আব্দুস সাত্তারের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করে। এসময় তাদের কাছ থেকে ২ হাজার ৯ শত ২৫ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট ৬টি মোবাইল ফোন ও নগদ ৬৮ হাজার ৬ শত ৯৫ টাকা উদ্ধার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় তারা দীর্ঘদিন যাবৎ পরস্পরের যোগসাজশে টঙ্গী গাজীপুর সহ পার্শ্ববর্তী অঞ্চলে মাদক ব্যবসা করে আসছিল। গ্রেপ্তারকৃত আসামিদের বিরুদ্ধে নিয়মিত আইনে মামলা দায়ের করে টঙ্গী পূর্ব থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

টঙ্গীতে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ   বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে নিয়ে আওয়ামী নেতার অশালীন ভাষায় বক্তব্যের প্রতিবাদে গাজীপুর মহানগর ছাত্রদলের সহ সভাপতি মাহমুদুল হাসান মিরন এর নেতৃত্বে টঙ্গীতে বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার দুপুরে টঙ্গীর স্টেশন রোড এলাকা থেকে মিছিলটি শুরু হয় ঢাকা ময়মনসিংহ মহাসড়কের গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট প্রদক্ষিণ করে মুধুমিতা রোডে গিয়ে শেষ হয়। মিছিলে উপস্থিত ছিলেন পুবাইল থানা ছাত্রদলের আহবায়ক রাজিব মিয়া, টঙ্গী পূর্ব থানা ছাত্রদলের সদস্য সচিব আসাদুজ্জামান মামুন, টংগী পশ্চিম থানা ছাত্রদলের সদস্য সচিব আরেফিন সিদ্দিক বুলবুল,  টংগী সরকারি কলেজ ছাত্রদলের সদস্য সচিব কাউছার হোসেন,যুগ্ন আহবায়ক মেহেদি হাসান আরিফ, গাজীপুর মহানগর ছাত্রদল সহ সভাপতি সেলিম হোসেন, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফুল ইসলাম সাবু, পারভেজ মারুফ, সহ সাধারন সম্পাদক রমজান হোসেন, রাকিব, রায়হান, পলাশ, জেনিস, মিথুন, জাহাঙ্গীর, নাঈম, রাসেদ, রায়হান ঢালিসহ বিভিন্ন ওয়ার্ড ও ইউনিট এর নেতাকর্মীবৃন্দ।

কারাফটকে হাজতির কাছে থেকে মাদক-মোবাইল উদ্ধার।

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ  কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার-১ এর হাজতি বুলবুল ইসলাম ঢাকা জজ কোর্টে মামলার হাজিরা দিয়ে ফেরার পর কারা ফটকে তার দেহ তল্লাশি করে গাঁজা, ইয়াবা ও কিছু ক্যাবলসহ পাঁচটি মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়েছে। রোববার (১৭ জুলাই) সন্ধ্যা সোয়া ৭টার দিকে কারাগারের ফটকে হাজতির দেহ তল্লাশি করে এসব জব্দ করা হয়। কারাগারের জেলার মো. তরিকুল ইসলাম বলেন, কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার-১ এর হাজতি বুলবুল ইসলামকে সকালে হাজিরা দেওয়ার জন্য ঢাকার জজ কোর্টে পাঠানো হয়। হাজিরা শেষে পুনরায় তাকে কারাগারে ফেরত আনা হয়। কারাগারে ঢোকার আগে ফটকে অন্যান্য হাজতিসহ বুলবুলেরও দেহ তল্লাশি করা হয়। এ সময় তার লুঙ্গির ভেতরে সেলাই করা কালো কাপড়ের পকেট থেকে ২৫ পিস ইয়াবা, ৩০০ গ্রাম গাঁজা ও পাঁচটি মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়। জেল কোড অনুযায়ী তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। বুলবুল ঢাকার দারুস সালাম থানার বিশেষ ক্ষমতা আইনের মামলায় গ্রেপ্তার হওয়ার পর ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে ২০১৫ সালর ১৫ জুলাই এখানে স্থানান্তর করা হয়। একই থানায় তার বিরুদ্ধে দুটি মামলা রয়েছে।

গাজীপুরে বিআরটি প্রকল্পের গার্ডার পড়ে নিহত ১; আহত ২

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ     গাজীপুর মহানগরীর চান্দনা চৌরাস্তা এলাকায় ঢাকা ময়মনসিংহ মহাসড়কে চলমান বিআরটি প্রকল্পের গার্ডার ছিটকে পড়ে এক নিরাপত্তা কর্মী  নিহত হয়েছেন । এ ঘটনায় এক পথচারী এবং অপর এক শ্রমিক আহত হয়েছেন। শুক্রবার বিকেল পাঁচটার দিকে এ ঘটনা ঘটে। নিহত শ্রমিক জিয়াউর রহমান (৩০) ময়মনসিংহের ধোবাউড়া থানার মধ্যশালকুন গ্রামের মৃত সিরাজুল ইসলামের ছেলে। তিনি বিআরটি প্রকল্পের নিরাপত্তাকর্মীর কাজ করতেন। গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ কমিশনার (উত্তর) জাকির হাসান জানান, বিকেলে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের চৌরাস্তা এলাকায় চলমান বাস র‍্যাপিড ট্রানজিট (বিআরটি) প্রকল্পের নির্মাণকাজ চলছিল। টেইলার গাড়িতে করে ফ্লাইওভারের লঞ্চিং গার্ডার নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। এসময় লঞ্চিং গার্ডারটি টেইলার থেকে স্লিপ করে পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই এক শ্রমিকের মৃত্যু হয়। আহত অপর এক শ্রমিক ও এক পথচারীকে উদ্ধার করে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। তাদের নাম-পরিচয় এখনও পাওয়া যায়নি।

টঙ্গীতে বিষপানে নারী পোষাক শ্রমিকের মৃত্যু

গাজীপুর প্রতিনিধি: গাজীপুরের টঙ্গীতে বিষপান করে আত্মহত্যা করেছেন তানিয়া (১৭)নামে এক নারী পোষাক শ্রমিক। শুক্রবার বেলা এগারোটার দিকে টঙ্গীর শীলমুন যুগীবাড়ি এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। নিহত তানিয়া টাঙ্গাইল জেলার ঘাটাইল থানার বাইশকাইল গ্রামের মহির উদ্দিনের মেয়ে। সে স্বপরিবারে জনৈক মনিরের ভাড়া বাড়িতে থেকে স্থানীয় একটি পোষাক কারখানায় চাকরি করতো। স্বজনদের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, বাসার কাউকে কিছু না জানিয়ে নিজের রুমে থাকা ইঁদুর মারার ঔষধ খেয়ে পাশের রুমে থাকা বাবা মায়ের সামনে গিয়ে বমি করতে থাকেন তানিয়া। এসময় তার বাবা মা বমি করার কারন জানতে চাইলে সে চোখের ইসারায় ইঁদুর মারার ঔষধের প্যাকেটটি দেখায়। পরে তার বাবা মা ও স্থানীয়রা তাকে চিকিৎসার জন্য টঙ্গীর শহীদ আহসান উল্লাহ মাষ্টার জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে বেলা সাড়ে বারটার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। টঙ্গী পূর্ব থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মনিরুজ্জামান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে প্রেরন করা হয়েছে।

টঙ্গীতে স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা চেষ্টা

টঙ্গী (গাজীপুর) প্রতিনিধিঃ গাজীপুরের টঙ্গীতে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে আরিফুল ইসলাম রাজু (২৫) নামে এক স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা করার চেষ্টা করেছে দুর্বৃত্তরা। আহত রাজু ৪৩ নং ওয়ার্ড স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী। এঘটনায় আহত রাজুর স্ত্রী ইসরাত জাহান ইসা বাদী হয়ে পাঁচজনকে অভিযুক্ত করে টঙ্গী পূর্ব থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। অভিযুক্তরা হলেন, টঙ্গীর পাগার সোসাইটি মাঠ এলাকার শহীদ মিয়ার ছেলে রতন মিয়া (২৫) ও তার সহোদর ভাই হিরা (১৬), একই এলাকার মৃত আয়াত আলীর ছেলে জুবায়ের হোসেন (৪৫) এবং পাগার হাজী মার্কেট এলাকার সেলিম পাঠান ও তার ছেলে বাঁধন (২০)। ভুক্তভোগী রাজু জানায় জাল টাকা বিক্রিতে বাঁধা দেওয়া ও স্ত্রীকে উত্যক্ত করার প্রতিবাদ করায় গত ২৭ জুন দুপুরে সোসাইটি মাঠ এলাকায় রতনের নেতৃত্বে তার বাসার সামনে রাজুকে ডেকে নিয়ে গিয়ে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে যখম করে সন্ত্রাসীরা। পরে তার ডাক চিৎকারে আশপাশের মানুষ এগিয়ে এলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। এসময় স্থানীয়রা তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে টঙ্গীর শহীদ আহাসান উল্লাহ মাষ্টার জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করেন। পরে সেখান থেকে সার্জারি শেষে তাকে হাসপাতালে ভর্তি রাখা হয়। টঙ্গী পূর্ব থানার উপ পরিদর্শক কায়ছার হাসান জানান এঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। আসামীদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

টঙ্গীতে মাদকের বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশ করায় সাংবাদিককে প্রাণনাশের হুমকি

গাজীপুর প্রতিনিধিঃ  গাজীপুরের টঙ্গীর কুখ্যাত মাদক কারবারি পারুল আক্তার ওরফে পারুলী’র বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশ করায় দৈনিক সকালের সময় পত্রিকার সাংবাদিক শেখ মো. রাজীব হাসানকে প্রাণনাশের হুমকি প্রদান করেছে পারুলী আক্তারের স্বামী মানিক ও তার সহযোগীরা। মঙ্গলবার দুপুরে টঙ্গীর এরশাদ নগর বড়বাজার এলাকায় সাংবাদিক শেখ মো. রাজিব হাসানকে প্রকাশ্যে সকলের সামনে মারধর ও হত্যার হুমকি প্রদান করা হয়। এঘটনায় নিজের ও তার পরিবারের নিরাপত্তার জন্য টঙ্গী পূর্ব থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছেন ভুক্তভোগী সাংবাদিক রাজীব হাসান। সাধারণ ডায়েরী নং-১৭৮৩। সাধারণ ডায়েরি সূত্রে জানা যায়, গত ২৭ জুন ২০২২ ইং তারিখে জাতীয় দৈনিক সকালের সময় পত্রিকায় "টঙ্গীতে মাদক সম্রাজ্ঞী পারুলী ও তার স্বর্গরাজ্য" শিরোনামে সংবাদ প্রকাশ হয়। এ সংবাদ প্রকাশ হওয়ায় মাদক সম্রাজ্ঞী পারুলীর নির্দেশে তার স্বামী মানিকসহ একদল সন্ত্রাসী ক্ষিপ্ত হয়ে মঙ্গলবার বেলা ১টার সময় এরশাদনগর যাকাত বোর্ড শিশু হাসপাতালের বীপরিত পাশের তানিয়া টেলিকম এ প্রবেশ করে শেখ রাজীব হাসানকে হাত পা ভেঙ্গে দেওয়ারসহ প্রকাশ্যে হত্যার হুমকি দেয়। টঙ্গী পূর্ব থানার অফিসার ইনচার্জ জাবেদ মাসুদ জানান, এ ঘটনায় থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থাগ্রহণ করা হবে।

টঙ্গীতে স্বামীর পুরুষাঙ্গ কাটলেন স্ত্রী

গাজীপুর প্রতিনিধি: গাজীপুরের টঙ্গীতে পারিবারিক কলহের জেরে স্বামীর পুরুষাঙ্গ কেটে ফেললেন স্ত্রী। রোববার মধ্যরাতে স্থানীয় পশ্চিম আরিচপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ঘটনাটি জানাজানি হলে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়। অভিযুক্ত স্ত্রী সাথী আরা বেগমকে (৩৪) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সাথী আরা বেগম রাজশাহী জেলার গোদাগাড়ী থানার পাকড়ী গ্রামের ইনসান আলীর মেয়ে। নির্যাতিত স্বামী মনির হোসেন (৩৭) লক্ষীপুর জেলা সদরের বুদাগাজী বাড়ি গ্রামের শাহ আলমের ছেলে। টঙ্গী পূর্ব থানার এসআই কাজী নেওয়াজ জানান, তারা উভয়ে ওই এলাকার আব্দুল হামিদের বাড়ির ভাড়া বাসায় থাকেন। সাংসারিক খুঁটিনাটি বিষয় ও চারিত্রিক দোষ-ত্রæটি নিয়ে তাদের মধ্যে দির্ঘদিন যাবত ঝগড়া-বিবাদ চলছিল। এরই জের ধরে রোববার মধ্যরাতে স্বামী মনির হোসেনকে হত্যার উদ্দেশ্যে কাপড় কাটার কেচি দিয়ে তার পুরুষাঙ্গের গোড়া থেকে অর্ধেক কেটে ফেলে সাথী আরা। এ সময় তার ডাক-চিৎকারে আশপাশের লোকজন জড়ো হয়ে তাৎক্ষনিক উদ্ধার করে টঙ্গী শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে চিকিৎসা শেষে মনির হোসেনকে বাসায় নিয়ে যায় স্বজনরা। এ ঘটনায় ভুক্তভোগি বাদী হয়ে টঙ্গী পূর্ব থানায় লিখিত অভিযোগ করেন। টঙ্গী পূর্ব থানার অফিসার ইনচার্জ জাবেদ মাসুদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় মামলা ও অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

টঙ্গীতে পূর্ব শত্রুতার জেরে আন্তঃজেলা পরিবহনে হামলা

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ   গাজীপুরের টঙ্গীতে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ঢাকা-নোয়াখালী রুটের ঢাকা এক্সপ্রেস পরিবহনে (ঢাকা মেট্রো ব-১৫-৯১২২) হামলা চালিয়েছে দুর্বৃত্তরা। সোমবার ভোররাতে টঙ্গী চেরাগ আলী এলাকায় পরিবহন কাউন্টারের সামনে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় গাড়িতে থাকা চালক রিয়াজ (২৬), সুপারভাইজার সায়েম হোসেন (২৮) ও হেলপার সোহেল (৩২) গুরুতর আহত হন। এ ঘটনায় টঙ্গী পূর্ব থানায় ফারুক (২৬) ও অজ্ঞাত ১০/১২জনকে অভিযুক্ত করে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন পরিবহন কর্তৃপক্ষ। অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, আন্তঃজেলা পরিবহন ঢাকা এক্সপ্রেস এর একটি বাস নোয়াখালী থেকে যাত্রী নিয়ে টঙ্গীর চেরাগ আলী এলাকায় এসে যাত্রা শেষ করে। পরে কাউন্টারের সামনে গাড়ি রেখে বিশ্রাম করছিলেন গাড়ি চালক, হেলপার, ও সুপার ভাইজার। এসময় ফারুকের নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী অতর্কিত ভাবে গাড়িতে হামলা করে চালককে কুপিয়ে জখম করে ও সুপারভাইজার ও হেলপারকে বেধরক মারধর করে গাড়িতে থাকা নগদ ২৫ হাজার টাকা ও চারটি মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে টঙ্গীর  শহীদ আহসান মাষ্টার জেনারেল হাসপাতালে প্রেরন করে। টঙ্গী পূর্ব থানার অফিসার ইনচার্জ জাবেদ মাসুদ চ্যানেল ফোরকে জানান, এঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

ক্যাবল অপরারেটর সহকারীর ছদ্মবেশে ডাকাত ধরলো পুলিশ

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ   ক্যাবল অপরারেটরের সহকারীর ছদ্মবেশ ধারন করে রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে সোহেল (২৫) ও শুক্কুর আলী ওরফে মোঃ সুজন মিয়া (৩২) নামে দুই দূর্ধর্ষ ডাকাতকে গ্রেফতার করেছে টঙ্গী পশ্চিম থানা পুলিশ। শনিবার দিনভর অভিযান চালিয়ে রাজধানীর শাহজাহানপুর ও মোহাম্মদপুর থানা এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। এসময় তদের কাছ থেকে লুন্ঠিত মালামাল উদ্ধার করা হয়। গ্রেফতারকৃত, সোহেল ভোলা জেলার দোলারহাট থানার নুরাবাদ গ্রামের আবুল কালামের ছেলে ও  শুক্কুর আলী ওরফে মোঃ সুজন মিয়া চাঁদপুর জেলার মতলব উত্তর থানার রানদাজপুর গ্রামের সামাদ খান ওরফে মোতালেব খানের ছেলে। টঙ্গী পশ্চিম থানার উপ পরিদর্শক শুভ মন্ডল জানান, গত ১৬ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় টঙ্গীর কাদেরিয়া গেট এলাকার ঢাকা ষ্টীল ওয়ার্কস লিঃ নামক প্রতিষ্টানে ১০/১২ জনের এক দল ডাকাত দেশীয় অস্ত্রের মুখে ফ্যাক্টরীর কর্মকর্তা, কর্মচারী ও নিরাপত্তাকর্মীদের জিম্মি ও মারধর করে ২৭হাজার টাকা মূল্যের মালামাল, নগদ ৩০ হাজার টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার লুট করে নিয়ে যায়। এঘটনায় তিনজনকে গ্রেফতার করা হলেও মূল পরিকল্পনাকারীরা দীর্ঘদিন যাবৎ পলাতক ছিল। তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় ও সহকারি পুলিশ কমিশনার মেহেদী হাসানের দিক নির্দেশনায় সম্প্রীত তাদের অবস্থান নিশ্চিত হওয়ার পর রাজধানীর মোহাম্মদপুরের ঢাকা উদ্যান এলাকায় ক্যাবল অপরারেটরের সহকারীর ছদ্মবেশ ধারণ করে ডাকাতির ঘটনার মূল পরিকল্পনাকারী আসামী সোহেলকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তার দেয়া তথ্য মতে রাজধানীর শাহজাহানপুর রেলওয়ে কলনী থেকে উপর আসামী শুক্কুর আলী ওরফে মোঃ সুজন মিয়াকে গ্রেফতার করা হয়। এসময় তার কাছথেকে ২০হাজার ২ শত টাকা ও একজোড়া স্বর্ণের কানের দুল উদ্ধার করা হয়। পশ্চিম থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ শাহ আলম জানান, গ্রেফতারকৃত ডাকাতরা খুবই দুর্ধর্ষ তাদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। তাদেরকে বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

গাজীপুরে ঝুট গুদামের অগ্নিকান্ড

গাজীপুর প্রতিনিধিঃ  গাজীপুরের মহানগরীর কোনাবাড়ির দেওয়ালিয়াবাড়ি এলাকায় ঝুটের গুদামে আগুনের ঘটনা ঘটেছে। ফায়ার সার্ভিসের পাঁচটি ইউনিটের তিন ঘন্টার চেষ্টায় নিয়ন্ত্রণে এসেছে ঝুট গুদামের আগুন। বুধবার (২২ জুন) সকাল পৌনে পাঁচটার দিকে ওই ঝুট গুদামে আগুনের সূত্রপাত হয়। প্রথমে স্থানীয়রা আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করে। কিন্তু আগুন অন্য গুদামে ছড়িয়ে পড়লে ফায়ার সার্ভিসে খবর দেওয়া হলে ফায়ার সার্ভিসের পাঁচটি ইউনিট সকাল আটটায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন। গাজীপুর ডিবিএল ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তা মিরাজ ইসলাম জানান, ভোর পৌনে পাঁচ টার দিকে গাজীপুর মহানগরীর কোনাবাড়ির দেওয়ালিয়াবাড়ি এলাকায় ঝুটের গুদামে আগুন লাগার খবর পাই। আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে কালিয়াকৈর ফায়ার সার্ভিসের একটি, জয়দেবপুর ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ও ডিবিএল ফায়ার সার্ভিসের একটিসহ পাঁচটি টিম কাজ শুরু করে।  জয়দেবপুর ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন অফিসার মো. তাশারফ হোসেন জানান, পৌনে পাঁচটার দিকে কোনাবাড়ির দেওয়ালিয়াবাড়ি এলাকায় ইসমাইল হোসেন ও খান এর ঝুট গুদামে আগুন লাগে। আগুন লাগার পরপরই ফায়ার সার্ভিস ঘটনাস্থলে পৌছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার জন্য কাজ শুরু করে। প্রায় তিন ঘন্টার চেষ্টায় ফায়ার সার্ভিসের পাঁচটি ইউনিট সকাল আটটার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়। এখনও আগুন লাগার কারণ ও হতাহতের কোন খবর পাওয়া যায়নি।

টঙ্গীতে উচ্ছেদে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে রান্না করা খাবার বিতরন

গাজীপুর প্রতিনিধিঃ গাজীপুরের টঙ্গীতে বাংলাদেশ রেলওয়ের চলমান উচ্ছেদ কার্যক্রমে বাস্তুচ্যুত অসহায় মানুষের মাঝে রান্না করা খাবার বিতরন করেছেন গাজীপুর মহানগর তাতীলীগের সভাপতি মোঃ শাহা আলম। বুধবার রাত ১০টার দিকে টঙ্গীর মধুমিতা বেলতলা বস্তি এলাকায় এই খাবার বিতরন করা হয়। এসময় ৫ শতাধিক অসহায় মানুষের মাঝে খাবার বিতরন করা হয়। মহানগর তাতীলীগের সভাপতি বলেন, বৈরী আবহাওয়া ও বাস্তুচ্যুত মানুষ নিদারুণ কষ্টে দিন পার করছে। তাদের থাকার ঘর নেই, রান্না করার জায়গা নেই, মাথা গোঁজার ঠাঁই নেই, এই মানুষগুলো আজ তাদের মৌলিক অধিকার থেকে বঞ্চিত। মানবিক কারনে আমি তাদের পাশে দাঁড়িয়েছি। আমি আশা করি সমাজের বিত্তবানরা এই অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াবেন।    ভুক্তভোগী তাছলিমা জানান, আমরা বিগত ৪০ বছর যাবৎ এই এলাকায় বসবাস করছি। হঠাৎ করে আমাদের বাড়ি ছেড়ে দিতে বলায় আমরা আমাদের অভিবাবক যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেলকে বিষয়টি অবগত করি। তিনি আমাদের আশ্বস্ত করেছেন আগামী এক সপ্তাহ আপনাদের এলাকায় উচ্ছেদ অভিযান হবে না। কিন্তু হঠাৎ করে ৩ দিন পর উচ্ছেদ অভিযান চালনো হয়। এতে করে আমরা প্রয়োজনীয় কোন জিনিসপত্র বের করতে পারিনি। আমার সব সম্বল ধংস হয়ে গেছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার কাছে আমাদের আকুল আবেদন যখন সাড়াদেশের গৃহহীন মানুষ ঘর পাচ্ছে আমরা কেন গৃহহীন হবো? মানবতার জননী যে আমাদের বাসস্থানের ব্যবস্থা করে দেন।

টঙ্গীতে এসএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় অনুষ্ঠান

গাজীপুর প্রতিনিধি : গাজীপুরের টঙ্গীর দক্ষিণ আউচপাড়ায় হাজী কছিমউদ্দিন পাবলিক স্কুলে এসএসসি-২০২২ পরীক্ষার্থীদের বিদায় উপলক্ষে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে । বৃহস্পতিবার দুপুরে প্রতিষ্ঠানের অডিটোরিয়ামে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্য রাখেন হাজী কছিমউদ্দিন ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ও প্রতিষ্ঠাতা প্রধান শিক্ষক ইঞ্জিনিয়ার এম এম হেলাল উদ্দিন। সিনিয়র শিক্ষক আব্দুল বারীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন, দিবা শাখার শিফট-ইনচার্জ এসকে এম নজরুল ইসলাম, প্রভাতী শাখার শিফট-ইনচার্জ নাসির উদ্দিন, শিক্ষক প্রতিনিধি নাজমুল আলম, শিক্ষক সিদ্দিকুর রহমান, শাহাদৎ হোসেন, মাসুদুর রহমান, আব্দুস সাত্তার নাসির, নূর মোহাম্মদ চঞ্চল, মাওলানা নাসির উদ্দিন তাহসিন, সাহেল রানা, বিপুল কুমার বিশ্বাস, রাজিয়া খাতুন  প্রমুখ। অনুষ্ঠান শেষে পরীক্ষার্থীদের সাফল্য কামনায় বিশেষ দোয়া মোনাজাত পরিচালনা করা হয়।

শ্রীপুরে জমির মালিকানা দ্বন্ধে শতাধিক কলাগাছ কাটলো বড় ভাই

গাজীপুর প্রতিনিধিঃ গাজীপুরের শ্রীপুরে জমি সংক্রান্ত বিরোধে প্রায় ১০০ কলা গাছ, আম, কাঁঠালসহ বিভিন্ন ফলজ ও বনজ গাছ কেটে ফেলার অভিযোগ উঠেছে। বুধবার (১৫ জুন) বেলা ৩টার দিকে শ্রীপুর পৌর এলাকার বৈরাগীচালা গ্রামের এ ঘটনা ঘটে। এঘটনায় ভুক্তভোগী ছোট ভাই ওই দিন রাতেই ভাতিজা ও বড় ভাইকে অভিযুক্ত করে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন। ভূক্তভোগী তোফাজ্জল হোসেন (৪৮) শ্রীপুর পৌরসভার বৈরাগীচালা গ্রামের মৃত দেওয়ান আলী’র ছেলে। অভিযুক্ত বড় ভাই মতিউর রহমান (৫২) ও ভাতিজা রায়হান (৩০)। ভূক্তভোগী তোফাজ্জল হোসেন বলেন, আমরা ছয়ভাই বাবার মৃত্যুর পর তার রেখে যাওয়া সম্পত্তি আমরা ভাগবাটোয়ারা করি। পরবর্তীতে অভিযুক্ত বড় ভাই মতিউর তার প্রায় সম্পত্তি গুলো বিক্রি করে দেয়। এখন আমার ভাগবন্টন করা সম্পত্তিতে তার অংশীদার আছে বলে আমার কাছে সম্পত্তি দাবি করছে। এনিয়ে আমরা স্থানীয় ভাবে একাধিকবার বসলেও মতিউর কোন ধরনে সিদ্ধান্ত মানে না। গত বুধবার (১৫ জুন) বেলা ৩টার দিকে বাড়ির পাশে আমার পৈত্রিক জমিতে রোপন করা সবরি ও সাগর জাতের শতাধিক কলাগাছ কেটে ফেলে। এ বিষয়ে থানার অভিযোগ দায়েরের পর বৃহস্পতিবার সকালে বাড়ির পাশে বাগানে থাকা বিভিন্ন জাতের গাছ কেটে ফেলে। এসময় হাতে দা নিয়ে হত্যার হুমকিও দেয়। অভিযুক্ত ও ভুক্তভোগীর ছোট ভাই ফরহাদ হোসেন বলেন, বড় ভাই মতিউর রহমান জমি দাবি করলে আমিসহ বাকী পাঁচ ভাইয়ের কাছে দাবি করতে পারেন। আমরা সব ভাইয়েরা মিলে পারিবারিক ভাবে বসলেও সে কোন সিদ্ধান্ত মানে না। মতিউর রহমান তার অংশের জমি তোফাজ্জল হোসেনের কাছে চাইতে পারে না। এনিয়ে অহেতুক দ্বন্ধে জড়াচ্ছে বড় ভাই মতিউর। এবিষয়ে অভিযুক্ত মতিউর ও রায়হানের মোবাইলে ফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তারা কেউই রিসিভ করেনি। শ্রীপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মামুনুর রশিদ বলেন, অভিযোগ পাওয়া পর ঘটনাস্থলে গাছগুলো কাটা অবস্থায় পাওয়া গেছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সড়ক নির্মাণে বন বিভাগের বাধা; মহাসড়ক অবরোধ করে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

গাজীপুর, প্রতিনিধিঃ গাজীপুর সদর উপজেলার ভবানীপুর এলাকায় কলেজের প্রবেশ মুখে সড়ক নির্মাণে বন বিভাগের বাধার প্রতিবাদে মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছে মুক্তিযোদ্ধা কলেজের শিক্ষার্থীরা। বৃহস্পতিবার (১৬ জুন) বেলা ১১টায় ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে প্রায় এক ঘণ্টা অবরোধ করে এ বিক্ষোভ করে। বিক্ষোভরত শিক্ষার্থী এবং এলাকাবাসী জানান, ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক থেকে কলেজ পর্যন্ত প্রায় ৩০০ মিটার সড়কের সংস্কার কাজ স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর এর তত্ত্বাবধানে গত এক সপ্তাহ আগে থেকে শুরু হয়। ২০০৩ সালে কলেজ প্রতিষ্ঠার পর এ রাস্তাটি কলেজের একমাত্র এবং প্রধান সড়ক। প্রায় ১৯ বছর যাবৎ এই সড়ক ধরে কলেজের শিক্ষার্থীরা চলাচল করছে। গত সোমবার থেকে স্থানীয় বন বিভাগ রাস্তাটি সংস্কার কাজ নির্মাণে বাধা দেন বলে অভিযোগ করেন তারা। এর প্রতিবাদে কমপক্ষে পাঁচ শতাধিক শিক্ষার্থী মহাসড়কে বসে ও আসবাবপত্র ফেলে অবরোধ সৃষ্টি করে। এলাকাবাসী ও শিক্ষার্থীদের একটি অংশ মানববন্ধন করে কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করে। বেলা পৌনে ১২টার দিকে গাজীপুরের জেলা প্রশাসকের বিষয়টি সমাধানের আশ্বাসের প্রেক্ষিতে শিক্ষার্থীরা অবরোধ তুলে নেয়। গাজীপুরের জেলা প্রশাসক মোঃ আনিসুর রহমান জানান, বন বিভাগের সাথে নির্মাণাধীন রাস্তাটির সমস্যা রয়েছে। বিষয়টি সমাধানের জন্য যাচাই-বাছাই করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের প্রতিশ্রুতি দেয়া হলে তারা অবরোধ তুলে নিয়েছে।

টঙ্গীতে গৃহবধু মরদেহ উদ্ধার

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরের টঙ্গীতে জান্নাতুল ফেরদৌস বন্যা(৩০) নামে এক গৃহবধুর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার রাত সাড়ে নয়টার দিকে টঙ্গীর মাছিমপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। টঙ্গী পূর্ব থানার উপ পরিদর্শক(এসআই)অহিদ হাসপাতাল থেকে মরদেহটি উদ্ধার করে গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করেছেন। মৃত গৃহবধু বন্যা পেশায় একজন চিকিৎসক। তিনি টঙ্গীর চেরাগআলী এলাকার মৃত আব্দুল জব্বার মোল্লার মেয়ে। স্বামীর সাথে মাছিমপুর এলাকায় বাস করতেন বন্যা। ঘটনার পর স্বামী সবুজ পলাতক রয়েছেন। পরিবারের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, জান্নাতুল ফেরদৌস বন্যা একটি পোশাক কারখানায় চিকিৎসক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। গত কয়েক মাস যাবৎ পারিবারের নানা বিষয়ে স্বামী সবুজের সাথে কলহ চলছিলো তার।মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ফের স্বামীর সাথে কলহে জড়ায় বন্যা।এরই এক পর্যায়ে বন্যা নিজ ঘরের সিলিং ফ্যানের সাথে গলায় ওড়না প্যাঁচিয়ে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে।পরে স্বামী সবুজ বন্যার নিথর দেহ ঝুলতে দেখে তাকে উদ্ধার করে টঙ্গী শহীদ আহসান আল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। টঙ্গী শহীদ আহসান আল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালে জরুরী বিভাগের চিকিৎসক  ইসরাত জাহান এনি বলেন,হাসপাতালে আসার আগেই তার মৃত্যু হয়। টঙ্গী পূর্ব থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি জাবেদ মাসুদ বলেন, প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে এটা আত্মহত্যা তবে ময়নাতদন্ত রিপোর্ট পেলে বিস্তারিত জানা যাবে। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

টঙ্গীতে গৃহবধু মরদেহ উদ্ধার

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরের টঙ্গীতে জান্নাতুল ফেরদৌস বন্যা(৩০) নামে এক গৃহবধুর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার রাত সাড়ে নয়টার দিকে টঙ্গীর মাছিমপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। টঙ্গী পূর্ব থানার উপ পরিদর্শক(এসআই)অহিদ হাসপাতাল থেকে মরদেহটি উদ্ধার করে গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করেছেন। মৃত গৃহবধু বন্যা পেশায় একজন চিকিৎসক। তিনি টঙ্গীর চেরাগআলী এলাকার মৃত আব্দুল জব্বার মোল্লার মেয়ে। স্বামীর সাথে মাছিমপুর এলাকায় বাস করতেন বন্যা। ঘটনার পর স্বামী সবুজ পলাতক রয়েছেন। পরিবারের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, জান্নাতুল ফেরদৌস বন্যা একটি পোশাক কারখানায় চিকিৎসক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। গত কয়েক মাস যাবৎ পারিবারের নানা বিষয়ে স্বামী সবুজের সাথে কলহ চলছিলো তার।মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ফের স্বামীর সাথে কলহে জড়ায় বন্যা।এরই এক পর্যায়ে বন্যা নিজ ঘরের সিলিং ফ্যানের সাথে গলায় ওড়না প্যাঁচিয়ে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে।পরে স্বামী সবুজ বন্যার নিথর দেহ ঝুলতে দেখে তাকে উদ্ধার করে টঙ্গী শহীদ আহসান আল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। টঙ্গী শহীদ আহসান আল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালে জরুরী বিভাগের চিকিৎসক  ইসরাত জাহান এনি বলেন,হাসপাতালে আসার আগেই তার মৃত্যু হয়। টঙ্গী পূর্ব থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি জাবেদ মাসুদ বলেন, প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে এটা আত্মহত্যা তবে ময়নাতদন্ত রিপোর্ট পেলে বিস্তারিত জানা যাবে। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

টঙ্গীতে রেললাইনের পাশের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ

বি এ রায়হান গাজীপুরঃ     গাজীপুরের টঙ্গীর বউবাজার এলাকায় রেললাইনের পাশে গড়ে উঠা অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে অভিযান পরিচালনা করেছে বাংলাদেশ রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। মঙ্গলবার সকাল থেকে চলা এ অভিযানে প্রায় সহস্রাধিক স্থাপনা, দোকানপাট ও বসতবাড়ী উচ্ছেদ করা হয়েছে। এ অভিযানে নেতৃত্বদেন রেলওয়ে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. শফিউল্লাহ ও গাজীপুর জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. মারুফ হাসান। এসময় জেলা পুলিশ, রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনী, আনসারসহ রেলওয়ের  কর্মকর্তাবৃন্দ উচ্ছেদ অভিযানে উপস্থিত ছিলেন। এলাকার কয়েকজন বাসিন্দা জানান, বহু বছর ধরে আমরা এলাকায় বসবাস করে আসছি। আমাদের থাকার জায়গা নেই। এক সাপ্তাহ আগে আমাদেরকে মাইকিং করে জানিয়েছে। কিন্তু আমরা কোথায় যাবো। এই উচ্ছেদের কারণে আমরা প্রায় তিন হাজার পরিবার বাস্তুহারা হলাম। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার কাছে আমাদের আকুল আবেদন আমাদের বাসস্থানের ব্যবস্থা করা হোক।

টঙ্গীতে দৈনিক মতপ্রকাশ এর প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ   গাজীপুরের টঙ্গীতে দৈনিক মতপ্রকাশ এর ৮ম বর্ষপূর্তি শেষে ৯ম বর্ষে পদার্পন উপলক্ষে আলোচনা সভা, কেক কাটা ও গুণিজন সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। রবিবার দুপুরে টঙ্গীর মিলগেট কুমিল্লা সমন্বয় পরিষদ ভবনে এই অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়। দৈনিক মতপ্রকাশের গাজীপুর মহানগর প্রতিনিধি নুরুজ্জামান শেখ এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানটি উদ্বোধন করেন প্রতিষ্ঠানের সম্পাদক ও প্রকাশক রাকিবুল বাসার। এসময় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন টঙ্গী থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা ফজলুল হক। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সদস্য ও ৪৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর নুরুল ইসলাম নুরু, গাজীপুর জেলা সমবায় ইউনিয়নের ভাইস চেয়ারম্যান কামাল উদ্দিন, জেলা রিপোর্টার্স ক্লাবের সাবেক কার্যকরি সভাপতি মোস্তাকিম খান, দৈনিক মতপ্রকাশের নির্বাহী সম্পাদক মীর শহিদুল্লাহ, টঙ্গী বন্ধু সমাজ কল্যান সংস্থার সভাপতি সুজন সারোয়ার, সাধারন সম্পাদক আল আমিন হোসেন , যুগ্ম সাধারন সম্পাদক শেখ রাজিব হাসান, দৈনিক বাংলাদেশ বুলেটিনের টঙ্গী প্রতিনিধি বিএ রায়হান প্রমূখ। আালোচনা সভা ও কেক কাটা শেষে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

পূবাইলে লতা হারবালের চেয়ারম্যানের সাথে প্রবাসী ব্যবসায়ীর সৌজন্য সাক্ষাত

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ    লতা হারবাল (বিডি) লিমিটেড কোম্পানির চেয়ারম্যান শিল্পপতি আইয়ুব আলী ফাহিমের সাথে সৌজন্য সাক্ষাত করেছেন আমেরিকান প্রবাসী শিল্পপতি অরফেস লিমিটেড এনজি (ইউএসএ) ও এরোম্যাটিক ইনোভেশন কোম্পানির চেয়ারম্যান এবং সিও গোলাম ফারুক ভুঁইয়া। শনিবার সন্ধ্যায় লতা হারবাল (বিডি) লিমিটেডের নিজ কার্যলয়ে এই সৌজন্য সাক্ষাৎ অনুষ্ঠিত হয়।   এসময় লতা হারবাল (বিডি) লিমিটেড এর চেয়ারম্যান আইয়ুব আলী ফাহিম আমেরিকান ব্যবসায়ী গোলাম ফারুক ভুঁইয়াকে বাংলাদেশের শিল্পায়ন সম্পর্কে ধারনা দেন এবং শিল্পক্ষেত্রে বর্তমান শিল্পবান্ধব সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ডের কথা তুলে ধরেন। তিনি বলেন বিগত, ১ দশকে শেখ হাসিনার হাত ধরে বাংলাদেশের শিল্পক্ষেত্রে ব্যাপক অগ্রগতি লাভ করেছে। বর্তমানে বাংলাদেশের শিল্পক্ষেত্র বিদেশি বিনিয়োগকারীদের জন্য অত্যন্ত লাভজনক ক্ষেত্র বলে মন্তব্য করেন। তিনি গোলাম ফারুক ভুঁইয়ার মাধ্যমে বিদেশী বিনিয়োগকারীদের আমাদের দেশীয় শিল্পক্ষেত্রে আরও বিনিয়োগের আহ্বান জানান। গোলাম ফারুক ভুঁইয়া দেশের আগ্রগতিতে শিল্প প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে জনাব আইয়ুব আলী ফাহিম এর  অবদানের কথা স্বীকার পূর্বক তার বিভিন্ন সমাজ সেবামুলক কর্মকান্ডের ভূয়সী প্রশংসা করেন। এবং সুযোগ পেলে তিনিও দেশের শিল্পক্ষেত্র এগিয়ে নেওয়ার লক্ষ্যে কাজ করবেন বলে মন্তব্য করেন। উল্লেখ্য গোলাম ফারুক ভুঁইয়ার পৈত্রিক নিবাস কুমিল্লা জেলার দেবীদ্বার উপজেলায়। ১৯৯৭ সালে, জনাব ভূঁইয়া মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে অভিবাসী হন। তথ্য প্রযুক্তিতে ডিগ্রি অর্জনের পর, তিনি নেক্সটেল টেলিকমিউনিকেশন এবং পরে এটিএন্ডটি-তে কাজ করেন। এরপর থেকে তিনি শিল্পক্ষেত্রে নিজেকে সম্পৃক্ত করেন। আলোচনা শেষে এরোম্যাটিক ইনোভেশন কোম্পানির চেয়ারম্যান গোলাম ফারুক ভুঁইয়া, আইয়ুব আলী ফাহিমকে তার পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা স্মারক হিসেবে সৌজন্য উপহার প্রদান করেন।

টঙ্গীতে ২০ ভরি স্বর্ণ নগদ অর্থসহ ছিনতাইকারী গ্রেফতার

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ     গাজীপুরের টঙ্গীতে জোরপূর্বক ছিনতাই করে পালিয়ে যাওয়ার সময় অভিযান চালিয়ে সাদিকুল ইসলাম (৩৪) নামে এক ছিনতাইকারীকে গ্রেফতার করেছে টঙ্গী পশ্চিম থানা পুলিশ। এসময় তার কাছ থেকে ২০ভরি স্বর্ণ (বিভিন্ন অলংকার) এবং নগদ ৮০ হাজার ৭ শত টাকা উদ্ধার করা হয়। বৃহস্পতিবার রাতে ঢাকা ময়মনসিংহ মহাসড়কের টঙ্গীর মাজার বস্তি এলাকার হোন্ডা রোডের মাথা থেকে ছিনতাইকারীকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত সাদিকুল ইসলাম ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নবীনগর থানার ফতেহপুর গ্রামের মোহন মিয়ার ছেলে। পুলিশ জানায়, ঢাকা ময়মনসিংহ মহাসড়কের টঙ্গীর মাজার বস্তি এলাকার হোন্ডা রোডের মাথা থেকে এক ব্যবসায়ীর কাছ থেকে নগদ টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার জোরপূর্বক ছিনতাই করে পালিয়ে যাওয়ার সময় ছিনতাইকারীকে গ্রেফতার করা হয়। এসময়ে ছিনতাইকারীর হেফাজত থেকে ২০ভরি স্বর্ণ এবং নগদ ৮০ হাজার ৭ শত টাকা উদ্ধার করে। গ্রেফতরাকৃত আসামির বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

গাজীপুরে প্রধানমন্ত্রীকে হত্যার হুমকির প্রতিবাদে বিক্ষোভ

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ    আধুনিক বাংলাদেশের রূপকার সফল রাষ্ট্র নায়ক শেখ হাসিনাকে হত্যার হুমকির প্রতিবাদে গাজীপুরের গাছায় বিক্ষোভ মিছিল করেছে আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠন। শুক্রবার বিকেলে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য, গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী ৩৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল্লাহ আল মামুন মন্ডলের নেতৃত্বে মিছিলটি  বোর্ড বাজার এলাকা থেকে শুরু হয় ঢাকা ময়মনসিংহ মহাসড়কের গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট  প্রদক্ষিণ করে পুনরায় বোর্ডবাজার এসে শেষ হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সদস্য এস এম শামীম আহমেদ, গাজীপুর মহানগর মৎস্যজীবী লীগের সভাপতি আসাদুল কবির, মহানগর কৃষকলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শফিকুল ইসলাম শফিক, মহানগর তাতীলীগের সহ সভাপতি জামাল খান, গাছা থানা কৃষকলীগের সভাপতি শাহাজালাল তরুণসহ বিভিন্ন ওয়ার্ড ও থানা আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা। গাজীপুর মহানগর শ্রমিক লীগের যুগ্ম আহবায়ক মেহেদী হাসান সুমন,আওয়ামীলীগ নেতা আব্দুল জলিল খন্দকার,  জহিরুল হক হারুন সিপাই, ইকবাল হোসেন মোল্লা,বাবুল মন্ডল, গাজীপুর মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সদস্য শফিকুল ইসলাম শফিক, হুমায়ুন কবির রাজ মন্ডল, গাছা থানা তাতীলীগের সভাপতি ইমরান হোসেন সানী,শ্রমিকলীগ নেতা মজিবুর রহমান মজি,আজহারুল ইসলাম, শহিদুল ইসলাম শহিদ মন্ডল প্রমুখ এসময় সংক্ষিপ্ত সভায় আব্দুল্লাহ আল মামুন মন্ডল বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা মানবতা জননী সফল রাষ্ট্রনায়ক জননেত্রী শেখ হাসিনার নেত্রীত্বে বাংলাদেশ আজ বিশ্বের বুকে রোল মডেল। ঠিক সেই সময় পাকিস্তানের ধুসর বিএনপি জামাত আমাদের প্রিয় নেত্রীকে হত্যার হুমকি দিয়ে দেশের উন্নয়নের ব্যাহত করার চেষ্টা করছে। আমরা তা কখনোই হতে দেবনা। আমরা এই হুমকির তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানায়। অনতিবিলম্বে ওই হুমকিদাতাকে আইনের আওতায় আনার দাবী জানাচ্ছি।

টঙ্গীতে পিস্তলসহ যুবককে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ     গাজীপুরের টঙ্গীতে চায়ের দোকানে অস্ত্র প্রদর্শন কালে বিদেশি পিস্তলসহ সুমন সরকার (২২) নামে এক যুবককে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে স্থানীয় জনগণ।মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নগরীর সাতাইশ বাগান বাড়ি এলাকা এ ঘটনা ঘটে। আটককৃত সুমন সরকার শেরপুর জেলার শ্রীবরদি থানার কাজীপাড়া গ্রামের সোহরাব হোসেনের ছেলে। সে স্থানীয় ইউসুফ মাষ্টারের বাড়ির ভাড়া বাসায় বসবাস করতো। প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়,  সাতাইশ বাগান বাড়ি এলাকায় মঙ্গলবার দুপুরে খালে গোসল করা নিয়ে স্থানীয় কয়েকজনের সাথে বিবাদে জড়ান সুমনের ছোট ভাই শুভ। পরে সন্ধ্যায় ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয় সুমন। এসময় বাকবিতণ্ডার একপর্যায়ে সুমন কোমর থেকে পিস্তল বের করে ভয়ভীতি দেখালে উপস্থিত জনতা তাকে আটক করে গনধোলাই দিয়ে পুলিশে খবর দেয়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে দুই রাউন্ড গুলি ভর্তি বিদেশি পিস্তলসহ আহত অবস্থায় সুমনকে আটক করে পুলিশ। টঙ্গী পশ্চিম থানার অফিসার ইনচার্জ শাহ আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আটককৃত আসামীকে ইন্টারন্যাশনাল মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। এঘটনায়  আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

টঙ্গী বিসিকে পোষাক কারখানায় কর্মবিরতি

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ শিল্প নগরী টঙ্গীর বিসিক এলাকায় নর্দান কর্পোরেশন লিঃ নামক একটি পোষাক কারখানায় কর্মবিরতি পালন করছে কর্মরত শ্রমিকরা। গত ৪ জুন সকাল থেকে বিভিন্ন দাবীতে কর্মবিরতি পালন করছে তারা। জানা যায়, বিগত ১৯ মে উৎপাদন সক্ষমতার চেয়ে কাজের অপ্রতুলতা, কমপ্লায়েন্স প্রতিপালন করতে না পারা, নিয়ন্ত্রণ বহির্ভূত পরিস্থিতি সৃষ্টি হওয়াসহ বিভিন্ন কারনে আর্থিক লোকসানের সম্মুখীন হাওয়ায় পোশাক কারখানার সকল কর্মকর্তা-কর্মচারী ও শ্রমিকদের ছাঁটাই করার নোটিশ প্রদান করে কর্তৃপক্ষ। নোটিশে জানানো হয়, আগামী ১৮ জুলাই থেকে ২৫ জুলাই এর মধ্যে বাংলাদেশের শ্রম আইন অনুযায়ী সকল পাওনাধি পরিষোধ করে আগামী ২৬ জুলাই থেকে কারখানাটি বন্ধ ঘোষণা করে কর্তৃপক্ষ । কর্মরত শ্রমিকরা জানায়, কারখানা কর্তৃপক্ষ শ্রম আইনের ২০ ধারা মোতাবেক দেনা পাওনা পরিশোধ করার কথা বলছে। আমরা দীর্ঘদিন যাবত এ প্রতিষ্ঠানে কাজ করছি। আমাদের পাওনাদি পরিশোধ করতে হলে অবশ্যই শ্রম আইন এর ২৬ ধারা মোতাবেক পরিশোধ করতে হবে। কারখানার প্রশাসনিক কর্মকর্তা রেজাউল জানান, অর্ডার কম থাকায় প্রতিষ্ঠান দীর্ঘদিন যাবৎ লোকসান দিয়ে আসছিল। এ অবস্থায় আগামী ১৮ জুলাই থেকে ২৫ জুলাই এর মধ্যে সকল পাওনা পরিশোধ করে ২৬ জুলাই থেকে কারখানা বন্ধের নোটিশ প্রধান করা হয়। যা শ্রমিকরা মেনে নিয়েছিল। স¤প্রতি একটি শ্রমিক সংগঠনের উস্কানিতে শ্রমিকরা কর্মবিরতি পালন করছে।

টঙ্গীতে আওয়ামীলীগের বিক্ষোভ মিছিল

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ    আধুনিক বাংলাদেশের রূপকার সফল রাষ্ট্র নায়ক শেখ হাসিনাকে হত্যার হুমকির প্রতিবাদে টঙ্গীতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠন। শনিবার বিকেলে গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মতিউর রহমান মতির নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিলটি নতুন বাজার দলীয় কার্যলয় থেকে শুরু হয়ে ঢাকা ময়মনসিংহ মহাসড়কের বিভিন্ন স্থান প্রদক্ষিণ করে পূনরায় একই স্থানে এসে শেষ হয়। এর আগে টঙ্গীর বিভিন্ন ওয়ার্ড থেকে মিছিল নিয়ে দলীয় কার্যালয়ে উপস্থিত হন নেতাকর্মীরা। একপর্যায়ে নতুন বাজার দলীয় কার্যালয় লোকে লোকারণ্য হয়ে ওঠে। এসময় নেতাকর্মীরা বিএনপি জামাতের বিরুদ্ধে বিভিন্ন শ্লোগান দিতে থাকেন। বিক্ষোভ মিছিলে উপস্থিত ছিলেন, টঙ্গী থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা ফজলুল হক, মহানগর তাতী লীগের সভাপতি শাহ আলম, থানা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি কে এম নাছির, সাধারণ সম্পাদক রুহুল আমীন সরকার মনি, ৪৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর নূরুল ইসলাম নুরু, ৪৭ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের আহবায়ক আনোয়ার হোসেন, সদস্য সচিব আহসান উল্লা,   যুবলীগ নেতা বিল্লাল হোসেন মোল্লা, মহর আলী মৃধা, জসিম মাদবর, লোকমান হোসেন, ৫৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদপ্রার্থী হাজী হাসান উদ্দিন। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন, ৪৯নং ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি আব্দুল জলিল গাজী, ছাত্রলীগের সভাপতি জুয়েল হাসান জয়, ৪৮নং ওয়ার্ড স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি পদপ্রার্থী সজল সরকার, ৫৫নং ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি পদপ্রাথী শেখ মো. জাকির হোসেন, রাকিব হোসেন প্রমুখ।

টঙ্গীতে জিয়াউর রহমান এর ৪১তম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ  গাজীপুরের টঙ্গীতে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের (বীর উত্তম) ৪১তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে এতিম এবং দুস্থদের মাঝে খাবার বিতরণ, মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার দুপুরে নগরীর টঙ্গী বাজার এলাকায় এই অনুষ্ঠানের আায়োজন করা হয়। গাজীপুর মহানগর ছাত্রদলের সহ-সভাপতি জি এম হাসান এর উদ্যোগে আয়োজিত অনুষ্ঠানে  আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি নেতা মোস্তফা সরকার, ৪৫নং ওয়ার্ড বিএনপি'র সাংগঠনিক সম্পাদক মামুনুর রহমান পাঠান, ৫৭নং ওয়ার্ড বিএনপি'র সহ-সভাপতি তৈয়ব আলী, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক জাবেদ আহমেদ, মাইনুল ইসলাম প্রমূখ। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন, গাজীপুর মহানগর ছাত্রদলের যুগ্ন সম্পাদক জি.এম হোসেন, মহানগর ছাত্রদল নেতা নূর মোহাম্মদ জাকারিয়া রিছাল, যুবদল নেতা তরিকুল ইসলাম (তপন), টঙ্গী পূর্ব থানা ছাত্রদলের নেতা মারুফ, সামিন, রাকিব, ৫৬নং ওয়ার্ড ছাত্রদল নেতা ইয়াসিন ইসলাম ইমন সহ বিভিন্ন ওয়ার্ড থেকে আগত ছাত্রদল নেতাকর্মীসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

টঙ্গীতে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ   গাজীপুরের টঙ্গীতে সাবেক প্রধানমন্ত্রী বিএনপি সভানেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে হত্যার হুমকি, জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের কেন্দ্রিয় কমিটির সভাপতি কাজী রওনকুল ইসলাম শ্রাবণকে গ্রেফতারের চেষ্টা, দলের নেতাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা, সুপ্রিম কোর্ট ও ঢাকা বিশ্ব বিদ্যালয়ে ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের উপর ছাত্রলীগের সশস্ত্র হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। গাজীপুর মহানগর ছাত্রদলের উদ্যোগে শুক্রবার সকাল ১১ টার দিকে স্থানীয় গাজীপুরা বাসষ্ট্যান্ড এলাকায় এ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। টঙ্গী পশ্চিম থানা ছাত্রদলের যুগ্ম আহবায়ক সাইফুল ইসলাম নয়নের নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিলে উপস্থিত ছিলেন, গাজীপুর মহানগর ছাত্রদলের সহ সভাপতি কাজী ফয়েজ, আলী হাসান রনি, আরিফ মিজি, যুগ্ন সাধারন সম্পাদক মোঃ লিটন, সদস্য মোঃ জিলান, রিফাত, নজরুল, রাকিব, রাহাদ, সামিউল, তানভীরসহ ছাত্রদলের বিভিন্ন ওয়ার্ডের নেতাকর্মীবৃন্দ। গাজীপুরা বাসষ্ট্যান্ড বাসষ্ট্যান্ড এলাকা থেকে মিছিলটি বের হয়ে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের বিভিন্ন স্থান প্রদক্ষিন শেষে পূনরায় একই স্থানে গিয়ে সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্য প্রতিবাদ সমাবেশে মিলিত হয়। এ সময় নেতাকর্মীরা উল্লেখিত বিষয়ের প্রতিবাদে বিভিন্ন স্লোগান দিতে থাকে।

টঙ্গীতে গাঁজাসহ ২ মাদক কারবারি গ্রেফতার

বি এ টায়হান, গাজীপুরঃ  গাজীপুরের টঙ্গীতে সাড়ে ৩০ কেজি গাঁজাসহ ০২ জন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় টঙ্গী রেল ষ্টেশন এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়।এসময় মাদক পরিবহণে ব্যবহৃত একটি সিএনজি জব্দ করা হয়। শুক্রবার দুপুরে র‍্যাব -১ এর সহকারী পরিচালক (মিডিয়া অফিসার) নোমান আহমদ স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য নিশ্চিত করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার রঙ্গু মিয়ার ছেলে জালাল মিয়া (৫০) ও নরসিংদী জেলার মৃত আলী হোসেনের ছেলে সোলাইমান হোসেন। সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরো জানানো হয় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ও তথ্য প্রযুক্তির সহয়তায় ব্রাহ্মনবাড়িয়া থেকে টঙ্গী হয়ে গাজীপুরগামী একটি সিএনজি থেকে সাড়ে ৩০ কেজি গাঁজা ০২ টি মোবাইল ফোন সহ দুই মাদক কারবারিকে গ্রেফতার করা হয়। এসময় মাদক পরিবহণে ব্যবহৃত একটি সিএনজি জব্দ করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, তারা দীর্ঘদিন যাবৎ আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর চোখ ফাঁকি ব্রাহ্মনবাড়িয়া থেকে সিএনজিযোগে অবৈধ মাদকদ্রব্য গাঁজা নিয়ে এসে গাজীপুরসহ রাজধানী ঢাকার বিভিন্ন এলাকায় ক্রয় বিক্রয় করে আসছে বলে স্বীকার করে। গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে নিয়মিত আইনে মামলা দায়ের করে সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

টঙ্গীতে মহানগর কৃষকলীগের উদ্যোগে স্বরণ সভা ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরের টঙ্গীতে মহানগর কৃষক লীগের উদ্যোগে স্বাধীনতা পদক প্রাপ্ত( মরণোত্তর)   ভাওয়াল বীর শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার এমপি'র ১৮তম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা দোয়া মাহফিল ও অসহায় শারীরিক প্রতিবন্ধীদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় টঙ্গীর টিএন্ডটি কলোনী আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়। গাজীপুর মহানগর কৃষকলীগের সভাপতি হেলাল উদ্দিনের সভাপতিত্বে ও সাধারন সম্পাদক আব্দুল কাদের মন্ডলের সঞ্চালনায় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গাজীপুর ২ আসনের সাংসদ যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল এমপি। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কৃষক লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এড.শামীমা আক্তার খানম এমপি, গাজীপুর মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি এড. আজমত উল্লাহ খান ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আতাউল্লাহ মন্ডল, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের ভারপ্রাপ্ত মেয়র আসাদুর রহমান কিরণ, গাজীপুর মহানগর আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মতিউর রহমান মতি, সাংগঠনিক কাজী ইলিয়াস আহমেদ, শ্রম বিষয়ক সম্পাদক জাহিদ আল মামুন মহানগর যুবলীগের আহ্বায়ক কামরুল আহসান সরকার রাসেল, যুগ্ম আহবায়ক সাইফুল ইসলাম, মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি মশিউর রহমান সরকার বাবু, টঙ্গী থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা ফজলুল হক,প্রমুখ। আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল শেষে অসহায় প্রতিবন্ধী দের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয় এবং গণভোজের আয়োজন করা হয়।

টঙ্গীতে যুবলীগের প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ   গাজীপুরের টঙ্গীতে ভাওয়াল বীর শহীদ আহসান উল্লাহ মাষ্টার এমপি এর ১৮ তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আগামী ২৮ মে ভাওয়াল রাজবাড়ি মাঠে মহানগর যুবলীগের উদ্যোগে আয়োজিত স্মরণ সভা সফল করার লক্ষে প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। রবিবার সন্ধ্যায় টঙ্গীর নতুন বাজার আওয়ামীলীগের আঞ্চলিক কার্যলয়ে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়। প্রস্তুতি সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন মহানগর যুবলীগের আহবায়ক কামরুল আহসান সরকার রাসেল। মহানগর যুবলীগের আহবায়ক সদস্য আমান উদ্দিন সরকারের সঞ্চালনায় সভায় বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন মহানগরী যুবলীগের যুগ্ন আহবায়ক সাইফুল ইসলাম, এস এম আলমগীর হোসেন, সুমন আহমেদ সান্ত বাবু আহবায়ক সদস্য বদরুল আলম পাশা, কাইয়ুম সরকার, ইকবাল হোসেন মাষ্টার প্রমূখ।   সভায় বক্তারা আগমী ২৮ মে মহানগর যুবলীগের উদ্যোগে আয়োজিত স্মরন সভা সফল করার লক্ষে নেতাকর্মীদের সতস্ফুর্ত ভাবে অংশগ্রহণ করার আহবান জানান। এসময় টঙ্গী অঞ্চলের বিভিন্ন ওয়ার্ড যুবলীগের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

টঙ্গীতে রিকশা চালকের কামড়ে পুলিশসহ আহত ৪

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরের টঙ্গীতে দেলোয়ার (৩৮) নামে এক রিকশা চালকের কামড়ে পুলিশের এএসআইসহ ৪ ব্যাক্তি আহত হয়েছেন। টঙ্গী শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালে রোববার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। এতে পুলিশের এএসআই তোফাজ্জল হোসেন (৪০), হাসপাতাল কর্মী মেহেদী হাসান ইমনসহ (২১) চার জন আহত হয়েছেন। ওই রিকশা চালকের কামড় খেয়ে অপর দুই জন আতঙ্কগ্রস্থ হয়ে দ্রæত হাসপাতাল ছেড়ে চলে যাওয়ায় তাদের পরিচয় জানা যায়নি। আহত পুলিশ কর্মকর্তা ও হাসপাতাল কর্মীকে উদ্ধার করে টঙ্গী শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। টঙ্গী পূর্ব থানা পুলিশের এএসআই তোফাজ্জল হোসেন জানান, হাসপাতালে লোকজনকে মারধর করছে এবং কামড়াচ্ছে একজন রিকশা চালক। জাতীয় জরুরী সেবা ৯৯৯-এর মাধ্যমে এমন সংবাদ পেয়ে দুপুর ১২ টার দিকে দ্রæত হাসপাতালে ছুটে এসে দেখি হাসপাতালের এক কর্মীসহ ৩ জনকে সে কামড়িয়ে জখম করেছে। লোকজনের সাথে পাগলামী করা অবস্থায় রিকশা চালক সোহরাব কিছুটা আঘাত পেলে তাকে হাতকড়া লাগিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাচ্ছিলাম। এসময় সে আচমকা আমার ডান হাতের বৃদ্ধা আঙ্গুলে সজোরে কামড় দিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। খবর পেয়ে অন্য পুলিশ সদস্যরা হাসপাতালে গিয়ে তাকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। তার রিকশাটিও পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে টঙ্গী পূর্ব থানার এসআই ফরহাদ হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

টঙ্গীতে ভোক্তা অধিকারের অভিযান

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরের টঙ্গীতে অভিযান পরিচালনা করে দুই প্রতিষ্ঠানকে লক্ষাধিক টাকা জরিমানা করা হয়েছে। রোববার বেলা ২ টার দিকে স্থানীয় টঙ্গী বাজারে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর এ অভিযান পরিচালনা করে। জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের ঢাকা জেলা অফিস প্রধান ও গাজীপুর জেলার সহকারী পরিচালক (অতিরিক্ত দায়িত্ব) আব্দুল জব্বার মন্ডলের নেতৃত্বে এ অভিযান পরিচালিত হয়। এ সময় তিনি জানান, টঙ্গী বাজার মেহের সুপার মার্কেটের মা জেনারেল ষ্টোরে খাবারের সাথে মিশ্রণ করার জন্য প্রায় ৯ কেজি টেক্সটাইল কালার মজুদ করে রাখার দায়ে ১লাখ টাকা জরিমানা এবং ওই পণ্য জব্দ করা হয়। একই সময় সোনাবান মার্কেটের একটি দোকানে পণ্যের মূল্য তালিকায় অস্পষ্টতা পাওয়ায় ৩ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। পরে মার্কেটের ব্যাবসায়ীরা ভবিষ্যতে এ ধরনের অনৈতিক কাজ না করার প্রতিশ্রুতি দিলে অভিযান সমাপ্ত করা হয়। জেলা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা এতে অংশ নেন।

দেখতে দেখতে তের বছর, আন্দোলন হবে কোন বছর - ওবায়দুল কাদের

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি বলেছেন, পদ্মা সেতু হয়ে গেল মানুষ খুশি, ফখরুল সাহেবের মন খারাপ। দেশের মানুষ ভাল আছে, এতে ফখরুল সাহেবের মন খারাপ হয়ে যায়। মানুষ ভাল থাকলে বিএনপির সকলের মন খারাপ হয়ে যায়। বিশেষ করে বিএনপি নেতাদের। যাদের গত তের বছরের ইতিহাস আন্দোলন আর আন্দোলন দেখতে দেখতে তের বছর, আন্দোলন হবে কোন বছর। আন্দোলনে ব্যর্থ, নির্বাচনে ব্যর্থ, বিএনপি’র এখন পদ্মা সেতু দেখে গাত্রদাহ হচ্ছে। বৃহস্পতিবার (১৯ মে) দিনব্যাপী জেলা রাজবাড়ি মাঠে আয়োজিত গাজীপুর জেলা আওয়ামীলীগের সম্মেলনে ভার্চুয়ালী যুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, শতভাগ সততার সাথে পদ্মা সেতুর নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে। বিশ্ব ব্যাংক অবশেষে নিজেরাই স্বীকার করেছে পদ্মা সেতু প্রকল্প থেকে সরে গিয়ে তারা ভুল করেছে। বাঙালি জাতির স্বপ্ন দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল তথা সারাজাতির স্বপ্ন পদ্মা সেতু নিয়ে বিশ্বব্যাংক আমাদেরকে অপবাদ দিয়ে বঙ্গবন্ধু পরিবারকে হেনস্তা করেছে। প্রধামন্ত্রী শেখ হাসিনা, শেখ রেহানা, সজিব ওয়াজেদ জয়, পুতুল, ববিসহ সবাইকে এই পদ্মা সেতুর জন্য হেনস্তা হতে হয়েছিল। ওবায়দুল কাদের বলেন, খড়স্রোতা প্রমত্তা পদ্মা নদীতে সেতু নির্মান ছিল আওয়ামীলীগের জন্য চ্যালেঞ্জ। দলীয় সভানেত্রী ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা সে চ্যালেঞ্জে জয়ী হয়েছি। আগামী মাসেই হয়তো পদ্মা সেতুর উপর দিয়ে চলাচলের অপেক্ষার অবসান হবে। খুব শীঘ্রই আমরা সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে সেতু খুলে দেয়ার তারিখ জানিয়ে দিব। এখন পদ্মা সেতুর সুফল ভোগ করবে দেশের জনগণ। আগে যেখানে ফেরি দিয়ে পদ্মা নদী পাড় হতে দুই আড়াই ঘন্টা সময় লাগতো এখন তার পাড় হওয়া যাবে ছয় থেকে সাত মিনিটেই। শুধু পদ্মা সেতু নয় আমাদের মেগা প্রকল্পের বিআরটি প্রকল্প, মেট্রোরেল প্রকল্প ও কর্নফুলী টানেল নির্মানও এখন শেষের পথে। গাজীপুরে বিআরটি প্রকল্পের ৭৫ভাগ কাজ সম্পন্ন হয়েছে। আশা করা যায় আর দুর্ভোগ হবে না। তিনি আরো বলেন, পদ্মা সেতু নির্মাণ করতে খরচ হয়েছে ৩০হাজার ১৯৩ কোটি টাকা। শতভাগ সচ্ছতার সাথে পদ্মা সেতুর নির্মান হয়েছে। নানা ষড়যন্ত্রের পর বিশ্বব্যাংক সরে গেলেও পরে তারা দুঃখ প্রকাশ করেছে। মুক্তিযোদ্ধের প্রথম প্রতিরোধ গাজীপুর থেকে শুরু হওয়ায় ওবায়দুল কাদের গাজীপুরের প্রশংসা করেন। সাথে বিভিন্ন পর্যায়ে দলীয় বিরোধ মিটিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে আগামী নির্বাচনের জন্য প্রস্ততি নিতে দলীয় নেতাকর্মীদের নির্দেশনা দেন তিনি। তিনি বলেন, গাজীপুরে যেসব উন্নয়ন কাজ অসমাপ্ত রয়েছে চলমান কাজ গুলো অচিরেই সমাপ্ত হবে। নতুন কোন কাজ থাকলে সে কাজে নেত্রীর নির্দেশ আছে গাজীপুরের প্রতি তার বিশেষ একটা টান আছে। তিনি বলেছেন কাজ শেষ করার জন্য। আর যেগুলো বাকি আছে সেগুলো আমরা অচিরেই শুরু করবো। বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় গাজীপুর শহরের ভাওয়াল রাজবাড়ী মাঠে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের গাজীপুর জেলার ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের আনুষ্ঠানিক উদ্ভোধন করেন আওয়ামীলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও কৃষি মন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক এমপি। গাজীপুর জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ.ক.ম মোজাম্মেল হক এমপির সভাপতিত্বে ও জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন সবুজ এমপির সঞ্চালনায় প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন, আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম এমপি। আরো বক্তব্য রাখেন, যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল এমপি, মেহের আফরোজ চুমকি এমপি, সিমিন হোসেন রিমি এমপি, আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির শিল্প বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক সিদ্দিকুর রহমান, কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগ নেতা সাইদ খোকন, আনোয়ার হোসেন, সাহাবউদ্দিন ফরাজী, গাজীপুর মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি এডভোকেট আজমত উল্লাহ খান, গাজীপুর জেলা পরিষদের প্রশাসক সাবেক ডাকসু নেতা আখতারুজ্জামান প্রমুখ। ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে কৃষিমন্ত্রী ও আওয়ামীলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ড. আব্দুর রাজ্জাক এমপি বলেন, বিএনপি মিথ্যাচারের রাজনীতি করে তারা জিয়াউর রহমানকে স্বাধীনতার ঘোষক বলে মিথ্যা কথা বলে, এগুলো পৃথিবীর সবচেয়ে নিকৃষ্ট অসত্য তথ্য। প্রকৃত সত্য ছিল বঙ্গবন্ধুই হলেন স্বাধীনতারঘোষক, যা সে সময়কালে দেশ ও বিদেশের নানা গণমাধ্যমে প্রকাশ হয়েছে। বিএনপি সরকার পরিচালনা করে এক মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন করতে পারেনি, তখন উত্তরবঙ্গের মানুষ না খেয়ে মারা যেত। আর আওয়ামীলীগের গত ১৪বছরের শাসনামলে উত্তরবঙ্গের একজন মানুষও এক বেলাও না খেয়ে থাকেনি। শেখ হাসিনার সরকার খাদ্যে স্বয়ং সম্পূর্ণ অবস্থানে। চাল উৎপাদনে এখন আমরা বিশ্বে তৃতীয়। বিএনপির আমলে সারের জন্য কৃষক মারা যেত। আওয়ামীলীগ ক্ষমতায় এসেই সকল প্রকার সারের দাম কমিয়েছে। আমরা কৃষকদের স্বার্থে এখন ভর্তুকি দেই হাজার হাজার কোটি টাকা। সরাসরি এখন কৃষক প্রণোদনা পায়।

টঙ্গীতে দুর্ধর্ষ ডাকাতি প্রেসক্লাবে চুরি।

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরের টঙ্গীতে একইরাতে প্রেসক্লাবে দুর্ধর্ষ চুরি ও বসত বাড়িতে ডাকাতি হয়েছে। সশস্ত্র ডাকাতরা অস্ত্রের মুখে বাড়ির সদস্যদের জিম্মি করে স্বর্ণালংকার ও নগদ অর্থ লুট করে নিয়েছে। বৃহস্পতিবার ভোররাতে টঙ্গী পূর্ব থানা সংলগ্ন ও স্থানীয় দক্ষিন আরিচপুর এলাকায় এসব ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর সকালে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন পুলিশের বিভিন্ন ইউনিট। এলাকাবাসি সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার ভোর রাত তিনটার পর ৫/৬ জনের একদল ডাকাত দক্ষিন আরিচপুর এলাকার মুন্সিপাড়া রোডের আবুল হাসেমের বাড়ির তয় তলায় জানালার গ্রিল কেটে বাড়িতে প্রবেশ করে। দূর্বৃত্তরা প্রথমে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে বাড়ির দুই সহোদরকে বেধে ফেলে। পরে তাদের মা ও বোনকে জিম্মি করে আলমারি থেকে নগদ দেড় লাখ টাকা ও প্রায় ২৫ ভরি স্বর্ণালঙ্কার লুটে নেয়। একইরাতে একদল অজ্ঞাত চোর টঙ্গী থানা প্রেসক্লাবের টিনেরচাল খুলে ভিতরে প্রবেশ করে একটি এলইডি টিভি নিয়ে যায়। চোরেরা ক্লাবের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে ও মূল্যবান কাগজ পত্র তছনছ করে রেখে যায়। গাজীপুর মহানগর পুলিশের উপ-কমিশনার (অপরাধ দক্ষিণ) মোহাম্মদ ইলতুৎ মিশ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, দুস্কৃতিকারীরা বাড়ির জানালার গ্রিল কেটে নগদ টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার নিয়ে গেছে। এসময় তারা ঘরের লোকজনকে ভয়ভীতি দেখিয়ে জিম্মি করে এ ঘটনা ঘটিয়েছে। পুলিশের একাধিক টিম ঘটনার অনুসন্ধানে কাজ করছে। আশপাশের সিসি টিভির ফুটেজ দেখে শীঘ্রই অপরাধীদের শনাক্তের চেষ্টা চলছে। তবে এখন পর্যন্ত থানায় লিখিত অভিযোগ দেয়নি কেউই।

টঙ্গীতে রেললাইনের অবৈধ স্থাপনা ও বাজার উচ্ছেদ।

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ       গাজীপুরের টঙ্গী বউবাজার এলাকায় রেললাইনের উপর অস্থায়ী ভাবে গড়ে উঠা অবৈধ স্থাপনা ও কাচাঁ বাজার উচ্ছেদে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করেছে বাংলাদেশ রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে চলা এ অভিযানে প্রায় শতাধিক স্থাপনা ও দোকানপাট উচ্ছেদ করা হয়েছে। রেলওয়ে বিভাগের উর্ধ্বতন উপ সহকারী প্রকৌশলী মোজাম্মেল হকের নেতৃত্বে এ অভিযান পরিচালিত হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন এফকনের সেফটি ম্যানেজার দীপঙ্কর রায়, সেফটি কর্মকর্তা আব্দুল আজিজসহ রেলওয়ে পুলিশের কর্মকর্তাবৃন্দ। এলাকার কয়েকজন বাসিন্দা জানান, বহু বছর ধরে টঙ্গী বউ বাজারে রেললাইনের উপর অবৈধ ভাবে বাজার বসিয়ে এলাকার প্রভাবশালীরা চাঁদা তুলছে। একদিকে এখানে রেললাইনের উপর দিয়ে চলমান সড়ক পথে প্রতিদিন হাজারো পথচারি ও যানবাহন চললেও এখানে নেই নিরাপদ লেভেল ক্রসিং। তার উপর অবৈধ বাজার থাকায় এখানে প্রায়ই ঘটছে দূর্ঘটনা ও প্রাণহানি। রেলওয়ে বিভাগের উর্ধ্বতন উপ সহকারী প্রকৌশলী মোজাম্মেল হক বলেন, রেলওয়ে বিভাগের ডিআরএম (ঢাকা) শফিকুর রহমানের নির্দেশক্রমে এ অভিযানটি পরিচালিত হয়। রেললাইনের উপর বা রেললাইনের জায়গা দখল করে অবৈধ ভাবে গড়ে ওঠা সকল অবৈধ স্থাপনা পর্যায়ক্রমে উচ্ছেদ করা হবে।

শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে গাজীপুরে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঐতিহাসিক স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষ্যে গাজীপুরে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মহানগর যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও স্বেচ্ছাসেবকলীগ পৃথকভাবে এ কর্মসূচী পালন করে। এতে বিভিন্ন থানা এবং ওয়ার্ডের নেতাকর্মীরা অংশ নেয়। সকাল ১১টায় গাজীপুর মহানগর আওয়ামীলীগের দলীয় কার্যালয় থেকে শোভাযাত্রা বের করেন মহানগর ছাত্রলীগ। শোভাযাত্রায় নেতৃত্ব দেন মহানগর ছাত্রলীগের নবগঠিত কমিটির সভাপতি মোশিউর রহমান সরকার বাবু ও সাধারণ সম্পাদক শেখ মোস্তাক আহমেদ কাজল। এসময় ছাত্রলীগ নেতা শাহজাদা সেলিম লিটন, আব্দুর রহমান পিংকু, দ্বীন মোহাম্মদ নিরব , রোমান দেওয়ান,মশিউর হক নাহিন প্রধানসহ সংগঠনটির বিভিন্ন ইউনিটের নেতাকর্মীরা অংশগ্রহণ করেন। দুপুরে টঙ্গীর কলেজগেইট এলাকায় বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা করেছে গাজীপুর মহানগর যুবলীগ। এতে উপস্থিত ছিলেন, মহানগর যুবলীগের আহবায়ক কামরুল আহসান সরকার রাসেল, যুগ্ম আহবায়ক সাইফুল ইসলাম, সুমন আহমেদ শান্ত বাবু, আলমগীর হোসেন, মহানগর যুবলীগের আহবায়ক সদস্য কাইয়ুম সরকার, আমান উদ্দিন সরকার, টঙ্গী পূর্ব থানা যুবলীগ নেতা আমির হামজা, জাকির হোসেন, মোক্তার হোসেন রতনসহ বিভিন্ন থানা, ওয়ার্ড ও ইউনিটের নেতাকর্মীবৃন্দ। শোভাযাত্রা শেষে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে মহানগর যুবলীগের আহবায়ক কামরুল আহসান সরকার রাসেল বলেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগষ্ট বঙ্গবন্ধুকে স্বপরিবারে হত্যাকান্ডের পর ১৯৮১ সালের এই দিনে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশে আসেন। গত চার দশকের বেশি সময় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগকে নেতৃত্ব দিয়ে যাচ্ছেন তিনি। বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা '৭৫ পরবর্তী বাংলাদেশের হারানো গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করেছেন এবং তার নেতৃত্বে বাঙালি জাতি ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত উন্নত-সমৃদ্ধ বাংলাদেশ বিনির্মাণে এগিয়ে যাচ্ছে। এছাড়াও মহানগর স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি সঞ্জিত মল্লিক বাবু ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক বিল্লাল হোসেনের নেতৃত্বে টঙ্গীতে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়।

টঙ্গীতে একই রাতে দুই বাড়িতে ডাকাতি

গাজীপুর প্রতিনিধিঃ গাজীপুরের টঙ্গীতে একই রাতে পাশাপাশি দুই বাড়িতে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। এসময় ডাকাতদল অস্ত্রের মুখে বাড়ির লোকজনকে জিম্মি করে ঘরে থাকা নগদ টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার লুট করে নেয়। সোমবার ভোররাত ৩টার দিকে মধ্য আরিচপুর শেরে-বাংলা রোড এলাকার কাজী মনির হোসেন রুবেল ও পারভেজের বাড়িতে ডাকাতির এসব ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার পর সকালে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার বরকত উল্লাহ, উপ-কমিশনার (অপরাধ দক্ষিণ) মোহাম্মদ ইলতুৎ মিশ, অতিরিক্ত উপ কমিশনার হাসিবুল আলম, অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি) পরিদর্শক মুখলেছুর রহমান ও পুলিশ ব্যুরো অফ ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) পরিদর্শক রফিকুল ইসলামসহ উর্ধ্বতন কর্মকতারা। গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার (অপরাধ দক্ষিণ) মোহাম্মদ ইলতুৎ মিশ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। স্থানীয়রা জানায়, সোমবার ভোর রাত তিনটার পর ৬/৭ জনের একদল ডাকাত প্রথমে শেরে বাংলা রোড এলাকার কাজী মনির হোসেন রুবেলের বাড়িতে প্রবেশ করে।  ডাকাতদল দ্বিতীয় তলার জানালা দিয়ে রুবেলের ঘরে প্রবেশ করে আলমারি থেকে নগদ ৭০ হাজার টাকা ও দেড় ভরি স্বর্ণালঙ্কার লুটে নেয়। পরে ওই বাড়ির ছাদ দিয়ে পাশের পারভেজ হোসেনের দোতলা বাড়িতে প্রবেশ করে। এসময় ডাকাতরা ওই বাড়ির দ্বিতীয় তলার ভাড়াটিয়া ঢাকা পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের জুনিয়র এসিস্ট্যান্ট ম্যানেজার আব্দুল বাতেনের ফ্ল্যাটের দরজা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করে। পরে ফ্ল্যাটে থাকা আব্দুল বাতেন ও তার পরিবারের অন্য সদস্যদের অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে মারধর করে হাত-পা ও মুখ বেঁধে ফেলে। একপর্যায়ে ঘরের আলমারি থেকে নগদ ২৭ হাজার টাকা ও প্রায় দেড় ভরি স্বর্নালঙ্কার লুটে করে পালিয়ে যায় দূর্বৃত্তরা। পরে ওই ডাকাতদল পার্শ্ববর্তী হাজী শহিদুল্লাহ ভান্ডারির বাড়ির পেছনের দেয়াল টপকে ডাকাতির উদ্দেশ্যে বাড়িতে প্রবেশ করে। তবে বাড়ির লোকজন টের পেয়ে ডাক-চিৎকার শুরু করলে ডাকাতদল পালিয়ে যায়। এদিকে ডাকাতির ঘটনার সময় আব্দুল বাতেনের পরিবারের ১৫ বছর বয়সী কিশোরী নাহিদা আতঙ্কগ্রস্ত হওয়ায় তাকে হাসপাতালে নেয়া হয়েছে বলে জানা গেছে। নাহিদা আমজাদ আলী সরকার স্কুল অ্যান্ড গার্লস কলেজের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী। একই রাতে পাশাপাশি দুটি বাড়িতে ডাকাতির ঘটনার পর এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। সকাল থেকে উৎসুক জনতা ওই এলাকায় ভীড় জমায়। তবে গণমাধ্যমকর্মীদের ডাকাতি সংগঠিত হওয়া আব্দুল বাতেনের ফ্ল্যাটে  প্রবেশ করতে দেয়নি পুলিশ। দুপুর আড়াইটার দিকে পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল ত্যাগ করার পর ওই বাড়ির মূল গেইট বন্ধ করে দেয়া হয়। এর আগে ভুক্তভোগী কাজী মনির হোসেন রুবেল জানায়, রাতে আমি বাড়িতে একা একটি কক্ষে ঘুমিয়ে ছিলাম। ডাকাতদল আমার ঘরে প্রবেশ করে আলমারির ড্রয়ার থেকে নগদ ৭০ হাজার টাকা ও দেড় ভরি স্বর্ণালঙ্কার লুটে নেয়। সকালে পাশের বাড়িতে ডাকাতির ঘটনা জানাজানি হলে ঘুম ভেঙে দেখি আমার ঘরেও একই সময়ে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। আরেক ভুক্তভোগী আব্দুল বাতেন বলেন, রাতে ঘরের সবাই ঘুমিয়ে ছিলাম। হঠাৎ ভোররাত সাড়ে ৩টার দিকে বিকট শব্দে ঘুম ভেঙে যায়। এসময় ৬/৭জন ডাকাত ঘরের মূল দরজা ভেঙে প্রবেশ করেই আমাকে মারধর শুরু করে। একপর্যায়ে পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের দেশিয় অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে মারধর করে হাত-পা বেঁধে ফেলে এবং মুখে কাপড় গুঁজে দেয়। পরে ডাকাতদল আমাদের ঘরে থাকা নগদ ২৭ হাজার টাকা ও প্রায় দেড় ভরি স্বর্ণালঙ্কার লুট করে নিয়ে যায়। গাজীপুর মহানগর পুলিশের উপ-কমিশনার (অপরাধ দক্ষিণ) মোহাম্মদ ইলতুৎমিশ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ৫/৬জন দুস্কৃতিকারী বিদ্যুৎ অফিসের কর্মকর্তা আব্দুল বাতেনের ঘরের দরজা ভেঙে নগদ টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার নিয়ে গেছে। একই সময় পাশের আরও একটি বাড়ি থেকেও নগদ টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার লুট করে নেয়। দুস্কৃতিকারীরা ঘরের লোকজনকে ভয়ভীতি দেখিয়ে জিম্মি করে হাত-পা ও মুখ বেঁধে ডাকাতির ঘটনা ঘটিয়েছে। পুলিশের একাধিক টিম ঘটনার অনুসন্ধানে কাজ করছে। আশপাশের সিসি টিভির ফুটেজ দেখে অপরাধীদের শনাক্তের চেষ্টা চলছে। তবে এখন পর্যন্ত কেউই থানায় লিখিত অভিযোগ দেয়নি।

টঙ্গীতে ভূয়া পিবিআই  গ্রেফতার

গাজীপুর প্রতিনিধিঃ গাজীপুরের টঙ্গীতে আরিফ (২০)নামে এক ভূয়া পিবিআই সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পশ্চিম থানা পুলিশ। সোমবার দুপুরে টঙ্গী পশ্চিম থানা পুলিশ ওই ব্যাক্তির বিরুদ্ধে মামলা রুজু করে গাজীপুরের বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করে। এসময় তার কাছ থেকে পিবিআই লেখা সম্বলিত জ্যাকেট, বাংলাদেশ পুলিশ লেখা সম্বলিত মাস্ক এবং পুলিশ ইউনিফর্মে ব্যবহৃত বিভিন্ন প্রতীক উদ্ধার করা হয়। গ্রেফতারকৃত আরিফ হলেন হবিগঞ্জ জেলার সদর থানার মজলিশপুর গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে। টঙ্গী পশ্চিম থানা অফিসার ইনচার্জ শাহ আলম বলেন, রোববার সন্ধ্যায় টঙ্গী পশ্চিম থানাধীন সফিউদ্দিন একাডেমি রোড এলাকা হইতে গোপন সংবাদ এর ভিত্তিতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে আরিফ নামে এক ভূয়া পিবিআই পুলিশকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃত ব্যাক্তির কাছ থেকে পিবিআই লেখা সম্বলিত জ্যাকেট, বাংলাদেশ পুলিশ লেখা সম্বলিত মাস্ক এবং পুলিশ ইউনিফর্মে ব্যবহৃত বিভিন্ন প্রতীক উদ্ধার করা হয়। তার বিরুদ্ধে মামলা রুজু করে বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

টঙ্গীতে হেরোইন সহ মাদক কারবারি গ্রেফতার

গাজীপুর প্রতিনিধিঃ গাজীপুরের টঙ্গীতে ৮০ পুড়িয়া(০৮ গ্রাম) হেরোইন সহ জাহাঙ্গীর (২৪) নামে এক মাদক কারবারিকে গ্রেফতার করেছে টঙ্গী পশ্চিম থানা পুলিশ। সোমবার ভোরে টঙ্গীর হাজীর মাজার বস্তি থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এসময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে তার তিন সহযোগী পালিয়ে যায়। গ্রেফতারকৃত জাহাঙ্গীর(২৪) টঙ্গীর হাজীর মাজার বস্তি এলাকার সিরাজ মিয়ার ছেলে। টঙ্গী পশ্চিম থানার উপ পরিদর্শক মেহেদী হাসান জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সোমবার ভোরে হাজীর মাজার বস্তি এলাকার ক্লাব ঘরের সামনে থেকে জাহাঙ্গীরকে গ্রেফতার করা হয়। এসময় তার কাছথেকে পলিথিনে মোড়ানো অবস্থায় ৮০ পুড়িয়া হেরোইন উদ্ধার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় পলাতক আসামী বাবু(৩০), গেদা বাবু (২৬) আরাফাত(১৯) কে সঙ্গে নিয়ে দীর্ঘ দিন যাবৎ মাজার বস্তি ও আশপাশের এলাকায় হেরোইন বিক্রি করে আসছিল। টঙ্গী পশ্চিম থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ শাহ আলম জানান, মাদক আইন মামলা রুজু করে গ্রেফতারকৃত আসামীকে বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়েছে। পলাতক আসামীদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত আছে।

টঙ্গীতে ভোক্তা অধিকারের অভিযানে জরিমানা ও মামলা

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরের টঙ্গীতে অবৈধভাবে সয়াবিন তেল মজুতের মাধ্যমে কৃত্রিম সংকট সৃষ্টির অভিযোগে অভিযান পরিচালনা করে দুই প্রতিষ্ঠানকে ২ লাখ টাকা জরিমানা ও একটি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। বুধবার বেলা ২ টার দিকে স্থানীয় টঙ্গী বাজারে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর এ অভিযান পরিচালনা করে। এ সময় মজুদকৃত সয়াবিন তেলের দোকান বন্ধ থাকার অপরাধে মোমিন এন্ড ব্রাদার্সের মালিক নুরুল হকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। একই সময় ধার্যমূল্যের চেয়ে অধিক মূল্যে তেল বিক্রি করার অভিযোগে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর তাহের এন্ড সন্সকে ১লাখ টাকা ও নোয়াখালী বাণিজ্য বিতানকে ১লাখ টাকা জরিমানা করেন। এপিবিএন পুলিশের সহায়তায় এ অভিযানে নেতৃত্ব দেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের ঢাকা জেলা অফিস প্রধান ও গাজীপুর জেলার সহকারী পরিচালক (অতিরিক্ত দায়িত্ব) আব্দুল জব্বার মন্ডল। জেলা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা এতে অংশ নেন।

টঙ্গীতে ১৬০ কেজি গাঁজাসহ একজন গ্রেফতার

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরের টঙ্গীতে ১৬০ কেজি গাঁজাসহ রুবেল মিয়া(২৩) নামে এক মাদক কারবারিকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব ১। মঙ্গলবার সকালে টঙ্গীর কলেজগেট এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এসময় মাদক পরিবহনে ব্যবহৃত একটি পিক আপ ভ্যান জব্দ করা হয়। ওই দিন রাতে র‍্যাব ১ এর মিডিয়া অফিসার নোমান আহমদ সাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তি এই তথ্য নিশ্চিত করা হয়। গ্রেফতারকৃত রুবেল মিয়া কুমিল্লা জেলার দেবিদ্ধার থানার বড়শালঘর গ্রামের মৃত মনু মিয়ার ছেলে। সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরো জানানো হয়, কুমিল্লা থেকে পিকআপ ভ্যানে করে গাঁজার একটি বড় চালান গাজীপুরে আসছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে টঙ্গীর কলেজগেট এলাকায় অভিযান চালিয়ে ১৬০ কেজি গাঁজা সহ একজন গ্রেফতার করা হয়। এসময় তার কাছ থেকে  মাদক পরিবহণে ব্যবহৃত ০১ টি পিকআপ, ০১টি মোবাইল ফোন এবং নগদ ২ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, সে দীর্ঘদিন যাবৎ মাদক ব্যবসা করে আসছে। কুমিল্লা থেকে বিশেষ কৌশলে পিকআপযোগে গাজীপুর সহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় মাদকদ্রব্য সরবরাহ করে আসছিল। উদ্ধারকৃত মাদকদ্রব্য ও গ্রেফতারকৃত আসামীকে সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

গাজীপুরে ২ হাজার ৫৮ লিটার সয়াবিন তেল জব্দ।

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ   গাজীপুর মহানগরীর বোর্ডবাজার এলাকার একটি গুদাম থেকে অবৈধভাবে মজুদকৃত ২ হাজার ৫৮ লিটার সয়াবিন তেল জব্দ করেছে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। এসময় গুদাম মালিককে দুই লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়াও একই এলাকার আরও একটি দোকান মালিককে সরকার নির্ধারিত মূল্যের বেশি দামে তেল বিক্রি ও মূল্য তালিকা না থাকায় এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে বোর্ড বাজারের মনির ট্রেডার্স ও মেসার্স আর পি ট্রেডার্সের গুদামে এ অভিযান চালানো হয়। অভিযানে নেতৃত্ব দেন ভোক্তা অধিদপ্তর গাজীপুরের সহকারী পরিচালক (অতিরিক্ত দায়িত্ব) আব্দুল জব্বার মন্ডল। তিনি বলেন, অবৈধভাবে সয়াবিন তেল মজুতের মাধ্যমে কৃত্রিম সংকট সৃষ্টির অভিযোগে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বোর্ডবাজার এলাকায় মান্নান টাওয়ারে অবস্থিত মেসার্স মনির জেনারেল স্টোরে অভিযান পরিচালনা করা হয়। দোকান মালিক তার গুদামে এক লিটার, দুই লিটার ও পাঁচ লিটার পরিমাণের বোতলজাত দুই হাজার ৫৮ লিটার সয়াবিন তেল অবৈধভাবে মজুত করে রেখেছিলেন। এসব তেল ঈদের আগে কম দামে ক্রয় করে মজুদ করে রাখা হয়েছিল অতিরিক্ত মুনাফায় বিক্রি করার উদ্দেশ্যে। বাজারে সংকট তৈরি করে দোকান মালিক বর্তমান অতিরিক্ত মূল্যে বিক্রি করছিলেন। এ কারণে দোকান মালিক মনির হোসেনকে দুই লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। পরে পার্শ্ববর্তী মেসার্স আরপি ট্রেডার্স প্রতিষ্ঠানে সরকার নির্ধারিত মুল্যের বেশি দামে তেল বিক্রি ও মূল্য তালিকা না থাকায় এক লাখ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। মেসার্স মনির জেনারেল স্টোরের গুদাম থেকে জব্দকৃত সয়াবিন ১৬০ টাকা দরে ১ লিটার, ৩১৮ টাকায় দুই লিটার ও ৭৬০ টাকা দরে ৫ লিটার তেল জনসাধারণের মধ্যে বিক্রি করা হয়। ন্যায্য মূল্য তেল পেয়ে স্বস্তির কথা জানিয়েছেন সাধারন ভোক্তারা। অপরদিকে, মেসার্স আরপি ট্রেডার্সের তেলগুলো পূর্বের কেনা দাম অর্থাৎ ১৪৩ টাকা দরে প্রতি লিটার বিক্রি করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। অভিযানে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ ও জেলা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা অংশ নেন।

পবিত্র ঈদ উল ফিতর উপলক্ষে এলাকাবাসীকে শুভেচ্ছা - মোক্তার হোসেন রতন

টঙ্গী গাজীপুর প্রতিনিধিঃ পবিত্র ঈদ উল ফিতর উপলক্ষে ৪৪নং ওয়ার্ড এলাকাবাসীকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন তরুন মেধাবী যুবলীগ নেতা মোক্তার হোসেন রতন। তিনি বলেন, ঈদুল ফিতর মুসলমানদের অন্যতম প্রধান ধর্মীয় উৎসব। মাসব্যাপী সিয়াম সাধনা ও সংযম পালনের পর অপার খুশি আর আনন্দের বারতা নিয়ে আমাদের মাঝে আসে পবিত্র ঈদুল ফিতর। এ আনন্দ ছড়িয়ে পড়ে সবার মাঝে। মাসব্যাপী সিয়াম সাধনার পর মুসলমানদের জীবনে অনাবিল শান্তি ও আনন্দের বার্তা নিয়ে আসে ঈদ-উল-ফিতর। আর ঈদ-উল-ফিতরের উৎসব মুসলমানদের নিবিড় ভ্রাতৃত্ববোধে উদ্বুদ্ধ করে। সকল সামাজিক ভেদাভেদ ভুলে গিয়ে মুসলমানরা এক কাতারে দাঁড়িয়ে ঈদের আনন্দ নিজেরা ভাগ করে নেয়। তাই ঈদ-উল-ফিতরের শিক্ষা নিয়ে আমাদের অঙ্গীকার হোক সকল হিংসা, বিদ্বেষ ও হানাহানি থেকে মুক্ত হয়ে ঐক্যবদ্ধ ও ভালোবাসাপূর্ণ সমাজ এবং দেশ গঠনের জন্য একযোগে কাজ করা। সকলকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঈদ উদযাপন করার আহ্বান জানান তিনি।

শেখ রাসেল জাতীয় শিশু কিশোর পরিষদ টঙ্গী পশ্চিম থানা কমিটি ঘোষণা

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ   শেখ রাসেল জাতীয় শিশু কিশোর পরিষদ টঙ্গী পশ্চিম থানা শাখার ৯ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। এতে সভাপতি হিসাবে আছেন সাঈদ খোকন ও সাধারন সম্পাদক হিসাবে আছেন শাহীন আলম। কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন সহ সভাপতি ইমতিয়াজ আহমেদ জিম, শাহরিয়ার শাওন ও সিয়াম। যুগ্ন সাধারন সম্পাদক ফারুক হোসেন ও আরাফাত হোসেন। সাংগঠনিক সম্পাদক নাফিসুর রহমান রাফি ও এস আই সুমন। শনিবার (৩০ এপ্রিল) শেখ রাসেল জাতীয় শিশু কিশোর পরিষদ গাজীপুর মহানগর শাখার সভাপতি হেলাল উদ্দিন হেলাল ও সাধারন সম্পাদক অমিত সাহা সাক্ষরিত সংগঠনের নিজস্ব পেডে এই কমিটি অনুমোদন দেওয়া হয়।  এতে আরো বলা হয় টঙ্গী পশ্চিম থানার পূর্বের কমিটি মেয়াদোত্তীর্ণ হওয়ায় পুরোনো কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করা হলো সেই সাথে সাংগঠনিক কার্যক্রম বৃদ্ধির লক্ষ্যে এক বছর মেয়াদী নতুন কমিটি অনুমোদন করা হলো।

বাবা-মা’র কবরের পাশে সমাহিত হবেন সাবেক মেয়র অধ্যাপক মান্নান

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ   বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান, সাবেক মন্ত্রী ও গাজীপুর সিটি করপোরেশনের প্রথম মেয়র অধ্যাপক এম এ মান্নানকে তার গাজীপুর মহানগরের বাড়িতে পারিবারিক কবরস্থানে সমাহিত করা হবে। বৃহস্পতিবার (২৮ এপ্রিল) রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। জানাযা এবং সমাহিতের বিষয়টি জানতে বিকেলে তার ছেলে মঞ্জুরুল করিম রনি’র ব্যক্তিগত মোবাইল ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে গাজীপুর মহানগর ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ ফারহাজ বিন ফয়েজ প্রবাল ফোনটি রিসিভ করেন। এসময় মঞ্জুরুল করিম রনি’র বরাত দিয়ে সৈয়দ ফারহাজ বিন ফয়েজ প্রবাল জানান, শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টায় নয়াপল্টনে বিএনপি’র কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে প্রথম জানাযা অনুষ্ঠিত হবে। এরপর বাদ জুমা গাজীপুর জেলা রাজবাড়ি মাঠ এবং সালনা নাসির উদ্দিন মেমোরিয়াল উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে তার তৃতীয় জানাযা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে মা-বাবার কবরের পাশে তাকে দাফন করা হবে। আলহাজ্ব অধ্যাপক এম এ মান্নান গাজীপুর জেলা সদরের দক্ষিণ সালনায় ১৯৫০ সালে জন্মগ্রহণ করেন। সালনা প্রাইমারি স্কুল থেকে পঞ্চম শ্রেণি পাস করে ষষ্ঠ শ্রেণিতে ভর্তি হন জয়দেবপুর রানী বিলাসমণি স্কুলে। সপ্তম ও অষ্টম শ্রেণি পড়েন ময়মনসিংহ মুসলিম হাই স্কুলে এরপর নবম ও দশম শ্রেণি ময়মনসিংহ জিলা স্কুলে পড়ে এসএসসি পাস করেন। কলেজ জীবনের এইচএসসি ও ডিগ্রি পাস করেন ময়মনসিংহ আনন্দমোহন কলেজ থেকে। এভাবেই ময়মনসিংহের শিক্ষাজীবন শেষ করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ফলিত রসায়নে এমএসসিতে ভর্তি হন। পরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে লেখাপড়া শেষ করে টঙ্গী কলেজে শিক্ষক হিসেবে কর্মজীবন শুরু। তখন থেকেই শিক্ষকতার পাশাপাশি রাজনীতি ও বিভিন্ন সামাজিক কর্মকান্ডে নিজেকে সক্রিয় রেখেছেন। টঙ্গী কলেজ ছেড়ে পরে তিনি গাজীপুর কাজী আজিম উদ্দিন কলেজে যোগদান করেন। রাজনীতি: দীর্ঘ বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক জীবনে তিনি দলের সদস্য থেকে শুরু করে বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম মহাসচিব এবং বর্তমানে বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। মান্নানের রাজনৈতিক উত্থান শুরু ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন থেকে। অবশ্য এর আগে শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের আমলে দলীয়ভাবে সালনা গ্রাম সরকার প্রধানের দায়িত্ব পান তিনি। পরে জাতীয় গ্রাম সরকারের কেন্দ্রীয় সদস্য সচিবেরও দায়িত্বে ছিলেন। অধ্যাপক মান্নান প্রথম’ ৮৪ সালে অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে কাউলতিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। পরে আরও পরপর চার বার তিনি ইউপি চেয়ারম্যান নির্বাচন করে বিজয়ী হন। তিনি ১৯৯১ সালের সংসদ নির্বাচনে গাজীপুর-২ (গাজীপুর সদর ও টঙ্গী) আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। দেশের সর্বোচ্চ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়ে এম এ মান্নান বিএনপি সরকারের ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব পান। পরে প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দেয়া হয় তাকে। কিছুদিন ধর্মবিষয়ক প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্বও পালন করেন তিনি।

গাজীপুরে ১৭ মামলার আসামী ছাত্রলীগ নেতা রবিন সরদার গ্রেফতার

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ  গাজীপুর মহানগরীর সুনামধন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ভাওয়াল বদরে আলম সরকারি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের কথিত নেতা ১৭ মামলার আসামী নুরুজ্জামান সরদার রবিন ওরফে রবিন সরদার সহ চারজনকে গ্রেফতার করেছে গাজীপুর মেট্রোপলিটন সদর থানা পুলিশ। বুধবার দুপুরে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের ২২নং ওয়ার্ডের জাহাঙ্গালিয়া পাড়ায় বেন্টিলি সোয়েটার লিমিটেড নামক একটি পোশাক কারখানার বর্জিত মালামালের ব্যবসায়ীর কাছে ৩ লাখ টাকা চাঁদা দাবির অভিযোগে উক্ত কারখানা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। এ ঘটনায় কারখানার ব্যবস্থাপক ফজলুল হক বাদী হয়ে ৬ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত ৩০-৪০ জনকে আসামি করে গাজীপুর সদর থানায় একটি চাঁদাবাজির মামলা দায়ের করেছেন। গ্রেপ্তারকৃত হলেন, শরীয়তপুরের গোসাইরহাট থানার মোল্লাপাড়া গ্রামের মৃত রুহুল আমিন সরদারের ছেলে রবিন সরদার (২৬), একই এলাকার সিরাজ সরদারের ছেলে শাহীন ওরফে শামীম সরদার (৩২), গাজীপুরের যোগীতলা এলাকার আব্দুল মতিনের ছেলে জোবায়ের আহম্মেদ হাওলাদার (২১) ও চতর এলাকার আতাউল্লাহর ছেলে মনির (২৬)। এজাহার সূত্রে জানা যায়, নগরীর জাঙ্গালিয়াপাড়া এলাকায় আওয়ামীলীগের সাবেক সাংসদ এইচ বি এম ইকবালের মালিকানাধীন বেন্টিলি সোয়েটার লিমিটেড নামের কারখানার বর্জিত  মালামাল ক্রয় করেন ব্যবসায়ী আবু হানিফ। ফেব্রুয়ারি মাস থেকে ক্রয়কৃত মালামাল নিতে থাকেন ওই ব্যাবসয়ী। কিছুদিন যাবৎ ছাত্রলীগ নেতা রবিন সরদার ও তার সহযোগীরা ওই ব্যবসায়ীর কাছে ৩ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে আসছিলেন। কথিত ছাত্রলীগ নেতা রবিন সরদার ২০১৩ সাল থেকে ২০২২ সাল পর্যন্ত চাঁদাবাজি, অপহরণ, নারী নির্যাতনসহ ১৭ মামলা আসামী হয়েছেন।  রাজনৈতিক জীবন বেপরোয়া হয়ে উঠা রবিন সম্প্রতি তার অপকর্ম ধামাচাপা দিতে পুলিশের বিরুদ্ধেও মানববন্ধন করেছেন। সরেজমিন অনুসন্ধানে জানা যায়, রাজনৈতিক জীবনে পা রেখে জয়দেবপুর থানায় প্রথম মামলার আসামী হয়েছেন রবিন ২০১৩ সালে যার মামলা নং ৩৪(৯) ধারা ১৪৩/৩৪২/৩২৩/৩২৪/ ৩২৬/ ৩০৭/৩০২/৫০৬/১১৪ এরপর ২০১৭ সাল থেকে পর্যায়ক্রমে তার অপকর্মের কারনে জয়দেবপুর, বাসন ও সদর থানায় একে একে ১৫ টি মামলা হয় যার মামলা নম্বরগুলো হলো জয়দেবপুর থানা ০৭(৪)১৭ ধারা, ১৪৩/৪৪৮/ ৩২৩/ ৩৩২/৩৫৩/১৮৬/৪২৭/৫০৬। জয়দেবপুর থানা ১৪৭(৪)১৭ ধারা, ২০০০ সনের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ( সংশোধনী/২০০৩) এর ৯(৩)/৩০। জয়দেবপুর থানা মামলা নং ৪৫(৮)১৭ ধারা ১৪৩/৩২৩/৩২৫/৩২৬/৩০৭/৩৭৯/৫০৬ ও সি/এস নং ২৫১ ৩/৯/২০১৯। জয়দেবপুর থানা মামলা নং ১১১(৯) ১৭ ধারা ১৪৩/৩২৩/৩২৫/ ৩২৬/৩০৭/৩৭৯/৫০৬। জয়দেবপুর থানা মামলা নং ৭১(১০)১৭ ধারা১৪৩/৩২৪/৩২৫/৩২৬/৩০৭/ ৩০৩/১১৪। সদর থানা মামলা নং ১৯(০২)১৯ ধারা ১৪৩/৩২৩/৩২৬/৩০৭/৫০৬/(২)। বাসন থানা মামলা নং ৩৬(৫)১৯ ধারা ১৪৩/১৪১/৩২৩/৩২৪/ ৩২৬ / ৩০৭/৩৭৯/৪২৭/৫০৬/১১৪। বাসন থানা মামলা নং ২১(৬)১৯ ধারা ১৪৩/৪৪৮/৩২৩/ ৩৭৯/ ৩০৭/৫০৬। বাসন থানা মামলা নং ২২(৬)১৯ ধারা দ্রুত বিচার আইন ৪/৫। বাসন থানা মামলা নং ২৩ (৬)১৯ ধারা ৩৪১/৩৮৫/৩৪। বাসন থানা মামলা নং ২৮(৬) ১৯ ধারা ১৪৩/৩৪১/৩২৩/৩২৫/৩০৭/ ৩৭৯/৫০৬। বাসন থানা মামলা নং ২৯(৬)১৯ ধারা ১৪৩/৩৪১/৩২৩/৩২৫/৩০৭/ ৩৭৯/৩৮৫/৫০৬। মামলা নং ৩০(৬)১৯ ধারা ১৪৩/৩৪১/৩২৩/৩২৫/ ৩০৭/৩৭৯/৩৮৫/৫০৬। সদর থানা মামলা নং ৩৫ (০১)২০২১ ধারা ১৪৩/৩৬৫/৩২৩/৫০৬/৩৪। চাঁদাবাজি ও পুলিশের কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগে গতকাল গাজীপুর সদর থানায় আরো দুইটি মামলা দায়ের হয়েছে। বেপরোয়া ওই কথিত ছাত্রলীগ নেতা রবিন সরদারের মত এমন একজন চিহ্নিত অপরাধী সম্প্রতি মহাসড়ক অবরোধ করে পুলিশের বিরুদ্ধেও মানববন্ধন করেছিলেন। এতে এলাকা সৃষ্টি হয়েছিল ব্যাপক চাঞ্চল্য দেখা দিয়েছিল মিশ্র প্রতিক্রিয়া। এলাকাবাসীর অভিযোগ সরকারি দলের প্রভাবশালী নেতাদের ছত্রছায়ায় এতটা বেপরোয়া হয়ে উঠেছিলেন রবিন সরদার। তার গ্রেফতারের খবর ছড়িয়ে পড়লে জনমনে স্বস্তি ফিরে আসে। এধরনের চিহ্নিত অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী করেছেন এলাকাবাসী ও কলেজ শিক্ষার্থীরা।  গাজীপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম বলেন, ভাওয়াল বদরে আলম কলেজের ছাত্রলীগ নেতা রবিন সরদারের বিরুদ্ধে গাজীপুরের বিভিন্ন থানায় চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন অভিযোগে ১৭টি মামলা রয়েছে।

টঙ্গীতে ছাত্রলীগের আনন্দ মিছিল

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ   গাজীপুরে ছাত্রলীগের নতুন কমিটি ঘোষনার পর ছাত্রলীগের উদ্যোগে টঙ্গীতে আনন্দ মিছিল বের করা হয়। বুধবার রাতে টঙ্গী থানা আওয়ামীলীগের কার্যলয় থেকে মিছিলটি বের হয়ে নতুন বাজার থেকে শুরু করে ষ্টেশনরোড হয়ে ঢাকা ময়মনসিংহ মহাসড়কের বিভিন্ন পয়েন্ট প্রদক্ষিন করে দলীয় কার্যলয়ে গিয়ে শেষ হয়। অনন্দ মিছিলে উপস্থিত ছিলেন, টঙ্গী সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি কাজী মনজুর, ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সভাপতি শাহাজাদা সেলিম লিটন, দ্বীন মোহাম্মদ নীরব, ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রোমান দেওয়ান, আল আমিন হোসেন, ইব্রাহিম সানি, থানা ছাত্রলীগের নেতা আসাদ সিকদার প্রমুখ। উল্লেখ্য, বুধবার (২৭ এপ্রিল) কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি আল-নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য স্বাক্ষরিত এক পত্রের মাধ্যমে গাজীপুর মহানগর ছাত্রলীগের নতুন কমিটি ঘোষনা করা হয়। এতে সভাপতি হিসেবে মশিউর রহমান সরকার বাবু ও শেখ মোস্তাক আহমেদ কাজলকে সাধারণ সম্পাদক করা হয়। এছাড়াও কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য হয়েছেন, রাজিব হায়দার সাদিম, মঈন মোল্লা, কাজী মোহাম্মদ সাকির, ইমরান সরকার বাবু, সায়মন সরকার, কাজী রাব্বি হাসান শুভ, ইলিয়াস আহমেদ। বিষয়টি নিশ্চিত করেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের দপ্তর সম্পাদক ইন্দ্রনীল দেব শর্মা রনি।

টঙ্গীতে বিপুল পরিমান গাঁজা উদ্ধার

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ   গাজীপুরের টঙ্গীতে বিপুল পরিমান গাঁজাসহ ফারুক হাওলাদার(৩৫)নামে এক মাদক কারবারিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গতকাল বৃহস্পতিবার ভোর রাতে টঙ্গীর গোপালপুর এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এসময় তার কাছ থেকে ২৮কেজি গাঁজা ও মাদক পরিবহনে ব্যবহৃত পাইভেটকার জব্দ করা হয়। গ্রেফতারকৃত ফারুক হাওলাদার পটুয়াখালী জেলার বাউফল থানার সিংরা কাঠি গ্রামের মৃত ইদ্রিস হায়দারের ছেলে। সে টঙ্গীর টিএনটি বাজার এলাকার জৈনেক মোরর্শেদের বাড়ীতে ভাড়া থেকে মাদক ব্যবসা পরিচালনা করতেন। টঙ্গী পূর্ব থানার অফিসার ইনচার্জ জাভেদ মাসুদ জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার ভোর রাতে টঙ্গীর গোপালপুর এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ফারুক হাওলাদার নামে এক মাদক কারবারিকে আমরা গ্রেফতার করি। এসময় তাদের কাছ থেকে ২৮কেজি গাঁজা ও মাদক পরিবহনে ব্যবহৃত একটি পাইভেটকার জব্দ করা হয়। নিয়মিত আইনে মামলা রুজু করে বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়।

টঙ্গীতে দূর্বৃত্তদের ছুরিকাঘাতে পোশাককর্মী খুন

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ   গাজীপুরের টঙ্গীতে দূর্বৃত্তদের ছুরিকাঘাতে এক পোশাককর্মী নিহত হয়েছেন। বুধবার রাত সোয়া ৮টার দিকে টঙ্গীর মরকুন টেকপাড়া ক্রিস্টিয়ান হাউজিং সংলগ্ন বালুর মাঠে এ ঘটনা ঘটে। গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার (অপরাধ) মোহাম্মদ ইলতুৎ মিশ বিষয়টি নিশ্চিত করেন। ৪৫ বছর বয়সী নিহত আবুল কাশেম জামালপুর জেলার ইসলামপুর থানার পাতসী গ্রামের মৃত নুর হোসেনের ছেলে। তিনি স্বপরিবারে মরকুন টেকপাড়া এলাকার মৃত আমিনুল হকের বাড়িতে ভাড়া থাকতেন এবং স্থানীয় নোমান ফেব্রিকস-২ এ সুপারভাইজার হিসেবে কর্মরত ছিলেন। নিহতের শ্যালক সোলয়ামান জানান, রাত ৮টায় কারখানা ছুটির পর বাসায় ফিরছিলেন আবুল কাসেম। এসময় ওই এলাকায় পৌছলে অজ্ঞাত কয়েকজন দুর্বৃত্ত তার গতিরোধ করে। দুর্বৃত্তরা তাকে এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়। আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে তাকে আহত গুরুতর অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে পরিবারের লোকজনকে খবর দেয়। তারা ঘটনাস্থল থেকে কাসেমকে উদ্ধার করে টঙ্গীর শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসে। সেখানে পরীক্ষা-নিরিক্ষার পর কর্ত্যবরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। সোলায়মান আরও বলেন, কিছুদিন পূর্বে কারখানার একজন শ্রমিকের বিরুদ্ধে এজিএম এর নিকট বিচার দেয় আমার দুলাভাই। ওই ঘটনায় অভিযুক্ত শ্রমিককে চাকরিচ্যুত করে কর্র্তৃপক্ষ। হয়তো ওই ঘটনার জের ধরে এ হত্যাকান্ড ঘটতে পারে। শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক নুরুন নাহার জান্নাত বলেন, হাসপাতালে আনার পূর্বেই ওই পোশাক শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। তার বুকের ওপর, পেটের নিচের অংশ ও পিঠে গভীর জখমের চিহ্ন রয়েছে। গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার (অপরাধ) মোহাম্মদ ইলতুৎ মিশ জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে পুলিশ। আশপাশের সিসি ক্যামেরা দেখে দুর্বৃত্তদের সনাক্তের চেষ্টা চলছে। নিহতের লাশের সুরতহাল শেষে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

গাজীপুর মহানগর ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ   গাজীপুর মহানগরে ছাত্রলীগের নতুন কমিটি ঘোষণা করেছে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ।বুধবার (২৭ এপ্রিল) কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি আল-নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য স্বাক্ষরিত এক পত্রের মাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়েছে। নতুন কমিটিতে মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি হিসেবে মোঃ মশিউর রহমান সরকার বাবু ও শেখ মোস্তাক আহমেদ কাজলকে সাধারণ সম্পাদক করে নতুন কমিটি ঘোষণা করা হয়। এছাড়াও কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য হয়েছেন, রাজিব হায়দার সাদিম, মঈন মোল্লা, কাজী মোহাম্মদ সাকির, ইমরান সরকার বাবু, সায়মন সরকার, কাজী রাব্বি হাসান শুভ ও ইলিয়াস আহমেদ। ২০১৩ সালে গাজীপুর সিটি করপোরেশন গঠনের পর সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ ৮টি পদের নাম ঘোষণা করে ওই বছরের ১১ অক্টোবর মাসুদ রানা এরশাদকে সভাপতি ও তৌহিদুল ইসলাম দীপকে সাধারণ সম্পাদক করে গাজীপুর মহানগর ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা করে তৎকালীন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটি। এর প্রায় ১ বছর পর ১৫১ সদস্যের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হয়। ২০১৬ সালের ৩ নভেম্বর মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি মাসুদ রানা এরশাদকে অব্যাহতি দিয়ে ইকবাল হোসেন পাঠানকে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ঘোষণা করে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নির্বাহী সংসদ। তার সভাপতিত্বে ২০১৮ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি সম্মেলনের মাধ্যমে পুরনো কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করে নতুন কমিটি গঠনের জন্য পদ প্রত্যাশীদের জীবন বৃত্তান্ত সংগ্রহ করে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ। সম্মেলনের দীর্ঘ চার বছর পর বুধবার (২৭ এপ্রিল) বিকেলে মহানগর ছাত্রলীগের নতুন কমিটি ঘোষণা করা হয়।

তদন্ত প্রায় শেষ প্রতিটি টাকার হিসাব দিতে হবে- গাসিক মেয়র

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র(ভারপ্রাপ্ত) আসাদুর রহমান কিরণ বলেন, কথাবার্তা হিসাব করে বলবেন, সিটি কর্পোরেশনের অর্থ কিভাবে গাজীপুরের বাহিরে দেওয়া হয়েছে এগুলোর জবাব আপনাকে দিতে হবে। আপনি জবাবের জন্য প্রস্তুত হন। তদন্ত কমিটির কার্যক্রম প্রায় শেষ পর্যায়ে। আমরা যতটুকু জেনেছি অল্পসময়ের মধ্যে তদন্ত রির্পোট প্রকাশ হলে সমস্ত জিনিসগুলো আপনারা জানতে পারবেন। সোমবার বিকেলে টঙ্গী সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের উদ্যোগে আয়োজিত ইফতার ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। টঙ্গী সরকারি কলেজ শাখা ছাত্রীগের সভাপতি কাজী মনজুর এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মতিউর রহমান মতি, টঙ্গী সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসার রফিকুল ইসলাম, গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের অপরাধ দক্ষিণ বিভাগের উপ পুলিশ কমিশনার ইলতুৎ মিশ, অতিরিক্ত উপ পুলিশ কমিশনার হাসিবুল আলম, টঙ্গী সরকারি কলেজের উপাধ্যক্ষ ড. সুফিয়া বেগম, শিক্ষক পরিষদের  সম্পাদক ড. আবুল কালাম। আরো উপস্থিত ছিলেন, টঙ্গী থানা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি কে এম নাছির, স্থানীয় কাউন্সলর নাছির মোল্লা, ৪৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সির নুরুল ইসলাম নুরু, হাজী হাসান উদ্দিন, তানজিদুল ইসলাম তামিম, শ্রাবন বেপারী অপু প্রমুখ।

টঙ্গীতে পাঁচ ডাকাত গ্রেফতার

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরের টঙ্গীতে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে দেশীয় অস্ত্রসহ পাঁচ ডাকাতকে গ্রেফতার করেছে টঙ্গী পশ্চিম থানা পুলিশ। এসময় তাদের কাছ থেকে দেশীয় পাঁচটি ছোড়া উদ্ধার করা হয়। রবিবার রাতে টঙ্গী হাজী মাজার বস্তি এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, মাগুরা জেলার মৃত আকবর মোল্লার ছেলে নান্নু মিয়া (৪৫), গাজীপুর জেলার টঙ্গী হাজী মাজার বস্তি সোহেলের ছেলে জয় (১৯) একই এলাকার মৃত মোসলেম উদ্দিনের ছেলে বাবু বাবুর্চি(৪৮), কুমিল্লা জেলার মৃত ইদ্রিস আলীর ছেলে আব্দুল মামুন (৫১) ও হাজী মাজার বস্তি বাবুল মিয়ার ছেলে শরিফ হোসেন (২২)। তারা সকলে হাজী মাজার বস্তি এলাকায় বসবাস করত । টঙ্গী পশ্চিম থানার উপ পরিদর্শক মেহেদী হাসান জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে টঙ্গীর হাজীর মাজার বস্তি এলাকার সড়ক ও জনপথ বিভাগের কার্যালয়ের সামনে থেকে অভিযান চালিয়ে দেশীয় অস্ত্রসহ পাঁচ ডাকাত গ্রেফতার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আসামীরা জানায় তারা টঙ্গীর বিভিন্ন এলাকায় দীর্ঘদিন যাবত ছিনতাই ও ডাকাতির করে আসছিলো। এবিষয়ে টঙ্গী পশ্চিম থানার অফিসার ইনচার্জ শাহ আলম জানান, গ্রেফতারকৃত ডাকাত সদস্যদের বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। আসামীদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পাঁচ দিনের রিমান্ড চাওয়া হয়েছে।

টঙ্গীতে ছাত্রলীগের উদ্যোগে ইফতার ও দোয়া

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ  পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষে টঙ্গী পূর্ব থানা ছাত্রলীগের উদ্যোগে শহীদ আহ্সান উল্লাহ্ মাস্টার এমপি'র রুহের মাগফেরাত কামনা করে কোরআন খতম, ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার বিকেলে টঙ্গীর নোয়াগাঁও এলাকায় এ অনুষ্ঠান আয়োজন করেন টঙ্গী পূর্ব থানা ছাত্রলীগের সভাপতি পদপ্রার্থী ও ৪৬ নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সভাপতি শাহাজাদা সেলিম লিটন। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মতিউর রহমান মতি, বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)'র সদস্য ও গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের ৪৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর নুরুল ইসলাম নুরু, আওয়ামীলীগ নেতা কাওসার সরকার। এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন, গাজীপুর মহানগর মহিলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নাজমা হোসেন, মহানগর যুবলীগের আহবায়ক সদস্য কাইয়ুম সরকার, মহানগর বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি রেজাউল করিম, ৪৭ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের আহবায়ক হাজী আনোয়ার, ৪৬ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগে যুগ্ন আহবায়ক জাহাঙ্গীর আলম, গাজীপুর মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি পদপ্রার্থী মশিউর রহমান সরকার বাবু, টঙ্গী পূর্ব থানা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি পদপ্রার্থী হুমায়ুন কবির বাপ্পি, টঙ্গী পূর্ব থানা যুবলীগের সাধারন সম্পাদক পদপ্রার্থী লিটন উদ্দিন সরকার, টঙ্গী পূর্ব থানা তাতীলীগের সভাপতি পদপ্রার্থী মহসিন ইসলাম আকাশ যুবলীগ ৪৮ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদপ্রার্থী মহর মৃধা যুবলীগ নেতা জসিম মাদবর সহ আওয়ামী অঙ্গসংগঠন নেতাকর্মীবৃন্দ।

পুবাইলে গাজীপুর মহানগর যুবলীগের উদ্যোগে ইফতার বিতরণ

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষে গরীব অসহায় রোজাদারদের মাঝে ইফতার বিতরণ করেছে গাজীপুর মহানগর যুবলীগ। শুক্রবার (২২এপ্রিল) বিকালে পুবাইলের মাঝুখান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এই ইফতার বিতরন অনুষ্ঠিত হয়। গাজীপুর মহানগর যুবলীগের আহ্বায়ক আলহাজ্ব কামরুল আহসান সরকার রাসেল এর সভাপতিত্বে  অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মহানগর যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক সাইফুল ইসলাম, সুমন আহমেদ শান্ত বাবু, এস এম আলমগীর হোসেন , আহবায়ক কমিটির সদস্য, কাইয়ুম সরকার, রাজিবুল হাসান, ইকবাল মাস্টার, দেলোয়ার হোসেন দেলু, মহানগর যুবলীগ নেতা আতিকুর রহমান খান রাহাত, পূবাইল থানা যুবলীগ নেতা শেখ হালিম মন্ডল, আশরাফুল আলম,এডভোকেট নাজমুল হোসেন,টঙ্গী পূর্ব থানা যুবলীগ নেতা আমান উদ্দিন  আমান, লিটন উদ্দিন সরকার, শেখ আশরাফুল, রফিকুল ইসলাম রবি প্রমুখ।

গাজীপুরে চোর সন্দেহে বেধড়ক মারধর, অপবাদ সইতে না পেরে আত্মহত্যা!

গাজীপুর প্রতিনিধিঃ মোবাইল চুরির অপবাদে পাষবিক নির্যাতনের শিকার হন নজরুল ইসলাম (৪৫)। গ্রাম্য সালিশে, ভুরুলিয়া এলাকার স্থায়ী বাসিন্দা জাহানারা বেগমের বাসা থেকে মোবাইল চোর সন্দেহে নজরুলকে ডেকে নিয়ে জাহানারার বাসায় দিনভর আটকে রেখে হাতুরি ও লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে অমানুষিক নির্যাতন করা হয়। সন্দেহভাজন চোর হিসেবে নজরুলকে বেদড়ক পেটায় কার্তিক চন্দ্র দে ও জাহানারার স্বামী আব্দুল মালেকসহ স্থানীয় লোকজন। নজরুলকে মারধরের ঘটনার বর্ণণা দিতে গিয়ে শিউরে উঠেন প্রত্যক্ষদর্শীরা। লোহার রড দিয়ে শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত ও বাঁশ বেত দিয়ে এলোপাতাড়ি মারধর যেন-নির্মমতাকেও হার মানায়। গত ১১ এপ্রিল গাজীপুর মহানগরীর ২৫ নং ওয়ার্ড মধ্য ভূরুলিয়া এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে। এরপর ১৭ এপ্রিল রবিবার নজরুলকে আবারও মারধর করেন তার ছোট ভাই জহিরুল। এমন সব অপমান সইতে না পেরে লজ্জায় ফ্যানের আড়ার সঙ্গে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন নজরুল। আত্মহত্যার রহস্য জনমনে সন্দেহের জাল ছড়াচ্ছে।  নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অনেক প্রত্যক্ষদর্শী জানান, আত্মহত্যার এ বিষয়টি ধামাচাপা দিতে মরিয়া হয়ে উঠেন স্থানীয় কাউন্সিলর মো. মুজিবুর রহমান সরকার। পুলিশকে না জানিয়ে জানাজা পড়িয়ে লাশ দাফনের চেষ্টা চালান তিনি। পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে লাশ মাটি দিতে না দিয়ে ময়নাতদন্তের জন্য শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। নজরুলের শরীরের বিভিন্ন স্থানে হাতুড়ি ও লাঠির আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। সূত্র জানায়, নিহত নজরুল ইসলাম (৪৫) মধ্য ভূরুলিয়া এলাকার মৃত নান্নু মিয়ার সন্তান। প্রথমে সদর থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার ও সন্দেহভাজন চোর হিসেবে মারধরের ঘটনা জানার পর কঠোর অবস্থানে থাকলেও রাতারাতি পাল্টে যায় সব। পরের দিন নিহতের স্ত্রী মোছা: পারভীন মেট্রোপলিটন সদর থানা বরাবর ‘অপমৃত্যুর সংবাদ প্রসঙ্গে’ বিষয়ে একটি আবেদন করেন। আবেদনে ঘটনাটিকে সম্পূর্ণ উল্টো পথে প্রবাহিত করা হয়। আবেদনটিতে পারভীন উল্লেখ করেন, ১৭ এপ্রিল রবিবার তার স্বামী নজরুল নেশা করার জন্য ২৫০ টাকা চান। টাকা না দেয়ায় নজরুল বাড়িতে ভাংচুর এবং আত্মহত্যার হুমকি দেন। পরে পারভীন বাড়ির পাশে ধান কাটতে গেলে নজরুল ফ্যানের আড়ার সঙ্গে ঝুলে ফাঁস নেন। পরে কাউন্সিলসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিরা বিষয়টি জানতে পেরে পুলিশে খবর দেয়। বস্তুত এ ঘটনার সাথে বাস্তবে ঘটে যাওয়া ঘটনার কোন মিল নেই। কারণ কাউন্সিলর বিষয়টি ধামাচাপা দিতে চেয়েছেন এবং আত্মহত্যার ঘটনাটি থানায় জানাতেও চাননি পারভীন। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন বলেন, মূলত কাউন্সিলরের ভয় অথবা অর্থনৈতিক সুবিধা নজরুলের স্ত্রী ঘটনাটি অস্বীকার করে মিথ্যা আবেদনপত্র জমা দিয়েছে। নজরুল অমানুষিক মারধর থেকে আত্মহত্যার বিষয় নিয়ে নানা আলোচনা-সমালোচনা করছেন এলাকাবাসী। নিহতের স্ত্রী পারভীন প্রতিবেদককে বলেন, ১১ এপ্রিল জাহানারার বাসায় আমার স্বামীকে বেদড়ক মারধর করা হয়। তখন কাউন্সিলরের সামনে আমার স্বামী বলেছিলেন- আমি এই মুখ আর কাউকে দেখাবো না। পরে গত ১৭ এপ্রিল ফ্যানের আড়ার ঝুলে আমার স্বামী নজরুল গলায় ফাঁস নেন। ‘অপমৃত্যুর সংবাদ প্রসঙ্গে’ বিষয়ে আবেদনের ব্যাপারে তিনি কোন সদ্যুত্তর দিতে পারেননি। এ ব্যাপারে কাউন্সিলর মুজিবুর রহমান সরকারের সাথে একাধিক বার যোগাযোগ করলেও তাকে পাওয়া যায়নি। এলাকাবাসী বলছে, আইনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে যারা নজরুলকে মোবাইল চোর সন্দেহে পিটিয়েছে তাদেরকে খুঁজে বের করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেওয়া হোক। বিষয়টি সঠিকভাবে তদন্ত করলে মৃত্যুর আসল রহস্য বেরিয়ে আসবে বলে ধারণা করছেন এলাকাবাসী। তবে পুলিশ বলছেন ময়নাতদন্তের রিপোর্ট না আসা পর্যন্ত কিছু বলা যাচ্ছে না।

টঙ্গীতে মোবাইলের দোকানে চুরি

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরের টঙ্গীতে টিনের চাল কেটে সোহেল টেলিকম নামে একটি মোবাইল ফোনের দোকানে চুরি হওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ওই সময় দোকানের ভিতরে থাকা মোবাইল ফোন ও নগদ অর্থ চুরি করে নিয়ে যায় চোর চক্র। বৃহস্পতিবার ভোরে টঙ্গীর এরশাদ নগর ১নং বড় বাজার এলাকায় ঘটনাটি ঘটে। সোহেল টেলিকম এর মালিক রুবেল বলেন, বুধবার গভীর রাতে দোকান বন্ধ করে বাসায় চলে যাই। সকালে দোকান খুলে দেখি টিনের চাল কেটে চোর চক্রের সদস্যরা ভিতরে প্রবেশ করে গøাস ভেঙ্গে ভিভো, আইটেল, রেডমি, টেকনো, বাটন মোবাইল ও নগদ অর্থসহ প্রায় ৩লাখ টাকার মালামাল চুরি করে নিয়ে যায় চোর চক্র। এঘটনা দেখে আমি সাথে সাথে থানা পুলিশকে জানিয়েছি। এবিষয়ে টঙ্গী পূর্ব থানার ডিউটি অফিসার শেখ সজল হোসেন বলেন, জাতীয় জরুরী সেবা ৯৯৯ এ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।

গাজীপুরে ট্রেনের বগি লাইনচ্যুত জয়দেবপুর-ময়মনসিংহ রুটে ট্রেন চলাচল বন্ধ

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ   গাজীপুরের শ্রীপুর রেল স্টেশনে বলাকা কমিউটার ট্রেনের ইঞ্জিনের চারটি চাকা লাইনচ্যুত হয়েছে। এতে জয়দেবপুর—ময়মনসিংহের সড়কে ট্রেন চলাচল বন্ধ রয়েছে। বুধবার (২০ এপ্রিল) বিকেল ৫টার কিছু সময় পর ট্রেনটির ইঞ্জিনের চারটি চাকা লাইচ্যুত হয় বলে জানিয়েছেন শ্রীপুর রেল স্টেশনের স্টেশন মাস্টার শামীমা জাহান। স্টেশন মাস্টার শামীমা জাহান জানান, নেত্রকোনার জারিয়া ঝাঞ্জাইল থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী বলাকা ট্রেনটি বিকেল ৫টার কিছু সময় পর শ্রীপুর রেল স্টেশনে পৌঁছার আগেই ইঞ্জিনে যান্ত্রিক গোলযোগ দেখা দেয়। ওই অবস্থায় ট্রেনটি স্টেশনের ২নং লাইনে দাঁড়িয়ে পড়ে। পরে ট্রেনের চালক আমিনুল ইসলাম ইঞ্জিনটিকে ঘুরিয়ে পেছনের নেয়ার চেষ্টা করলে হোম সিগন্যালে কাছাকাছি যেতেই ওই ইঞ্জিনের চারটি চাকা লাইনচ্যুত হয়ে পড়লে জয়দেবপুর—ময়মনসিংহের সড়কে ট্রেন চলাচল বন্ধ হয়ে পরে। রাত ১০টা পর্যন্ত ওই সড়কে ট্রেন চলাচল বন্ধ রয়েছে। লাইনচ্যুত ইঞ্জিন উদ্ধার ও লাইন সচল করতে ঢাকার রেল ট্রাফিক কন্টোলের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। দ্রুত লাইন সচল করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। শ্রীপুর স্টেশনে বলাকা কমিউটার লাইনচ্যুত হয়ে পড়ায় যমুনা এক্সপ্রেস, ব্রহ্মপুত্র এক্সপ্রেস ও মহুয়া এক্সপ্রেস আশপাশে স্টেশনে দাঁড়িয়ে রয়েছে বলে তিনি জানান।

গাজীপুরে তিন সংবাদকর্মী উপর হামলা

গাজীপুর প্রতিনিধিঃ গাজীপুরে সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে হামলা ও হেনস্থার স্বীকার হয়েছেন তিন সাংবাদ কর্মী। শ্রীপুর উপজেলার মাওনা ইউনিয়নের ইন্দ্রপুর বাজার এলাকায় এঘটনা ঘটে। সোমবার (১৮ এপ্রিল) দুপুরে রাথুরা মৌজাস্থিত রাথুরা বিটের অধিনন্থ এস এ ৫২৬ খতিয়ানের এস এ দাগ ৩১৫৬,এবং আর এস ১২৫৭৩ নং দাগের গ্যাজেট ভূক্ত বনের 'জমি দখল করে ব্যবসায়িক উদ্দেশ্যে অবৈধ ভাবে আবাসিক ভবন নির্মাণ করছে, এমন সংবাদের ভিত্তিতে সরেজমিনে তথ্য সংগ্রহ করতে গেলে ভবনের মালিক সহ স্থানীয় দুষ্কৃতিকারীদের একটি দল দায়িত্বরত সাংবাদিকদের উপর হামলার চালায়। এ ব্যাপারে শ্রীপুর থানায় এক সংবাদকর্মী বাদী হয়ে অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগ সূত্রে জানা যায়,'স্বাধীন বাংলা'র প্রতিনিধি রোকুনুজ্জামান খান, 'ভোরের ডাক 'এর সংবাদদাতা রাসেল শেখ এবং গাজীপুর থেকে প্রকাশিত 'বাংলাভূমি' এর প্রতিনিধি সাদিকুর রহমান ঘটনাস্থলে গিয়ে এ বিষয়ে কথা বলতেই বিবাদী 'সাত্তার মাঝি' সহ অজ্ঞাত আরো ৮/১০ জন উত্তেজিত হয়ে বাকবিতণ্ডায় জড়িত হয়৷ কোন প্রকার কথা না শুনে লাঠি সোটা, দা ইত্যাদি দেশীয় অস্ত্র দিয়ে সাংবাদিকদের উপর হামলা চালায় এবং প্রাণহানি সহ বিভিন্ন হুমকি প্রদান করে। এলাকাবাসী তাদের চিৎকার চেচামেচি শুনে ঘটনাস্থল থেকে সাংবাদিকদের নিরাপদে স্থানে সরিয়ে নেন। হামলার স্বীকার সাংবাদিকরা জানান, অভিযুক্ত সাত্তার মাঝি (৪০) ইন্দ্রপুর গ্রামের সালাম এর পূত্র, তার সহযোগীরা তারই পরিবারে সদস্য। ওই জমিতে বনের আপত্তির কারনে সম্প্রতি বিভাগীয় বন কর্মকর্তার (ডিএফও) পরিদর্শনের তথ্যও জানাযায়। তারা আরো জানান এঘটনার ভিডিও সংরক্ষিত রয়েছে সংবাদ কর্মীদের কাছে। তাছাড়া অভিযোগের পর শ্রীপুর থানার উপ-পুলিশ পরিদর্শক মিজান সহ ঘটনাস্থলে যাওয়ার পরেও বিবাদীর পরিবারের লোকজন হুমকি সহ অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ ও বিভিন্ন অসামঞ্জস্যপূর্ণ বক্তব্য প্রদান করে। শ্রীপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মাহফুজ ইমতিয়াজ ভুইয়া জানান, এ ঘটনায় তদন্ত শেষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এছাড়াও বন কর্মকর্তা ও বন প্রহরীদের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়েছি। অজ্ঞাত কারনে তাদের অনীহার ব্যাপারটিও পরিলক্ষিত হয়েছে বলে জানান হামলার স্বীকার সংবাদকর্মীরা।

টঙ্গীতে কমিউনিটি পুলিশের নামে চাঁদা আদায়।

বি এ রায়হান,( টঙ্গী) গাজীপুরঃ গাজীপুরের টঙ্গীতে কমিউনিটি পুলিশের নামে চাঁদা আদায়ের অভিযোগ পাওয়া গেছে। টঙ্গী বাজারের সাপ্তাহিক হাটে আগত ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে কমিউনিটি পুলিশের নাম ভাঙ্গিয়ে প্রকাশ্যে হাতিয়ে নেয়া হচ্ছে বিপুল অঙ্কের টাকা। ব্যবসায়ীরা চাঁদা দিতে অস্বীকৃতি জানালে তাদের সঙ্গে করা হয় দুর্ব্যবহার। অভিযোগ রয়েছে, ৫৭ নম্বর ওয়ার্ড কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির কোষাধ্যক্ষ মজিবুর রহমানের নির্দেশে তোলা হয় এই চাঁদা। মজিবুর রহমান টঙ্গী বাজার চাউল ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক। সরেজমিনে শনিবার মধ্যরাতে টঙ্গী বাজারে গিয়ে দেখা যায়, সাপ্তাহিক হাট উপলক্ষে ঢাকা, নারায়নগঞ্জ, নরসিংদীসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের পাইকারি ব্যবসায়ীরা টঙ্গী বাজারে আসেন। বাজারের মিতালি ফিলিং স্টেশনের সামনে থেকে শুরু করে, হাজী মার্কেট, ভাওয়াল বিপনি মার্কেট, নোয়াখালী মসলা পট্টি, বস্তা পট্টি, তুরাগ নদীর পাড় রোড, বৌ- বাজার রোড, সিরাজউদ্দীন সরকার বিদ্যানিকেতন রোড, গরুর হাট রোডসহ বিভিন্ন অলিগলিতে বিট ভাড়া নিয়ে প্রায় দেড় থেকে দুই হাজার দোকান বসানো হয়। রাত ১টার পর হঠাৎ দু'জন লোক ব্যবসায়ীদের নিকট থেকে ২০ টাকা করে চাঁদা তোলা শুরু করেন। বাজারের খাজনা পরিশোধের পরও ২০ টাকা চাঁদা পরিশোধ নিয়ে কেউ কেউ জড়াচ্ছেন বাকবিতন্ডায়। এসময় ওই দুই ব্যক্তিকে ব্যবসায়ীদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করতেও দেখা যায়। অনুসন্ধানে জানা যায়, কমিউনিটি পুলিশের নামে চাঁদা আদায় করা ওই দুই ব্যক্তি হলেন- মোঃ কবির (৪০), মোঃ ফজলু (৩৮)।  হাটে আগত এক ব্যবসায়ীর সঙ্গে চাঁদা নিয়ে বাকবিতন্ডায় জড়াতে দেখা যায় ফজলুকে। জানতে চাইলে ফজলু বলেন, চাউল ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক মজিবুর রহমানের নির্দেশে কমিউনিটি পুলিশের জন্য প্রত্যেক দোকান থেকে ২০টাকা করে আদায় করা হচ্ছে। করোনার সময় এই টাকা আদায় বন্ধ ছিলো, যা গত দুই সপ্তাহ যাবত পূণরায় চালু হয়েছে। এখন থেকে প্রত্যেক সপ্তাহে এই চাঁদা তোলা হবে বলেও জানায় ফজলু। ফজলু আরও বলেন, গত সপ্তাহের হাটে ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে কমিউনিটি পুলিশের নামে আমি ১০ হাজার টাকা আদায় করেছি। আমার সঙ্গে কবির নামে আরেকজন চাঁদা আদায় করেন। ভোর রাত পর্যন্ত টাকা উঠানোর পর সব টাকা জমা দেওয়া হয় বাজার কমিটির নেতা মজিবুর রহমানের নিকট। তিনি আমাদের হাজিরা হিসেবে এক হাজার টাকা দিয়ে বাকি টাকা বুঝে নেন। কমিউনিটি পুলিশের নামে চঁদা উঠানো আরেক যুবক কবির বলেন, বাজারের যানজট নিরসনে কমিউনিটি পুলিশের সদস্যরা কাজ করে। তাদের জন্য দোকান প্রতি ২০ টাকা তোলা হয়। বাজার কমিটির নেতারা পুলিশের কাছ থেকে অনুমতি নিয়েই এই টাকা তোলার নির্দেশ দিয়েছেন। করোনার কারণে এই চাঁদা আদায় বন্ধ ছিলো, ঈদ উপলক্ষে আবারও চালু করা হয়েছে। ব্যবসায়ীরা জানান, বাজারের নির্ধারিত খাজনা পরিশোধের পরও নানান অজুহাতে টাকা নেয়া হচ্ছে। গত দুই সপ্তাহ যাবত কমিউনিটি পুলিশের নামে প্রত্যেক দোকান ও বিট থেকে ২০ টাকা করে চাঁদা তুলছে। এই বাজারে আমাদের সাথে রীতিমত জুলুম করা হচ্ছে। আমরা সপ্তাহে একদিন হাটে আসি। এখানে কাউকে চিনিও না। যে যার মতো এসে চাঁদা দাবি করছে। বাজারের খাজনার টাকা ছাড়াও বিট প্রতি সপ্তাহে ৫০০ টাকা দিতে হয়। চাঁদা আদায় করছে বাজারের প্রভাবশালীরা, তাই বাজারের টহল পুলিশও তাদের কিছু বলেনা। এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে ৫৭ নম্বর ওয়ার্ড কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির কোষাধ্যক্ষ ও টঙ্গী বাজার চাউল ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক মজিবুর রহমান চাঁদা তোলার বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, টঙ্গী বাজারের যানজট নিরসনে কমিউনিটি পুলিশের আটজন সদস্য কাজ করে। তাদের জন্য ঈদের বকশিস হিসেবে দোকান প্রতি ২০টাকা তোলা হচ্ছে। টঙ্গী পূর্ব থানার একজন উর্ধ্বতন কর্মকর্তা বিষয়টি জানেন দাবি করে মজিবুর রহমান বলেন, আমরা থানায় জানিয়ে এই টাকা তুলছি। এটা কোন চাঁদা নয়। ঈদ উপলক্ষে বকশিস নেয়া হচ্ছে। টঙ্গী পূর্ব থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ জাবেদ মাসুদ বলেন, কমিউনিটি পুলিশের নামে চাঁদা তোলার কোন নিয়ম নেই। ইতিপূর্বে এধরনের অভিযোগে অবিযান পরিচালনা করে বাজার বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল। আবারো এইরকম অভিযোগ পাওয়া গেলে সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের সাথে আলোচনা করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

টঙ্গীতে ছাত্রদলের ইফতার মাহফিল।

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ  গাজীপুরের টঙ্গীতে মহানগর ছাত্রদলের উদ্যোগে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি, সুচিকিৎসা এবং তারেক রহমানের দীর্ঘায়ু কামনায় দোয়া ও ইফতার মাহফিলের আয়োজন করা হয়। সোমবার নগরীর সুরতরঙ্গ রোড এলাকায় এই আয়োজন অনুষ্ঠিত হয়।  মহানগর ছাত্রদলের সহসভাপতি মাহমুদুল হাসান মিরণের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মহানগর ছাত্রদল নেতা মাইন উদ্দিন চৌধুরী, মহিউদ্দিন জোয়ার্দার, রমজান হোসেন রঞ্জু, রাকিব হোসেন, সাইফুল ইসলাম সাবু, পারভেজ মারুফ, সফিকুল ইসলাম রায়হান, আনোয়ার হোসেন, ফাইজুল ইসলাম পলাশ, রাসেদ খান, জেনিস, নাঈম হোসেন, আরেফিন সিদ্দিক বুলবুল, আসাদুজ্জামান মামুন, কাউছার হোসেনসহ বিভিন্ন ওয়ার্ড ও ইউনিটের নেতৃবৃন্দ।এসময় সংক্ষিপ্ত আলোচনায় বক্তারা বলেন, দেশ আজ কঠিন পরিস্থিতি পার করছে। দ্রব্যমূল্যের লাগামহীন উর্ধগতিতে সাধারন মানুষ আজ দিশাহারা। মানুষের বাক স্বাধীনতা হরন করা হয়েছে। দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি ও সুচিকিৎসার দাবী জানানো হয়।

টঙ্গী থানা প্রেসক্লাবে আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত।

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরের স্বনামধন্য টঙ্গী থানা প্রেসক্লাবের আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার সন্ধ্যায় ক্লাবের হল রুমে এই অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। ক্লাবের সভাপতি ও দৈনিক যুগান্তরের সিটি রিপোর্টার ইঞ্জিনিয়ার এম এম হেলাল উদ্দিনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আলী ভূঁইয়ার সঞ্চালনায় সভায় সাংবাদিক হাজী এস এম মনির উদ্দিন,আফজাল হোসেন, অমল চন্দ্র ঘোষ, এস এম মনসুর মাসুদ, জাকির হোসেন, অলিদুর রহমান অলি, আনোয়ার হোসেন মাষ্টার, পলাশ প্রধান, আবু সালেহ মুসা, দেওয়ান রফিকুল ইসলাম মাখন, তাওহিদুল ইসলাম, আনোয়ার হোসেন পিন্টু, লুৎফুজ্জামান লিটন,গোলাম আজাদ, রফিকুল ইসলাম, নাইমুল হাসান বাপ্পী, জহিরুল আলম লিটন, ইফতেখার রায়হান, সুজন সারোয়ার, জসীম উদ্দিন চৌধুরী, বি এ রায়হান, তরিকুল ইসলাম, তাওহীদ কবিরসহ টঙ্গীতে কর্মরত বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিকস মিডিয়ার সাংবাদিক এবং সুশীল সমাজের গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। সভায় চলমান সাংগঠনিক কার্যক্রম, ভবিষ্যত কর্ম পরিকল্পণা, সামাজিক কল্যাণে সঠিক তথ্য উপাত্তের মাধ্যমে নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালণসহ বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা করা হয়।

টঙ্গীতে আলোচিত সন্ত্রাসী নারকাটা মাসুদ গ্রেফতার

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরের টঙ্গী এরশাদনগর এলাকার অস্ত্র, মাদক, ডাকাতি, চাঁদাবাজি ও চুরিসহ ১৫টি মামলার আসামি মাসুদ ওরফে নার কাটা মাসুদ ওরফে ভাগিনা মাসুদকে (৩২) গ্রেফতার করেছে টঙ্গী পশ্চিম থানা পুলিশ। রবিবার সকালে স্থানীয় বনমালা রেলগেইট এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। মাসুদ এরশাদনগর ৭নং ব্লকের বাবুর্চি আশরাফের ছেলে। টঙ্গী পশ্চিম থানার এস.আই শুভ মন্ডল বলেন, চলতি মাসে তার নামে একটি কিশোর গ্যাং এর মামলা দায়ের হলে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাকে গ্রেফতার করা হয়। তিনি আরো বলেন, মাসুদ বিভিন্ন সময় বিভিন্ন স্থানে বাসা ভাড়া নিয়ে আত্মগোপনে থাকেন। তাকে গ্রেফতার করতে অনেক অভিযান করতে হয়েছে। উল্লেখ্য, চলতি মাসের ৮ এপ্রিল বিকেলে মাসুদের নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী আউচপাড়া সফিউদ্দিন সরকার একাডেমি রোড এলাকায় স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা ইব্রাহিম চৌধুরীর বাড়ীতে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে হামলা ও ভাংচুর চালায়। এসময় ঘরে থাকা কম্পিউটার ও ইন্টারনেটের মালামাল লুট করে নিয়ে যায় সন্ত্রাসীরা। তাদের বাধা দেওয়ায় নোমান নামে এক যুবককে কুপিয়ে গুরুতর যখম করে চলে যায় তারা। আহত নোমানকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে টঙ্গীর শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে তার অবস্থা আশঙ্কাজনক দেখে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করেন। এই ঘটনায় ভুক্তভোগীর পরিবার টঙ্গী পশ্চিম থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। টঙ্গী পশ্চিম থানার অফিসার ইনচার্জ শাহ আলম জানান, মাসুদ একজন চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী। তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় অস্ত্র, মাদক, ডাকাতি, চাঁদাবাজিসহ একাধিক মামলা চলমান রয়েছে। রবিবার গ্রেফতার করে তাকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

টঙ্গীতে ফেনসিডিলসহ নারী মাদক কারবারি গ্রেফতার

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ পঞ্চাশ বোতল ফেনসিডিলসহ মঞ্জিল আক্তার ওরফে নুপুর (২৫) নামের এক নারী মাদক কারবারিকে গ্রেফতার করেছে টঙ্গী পূর্ব থানার পুলিশ। বৃহস্পতিবার বিকেলে টঙ্গীর দত্তপাড়া এলাকা থেকে  গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এসময় গ্রেফতারকৃত আসামীর কাছ থেকে ৫০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়। গ্রেফতারকৃত নুপুর জয়পুরহাট জেলার পাঁচবিবি থানা এলাকার নাকুরগাছী গ্রামের বাবু সরকারের মেয়ে। তিনি দীর্ঘদিন যাবৎ টঙ্গীর দত্তপাড়া ওসমান গনি রোড এলাকায় একটি ভাড়া বাসায় বসবাস করে মাদক ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছিল। টঙ্গী পূর্ব থানার এস আই হুমায়ন কবির জানান, দীর্ঘদিন যাবৎ সীমান্তবর্তী এলাকা হইতে মাদকদ্রব্য ফেনসিডিল এনে বিভিন্ন কৌশলে টঙ্গী এলাকায় বিক্রয় করতো মঞ্জিল আক্তার নুপুর। গত বৃহস্পতিবার বিকেলে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মাদক কেনাবেচার সংবাদ পেয়ে টঙ্গীর দত্তপাড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৫০ বোতল ফেনসিডিলসহ মাদক কারবারি মঞ্জিল আক্তার নুপুকে গ্রেফতার করি। আসামীর বিরুদ্ধে টঙ্গী পূর্ব থানা, উত্তরা পূর্ব থানা, জয়পুরহাট সদর থানা, পাঁচবিবি থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনের মামলা রয়েছে। এ ব্যাপারে টঙ্গী পূর্ব থানার অফিসার ইনচার্জ জাভেদ মাসুদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, গ্রেফতারকৃত আসামীর বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে মামলা দিয়ে বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে জেল হাজাতে প্রেরণ করা হয়েছে।

টঙ্গীতে পূর্ব শক্রতার জেরে মুরগির খামারে হামলা

টঙ্গী প্রতিনিধিঃ গাজীপুরের টঙ্গীতে পূর্ব শত্রুতার জেরধরে মুরগি খামারে হামলা চালিয়েছে একদল দুর্বৃত্ত। এসময় খামারে থাকা দেড় শতাদিক মুরগিকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। এঘটনায় খামারের মালিক পারুল প্রতিবাদ করলে দুর্বৃত্তরা তার উপরে হামলা চালিয়ে স্বর্ণালঙ্কার ও টাকা পয়সা লুট করে নিয়ে যায়। এঘটনায় ভুক্তিভোগী বাদী হয়ে আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। আসামীরা হলেন, টঙ্গীর এরশাদ নগর এলাকার কাজী লাকি বেগম(৪৫) তার স্বামী কাজল বাদশা (৪৮) ও ছেলে আল আমিন। মামল সূত্রে জানা যায়, ১৫ ফেব্রয়ারী ২২ইং তারিখ টঙ্গীর এরশাদ নগর ১নং ব্লক বেরিবাঁধে পারুলের মুরগীর খামারে থেকে একটি মুরগি আসামী লাকি বেগমের বাসায় গেলে কাজল বাদশা ও আল আমিনসহ পূর্ব শক্রতার জেরে মুরগিটিকে পিটিয়ে মেরে ফেলে। ঘটনার প্রতিবাদ করলে মাদক ব্যবসায়ী, মাদকের ডিলার, নেশাখোর নরনারী পাচারকারী, ভূমিদস্যু, চোর ছিনতাইকারী ও ভয়ষ্কর সন্ত্রাসী কাজল বাদশা, আল আমিন ও লাকি ক্ষিপ হয়ে পারুল বেগমকে মারধর করে। পারুল এর সাথে থাকা এক ভরি স্বর্ণের চেইন, কানের দুল ও স্বর্ণের আংটিসহ সাথে থাকা নগর ৫০ হাজার টাকা নিয়ে চলে যায়। এসময় সন্ত্রাসীরা মুরগীর খামারে প্রবেশ করে খামারে থাকা আরো প্রায় ৩৫হাজার টাকার ১৫০টি মুরগি হকিষ্টিক দিয়ে এলোপাথারী পিটাইয়া মেরে ফেলে। এঘটনায় ভুক্তভোগী পারুল বাদী হয়ে গাজীপুর আদালতে সি.আর-মামলা দায়ের করেন, মামলা নং-১২১/২০২২। বিজ্ঞ আদালত গাজীপুর সিআইডিকে তদন্ত পূর্বক প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ প্রধান করেন।

টঙ্গীতে  প্রয়াত এডঃ আবুল হোসেনের ১২তম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত।

টঙ্গী (গাজীপুর) প্রতিনিধিঃ গাজীপুর মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নাজমা হোসেনের প্রয়াত স্বামী এডভোকেট আবুল হোসেনের ১২তম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে ইফতার ও দোয়া মাহফিল আয়োজন করা হয়েছে। সোমবার সন্ধ্যায় টঙ্গী থানা প্রেসক্লাব রোডে মহিলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে এ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ মহিলা আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটি সদস্য রুমা আক্তার, গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মতিউর রহমান মতি, টঙ্গী থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি ফজলুল হক, গাজীপুর মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর রাখি সরকার, যুগ্ম সম্পাদক ফারহানা, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক সৈয়দা শাহীতাজ বারী, সদস্য ডলি আক্তার, ছাত্রলীগ নেতা দ্বীন মোহাম্মদ নীরব, কৃষকলীগ নেতা সুমন আহম্মেদসহ বিভিন্ন ওয়ার্ডের নেতৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।

জেলা প্রশাসকের গাড়ি চালককে মারধর, দুই কনস্টেবল প্রত্যাহার

গাজীপুর প্রতিনিধিঃ গাজীপুর জেলা প্রশাসকের গাড়ি চালক হিরা মিয়াকে মারধরের ঘটনায় ট্রাফিক পুলিশের দুই কনস্টেবলকে প্রত্যাহার করেছে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ। এ ঘটনার অধিকতর তদন্তের জন্য তিন সদস্যের তদন্ত কমিটিও গঠন করা হয়েছে। কমিটিকে আগামী তিন কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে। গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার (ট্রাফিক) আব্দুল্লাহ আল মামুন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। প্রত্যাহার হওয়া পুলিশ সদস্যরা হলেন, ট্রাফিক পুলিশের কনস্টেবল ইউসুফ আলী ও নুর মোহাম্মদ। গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার (ট্রাফিক) আব্দুল্লাহ আল মামুনকে প্রধান করে গঠিত তদন্ত কমিটির অপর দুই সদস্য হলেন, অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (ক্রাইম অ্যান্ড অপস) খাইরুল আলম, সহকারী কমিশনার (ট্রাফিক উত্তর) মোঃ মাকসুদুর রহমান। এর আগে রবিবার বেলা ১২টার দিকে শহরের রাণী বিলাসমনি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে রাজবাড়ি সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের পরিবহন পুলের চালক ও কর্মচারিরা। প্রত্যক্ষদর্শী ও জেলা প্রশাসকের কার্যালয় সুত্রে জানা যায়, রবিবার দুপুর পৌনে ১২টার দিকে গাজীপুর জেলা প্রশাসকের স্টিকার যুক্ত গাড়িযোগে তার দুই শিশু মেয়েকে স্কুল থেকে নিয়ে বাসায় ফিরছিলেন চালক মোঃ হিরা মিয়া। গাড়িটি শহরের রাণী বিলাসমনি বালক উচ্চ বিদ্যালয় মোড়ে এসে পৌঁছালে কর্তব্যরত ট্রাফিক পুলিশ ওই গাড়িটি ঘুরিয়ে অন্য রাস্তা দিয়ে যেতে বলেন। এসময় চালক হিরা মিয়া ট্রাফিক পুলিশকে জানান গাড়িতে জেলা প্রশাসকের দুই মেয়ে রয়েছে। এ নিয়ে কথা কাটাকাটির জেরে ট্রাফিকের এক পুলিশ সদস্য গাড়িতে লাঠি দিয়ে আঘাত করতে থাকে। এতে চালক হিরা মিয়া প্রতিবাদ করলে লাঠি দিয়ে তাকেও আঘাত করে এবং তাকে টেনে হিঁচড়ে গাড়ি থেকে নামাতে চায় দুই পুলিশ কনস্টেবল ইউসুফ ও নুর মোহাম্মদ। পরে চালক হিরা মিয়া গাড়ি ঘুরিয়ে জেলা প্রশাসকের বাসভবনে চলে যান। এদিকে, জেলা প্রশাসনের পরিবহন পুলের গাড়ি চালককে পুলিশ কর্তৃক মারধরের ঘটনার খবর পেয়ে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সকল কর্মচারীরা বেলা ১২টার দিকে রাজবাড়ি সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ মিছিল শুরু করে। এসময় আধাঘন্টা ব্যাপী ওই সড়ক অবরোধ করে রাখা হয়। পরে জেলা প্রশাসনের উর্ধতন কর্মকর্তারা কর্মচারিদের বুঝিয়ে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের ভেতরে নিয়ে যায়। গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার (ট্রাফিক) আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, জেলা প্রশাসকের গাড়ির চালকের সাথে পুলিশ সদস্যদের আচরণগত ত্রুটির বিষয়টি প্রাথমিক ভাবে প্রমান হয়েছে। এজন্য অভিযুক্ত দুই পুলিশ কনস্টেবলকে প্রত্যাহার করে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়েছে। মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার খন্দকার লুৎফুল কবিরের নির্দেশে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত প্রতিবেদনে অভিযোগ প্রমাণিত হলে, দুই কনস্টেবলের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও জানান তিনি।

টঙ্গীতে তারাবীর নামাজের সময় মসজিদে অগ্নিকান্ড

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরের টঙ্গীতে তারবীর নামাজের সময় মসজিদে অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। শনিবার এশার নামাজের পর টঙ্গীর উত্তর আরিচপুর গাজীবাড়ি শাহী জামে মসজিদে এই ঘটনা ঘটে। শর্টসার্কিটের কারনে সৃষ্ট আগুনে একাধিক এসি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান,  তারাবী শুরু হওয়ার পরপর বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সুত্রপাত হয় পরে নামাজরত মুসল্লিদের চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রনে আনা হয়। স্থানীয় ৫৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আবুল হোসেন জানান, নামাজের সময় হঠাৎ করে বিকট শব্দে আওয়াজ হলে মসজিদে  নামাজরত মুসল্লীরা আতঙ্কিত হয়ে পরেন। পরে সবাই নিরাপদে বের হয়ে এসেছেন। মুসল্লিদের চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা হয়। ফায়ার সার্ভিসের জেষ্ট কর্মকর্তা ইকবাল হাসান জানান, ফায়ার সার্ভিস উপস্থিত হওয়ার আগে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে কোন হতহত হয়নি। উপস্থিত মুসল্লীদের সচেতনতাই বড় দূর্ঘটনা হয়নি বলেও জানান তিনি

টঙ্গীতে হাসপাতালের টেন্ডারে বাধা আটক তিন

টঙ্গী (গাজীপুর) প্রতিনিধিঃ গাজীপুরের টঙ্গীর শহীদ আহসান উল্লাহ মাষ্টার জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা ও শল্যচিকিৎসা সরঞ্জামাদি ক্রয় সংক্রান্ত দরপত্র জমা দেয়ার সময় বাঁধা প্রদানকারী ঘটনাস্থল থেকে তিন টেন্ডারবাজকে আটক করেছেন পুলিশ। রোববার সকালে টঙ্গীর শহীদ আহসান উল্লাহ মাষ্টার জেনারেল হাসপাতালে ভেতরে এ ঘটনা ঘটে। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, টঙ্গী পূর্ব থানা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী ফয়েজ আহমেদ রাজু (৩০), ৫৫ নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ইব্রাহিম সানি (২৫) ও ৪৮ নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সভাপতি মাহফুজ ওরফে মেহদী মাহফুজ। পুলিশ জানান, রোববার বেলা সাড়ে ১০ টায় শহীদ আহসান উল্লাহ মাষ্টার জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা ও শল্যচিকিৎসা সরঞ্জামাদি ক্রয়ের দরপত্র আহ্বান করা হয়। এ সময় গাজীপুর মহানগর যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক এস এম আলমগীর হোসেনের নেতৃত্বে ফয়েজ আহমেদ রাজু, ইব্রাহিম সানি ও মাহফুজ ওরফে মেহদী মাহফুজ, মুন্না, পারভেজ ঢালী, রিপন সানিসহ   তাদের লোকজন নিয়ে দরপত্র জমা দানে বাঁধা প্রদান করে। এ বিষয়ে টেন্ডার জমা দিতে আসা ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান শাখাওয়াত এন্টারপ্রাইজ ও রাজু এন্টারপ্রাইজ টঙ্গী পূর্ব থানা পুলিশকে বিষয়টি জানালে ঘটনাস্থল থেকে ওই তিনজনকে আটক করে। টঙ্গী পূর্ব থানার অফিসার ইনচার্জ জাভেদ মাসুদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আটককৃত আসামীদের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

গাজীপুরে কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে মানববন্ধন

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ টিসিবির পণ্য চুরির ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগ উঠেছে গাজীপুর সিটির ৩৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল্লাহ আল মামুন মন্ডলের বিরুদ্ধে। এ অভিযোগের ভিত্তিতে কাউন্সিলরের বিচারের দাবিতে গাজীপুরে মানববন্ধন করেছেন সাধারণ মানুষ। রোববার (২৭ মার্চ) সকাল ১০টা থেকে গাজীপুর জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এসময় তারা অভিযুক্ত কাউন্সিলরের বিচারের দাবি জানান। মানববন্ধনে অংশগ্রহণকারীরা অভিযোগ করেন, গ্রেফতারকৃত ওই ব্যবসায়ী জিসিসির ৩৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল্লাহ আল মামুন মন্ডলের লোক। তার কথাতেই ব্যবসায়ী টিসিবির পণ্য চুরি করেছে। এসময় তারা কাউন্সিলকে দ্রুত গ্রেফতারের দাবিও জানান। এবিষয়ে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের ৩৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল্লাহ আল মামুন মন্ডল বলেন, সাধারণ মানুষ আমার বিরুদ্ধে মানববন্ধন করেনি। আমি জনগণের জন্য কাজ করি। যারা মানববন্ধনে অংশ নিয়েছেন তারা গাজীপুর সিটি করপোরেশনের বহিস্কৃত মেয়র জাহাঙ্গীর আলমের লোক। আমি আগামী নির্বাচনে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র পদপ্রার্থী হওয়ায় একটি চক্র আমাকে হেয়-প্রতিপন্ন করার জন্য এসময় কার্যক্রম করছে। আমিও চাই যারা চুরির সাথে জড়িত তাদেরকে আইনের আওতায় আনা হোক। তিনি আরও বলেন, শুধু এই ঘটনাই নয়, গাজীপুর সিটি করপোরেশনের বহিস্কৃত মেয়র জাহাঙ্গীর আলম আমার বিরুদ্ধে আরও অনেক মিথ্যে ষড়যন্ত্রের চেষ্টা চালাচ্ছে। আমি এর তীব্র নিন্দা জানাই। যারা চুরির সাথে জড়িত তাদের সাথে আমার কোনো প্রকার সম্পৃক্ততা নেই। জানা যায়, গাজীপুর মহানগরীর বোর্ডবাজারে মো. শাহীন (৩৩) নামে এক ব্যবসায়ীর গুদাম থেকে শনিবার (২৬ মার্চ) রাতে টিসিবির তেল, চিনি ও ডাল উদ্ধার করেছে পুলিশ। এসময় ব্যবসায়ী শাহিনকে গ্রেফতার করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে আটক ব্যবসায়ী শাহীন পুলিশকে জানিয়েছেন, পণ্যগুলো জাহাঙ্গীর আলম ও রফিক নামের দুজন ব্যক্তি তার কাছে দুই লিটারের প্রতি বোতল সয়াবিন তেল ৩০০ টাকা করে (প্রতি লিটার ১৫০ টাকা দরে), চিনি ৬০ টাকা কেজি ও মসুর ডাল ৭০ টাকা কেজি দরে বিক্রি করেছেন। জাহাঙ্গীর ও রফিক স্থানীয় ৩৫ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল্লাহ আল মামুন মণ্ডলের ব্যক্তিগত সহকারী।

সংগীত শিল্পীদের পারিশ্রমিক পরিশোধ না করে পালালো আয়োজক কমিটি।

টঙ্গী (গাজীপুর) প্রতিনিধিঃ গাজীপুরের টঙ্গীতে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান শেষে মিউজিশিয়ান ও শিল্পীদের টাকা না দিয়ে পালিয়ে যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে আয়োজক কমিটির বিরুদ্ধে। শুক্রবার (২৫ মার্চ) রাতে মিলগেইট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার পর ভুক্তভোগীরা রাত ৪টা পর্যন্ত তাদের পাওনা পারিশ্রমিকের জন্য টঙ্গী পূর্ব থানার সামনে অপেক্ষা করে বাড়ি ফিরে যান। জানা যায়, মিলগেইট ছাত্র ও যুব সমাজের উদ্যোগে অলিম্পিয়া টেক্সটাইল মিলস্ স্কুল মাঠে একটি মিনি ডে-নাইট ক্রিকেট টুর্নামেন্টের আয়োজন করা হয়। শুক্রবার টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা ও পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠান ছিলো। এদিন পুরস্কার বিতরন শেষে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানেরও আয়োজন করে আয়োজক কমিটি। এজন্য ভাড়া করে আনা হয় শিল্পী ও মিউজিশিয়ানদের। রাত সাড়ে ১২টা পর্যন্ত শিল্পীরা গান পরিবেশন করেন। কিন্তু বিপত্তি বাঁধে অনুষ্ঠান শেষে। মিউজিশিয়ান ও শিল্পীদের পাওনা না মিটিয়ে আয়োজক কমিটি ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। পরে ভুক্তভোগীরা বিষয়টি সমাধানের জন্য গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মতিউর রহমান মতির বাসভবনে যায়। সেখানে তাকে না পেয়ে টঙ্গী পূর্ব থানার সামনে অপেক্ষা করতে থাকে ভুক্তভোগী শিল্পী ও মিউজিশিয়ানরা। একপর্যায়ে পাওনা টাকা না পেয়ে ফিরে যায় ভুক্তভোগীরা। ভুক্তভোগী নগর ব্যান্ড'র প্রধান রবিন অভিযোগ করে বলেন, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের জন্য ২৩ হাজার টাকা চুক্তিতে মিউজিশিয়ান ও শিল্পীদের ভাড়া করেন আয়োজক কমিটি। কিন্তু অনুষ্ঠান শেষে আয়োজকরা কাউকে কিছু না বলেই টাকা না দিয়ে চলে যান। বিষয়টি নিয়ে মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মতিউর রহমানের বাসভবনে বিচার দিতে গিয়েছিলাম। রাত চারটা পর্যন্ত আমাদের মেয়ে শিল্পীগুলো  রাস্তায় দাঁড়িয়ে ছিল। তারা (আয়োজক) আমাদের একটা টাকাও দিলো না। অনুষ্ঠানে গান পরিবেশন করতে আসা শিল্পী মিতুয়া বলেন, আমি মিরপুর থেকে এসেছি। অনুষ্ঠান শেষ হওয়ার কথা রাত ১১টায়, কিন্তু হয়েছে ১২টা পর্যন্ত। অনুষ্ঠান শেষে আমাদেরকে বসতে বলে আয়োজক কমিটি চলে গেছে। একজন নারী শিল্পী হয়ে রাত ৩টায় রাস্তায় দাঁড়িয়ে আছি। তারা আমাদের পারিশ্রমিক দেয়নি, অগ্রিম টাকাও দেয় নাই। এখন বাসায় যাওয়ারও অবস্থা নাই। অভিযোগের বিষয়ে জানতে টুর্নামেন্টের আয়োজক কমিটির সদস্য ৫৫নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ইব্রাহিম সানির সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করে সংযোগটি বিচ্ছিন্ন করে দেন। পরবর্তীতে তার মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। ফাইনাল খেলা ও পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠানের সভাপতি টঙ্গী থানা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মনির আহম্মেদ বলেন, এ ব্যাপারে আমি কিছুই জানিনা। রাতে তো টাকা পরিশোধ করার কথা। তিনি বলেন, 'শিল্পীদের টাকা দিবেনা কেন? ভিটাবাড়ি বিক্রি করে হলেও টাকা দিতে হবে। শিল্পীদের আমার কাছে পাঠান, ওদের বাড়ি বিক্রি করে হলেও আমি টাকা পরিশোধ করিয়ে দিবো।' টঙ্গী পশ্চিম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ শাহ আলম বলেন, এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত থানায় কোন লিখিত অভিযোগ হয়নি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

টঙ্গীতে পুকুরে ডুবে শিশুর মৃত্যু

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ   গাজীপুরের টঙ্গীতে পুকুরের পানিতে ডুবে আলিফ (৭) নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার দুপুরে সাতাইশ গুটিয়া এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। নিহত আলীফ ওই এলাকার সাগর আহমেদের ছেলে। এঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। এলাকাবাসী জানায়, আলিফ দুপুরে একা একা তাদের বাড়ির পাশের পুকুরে গোসল করতে নামলে সাঁতার না জানায় সে পানিতে তলিয়ে যায়। এর কিছুক্ষণ পর তার ফুফু পুকুরের একই স্থানে গোসল করতে গেলে তার পায়ের সাথে শিশু আলিফের ধাক্কা লাগলে তাকে পানি থেকে উঠায়। পরে তাকে গুশুলিয়া ইন্টারন্যাশনাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। টঙ্গী পশ্চিম থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ শাহ আলম বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই। থানা পুলিশকে কেউ অবহিত করেনি।

টঙ্গীতে মাদক ব্যবসার আশ্রয়স্থল কথিত সোর্স আলী।

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ   শিল্প নগরী টঙ্গীর বনমালা এলাকায় পুলিশের কথিত সোর্স আলী ওরফে ফর্মা আলীর প্রত্যক্ষ মদদে নিষিদ্ধ মাদক গাঁজার ব্যবসা করার অভিযোগ উঠেছে কামরুল ওরফে ফুডা ও আফরোজা দম্পতির বিরুদ্ধে। সরেজমিন অনুসন্ধানে জানা যায়, টঙ্গীর বনমালা রেলগেট থেকে কসাইবাড়ি পর্যন্ত এলাকায় প্রকাশ্যে মাদক বিক্রি করছে বেশ কয়েকটি গ্রুপ। তাদের মধ্যে অন্যতম কামরুল ওরফে ফুডা ও আফরোজা দম্পতি। কোন কিছুর তোয়াক্কা না করে প্রকাশ্যে বিক্রি করছেন গাঁজার মত মাদক। এদের প্রকাশ্যে মদদদাতা হিসাবে আছেন আলী ওরফে ফর্মা আলী। বিভিন্ন সময় পুলিশি অভিযানে অনেকে আটক হলেও আলীর সহযোগীতায় ধরাছোঁয়ার বাইরে থেকে যায় ফুডা দম্পতি। প্রশাসনকে ম্যানেজ করার নামে প্রতিমাসে এই দম্পতীর কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিচ্ছেন বলেও অভিযোগ রয়েছে। এছাড়াও সম্প্রতি ঘটে যাওয়া সোলাইমান হত্যাকান্ডের অন্যতম আসমী রবুকে আশ্রয় দেওয়ার অভিযোগ আছে ফর্মা আলীর বিরুদ্ধে। এবিষয়ে কথা হলে কথিত পুলিশের সোর্স আলী বলেন, আমি কোন মাদক ব্যবসায়ীর সাথে আর্থিক সম্পর্কে জড়িত নই। পুলিশ কারো তথ্য চাইলে আমি তাদের সহযোগীতা করি। এছাড়া রবুর সাথে আমার কোন সম্পর্ক নেই রবুর এক সহকারীকে কিছুদিন আগে দেশীয় অস্ত্রসহ পুলিশকে ধরিয়ে দিয়েছি। গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের দক্ষিন জোনের অতিরিক্ত উপ পুলিশ কমিশনার মোঃ হাসিবুল আলম জানান, এধরনের ঘটনায় ভুক্তভোগী অভিযোগ করলে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

টঙ্গীতে শ্লীলতাহানি অভিযোগে পুলিশের সোর্স গ্রেফতার 

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ   গাজীপুরের টঙ্গীতে শ্লীলতাহানি ও মারধরের অভিযোগ উঠেছে কথিত পুলিশ সোর্স জীবন মিয়া (২০) ও সাঈদ ই পাকিস্তানী (২৬) এর বিরুদ্ধে।  এঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন ভুক্তভোগী নারী। অভিযোগের ভিত্তিতে কথিত সোর্স জীবনকে গ্রেফতার করেছে টঙ্গী পূর্ব থানা পুলিশ। মঙ্গলবার ২২ মার্চ সকালে টঙ্গীর এরশাদনগর ১নং ব্লক এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। গ্রেফতারকৃত জীবন(২০) টঙ্গীর এরশাদনগর এলাকার মিন্টু মিয়ার ছেলে। ভুক্তভোগী নারী জানান, অভিযুক্ত সাইদ ও জীবন দীর্ঘদিন যাবৎ এরশাদনগর ১নং ব্লক এলাকায় পুলিশের সোর্স পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন ভাবে সাধারন মানুষকে হয়রানি করে আসছিল। এলাকার উঠতি বয়সী তরুণী ও যুবতী মেয়েদের উত্ত্যক্ত করা তাদের বাসায় প্রবেশ করে ভয়ভীতি দেখানো  মাদক সেবন করে মানুষের বাসা বাড়িতে প্রবেশ করে অকথ্য ভাষায় গালি গালাজ ও ভাংচুর করা তাদের নিত্যদিনের কাজ। এসব কাজের প্রতিবাদ করায় গতকাল সকালে ভুক্তভোগী নারীর উপর হামলা চালায় সাইদ ও জীবন। এসময় তার কাছথেকে টাকা পয়সা ছিনিয়ে নিয়ে তাকে মারধর করা হয় এবং তার পরনের কাপড় ছিড়ে শ্লীলতাহানি করা হয়। তিনি আরো জানান, তাদের অত্যাচারে অতিষ্ঠ প্রায় অর্ধশতাধিক পরিবার প্রতিনিয়ত আতঙ্কিত হয়ে বসবাস করছেন পুলিশের সাথে সম্পর্কীয় হওয়ায় ভয়ে তাদের বিরুদ্ধে কেউ মূখ খুলতে চায়না। স্কুল কলেজে যাওয়া আসার সময় রাস্তায় এলাকার মেয়েদের প্রতিনিয়ত উত্যক্ত করে সাইদ ও জীবন। এ অবস্থা থেকে রক্ষা পেতে এলাকাবাসী মিলে টঙ্গী পূর্ব থানায় উপস্থিত হয়েছিলেন বলেও জানান তিনি। পুলিশ জানায়, এঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে। ঘটনার সাথে জড়িত একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। অপর আসমীকে গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত আছে।

বিশ্ব পানি দিবসেও টঙ্গীতে সুপেয় পানির সংকট 

বি এ রায়হান, টঙ্গী গাজীপুরঃ ২২ মার্চ বিশ্ব পানি দিবসেও পানি সংকটে ভুগছেন গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের টঙ্গী অঞ্চলের জনগন। দীর্ঘদিন যাবৎ সেই পানি সংকট থাকলেও টনক নড়ছে না নগর কতৃপক্ষের। অফিস কিংবা বাসা সব জায়গায় পানির সংকট দিন দিন তীব্র আকার ধারন করছে। এতে বিপর্যস্ত জনজীবন নাকাল সাধারন মানুষ। সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়, টঙ্গীর প্রতিটি ওয়ার্ডে সুপের পানি সংকট দেখা দিয়েছে। বেশ কিছুদিন ধরে এ সমস্যায় ভুগছে এলাকার বসবাসকারী সাধারণ মানুষ। সকাল থেকে রাত পর্যন্ত বেশীর ভাগ এলাকায় পানি সংকট থাকায় এই দীর্ঘ সময় এলাকাবাসিকে অপেক্ষায় থাকতে হয় কখন পানি আসবে আর কখন তারা তা সংগ্রহ করবে। সাবমারসিবল পাম্প বসানো বাড়ির মালিকদের ক্ষেত্রে কিছুটা ভিন্নচিত্র দেখা যায়। সিটি কর্পোরেশনের পাম্প বিকল, অপারেটর সংকট, পানির স্তর নিচে নেমে যাওয়া, ত্রুটিপূর্ণ লাইনসহ নানাবিধ সমস্যায় জর্জড়িত পানি সরবরাহ ব্যবস্থা। দিনদিন জনভোগান্তি চরম আকার ধারন করলেও অভিযোগ রয়েছে এ বিষয়ে দৃষ্টি নেই নগর কর্তৃপক্ষ কিংবা স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের। টঙ্গীর ১৫টি ওয়ার্ডের বেশীরভাগ স্থানের এই দূর্ভোগ দীর্ঘদিনের হলেও সম্প্রতি একাধিক ওয়ার্ডে পানির সংকট তীব্র আকার ধারন করেছে। তার মধ্যে অন্যতম নগরী ৪৭ নং ও ৫৬ নং ওয়ার্ড।  এনিয়ে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের কাছে এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সরব প্রতিবাদ হলেও তেমন সুফল পাওয়া যাচ্ছে না বলে জানিয়েছেন এলাকাবাসী। আরিচপুর এলাকার একাধিক বাড়ির মালিক অভিযোগ করে বলেন, পানি সংকটের কারনে ভাড়াটিয়ারা বাসা ছেড়ে চলে যাচ্ছে। অনেক সময় ছেলে মেয়েদেরও স্কুল-কলেজের কাজ বন্ধ করে গোসল ও রান্নার পানি সংগ্রহ করতে ব্যস্ত থাকতে হয়। শিলমুন এলাকার বাসিন্দা আল আমিন হোসেন জানান, দীর্ঘদিন যাবৎ আমরা পানির সমস্যায় ভুগছি। মাসের বেশীরভাগ সময় ঠিকমত পানি না পেয়ে এলাকাবাসী সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জোড়ালো প্রতিবাদ শুরু করেন। একপর্যায়ে ৫-৬দিন পূর্বে পুরানো পাম্পটি দায়সাড়া ভাবে সংস্কার করে কোন রকমে সচল করলেও সেটা আবার বিকল হয়ে যায়। বিশ্লেষকরা বলছেন জলবায়ু পরিবর্তনের কারনে বৈশ্বিক উষ্ণতা বৃদ্ধি, বৃষ্টিপাত কম হওয়া, অপরিকল্পিত নগরায়ন, নদী শুকিয়ে যাওয়াসহ নানাবিধ কারনে পানির স্তর দিন দিন নিচে নেমে যাচ্ছে। এছাড়া বর্তমান শহর ব্যবস্থায় পাইপ লাইনের লিকেজও পানি সংকটের অন্যতম একটি কারন। পানির অপচয় রোধ ও ভূগর্ভস্থ পানির ব্যবহার কমাতে হবে। এসংক্রান্তে এখনি জরুরী পদক্ষেপ গ্রহন না করলে ভবিষ্যতে পানির সংকট আরো তীব্র হবে। এবিষয়ে একাধিক বার ৪৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সাদেক আলীর সাথে মুটোফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলেও তিনি ফোন রিসিভ করেন নি। গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনে নির্বাহী প্রকৌশলী (পানি ও পয়:নিস্কাশন) মোঃ আনিছুর রহমান বলেন, ইতিমধ্যে ২৮ টি পাম্প টেন্ডারের জন্য রেজুলেশন করা হয়েছে তার মধ্যে ৭টি টেন্ডার করা হয়েছে। বাকিগুলো খুব দ্রুত টেন্ডার করা হবে। কাজ শুরু হতে মাস খানেক সময় লাগবে।

টঙ্গীতে মাদ্রাসা ছাত্রকে বলাৎকার অভিযুক্ত শিক্ষক গ্রেপ্তার

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ   গাজীপুরের টঙ্গীতে ১১ বছরের এক মাদ্রাসা ছাত্রকে বলাৎকারের অভিযোগে আব্দুর রহিম নামে এক মাদ্রাসা শিক্ষককে গ্রেপ্তার করেছে টঙ্গী পশ্চিম থানা পুলিশ। গতকাল সোমবার রাতে রাজধানী থেকে তাকে গ্রেফতার করে হয়।বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন টঙ্গী পশ্চিম থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ শাহ আলম। গ্রেফতারকৃত আব্দুর রহিম শেরপুর জেলার শ্রীবরদী থানার ভায়াডাঙ্গা গ্রামের বাসিন্দা। পুলিশ জানায়, দীর্ঘদিন ধরেই টঙ্গীর খাঁ পাড়া এলাকার মারকাজুল উম্মাহ আল-ইসলামী বাংলাদেশ নামে এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কর্মরত ছিল গ্রেফতারকৃত শিক্ষক আব্দুর রহিম। রবিবার রাতে পড়ানোর কথা বলে মাদ্রাসার বোডিং থেকে ভুক্তভোগী শিশুকে তার কক্ষে ডেকে নিয়ে যান ওই শিক্ষক।পরে সেখানে জোরপূর্বক তাকে বলাৎকার করা হয়। এ ঘটনা ধামাচাপা দিতে শিশুটিকে নানাবিধি ভয়-ভীতিও প্রদর্শন করেন ওই শিক্ষক। সোমবার সকালে শিশুটির বাবা শিশুটিকে দেখতে এসে শারীরিক অবস্থা খারাপ দেখে অসুস্থতার কারন জানতে চাইলে শিশুটি তার বাবাকে বিষয়টি জানায়। পরে শিশুটি বাবা থানা পুলিশকে অবগত করেন ।বিষয়টি জানাজানি হলে অভিযুক্ত ওই শিক্ষক পালিয়ে যান। পরে সোমবার দিনভর তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় রাজধানী থেকে  অভিযুক্ত শিক্ষককে  গ্রেফতার করা হয়। টঙ্গী পশ্চিম থানার অফিসার ইনচার্জ শাহ আলম জানান, এ ঘটনায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে একটি মামলা রুজু করা হয়েছে। আসামিকে জেলহাজতে প্রেরণের প্রস্তুতি চলমান।

গাজীপুরে স্ত্রী-সন্তানকে কুপিয়ে হত্যা

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরে স্ত্রী-সন্তানকে বটি দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে পালিয়েছে বাবা। গাজীপুর মহানগরের বোর্ড বাজার এলাকায় স্ত্রী রহিমা (৩৮) ও রোকন (১৭) নামের এক ছেলে সন্তানকে বটি দিয়ে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে পাষণ্ড বাবার বিরুদ্ধে। রোববার দিবাগত রাত ১টার দিকে মহানগরের বোর্ড বাজার পূর্ব কলম্বেশর এলাকার মো. নাছিরের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। এঘটনার পর স্বামী মোঃ মফিজ (৬০) পলাতক রয়েছে। স্বামী মোঃ মফিজ টাঙ্গাইল মধুপুরের মৃত আজাহার আলীর বড় ছেলে। তিনি পেশায় একজন রিকশাচালক। বর্তমানে ঢাকা মহাখালী এলাকায় রিকশা চালিয়ে পরিবার চালাতেন তিনি। নিহত রহিমার স্বজনরা জানায়, গত কয়েকদিন যাবৎ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কলহ চলে আসছিল। রোববার (২০ মার্চ) সন্ধ্যা ৭টার দিকে মফিজ বাসায় আসে। পরে সবাই ঘুমিয়ে পড়লে রাত ১টার দিকে ঘাতক স্বামী মো. মফিজ স্ত্রীকে বটি দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে। পরে বড় ছেলে রোকন (১৭) ঘুম থেকে উঠলে তাকেও কুপিয়ে হত্যা করে। স্ত্রী ও সন্তানকে কুপিয়ে হত্যা করে ঘর বাহির থেকে তালা লাগিয়ে দৌড়ে পালিয়ে যায় মফিজ। পুলিশ জানায়, ঘটনাটি জানতে পেরে ঘটনাস্থল থেকে স্ত্রী ও সন্তানের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করা হয়েছে। ঘাতক স্বামী মফিজকে গ্রেফতারের জন্য পুলিশি অভিযান অব্যাহত আছে।

ছবি তুলেই প্রান হারালো চা দোকানি ৬ জন গ্রেফতার

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরের টঙ্গীতে সন্ত্রাসীদের সশস্ত্র মহড়ার ছবি তুলে প্রান হারালো চা দোকানি সোলাইমান(২১)। বুধবার রাতে টঙ্গীর দত্তপাড়া কসাই বাড়ি রেলগেট এলাকায় সশস্ত্র মহড়ার ছবি তোলার অপরাধে তাকে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে আহত করা হয়। একদিন পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় বৃহস্পতিবার রাতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়। এঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে রবিবার পর্যন্ত ছয়জনকে গ্রেফতার করেছে টঙ্গী পূর্ব থানা পুলিশ। নিহত সোলাইমান(২১) ময়মনসিংহ জেলার মুক্তাগাছা থানার পলসা গ্রামের আনোয়ার হোসেনের ছেলে। সে দত্তপাড়া কসাইবাড়ি এলাকার মনিরের ভাড়া বাসায় বসবাস করে একই এলাকায় রেললাইনের পাশে চায়ের দোকান করতো। আটককৃতরা হলো- টঙ্গী মরকুন তিস্তারগেট এলাকার মৃত আশরাফ আলীর ছেলে সজল মিয়া (২৮) ও নোয়াগাঁও এলাকার বাহরাইলের বাড়ির মৃত জামিল মিয়ার ছেলে সুজন মিয়া (২৪), জামালপুরের বকসিগঞ্জ থানার সারমারা গ্রামের ওজির আলীর ছেলে রুবেল(৩৩) ও ময়মনসিংহ সদরের রাগবপুর গ্রামের মৃত আঃ রশিদের ছেলে রাশেদুল(২৪), আঃ হক ও রাজন। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বুধবার সন্ধ্যায় দত্তপাড়া কসাইবাড়ি এলাকায় সশস্ত্র মহড়া দিচ্ছিল সজল উরফে লেংড়া সজল, বরিশাইল্লা সুজন, রোবু, রাজন সজিবের নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী। সেসময় তাদের মহড়ার ছবি তোলায় সন্ত্রাসীরা সোলাইমানকে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে গুরুতর জখম করে পালিয়ে যায়। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে টঙ্গীর শহীদ আহসান উল্লাহ মাষ্টার জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক অবস্থার অবনতি দেখে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করেন। একদিন পর সেখানে তার মৃত্যু হয়। এলাকাবাসী জানায়, সজল উড়ফে লেংড়া সজল এলাকার একজন চিহ্নিত ছিনতাইকারী তার বিরুদ্ধে থানায় একাধিক ছিনতাই এর অভিযোগ রয়েছে সম্প্রতি তার নেতৃত্বে তৈরী হয়েছে ৩০/৪০ জনে একটি সক্রিয় গ্রুপ যারা পুরো এলাকাজুড়ে ত্রাসের রাজত্ব সৃষ্টি করেছে। এই গ্রুপের অন্য সদস্যরা হলো, উজ্জ্বল, সুজন ওরফে বরিশাইল্লা সুজন, রাজন ওরফে ময়মনসিঙ্গা রাজন, সজিব, রবু, শিমুল, মতি ওরফে বোমা মতিসহ এলাকার উঠতি বয়সী অনেক তরুন। এলাকায় ছিনতাই, মাদক কারবার ও আধিপত্য বিস্তার করতে প্রায় সময় তাদের এমন সশস্ত্র মহড়া দেখা যায়। এছাড়া চলন্ত ট্রেন থেকে মোবাইল ফোন ছিনতাই করে এই গ্রুপটি। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা উপ পরিদর্শক মিজানুর রহমান জানান, হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় পুলিশি অভিযান অব্যাহত আছে এযাবৎ ছয় জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের মধ্যে চারজনকে তিন দিনের রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। বাকি দুইজন আসমীকে আদলতে প্রেরন করে রিমান্ড আবেদন করা হয়েছে। টঙ্গী পূর্ব থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মোঃ দেলোয়ার হোসেন বলেন, পাশাপাশি এলাকার দুইটি গ্রুপের দ্বন্দ্বের জেরে হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। অভিযান চালিয়ে এখন পর্যন্ত ৬ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলেও জানান তিনি।

টঙ্গীতে পোষাক শ্রমিক হত্যা মামলার আসামী গ্রেফতার

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ টঙ্গীতে সাত ঘন্টার ব্যবধানে পোষাক শ্রমিক হত্যা মামলার এজাহার নামীয় আসামী ফজলুর রহমান ওরফে ফরহাদ(২৭)কে গ্রেফতার করেছে টঙ্গী পশ্চিম থানা পুলিশ। গতকাল শুক্রবার রাতে টঙ্গী পশ্চিম থানার অফিসার ইনচার্জ শাহ আলমের নেতৃত্বে মামলার তদন্তকারী অফিসার এসআই সাব্বির হোসেন অভিযান চালিয়ে শেরপুর জেলার নালিতাবাড়ী থানার কালিনগর তার নিজ বাড়ীর এলাকা থেকে আসামীকে গ্রেফতার করেন। পুলিশ জানান, বৃহস্পতিবার দুপুরে টঙ্গীর গাজীপুরা বাসস্টান্ড এলাকার আলী আকবর মিয়ার বাড়িতে ছমিরুন নেছা(২৫)কে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে পালিয়ে যায় নিহতের স্বামী ফজলুর রহমান ফরহাদ। এঘটনায় নিহতের মা বাদী হয়ে টঙ্গী পশ্চিম থানা একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলা নং-১৮ তাং-১৭/০৩/২২। এরপর নিহতে বাসায় প্রাপ্ত জাতীয় পরিচয়পত্রের সুত্র ধরে অনুসন্ধান শুরু করে পুলিশ। একপর্যায়ে নালিতাবাড়ি থানার উপ পরিদর্শক কামরুজ্জামানের সহযোগীতায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উপরোক্ত স্থানে অভিযান চালিয়ে ঘটনার সাথে জড়িত নিহতের স্বামী ফরহাদকে গ্রেফতার করা হয়। টঙ্গী পশ্চিম থানার অফিসার ইনচার্জ শাহ আলম জানান, শনিবার গ্রেফতারকৃত আসামীকে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করলে আদালত তার ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি গ্রহন করেন।

টঙ্গীতে বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ।

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ  হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালি স্বাধীন বাংলাদেশের সপ্নদ্রষ্টা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০২তম জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে ৫৪নং ওয়ার্ড যুবলীগের সাধারন সম্পাদক হাজী মোঃ বাবলুর উদ্যোগে খাদ্য সামগ্রী বিতরন করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে টঙ্গীর আউচপাড়া নিউ ব্লোন স্কুল প্রাঙ্গনে এই কর্মসূচী পালিত হয়। বীর মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে ও টঙ্গী পশ্চিম থানা তাতীলীগের সহ সভাপতি মতিউর রহমান মতির সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন এ টি হক গ্রুপের কর্ণধার ও মানবিক বাংলাদেশ সোসাইটির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান আদম তমিজি হক। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, গাজীপুর মহানগর আওয়ামীলীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক ওয়াহিদুর রহমান মানিক, ফারুক সিকদার, খলিলুর রহমান, মোঃ এনামুল হক এলেম, ডাঃ নয়ন পাটোয়ারী, খাইরুল হাসান খান বাবু প্রমূখ। এসময় তিনশতাধিক দুঃস্থ অসহায়দের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরন করা হয়।

পুবাই‌লে ডাকা‌তির ঘটনায় ৯ জন গ্রেফতার

বি এ রায়হান, গাজীপু‌রঃ গাজীপু‌রের পুবাই‌লে এক সপ্তা‌হের ম‌ধ্যে তিন‌টি ডাকা‌তির ঘটনায় জ‌ড়িত আন্ত:জেলা ডাকাত দ‌লের ৯ সদস‌্যতে গ্রেফতার ক‌রে‌ছে পু‌লিশ ।  বিপুল প‌রিমাণ লু‌ন্ঠিত মালামাল উদ্ধার করা হয় । জিএম‌পির উপ ক‌মিনার মোহাম্মদ ইলতুৎ মিশ গ্রেফতার ও মালামাল উদ্ধা‌রের বিষয়‌টি নি‌শ্চিত ক‌রে‌ছেন ।  পু‌লিশ জানায়, গত মা‌সের শেষ সপ্তা‌হে পুবাইল এলাকায় তিন‌টি ডাকা‌তি সংগঠিত হয়। সব‌শেষ ৭ মার্চ পুবাই‌লের তাল‌টিয়া বা‌নিয়াবা‌ড়ি এলাকার হারাধন চন্দ্র শী‌লের বা‌ড়ি‌তে একদল ডাকাত ছাদ দি‌য়ে ভিত‌রে প্রবেশ ক‌রে দেশী অ‌স্ত্রের মু‌খে জি‌ম্মি ক‌রে নগদ টাকাসহ বিপুল প‌রিমাণ মালামাল লুটক‌রে নেয়। পুবাইল থানার ওই ডাকা‌তি মামলার সুত্র ধরে পু‌লিশ অ‌ভিযান চা‌লি‌য়ে তিন নারীসহ ডাকাত দ‌লের ৯ সদস‌্যকে গ্রেফতার ক‌রে পু‌লিশ। গ্রেফতারকৃতরা হ‌চ্ছে র‌বি দাস(৪৫), ফারুক (৩৫), ইমন উ‌দ্দিন(২৯), চন্দন চন্দ্র দাস (৩৬), হা‌বিবুর (৪৮), রিনা আক্তার(৫০), শি‌ল্পি আক্তার (৩০), না‌র্গিস আক্তার(২৫) ও জ‌সিম উ‌দ্দিন(৪৫) । গ্রেফতার কৃত‌দের বা‌ড়ি দে‌শের বি‌ভিন্ন জেলায় তারা টঙ্গী ও পুবাইলসহ সি‌টি কর‌পো‌রেশ‌নের বি‌ভিন্ন এলাকায় ভাড়া বাসায় থে‌কে ডাকা‌তি ক‌রে আস‌ছিল। অ‌ভিযা‌নে ডাকা‌তিতে লু‌ন্ঠিত এক‌টি ল্যাপটপ , রামদা, মোবাইল, কাওয়াল,  ডি এস এল আর ক্যামেরা স্বর্ণালঙ্কার ও নগদ টাকা উদ্ধার করা হয় ।  জিএম‌পি উপ ক‌মিশনার জানান, ডাকাত সদস‌্যরা নতুন কৌশ‌লে জেলখানায় এ‌কে অপ‌রের সা‌থে প‌রিচিত হ‌য়ে সঙ্গ‌বদ্ধভাবে গাজীপুর সহ পার্শবর্তী জেলাগু‌লো‌তে ডাকা‌তি কর‌তো। গ্রেফতারকৃত প্রত্যেকের বিরু‌দ্ধে দে‌শের বি‌ভিন্ন থানা একাধিক মামলা র‌য়ে‌ছে। 

টঙ্গীতে হাজী হাসান উদ্দিনের উদ্যোগে মাদরাসায় কোরআন শরীফ বিতরন।

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ       গাজীপুরের টঙ্গীতে বিশিষ্ট সমাজসেবক ও ৫৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদপ্রার্থী হাজী মোঃ হাসান উদ্দিনের উদ্যোগে স্থানীয় একটি মাদরাসায় পবিত্র কোরআন শরীফ বিতরন ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার ১৪ মার্চ সকালে টঙ্গীর মাছিমপুর কলাবাগান এলাকার আল ইনসাফ কারিমিয়া হাফিজিয়া মাদরাসায় এই অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন মাদরাসার পরিচালক মাওলানা মোঃ লোকমান হাকীম, ক্বারী মোঃ ওবায়দুল্লাহ, মাওলানা ফজলুর রহমান, দ্বীন ইসলাম, রিয়াদুল ইসলাম, রাশেদুল ইসলাম, পল্লী চিকিৎসক বদরুল আলম, যুবলীগ নেতা মোফাজ্জল হোসেন মায়া, ৫৫নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সহ সভাপতি পারভেজ ঢালী, যুগ্ন সাধারন সম্পাদক নুরনবী ইসলাম সুমন, ৫৫ নং ওয়ার্ড কৃষকলীগ নেতা ইব্রাহীম, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মোঃ সোহেল প্রমূখ। 

টঙ্গীতে সুবহানীয়া নুরানী মাদ্রসার বার্ষিক পুরস্কার বিতরণ ও দোয়া মাহফিল

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরের টঙ্গীতে সুবহানীয়া নুরানী মাদ্রসার বার্ষিক পুরস্কার বিতরণ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। রবিবার সকালে টঙ্গীর মিলগেট এলাকায় সুবহানীয়া নুরানী মাদ্রসায়( লাল মসজিদ) এই অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। মাদ্রসা কমিটির সভাপতি মিজানুর রহমান মাষ্টারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান মেহমান হিসাবে উপস্থিত ছিলেন টঙ্গী দারুল উলুম মাদ্রসার মুহতামিম শাইখুল হাদিস আল্লামা মাসউদুল করিম। প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট সমাজ সেবক ও ৫৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদপ্রার্থী হাজী মোঃ হাসান উদ্দিন। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন অলেম্পিয়া মতি মসজিদ ও নুরানী মাদ্রসার মুহতামিম ক্বারী সাইদুর রহমান, মুফতি আবু হানিফ, ক্বারী ওয়াবায়দুল্লাহ প্রমূখ। দোয়া মাহফিল শেষে বিভিন্ন শাখার বিজয়ী প্রতিযোগীদের মাঝে পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়।

টঙ্গীতে যুবলীগ নেতার সংবাদ সম্মেলন

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ বানোয়াট ও ভিত্তিহীন সংবাদ প্রকাশের প্রতিবাদে গাজীপুরের টঙ্গীতে সংবাদ সম্মেলন করেছেন মহানগর যুবলীগের যুগ্ন আহবায়ক ও সিটি মেয়র পার্থী সাইফুল ইসলাম। শনিবার দুপুরে টঙ্গীর কাঠালদিয়া এলাকায় তার নিজ বাসভবনে এই সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে সাইফুল ইসলাম বলেন, আমি ১৯৯৪ সাল থেকে রাজনীতির মাঠে সকল আন্দোলন সংগ্রামে সক্রিয় আছি। ২০০২ সালের জোট সরকারের আমলে টঙ্গী সরকারি কলেজের ভিপি থাকা সত্যেও নানা চক্রান্তের কারনে আমাকে ক্ষমতা হস্তান্তর করেনি ছাত্র সংসদের কর্তৃপক্ষ। একটি মহল আমার কর্মকার্ন্ড ও জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে আমাকে সামাজিক ও রাজনৈতিক ভাবে হেয় পতিপন্ন করতে গত ১১ মার্চ ২০২২ইং উদ্দেশ্য প্রণোদিত ভাবে বানোয়াট ও মনগড়া সংবাদ প্রকাশ করে একটি জাতীয় দৈনিক। সেখানে আমি মাদকে জড়িত রয়েছি উল্লেখ করা হয়। অথচ আমি কোনদিন একটি সিগারেটও খাইনি। মাদকের সাথে আমি যদি জড়িত থাকলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী অবশ্যই আমার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতো। প্রকাশিত সংবাদে টঙ্গী ও উত্তরাসহ বিভিন্ন জায়গায় আমার যেই সম্পদের কথা উল্লেখ করা হয়েছে তার কোন সত্যতা নেই। গাজীপুরের শ্রীপুরে রিসোর্টের নামে যে সম্পদের কথা বলা হয়েছে তা বেশীর ভাগ আমার পৈত্রিক সূত্রে পাওয়া। এছাড়াও দলীয় পদ বাণিজ্য, জমি দখল বা জুট ব্যবসার সাথে আমি জড়িত নয় বলে দাবী করেন তিনি। বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষে ১’শ ঘর নির্মাণ ও গভীর নলকূপ স্থাপন প্রকল্প হাতে নিয়েছি যা এখনো চলমান রয়েছে। এসব কারণে সাধারণ মানুষ আমাকে জনপ্রতিনিধি হিসেবে দেখতে চায়। অপপ্রচারকারীদের উদ্যেশে তিনি আরও বলেন, টঙ্গী গাজীপুরে কারা দুষ্ট লোকদের পশ্রয় দেয় তা সবাই জানে। কারা নিজেদের সম্রাজ্য টিকিয়ে রাখতে কালো রাজনীতি করে গাজীপুর বাসি তাও জানে। আসুন আমরা অন্যের সমালোচনা না করে, অন্যের ক্ষতির চিন্তা না করে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে কাজ করি। দেশের ও দলের ক্ষতি না করে আসুন দেশের জন্য মানুষের জন্য রাজনীতি করি। এসময় যুবলীগের বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মী, প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডয়ার সংবাদকর্মী ও সুশীল সমাজের ব্যাক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

টঙ্গীতে জাতীয় পার্টির উদ্যোগে এরিক এরশাদের জন্মদিন উদযাপিত

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ    টঙ্গী পূর্ব ও পশ্চিম থানা জাতীয় পার্টি অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের উদ্যোগে জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান সাবেক সফল রাষ্ট্রপতি মরহুম পল্লীবন্ধু হুসাইন মুহাম্মদ এরশাদ এর সুযোগ্য সন্তান মোহাম্মদ সাহাতা জারাব এরিক এরশাদ এর ২১তম শুভ জন্মদিন উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার সন্ধ্যায় টঙ্গীর তিস্তারগেট সিকদার মার্কেট জাতীয় পার্টির কার্যালয়ে এ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। সভা শেষে কেক কাটা ও উপস্থিত সকলের মাঝে মিষ্টি বিতরন করা হয়। গাজীপুর মহানগর জাতীয় পার্টির সিনিয়র সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা রফিকুল ইসলাম ভূঁইয়ার সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল সিকদার সবুজ এর সঞ্চালনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় সদস্য এডভোকেট মাহবুব আলম মামুন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,  গাজীপুর মহানগর জাতীয় পার্টি পুনর্গঠন প্রক্রিয়া সভাপতি আতাউর রহমান সরকার। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন, গাজীপুর মহানগর জাতীয় পার্টির সহ সভাপতি এমরান হোসেন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ফজলুল হক, জাহাঙ্গীর আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদ সোহেল রানা, যুগ্ম সাংগঠনিক সম্পাদক হাবিব হাসান, কোষাধ্যক্ষ লাল মিয়া, দপ্তর সম্পাদক জাহিদুজ্জামান জাহিদ, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আরিফ হোসেন হৃদয়, মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা মোসাঃ ফাতেমা আক্তার প্রমুখ।

শ্রীপুরে বকেয়া বেতন ভাতার দাবিতে বিক্ষোভ সড়ক অবরোধ।

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ   গাজীপুরের শ্রীপুরে বকেয়া বেতন ও ভাতার দাবিতে মাওনা-শ্রীপুর আঞ্চলিক সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছে শ্রমিকরা। পরে পুলিশ লাঠিচার্জ করে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। প্রায় দুই ঘন্টার সড়ক অবরোধে মাওনা-শ্রীপুর আঞ্চলিক সড়কে যান চলাচল সম্পূর্ণ বন্ধ হয়ে যায়। এতে দুর্ভোগে পড়ে ওই সড়কে চলাচলকারী যাত্রীরা। বৃহস্পতিবার (১০ই মার্চ) দুপুর ২টা থেকে শ্রীপুর পৌর এলাকার সিজি গার্মেন্টেস এর শ্রমিকরা দুই ঘন্টা সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করে। কারখানার শ্রমিক সোহেল, মাহমুদা, মাসুদ ও আলম জানান, সিজি গার্মেন্টেসে বেতন সঠিক সময়ে দেয়া হয়। গত ফেব্রুয়ারি মাসের বেতন মার্চ মাসের এক তারিখে পরিশোধ করার কথা ছিল। কর্তৃপক্ষ এক তারিখ বেতন না দিয়ে তিন তারিখে বেতন পরিশোধের কথা জানায়। তিন তারিখেও বেতন না দিয়ে তারা একাধিকবার বেতন পরিশোধের তারিখ পরিবর্তন করে। অপর শ্রমিক ফিরোজা জানায়, ফেব্রুয়ারি মাসের বেতন পরিশোধে কারখানা কর্তৃপক্ষ একাধিকবার তারিখ পরিবর্তন করে। সবশেষ ১০মার্চ তারিখে বেতন পরিশোধের কথা বলা হলে আমরা তা মেনে নেই। এদিকে ১০মার্চ তারিখে বেতন না দিয়ে পুনরায় ১৬মার্চ বেতন পরিশোধে কথা জানায়। স্বামী-সন্তান ও সংসার নিয়ে আমরা এখানে ভাড়া থাকি। সঠিক সময়ে ঘর ভাড়া দিতে না পারলে বাড়িওয়ালা আমাদের গালমন্দ করেন। মাস শেষে দোকানবাকী পরিশোধ না করলে আমাদের নতুন করে বাকী দিতে চায়না দোকানদাররা। সঠিক সময়ে বেতন না পেলে আমাদের খেয়ে না খেয়ে থাকতে হয়। এব্যাপারে সিজি গার্মেন্টেস এর কর্মকর্তাদের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তারা কোন বক্তব্য করতে রাজি হননি। শ্রীপুর থানার পরিদর্শক (অপারেশন) গোলাম সারোয়ার বলেন, শ্রমিক ও মালিক পক্ষের সাথে আলোচনা করে আগামী ১৩মার্চ বেতন পরিশোধের আশ্বাস দেয়া হয়। পরে শ্রমিকরা তা মেনে না নিয়ে সড়ক অবরোধ করে রাখে। এসময় পুলিশ শ্রমিকদের সাথে কথা বলতে চাইলে তারা উত্তেজিত হয়ে গেলে লাঠিচার্জ করে তাদের সড়ক থেকে সরিয়ে দেয়া হয়।

শ্রীপুরে বিয়ে প্রস্তাব প্রত্যাখান করায় কলেজ  ছাত্রীকে ছুরিকাঘাত

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ   গাজীপুরের শ্রীপুরে বিয়ের প্রস্তাব প্রত্যাখান করায় কলেজ থেকে ফেরার পথে বখাটের ছুরিকাঘাতে গুরুতর আহত হয়েছে এক ছাত্রী। তাকে চিকিৎসার জন্য শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১০ই মার্চ) দুপুর ২টার দিকে শ্রীপুর উপজেলার বরমী ইউনিয়নে বরমী বালুঘাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত মামুন (২৫) উপজেলার বরমী ইউনিয়নের মাইজপাড়া গ্রামের আজগর আলীর ছেলে। ছুরিকাঘাতে আহত ছাত্রী মারজিয়া (১৮) একই ইউনিয়নের বরমী বেপারী পাড়া বালুঘাট এলাকার মাসুদ এর মেয়ে। মারজিয়া বরমী কলেজের উচ্চ মাধ্যমিকের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আহত ছাত্রী মারজিয়া বলেন, মামুন প্রায়ই কলেজে যাওয়া আসার সময় রাস্তায় উক্ত্যক্ত করতো। মাস খানেক আগে মামুন আমাদের বাড়িতে বিয়ের প্রস্তাব পাঠালে বাবা তা প্রত্যাখান করেন। এনিয়ে তার মধ্যে ক্ষোভ ছিল। বৃহস্পতিবার দুপুরে কলেজ ছুটির পর বাড়ি ফেরার সময় বরমী বালু ঘাট এলাকায় মামুন হঠাৎ এসে গতিরোধ করে। তাকে দেখে অন্যপাশ দিয়ে পালাতে গেলে সামনে থেকে এসে প্রথমে ছুরি দিয়ে আঘাত করে। প্রথম আঘাতটি হাত দিয়ে আত্মরক্ষা করতে পারলেও দ্বিতীয় আঘাতটি বুকে ও তৃতীয় আঘাতটি পেটে লাগে। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনা হয়। সেখানে তাকে চিকিৎসাধীন রাখা হয়েছে। বরমী কলেজের অধ্যক্ষ নুরুজ্জামান খান বলেন, কলেজ ছুটির পর এঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে আমি স্থানীয় হাসপাতালে গিয়েছিলাম। পরে তাকে শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে পাঠিয়েছি। শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক মাহমুদা জানান, আহত ছাত্রীকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে হাসপাতালে ভর্তি রাখা হয়েছে। তার হাত, বুক ও পেটে ধারালো কিছুর আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তাকে নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। এবিষয়ে শ্রীপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) ইমতিয়াজ মাহফুজ ভুইয়া বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। ছাত্রীর সাথে ঘটনার বিস্তারিত জানার চেষ্টা করা হচ্ছে। এবিষয়ে ছাত্রীর পক্ষ থেকে থানায় লিখিত অভিযোগ দেয়ার জন্য বলা হয়েছে।

টঙ্গীতে সংবাদ প্রকাশ করায় সাংবাদিক লাঞ্ছিত, প্রাণনাশের হুমকি

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ  গাজীপুরে সাংবাদিক মো.রবিউল ইসলামকে লাঞ্ছিত ও প্রাণনাশের হুমকি দিয়েছে শফিকুল ইসলাম বাবু (র‌্যাব বাবু) নামের এক ব্যাক্তি। এ ঘটনায় তিনি বৃহস্পতিবার বিকেলে টঙ্গী পশ্চিম থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। ভুক্তভোগী মো.রবিউল ইসলাম টঙ্গী পশ্চিম থানাধীন খাঁপাড়া এলাকার বাসিন্দা। তিনি দৈনিক প্রতিদিনের সংবাদ পত্রিকার টঙ্গী (গাজীপুর) প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছেন। সংবাদকর্মী রবিউল বলেন, গত ১৫ ফেব্রুয়ারি  টঙ্গীতে সংবাদ সংগ্রহকালে সাংবাদিককে প্রাণনাশের হুমকি এই শিরোনামে দৈনিক প্রতিদিনের সংবাদের অনলাইন সংস্করণের সংবাদ প্রকাশ হয়। তারি যের ধরে বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে টঙ্গী পশ্চিম থানা এলাকা থেকে সংবাদ করে স্টেশন রোড এলাকায় যাওয়া পথে নৈমুদ্দিন মোল্লার রোড এলাকায় পৌঁছালে কথিত এই পুলিশের সোর্স গতিরোধ করে তার বিরুদ্বে সংবাদ প্রকাশ করলাম কেনো জানতে চেয়ে অকথ্য ভাষায় গালি গালাজ করে এক পর্যায়ে ঢাকা ময়মনসিংহ মহাসড়কের পাশে থাকা পরিত্যক্ত ইট দিয়ে শরীরে বিভিন্ন স্থানে আঘাত করে। এঘনায় স্থানীয় সংবাদকর্মীদের মাঝে ক্ষোভ বিরাজ করছে। এবং তারা এর প্রতিবাদ ও নিন্দা জানিয়েছে। তিনি দ্রুত ওই কথিত সোর্স কে আইনের আওতায় আনার জন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর প্রতি আহব্বান জানান। এবিষয়ে টঙ্গী পশ্চিম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ্ আলম জানান,এ ঘটনায় থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

টঙ্গীতে দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতির প্রতিবাদে স্বেচ্ছাসেবক দলের বিক্ষোভ

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ   গাজীপুরের টঙ্গীতে দ্রব্যমূল্যের অস্বাভাবিক উর্ধ্বগতি ও সর্বগ্রাসী দুর্নীতির প্রতিবাদে কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসাবে মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম সাথী নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার বিকেলে বিক্ষোভ মিছিলটি ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের কাদেরিয়া গেটের পূর্ব পাশ থেকে শুরু হয়ে মিলগেট এসে শেষ হয়। মিছিলে উপস্থিত ছিলেন টঙ্গী পশ্চিম থানা স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ন আহবায়ক নাজমুল হাসান নাঈম, সোলায়মান কবির, সদস্য সাদ্দাম হোসেন, ইকবাল হোসেন, আশিকুর রহমান, মহানগরের সহ-প্রশিক্ষণ সম্পাদক আবুল হোসেন খলিফা, সহ-স্বাস্থ্য সম্পাদক রাশেদুল ইসলাম বাবু, টঙ্গী পূর্ব থানার জহিরুল হুদা বাবু, বিপ্লব সরকার, সফিকুর রহমান হিমেল, শাহীন আহম্মেদ, দেওয়ান মামুন, আশরাফুল আলম, রাসেল আহম্মেদ, আবুল হোসেন, ইউসুফ মানিক, হাসান চৌধুরী, সোহেল রানা সহ বিভিন্ন ইউনিটের নেতৃবৃন্দ।   বিক্ষোভ মিছিল শেষে মহানগরের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম সাথী সংক্ষিপ্ত বক্তৃতায় বলেন "বর্তমান ভোটবিহীন সরকার জনগণের বুকে জগদ্দল পাথরের মতো চেপে বসেছে, দ্রব্যমূল্যের উর্ধগতির কারণে মানুষ আজ নিদারুন কষ্টে আছে। এই সরকারের বিদায় না হওয়া পর্যন্ত রাজপথের আন্দোলন চলবে।

টঙ্গীতে দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতির প্রতিবাদে স্বেচ্ছাসেবক দলের বিক্ষোভ

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ   গাজীপুরের টঙ্গীতে দ্রব্যমূল্যের অস্বাভাবিক উর্ধ্বগতি ও সর্বগ্রাসী দুর্নীতির প্রতিবাদে কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসাবে মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম সাথী নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার বিকেলে বিক্ষোভ মিছিলটি ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের কাদেরিয়া গেটের পূর্ব পাশ থেকে শুরু হয়ে মিলগেট এসে শেষ হয়। মিছিলে উপস্থিত ছিলেন টঙ্গী পশ্চিম থানা স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ন আহবায়ক নাজমুল হাসান নাঈম, সোলায়মান কবির, সদস্য সাদ্দাম হোসেন, ইকবাল হোসেন, আশিকুর রহমান, মহানগরের সহ-প্রশিক্ষণ সম্পাদক আবুল হোসেন খলিফা, সহ-স্বাস্থ্য সম্পাদক রাশেদুল ইসলাম বাবু, টঙ্গী পূর্ব থানার জহিরুল হুদা বাবু, বিপ্লব সরকার, সফিকুর রহমান হিমেল, শাহীন আহম্মেদ, দেওয়ান মামুন, আশরাফুল আলম, রাসেল আহম্মেদ, আবুল হোসেন, ইউসুফ মানিক, হাসান চৌধুরী, সোহেল রানা সহ বিভিন্ন ইউনিটের নেতৃবৃন্দ।   বিক্ষোভ মিছিল শেষে মহানগরের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম সাথী সংক্ষিপ্ত বক্তৃতায় বলেন "বর্তমান ভোটবিহীন সরকার জনগণের বুকে জগদ্দল পাথরের মতো চেপে বসেছে, দ্রব্যমূল্যের উর্ধগতির কারণে মানুষ আজ নিদারুন কষ্টে আছে। এই সরকারের বিদায় না হওয়া পর্যন্ত রাজপথের আন্দোলন চলবে।

৭ ই মার্চ উপলক্ষে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ছাত্রলীগের শ্রদ্ধা।

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ     আজ ঐতিহাসিক ৭ ই মার্চ। ১৯৭১ সালের এই দিনে স্বাধীন বাংলাদেশের স্বপ্নদ্রষ্টা সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান তৎকালীন ঢাকার রেসকোর্স ময়দানে অগ্নিঝরা ভাষণের মাধ্যমে স্বাধীনতার ডাক দিয়েছিলেন। তিনি বলেছিলেন এবারের সংগ্রাম মুক্তির সংগ্রাম, এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম। তার সেই ভাষণ ছিল স্বাধীনতা সংগ্রামের মূলমন্ত্র। স্বাধীনতার পর থেকেই প্রতিবছর না না আয়োজনের মধ্য দিয়ে দিবসটি পালন করে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। দিবসটি উপলক্ষে প্রতিবছরের ন্যায় বিভিন্ন আয়োজন করেছে গাজীপুর মহানগর ছাত্রলীগ।  সোমবার সকালে গাজীপুর মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি পদপ্রার্থী মশিউর রহমান সরকার বাবুর নেতৃত্বে টঙ্গী সরকারি বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ প্রাঙ্গণে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। এসময় উপস্থিত ছিলেন, ৫৫নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সভাপতি দ্বীন মোঃ নিরব, ৪৯নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রোমান দেওয়ান, ৪৩নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আতিক ছাত্রলীগ নেতা মশিউর হক নাহিন প্রধান, পিয়াস, শাহাদাত সহ বিভিন্ন ওয়ার্ড ও থানার নেতাকর্মীবৃন্দ।

টঙ্গীতে জুয়ার আসর থেকে পিতা পুত্রসহ গ্রেফতার ১০।

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরের টঙ্গীর মিলগেট এলাকায় অভিযান চালিয়ে জুয়ার আসর থেকে পিতা পুত্রসহ দশ জুয়াড়িকে গ্রেফতার করেছে টঙ্গী পশ্চিম থানা পুলিশ। গতকাল শুক্রবার রাতে টঙ্গীর মিলগেট আনোয়ার হোসেন এলুর মার্কেটের গোডাউনে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতারের করা হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে জুয়া খেলার সরঞ্জামাদি ও নগদ টাকা উদ্ধার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, আনোয়ার হোসেন এলু (৫০) ও তার দুই ছেলে মহসিন (২৬), ইয়াসিন আরাফাত (১৮), বাচ্চু মিয়া, (৫২), আমান (৪৭), জুয়েল (৩৫), রফিকুল ইসলাম (৪৫), খাইরুল আলম বাবুল (৫০), স্বপন আলী (৪০) ও মজিবুর রহমান(৪৫)। তারা সকলেই টঙ্গীর মিলগেট নামা বাজার এলাকার বাসিন্দা। পুলিশ জানায়, শুক্রবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মিলগেট নামার বাজার সরকারি জায়গায় অবৈধ ভাবে নির্মিত এলাকায় আনোয়ার হোসেন এলুর মার্কেটের গোডাউনে অভিযান চালিয়ে দশ জন জুয়াড়িকে গ্রেফতার করা হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে জুয়া খেলার ২সেট প্লেয়িং কার্ড ও নগদ ২১ হাজার ৯শত টাকা উদ্ধার করা হয়। এবিষয়ে টঙ্গী পশ্চিম থানার অফিসার ইনচার্জ শাহ আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে নিয়মিত আইনে মামলা দায়ের করে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

মেয়ের হাতেই প্রান হারালেন গর্ভধারিণী মা

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরের শ্রীপুরে বরমী ইউনিনের ভিটিপাড়া গ্রামে গভীর জঙ্গল থেকে গত ১১ ফেব্রুয়ারি অজ্ঞাত নারীর গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। দীর্ঘ তদন্ত শেষে এ হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে একমাত্র মেয়ে শেফালী ও তার শেফালীর সহকর্মীর সোহেল রানাকে গ্রেফতার করেছে শ্রীপুর থানা পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদে পুলিশকে শেফালী জানায়, মাকে মাটিতে চিৎ করে শুয়াইয়া বুকে উপর বসে দুই হাত দিয়ে মাথা এবং গলা টান দিয়ে ধরলে সোহেল ছুরি দিয়ে জবাই করে। পরে মায়ের মৃত্যুর নিশ্চিত হলে সহকর্মীকে নিয়ে ঘটনাস্থল থেকে চলে আসে তারা। শুক্রবার (৪ মার্চ) সকালে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা শ্রীপুর থানার উপ-পরিদর্শক মো: আমজাদ শেখ এ তথ্য জানান। এসময় কালিয়াকৈর সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার আজমীর হোসেন ও শ্রীপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মাহফুজ ইমতিয়াজ ভুঁইয়া উপস্থিত ছিলেন। শেফালী ও সোহেল হত্যাকান্ডের দায় স্বীকার করে বৃহস্পতিবার (৩ মার্চ) গাজীপুর সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শাকিল আহমেদের আদালতে ফৌজদারি কার্যবিধি’র ১৬৪ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করে জানান মামলার তদন্ত কর্মকর্তা। হত্যাকান্ডের শিকার মা মিনারা বেগম (৫৭) শ্রীপুর পৌরসভার ভাংনাহাটি গ্রামের আবু তাহেরের স্ত্রী। মায়ের হত্যার অভিযোগে গ্রেফতার একমাত্র মেয়ে শেফালী (৩৫), গাজীপুরের শ্রীপুর পৌরসভার কেওয়া পূর্ব খন্ড (পুকুরপাড়) গ্রামের মোঃ ফরিদের স্ত্রী। সহকর্মী সোহেল রানা (২৫) শেরপুর জেলার শ্রীবর্দী থানার খড়িয়াকাজিরচর গ্রামের মেরাজ উদ্দিনের ছেলে। সে শ্রীপুরের বিজিবেড গার্মেন্টসে শেফালী ও সোহেল চাকরি করতো। পুলিশ জানায়, মিনারা বেগম (৫৭) এর বিয়ের পর জন্ম হয় একমাত্র মেয়ে শেফালী’র। স্বামী আবু তাহের পরিবারিক কলহের জেরে শেফালির জন্মের বছর কয়েক পর স্ত্রী-সন্তানকে ফেলে অন্যত্র চলে যায়। মিনারা অন্যের বাড়িতে ঝিয়ের কাজ করে শেফালীকে আদর যতেœ বড় করে, প্রায় ২০বছর আগে গাজীপুরের শ্রীপুর পৌর এলাকার কেওয়া পূর্ব খন্ড গ্রামের চাঁন মিয়ার ছেলে মোঃ ফরিদের সাথে পারিবারিক ভাবে বিয়ে দেয়। বিয়ের পর শেফালী-ফরিদ দম্পতির ঘরে তিন ছেলে জন্ম হয়। শেফালী স্থানীয় একটি  কারখানায় চাকুরি ও স্বামী ফরিদ অটোরিকশা চালাতো। সামান্য বিষয় নিয়ে শেফালী ও ফরিদের সংসারে প্রায়ই কলহ লেগে থাকতো। শেফালী তাঁর মা মিনারা বেগমের বাড়ি পার্শ্ববর্তী শ্রীপুর পৌর এলাকার ভাংনাহাটি গ্রামে থাকতো। মিনারা বেগমের সম্পদের মধ্যে বাবার রেখে যাওয়া ৯শতাংশ জমি সম্বল ছিল তার। মিনারা বেগমের অন্য কোন ওয়ারিশ না থাকায়, জীবিত থাকা অবস্থায় জমিটি যাতে বিক্রি করতে না পারে, তাই আট বছর আগে ওই জমিটি একমাত্র মেয়ে শেফালীকে উইল করে দেন। সবশেষ এই জমিটিই জন্যই একমাত্র মেয়ের হাতে নির্মম ভাবে খুন হতে হলো মিনারা বেগমকে। গত ১১ ফেব্রুয়ারি গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার বরমী ইউনিয়নের ভিটিপাড়া গ্রামের সাধুখার টেক এলাকার গভীর জঙ্গল থেকে অজ্ঞাতনামা গলকাটা মরদেহ উদ্ধার করে শ্রীপুর থানা পুলিশ। এ ঘটনায় ওই দিনই থানায় অজ্ঞাতনামা আসামীদের বিরুদ্ধে পুলিশ বাদী হয়ে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের হলে মামলাটি তদন্ত করে শ্রীপুর থানার উপ-পরিদর্শক মো: আমজাদ শেখ। পাশাপাশি র‌্যাব, সিআইডি, পিবিআই’র এর বিশেষজ্ঞ দল অজ্ঞাতনামা মরদেহের শনাক্ত করণে ব্যর্থ হয়। ক্লু বিহীন মামলা তদন্ত করতে পুলিশে বিভিন্ন আঙ্গিকে তদন্ত শুরু করে। এরই মাঝে খবর আসে যে, দেলোয়ারা বেগম নামে এক নারী মিনারা বেগমের নিখোঁজের বিষয়ে অভিযোগ দায়েরের জন্য শ্রীপুর থানায় আসেন, সে নিখোঁজ মিনারার ছোট বোন। পরে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই আমজাদ অজ্ঞাতনামা ওই নারীর ছবির সাথে বোন দেলোয়ারার দেখানো ছবির মিল পান। এসময় দেলোয়ারা বেগমকে জিজ্ঞাসাবাদ করে শেফালী, ফরিদকে গ্রেফতারের জন্য অভিযানে নামে পুলিশ। গত ২ মার্চ (বুধবার) পুলিশ উপজেলার বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালিয়ে সকাল ১১টায় ফরিদ ও বিকেল ৪টায় শেফালীকে আটক করে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে শেফালী তার অপর সহকর্মীর সহযোগিতায় লাখ টাকার চুক্তিতে মাকে হত্যার লোক হর্ষক বর্ণনা দেয়। শেফালীর দেয়া তথ্যমতে ৩মার্চ ভোরে শেফালীর সহযোগী সোহেল রানাকে ভাংনাহাটি এলাকা থেকে আটক করে ঘটনাস্থলের পাশের একটি পুকুর থেকে হত্যায় ব্যবহৃত একটি চাকু উদ্ধার করা হয়। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা শ্রীপুর থানার উপ-পরিদর্শক মো: আমজাদ শেখ জানান, শেফালী তার সংসারে টাকার দরকার হলে বিষয়টি মা মিনারা বেগমকে জানায়। বাবার কাছ থেকে পাওয়া প্রায় ৯শতাংশ জমি ও দুইটি গরু বিক্রি করে টাকা দেয়ার জন্য মিনারা বেগমকে চাপ দেয় শেফালী। এতে মিনারা বেগম রাজি না হওয়ায় শেফালীর সাথে মিনারার ঝগড়া হয়। মিনারা রাগ করে চড় থাপ্পড় মেরে শেফালীকে বাড়ি থেকে বের করে দিলে সে ক্ষুব্ধ হয়ে মা মিনারা বেগমকে হত্যার পরিকল্পনা করে। মাকে হত্যার জন্য তার সহকর্মীকে সোহেল রানাকে বিষয়টি জানায়। মিনারাকে হত্যা করতে ১লাখ টাকা দাবি করে সোহেল রানা। এতে শেফালী রাজি হয়ে সোহেলকে ১৫হাজার টাকা অগ্রীম দেয় এবং বাকী ৮৫হাজার টাকা কাজ শেষে দিবে জানিয়ে, তারা মিনারা বেগমকে হত্যার পরিকল্পনা ও ছক আঁকতে শুরু করে। তাদের পরিকল্পনা অনুযায়ী গত ১০ই ফেব্রুয়ারী শেফালী তার মা মিনারা বেগমকে বনে মাহফিলে ওয়াজ শোনার কথা বলে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় মায়ের বাড়ি থেকে বের হয়। শেফালী তার মাকে নিয়ে কেওয়া এলাকার সিআরসি মোড়ে সোহেলের জন্য অপেক্ষা করতে থাকে। এরপর সোহেল আসলে মা ও মেয়েসহ তিনজন একটি অটোরিক্সা ভাড়া করে ওয়াজ শোনার কথা বলে উপজেলার বরমী’র উদ্দেশ্যে রওনা দেন। পথে সোহেল একটি সেভেন আপ (কোমলজাতীয় পানি) এর মধ্যে কিছু চেতনানাশক ঔষধ মিশিয়ে মিনারাকে খেতে দেয়। মুহুর্তেই মিনারা অচেতন হয়ে পড়ে। এরপর তারা বরমীর ভিটিপাড়া গ্রামের সাধুখার টেক এলাকার গভীর জঙ্গলের কাছে পৌঁছে অটোরিক্সাকে ছেড়ে দেয়। রাত সাড়ে আটটার দিকে জঙ্গলের ভেতর নিয়ে শেফালী ইট দিয়ে তার মায়ের মাথায় আঘাত করে। তারপর শেফালী তার মাকে মাটিতে চিৎ করে শুয়াইয়া বুকে উপর বসে দুই হাত দিয়ে মাথা এবং গলা টান দিয়ে ধরলে সোহেল ছুরি দিয়ে জবাই করে। এরপর মিনারার মৃত্যু নিশ্চিত হলে সোহেল ঘটনাস্থলের পাশের একটি পুকুরে ছুড়ে ফেলে দিয়ে চলে আসে। কালিয়াকৈর সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার আজমীর হোসেন বলেন, সামান্য বিষয় নিয়ে মেয়ে তার মাকে হত্যা করতে পারে এমন ধারনাই ছিল না পুলিশের। অবশেষে দীর্ঘ তদন্ত শেষে পুলিশ একটি ক্ললেস হত্যা মামলা রহস্য সফলভাবে উদ্ঘাটন হলো।

বিদিশা এরশাদকে ফুল দিয়ে নেতাকর্মীদের সংবর্ধনা

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ  জাতীয় পার্টি পুনর্গঠন প্রক্রিয়া ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান পল্লী জননী বিদিশা এরশাদ এর দলকে শক্তিশালী করার লক্ষ্যে কেন্দ্রীয় নেতাকর্মীরা বিদিশা এরশাদকে ফুল দিয়ে সংবর্ধনা জানান। এসময় জাতীয় পার্টি জি এম কাদের পন্থিরা পল্লী জননী বিদিশা এরশাদ এর জাতীয় পার্টি পুনর্গঠন প্রক্রিয়াকে শক্তিশালী করার লক্ষ্যে দলে দলে যোগদান করেন। গাজীপুর মহানগর জাতীয় পার্টি পুনর্গঠন প্রক্রিয়ার উদ্যোগে গতকাল বুধবার রাতে ঢাকা বাড়িধারা প্রেসিডেন্ট পার্কে ফুল দিয়ে সংবর্ধনা জানান জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য এডভোকেট মাহাবুব আলম মামুন, এডভোকেট মোস্তফা জামান, শরিফুল ইসলাম শরিফ ও  প্রাক্তন সৈনিক পার্টি কেন্দ্রীয় কমিটির সিনিয়র সহ-সভাপতি ইসমাইল হোসেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন, জাতীয় পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান এর রাজনৈতিক উপদেষ্টা কাজী রুবায়াত হাসান সায়েম, মহিলা নেত্রী করোবী হাসান, গাজীপুর মহানগর জাতীয় পার্টির পুনর্গঠন প্রক্রিয়া সভাপতি আতাউর রহমান সরকার, সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল শিকদার সবুজ, সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা রফিকুল ইসলাম ভূঁইয়া, কেন্দ্রীয় সদস্য কাজী রুবেল, কোনাবাড়ী থানা জাতীয় পার্টির সভাপতি আসলাম বেপারী মাসুদ রানা প্রমুখ।

টঙ্গীতে মৎসজীবী দলের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে নতুন কমিটি ঘোষণা

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরের টঙ্গীতে মৎসজীবী দলের ৪৩ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় ৫৫ নং ওয়ার্ড মৎসজীবী দলের নতুন কমিটি ঘোষনা করা হয়েছে। সোমবার সন্ধ্যায় টঙ্গীর মিলগেট কো অপারেটিভ মার্কেট এলাকায় এই সভা অনুষ্ঠিত হয়। টঙ্গী পশ্চিম থানা মৎসজীবী দলের আহবায়ক মোঃ সিরাজের সঞ্চালনায় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গাজীপুর মহানগর মৎস্যজীবী দলের আহবায়ক হাসান সরোয়ার রাব্বি। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, গাজীপুর মহানগর মৎস্যজীবী দলের সদস্য সচিব কাসেম খান, টঙ্গী পশ্চিম থানা মৎস্যজীবী দলের সদস্য সচিব আব্দুল কাইয়ুম, টঙ্গী পশ্চিম থানা স্বেচ্ছাসেবক দলের সদস্য আব্দুর রশিদ,যুবদল নেতা সুমনসহ সংগঠনের নেতাকর্মীবৃন্দ। এসময় সাকের মোঃ পাভেলকে সভাপতি ও মোঃ রুবেলকে সাধারন সম্পাদক করে ৩১ সদস্য বিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ কমিটি ও ছয় সদস্য বিশিষ্ট উপদেষ্টা কমিটি ঘোষণা করা হয়।

টঙ্গীতে স্ত্রীকে শ্বাসরোধে হত্যা স্বামী পলাতক

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরের টঙ্গীতে স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ উঠেছে স্বামীর বিরুদ্ধে। সোমবার রাত ৯টায় সুরতহাল শেষে মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার পর থেকে নিহতের স্বামী শান্ত মল্লিক পলাতক রয়েছে। ৩৫ বছর বয়সী পারুল আক্তার টঙ্গী পশ্চিম থানাধীন দাড়াইল বটতলা এলাকার আহমেদ আলীর মেয়ে। গত ৩/৪ মাস পূর্বে ঢাকার মিরপুর শাহআলী থানার মুনছুরাবাদ মাজার রোডের নূরুল ইসলাম মল্লিকের ছেলে বৈদ্যুতিক মিস্ত্রী শান্ত মল্লিকের (৩৭) সাথে পারুলের বিয়ে হয়। এটি ছিলো উভয়ের দ্বিতীয় বিয়ে। গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার (অপরাধ-দক্ষিন) মোহাম্মদ ইলতুৎমিশ এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। নিহত পারুলের বাবা আহমেদ আলী জানান, জর্ডান ফেরত পারুল নিজের জমানো টাকা দিয়ে জায়গা কিনে দাড়াইল বটতলা এলাকায় একটি বাড়ি তৈরি করে দুই বছর যাবত ওই বাড়িতেই থাকতেন। ৩/৪ মাস পূর্বে বৈদ্যুতিক মিস্ত্রী শান্ত মল্লিকের সাথে পারুলের বিয়ে হয়। প্রায় দুই মাস আগে শান্ত স্ত্রী পারুলের কিছু স্বর্ণালঙ্কার ও নগদ টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়। পরে আত্মীয়স্বজন ও এলাকার লোকজন শালিসের মাধ্যমে বিষয়টির মীমাংসা করে দেয়। এরপরও স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে সাংসারিক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে মতবিরোধ ছিলো। আহমেদ আলী আরও জানান, গত কয়েকদিন আগে পারুলের বাসায় বেড়াতে আসে শান্তর ভগ্নিপতি। সোমবার সকাল থেকে পারুলের মোবাইলে কল করলেও কেউ রিসিভ করছিলেন না। পরে বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে পারুলের ভাগিনা আকাশ বাড়িতে এসে ঘরের দরজা বাহির থেকে তালাবদ্ধ দেখতে পায়। এসময় ঘরের জানালার ফাঁক দিয়ে খাটের ওপর বালিশ চাপা অবস্থায় পারুলের নিথর দেহ দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেয়। গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার (অপরাধ-দক্ষিন) মোহাম্মদ ইলতুৎমিশ বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, বালিশ চাপা দিয়ে শ্বাসরোধ করে পারুলকে হত্যা করা হয়েছে। পুলিশ ব্যাুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) ও অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি) ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে আলামত সংগ্রহ করেছেন।

হার্ড এ্যাটাকে সাফারি পার্কে আফ্রিকান লেমুরের মৃত্যু

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ  গাজীপুরের শ্রীপুরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কে আফ্রিকান প্রাণী লেমুর মারা গেছে। মারা যাওয়া লেমুরটি ছিল মাদী।  রোববার (২৭ ফেব্রুয়ারি) আফ্রিকান প্রাণী লেমুরের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সাফারি পার্কের প্রকল্প পরিচালক মোল্লা রেজাউল করিম। তিনি জানান, গত শুক্রবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে লেমুরটিকে বেস্টনীতে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়। প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে লেমুরটি হার্ড এ্যাটাকে মারা গেছে। মৃত লেমুরটি ছিল মাদী। পার্কে মোট চারটি লেমুর ছিল, এর মধ্যে গত শুক্রবার একটি মারা যাওয়ায় পার্কে বর্তমানে তিনটি লেমুর রয়েছে, সেগুলো সুস্থ অবস্থায় আছে। নাম প্রকাশ না করার শর্তে পার্কের এক কর্মকর্তা জানান, শুক্রবার বিকেলেই মৃত লেমুরটির ময়নাতদন্ত শেষ করে মাটি চাপা দেয়া হয়েছে। উল্লেখ্য, ২০১৮ সালের ৬আগষ্ট রাতে পাচার কালে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দর থেকে লাভবার্ড, কাকাতুয়া, ম্যাকাও, ময়ুর, লেমুরসহ ২০২ জোড়া বিপন্ন পাখি ও বন্যপ্রাণী উদ্ধার করে শুল্ক গোয়েন্দা বিভাগ ও ঢাকা কাস্টমস্ হাউস কর্তৃপক্ষ। পরে তা বন্যপ্রাণী অপরাধ দমন ইউনিটের কাছে হস্তান্তর করে। বন্যপ্রাণী অপরাধ দমন ইউনিট উদ্ধার হওয়া পাখি ও প্রাণীগুলোকে ওই বছরের ৭আগস্ট সকালে সাফারী পার্ক কর্তৃপক্ষের নিকট হস্তান্তর করে। একই বছর উদ্ধার হওয়া লেমুর দেশে প্রথম বারের মতো বাচ্চার জন্ম দিয়েছিল সাফারী পার্কে।

গাজীপুরে সাংবাদিককে প্রাণনাশের হুমকি

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ   গাজীপুরে একটি দৈনিক পত্রিকার জেলা প্রতিনিধিকে প্রাণনাশের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ওই সাংবাদিক শনিবার গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন (জিডি নং ২০৫৮)। ভুক্তভোগী হাসিব খান গাজীপুরের রথখোলা এলাকার বাসিন্দা। তিনি দৈনিক আমাদের অর্থনীতি পত্রিকার গাজীপুর জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছেন। হাসিব খান জানান, শুক্রবার দিনভর সংবাদ সংগ্রহের কাজে তিনি জেলার হাড়িনাল এলাকায় ছিলেন। ওইদিন বিকেল ৪টা ৪১ মিনিটে গ্রামীণ ফোনের একটি মোবাইল নাম্বার থেকে তাকে ফোন করা হয়। এ সময় তাকে গালাগাল এবং প্রাণনাশের হুমকি দেন শ্রীপুর উপজেলার প্রহল্লাদপুর ইউনিয়নের মোহাম্মদ আলী নামের এক ব্যাক্তি। এদিকে সাংবাদিক হাসিব খানকে প্রাণনাশের হুমকি দেওয়ায় নিন্দা জানিয়েছেন গাজীপুর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শাহ্ সামসুল হক রিপন। তিনি দ্রুত হুমকিদাতাকে আইনের আওতায় আনার জন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর প্রতি আহব্বান জানান। জিডির তদন্ত কর্মকর্তা সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ইমতিয়াজুল ইসলাম বলেন, নিরাপত্তা চেয়ে সাংবাদিক হাসিব খান থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন। বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এদিকে সাংবাদিককে হুমকিদাতা অভিযুক্ত মোহাম্মদ আলীর বক্তব্য জানতে একাধিকবার ফোন করলেও তার মোবাইল ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়।

পরকিয়ার জেরে যুবককে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরের কালীগঞ্জে পরকিয়া প্রেমের অভিযোগে এক যুবককে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে প্রতিবেশীর বিরুদ্ধে। নিহত সোহেল ভূইয়া (৩৬) বাহাদুরসাদী গ্রামের মৃত ছালাম ভূঁইয়ার ছেলে। শনিবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) সকালে কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে নিহতে মরদেহ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ।পরে সেখান থেকে প্রাথমিক সুরতহাল সম্পন্ন করে ময়নাতদন্তের পাঠানো হয়েছে। কালীগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. যোবায়ের জানান, শনিবার সকালে নিহতের লাশ উদ্ধার করে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তার বাম পায়ে গুরুতর আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।এছাড়াও ডান পায়ে এবং শরীরের বিভিন্নস্থানে আঘাতের আলামত পাওয়া গেছে। এ ব্যাপারে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন আছে বলেও জানান তিনি। নিহতের ছোট ভাই সোহাগ ভূঁইয়া জানান, শুক্রবার রাত ৮টার দিকে প্রতিবেশি কয়েকজন লোক সোহেলকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায়।পরে জেরিন নামে এক নারীর সাথে পরকিয়ার প্রেমের সম্পর্কের অভিযোগ এনে সোহেলকে গাছের সঙ্গে বেঁধে, মুখে গামছা পেঁচিয়ে মারধর করে এসময় তারা সোহেলের দুই পায়ের রগ কেটে দিয়েছে বলেও জানান তিনি। তিনি আরো জানান, সোহেলকে মারধরে পর তার অবস্থা খারাপ দেখে, ওই অভিযুক্তরা তাকে কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়।পরে সেখান তার অবস্থার অবনতি হলে সেখান থেকে অভিযুক্তরা পালিয়ে যায়। সকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় হাসাপতালেই সোহেলের মৃত্যু হয়। কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসক (আরএমও) অভিজিৎ দাস জানান, শুক্রবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) দিবাগত রাত আনুমানিক ২টার দিকে আহত অবস্থায় প্রতিবেশী পরিচয়ে জুবায়ের ও পনির নামে দুইজন লোক সোহেলকে হাসপাতালে নিয়ে আসে। পরে সেখানে তার অবস্থা আশঙ্কাজনক দেখে উন্নত চিকিৎসার জন্য জরুরী বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক জান্নাতুল ঢাকায় প্রেরণের পরামর্শ দেন। কিন্তু এরইমধ্যে সোহেলকে হাসপাতালে নিয়ে আসা ওই দুইজন লোক পালিয়ে যায়। সকাল ৮টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। পরে থানায় খবর দিলে থানা পুলিশ নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে।

টঙ্গীতে করোনার গণটিকা পরিদর্শনে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রতিনিধি দল

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ    গাজীপুরের টঙ্গীতে গণটিকা কার্যক্রম পরিদর্শন করেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রতিনিধি দল। গতকাল শনিবার দিনভর টঙ্গী অঞ্চলের বিভিন্ন গণটিকা কেন্দ্রগুলো পরিদর্শন করেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা’র বাংলাদেশ প্রতিনিধি ডাক্তার বারদান জং রানা, ডিভিশনাল কো-অর্ডিনেটর ডাক্তার মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম ও ডাক্তার লী শান্তা মন্ডল। এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের ভারপ্রাপ্ত মেয়র আসাদুর রহমান কিরণ, গাজীপুর মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি এডভোকেট আজমত উল্লাহ খান, গাসিক নির্বাহী কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম ও স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মাদ রহমত উল্লাহ, কাউন্সিলর গিয়াস উদ্দিন সরকার, ফারুক আহম্মেদ টঙ্গী সিরাজ উদ্দিন সরকার বিদ্যানিকেত এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ ওয়াদুদুর রহমান প্রমুখ। মেয়র আসাদুর রহমান কিরণ বলেন, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রতিনিধি দল গাজীপুরে গণটিকা কার্যক্রমের সকল কেন্দ্র পরিদর্শন করেন। তারা টিকা গ্রহীতাদের খোঁজ খবর নিয়েছেন। গণ টিকা কার্যক্রমে মানুষের আগ্রহ দেখে আনন্দিত বলে মত প্রকাশ করেছেন। এছাড়াও টঙ্গীর টিকাদান কেন্দ্র গুলোতে টিকা নিতে আসা মানুষের উপচেপড়া ভিড় লক্ষ্য করা করা যায়। একই সঙ্গে ব্যাপক আগ্রহে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশা এবং বয়সের মানুষ করোনার টিকা গ্রহণ করছেন। তবে কিছু কিছু কেন্দ্রে দুপুরের আগে টিকা শেষ হয়ে গিয়েছিলো। পরবর্তিতে নতুন করে আবার টিকা নিয়ে আসার পর ওই টিকা কেন্দ্র গুলোতে টিকা দেওয়া শুরু হয়েছে।

টঙ্গীতে দশ ডাকাত গ্রেফতার, মালামল উদ্ধার

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ   শিল্পনগরীর টঙ্গীতে ২৩শে ফেব্রয়ারি সংগঠিত ডাকাতির ঘটনায় গাজীপুরের বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে দশ’জন ডাকাত সদস্যকে গ্রেফতার করেছে টঙ্গী পূর্ব থানা পুলিশ। এসময় ডাকাতির লুন্ঠিত মালামাল উদ্ধার করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার দুপুরে গ্রেফতারকৃত ডাকাত দলের সদস্যদের মামলা দিয়ে বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়। গ্রেফতারকৃত ডাকাত দলের সদস্যরা হলেন, রিমন(২০) নব খগেন্দ্রনাথ রায়(২২) আহাম্মেদ আলী(১৮) সজিব হোসেন রাজা(২২) জাহাঙ্গীর(২৯) রনি(১৯) হৃদয়(১৯) মেহেদী হাসান মিরাজ(১৯) সাব্বির হোসেন(১৯) খন্দকার শাওন(২১)। পুলিশ জানান, ২৩শে ফেব্রয়ারি বুধবার রাত সাড়ে ৩টায় নেত্রকোনা থেকে শশাংক কুমার সরকার রন্টু ও তার বন্ধু ব্যক্তিগত প্রাইভেটকার দিয়ে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা হয়ে ঢাকা ময়মনসিংহ মহাসড়কের টঙ্গীর গাজীপুরা হোপলোন গার্মেন্টেসের সামনে পৌছালে সামনে থাকা দুইটি ট্রাকের কারণে গতি কমায়। হঠাৎ রাস্তার দুই পাশ থেকে ১৩/১৪ জন ডাকাত দেশীয় অস্ত্র সস্ত্রসহ তাদের গাড়ীর চারপাশ ঘিরে ফেলে। একপর্যায়ে ডাকাতরা দেশীয় অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে হত্যার ভয়ভীতি দেখিয়ে তাদের সাথে থাকা নগদ ৭৭ হাজার ৬শ’ টাকা ও বিভিন্ন ব্রান্ডের ৬টি মোবাইল ফোন এবং একটি স্বর্ণের আংটি জোরপূর্বক নিয়ে পালিয়ে যায়। এঘটনায় ২৪শে ফেব্রয়ারি টঙ্গী পূর্ব থানায় বাদী একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা নং-২৯। এঘটনায় পুলিশ সিসি ফুটেজ এবং তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় গাজীপুরের বিভিন্ন এলাকা হতে তাদের গ্রেফতার করা হয়। এবিষয়ে টঙ্গী জোনের সহকারি পুলিশ কমিশনার পিযুষ কুমার দে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

টঙ্গীতে লোহা চোর চক্রের পাঁচ সদস্য গ্রেফতার।

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ   শিল্পনগরী টঙ্গী থেকে বিভিন্ন সরকারী স্থাপনা ও প্রকল্পের লোহার লোহা চোর চক্রের ৫জন সক্রিয় সদস্যকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১। এসময় তাদের কাছ থেকে লোহার রডসহ একটি মিনি ট্রাক, চোরাইকৃত মালামাল ও বিভিন্ন সরঞ্জামাদি উদ্ধার করা হয়। বুধবার সন্ধ্যায় টঙ্গীর আরিচপুর এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় র‍্যাব-১ সহকারি পরিচালক নোমান আহমদ সাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তি এই তথ্য নিশ্চিত করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলো, ফারুক হোসেন (৩৮), রতন মিয়া (২২), শাহিন আলম মানিক (২০), ইমন মারুফ (১৯) ও সেলিম সেখ (৩০)। সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরো জানানো হয়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বুধবার সন্ধ্যায় টঙ্গী আরিচপুর এলাকায় অভিযান চালিয়ে চোরচক্রের ৫ সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে ১টি মিনি ট্রাক, ৩’শ ১০ কেজি লোহার রড, ১টি পাওয়ার টিলারের লোহার চাকা, ১টি মিকচার মেশিনের লোহার চাকা, ৬টি মোবাইল ফোন ও নগদ ৬ হাজার ৫’শ ৫০ টাকা উদ্ধার করা হয়। গ্রেফতারকৃতদের টঙ্গী পূর্ব থানায় সোপর্দ করা হয়। টঙ্গী পূর্ব থানার অফিসার ইনচার্জ জাবেদ মাসুদ জানান, তাদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট আইনে মামলা রুজু শেষে বৃহস্পতিবার আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়।

টঙ্গীতে শহীদ আহসান উল্লাহ মাষ্টার ডে নাইট মিনি ক্রিকেট টুর্নামেন্টের শুভ উদ্বোধন।

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ   গাজীপুরের টঙ্গীতে শহীদ আহসান উল্লাহ মাষ্টার ডে নাইট মিনি ক্রিকেট টুর্নামেন্টের শুভ উদ্বোধন করা হয়েছে। সোমবার বিকেলে টঙ্গীর অলেম্পিয়া টেক্সটাইল মিল উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে এই টুর্নামেন্ট উদ্বোধন করেন নিউ অলেম্পিয়া টেক্সটাইল মিলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মতিউর রহমান বিকম। এসময় উপস্থিত ছিলেন গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের দক্ষিন জোনের অতিরিক্ত উপ পুলিশ কমিশনার হাসিবুল আলম, টঙ্গী পশ্চিম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ শাহ আলম, ৫৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদপ্রার্থী হাজী মোঃ হাসান উদ্দিন সাংবাদিক নেতা কালিমুল্লাহ ইকবাল, ৫৫ নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক ইব্রাহীম সানি, সহ সভাপতি পারভেজ ঢালী, রাকিবুল ইসলাম, আব্দুল মালেক, আকরাম হোসেন, নুর নবী সুমন প্রমূখ। উদ্বোধনী দিনের প্রথম খেলায় প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন অলেম্পিয়া মার্কেট ফ্রেন্ডস ক্লাব বনাম গাজীপুর জেলা ট্রান্সপোর্ট যুব সংঘ। খেলায় অলেম্পিয়া মার্কেট ফ্রেন্ডস ক্লাব বিজয়ী হয়।

টঙ্গীতে শিশু অপহরণ; অভিযুক্ত যুবক গ্রেফতার

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ  গাজীপুরের টঙ্গীতে শিশু (১২)এক শিক্ষার্থীকে অপহরণের অভিযোগে প্রধান অভিযুক্ত রেজাউল হাসান নিহাদ (২০) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃত নিহাদ টঙ্গী পূর্ব থানার মরকুন কুদ্দছ খলিফা রোড এলাকার হান্নান মিয়ার ছেলে। মামলা সূত্রে জানা যায়, পরিবারের লোকজনের সাথে মরকুন টেকপাড়া এলাকায় বাস করা ওই কিশোরী স্থানীয় একটি স্কুলের ৭ম শ্রেণীর শিক্ষার্থী। স্কুলে যাওয়া আসার সময় প্রায়ই বখাটে যুবক নিহাদ তাকে উত্তোক্ত ও বিরক্ত করতো। গত রোববার সকালে আরবী পড়ার জন্য বাসা থেকে মক্তবে যাচ্ছিলেন কিশোরী। সকাল ৯ টার দিকে শিলমুন রাজিয়া খাতুন মাদ্রাসার সামনে পৌঁছা মাত্র পূর্ব থেকে ওৎ পেতে থাকা নিহাদসহ অজ্ঞাতনামা ২-৩ তাকে জোরপূর্বক প্রাইভেটকারে তুলে তাকে অজানা স্থানে নিয়ে যায়। এসময় ডাক চিৎকারে আশপাশের লোকজন টের পেয়ে শিশুর পরিবারের লোকজনকে বিষয়টি জানায়। একইদিন রাতে ভুক্তভোগির মা বাদী হয়ে টঙ্গী পূর্ব থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করলে অভিযুক্ত নিহাদকে গ্রেফতার করে পুলিশ। মঙ্গলবার সংশ্লিষ্ট আইনে মামলা রুজু শেষে গ্রেফতারকৃতকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে এবং শিশুকে ডাক্তারী পরিক্ষার জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। এব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে টঙ্গী পূর্ব থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ জাবেদ মাসুদ বলেন, এঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। অপহরণের পর ভুক্তভোগি শিশু ধর্ষণের শিকার হয়েছেন কি না তা নিশ্চিত হতে ভুক্তভোগিকে ডাক্তারী পরিক্ষার জন্য হাসপাতালে ও অভিযুক্তকে গ্রেফতার পূর্বক জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

টঙ্গীতে ট্রেন অটোরিকশা সংঘর্ষে শিশু যাত্রী নিহত

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ  গাজীপুরের টঙ্গীতে ট্রেনের সঙ্গে ব্যাটারীচালিত অটোরিকশার সংঘর্ষে এক শিশু যাত্রী নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন আরও ৪জন। মঙ্গলবার সকালে মধুমিতা রেল ক্রসিংয়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত নুরে আলম নোমান (৮) পঞ্চগড় জেলার আটোয়ারী থানার যাদবপাটি সরকার পাড়া গ্রামের তরিকুল ইসলামের ছেলে। আহতরা হলেন- মফিজুল ইসলাম (৩০), আব্দুল হাকিম (৩০) ও নাজমুল ইসলাম (১৬)। তাদের সবাই স্থানীয় পূর্ব আরিচপুর এলাকার বাসিন্দা। আনুমানিক ৪০ বছর বয়সী আহত অপর একজন পুরুষ ব্যক্তির নাম পরিচয় পাওয়া যায়নি। আহতদের সকলকে ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। টঙ্গী রেলওয়ে ফাঁড়ি ইনচার্জ এস আই নূর মোহাম্মদ খান জানান, সকাল পৌনে ৬টায় মধুমিতা রেল ক্রসিংয়ের ওপর দিয়ে একটি অটোরিকশায় মধুমিতা থেকে বিসিক মদিনা পাড়ার দিকে যাচ্ছিলেন তারা। এসময় ঢাকা থেকে জয়দেবপুরগামী তুরাগ ট্রেনের ইঞ্জিনের সাথে সজোরে ধাক্কা লেগে অটোরিকশা যাত্রী ও চালক সকলেই ছিটকে পড়েন। এতে মাথাসহ শরীরের বিভিন্ন অংশে আঘাত লেগে নুরে আলম নোমান ঘটনাস্থলেই মারা যান। আশপাশের লোকজন গুরুতর আহত বাকী ৪ জনকে উদ্ধার করে প্রথমে টঙ্গী শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের অবস্থা আশংকাজনক দেখে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য সকলকে ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে প্রেরণ করেন। খবর পেয়ে রেলওয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেন। এ ঘটনায় সংশ্ল্ষ্টি থানায় আইনি প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে বলেও জানান তিনি।

শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার ইসলামী গ্রন্থাগারের উদ্যোগে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ   অমর ২১ ফেব্রুয়ারি, ও ‘আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস’ আজ। মাতৃভাষা আন্দোলনের ৭০ বছরও পূরণ হলো এই দিনে। মাতৃভাষার অধিকার প্রতিষ্ঠার পাশাপাশি জাতিস্বত্তা, স্বকীয়তা আর সাংস্কৃতিক স্বাতন্ত্র্য রক্ষার আন্দোলনের অবিস্মরণীয় সেই দিনটি বাঙালির জীবনে ফিরে এসেছে আবার। এই উপলক্ষে প্রথম প্রহরে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে ভাষা শহীদদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানিয়েছে শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার ইসলামী গ্রন্থাগার। রোববার দিবাগত রাত ১২টা ১ মিনিটে টঙ্গীর  কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার ইসলামী গ্রন্থাগারের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন, শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার ইসলামী গ্রন্থাগারের সভাপতি রেজাউল করিম, সাধারণ সম্পাদক নূর মোহাম্মদ শ্যামল, সহ-সভাপতি আবু সাইদ টুটুল, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ হাসান, প্রচার সম্পাদক কবির শাহ্সহ সংগঠনের সকল নেতাকর্মীবৃন্দ।

টঙ্গীতে ইয়াবা সহ দুই মাদক কারবারি গ্রেফতার

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরের টঙ্গীতে ৫ শত ৫০ পিস ইয়াবাসহ দুই মাদক কারবারিকে গ্রেফতার করেছে টঙ্গী পশ্চিম থানা পুলিশ। রবিবার ২০ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় নগরীর খাঁপাড়া এশিয়া পাম্প সংলগ্ন এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলেন কক্সবাজার জেলার উখিয়া উপজেলার রুমকা হলুদিয়া পালং গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে সাইফুল ইসলাম (২০), ও একই এলাকার মােঃ শাহ আলমের ছেলে মােবারক হােসেন (২০)। পুলিশ জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ঢাকা ময়মনসিংহ মহাসড়কের খাঁপাড়া এশিয়া পাম্পের সামনে অভিযান পরিচালনা করে ৫৫০ পিস ইয়াবা সহ দুই জন মাদক কারবারিকে গ্রেফতার করা হয়। টঙ্গী পশ্চিম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ শাহ আলম জানান, তাদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা রুজু করে বিজ্ঞ আদলতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়েছে।

টঙ্গীতে মাদ্রাসার কোমলমতি শিক্ষার্থীদের মাঝে ধর্মীয় বই বিতরন।

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরের টঙ্গীর নিশাত মহল্লা এলাকার বাইতুল হাদী জামে মসজিদ ও মাদ্রাসার শিশু শিক্ষার্থীদের মাঝে ধর্মীয় বই ও খাবার বিতরণ করেন ৫৫ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদপ্রার্থী হাজী হাসান উদ্দিন। রবিবার ২০শে ফেব্রুয়ারি সকালে হাজী হাসান উদ্দিন এর উদ্যোগে এই আয়োজন করা হয়। এসময় মাদ্রাসার ৩১জন শিশু শিক্ষার্থীদের মাঝে ধর্মীয় বই ও খাবার বিতরন করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন, বাইতুল হাদী জামে মসজিদ ও মাদ্রাসার প্রধান পরিচালক মুফতী আবু হানিফ, আওয়ামী লীগ নেতা বাচ্চু মিয়া, শাহ আলম কিরন, ৫৫ নং ওয়ার্ড ছাত্রীগের সাধারণ সম্পাদক ইব্রাহিম সানি, সহ- সভাপতি পারভেজ ঢালী, যুবলীগের নেতা আবু সাইদ শেখ রাসেল জাতীয় শিশু কিশোর পরিষদের ৫৫ নং ওয়ার্ড সভাপতি মোঃ নুরনবী ও রাকিব হোসেন প্রমূখ। হাজী হাসান উদ্দিন বলেন, টঙ্গীর নিশাত মহল্লার বাইতুল হাদী জামে মসজিদ ও মাদ্রাসাটি অনেক অবহেলিত। তাই আমি ব্যাক্তিগত উদ্যোগে মাদ্রাসার ৩১ জন শিশু শিক্ষার্থীদের মাঝে ধর্মীয় বই ও খাবার বিতরণ করেছি। এবং ভবিষ্যতে যেকোন প্রয়োজনে আমার সাথে যোগাযোগ করলে আমি এই প্রতিষ্টানের পাশে থাকবো ইনশাআল্লাহ।

টঙ্গীতে মাদ্রাসার কোমলমতি শিক্ষার্থীদের মাঝে ধর্মীয় বই বিতরন।

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরের টঙ্গীর নিশাত মহল্লা এলাকার বাইতুল হাদী জামে মসজিদ ও মাদ্রাসার শিশু শিক্ষার্থীদের মাঝে ধর্মীয় বই ও খাবার বিতরণ করেন ৫৫ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদপ্রার্থী হাজী হাসান উদ্দিন। রবিবার ২০শে ফেব্রুয়ারি সকালে হাজী হাসান উদ্দিন এর উদ্যোগে এই আয়োজন করা হয়। এসময় মাদ্রাসার ৩১জন শিশু শিক্ষার্থীদের মাঝে ধর্মীয় বই ও খাবার বিতরন করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন, বাইতুল হাদী জামে মসজিদ ও মাদ্রাসার প্রধান পরিচালক মুফতী আবু হানিফ, আওয়ামী লীগ নেতা বাচ্চু মিয়া, শাহ আলম কিরন, ৫৫ নং ওয়ার্ড ছাত্রীগের সাধারণ সম্পাদক ইব্রাহিম সানি, সহ- সভাপতি পারভেজ ঢালী, যুবলীগের নেতা আবু সাইদ শেখ রাসেল জাতীয় শিশু কিশোর পরিষদের ৫৫ নং ওয়ার্ড সভাপতি মোঃ নুরনবী ও রাকিব হোসেন প্রমূখ। হাজী হাসান উদ্দিন বলেন, টঙ্গীর নিশাত মহল্লার বাইতুল হাদী জামে মসজিদ ও মাদ্রাসাটি অনেক অবহেলিত। তাই আমি ব্যাক্তিগত উদ্যোগে মাদ্রাসার ৩১ জন শিশু শিক্ষার্থীদের মাঝে ধর্মীয় বই ও খাবার বিতরণ করেছি। এবং ভবিষ্যতে যেকোন প্রয়োজনে আমার সাথে যোগাযোগ করলে আমি এই প্রতিষ্টানের পাশে থাকবো ইনশাআল্লাহ।

টঙ্গীতে বন্ধু সমাজ কল্যাণ সংস্থার পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ "সেবায় আমাদের লক্ষ্য" এই শ্লোগানকে সামনে রেখে গাজীপুরের টঙ্গীতে বন্ধু সমাজ কল্যাণ সংস্থার নবগঠিত কমিটির পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার সন্ধ্যায় নগরীর একটি রেস্তোরাঁয় জমকালো আয়োজনের মধ্য দিয়ে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়। এসময় দৈনিক খোলা কাগজের  টঙ্গী প্রতিনিধি সাংবাদিক সুজন সারোয়ার সভাপতি ও দৈনিক ভোরের ডাকের টঙ্গী প্রতিনিধি সাংবাদিক আল আমিন হোসেনকে সাধারণ সম্পাদক করে ১১বিশিষ্ট কার্য-নির্বাহী কমিটি ঘোষনা করেন টঙ্গী বন্ধু সমাজ কল্যাণ সংস্থার প্রধান উপদেষ্টা অমল চন্দ্র ঘোষ, উপদেষ্টা খোরশেদ আলম, উপদেষ্টা আশরাফুল সিকদার সবুজ ও টঙ্গী বন্ধু সমাজ কল্যাণ সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি জাহাঙ্গীর আকন্দ। কমিটির অন্যান্য সদস্যরা হলেন, টঙ্গী বন্ধু সমাজ কল্যাণ সংস্থার সহ -সভাপতি জসিম উদ্দিন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শেখ রাজিব হাসান আকাশ, সাংগঠনিক সম্পাদক মোস্তাকিম খান, কোষাধ্যক্ষ মনসুর আহম্মেদ, দপ্তর ও প্রচার সম্পাদক নজরুল ইসলাম, সমাজ কল্যাণ সম্পাদক পলাশ সরকার, ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক কাজী সোহাগ, শিক্ষা ও স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক আনোয়ার হোসেন, কার্যনির্বাহী সদস্য দেলোয়ার হোসেন। সাংবাদিক বশির আলমের সঞ্চালনায় আনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন, দৈনিক আমাদের সময় পত্রিকার ষ্টাফ রিপোর্টার (গাজীপুর) মোহাম্মদ আলম, সাংবাদিক ওলিদুর রহমান, মাসিক সংবাদ আলোচনার সম্পাদক ইউনুস মিয়া, সংবাদ মোহনার তাওহীদুল করিম, দৈনিক বাংলাদেশ সমাচারের জসিম মাস্টার, দৈনিক বাংলাদেশ বুলেটিনের টঙ্গী প্রতিনিধি বি,এ রায়হান, এশিয়ান টিভির গাজীপুর প্রতিনিধি আরিফ চৌধুরী, টঙ্গী বন্ধু সমাজ কল্যাণ সংস্থার সদস্য জাহাঙ্গীর মোল্লা, মেহেদী হাসান, শাকিল, টঙ্গী সাংবাদিক ক্লাবের সভাপতি এম আওলাম হোসেন,প্রতিদিনের সংবাদের টঙ্গী প্রতিনিধি রবিউল ইসলাম, সাংবাদিক কেয়া প্রমুখ।

টঙ্গীতে আগুনে পুড়ে মাদ্রসা ছাত্রের মৃত্যু

বি এ রায়হান গাজীপুরঃ গাজীপুরের টঙ্গীতে বসত বাড়িতে অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। এসময় আগ্নিদগ্ধ হয়ে আব্দুর রহমান জাবেদ (৮) নামে এক মাদ্রসা ছাত্রের মৃত্যু হয়েছে শুক্রবার বিকেলে নগরীর পাগার ঝিনু মার্কেট এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। নিহত জাবেদ ময়মনসিংহ জেলার কোতোয়ালি থানার চক শ্যামরামপুর গ্রামের জয়নাল আবেদীনের ছেলে। সে পরিবারের সাথে পাগার ঝিনু মার্কেট এলাকায় বসবাস করতো। টঙ্গী ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন অফিসার ইকবাল হাসান জানান, দুপুর সাড়ে তিনটার দিকে অগ্নিকান্ডের খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের দুইটি  ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়। তবে এর আগেই এলাকাবাসী আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। এসময় অগ্নিদগ্ধ হয়ে এক শিশুর মৃত্যু হয় এবং একটি ঘর বস্মীভুত হয়। প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে আগুনের সুত্রপাত হয়। টঙ্গী পূর্ব থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জাবেদ মাসুদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এই ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিধীন।

গাজীপুরে বিপুল পরিমান গাঁজাসহ আটক ২

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ   গাজীপুরের কালিয়াকৈরে ৭০ কেজি গাঁজাসহ ০২ জন মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে র‍্যাব-১। এসময় মাদক পরিবহনে ব্যবহৃত ০১টি পিকআপ, ০২ টি মোবাইল ফোন এবং নগদ ৫ হাজার ৫ শত টাকা উদ্ধার করা হয়। সোমবার ১৫ ফেব্রুয়ারী মধ্যরাতে কালিয়াকৈরের সুত্রাপুর এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়। একই দিন দুপুরে র‍্যাব-১ এর সহকারী পরিচালক (মিডিয়া অফিসার) নোমান আহমদ সাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য নিশ্চিত করা হয়। আটককৃতরা হলো ময়মনসিংহ জেলার মৃত মোফাজ্জল হোসেনের ছেলে মুন্না (২৯), নেত্রকোনা জেলার মৃত মাহতাব উদ্দিনের ছেলে খোরশেদ আলম (২৮)। র‍্যাব জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সুত্রাপুর এলাকায় অভিযান চালিয়ে নেত্রকোনা থেকে ঢাকাগামী একটি মুরগীবাহী পিকআপ ভ্যানে তল্লাশি চালিয়ে ৭০কেজি গাঁজাসহ ২ মাদক কারবারিকে আটক করা হয়। আটককৃতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

টঙ্গীতে বেতন-ভাতার দাবিতে শ্রমিক বিক্ষোভ

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ  গাজীপুরের টঙ্গীতে একটি পোষাক কারখানায় হাজিরা বোনাস বৈষম্য, বেতন আটকে দেওয়া ও দুই সেকশনের শ্রমিকদের মারধরের প্রতিবাদে বিক্ষোভ করেছে শ্রমিকরা। এসময় বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা চেরাগ আলী মার্কেট এলকায় ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করতে থাকে। পরে পুলিশ বিক্ষুব্ধ শ্রমিকদের মহাসড়ক থেকে সড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা করলে শ্রমিকরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল ছুড়লে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে লাঠিচার্জ ও সাউন্ড গ্রেনেড নিক্ষেপ করে শ্রমিকদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। মঙ্গলবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) সকালে মিলগেট নামাবাজারে গোরিয়ং ফ্যাশন লিমিটেড কারখানার শ্রমিকরা এ বিক্ষোভ করেন। শ্রমিকরা জানায়, কারখানায় ফিনিশিং সেকশনের শ্রমিকদের মাসিক হাজিরা বোনাস ৫০০ টাকা দেওয়া হয়। অথচ সুইং সেকশনের কাউকে ৩০০ এবং কয়েকজনকে ২০০ টাকা হাজিরা বোনাস দেওয়া হয়। একারনে শ্রমিকদের মধ্যে দীর্ঘদিন যাবৎ অসন্তোষ বিরাজ করছিল। এছাড়া গত ১০ ফেব্রুয়ারি তাদের জানুয়ারি মাসের বেতন পরিশোধ করা হলেও যাদের অফিসে অনুপস্থিতির সংখ্যা বেশি ছিল, তাদের বেতন আটকে দেওয়া হয়। বেতন আটকে দেওয়া প্রায় ২৫ থেকে ২৮ শ্রমিক ওই দিন বিক্ষোভ করেন। এরই জের ধরে গত বৃহস্পতিবার ফিনিশিং সেকশনের কয়েকজন শ্রমিক মিলে সুইং সেকশনের নারী শ্রমিকদের মারধর করেন। এতে দুই সেকশনের শ্রমিকদের মধ্যে উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। পরে সোমবার কারখানায় এসে শ্রমিকরা কাজে যোগ না দিয়ে বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ করতে থাকেন। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৮টায় বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা চেরাগআলী এলাকায় ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক প্রায় ১৫ মিনিট অবরোধ করে বিক্ষোভ করতে থাকে। কারখানার এডমিন জাহিদুল ইসলাম বলেন, কারখানায় গত বৃহস্পতিবার থেকে কাজ হচ্ছে না। তারা নিজেরাই কারখানার মধ্যে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি লক্ষে পায়তারা করে আসছে।  গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ কমিশনার (অপরাধ দক্ষিণ) মোঃ ইলতুৎ মিশ জানান, বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করলে পুলিশও লাঠিচার্জ করে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। একপর্যায়ে শিল্প পুলিশের পক্ষ থেকে কয়েকটি সাউন্ড গ্রেনেড নিক্ষেপ করা হয়। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

টঙ্গীতে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে গ্রেফতার ৪

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ   গাজীপুরের টঙ্গীতে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে ৪ ডাকাতকে গ্রেফতার করেছে টঙ্গী পশ্চিম থানা পুলিশ। এসময় তাদের কাছ থেকে ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত ১টি তলোয়ার, ১টি রামদা, ১টি দা ও ১টি ছুরি উদ্ধার করা হয়। সোমবার ১৪ ফেব্রুয়ারি মধ্যরাতে নগরীর দেওড়া বেক্সিমকো রোড এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলো খাগড়াছড়ি জেলার রামগড় থানা তৈইচালাপাড়া গ্রামের বাদল হকের ছেলে মনিরুজ্জামান হৃদয় (২৭), টঙ্গীর এরশাদনগর এলাকার মৃত আহসান উল্লাহর ছেলে সাইফুল ইসলাম জীবন (২২), একই এলাকার মৃত আলী হােসেনের ছেলে নাহিদ হােসেন (২৪) ও আলী আহম্মদের ছেলে নবির হােসেন (২৫)। তারা সকলেই এরশাদনগর এলাকায় বসবাস করতো। পুলিশ জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে দেওড়া বেক্সিমকো রোড এলাকায় অভিযান চালিয়ে সশস্ত্র অবস্থায় ৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়। তারা চাকরির পাশাপাশি গভীর রাতে অটোরিকশায় করে বিভিন্ন এলাকায় ছিনতাই ও ডাকাতি করতো। তাদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা ও অভিযোগ রয়েছে। টঙ্গী পশ্চিম থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ শাহ্ আলম জানান, তাদের বিরুদ্ধে নিয়মিত আইনে মামলা দায়ের করে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

শ্রীপুরে শিল্প-কল কারখানার নিরাপত্তা ও আইন শৃঙ্খলা বিষয়ক মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত।

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ    গাজীপুরের শ্রীপুরের শিল্প-কল কারখানার নিরাপত্তা ও আইন শৃঙ্খলা বিষয়ক মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। রোববার (১৩ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে শ্রীপুর পৌর এলাকার গ্রীণ ভিউ গলফ্ রিসোর্টে জেলা পুলিশ আয়োজিত এ মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় গাজীপুর জেলার পুলিশ সুপার এস এম শফিউল্লাহ্ প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে শ্রীপুরের প্রায় পাঁচ শতাধিক শিল্প কারখানার মালিকগণ ও তাদের প্রতিনিধিদের নানা সমস্যার কথা শুনেন এবং সমাধানের আশ্বাস দেন। এসময় উপস্থিত কারখানার কর্মকর্তারা জানান, শ্রমিকদের মাসিক বেতন পরিশোধ করা হয় ব্যাংক হিসাব নাম্বারে। বেতন পাওয়ার পর শ্রমিকরা এটিএম কার্ডের মাধ্যমে বুথ থেকে টাকা তুলে বাড়িতে ফেরার সময় অনেক সময় ছিনতাইয়ের শিকার হন। শ্রমিকদের প্রতিনিয়তই টাকা ছিনিয়ে নিয়ে যাচ্ছে একটি চক্র। এ ছাড়া মালামাল পরিবহনে সড়ক-মহাসড়কে সবসময় যানজটের কবলে পড়ার কথা উল্লেখ করেন কর্মকর্তারা। আঞ্চলিক সড়ক ও মহাসড়কের মতো জায়গায় যানজটের জন্য তাকওয়া পরিবহন' নামের একটি কোম্পানিকে দায়ি করেন তারা। এছাড়াও বেশ কিছু ঘটনার কথা উল্লেখ করে, কারখানা কর্তৃপক্ষ পুলিশের সহযোগিতায় চান। কর্তৃপক্ষ পুলিশসহ বিভিন্ন সরকারি সংস্থার ব্যবহারের জন্য গাড়ি রিকুইজেশন করার ক্ষেত্রে একটি প্রস্তাবনা উপস্থাপন করেন। তারা শিল্পকারখানার গাড়িগুলোকে স্বল্প আকারে রিকুইজেশনের আওতায় আনার অনুরোধ করেন। এছাড়াও পুলিশি কাজে সরকারী গাড়ির পাশাপাশি শিল্প মালিকদের কাছ থেকে গাড়ি অনুদান নেয়ার প্রস্তাব দেন বেশ কয়েকজন কর্মকর্তা। মত বিনিময় সভায় পুলিশ সুপার এস এম শফিউল্লাহ বলেন, জেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভায় তাকওয়া পরিবহনের অনিয়ম সম্পর্কে আলোচনা হয়েছে। তাদের ৭দিন সময় দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে সব অনিয়ম ঠিক করার জন্য তাদের বলা হয়েছে। না হলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তিনি বলেন, শ্রমিকদের নিরাপত্তা বিধানে পুলিশ আরো সচেতন হবে। মাঠে বাড়ানো হবে টহল। তা ছাড়া কারখানার শ্রমিকদের বেতনের পর যতটা সম্ভব দলবদ্ধ হয়ে বাড়ি ফেরার পরামর্শ দেন তিনি। গাড়ি রিকুইজেশন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, বিষয়টি পুলিশ বিবেচনায় রেখে কাজ চালাবে। তা ছাড়া মালামাল পরিবহনে কিংবা ঝুট ব্যবসায় কোনো চাঁদাবাজি হলে সাথে সাথে পুলিশকে জানানোর অনুরোধ করেন। এ ধরনের ঘটনা ঘটলে তিনি কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি দেন। গাজীপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নন্দিতা মালাকারের সঞ্চালনায় মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) ছানোয়ার হোসেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) আমিনুল ইসলাম, শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খোন্দকার ইমাম হোসেন, শ্রীপুর থানার পরিদর্শক (অপারেশন) গোলাম সারোয়ারসহ জেলা পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ।

টঙ্গীতে ফের শ্রমিক অসন্তোষ সড়ক অবরোধ-পুলিশের লাঠিচার্জ আহত ১০

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরের টঙ্গীর ভাদাম এলাকার এননটেক্স গ্রুপের সুপ্রভ স্পিনিং মিলস লিমিটেড, মিলাঞ্জ স্পিনিং মিলস লিমিটেড, লামিসা স্পিনিং মিলস লিমিটেড,রোটর স্পিনিং মিলস লিমিটেডের শ্রমিকরা বকেয়া বেতন ভাতার দাবিতে ধউর এলাকায় আবারও ঢাকা-আশুলিয়া সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করছে। রবিবার ১৩ই ফেব্রুয়ারি বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে এঘটনা ঘটে।  এসময় বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা সড়কের বাঁশ,ইট ফেলে সড়ক অবরুদ্ধ করে রাখে এতে ঢাকা-আশুলিয়া  সড়কে তীব্র যানযট দেখা দেয়। এসময় চরম ভোগান্তিতে পরে যাত্রী সাধারণ। পরে সন্ধ্যা ৭টার  দিকে পুলিশ লাঠিচার্জ করে বিক্ষুব্ধ শ্রমিকদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়।  শ্রমিকরা জানান, গত ৩১ জানুয়ারী সকালে একি কারণে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করে শ্রমিকরা। পরে  প্রশাসনের অনুরোধ সড়ক ছেড়ে দিয়ে কারখানায় অবস্থান নেয় শ্রমিকরা। ওই দিন বেতন ভাতা পরিশোধের কথা থাকলেও কোম্পানি তা পরিশোধ করতে না পাড়ায় শ্রমিকদের কাছ থেকে নতুন করে আবারও ২দিনের সময় নেয়। দুদিন পরে সকল শ্রমিকদের বেতন ভাতা পরিশোধ করার কথা থাকলেও কিছু লোকের বেতন পরিশোধ করে বাকিদের ১৩ই ফেব্রুয়ারী সকালে বেতন ভাতা পরিশোধ করার কথা জানলে শ্রমিকররা তা মেনে নেয়। কিন্তু দিনভর বেতনের আশায় বসে থেকে বেতন না পেয়ে আবারও আন্দোলন শুরু করে শ্রমিকরা। এমন অবস্থায় বেতন ভাতা পাবে কিনা তা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেন তারা। এবিষয়ে টঙ্গী পশ্চিম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহ্ আলম জানান,শ্রমিকদের সড়ক থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। বেতন ভাতা পরিশোধের বিষয়টি সমাধানের চেষ্টা চলছে।

কাজী আব্দুল আওয়াল ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে বিনামূল্যে ব্লাড গ্রুপিং কর্মসূচি

বি এ রায়হান গাজীপুরঃ  গাজীপুরের টঙ্গীতে কাজী আব্দুল আওয়াল ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে বিনামূল্যে ব্লাড গ্রুপিং কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। শুক্রবার (১১ ফেব্রুয়ারী) দিনব্যাপী টঙ্গীর গাজীপুরা এলাকায় কর্মসূচি পালন করে তারা। দিনব্যাপী কর্মসূচির উদ্বোধন করেন সংগঠনটির চেয়ারম্যান কাজী কামাল হোসেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন গাজীপুরা পূর্বপাড়া জামে মসজিদের সাধারণ সম্পাদক মো. মনির হোসেন, সংগঠনের উপকমিটির সভাপতি শাহ আলম মোল্লা, সাধারণ সম্পাদক মো. ইসমাইল হোসেন মোল্লা, সহ সভাপতি মো. শাহাবুদ্দিন, মো. সবুজ, জিসান বেপারি, সাংগঠনিক সম্পাদক সুমন মোল্লা, কোষাধ্যক্ষ আশরাফুল ইসলাম, সাইম, জুবায়েরসহ সকল সদস্যরা। কাজী আব্দুল আওয়াল ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান কাজী কামাল হোসেন বলেন, রক্তের গ্রুপ নির্নয় করা প্রতিটি লোকের জন্য খুবই জরুরি। অনেক সময় মুমূর্ষু অবস্থায় রক্তের গ্রুপ না জানার থাকার কারণে প্রানহানীর ঘটনাও ঘটে। তাই আমরা বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্ণয় কর্মসূচি পালন করছি। আজ আমরা প্রায় ৫শতাধিক লোকের রক্তের গ্রুপ নির্ণয় করেছি। পর্যায়ক্রমে ৫ হাজার লোকের মাঝে বিনামূল্যে এই কর্মসূচি পালন করা হবে।

গাজীপুর মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদককে অব্যাহতি

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র পদ থেকে বরখাস্ত ও আওয়ামী লীগ থেকে আজীবন বহিস্কার হওয়া জাহাঙ্গীর আলমের পক্ষে মিছিল করায় এবার পদ হারালেন গাজীপুর মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক হাজী মনিরুজ্জামান মনির। তিনি গাজীপুর সিটি করপোরেশনের ৩৮ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর। বৃহস্পতিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির দপ্তর সম্পাদক আজিজুল হক আজিজ স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে অব্যাহতির এ তথ্য জানানো হয়। প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, হাজী মনিরুজ্জামান মনিরের কার্যক্রমে দলীয় শৃঙ্খলা ও ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হওয়ায় বাংলাদেশ স্বেচ্ছাসেবক লীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সিদ্ধান্ত মোতাবেক (গঠনতন্ত্রের অনুচ্ছেদ ৩৪ এর- গ উপধারা অনুযায়ী) সংগঠনের সভাপতি নির্মল রঞ্জ গুহ ও সাধারণ সম্পাদক আফজালুর রহমান বাবু'র নির্দেশক্রমে তাকে গাজীপুর মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক এর দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি প্রদান করা হলো। এর আগে গত ২৪ ডিসেম্বর হাজী মনিরুজ্জামান মনিরকে কারণ দর্শানোর নোটিশ (শোকজ) দেওয়া হয়। নোটিশে সংগঠনের নীতি, আদর্শ ও গঠনতন্ত্রবিরোধী কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগ এনে সাত দিনের মধ্যে সেসব অভিযোগের বিষয়ে লিখিত ব্যাখ্যা চাওয়া হয়। অব্যাহতি পাওয়ার পর হাজী মনিরুজ্জামান মনিরের মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

টঙ্গীতে যুগান্তরের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ  গাজীপুরের টঙ্গীতে উৎসবমুখর ও আনন্দঘন পরিবেশে দৈনিক যুগান্তরের ২২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে মঙ্গলবার দুপুরে দক্ষিণ আউচপাড়া হাজী কছিমউদ্দিন পাবলিক স্কুল মাঠে আলোচনা সভা, কেক কাটা, দোয়া মাহফিল ও তবারক বিতরণ করা হয়। অনুষ্ঠানের শুরুতে যুগান্তরের প্রতিষ্ঠাতা যমুনা গ্রুপের স্বপ্নদ্রষ্টা বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলামের স্মরণে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। এরপর তার বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়। এছাড়াও যুগান্তরের প্রকাশক ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী এ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এমপি ও সম্পাদক সাইফুল আলমের দীর্ঘায়ু ও সুস্থ্যতা কামনায় দোয়া করা হয়। দৈনিক যুগান্তরের গাজীপুর সিটি স্টাফ রিপোর্টার এম এম হেলাল উদ্দিনের সভাপতিত্বে ও টঙ্গী পূর্ব থানা প্রতিনিধি মো. আনোয়ার হোসেন এবং পশ্চিম থানা প্রতিনিধি মো. জাকির হোসেনের যৌথ সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা নাজির আহমেদ, টঙ্গী থানা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আলী ভূঁইয়া, সাংবাদিক হাজী এসএম মনির উদ্দিন, মোহাম্মদ আলম, রোমান শেখ, অমল ঘোষ, মৃণাল চৌধুরী সৈকত, আনোয়ার হোসেন পিন্টু, এএসএম মনছুর মাসুদ, রফিকুল ইসলাম, লুৎফুজ্জামান লিটন, পলাশ প্রধান, আবু সালেহ মুছা বাবু, ইফতেখার রায়হান, এসএম গোলাম আজাদ, তাওহিদুল ইসলাম, জসিম উদ্দিন মাস্টার, সুজন সারোয়ার, বদরুল আলম রায়হান, জাহাঙ্গীর আকন্দ। এছাড়াও এনআরবিসি ব্যাংকের টঙ্গী শাখার ব্যবস্থাপক আব্দুল্লাহ আল মামুন, গাজীপুর মহানগর আওয়ামীলীগের উপদেষ্টা কাজী মোহাম্মদ সেলিম, আওয়ামীলীগ নেতা আবুল কাশেম, লিয়াকত আলী খাজা, সেলিম নুর, সৈকত পাঠান, জোবায়ের আহমেদ রিফাত, এম এম নাছির, টঙ্গী পশ্চিম থানা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক বাহারুল ইসলাম ইউনুস, পূর্ব থানার সাধারণ সম্পাদক ওমর ফারুক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে মোনাজাত পরিচালনা করে মাওলানা মুফতি মুছা কালিমুল্লাহ। শেষে উপস্থিত সকলের মাঝে প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর কেক ও তবারক বিতরণ করা হয়।

জেব্রার মৃত্যুর কারণ জানতে সাফারী পার্কে সিআইডি

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরের শ্রীপুরের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারী পার্কে ১১টি জেব্রা, ১টি বাঘ ও ১টি সিংহ মারা যাওয়ার ঘটনায় পার্ক পরিদর্শন করেছে সিআইডি’র বিশেষজ্ঞ একটি টিম। এসময় তারা বিভিন্ন নমুনা সংগ্রহ করেছেন। সোমবার (৭ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে পার্কের কোর সাফারীর আফ্রিকান সাফারীতে এসে তারা নমুনা সংগ্রহ করেন। সিআইডি’র ঢাকা রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি ইমাম হোসেন বলেন, জেব্রা মৃত্যুর কারণ জানতে পার্ক পরিদর্শন করে খাবারসহ যে স্প্যাম্পল গুলো প্রয়োজন মনে করেছি তা সংগ্রহ করে নিয়েছি। প্রাণীদের বাসস্থান, তাদের যারা দেখশোনা করেছেন তাদের সাথে কথা বলে প্রয়োজনীয় তথ্য নিয়েছি। আমরা আসলেই চাই, আমাদের সিআইডি’র যে বিশ্বমানের ফরেনসিক ল্যাব, বায়ো ল্যাব আছে, সেগুলোর যথাযথ ব্যবহার করে আসেলই কি কারণে এত পশু মারা গেল? সে বিষয়টি উদঘাটন করার চেষ্টা করবো। প্রাণী মৃত্যুর ঘটনায় ক্রিমিনাল এ্যাক্টিভিটিজ কারও ছিল কিনা, ক্রিমিনাল ইনটেনশন ছিল কিনা, অপরাধ মানসিকতা কাজ করেছে কিনা? ওই বিষয় গুলোও আমরা দেখবো। আমরা তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ করেছি, আমরা এগুলো বিচার বিশ্লেষন করে একটা হয়তো সিদ্ধান্তে আসতে পারবো। আসলে কি হয়েছিল, কেন হয়েছিল এবং এরকম ঘটনা যাতে আর না ঘটে। আমরা ১২/১৩টি স্প্যাম্পল নিয়েছি, তা সিআইডি’র ল্যাবে পরীক্ষা করে মৃত্যু কারণ খুঁজে বের করা হবে। গাজীপুর সিআইডির সহকারী পুলিশ সুপার মোঃ আরজু মিয়া জানান, ঢাকার সিআইডি’র প্রধান কার্যালয় থেকে ফরেনসিক বিভাগের বিশেষ পুলিশ সুপার ডাঃ রেজাউল করিম খানসহ একটি দল দুপুরে সাফারী পার্কের বেস্টনীতে প্রবেশ করে। সিআইডি’র টিম প্রাণীদের খাবার , বাসস্থানসহ বিভিন্ন ধরনের নমুনা সংগ্রহ করে বিকেলে পার্ক থেকে বের হন। সিআইডি টিম সংগৃহীত নমুনা ও মৃত প্রাণীর দেহের নমুনা পরীক্ষা—নিরীক্ষা করবেন। পরীক্ষার ফলাফল মন্ত্রণালয়ের গঠিত তদন্ত কমিটির কাছে হস্তান্তর করবে সিআইডি। এসময় উপস্থিত ছিলেন, সিআইডির বিশেষ পুলিশ সুপার ফরেনসিক ডাঃ রেজাউল করিম খান, গাজীপুর সিআইডির পুলিশ সুপার রিয়াজুল হক, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা) অঞ্জন কুমার, জেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ উকিল উদ্দিন, শ্রীপুর উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ রুকনুজ্জামান পলাশ, সাফারী পার্কের প্রকল্প পরিচালক মোল্ল্যা রেজাউল করিমসহ পার্কের  কর্মকর্তাগণ।

গাজীপুরে বিপুল পরিমান মাদকসহ ৬ মাদক ব্যবসায়ী আটক।

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুর মহানগরীর গাছা থানা এলাকা থেকে ৮২.৫কেজি গাঁজাসহ ০৬ জন মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে র‌্যাব-১। এসময় তাদের কাছ থেকে ০১টি ট্রাক, ০১টি প্রাইভেটকার, ০৮টি মোবাইল ফোন এবং নগদ ১০হাজার ২শত টাকা উদ্ধার করা হয়। শুক্রবার ৪ ফেব্রুয়ারি দুপুরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কুনিয়া বড়বাড়ি এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়। একই দিন সন্ধ্যায় র‍্যাব-১ এর সহকারী পরিচালক নোমান আহমদ সাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য নিশ্চিত করা হয়। আটককৃতরা হলো, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার মৃত আব্দুর রশিদ ভুঁইয়ার ছেলে মোঃ বরকত উল্লাহ (৩৪), একই জেলার মোঃ রফিক মিয়ার ছেলে আবুল বাশার ওরফে সফিউল (২৮), মোঃ এমরান হোসেনের ছেলে মোঃ সজল (২৩), সুজন মিয়ার ছেলে তোফাজ্জল হোসেন(২০), সেলিম মিয়ার ছেলে বিপুল হোসেন(২০), ও কুমিল্লা জেলার জয়নাল হোসেনের ছেলে মোঃ জাহিদুল ইসলাম (২৫)। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, তারা একটি সংঘবদ্ধ মাদক ব্যবসায়ী চক্রের সক্রিয় সদস্য। তারা দীর্ঘদিন যাবত পরষ্পর যোগসাজশে কৌশলে বিভিন্ন পণ্যবাহী গাড়িতে করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা থেকে অবৈধ মাদকদ্রব্য গাঁজা সংগ্রহ করে গাজীপুরসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় পাইকারী মূল্যে ক্রয়-বিক্রয় করে আসছিল। আটককৃত আসামীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে গাজীপুর মহানগর যুবলীগ

গাজীপুর প্রতিনিধিঃ গাজীপুর মহানগরীর ১নং ওয়ার্ড জিরানী পানিশাইল এলাকায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে মার্কেটসহ ক্ষতিগ্রস্ত ১৪টি পরিবারের পাশে দাড়িয়েছে গাজীপুর মহানগর যুবলীগ। শুক্রবার ৪ ফেব্রুয়ারি বিকেলে ১নং ওয়ার্ড যুবলীগের আহবায়ক বুলবুল আহম্মেদ কাফির নেতৃত্বে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে জরুরি ভিত্তিতে মানবিক খাদ্য সহায়তা পৌঁছে  দেন ওয়ার্ড যুবলীগের নেতাকর্মীরা। এসময় উপস্থিত ছিলেন ১নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি ডাঃ খলিলুর রহমান সহ ওয়ার্ড যুবলীগের নেতাকর্মীবৃন্দ। ওয়ার্ড যুবলীগের আহবায়ক বুলবুল আহম্মেদ কাফি বলেন, গাজীপুর মহানগর যুবলীগের আহবায়ক আলহাজ্ব মোঃ কামরুল আহসান সরকার রাসেল এর নির্দেশে আমরা অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছি। এছাড়া  যুবলীগ যেকোন দূর্যোগপূর্ণ মুহুর্তে জনগনের পাশে আছে থাকবে ইনশাআল্লাহ।

এবার বঙ্গবন্ধু সাফারী পার্কে অসুস্থ সিংহীর মৃত্যু

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ   গাজীপুরের শ্রীপুরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারী পার্কে এবার এক সিংহীর মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুর ১টায় পার্কের কোর সাফারী পার্কের আফ্রিকান সাফারীতে অসুস্থ এ সিংহীর মৃত্যু হয়। সিংহীর বয়স আনুমানিক ১১বছর। অসুস্থ হয়ে সিংহীটি মারা গেছে বলে নিশ্চিত করেছেন পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য অফিসার দীপংকর বর। দীপংকর বর জানান, গত বছরের ১১আগস্ট সিংহীটির প্রথম অসুস্থতা শনাক্ত হয়। সিংহীর পেটের নিচে পানি জমে থলির মত ঝুলে থাকতে দেখা যায়। বিভিন্ন সময়ে সিংহীটির বাম পায়ে সমস্যা দেখা দেয়, মুখ দিয়ে রক্ত বের হয় এবং শ্বাসকষ্টজনিত লক্ষণ দেখা যায়। সিংহীটির অসুস্থতা শনাক্ত হওয়ার পর থেকে নিয়মিতভাবে মিরপুরের জাতীয় চিড়িয়াখানার সাবেক কিউরেটর ডাঃ এবিএম শহীদ উল্ল্যাহ, ময়মনসিংহের বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেটেরিনারী সার্জারি বিভাগের পরিচালক প্রফেসর ডঃ মোঃ রফিকুল আলম এর পরামর্শ মোতাবেক পার্কের ভেটেরিনারী অফিসার চিকিৎসা প্রদান করতে থাকে। বুধবার (০২ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে সিংহীটি চার পা ঝাঁকুনি দিয়ে শুয়ে কাঁপতে থাকে। এসময় পার্কের ভেটেরিনারী সার্জন ডাঃ মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান চিকিৎসা দেন। পরে বৃহস্পতিবার (৩ ফেব্রুয়ারি) সকাল থেকে আগের মতই শ্বাসকষ্ট শুরু হলে দুপুর একটার দিকে সিংহীটি মারা যায়। এর আগে গত ২ জানুয়ারি থেকে ২৪জানুয়ারি পর্যন্ত সাফারী পার্কের কোর সাফারী আফ্রিকান সাফারীর ভেতর ১১টি জেব্রা ও একটি বাঘ মারা যায়। জেব্রা ও বাঘের মৃত্যুর প্রকৃত কারণ উদঘাটন এবং দায়িত্বে অবহেলাকারীদের সনাক্তকরণের লক্ষ্যে গঠিত মন্ত্রণালয়ের তদন্ত কমিটির সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে গত ৩১জানুয়ারি পার্কের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সহকারী বন সংরক্ষক তবিবুর রহমান ও সাফারি পার্কের ভেটেরিনারী অফিসার ডাঃ হাতেম সাজ্জাদ মোঃ জুলকারনাইনকে বন অধিদপ্তরের সদর দপ্তরে সংযুক্ত করা হয়। তবিবুর রহমানের স্থলে ফরিদপুর বন বিভাগের সহকারী বন সংরক্ষক রফিকুল ইসলামকে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও ডাঃ হাতেম সাজ্জাদ মোঃ জুলকারনাইনের স্থলে কক্সবাজারের চকোরিয়ার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারী পার্কের ভেটেরিনারী অফিসার ডাঃ মোস্তাফিজুর রহমানকে দায়িত্ব দেয়া হয়। বুধবার পার্কের প্রকল্প পরিচালককেও তাঁর দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দিয়ে বন্যপ্রাণী ও প্রকৃতি সংরক্ষণ অঞ্চল, ঢাকা এর বন সংরক্ষক (চলতি দায়িত্ব) মোল্যা রেজাউল করিমকে তার নিজ দায়িত্বের অতিরিক্ত হিসেবে প্রকল্প পরিচালকের দায়িত্ব প্রদান করা হয়েছে।

শ্রীপুরে পুলিশ একাদশকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন সাংবাদিক একাদশ

বি এ রায়হান, গাজীপুরঃ গাজীপুরের শ্রীপুরে পুলিশ একাদশ বনাম সাংবাদিক একাদশের মধ্যকার খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। খেলায় ২০৭ রানের টার্গেট নিয়ে পুলিশ একাদশকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে সাংবাদিক একাদশ। বুধবার (২জানুয়ারি) শ্রীপুর পৌর এলাকার গ্রীণ ভিউ রিসোর্ট এন্ড গলফ ক্লাবে এ খেলা অনুষ্ঠিত হয়। শ্রীপুর থানায় কর্মরত পুলিশ ও শ্রীপুর উপজেলার সাংবাদিকরা খেলায় অংশগ্রহণ করেন। দু’দলই তাদের নৈপুন্য প্রদর্শন করে একটি সুন্দর খেলা উপহার দেন। খেলায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, শ্রীপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা খোন্দকার ইমাম হোসেন। সাংবাদিক একাদশের অধিনায়ক বাংলাদেশ প্রতিদিন পত্রিকার শ্রীপুর প্রতিনিধি মাহবুবুর রহমান বলেন, টসে্ জিতে সাংবাদিক একাদশ ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেয়। সাংবাদিক একাদশের খেলোয়াড়বৃন্দের নৈপুন্যতায় ২০ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে পুলিশ একাদশ ২০৭রান সংগ্রহ করেন। ২০৮রানের টার্গেটে খেলতে নেমে সাংবাদিক একাদশ ১ উইকেট হারিয়ে ১৮ ওভারে তাদের লক্ষ্যে পৌঁছাতে সক্ষম হয়। খেলা শেষে প্রধান অতিথি বিজয়ী ও রানার্স আপ দলের মাঝে ট্রফি বিতরণ করেন।